Logo
আজঃ বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪
শিরোনাম

ভারতীয় রোগীরাও চিকিৎসা নিচ্ছেন বাংলাদেশে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ০৯ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ২৩৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন  মনে করেন,বাংলাদেশের চিকিৎসকদের মান বিশ্বের কোনো দেশের চিকিৎসকদের তুলনায় কম নয়।

শনিবার (৯ মার্চ) সকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, হাঙ্গেরি থেকে চিকিৎসক এনে আমরা জোড়া শিশুর অপারেশন করেছি। আমি দেখেছি বাচ্চাদের যখন এনেস্থিসিয়া দেওয়া হয়, তখন হাঙ্গেরির চিকিৎসকরা কিন্তু পারেনি, পেরেছে বাংলাদেশের চিকিৎসকরাই। কাজেই আমি বিশ্বাস করি আমাদের চিকিৎসকরা কোনো দেশের তুলনায় কম নয়।

ডা. সামন্ত লাল বলেন, আমাদের চিকিৎসকদের যে ভালো মেধা আছে, তার অসংখ্য প্রমাণ আমার কাছে আছে। ভুটান থেকে রোগী এসে আমাদের এখানে চিকিৎসা নিচ্ছে। শুধু যে রোগী বাইরে যাচ্ছে এরকম নয়, ভারত থেকে আমাদের দেশে অসংখ্য রোগী আসছে।

মন্ত্রী বলেন, চিকিৎসকরাই হলো ভবিষ্যতের আসল কাণ্ডারি। ডাক্তার-রোগীর সম্পর্ক অনেক কিছুর উপর নির্ভর করে। এটি শুধু ডাক্তারের উপরই নির্ভর করে না। একটা হাসপাতালে ভালো চিকিৎসা সেবা হাসপাতাল পরিচালক, নার্স, ওয়ার্ডবয় ও পরিচ্ছন্নতাকর্মীসহ সবার উপরই নির্ভর করে। সবার সমন্বিত প্রয়াসেই চিকিৎসা সেবার সুনাম বৃদ্ধি করে।

ডা. সামন্ত লাল বলেন, আমরা সময়মতো হাসপাতালে যাব আসব। সাধারণ মানুষের সেবায় নিজেকে উজাড় করে দেব। আমাদের সাধারণ মানুষ কিন্তু খুব বেশি কিছু চায় না, শুধু একটু গায়ে হাত দিয়ে কথা বলা, সুন্দর করে একটু কুশলাদি বিনিময় করলেই কিন্তু তারা খুশি।


আরও খবর



জনগণের সেবা নিশ্চিত করলে ভবিষ্যতে ভোটের চিন্তা থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ১৩৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:জনগণের সেবা নিশ্চিত করতে পারলে ভবিষ্যতে ভোটের চিন্তা থাকবে না,বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা । জনগণের উন্নয়নের লক্ষ্য নিয়েই কাজ করে আওয়ামী লীগ। লক্ষ্য স্থির রেখে পরিকল্পনার জন্যই দেশে দারিদ্র্যতা হ্রাস পেয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) কুমিল্লা ও ময়মনসিংহ সিটির মেয়র কাউন্সিলরদের শপথ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, চিকিৎসাসেবা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার জন্য জাতির পিতা প্রথমে ইউনিয়ন পর্যায়ে দশ শয্যার হাসপাতাল তৈরি করার ব্যবস্থা নিয়েছিলেন। তিনি সম্পন্ন করতে পারেননি। আমি সরকারে আসার পর কমিউনিটি ক্লিনিক করলাম। স্থানীয় লোক সেখানে জমি দেয়, আমরা ভবনের ব্যবস্থা করা, চিকিৎসার সরঞ্জামের ব্যবস্থা করা, স্বাস্থ্যকর্মী প্রশিক্ষণ দিয়ে সেখানে নিয়োগ দেই। ৩০ ধরনের ওষুধ আমরা বিনামূল্যে দিচ্ছি।

তিনি বলেন, আপনারা জনপ্রতিনিধি হিসেবে এসবের দিকে নজর দেবেন। স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলো সঠিকভাবে চলছে কিনা তার খবর রাখবেন। মানুষ চিকিৎসা সেবা পাচ্ছে কিনা। মানুষ সেবা পাওয়াটাই বড় কথা।

নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা জনগণের ভোটে নির্বাচিত। জনগণের সেবা নিশ্চিত করতে পারলে ভবিষ্যতে ভোটের কোনো চিন্তা থাকবে না। মানুষ আপনাদের ওপর আস্থা রাখবে, বিশ্বাস রাখবে। এই কথাটা আপনারা মাথায় রাখবেন। জনসেবার দিকে বিশেষ দৃষ্টি দেবেন, সেটাই আমরা চাই।

