Logo
আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪
শিরোনাম

প্রেমিকার অপমৃত্যুর খবর শুনে প্রেমিকের আত্মহত্যার নাটক

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ জুন ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ২৯১জন দেখেছেন

Image

জসীমউদ্দীন ইতি ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: পীরগঞ্জে আশরাফুন আক্তার আঁখি নামে নবম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। প্রেমিক বিয়ে করতে না চাওয়ায় শনিবার ( জুন) সন্ধ্যায় পৌর শহরের মিত্রবাটী এলাকায় নিজ বাড়িতে আত্মহত্যা করে ওই শিক্ষার্থী। এদিকে প্রেমিকার মৃত্যুর খবর শুনে প্রেমিক আত্মহত্যার নাটক করে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার অভিযোগ উঠেছেএলাকাবাসী জানান, পৌর শহরের মিত্রবাটি গ্রামের আশরাফুলের মেয়ে আঁখি আকতার পীরগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী। আঁখির সাথে একই এলাকার আব্দুল মজিদের ছেলে আবিরের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এরই মধ্যে আঁখিকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে আবির তার সাথে শারিরীক সম্পর্কে জড়ায়। বিষয়টি উভয় পরিবারের মাঝে জানাজানিও হয়। এক পর্যায়ে তাকে বিয়ে করতে প্রেমিক আবিরকে চাপ দেয় আাঁখি কিন্তু প্রেমিক আবির তাকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায়। এতে শনিবার সন্ধ্যায় নিজের শয়ন ঘরের বাঁশের সরের সাথে ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে আঁখিওই শিক্ষার্থীর মা হাসিনা বানুর দাবি আবির তার মেয়েকে আত্মহত্যা করতে বাধ্য করেছে। এদিকে বিষয়টি ধামাচাপা দিতে মানসিক সমস্যার কারণে আঁখি আত্মহত্যা করেছে উল্লেখ্য করে থানায় লিখিত আবেদন করেছেন আঁখির চাচা মোতালেব


অপর দিকে, আঁখির আত্মহত্যার বিষয়টি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে প্রেমিক আবির শনিবার রাতে নিজেও আত্মহত্যার নাটক করে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি হয় পীরগঞ্জ হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার আব্দুর রহমান সোহান জানান, আবির নামে এক যুবক হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল। রোববার ( জুন) সকালে তিনি বাড়ি চলে গেছেন। তবে তার গলায় আত্মহত্যার চেষ্টার কোনো আলামত পাওয়া যায়নি

পীরগঞ্জ থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম জানান, এক শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঠাকুরগাঁও মর্গে পাঠানো হয়েছে। বিষয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। তবে আবির নামে কেউ আত্মহত্যার নাটক করেছে এমন খবর পাইনি


আরও খবর



ডোমারে উপজেলা পরিষদের নব-নির্বাচন চেয়ারম্যান সুমি’র গণসংবর্ধনা

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ৯৮জন দেখেছেন

Image

মানিক, ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি:নীলফামারীর ডোমারে ৬ষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তার সরকার ফারহানা আখতার সুমি’কে গণসংবর্ধনা দেয়া হয়েছে।

গত বুধবার সন্ধ্যায় সেনারায় ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন উপজেলার ৯নং সোনায়ায় ইউনিয়ন বাসী। বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ জুয়েল রানা’র সভাপতিত্বে অতিথি হিসাবে সমাজ সেবক তরিকুল ইসলাম বুন্নু, জয়নাল আবেদীন,ধীমান রায়, মিজানুর রহমান, ওবায়দুল ইসলাম প্রমূখ বক্তব্য রাখেন। এই প্রথম উপজেলা পরিষদের নারী চেয়ারম্যানকে একটি নজর দেখার জন্য বিভিন্ন বয়সের হাজারো জনতার উপচেপড়া ভীড় ছিল চেখে পড়ার মতো। এ সময় ব্যবসায়ী, চাকুরীজীবী, শ্রমিকসহ নানা শ্রেনী পেশার মানুষ প্রিয় নেত্রীকে ফুলের শুভেচ্ছা শুভেচ্ছা জানান।  নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান সরকার ফারহানা আখতার সুমি বলেন আপনাদের আমানত ভোট আমাকে দান করেছেন এবং বিপুল ভোটের ব্যবধানে আমাকে বিজয়ী করেছেন। আমি সকলকে সাথে নিয়ে সুখে দুখে এক হয়ে এলাকার উন্নয়নে কাজ করে যাবো। বিরোধীতা না করে বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি। শেষে নিজের গলায় পরিহিত ফুলের মালা খুলিয়ে বিক্সা, ভ্যাান, অটো চালক ও খেটে খাওয়া সাধারণ শ্রমিকদের পড়িয়ে দেন নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান।


