Logo
আজঃ শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

চলচ্চিত্র নির্মাতা সৈয়দ সালাহউদ্দিন জাকী আর নেই

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ | ২৩০জন দেখেছেন

Image

সায়মন তারিক:চলচ্চিত্র নির্মাতা সৈয়দ সালাহউদ্দিন জাকী আর নেই। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ সোমবার রাত ১১ টা ৫৩ মিনিটে রাজধানীর গুলশান ইউনাইটেড হাসপাতালে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে সৈয়দ সালাহউদ্দিন জাকীর বয়স হয়েছিল ৭৭ বছর। ১৯৪৬ সালের ২৬ আগস্ট তিনি জন্মগ্রহণ করেন।

চলচ্চিত্র পরিচালক  সৈয়দ সালাউদ্দিন জাকী কাহিনিকার, সংলাপ রচয়িতা, চিত্রনাট্যকার ও লেখক হিসেবে পরিচিত। ১৯৮০ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত নিজের প্রথম চলচ্চিত্র ‘ঘুড্ডি’ দিয়ে দর্শকদের পাশাপাশি চলচ্চিত্র সমালোচকদেরও মন জয় করেন তিনি। এই সিনেমার জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ সংলাপ রচয়িতা হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। এরপর ‘লাল বেনারসি’, ‘আয়না বিবির পালা’সহ কয়েকটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন।  ২০২১  সালে একুশে  পদক  লাভ  করেন।

সম্প্রতি তিনি ইমপ্রেস টেলিফিল্মের প্রযোজনায় দুটি চলচ্চিত্রের কাজ শেষ করেন। একটি 'অপরাজেয় একা' অন্যটি 'ক্রান্তিকাল'।  উনার মৃত্যুতে চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি শোক বিবৃতি  দিয়েছেন।



আরও খবর



চট্টগ্রামের পটিয়ায় ট্রাক-সিএনজি সংঘর্ষে ৪ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ১২ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | ৭৬জন দেখেছেন

Image

পটিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি:ট্রাক-সিএনজির সংঘর্ষে চট্টগ্রামের পটিয়ায় দুই শিশুসহ অটোরিকশার ৪ যাত্রী নিহত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে পটিয়া-বোয়ালখালি সড়কের মিলিটারিপুল এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহতদের মধ্যে রুমি আকতার (৩৪)। তিনি পটিয়া উপজেলার জঙ্গলখাইন ইউনিয়ন আলীর মেয়ে। অপর শিশুর নাম ফাহিম (৬), নাহিদ (৭) একই এলাকার গিয়াস উদ্দিনের পুত্র। নিহত সিএনজি অটোরিকশা চালক আনোয়ার হোসেন (৩৭)। তিনি বোয়ালখালী উপজেলার বাসিন্দা।

পুলিশ জানায়, বোয়ালখালি থেকে যাত্রী নিয়ে অটোরিকশাটি পটিয়া যাওয়ার পথে বিপরীত দিক থেকে আসা বালুবাহী একটি ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে অটোরিকশাটি দুমড়ে-মুচড়ে ঘটনাস্থলেই ৩ জন এবং হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের টিম গিয়ে দুর্ঘটনার শিকার যাত্রীদের উদ্ধার করে।

পটিয়া ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার মোহাম্মদ এনামুল হক জানান, ট্রাক-সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলে ৩ জন ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

পটিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন বলেন, ‘দুর্ঘটনার খবর পেয়ে দ্রুত পটিয়া থানার একদল পুলিশ, পটিয়ার ফায়ার সার্ভিস ও কালারপোল পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা নিহতদের উদ্ধার করে। পরে পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। নিহত মা-ছেলের মরদেহ পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে থেকে নিহতদের লাশ সনাক্ত করে স্বজনরা বাড়িতে নিয়ে যান। ট্রাকটি আটক করা হলেও ঘাতক চালক পলাতক রয়েছেন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



