Logo
আজঃ বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪
শিরোনাম

"নোবেলের ম্যাজিক শুধু প্রতারণা"

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ২২৯জন দেখেছেন

Image

রমজান আলীঃ

দুনিয়ার প্রাচুর্যশালী ব্যক্তিবর্গ, সংস্থা, খ্যাতিমান,এর কীর্তি,তথ্য, উপাত্ত দিয়ে তৈরি করে বিশেষ বিবেচনার জন্য। মহৎ মানুষের গভীর ক্রন্দন থেকে সারা জীবনের সঞ্চয়ী সকল অর্থ দান করে গেলেন মানব কল্যাণার্থে। যিনি রেখে গেলেন তিনি আজ বিতর্কিত। য আলফ্রেন্ড নোবেল পৃথিবীর তাবৎ মানুষের মনের মনি কোঠায় স্থান করে রয়ে গেল এবং তার পূর্ববর্তী বা পরবর্তী প্রজন্মের চিলি কোঠায়। ভারত উপমহাদেশে প্রথম ১৯১৩ সালে সাহিত্যের এক অঙ্গে গীতাঞ্জলির জন্য রবীন্দ্রনাথ প্রথম নোবেল প্রাইজ এ নির্বাচিত হন। আমরা ভারতবাসী গভীর আপ্লুত, গর্বিত। নন্দিত নায়ক রবি ঠাকুর বাংলা ভাষাকে বিশ্ব দরবারে স্থান করে নেওয়ায় কোটি প্রণাম। বিশ্বকবি রবি ঠাকুর কবি,নাট্যকার, ছড়াকার, গীতিকার ছিলেন। উপরন্ত তাকে স্বভাব কবি ও বলা হয়। ভারত উপমহাদেশে তিনজন স্বভাব জন্মেছিলেন। তারা হলেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কাজী নজরুল ইসলাম ও কবি গোবিন্দ্র নাথ। তারা কাগজ কলম হাতে নিলেই কলম যোদ্ধা হয়ে যান। এইজন্য এই তিনজনই স্বভাব কবি হয়েছেন। কবি কাজী নজরুল ইসলাম ২০০ কোটি মুসলিমের প্রতিনিধিত্ব করে কবিতা লিখে জেল খেটেছেন, এমন নজির পৃথিবীর ইতিহাসে আর নেই।

"রমজানের ওই রোজার শেষে এলো খুশির ঈদ"এই গান টি তো শিক্ষা সংস্কৃতিতে পড়ে। ভাষার জন্য শহীদ হয়েছেন তার দৃষ্টান্ত তো পৃথিবীর ইতিহাসে আর কারো নাই। কিন্তু উনারা মুসলিম হওয়ায় তার নজর করেনি পৃথিবীর কোন সংস্থায়। নজর কারেণি বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য। যিনি প্রায় ৪৪ বছর পর্যন্ত দলনেত্রী, পঞ্চম বারের মত একটি দেশের প্রধানমন্ত্রী যা ইন্দিরা গান্ধীর থেকেও প্রায় ১০ বছর বেশি ক্ষমতা আরোহণ করে আসছেন। কিন্তু এই বাঙালি নেত্রী নাকি বিশ্বের ২২ তম ক্ষমতাধর নারী। যদি উনি ইউরোপ বা আমেরিকার কোন অখ্যাত দেশের নেত্রী ও হতেন তাহলে একাধিকবার নোবেল পুরস্কারে ভূষিত হতেন। তবে ডক্টর ইউনুস এর জন্য তাদের দরদের কমতি নেই। যদিও আরেকবার নোবেল উপাধি দেওয়া যায় কিনা সেই ব্যাপারে তদবির করা উচিত। আমাদের সন্ত্রাসী প্রতিবেশী মিয়ানমার তারা যে নারকীয় হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছিল তার প্রতিবাদ না করে আমাদের ধনাঢ্য প্রতিবেশীরাও কৌশলে চুপ করেছিলেন। রোহিঙ্গা মুসলিমরা দুনিয়ার কেয়ামত দেখে দিগ্বিদিক হারিয়ে এই বাংলায় আশ্রয় নিয়েছিল। ১৫ লক্ষ মুসলিমকে জীবিত অবস্থায় আশ্রয় দিয়ে যে নজির বাংলার প্রধানমন্ত্রী স্থাপন করলেন তাকে শতবার নোবেল পুরস্কারে ভূষিত করা উচিত। ৭২ টি বাংলাদেশের সমান কানাডা সেখানেও কি এই রোহিঙ্গাদের স্থান দিতে পারতো না? অথবা ৩৮ টি বাংলাদেশের সমান দেশ নিয়ে আমাজান বন সৃষ্টি সেখানে কি এই অসহায় রোহিঙ্গাদের স্থান হতো না? কারণ আশ্রয় প্রার্থীরা সবাই মুসলিম, সেজন্যই এত অবহেলা। ভাই আমরা এই বিবেকহীন বিচারকদের ঘৃণা করি। তামাশার বিচার ব্যবস্থা মানি না, ভুয়া জাতিসংঘ মানি না।


