Logo
আজঃ বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

কর্মব্যস্ত সময়ে মুহূর্তেই তৈরি করুন পছন্দের সুস্বাদু সব খাবার

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ২৫৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বর্তমান সময়ে প্রায় সবার, বিশেষ করে যারা শহর অঞ্চলে বাস করে তাদের প্রতিদিনকার সময়ের বেশিরভাগই চলে যায় দৈনন্দিন নানা কাজে। নিজেদের, পরিবারের কিংবা বন্ধুদের জন্য প্রায়শই কোন সময় অবশিষ্ট থাকে না। আর এ বিবেচনায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান মানুষের প্রতিদিনের লাইফস্টাইল আরও স্বাচ্ছন্দ্যদায়ক করে তুলতে প্রতিনিয়তই চেষ্টা করে যাচ্ছে উদ্ভাবনী পণ্য নিয়ে আসতে, যাতে মানুষ তাদের পছন্দের বিষয় নিয়ে আরও বেশি সময় কাটাতে পারে এবং কাজের বাইরে তাদের অবশিষ্ট সময়কে সার্থক করে তুলতে পারেন ও পছন্দের মুহূর্তগূলো উপভোগ করতে পারেন।  

আর এ প্রেক্ষিতে, বর্তমানের ডিজিটাল সময়ে, জীবনকে সহজ করে তোলার ক্ষেত্রে বহুমুখী সুবিধার জন্য মাইক্রোওয়েভ ওভেনের মতো কিচেন অ্যাপ্লায়েন্সের গুরুত্ব বাড়ছে। মাইক্রোওয়েভ ওভেনে যেমন রয়েছে নানাবিধ সুবিধা, তেমনি এ কিচেন অ্যাপ্লায়েন্সটি সহজে বহনযোগ্য এবং মুহূর্তের মধ্যেই খাবার গরম করে ফেলে; পাশাপাশি মাইক্রোওয়েভ ওভেন পরিষ্কার করাও সহজ। মাইক্রোওয়েভ ওভেনে খাবার গরম করা ছাড়াও অল্প সময়ে মজাদার খাবার তৈরি করা যায়। ফলে, যাদের কাজের বাইরে রান্নার জন্য সময় বের করা কঠিন, তারা মাইক্রোওয়েভ ওভেন ব্যবহার করার মাধ্যমে জীবনকে করে তুলতে পারেন আরেকটু স্বাচ্ছন্দ্যদায়ক। ফ্রাইড চিকেনের মতো মজাদার খাবার তৈরির ক্ষেত্রে মাইক্রোওয়েভ ওভেনের হট ব্লাস্ট ফিচার খাবারের বাইরের পাশকে যেমন ক্রিস্পি রাখে, তেমনি খাবারের ভেতরকে রাখে জুসি। 

যারা খাবারের পুষ্টিগুণের ব্যাপারে সচেতন, তাদের জন্য আদর্শ কিচেন অ্যাপ্লায়েন্স হচ্ছে মাইক্রোওয়েভ ওভেন। বিভিন্ন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, খাবার সেদ্ধ কিংবা ভাজার সময় খাবারের ৮০ থেকে ৯০ শতাংশ পর্যন্ত পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে যায়; সেক্ষেত্রে, মাইক্রোওভেনে বেশ তাড়াতাড়ি খাবার প্রস্তুত করা যায়, যার ফলে খাবার কম সময়ে রান্না করা যায় এবং খাবারের খাদ্যগুণও অটুট থাকে। হার্ভাড হেলথ পাবলিশিং -এর তথ্য অনুযায়ী, খাবারে ভিটামিন সি সহ অন্যান্য পুষ্টিগুণ বিদ্যমান রাখার ক্ষেত্রে দারুণ কার্যকরী ভূমিকা রাখে মাইক্রোওয়েভ ওভেন। উদাহরণ হিসেবে আরও বলা যায়, ব্রকলির কথা। সাধারণত ব্রকলি সেদ্ধ করার সময় এর গ্লুকোসিনোলেট (সালফার যুক্ত যৌগ – সবজির এ উপাদান ক্যান্সার প্রতিরোধে কার্যকরী ভূমিকা রাখে) নষ্ট হয়ে যায়। এক্ষেত্রেও, মাইক্রোওয়েভ ওভেনে ব্রকলি স্টিম করা হলে এর গ্লুকোসিনোলেট অটুট থাকে। খাবারের পুষ্টিমান অটুট রাখার ক্ষেত্রে অত্যন্ত কার্যকরী ভূমিকা রাখে মাইক্রোওয়েভ ওভেন; পাশাপাশি এর স্বাস্থ্যকর এয়ার ফ্রায়ার ফিচারের কারণে তেলও অনেক কম ব্যবহার করতে হয়। 