নবীনগরে ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাকুট উচ্চ বিদ্যালয়ের শতবর্ষ পূর্তি উদযাপন

প্রকাশিত:রবিবার ২৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | ১১১জন দেখেছেন

Image

মোহাম্মাদ হেদায়েতুল্লাহ্ নবীনগর ব্রাহ্মণবাড়ীয়া প্রতিনিধিঃব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বিদ‍্যাপিট, বিদ‍্যাকুট অমর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠার শতবর্ষ পূর্তি উৎসব উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয়েছে।শনিবার দিনব্যাপী অত্র বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি , শিক্ষকমন্ডলী ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের এক যৌথ উদ্দ্যোগে,বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে, জেলা ও উপজেলার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গগণের উপস্থিথিতে মনোমুগ্ধকর।

`মনোরম পরিবেশে, বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠার শতবর্ষ পূর্তি উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভাও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয়েছে।সকাল থেকে রাত পর্যন্ত নবীন- প্রবীণ ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পদচারণে মুখরিত ছিল অত্র বিদ্যালয়ের প্রাঙ্গণ।অনুষ্ঠানে  প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য ফয়জুর রহমান বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে শতবর্ষ স্মৃতি স্তম্ভের উদ্বোধন করেন।অনুষ্ঠানের পূর্বে, আমন্ত্রিত অতিথিদেরকে প্রথমে ফুলেল শুভেচ্ছা দিয়ে বরণ করে নেয়ার পড়ে সাদা কবুতর উড়িয়ে শান্তির কামনায় অনুষ্ঠান টি সূচনা করেন।

অনুষ্ঠান চলাকালে অত্র বিদ্যালয়ের বর্তমান শিক্ষার্থীরা, প্রাক্তন সকল শিক্ষার্থীদের হাতে  রজনীগন্ধা স্টিক দিয়ে বরণ করে নেয়।উক্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অত্র বিদ‍্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আবদুল আউয়ালের সভাপতিত্বে ও আব্দুল মতিন শিপনের সঞ্চালনায় এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ (নবীনগর)আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ফয়জুর রহমান বাদল।

এছাড়াও বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন নবীনগরের কৃতি সন্তান ট্যুরিস্ট পুলিশের সিলেট জোনের পুলিশ সুপার বিল্লাহ হোসেন,ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সোনাহর আলী, নবীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জহিরউদ্দিন চৌধুরী শাহন, উপজেলা সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউল হক সরকার, বিদ্যাকুট ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান জাকারুল হক,শিবপুর সুর সম্রাট আলাউদ্দিনের ডিগ্রী  কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ  সিরাজুল ইসলাম।

অত্র বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি শফিকুর রহমান,  অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আসাদুজ্জামান সরকার, ডা. মাহবুবুর রহমান - সহ শতবর্ষ উদযাপন কমিটির সকল নেতৃবৃন্দ সহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার অসংখ্য অগণিত গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।আলোচনা সভা ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যায় শতবর্ষ উৎসবে চিরকুট, কনসার্ট চলে মধ্যরাত পর্যন্ত।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



মধুপুরের আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় অতন্দ্র প্রহরী ফারহানা আফরোজ জেমি

প্রকাশিত:বুধবার ২৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | ১৩৭জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃটাঙ্গাইল জেলায় সার্কেল পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে ১৩ মাসে ১১বার শ্রেষ্ঠত্বের গৌরব অর্জনকারী সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (আইজিপি পদক প্রাপ্ত) নারী পুলিশ কর্মকর্তা ফারহানা আফরোজ জেমি। তিনি টাঙ্গাইলের মধুপুর সার্কেলাধীন মধুপুর ও ধনবাড়ী থানায় বিগত ১৩ মাস যাবত দায়িত্ব পালন কালে এমন অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জনের অধিকারী হয়েছেন। পুলিশ প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্ম বিশ্লেষণে তিনি এমন গৌরবের কৃতিত্ব ও সাফল্য অর্জন করেছেন।