এর আগে প্রধানমন্ত্রীর কাছে শপথ নেন ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র ইকরামুল হক (টিটু) ও কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. তাহসীন বাহার সূচনা। এ সময় শপথ নেন কুড়িগ্রাম, ঠাকুরগাঁও, সিরাজগঞ্জ, ব্রাক্ষণবাড়িয়া ও হবিগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান। এ ছাড়া স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলামের কাছে শপথ নেন ময়মনসিংহ সিটির ৪৪ জন কাউন্সিলর।


আরও খবর



নতুন দুই সেতু ও ৮ ওভারপাসের চলাচলের জন্য উন্মুক্ত

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ এপ্রিল ২০২৪ | ৭৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের মেঘনা টোল প্লাজায় ১২টি বুথে ইলেকট্রনিক টোল কালেকশন (ইটিসি) কার্যক্রম চালু করা হয়েছে। অন্যদিকে এলেঙ্গা-হাটিকমরুল-রংপুর মহাসড়কে নির্মিত একটি রেল ওভারপাস, ৭টি ওভারপাস ও দু’টি সেতু যানবাহন চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করেছেন।

শনিবার (৬ এপ্রিল) সকালে সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এগুলো উন্মুক্ত করেন তিনি।

পরে সেতুমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ঘরমুখো যাত্রীদের নির্বিঘ্নে যাতায়াতের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে জনগণের জন্য ঈদ উপহার হিসেবে এসব উন্মুক্ত করা হলো।

ওবায়দুল কাদের বলেন, রাস্তায় গাড়ির চাপ রয়েছে, তবে যানজট নেই। রাজধানীতেও যানজট নেই। এ সময় বান্দরবানে চলমান সমস্যা নিয়েও কথা বলেন মন্ত্রী। তিনি বলেন, বান্দরবানে এখন যৌথ অভিযান চলছে। শিগগিরই এসব নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে। ‘পাহাড়ের সর্বত্র অনেক রাস্তা ও সেতু নির্মাণ হলেও এখনো অনেক বিচ্ছিন্ন এলাকা রয়েছে। শিগগিরই এসব বিষয় নিয়ন্ত্রণে আসবে বলে আশা করছি’, যোগ করেন কাদের।


আরও খবর



দোয়ারাবাজারের এক কিশোরী ধর্ষন ক‌রে গুম করার অভিযোগ

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ৫৯জন দেখেছেন

Image

র‌নি ছাতক সুনামগঞ্জ প্রতি‌নি‌ধি:সুনামগ‌ঞ্জের দোয়ারাবাজারে এক কিশোরী ধর্ষনের ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার অভিযোগের ঘটনায় জেলাজু‌ড়েই ব‌্যাপক তোলপাড় সৃ‌ষ্টি হ‌য়ে‌ছে।  এ ঘটনায় জনম‌নে নানা প্রশ্ন দেখা দি‌য়ে‌ছে।

কি‌শোরী নিযাত‌নের ঘটনার ছয় দিন অতিবাহিত হলেও এখ‌নো কি‌শোরী সন্ধান মিলছে না ব‌লে এলাকাবাসীর অ‌ভি‌যোগ ক‌রে‌ছেন।  গত ১১ এপ্রিল রাতে দোয়ারবাজার উপ‌জেলার বাংলাবাজার ইউপির মৌলার পাড় আপনের টিলা নি‌য়ে পালাত্রু‌মে  কি‌শোরী্র উপর অমানবিক নিয়া‌ত‌নের ঘটনা ঘ‌টে।

এলাবাসীর সুত্রে জানা যায় ১০ এপ্রিল সন্ধ্যায় তার  বাড়ি থেকে রাগ করে বের হয়ে বাঘমাড়া বাজারে
চ‌লে যায়। প‌রে কি‌শোরী‌কে স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য কালামের বাড়িতে নিয়ে যান।  সেখানে কালাম মেম্বার কিশোরীর ঠিকানা জিজ্ঞেস করলে এ সময়  কিশোরী জানায় তার বাড়ি বাঁশতলা শহীদ মিনার কলোনীর মৃত- সাইফুল ইসলামের কন‌্যা ।

তখন কালাম মেম্বারের পাশে বাড়ির ছেলে আব্দুল কুদ্দুছ ওরফে মটোকে মোবাইল ফোনে মেয়ের বিষয়টি অবগত ক‌রেন।