আরও খবর



শিক্ষার্থীকে ধর্ষনের অভিযোগে দুইজন আটক

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ৬২জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:যশোরের মণিরামপুর থানার ঘুঘুদাহ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে ধর্ষনের অভিযোগে র‌্যাব-৬ এর সদস্যরা চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী দেব্রবত কুমার বাচ্চু (৩৮) ও নিমাই মন্ডল (৫০) কে গ্রেপ্তার করেছে ।

উপজেলার ঘুঘুদাহ এলাকায় অভিযান চালিয়ে বুধবার (১২ জুন) ভোর রাতে  তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-৬ যশোরের কোম্পানি অধিনায়ক মোহাম্মদ সাকিব হোসেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানাযায়, ঘুঘুদাহ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেনীর এক শিক্ষার্থীকে ফুসলিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ধর্ষন করে আসছিলেন নিমাই মন্ডল। আর এ কাজের সহযোগীতা করেছেন দেবব্রত কুমার বাচ্চু। এ ঘটনা ভিকটিমের মা জানতে পেরে র‌্যাবের সহযোগীতায় মনিরামপুর থানায় মামলা দায়ের করেন।

এই মামলায় র‌্যাব অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে। মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মণিরামপুর থানার ওসি এবিএম মেহেদী মাসুদ।


আরও খবর



রূপগঞ্জে প্রতীক বরাদ্দের সময় রিটার্নিং কর্মকর্তার সামনে মেয়র প্রার্থীর উপর হামলা

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ৯৩জন দেখেছেন

Image

আবু কাওছার মিঠু রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধিঃনারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে প্রতীক বরাদ্দের সময় রিটার্নিং কর্মকর্তা ও পুলিশ প্রশাসনের সামনেই মেয়র প্রার্থী রফিকুল ইসলামের উপর হামলা চালিয়েছে তার প্রতিদ্বন্দী মেয়র প্রার্থী দেওয়ান আবুল বাশার বাদশা। এসময় মেয়রকে প্রায় ১০ মিনিট অবরুদ্ধ করে রাখে বাদশার সমর্থকরা। এক পর্যায়ে তারা উপজেলা সম্মেলন কক্ষের দরজা, জানালা ভাঙচুর ও চেয়ার ছোঁড়াছোঁড়ি করে। পরে অতিরিক্ত পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সোমবার বেলা ১১ টার দিকে রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে এই ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় আবুল বাশার বাদশাকে মৌখিক ভাবে সতর্ক করেছে নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব প্রাপ্ত জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ইস্তাফিজুল হক আকন্দ।  

সরেজমিনে দেখা গেছে, সোমবার উপজেলা সম্মেলন কক্ষে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ করছিলেন রিটার্নিংকর্মকর্তা। উপজেলা নির্বাচন অফিসার তাজাল্লি ইসলাম, রূপগঞ্জ থানার ওসি দীপক চন্দ্র সাহাসহ প্রশাসনিক কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন। প্রতীক বরাদ্দের আগে থেকেই মেয়র প্রার্থীদের জন্য নির্ধারিত স্থানে নিজের প্রস্তাবকারী ও সমর্থনকারীদের নিয়ে বসে ছিলেন রফিকুল ইসলাম। 

এসময় আবুল বাশার বাদশা লোকজন নিয়ে সম্মেলন কক্ষে প্রবেশ করে রফিককে  আসন ছেড়ে পেছনে গিয়ে বসতে বলেন। রফিক চেয়ার ছাড়তে রাজি না হলে বাদশা অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন এবং রফিকুলের গায়ে ধাক্কা দেন। এসময় রফিকের সমর্থকরা ঘটনার প্রতিবাদ জানালে বাদশার সঙ্গে আসা লোকজন রফিকের সমর্থকদের উপর হামলা চালায়। এতে উভয় পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি ও চেয়ার ছোড়াছুড়ি হয়। পরে বাদশার লোকজন সম্মেলন কক্ষের দরজা, জানালা ও প্রজেক্টর ভাংচুর করেন। 