আরও খবর

ভালোবাসার দিন আজ

বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




সরকার ২৩ নাবিককে উদ্ধারে অনেক দূর এগিয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ১০৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:সোমালিয়ার জলদস্যুদের হাতে ভারত মহাসাগরে ২৩ নাবিকসহ জিম্মি বাংলাদেশি জাহাজ এমভি আবদুল্লাহ মুক্ত করার বিষয়ে সরকার অনেক দূর এগিয়েছে,বলেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেন, আমরা যোগাযোগের মধ্যে আছি। নাবিকদেরকে রিলিজ করার করার জন্য আমরা নানামুখী তৎপরতা চালাচ্ছি। আমাদের উদ্দেশ্য হচ্ছে, নাবিকদের আনহার্ট (কোনো ক্ষতি যেন না হয়) অবস্থায় উদ্ধার করা এবং একইসঙ্গে জাহাজটা উদ্ধার করা।

বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সমসাময়িক বিষয়ে করা ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান মন্ত্রী।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, খাদ্য সংকট অতীতে যখন জাহাজ হাইজ্যাক হয়েছে তখনও হয়নি। তিন বছর ছিল তখনও হয়নি, ১০০ দিন ছিল তখনও হয়নি। আশা করি এক্ষেত্রেও হবে না।

এদিকে, সীমান্ত হত্যা বন্ধে আগেই বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ভারতকে অনুরোধ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, ২ বাংলাদেশি ভারত সীমান্তে অবৈধভাবে ঢুকে পড়েছিল, তাই বিএসএফ গুলি করে। বিজিবি এর প্রতিবাদ জানিয়েছে, পতাকা বৈঠক হয়েছে। তবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এ ঘটনায় এখনো কোনো প্রতিবাদ জানানো হয়নি বলে জানান মন্ত্রী।


আরও খবর



ওয়াপদা কলোনি কল্যাণ সমিতির উদ্যোগে ইফতার ও দোয়া মাহফিল

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ এপ্রিল ২০২৪ | ১৭৭জন দেখেছেন

Image

মুশফিকুর রহমানঃরাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানাধীন  ওয়াপদা কলোনি কল্যাণ সমিতির উদ্যোগে  ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। শুক্রবার ৫ এপ্রিল এই কর্মসূচি পালিত হয়।এতে সভাপতিত্ব করেন ওয়াপদা কলোনী কল্যাণ সমিতির সভাপতি গাজী আজিজুর রহমান,প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডেমরা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকা- ৫ আসনের নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মশিউর রহমান মোল্লা সজল । বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৫০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহাজ্ব মাসুম মোল্লা। অন্যান্যর মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন  যাত্রাবাড়ী ওয়াপদা কলোনি কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন দিলু ,সাবেক সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান মোঃ ইউনুস  , সাবেক সভাপতি আলমগীর  সহ কল্যাণ সমিতির অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।ইফতার ও  দোয়া  মাহফিল অনুষ্ঠানে সঞ্চালনা করেন মজিবুল হক। এ সময় ইফতার মাহফিলে আগত অতিথিদের নিয়ে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।



আরও খবর



ইরানের হামলার পর বাইডেন-নেতানিয়াহু ফোনালাপ

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ এপ্রিল ২০২৪ | ৭০জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে ফোনালাপ করেছেন ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু,ইসরাইলি ভূখণ্ড লক্ষ্য করে ইরানের হামলার পর।

রোববার (১৪ এপ্রিল) সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় জানায়, মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রীর ফোনালাপ হয়েছে। ইসরাইলে ইরান হামলা চালানোর পর দুই নেতার মধ্যে এটাই প্রথম ফোনালাপ। এক বিবৃতিতে ইসরাইলে ইরানি হামলার শক্ত ভাষায় নিন্দা জানিয়েছেন বাইডেন। বিবৃতিতে তেল আবিবকে ওয়াশিংটনের লোহবর্মের মতো সুরক্ষা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি পুর্নব্যক্ত করেন বাইডেন। এই অঞ্চলে মার্কিন বাহিনী এবং তাদের কোনো স্থাপনা ইরানের লক্ষ্যবস্তু না হলেও সমস্ত হুমকির বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র সতর্ক রয়েছে বলে বিবৃতিতে বলা হয়। বাইডেন বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ইরানের দিক থেকে আসা সব ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র ভূপাতিত করতে ইসরাইলকে সহায়তা করেছে। গত সপ্তাহে ওই অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বিমান ও ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র বিধ্বংসী ব্যবস্থাকে নির্দেশনা দিয়েছিলেন জানিয়ে বিবৃতিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘মোতায়েন করা ব্যবস্থা ও আমাদের দক্ষ সেনা সদস্যদের ধন্যবাদ, তারা ধেয়ে আসা প্রায় সব ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র ভূপাতিত করতে ইসরাইলকে সহায়তা করেছি।