তার এই অর্জনের পিছনে রয়েছে অক্লান্ত পরিশ্রম, মেধা ও বিচারিক বুদ্ধিমত্তা। তিনি প্রতিনিয়ত থানা ও বিভিন্ন পুলিশ ফাঁড়ি আকস্মিক পরিদর্শন করার মাধ্যমে পুলিশ  অফিসার ও ফোর্সদের নিষ্ঠার সাথে  দায়িত্ব পালনে বিভিন্ন পরামর্শ দিয়ে থাকেন।তিনি সকল অফিসার ও ফোর্সদের রোলকল গ্রহণের মাধ্যমে ফাঁড়ি এলাকায় রাত্রিকালীন টহল ডিউটি, ওয়ারেন্ট তামিল,গান চেকিং এবং ফাঁড়ি এলাকার আইন-শৃংখলা ও নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে গুরুত্বপূর্ণ দিক নির্দেশনা দিয়ে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন। 

তার এই দিকনির্দেশনার কারণে মধুপুর ও ধনবাড়ি উপজেলার আইন শৃঙ্খলার ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। উপজেলার যেকোনো প্রান্ত থেকে  কোনো অভিযোগ এলে তিনি  কালক্ষেপণ না করে তার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে সাথে সাথে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হওয়ার অনেক নজির তিনি সৃষ্টি করেছেন। যে কারণে অতি অল্প সময়ের মধ্যে মানুষের মনে একজন আস্থাভাজন পুলিশ অফিসার হিসেবে তিনি জায়গা করে নিয়েছেন । সব শ্রেণী পেশার মানুষ তার কাছে গিয়ে সরাসরি সমস্যার কথা বলতে পারেন এবং সুষ্ঠু সমাধানও পেয়ে থাকেন।

তার সততা, নিষ্ঠা ও ভালোবাসার কারণে অনেক অসহায় হতদরিদ্র পরিবার ন্যায় বিচার পাওয়ার আশায় তার শরণাপন্ন হন। তিনি নিজ উদ্যোগে অনেক অসহায় বাদি-বিবাদি পরিবারকে মামলার হয়রানি থেকে ফিরিয়ে এনে সুষ্ঠু সমাধানের মাধ্যমে আপোষ মিমাংসা করে দিয়ে মামলার জটলা অনেকাংশে কমিয়ে এনেছেন। বর্তমানে সময়ে আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় বীরদর্পে এগিয়ে যাওয়া  জেলায় সার্কেল পুলিশ অফিসার হিসেবে ১৩ মাসে ১১বার শ্রেষ্ঠত্বের গৌরব অর্জনকারী সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (আইজিপি পদক প্রাপ্ত) নারী পুলিশ কর্মকর্তা ফারহানা আফরোজ জেমি মধুপুর ও ধনবাড়ি মানুষের অন্তরে স্থান পাওয়া একজন অতন্দ্র প্রহরীর নাম। 

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



ভোলার দৌলতখানে জমি নিয়ে বিরোধ, বসত ঘরের বারান্দায় বৃদ্ধাকে দাফন

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১০২জন দেখেছেন

Image

শরীফ হোসাইন, ভোলা বিশেষ প্রতিনিধি:ভোলার দৌলতখানে জমি জমা বিরোধের জের ধরে জোবেদা খাতুন (৫৫) নামে এক বৃদ্ধা নারীকে তার বসত ঘরের বারেন্দার মধ্যে দাফন করা হয়েছে। বুধবার ঘটনাটি ঘটেছে দৌলতখানের দক্ষিণ জয়নগর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সর্দার বাড়িতে।

