Logo
আজঃ শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪
শিরোনাম
কক্সবাজারে পাহাড় ধসে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু বন্ধ শিল্প প্রতিষ্ঠান চালুর পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে: শিল্পমন্ত্রী বাংলাদেশের হার দিয়ে সুপার এইট শুরু গোদাগাড়ীতে রাসেল ভাইপারের চিকিৎসার দাবিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রীর কাছে চিঠি দিয়েছে নাগরিক স্বার্থ-সংরক্ষণ কমিটি রূপগঞ্জে জমে উঠেছে কাঞ্চন পৌরসভা নির্বাচন যাত্রাবাড়ীতে পুলিশ কর্মকর্তার বাবা মাকে কুপিয়ে হত্যা যানজট নিরসনে সংসদ সদস্যগণের সাথে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের সমন্বয়সভা ভোলায় ফের দেখা মিলল রাসেল ভাইপার, জনমনে আতঙ্ক বাজেট পাস হয়নি,অনেক কিছু পুনর্বিবেচনা করা সম্ভব: অর্থমন্ত্রী দেশের সব মহৎ অর্জন আ. লীগের মাধ্যমেই হয়েছে: ওবায়দুল কাদের

বাংলাদেশ র‍্যাঙ্কিংয়ে পুরনো অবস্থানে ফিরল, জায়গা হারাল ভারত

প্রকাশিত:শনিবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ৩৬২জন দেখেছেন

Image

স্পোর্টস ডেস্ক:দুইদিন আগে শ্রীলঙ্কার কাছে হেরে ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ের আট নম্বরে চলে যায় বাংলাদেশ। দীর্ঘদিন ধরে সাত নম্বরে থাকা বাংলাদেশকে হারিয়ে আট থেকে সাত নম্বরে উঠে যায় শ্রীলঙ্কা। 

তবে একদিন না যেতে আবারও নিজেদের পুরনো জায়গা ফিরে পেয়েছে বাংলাদেশ। ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের আগে এশিয়া কাপে চার ম্যাচে এক জয় পাওয়া বাংলাদেশের ছিল ৩২ ম্যাচে ৯২ রেটিং পয়েন্ট। সাতে উঠে শ্রীলঙ্কার রেটিং পয়েন্ট দাঁড়ায় ৩৭ ম্যাচে ৯৩।

তবে ভারতের বিপক্ষে ৬ রানের জয়ে আবারো উলটে যায় হিসেব। সাত নম্বরে উঠে বাংলাদেশের রেটিং পয়েন্ট এখন ৩৩ ম্যাচে ৯৪। আট নম্বরে চলে যাওয়া শ্রীলঙ্কার রেটিং পয়েন্ট ৩৭ ম্যাচে ৯৩।

এদিকে এশিয়া কাপের আগে আফগানিস্তানকে হারিয়ে এক নম্বর জায়গা নেওয়া পাকিস্তান সুপার ফোরে ভারত ও শ্রীলঙ্কার কাছে হেরে যায়। অন্যদিকে এক নম্বর জায়গা হারানো অস্ট্রেলিয়া দক্ষিণ আফ্রিকাকে টানা হারিয়ে আবারও উঠেছে এক নম্বরে। 

বাংলাদেশের কাছে হেরে ২ রেটিং পয়েন্ট হারিয়ে দুই নম্বর থেকে তিন নম্বর অবস্থানে চলে গেছে ভারত। ৪০ ম্যাচে ভারতের রেটিং এখন ১১৪। পাকিস্তান অবস্থান করছে ২ নম্বরে, ইংল্যান্ড ৪ ও দক্ষিণ আফ্রিকা র‍্যাঙ্কিংয়ের ৫ নম্বরে।


আরও খবর



ট্রেনের ১৪ জুনের টিকিট আজ দেওয়া হচ্ছে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ৯৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ট্রেনের অগ্রিম টিকিট ঈদুল আজহা উপলক্ষে বিক্রি শুরু করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। যাত্রীদের অনলাইনে টিকিট ক্রয় করতে হচ্ছে। আজ বিক্রি হচ্ছে ১৪ জুনের টিকিট।