বর্তমানে বেশিরভাগ মাইক্রোওয়েভ ওভেনের সাথে প্রি-সেট বিভিন্ন খাবারের রেসিপি দেয়া থাকে যাতে ব্যবহারকারীরা ওভেনের মাল্টি-ফাংশনাল ফিচার ব্যবহার করে সহজেই বিভিন্ন খাবার প্রস্তুত করতে পারেন। রেসিপি, সুবিধাজনক সব ফিচার এবং সহজে ব্যবহারযোগ্য কন্ট্রোল প্যানেলের মাধ্যমে সহজেই কম সময়ে মাইক্রোওয়েভ ওভেনে খাবার তৈরি করা যায়। প্রি-সেট রেসিপি ছাড়াও, মাইক্রোওয়েভ ওভেনে সহজে ও দ্রুত খাবার তৈরির জন্য অনলাইনে অসংখ্য রেসিপি পাওয়া যায়। তাই, যেকেউ এখন তাদের পছন্দের রেসিপি বের করে মুহূর্তেই মাইক্রোওয়েভ ওভেনে তাদের পছন্দের খাবার তৈরি করতে পারবেন।  

মাইক্রোওয়েভ ওভেনে খাবার প্রস্তুত করার পর, ওভেনের ভেতরে সিরামিক এনামেল থাকার কারণে সহজেই স্বল্পসময়ে ওভেন পরিস্কার করা যাবে। সিরামিক এনামেল কোটেড ইন্টেরিয়র মাইক্রোওয়েভ ওভেনের ভেতরের পাশকে রাখবে স্ক্র্যাচ, ফাটল ও ব্যাকটেরিয়া মুক্ত। স্যামসাং -এর মতো স্বনামধন্য ও জনপ্রিয় ব্র্যান্ড ব্যবহারকারীদের সুবিধা বিবেচনায় সম্পূর্ণভাবে এনামেল-কোটেড (ইন্টেরিয়র) মাইক্রোওয়েভ ওভেন নিয়ে এসেছে বাজারে, যার ফলে এ মাইক্রোওয়েভ ওভেন নিশ্চিন্তে ব্যবহার করা যাবে বহুদিন পর্যন্ত। ওভেনের ইন্টেরিয়রে সিরামিক কোট ওভেনকে করে তোলে আরও সুরক্ষিত, স্বাস্থ্যকর ও সহজে ব্যবহারযোগ্য। স্যামসাং এর কনভেকশন মাইক্রোওয়েভ ওভেনে সহজেই বানানো যাবে পিৎজা ও কুকিসহ বিভিন্ন আইটেম। পাশাপাশি, স্যামসাং ওভেনে রয়েছে স্লিম ফাই ফিচার, যার ফলে তেল ব্যবহার হবে অনেক কম।       

মূলত মাইক্রোওয়েভ ওভেন সহ বর্তমানে বাজারে বিভিন্ন ধরনের আধুনিক প্রযুক্তির ওভেন পাওয়া যায়, যা আমাদের ডিজিটাল লাইফস্টাইলকে সহজ করে তুলতে ভূমিকা রাখবে। অনন্য এ কিচেন অ্যাপ্লায়েন্সটি খাবারের স্বাদ ও পুষ্টিগুণ বজায় রাখার ক্ষেত্রে অত্যন্ত কার্যকরী। তাই, আসছে নতুন বছরে মাইক্রোওয়েভ ওভেনের মাল্টি-ফাংশনাল সুবিধা ব্যবহার করে সুস্বাদু সব খাবার রান্না করে চমকে দিন আপনার প্রিয়জনকে, জীবনকে করে তুলুন আরও উপভোগ্য!