স্থানীয়সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘ দেড় বছর পূর্বে জোবেদা খাতুনের স্বামী আব্দুর রশিদ মৃত্যুবরণ করেন। তখন তাকে দাফন করা হয়েছিল তার ভাতিজা রফিক এর জায়গায়। পারিবারিক কলহের জের ধরে ঐ কবরের উপরে রফিকের স্ত্রী তাসনুর বেগম ঝাড়ু দিয়ে কবরকে অসম্মান করায় জোবেদা খাতুন তার ছেলে-মেয়েকে মৃত্যুর আগে অছিয়ত করেছিল তাকে যেন মৃত্যুর পর কারো জায়গায় দাফন না করা হয়। প্রয়োজনে তার ঘরের মধ্যে দাফন করতে বলেছেন।

মৃত জোবেদা খাতুনের বড় ছেলে রফিজল জানান, তাদের বাড়িতে সাড়ে ৫ শতক জমি রয়েছে। ঘরের ভিটায় আড়াই শতক এবং বাকি ৩ শতক জমি তার চাচাতো ভাই রফিক দখল করে বিল্ডিং নির্মাণ করিতেছেন। ঘরের ভিতর তার মাকে দাফন না করলে হয়তো এক সময় তাঁর চাচাতো ভাই রফিক বাকি জমি জবর দখল করে নিয়ে যাবে। তিনি আরো বলেন, এক দিকে মায়ের কবর হলো; অন্যদিকে তাদের ঘর ভিটা তাদের নিয়ন্ত্রণে রহিলো। রফিকের বিল্ডিংয়ের দরজার সামনেই জোবেদা খাতুনকে কবর দেয়া হয়েছে। পরে এলাকাবাসী জোবেদা খাতুনের কবরটি ইট দিয়ে পাকা করে দিয়েছে। যাতে করে রফিক ভবিষ্যতে জোবেদা খাতুনের কবরসহ ঘর ভিটা দখল করতে না পারে। রফিকের বাবার সাথে কথা বললে তিনি জানান, এ বাড়িতে সব জমি আমার। এখানে অন্য কারো জমি নেই।


আরও খবর



রূপগঞ্জে মামলা তুলে না নেয়ায় বাদীর বাড়ীঘরে হামলা, ভাংচুর, আগুন ১ জনকে কুপিয়ে জখম

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ | ৫৫জন দেখেছেন

Image

আবু কাওছার মিঠু রূপগঞ্জ নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিঃনারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে আদালত থেকে  পূর্বের দায়ের করা মামলা তুলে না নেয়ায় মামলার বাদীর বাড়ীঘরে হামলা,  ভাচুর ও লটপাটের অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। এসময় হামলাকারীরা একটি ডাম্পট্রাকে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। বাধা দেয়ায় একজনকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার খৈশার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

রূপগঞ্জ থানার ওসি দিপক চন্দ্র সাহা জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে গত ৬ জুন খৈশার এলাকার হারিজুলের সাথে একই এলাকার যুবলীগ নেতা ছাত্তারের সাথে ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে ছাত্তারের লোকজন হারিজুলে দুইটি ডাম্পট্রাকে আগুন জ্বালিয়ে দেয়, বাড়ী ঘরে হামলা, ভাংচুর করে। এ ঘটনায় হারিজুল বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় সাত্তারসহ ১০ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। এদিকে মামলা তুলে না নেয়ায় মঙ্গলবার রাত ১০ টারদিকে সাত্তারের নেতৃত্বে ১৫/২০ জন দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে হারিজুলের বাড়ী ঘরে হামলা ও ভাংচুর করে। এসময় বাধা দেয়ায় 

হামলাকারীরা হারিজুলের ছোট ভাই আমিনুল ইসলামকে(৩০) এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। একপর্যায়ে তারা একটি ডাম্পট্রাক আগুনে জ্বালিয়ে দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। আহত আমিনুলকে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেলে পরবর্তী আইনানুক ব্যাস্থা গ্রহন করবেন বলে ওসি আরো জানান।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর