Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম
এশিয়া কাপ

টসে হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ২৮৩জন দেখেছেন

Image

খবর প্রতিদিন ২৪ডেস্ক :এশিয়া কাপে নিজেদের শেষ ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে টসে হেরে আগে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ




আরও খবর



রিয়েলমি সার্ভিস ডে: ফোন রিপেয়ারে খরচ বাঁচান ৬০% পর্যন্ত, উপভোগ করুন ফ্রি সার্ভিস

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৭৮জন দেখেছেন

Image

প্রযুক্তি ডেস্ক:তরুণদের জনপ্রিয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড রিয়েলমি ১৬ জুলাই থেকে ১৮ জুলাই, ২০২৪ তারিখকে তাদের ‘সার্ভিস ডে’ হিসেবে ঘোষণা করেছে। রিয়েলমিপ্রেমীদের ব্যবহৃত ডিভাইসের স্মুদলি চলার নিশ্চয়তা দিতে, এ বিশেষ ইভেন্টে রিয়েলমি দিচ্ছে আকর্ষণীয় ডিসকাউন্ট ও ফ্রি সার্ভিসের অফার।

সার্ভিস ডে চলাকালীন, রিয়েলমি ফোন ব্যবহারকারীরা সকল ধরনের স্পেয়ার পার্টস কেনায় পাচ্ছেন ১০% পর্যন্ত ডিসকাউন্ট, কিছু পুরনো মডেলের মেইনবোর্ড ক্রয়ের ক্ষেত্রে ডিসকাউন্ট পাচ্ছেন ৬০% পর্যন্ত, এবং ফোনের আনুষঙ্গিক যন্ত্রপাতি কেনায় ছাড় পাচ্ছেন ১০% পর্যন্ত।

আকর্ষণীয় এ সকল ডিসকাউন্ট ছাড়াও, বাড়তি খরচ ছাড়াই যাতে গ্রাহকরা তাদের ফোন ঠিক করার নিশ্চয়তা পান, এজন্য ওয়ারেন্টির মেয়াদ পার হয়ে যাওয়া ফোন ঠিক করতে কোনো চার্জ নেওয়া হবে না। স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা তাদের ফোন পরিষ্কার করে নেওয়ার পাশাপাশি কোনো বাড়তি চার্জ ছাড়া মেইনটেন্যান্স সার্ভিসও করিয়ে নিতে পারবেন।

অফিসিয়াল হ্যান্ডসেটের জন্য রিয়েলমি দিচ্ছে ফ্রি সফটওয়্যার আপগ্রেডের সুবিধা, যার মাধ্যমে সর্বাধুনিক ফিচার ও সিকিউরিটি প্যাচসহ প্রোটেকটিভ পেপার ফিল্ম (সহজলভ্যতার ভিত্তিতে) ডিভাইসে আপ-টু-ডেট থাকার নিশ্চয়তা প্রদান করা হয়।

এর বাইরেও, ইভেন্ট চলাকালীন রিপেয়ার সার্ভিস গ্রহণকারী গ্রাহকরা প্রশংসাসূচক টোকেন হিসেবে পাচ্ছেন একটি বিশেষ উপহার।

গ্রাহকদের অসাধারণ সেবা প্রদানের পাশাপাশি তাদের মূল্যায়ন করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ রিয়েলমি। এই প্রতিশ্রুতি পূরণের একটি অনুষঙ্গ হলো সার্ভিস ডে ইভেন্টটি। স্মার্টফোনের সেরা সার্ভিস পেতে এবং উল্লেখযোগ্য সঞ্চয় উপভোগ করতে গ্রাহকদের এই সুযোগ দিচ্ছে জনপ্রিয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড রিয়েলমি।

সার্ভিস ডে ইভেন্ট সম্পর্কে আরও তথ্যের জন্য, অনুগ্রহ করে রিয়েলমি সার্ভিস বিডি ফেসবুক পেজ https://www.facebook.com/realmeServiceBD -এ ভিজিট করুন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



দলদলিয়া গ্রামে খেলার মাঠ সংস্কারের জন্য সরকারের বিশেষ বরাদ্দর দাবি

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১০৯জন দেখেছেন

Image

আফজাল হোসেন, ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি:ফুলবাড়ী উপজেলা সংলগ্ন পার্বতীপুর উপজেলার হামিদপুর ইউনিয়নের দলদলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠটি খেলার উপযোগী করতে সরকারের বিশেষ বরাদ্দের দাবী জানান এলাকার যুব সমাজ।