এসময় উপজেলা পরিষদ এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

মেয়র প্রার্থী রফিকুল ইসলাম বলেন, বাদশা বহিরাগত ভাড়া করে এনে নির্বাচন করছে। তাতেও ভোটারদের মধ্যে নিজের কোন প্রভাব তৈরি করতে পারছে না। নিজের পরাজয় নিশ্চিত জেনে সে প্রতীক বরাদ্দের সময় আমার এবং আমার সমর্থকদের উপর হামলা চালিয়েছে। ওরা প্রশাসনের সামনেই আমার উপর হামলা করার দুঃসাহস দেখায়। নির্বাচন যেন অবাদ ও সুষ্ঠু হয়, বহিরাগতরা যেন নির্বাচনের পরিবেশ নষ্ট করতে না পারে সে বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার জন প্রশাসনের কাছে দাবি জানাচ্ছি। 

আবুল বাশার বাদশা বলেন, বসা নিয়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। ওরা রিফুজি, ওরা সামনে বসবে কেন? তাই আমি তাদেরকে চেয়ার থেকে উঠিয়ে দিয়েছি।

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটেছে। এটা যেনো আর না হয় সেদিকে দৃষ্টি আছে।

জেলা রিটানিং অফিসার ইস্তাফিজুল হক আকন্দ বলেন, অনাকাঙ্খিত একটি ঘটনা ঘটে যাওয়ায় আমার আন্তরিকভাবে দুঃখিত। এ ব্যাপারে বাদশাকে মৌখিকভাবে সতর্ক করা হয়েছে। 

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



কালিয়াকৈরে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ১১৪ কক্ষ ভস্মিভূত, ব্যাপক ক্ষতি

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ মে 20২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ৮৬জন দেখেছেন

Image
সাগর আহম্মেদ,কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:গাজীপুরের কালিয়াকৈরে শুক্রবার দুপুরে  ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের  ঘটনা ঘটেছে। এ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ছয়টি কলোনীর ১১৪টি কক্ষ ভস্মিভূত হয়েছে। এতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। আগুনে পুড়ে নিঃস্ব হয়েছেন এসব কলোনীর মালিক ও কক্ষে ভাড়া থাকা শ্রমিক পরিবারগুলো।এলাকাবাসী, ক্ষতিগ্ৰস্থ পরিবার, ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা গেছে, কালিয়াকৈর উপজেলার মৌচাক তেলিরচালা এলাকায় শুক্রবার দুপুর দেড়টার এ ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। ওই এলাকার সরোয়ার দর্জির বাসার একটি কক্ষ থেকে আগুন জ্বলে উঠে। মুহুর্তের মধ্যে আগুন ওই কলোনীসহ আশপাশে ছড়িয়ে পড়ে। এক পযায়ে ছয়টি কলোনীতে আগুনের লেলিহান শিখা এবং কালো ধোয়া বের হতে দেখে নেভানোর চেষ্টা করে এলাকাবাসী। পরে খরব পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় এক ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে  আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। ততক্ষণে ভয়াবহ এ অগ্নিকান্ডে ছয়টি কলোনির প্রায় ১১৪ টি কক্ষ পুড়ে ছাই হয়ে যায়। আগুনে পুড়ে কক্ষগুলোর ভেতরে থাকা টেলিভিশন, ফ্রিজ, আসবাবপত্র সহ সব মিলিয়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আগুনে পুড়ে নিঃস্ব হয়েছেন এসব কলোনীর মালিক ও কক্ষে ভাড়া থাকা শ্রমিক পরিবার গুলো। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সুত্রপাত ঘটে। 

কালিয়াকৈর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা  ইফতেখার হোসেন রায়হান চৌধুরী জানান, খবর পেয়ে দুটি ইউনিট নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে যায়। কিন্তু আগুনের তীব্রতা বেশি হওয়ায় কোনাবাড়ি মডার্ন ফায়ার সার্ভিস থেকে দুটি ইউনিট আসে। ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট প্রায় এক ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। তবে কি পরিমান ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে? তা এখনো নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।