আব্দুল কুদ্দুছ ঐ কিশোরীর পরিচয় নিশ্চিত করে   ১১ এপ্রিল কিশোরীকে আব্দুল কুদ্দুছের মাধ্যমে তার বাড়িতে পৌছি‌য়ে দেয়ার দায়িত্ব দেন ইউপি সদস্য।

আব্দুল কুদ্দুছ এ কিশোরীকে বাড়ি না দি‌য়ে এলাকার কুখ‌্যাত চোরাকারবা‌রি বখাটে জনৈক জুটনের কাছে তো‌লে দেন।

এরপর জুটন মেয়েটাকে তার বা‌ড়ি না দি‌য়ে  মৌলারপাড়স্ত আপনের টিলার উপরে নি‌য়ে জোরপু্বক ঐ কিশোরীকে সন্ধ্যা থেকে রাত ভর পালাত্রু‌মে ধর্ষন ক‌রেন জুটন সহ তার দুই সহযোগিরা।

সেখান থেকে রাত ৩টার দিকে  মেয়েটা পালিয়ে পুনরায় সা‌বেক কালাম মেম্বার বাড়িতে এসে অবস্থান নেন।  এরপর কালাম মেম্বারেকে তার স‌ঙ্গে সব কিছু খুলে বলেন কি‌শোরী। তাৎক্ষনিক সা‌বেক কালাম মেম্বার স্থানীয় সংবাদ কর্মীদের খবর দিলে সে কয়েকজন সংবাদ কর্মী সেখানে উপস্থিত হয়ে এ কিশোরীর জবানবন্দী রেকর্ড করেছি‌লেন।

পরে তাদের মাধ‌্যমে দোয়ারবাজার থানায় নিয়ে যান। থানায় যাওয়ার পর আসামির পক্ষ নেন পু‌লিশ।  থানার ও‌সির স‌ঙ্গে আসামী‌দের বড় অংকের টাকার বি‌নিময় রফা দফার মাধ‌্যমেই অ‌লি‌খিত চু‌ক্তি হয়। পু‌লিশ ঘটনা‌টি চাপা দি‌য়ে নিযা‌তিত কি‌শোরীকে ভয়‌ দে‌খি‌য়ে তার চাচার জিন্মায় দেয়া হয়। এরপর থেকে ঐ ধর্ষিতা কি‌শোরীকে আড়াল করে রাখা হচ্ছে। এলাকাাসীর ধারনা করা হচ্ছে বড় অংকের টাকার বিনিময়ে বিষয়টি থানায় পু‌লিশ ধামাচাপা দেয়ার অ‌ভি‌যোগ ক‌রেন। ধর্ষনের মত এ ঘটনার অভিযোগ পাওয়ার পর তাকে ডাক্তারী পরিক্ষা নিরিক্ষা ছাড়া মা বাবা বিহিন অসহায় কিশোরীকে গুম করে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ ক‌রেন এলাকাবাসী লোকজন।

এব‌্যাপা‌রে ছাতক দোয়ারবাজার সা‌কেল সহকা‌রি পু‌লিশ সুপার রণজয় চন্দ্র মল্লিক, জানান,এঘটনার খোজ খবর নি‌য়ে ভিকটিম উদ্ধার ক‌রে আইনানুগত ব‌্যবস্থা নেয়া হ‌বে।


আরও খবর



বগুড়া ফটো জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশনের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ৯৩জন দেখেছেন

Image

বগুড়া বিশেষ প্রতিনিধি:বগুড়া ফটো জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশনের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে শহরের স্থানীয় একটি চাইনিজ রেস্টুরেন্টে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সংগঠনের সভাপতি আব্দুর রহিমের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বগুড়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহমুদুল আলম নয়ন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, এক টেবিলে বসার সুযোগ করেছে ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন। বগুড়া ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন কর্মরত ফটো সাংবাদিকদের একমাত্র সংগঠন। এই এসোসিয়েশনের প্রতিটি কার্যক্রম প্রশংসার দাবিদার। এ ধরনের আয়োজনে সহনশীলতা ও পরমতসহিষ্ণুতা আরো বৃদ্ধি পাবে।

তিনি আরও বলেন, সংবাদপত্র সমাজের দর্পণ। দেশের মানুষ সংবাদপত্রের মাধ্যমে সমাজের প্রতিচ্ছবি দেখতে পায়। আর এ কাজটি করতে যারা অসামান্য অবদান রাখেন তারা ফটো সাংবাদিক। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তারা যে ভাবে কাজ করেন তা দেশ ও জাতি গঠনে নিঃসন্দেহে গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।