এলাকার যুব সমাজের পক্ষে দলদলিয়া নাগরিক ফোরাম পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি আবেদন দেন।

আবেদনে তারা উল্লেখ করে বলেন এই ইউনিয়নের একমাত্র খেলার মাঠ দলদলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এর এই মাঠটি। পার্বতীপুর উপজেলার শেষ সীমানা ও ফুলবাড়ী উপজেলার শেষ সীমানা সংলগ্ন দলদলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি। অল্প বৃষ্টিতেই মাটিতে পানি জমা হয়ে খেলার অনুপোযোগী হয়ে যায়, এছাড়াও এলাকার লোকজন মাঠটি ধানের খড় রাখার চাতাল এবং উঠান হিসেবে ব্যবহার করে, মাঠের সাইড দিয়ে চলাচলের রাস্তা থাকলেও অনেকেই মাঠের মাঝখান দিয়ে চলাচলের রাস্তাও সৃষ্টি করেছে, যার ফলে মাঠটি দিন দিন খেলার অনুপোযোগী হয়ে যাচ্ছে। 

মাঠটি কে খেলার অনুপযোগী না করলে দিন দিন এলাকার যুব সমাজ খেলা থেকে বিমুখ হয়ে মাদক এবং বিভিন্ন রকম অপরাধের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়ে যাবে। দলদলিয়া নাগরিক ফোরামের পক্ষে মোঃ নুর আলম গত ২৭ জুন পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর মাঠ সংস্করণের দাবিতে একটি আবেদন করেন ।

এলাকার বয়স জোষ্ঠরা জানান এটি একটি ঐতিহ্যবাহী মাঠ দীর্ঘ কয়েক যুগ ধরে এই মাঠে খেলাধুলা করে আসছে এলাকার যুবসমাজ, আস্তে আস্তে মাঠটি খেলার অনুপযোগী হয়ে যাচ্ছে, আমরা প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি মাঠটি কে খেলার উপযোগী করে তুলতে সংস্কারের জন্য বিশেষ বরাদ্দ দেওয়া হোক। এ ব্যাপারে ঐ বিদ্যালয়ের সভাপতি মোঃ আশরাফুল আলমের সাথে কথা বললে তিনি জানান এই বিদ্যালয়টি শেষ সীমানায় হওয়ায় এখানকার স্থানীয় জনগণ কোন সুযোগ সুবিধা পাচ্ছে না। স্কুলের খেলার মাঠটি সরকারি অনুদান না পাওয়ায় খেলা ধুলার পরিবেশ নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। এমনকি রাস্তাটিও পাকা করা হচ্ছে না। বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা ও এলাকাবাসী বর্ষাকালে কাদার মধ্যে যাতায়াত করছে। একই কথা বলেন ঐ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা মোছাঃ নাছিমা খাতুন। তিনি জানান, বিদ্যালয়ের মাঠটি সংস্কার করা হলে এলাকার যুব সমাজ খেলায় মেতে থাকবে। মাদক থেকে দূরে থাকবে। কিন্তু কেউ এই এলাকার উন্নয়নকল্পে কোন খোঁজ রাখেননা।  

এ বিষয়ে এলাকার যুবক মোঃ পাপ্পু জানান আমরা নিজ উদ্যোগে মাঠটি কে সংস্কার করছি এখনো মাঠের অনেক কাজ বাকি রয়েছে। বাকি কাজগুলো করতে আমরা জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও অত্র ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের সুদৃষ্টি কামনা করছি।


আরও খবর



ড. ইউনূসের মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির নির্দেশ হাইকোর্টের

প্রকাশিত:বুধবার ০৩ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১১০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ড. ইউনূসের ছয় মাসের সাজা ও দণ্ড শ্রম আপিল ট্রাইব্যুনালে স্থগিতের আদেশ বাতিল করে হাইকোর্টের দেওয়া রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশ করা হয়েছে।মামলার রায়ে ড. মুহাম্মদ ইউনূসের করা আপিল দ্রুত নিষ্পত্তি করার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। প্রকাশিত ৫০ পৃষ্ঠার রায়ে আদালত আরও বলেছেন, সাজা কখনো স্থগিত হয় না।

বুধবার (৩ জুলাই) সকালে রায় প্রকাশের বিষয়টি গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, কলকারখানা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের আইনজীবী মো.খুরশীদ আলম খান। তবে রায়ের অনুলিপি হাতে পাননি বলে জানিয়েছেন ড. ইউনূসের আইনজীবী ব্যারিস্টার আব্দুল্লাহ আল মামুন।

এর আগে, শ্রম আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে করা মামলায় ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড পাওয়া গ্রামীণ টেলিকমের চেয়ারম্যান ও নোবেলজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসসহ চারজনের দণ্ডের রায় ও আদেশ স্থগিত করে দেওয়া শ্রম আপিলের ট্রাইব্যুনালের আদেশ অবৈধ ঘোষণা করে রায় দেন হাইকোর্ট। ফলে ড. ইউনূসের ৬ মাসের সাজা চলমান থাকে।

চারজনের দণ্ড স্থগিতের বৈধতা প্রশ্নে কলকারখানা প্রতিষ্ঠান অধিদপ্তরের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে জারি করা রুলের শুনানি নিষ্পত্তি করে গত ১৮ মার্চ হাইকোর্টের বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী ইবাদত হোসেনের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রায় দেন।

আদালতে ওইদিন আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। ড. ইউনূসের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী ব্যারিস্টার আব্দুল্লাহ আল মামুন। তার সঙ্গে ছিলেন ব্যারিস্টার তানভীর শিহাব খান।

এর আগে তৃতীয় শ্রম আদালতের ১ জানুয়ারি দেওয়া রায় ও আদেশের কার্যক্রম স্থগিত করে শ্রম আপিল ট্রাইব্যুনালের ২৮ জানুয়ারি দেওয়া আদেশ কেন বাতিল হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। ড. ইউনূসসহ চারজন ও রাষ্ট্রের পক্ষে ঢাকার জেলা প্রশাসকসহ বিবাদীদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়।

একই সঙ্গে শ্রম আইন লঙ্ঘনের মামলায় সাজার রায় থেকে অব্যাহতি পাওয়া গ্রামীণ টেলিকমের চেয়ারম্যান ড. মুহাম্মদ ইউনূসকে বিদেশ গমনের ক্ষেত্রে আদালতের অনুমতি নিতে হবে। এ মামলার বাকি তিন আসামিকেও বিদেশযাত্রার ক্ষেত্রে একই আদেশ প্রতিপালন করতে হবে।


আরও খবর



প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৮ জুলাই চীনে যাবেন

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৪৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ৮ থেকে ১১ জুলাই চীন সফরে যেতে পারেন বলে।

সোমবার (২৪ জুন) রাজধানীর একটি হোটেলে সফররত চীনের কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিভাগের মন্ত্রী লি জিয়ানছাওয়ের সঙ্গে বৈঠকের পর এসব কথা জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আগামী ৮-১১ জুলাইয়ের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর চীন সফরের সম্ভাবনা বেশি। উন্নয়নে অনেক ক্ষেত্রে চীনের গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। সামনে প্রধানমন্ত্রীর সফরে গুরত্বপূর্ণ অগ্রগতি হবে, সেটি আমরা প্রত্যাশা করেছি। আমরা এই সফরের দিকে তাকিয়ে আছি।

চীনা মন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনার বিষয়ে হাছান মাহমুদ জানান, চীন আমাদের সবচেয়ে বড় উন্নয়ন সহযোগী এবং বড় বাণিজ্য সহযোগী। আমরা বাণিজ্য ঘাটতি নিয়ে আলোচনা করেছি। আমরা চীন থেকে ইমপোর্ট করি প্রায় ১৩ বিলিয়ন। আর এক্সপোর্ট করি পৌনে ১ বিলিয়ন।

বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে ওষুধ, চামড়া ও সিরামিক পণ্যগুলো চীন আমাদের থেকে নিতে পারে যোগ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

এসময় রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে চীনের সহায়তা চাওয়া হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে বিশেষ করে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে চীনের সহায়তা চেয়েছি। আমরা গাজা ইস্যু নিয়ে আলোচনা করেছি। এ ব্যাপারে আমরা চীনকে অ্যাকটিভ রোল প্লে করার প্রত্যাশা করি।


আরও খবর



নয় প্রাণ নাশের পর টনক নরেছে উপজেলা প্রকৌশলীর!

প্রকাশিত:বুধবার ২৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১২৫জন দেখেছেন

Image

আব্দুল্লাহ আল নোমান,আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি:নয় প্রাণ নাশের পরে টনক নরেছে আমতলী উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল মামুনের।  মঙ্গলবার তিনি  আমতলী উপজেলার ২০ টি অতি ঝুকিপুর্ণ সেতুতে সতর্কীকরণ নোটিশ বোর্ড ও বেড়া দিয়েছেন। তিনি ভেঙ্গে যাওয়া হলদিয়া হাট সেতুতেও নতুন করে নোটিশ ও বেড়া দিয়েছেন।

জানাগেছে, আমতলী উপজেলার ২০০৭-০৮ অর্থ বছরের পরে ২০ টি লোহার সেতু নির্মাণ করে উপজেলা প্রকৌশল অধিদপ্তর। ওই সেতুগুলো নির্মাণে অনিয়ম ছিল বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। সেতুগুলোতে রেলপাটির বীম বসানোর কথা থাকলেও ঠিকাদারগণ নরমাল বীম বসিয়ে সেতু নির্মাণ করেছেন। ওই সেতুগুলোর ঠিকাদার ছিলেন হলদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ সাবেক চেয়ারম্যান শহীদুল ইসলাম মৃধাসহ বেশ কয়েকজন। ওই সময় তারা প্রভাব খাটিয়ে দায়সারা সেতু নির্মাণ করে টাকা তুলে নেয়। অল্প দিনের মধ্যেই ওই সেতু গুলোর লোহার বীম অকেজো হয়ে যায়। ফলে সেতুগুলো অত্যান্ত ঝুকিপুর্ণ  হয়ে পড়ে।  গত ১৬ বছরে ওই সেতুগুলো ঝুকিপুর্ণ অবস্থায় থাকলেও উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল মামুনের নজরে আসেনি। গত শনিবার বৌভাত অনুষ্ঠানে যাওয়ার পথে চাওড়া নদীর ওপর নির্মিত চাওড়া ও হলদিয়া ইউনিয়নের সংযোগ হলদিয়া হাট সেতুর মাঝখান ভেঙ্গে মাইক্রোবাস পানিতে তলিয়ে যায়। এতে কনে মরিয়ম বিল্লাহ হুমায়রার মামা বাড়ীর ৭ জন ও বাবার  বাড়ীর ২ জন  নিহত হয়। নয় প্রাণ নাশের পর মঙ্গলবার তিনি উপজেলার ২০ টি ঝুকিপুর্ণ সেতুতে সতর্কীতরণ নোটিশ টানিয়েছেন এবং বেড়া দিয়েছেন। 

কাউনিয়া গ্রামের জিয়া উদ্দিন জুয়েল, নজরুল ইসলাম ও দক্ষিণ তক্তাবুনিয়া গ্রামের নাশির উদ্দিন বলেন, নয়টি প্রাণ নাশের পরে টনক নরেছে উপজেলা প্রকৌশলীর। তিনি সেতুর মাঝখানে পিলার গেড়ে দিয়েছেন। যাতে যানবাহন চলাচল করতে না পারে। এই পিলারটা আগে গেড়ে দিলে নয়টি প্রাণ ঝড়ে যেতো না।  তার অবহেলার কারনে এমন দুর্ঘটনা ঘটেছে। 

আমতলী উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, উপজেলার ২০ টি অতি ঝুকিপুর্ণ লোহার সেতুতে সতর্কীকরণ নোটিশ ও বেড়া দেয়া হয়েছে। আগে কেন সতর্কীকরণ নোটিশ ও বেড়া দেননি এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আগেই নোটিশ টানিয়ে দিয়েছিলাম কিন্তু স্থানীয়রা সরিয়ে ফেলেছেন।

বরগুনা নির্বাহী প্রকৌশলী মেহেদী হাসান বলেন, ঝুকিপুর্ণ সেতুগুলোকে সতর্কীকরণ নোটিশ ও বেরিকেট দিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তিনি আরো বলেন, আমরা চেষ্টা করছি স্থায়ীভাবে বেরিকেট দেয়ার যাতে ভারী যানবাহন সেতুতে না উঠতে পারে।


আরও খবর