আরও খবর

"নোবেলের ম্যাজিক শুধু প্রতারণা"

মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24

ভালোবাসার দিন আজ

বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




জামালপুরে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান ৪ ইটভাটাকে ২৩ লাখ টাকা জরিমানা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০৯জন দেখেছেন

Image
লিয়াকত হোসাইন লায়ন,জামালপুর প্রতিনিধি:জামালপুর অবৈধ ৪ ইটভাটাকে ২৩ লাখ টাকা জরিমানা করার পর গুড়িয়ে দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। বুধবার(৭ ফেব্রুয়ারি) দিনব্যাপী সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় পরিবেশ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালত এ অভিযান পরিচালিত হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নেতৃত্ব দেন ময়মনসিংহ বিভাগীয় কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপ-পরিচালক আব্দুল্লাহ আল-মনসুর।
সন্ধ্যায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, অবৈধভাবে ইট তৈরি ও ভাটা স্থাপনের অপরাধে জঙ্গলপাড়া বোর্ডঘর এলাকার মেসার্স স্টার ওয়ান ব্রিকসকে ৬ লাখ, গোবিন্দপুর এলাকার কিং ব্রিকসকে ৬ লাখ, ছোনটিয়া এলাকার জীবন ব্রিকসকে ৫ লাখ ও নছিব ঢাকা ব্রিকসকে ৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। সেই সঙ্গে ইটভাটাগুলোকে ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।
অভিযানে জামালপুর জেলার পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সুকুমার সাহা, পরিদর্শক হেদায়েতুল ইসলামসসহ ঘটনাস্থলে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে জেলা পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপস্থিত ছিলেন।

আরও খবর

ঢাকায় মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ২৬

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




নাসিরনগর থেকে আন্তঃজেলা চক্রের দুই ডাকাত উজ্জল ও এখলাছকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৬৫জন দেখেছেন

Image

মোঃ আব্দুল হান্নানঃ- সম্প্রতি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর থানা পুলিশ কুন্ডা কুইট্টা সড়কে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে অভিযান চালিয়ে আন্তঃজেলা চক্রের দুই ডাকাত উজ্জল  ও গোর্কণ গ্রামের খলাছ কে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে।


নাসিরনগর থানা পুলিশের চৌকশ অফিসার এস আই রূপন নাথ সঙ্গীয় কনস্টেবল রানা ও জাফরকে সাথে নিয়ে গোপনে অভিযান পরিচালনা করে কুন্ডা কুইট্টা সড়ক থেকে দুইজনকে গ্রেপ্তার করে।

থানা পুলিশ সুত্রে জানা গেছে উজ্জলের বিরোদ্ধে থানা ও আদালতে সাতটি মামলা চলমান রয়েছে।স্থানীয় জনগণ জানায়,এখলাছ দীর্ঘদিন যাবৎ ডাকাতির পাশাপাশি এলাকায় ইয়াবা ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিল।সে সাবেক সংসদ সদস্য বিএম ফরহাদ হোসেন সংগ্রামের কাছের লোক হওয়া কেউ তাকে কিছু বলার সাহস পেতো না।

এস আই রূপন নাথ জানায় ডাকাত  দুজনকেই মামলা দিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা  হয়েছে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ১৫ বছরে অবিশ্বাস্য উন্নয়নের নজির সৃষ্টি হয়েছে: তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০৮জন দেখেছেন

Image
মারুফ সরকার, স্টাফ রিপোর্টার:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গত ১৫ বছরে অবিশ্বাস্য উন্নয়নের নজির সৃষ্টি হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী আরাফাত। 

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর গুলশানে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের উন্মুক্ত স্থানসমূহের আধুনিকায়ন, উন্নয়ন ও সবুজায়ন শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় উন্নয়নকৃত শহীদ ডা. ফজলে রাব্বি পার্কের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