মঙ্গলবার (৪ জুন) সকাল ৮টায় টিকিট বিক্রি শুরু হয়। রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, যাত্রী সাধারণের টিকিট কেনা সহজলভ্য করার জন্য পশ্চিমাঞ্চলে চলাচলরত সব আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট বিক্রি সকাল ৮টায় শুরু হয়েছে। আর পূর্বাঞ্চলে চলাচলরত সব ট্রেনের টিকিট দুপুর ২টা থেকে বিক্রি শুরু হবে।

মঙ্গলবার যারা টিকিট ক্রয় করছেন তারা আগামী ১৪ জুন ভ্রমণ করতে পারবেন। একজন যাত্রী ঈদের আগে যাত্রা ও ফিরতিতে সর্বোচ্চ একবার টিকিট ক্রয় করতে পারবেন এবং সর্বাধিক ৪টি আসনের টিকিট ক্রয় করতে পারবেন। এক্ষেত্রে যাত্রীর সর্বোচ্চ এই ৪টি টিকিট ক্রয়ের ক্ষেত্রে সহযাত্রীদের নাম সংযুক্ত করে দেওয়ার ব্যবস্থা আছে। ঈদযাত্রার এই টিকিট রিফান্ড করা যাবে না।

ঈদের চাঁদ দেখার ওপর নির্ভর করে ১৭, ১৮ ও ১৯ জুনের টিকিট বিক্রি করা হবে। ঈদযাত্রার ফিরতি টিকিট বিক্রি শুরু হবে ১০ জুন। ১০ থেকে ১৪ জুন পর্যন্ত ২০ থেকে ২৪ জুনের ফিরতি অগ্রিম টিকিট বিক্রি করা হবে।

২০ জুনের অগ্রিম টিকিট দেওয়া হবে ১০ জুন। ২১ জুনের টিকিট দেওয়া হবে ১১ জুন। ২২ জুনের টিকিট দেওয়া হবে ১২ জুন। ২৩ জুনের টিকিট দেওয়া হবে ১৩ জুন। আর ২৪ জুনের টিকিট দেওয়া হবে ১৪ জুন।


আরও খবর



মহাসড়কে অটো রিক্সা চলাচল না করতে ওয়ারী ট্রাফিক বিভাগের প্রচারণা

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ১৯২জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হাসানঃরাজধানীর পোস্তগোলা এলাকায় মহাসড়ক ও প্রধান সড়কে ব্যাটারী চালিত অটো রিক্সা চলাচল না করতে সতর্কবার্তা দিয়েছে ওয়ারী ট্রাফিক বিভাগ। রবিবার ২৬ মে দুপুরে ব্যানার নিয়ে মাইকিং করে এই সতর্ক বার্তা দেওয়া হয়।

ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের ডিসি মোহাম্মদ আশরাফ ইমাম এর নেতৃত্বে,এডিসি সুলতানা ইশরাত জাহান এর দিকনির্দেশনায় এসি ট্রাফিক ডেমরা মোস্তাইন ফেরদৌস বিল্লাহ এর পরিচালনায় সরকারি নির্দেশনা মতে টিআই মনির আহমেদ সঙ্গীয় অফিসার্স ফোর্স সহ তার আওতাধীন মহাসড়ক (N532 পোস্তগোলা- চাষাড়া) এলাকায় মহাসড়কে, প্রধান সড়কে ব্যাটারি চালিত অটো রিক্সা চলাচল না করার জন্য চালকদেরকে মাইকিং করে ও ব্যানারের মাধ্যমে সতর্ক বার্তা পৌঁছে দেন। ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার ডিসি আশরাফ ইমাম জানান, ব্যাটারি চালিত অটো রিক্সার প্রধান সড়ক মহাসড়কে চলাচল রোধকল্পে এই কার্যক্রম চলমান থাকবে।

গত কয়েকদিন আগে সরকারি ঘোষণা মতে দেশের সব সড়কে ব্যাটারি চালিত অটো রিক্সা চলাচল নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়। পরবর্তীতে আন্দোলনের মুখে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণায় ঢাকা শহরে  ব্যাটারি চালিত অটো রিক্সা চলাচল করতে অনুমতি দেওয়া হয়। এতে দেখা যায় একশ্রেণীর অতি উৎসাহী ব্যাটারি চালিত অটো রিক্সার ড্রাইভার প্রধান সড়ক, মহাসড়ক, এক্সপ্রেস ওয়েতে ঢুকে যাত্রী পরিবহন করছে। এতে গত কয়েকদিনে বেশ ক'টি ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা দুর্ঘটনার শিকার হয়ে জানমালের বেশ ক্ষয়ক্ষতি হয়। গত শনিবার ২৫ মে দুপুরে যাত্রাবাড়ি ডেমরা এক্সপ্রেসওয়েতে মৃধাবাড়ি এলাকায় ব্যাটারিচালিত অটো রিক্সা এবং প্রাইভেট কারের মধ্যে সংঘর্ষে দুইজন আহত হয়। তাই দুর্ঘটনা কমাতে মহাসড়ক প্রধান সড়কে অটো রিক্সা চলাচল না করার জন্য সতর্কমূলক প্রচারণা চালাচ্ছে ট্রাফিক বিভাগ।


আরও খবর



রৌমারীতে স্মার্ট ভুমিসেবা সপ্তাহ উদ্বোধন

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | ৭০জন দেখেছেন

Image

মাজহারুল ইসলাম,রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি:স্মার্ট ভুমিসেবা, স্মাট নাগরিক প্রতিপাদ্যের উপর রৌমারীতে ভুমিসেবা সপ্তাহের শুভউদ্বোধন করা হয়েছে। ৮ জুন শনিবার সকাল ১১ টায় ফিতা কেটে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করা হয়। 

রৌমারী উপজেলা ভুমি অফিস আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রৌমারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম শালু। উপজেলা ভুমি অফিস কার্যালয়ের সামনে, উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদ হাসান খানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার মুক্তার হোসেনের সঞ্চলানায় সভায় উপজেলা কমিশনার ভুমি আশিফ উদ্দিন মিয়ার শুভেচ্ছা বক্তব্যের পর অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, অফিসার ইনচার্জ তদন্ত মোশাহেদ হোসেন, শৌলমারী ইউনিয়ন ভুমি কর্মকর্তা রুহুল্্যাহ, কৃষক মজনু মিয়া, প্রভাষক মোশারফ হোসেন, নির্বাচন অফিসার এমদাদুল হক, সাংবাদিক শওকত আলী মন্ডল, সাংবাদিক এসএম মমিন, উপজেলা ভাইচ চেয়ারম্যান সামসুল দোহা, মহিলা ভাইচ চেয়ারম্যান মাহমুদা আক্তার স্মৃতি। এ সময় স্কুলের শিক্ষার্থী, গণমাধ্যমকর্মী, ইউনিয়ন ভুমি কর্মকর্তা ও গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ। 

তবে স্মার্ট ভুমিসেবা উপজেলার কৃষকদের নিয়ে আলোচনা সভা করার কথা থাকলেও সভায় কৃষকদেরকে ডাকা হয়নি। কিভাবে স্মার্ট ভুমিসেবা ভুমি মালিকগণ পাবে এবং সমস্যা হবে না, সে জন্য ভুমি মালিকদের আলোচনার মাধ্যমে জানিয়ে দেয়ার প্রয়োজন বলে বক্তব্যের মাধ্যমে উঠে আসে।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বলেন, আমাদের অঞ্চল দরিদ্র অঞ্চল। চরাঞ্চল ও নদী ভাঙ্গন এলাকা। এখানকার মানুষ খুব অসহায়। জানা গেছে, ভুমিসেবা পেতে হয়রানি হতে হয়। আমি ইউনিয়ন ভুমি কর্মকর্তাদেরকে অনুরোধ করে বলতে চাই। ভুমি মালিকরা যেন সেবা নিতে এসে হয়রানির শিকার না হয়। ভুমি মালিকরা যাতে হয়রানির শিকার না হয় সে সরকার বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা করে দিয়েছেন। আপনারা শুধু তাদেরকে সুন্দর ভাবে বুঝিয়ে দিয়ে কাজ করে দিবেন।