এদিকে ওই ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে কালিয়াকৈর উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান সেলিম আজাদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এসময় ওই চেয়ারম্যান বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এসব কক্ষে পোশাক কারখানার শ্রমিক ভাই-বোন তাদের পরিবার নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন। কলোনীর মালিকরা ও শ্রমিক ভাই-বোনরা অনেক ক্ষতিগ্ৰস্থ হয়েছেন। তবে আগুনে পুড়ার ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ বিশ্লেষণ করে উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হবে। 

গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ্ আল আরেফিন জানান, খবর পেয়ে কালিয়াকৈর ফায়ার সার্ভিস ও কোনাবাড়ী ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় এক ঘন্টার চেষ্টা চালিয়ে  দুপুর ২টা ১৫মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। এতে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। তবে তাৎক্ষণিক আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয় ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি।

আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪




হাতে লেখা বিশ্বের সর্ববৃহৎ আল-কুরআনের মোড়ক উন্মোচন করেন ধর্মমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ১২০জন দেখেছেন

Image
লিয়াকত হোসাইন লায়ন,জামালপুর থেকে:হাতে লেখা বিশ্বের সর্ববৃহৎ পবিত্র আল-কুরআনের মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে। ২৩মে বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবে আব্দুস সালাম হলে মোড়ক উন্মোচন করেন ধর্মমন্ত্রী মোঃ ফরিদুল হক খান ।

ধর্মমন্ত্রী বলেন, বিশ্বে আমাদের ব্যতিক্রমী বেশকিছু পরিচয় রয়েছে। সারাবিশ্বে আমরাই একমাত্র জাতি যারা মায়ের ভাষার জন্য প্রাণ উৎসর্গ করেছি। আমরা দেশ মাতৃকার মুক্তির জন্য ৩০ লাখ প্রাণ বিসর্জন দিয়েছি। স্বাধীনতার ৫৩ বছরে উন্নয়ন ও উৎপাদনের বিভিন্ন সূচকে বিশ্বের ১০টি দেশের মধ্যে স্থান করে নিয়েছি। হাতে লেখা পৃথিবীর সর্ববৃহৎ পবিত্র কুরআন শরীফ নিঃসন্দেহে একটি ব্যতিক্রমী উদ্যোগ। প্রতিটি ইতিবাচক ও ব্যতিক্রমী উদ্যোগই দেশ-জাতির জন্য সম্মান বয়ে আনে। আজকের এই মহতী কাজটিও দেশের জন্য সম্মান বয়ে আনবে। 

ধর্মমন্ত্রী আরো বলেন, বর্তমান সরকার ইসলাম ও মুসলমানদের খেদমতে নিবেদিত হয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ইসলামিক ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে এদেশে ইসলাম প্রচার ও প্রসারের দ্বার উন্মোচন করে গেছেন। তাঁর সেই পথ অনুসরণ করেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইসলামের খেদমত করে যাচ্ছেন। সম্পূর্ন সরকারি অর্থায়নে ৯ হাজার ৪৩৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ৫৬৪টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র স্থাপন করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে ৩০০ টির নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেগুলোর উদ্বোধন করেছেন। এটিও মুসলিম বিশ্বে একটি ব্যতিক্রমী ও অনন্য নজির। তিনি আয়োজক সংস্থার দাবী যাচাই-বাছাই করে তাদের কাজে যথাযথ মূল্যায়ন ও স্বীকৃতি দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট সংস্থাকে অনুরোধ জানান।

হাফেজ আবদুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে জাতীয় হৃদরোগ ইনষ্টিটিউট ও হাসপাতাল জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা মোহাম্মদ কামাল হোসেন, ক্বারী শায়েখ আহমদ বিন ইউসুফ আল আজহারী, হাতে লেখা পৃথিবীর সর্ববৃহৎ পবিত্র আল-কুরআন প্রদর্শন আয়োজক কমিটির সভাপতি স. ম. ইফতেখার মাহমুদ বক্তব্য প্রদান করেন। 

উল্লেখ্য, হাতে লেখা পৃথিবীর সর্ববৃহৎ পবিত্র আল-কুরআন প্রদর্শন আয়োজক কমিটি রচিত এই আল-কুরআনের দৈর্ঘ্য ও প্রস্থ যথাক্রমে ১৪ ফুট ও ১২ ফুট। এতে মোট ২০০টি পৃষ্ঠা রয়েছে। এর ওজন প্রায় ৮০০ কেজি। হাতে তৈরি বাঁশের কলম ও দোয়াত কালি দিয়ে এটি লেখা হয়েছে।

আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