এ সময় তিনি আরও বলেন, ভিশন, রুচি ও চেষ্টা থাকলে অনেক কিছু করা যায়। অনেক সময় বড় কিছু করতে গেলে অনেকে অনুৎসাহিত করার চেষ্টা করবে, আটকে দেয়ার চেষ্টা করবে। অনেক বড় কিছু করার চিন্তা ও তা চেষ্টা করা হলে মানুষের দৃষ্টিভঙ্গি বদল হয়। দৃষ্টিভঙ্গি বদল হলে অনেক বড় কিছু অর্জন করা যায়। গত ১৫ বছর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে তার বিভিন্ন নজির আমরা দেখেছি। দেশের মানুষ যা কিছু চিন্তা করতে পারেনি সে ধরণের উন্নয়নের ঘটনা বাংলাদেশে ঘটে গেছে। ১৫ বছর আগে যদি বলা হতো, ঢাকা শহরে মেট্রোরেল চলবে, সেটা কেউ বিশ্বাস করতো না। যদি বলা হতো বাংলাদেশের শতভাগ মানুষের ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছাবে, সেটা কেউ বিশ্বাস করতো না। পদ্মা সেতু আমরা নিজের টাকায় করবো, বাংলাদেশের মানুষ এটাও বিশ্বাস করেনি।

তিনি আরও বলেন, গত ১৫ বছরে আমাদের দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন ঘটে গেছে। আমরা অনেক সাহসী হয়েছি, আমরা এখন অনেক বড় স্বপ্ন দেখতে পারি এবং তা বাস্তবায়ন করতে পারি। সেই জায়গা থেকেই ডিজিটাল বাংলাদেশ থেকে স্মার্ট বাংলাদেশে রূপান্তরের বিষয় চলে এসেছে। 

শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ডা. ফজলে রাব্বির নামে পার্কের নামকরণ করায় উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সাথে সম্পৃক্ত নামগুলো আমরা আরও স্মরণ করতে চাই, স্বর্ণাক্ষরে লিখে রাখতে চাই এবং আমাদের নতুন প্রজন্মের কাছে নজির হিসেবে রাখতে চাই। যখনই শহীদ ডা. ফজলে রাব্বির বিষয়ে আমাদের পরবর্তী প্রজন্ম প্রশ্ন করবে, জানবে তখন আরও দেশপ্রেমে উজ্জীবিত হবে এবং সেভাবেই আগামী দিনের ইতিহাস রচিত হবে।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ১৯ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো.মফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদান করেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মীর খায়রুল আলম। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে নিকেতন সোসাইটির সভাপতি ডা. এম. এ. বাসার, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী ব্রি. জেনারেল মুহাম্মদ আমিরুল ইসলাম পিএসসি, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের সংরক্ষিত ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আমেনা বেগম, শহীদ ডা. ফজলে রাব্বির ছেলে ওমর রাব্বি প্রমুখ বক্তব্য প্রদান করেন।

পরে উন্নয়নকৃত শহীদ ডা. ফজলে রাব্বি পার্কের উদ্বোধনী ফলক উন্মোচনে অংশগ্রহণ করেন প্রতিমন্ত্রী। এছাড়াও বৃক্ষরোপণ,পার্ক পরিদর্শন এবং নবনির্মিত পুলিশ বক্স উদ্বোধনে অংশগ্রহণ করেন তিনি।

আরও খবর



সরাইলে উৎসবমুখর পরিবেশে জাতীয় দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৫৫জন দেখেছেন

Image

মো. রুবেল মিয়াঃ-

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে কেক কাটার মধ্য দিয়ে জাতীয় দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার ২৫ বছরে পদার্পণ ও প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে।এ উপলক্ষ্যে শনিবার  দুপুরে সরাইল প্রেসক্লাব এর  কার্যালয়ে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।সরাইল প্রেসক্লাবের সদ্য নির্বাচিত সভাপতি মোহাম্মদ আলীর  সভাপতিত্বে ও  সাহিত্য ও পাঠাগার সম্পাদক জহিরুল ইসলাম রিপনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও বিশিষ্ট কলামিস্ট এড. জিয়াউল হক মৃধা।


এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জাতীয়  দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার সরাইল প্রতিনিধি মো. মুরাদ খান।উক্ত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন,  উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মেজবা উল আলম ভূঁইয়া, সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রোকেয়া বেগম,  উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার ইসমত আলী।এছাড়াও সভায় সরাইল প্রেসক্লাবের সদ্য নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক তৌফিক আহমেদ (তফছির)।


সরাইল টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি মো. শফিকুর রহমান, নোয়াগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনসুর আহমেদ, আওয়ামী লীগ নেতা মাহফুজ আলী, আওয়ামী লীগ নেতা  ইকবাল হোসেন, মো. আনোয়ার হোসেন, সরাইল প্রেসক্লাবের অর্থ সম্পাদক আব্দুল করিমসহ সরাইল প্রেসক্লাবের অন্যান্য সাংবাদিকবৃন্দ ও  গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।


সভায় বক্তারা বলেন,বর্তমানে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী একমাত্র পাঠক প্রিয় পত্রিকা দৈনিক যুগান্তর। পত্রিকাটি বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে বাংলার মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছে। বস্তুনিষ্ঠ ও গঠনমূলক সংবাদ পরিবেশনের জন্য যুগান্তর পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক, সংবাদ কর্মীসহ সকল শুভানুধ্যায়ীদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানানো হয়। সেই সাথে দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করা হয়।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ফুলবাড়ী সরকারি কলেজ চত্বরে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৮২জন দেখেছেন

Image

ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি;দিনাজপুরের ফুলবাড়ী সরকারি কলেজ চত্বরে অধ্যক্ষ ও উপধ্যক্ষের অপসরনের দাবীতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন অনুষ্টিত। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ১টায় ফুলবাড়ী সরকারি কলেজ চত্বরে অধ্যক্ষ প্রফেসর আলতাফ হোসেন ও উপধ্যক্ষ মোঃ আহসান হাবীব এর অপসারনের দাবীতে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ঘন্টা ব্যাপি মানববন্ধন করেন। মানববন্ধনে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ তৌহিদুজ্জমান রাসেল, সাধারণ সম্পাদক রাজিউল ইসলাম রাজু, প্রচার সম্পাদক মোঃ তানভির আহম্মেদ, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মোঃ আসাদ সহ শতাধিক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।

মানববন্ধনের মোঃ তৌহিদুজ্জমান রাসেল বলেন, ফুলবাড়ী সরকারি কলেজ অব্যবস্থাপনা মধ্যদিয়ে পরিচালনা করা হয়েছে। এখানে কোন পানি সাপ্লই ব্যবস্থা নেই, কোন বিনোদন মূলক স্থান নেই, ভালো কোন বসার জায়গা নেই, ছাত্রবাসে ভালো থাকার ব্যবস্থা  নেই, লাইট গুলোর নিভু নিভু অবস্থা, ওয়াশরুম গুলোতে যাওয়ার কোন উপাই নেই, কলেজ ক্যাম্পাসের চারপাশে ফেন্সিডিল সহ অন্যন্যা মাদকের ছড়াছড়ি দেখার কেউ নেই। অধ্যক্ষ ও উপধ্যক্ষ শুধু বিল ভাউচার করা নিয়েই ব্যস্ত থাকে। কলেজের লেখা পাড়া সঠিক ভাবে হয়েছে সে দিকে কোন নজর নেই। ছোট ছোট প্রোগ্রাম গুলেও খরচের চেয়ে দ্বিগুন তিনগুন বিল ভাইচার করেছেন বলে অভিযোগ করেন শিক্ষার্থীরা। সব মিলিয়ে কলেজের পরিবেশ একেবারে নষ্ট করে ফেলেছে অধ্যক্ষ ও উপধ্যক্ষ। এ বিষয়ে উপধ্যক্ষ আহসাব হাবীব অফিসিয়ালি কোন কথা বলতে নারাজ। অন্যদিকে ফুলবাড়ী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আলতাফ হোসেন এর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায় নি। এতে সাধারণ শিক্ষার্থীরা ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে। তারাও তাদের অপসরণ চান। এ সময় প্রিন্ট মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