এসময় তিনি রমজান মাসের সংযমের শিক্ষাকে কাজে লাগিয়ে দেশ ও জনগণের সেবায় আত্মনিয়োগের আহবান জানান।

ফটো জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কাওছার উল্লাহ আরিফের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বগুড়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন মিন্টু, বগুড়া সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি জেএম রউফ, সাধারণ সম্পাদক মাছুদুর রহমান রানা, সাংবাদিক ইউনিয়ন বগুড়া এর সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ, সূচনা কম্পিউটারের স্বত্তাধিকারী নাজমুল হক সোহেল, বগুড়া প্রেসক্লাবের দপ্তর সম্পাদক ও ফটো জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শফিউল আজম কমল। এসময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সাবেক সভাপতি আসাফুদ্দৌলা ডিউক, সহ-সভাপতি আব্দুল লতিফ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আল মুমিন, কোষাধ্যক্ষ মামুনুর রশিদ মামুন, প্রদর্শনী সম্পাদক জাফর আহম্মেদ মিলন, কার্যনির্বাহী সদস্য সাবু ইসলাম, সদস্য মহিত উল আলম মিলন, মোমিন জিল্লু, শফিকুল ইসলাম শফিক, বজলুর রশিদ সুইট, আব্দুস সালাম, সাইফুল ইসলাম, সোহেল রানা, বিমু রহমান, সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, আল আমিন,। ইফতার পূর্বে দেশ ও জাতির কল্যান কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। দোয়া পরিচালনা করেন বগুড়া বায়তুর রহমান সেন্ট্রাল জামে মসজিদের ইমাম মাওঃ বেলায়েত আলী।


আরও খবর



সুন্দরগঞ্জে জমিনিয়ে বিরোধে নিহত-১,আহত-১

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ১১১জন দেখেছেন

Image

একেএম,শামছুল হক,সুন্দরগঞ্জ,(গাইবান্ধা)প্রতিনিধিঃসুন্দরগঞ্জ উপজেলার  ধোপাডাঙ্গা ইউনিয়নের বাসিন্দা মৃত মিয়া ছেলে আজিজুল ইসলাম (৫৩),সাং-বজরা হলদিয়া চৌধুরী বাজার,ওয়ার্ড নং ০১,থানা সুন্দরগঞ্জ, জেলা গাইবান্ধা  এর সহিতএকই গ্রামের মৃত মোসলেম ক্বারীর ছেলে অপরাধী ফারুক মিয়া(২৮), মৃত জহুরুলের ছেলে শহিদুল ইসলাম (৪০)মৃত আব্দুলের ছেলে সিদ্দিক এর দীর্ঘদিন যাবত পারিবারিক ৪৫ শতক জমি নিয়ে ঝুট ঝামেলা চলে আসিতেছিল।

আজ সকাল আনুমানিক ১১:৩০ ঘটিকার সময় ভিকটিম  আজিজল ইসলাম নিজ বাড়িতে কাজ  করিতেছিলেন, ভিকটিমের বাড়ির গলিতে আসিয়া অপরাধী ব্যক্তিগণ ভিকটিম আজিজল ইসলামকে  ডাকাডাকি করিলে ভিকটিম আজিজুল ইসলাম গলির মধ্যে গেলে উক্ত অপরাধীর ব্যক্তিগণ আজিজুল ইসলামের মাথা,শরীর ও  পায়ের বিভিন্ন স্থানে ছুরি দিয়ে আঘাত করিলে ভিকটিম আজিজল ইসলাম গুরুতব আঘাত পাইয়া মাটিতে পড়িয়া যান, পরিবর্তীতে সোহেল মিয়া (৩০),পিতা মৃত আব্দুল আজিজ এর ছেলে আগাইয়া আসলে অপরাধী ব্যক্তিগণ সোহেল মিয়ার মাথায় ও পাছায় ধারালো ছুরি দিয়ে আঘাত করিলে স্থানীয় লোকজন দেখিতে পাইয়া চিৎকার চেঁচামেচি করলে পরিবারের লোকজন ভিকটিম আজিজুল ইসলামকে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে লইয়া আসলে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা কর্তব্যরত চিকিৎসক আজিজুল ইসলামকে মৃত ঘোষণা করেন।   

পরবর্তীতে স্থানীয় লোকজন সুন্দরগঞ্জ থানা পুলিশকে সংবাদ দিলে সুন্দরগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনা স্থলে উপস্থিত হইয়া প্রয়োজনে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করেন। থানা এলাকায় গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত আছে। বর্তমানে থানা এলাকার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রহিয়াছে।


আরও খবর