গত পহেলা এপ্রিল সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে অবস্থিত ইরানি কনস্যুলেটে ভয়াবহ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইসরাইল। এতে বিপ্লবী গার্ডের দুই কমান্ডারসহ উচ্চপদস্থ সাত কর্মকর্তা নিহত হন।

সে হামলার জবাবে শনিবার (১৩ এপ্রিল) রাতে ইসরাইলের ভূখণ্ড লক্ষ্য করে ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে ইরান। এ হামলায় তাদের সঙ্গে যোগ দেয় ইয়েমেনের ইরানপন্থি সশস্ত্র গোষ্ঠী হুতি। এরপর লেবাননের সশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহর পক্ষ থেকেও ইসরাইলে রকেট হামলা চালানো হয়েছে বলে জাননো হয়। ইরানের ইসলামিক রেভল্যুশনারি গার্ড কোর (আইআরজিসি) জানিয়েছে, স্থানীয় সময় শনিবার ইসরাইলের ভূখণ্ড লক্ষ্য করে কয়েক ডজন ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে তারা। ‘ট্রু প্রোমিজ’ নামে অভিযানের আওতায় এসব হামলা চালানো হয়।২


আরও খবর



রূপগঞ্জে স্বামীর ছুরিকাঘাতে স্ত্রী খুন\স্বামী গ্রেফতার

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ এপ্রিল ২০২৪ | ১১৩জন দেখেছেন

Image

মোঃআবু কাওছার মিঠু রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) সংবাদদাতাঃ-

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার কায়েতপাড়া ইউনিয়নের মাঝিনা নদীরপাড় এলাকায় বসবাসকারী গৃহবধূ ফারজানা আক্তারকে(৩০) গতকাল ২৪ মার্চ রবিবার ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামী তারিকুল ইসলাম মন্ডল এ ঘটনা ঘটায়। তারা মাঝিনা নদীরপাড় গ্রামের মহিবুর রহমানের বাড়ীর ভাড়াটিয়া।  প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, হত্যাকান্ডের পর স্বামী তারিকুল ইসলাম মন্ডল হতবাক হয়ে লাশের পাশেই অবস্থান করছিলেন।


খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে তারিকুল ইসলাম আতœসমর্পণ করেন। লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। স্ত্রী ফারজানা আক্তার ও স্বামী তারিকুল ইসলামের বাড়ী গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ থানার হাজীপাড়া দক্ষিণ দোমাইচারী গ্রামে। তারিকুল ইসলাম মন্ডল শীতলক্ষ্যা নদীর তীরবর্তী মাঝিনা নদীরপাড় এলাকার মীর সিরামিক্স কম্পানীতে চাকুরি করে আসছিলেন।


রূপগঞ্জ থানার এসআই নজরুল ইসলাম বলেন, স্ত্রী ফারজানার বুকে ছুরিকাঘাত করা হয়। ছুরিটি উদ্ধার করা হয়েছে।  ঘটনার পর ঝামেলা এড়াতে বাড়ীর মালিক মহিবুর রহমান স্বপরিবারে পালিয়ে গেছেন।রূপগঞ্জ থানা ওসি দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, স্ত্রী ফারজানা আক্তার হত্যাকান্ডের ঘটনায় স্বামী তারিকুল ইসলাম মন্ডলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে। লাশ নারায়ণগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। 

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



ইউপি সদস্য’কে চোর পেটানোর মতো পিটালো ইউপি চেয়ারম্যান

প্রকাশিত:বুধবার ১০ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ৭২জন দেখেছেন

Image

সাগর আহম্মেদ,কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বনের জমি জবর-দখল করে ইউপি চেয়ারম্যানের মেয়ের জামাইয়ের নির্মাণার্ধীন মার্কেট ভেঙ্গে দিলো বনবিভাগ। আর এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে এক ইউপি সদস্যকে চোর পেটানোর মতোই পিটালেন ইউপি চেয়ারম্যান ও তার স্বজনরা। এঘটনায় ওই আহত ইউপি সদস্য বাদী হয়ে কালিয়াকৈর থানায় একটি অভিযোগ করলে বুধবার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

আহত হলেন, কালিয়াকৈর উপজেলার নলোয়া এলাকার হেলাল উদ্দিন মন্ডলের ছেলে মজনু মন্ডল। তিনি বর্তমানে বোয়ালী ইউনিয়ন পরিষদের ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য (মেম্বার)।

এলাকাবাসী, আহতের পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, কালিয়াকৈর উপজেলার নলোয়া বাজার এলাকায় বনের জমি জবর-দখল করে মার্কেট নির্মাণ করা হচ্ছে। অভিযোগ উঠেছে, স্থানীয় বোয়ালী বন বিট কর্মকর্তা আবু ইউনুছ ও তার কর্মচারীদের সঙ্গে যোগসাজস করে ওই মাকেট নির্মাণ করেছেন স্থানীয় বোয়ালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের মেয়ের জামাই শাহিন।

বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নজরে আসলে গত মঙ্গলবার সকালে ওই মার্কেটটি ভেঙ্গে দেয় বনবিভাগের লোকজন। ওই মার্কেটটি ভাঙ্গার পিছনে স্থানীয় ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মজনু মন্ডলের হাত রয়েছে, এমন সন্দেহে ইউপি চেয়ারম্যান আবজাল হোসেন খান, তার ছেলে নিসাদুল রহমান, ভাতিজা পলাশ, শ্যালক হাসান, দুই পুতুরাসহ কয়েকজন ওই বাজারের একটি দোকানের ভেতর থেকে ইউপি সদস্য মজনুকে ফিল্মি স্টাইলে তুলে বাইরে বের করে। এসময় তারা সবাই মিলে চোর পেটানোর মতোই ওই ইউপি সদস্যকে এলোপাথারী পেটায়। পরে আশপাশের লোকজন আহতবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ঘটনায় ওইদিন ইউপি সদস্য মজনু মন্ডল বাদী হয়ে কালিয়াকৈর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এরপর বুধবার দুপুরে ওই ঘটনার তদন্তে যান কালিয়াকৈর থানা পুলিশ।

খবর পেয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুরাদ কবীর, ওই ইউনিয়নের অন্যান্য ইউপি সদস্যরা হাসপাতালে তাকে দেখতে যান। কিন্তু তাকে দেখতে যাননি অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারমান আবজাল হোসেন খান। আহত ইউপি সদস্য ও তার পরিবারের আরো অভিযোগ, গত ছয় মাস আগে একদিন সকালে কে বা কাহারা ৯ লক্ষ টাকার মালামালসহ তাদের মৎস্য খামারের গোডাউন আগুন পুড়িয়ে দিয়েছিল। বছরখানেক আগে তাদের রাতের আধারে বসত-বাড়িতে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। গত ১৫ দিন আগে ওই ইউপি চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে তাদের মৎস্য খামারের রাস্তা বন্ধ করে দেয় তার লোকজন। ইউপি সদস্যকে পেটানোর ঘটনা থেকে প্রতীয়মান হচ্ছে পূর্বের ঘটনায়ও ওই চেয়ারম্যান ও তার লোকজন জড়িত বলেও তাদের অভিযোগ।

আহত ইউপি সদস্য মজনু মন্ডল বলেন, চেয়ারম্যানের মেয়ের জামাই শাহিনের নির্মাণাধীন মার্কেট ভেঙ্গে দিয়েছে বনবিভাগের লোকজন। কিন্তু চেয়ারম্যান ও তার স্বজনরা আমাকে সন্দেহ করে দোকানের ভেতর থেকে তুলে নিয়ে চোর পেটানোর মতো পিটিয়েছেন। এর সুষ্ঠ বিচার চান ওই ইউপি সদস্য ও তার পরিবারের লোকজন।

অভিযুক্ত স্থানীয় চেয়ারম্যান আবজাল হোসেন খান জানান,ইউপি সদস্য মজনু মন্ডল বনের জমিতে স্থাপনা ভাঙ্গা-গড়ার সঙ্গে জড়িত। ওই স্থাপনাটি ভাঙ্গলে স্থানীয় লোকজন তার সঙ্গে ধাক্কা- ধাক্কি করে। আমি তাদের সবাইকে সরিয়ে দিয়েছি। কিন্তু আমি তাকে মারধর করি নাই।

এব্যাপারে জানতে স্থানীয় বোয়ালী বিট কর্মকর্তা আবু ইউনুছ এর মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি ধরেননি।

কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএফএম নাসিম জানান, ওই ইউপি সদস্যকে পেটানোর ঘটনায় অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আরও খবর