আরও খবর



বোদায় সুপারির খোল দিয়ে আকর্ষণীয় তৈজসপত্র তৈরী

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ১১২জন দেখেছেন

Image

কুয়েল ইসলাম সিহাত, বোদা (পঞ্চগড়) প্রতিনিধি:পঞ্চগড়ের বোদা পৌর শহরে সুপারির খোল দিয়ে তৈজসপত্র তৈরী করে সাড়া ফেলেছেন ইকো গ্রীণ বিডি'র উদ্যোক্তা নুরল আলম সেলিম। স্বাস্থ্যকর হওয়ায় বাজারে অন্যান্য প্লেটের তুলনায় এগুলোর চাহিদাও বেশি। সুপারি গাছের খোল গ্রামে খুবই সহজলভ্য। সাধারণত জ্বালানী হিসেবে এটি ব্যবহার করা হয়। তবে এ খোল দিয়েই প্লাস্টিক প্লেটের বিকল্প হিসেবে বোদা পৌর শহরের শিমুলতলী এলাকায় নান্দনিক তৈজসপত্র তৈরি করা হচ্ছে।সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, প্রথমে জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে ২ টাকা পিস করে সুপারি গাছের খোল সংগ্রহ করা হয়। খোলগুলোকে নিমপাতা ও লেবুর রস যুক্ত পানি দিয়ে জীবাণুমুক্ত করে রোদে শুকিয়ে নেয়া হয়। এরপর পাতার খোল ছাঁচের মেশিনে বসিয়ে তাপ এবং চাপ প্রয়োগ করে কয়েক মিনিটের মধ্যেই গোলাকার বাটি, গোলাকার প্লেট, চৌকোণা প্লেট, লাভ প্লেট, চামুুুচ, ট্রে-সহ নানান ধরনের তৈজসপত্র তৈরী করা হচ্ছে।

বর্তমানে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে, রেষ্টুরেন্ট গুলোতে প্লাস্টিকের পরিবর্তে সুপারি গাছের খোল দিয়ে তৈরি জিনিসের ব্যাপক চাহিদার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানান এর প্রস্ততকারকরা। এ কারখানায় দৈনিক ১০০০-১২০০ পিস প্লেট, বাটিসহ নানা ধরনের তৈজসপত্র উৎপাদন হচ্ছে। প্রতি পিস প্লেট, বাটি ৫-১০ টাকায় বিক্রি করা হয়। বর্তমানে এ কারখানায় মোট ১৫ জন শ্রমিক কর্মরত রয়েছে। ইকো বিডি গ্রীণের পরিচালক ফরিদুল আলম হিরু বলেন, আমরা বিভিন্ন অনুষ্ঠানে প্ল্যাস্টিকের প্লেট ব্যবহার করে থাকি। যেগুলো ঠিকমতো ধরাও যায় না, আবার খাবার পড়ে যায়। কিন্তু তার তুলনায় আমাদের বানানো প্লেটগুলো শক্ত, সুন্দর ও সহজে পরিবহনযোগ্য। একবার ব্যবহার করে ধুইয়ে পরিস্কার করে শুকিয়ে তা আবার ব্যবহার যায়। সবচেয়ে ভালো দিক হলো এটি ব্যবহারের পর ফেলে দিলে এটি পঁচে জৈবসার হয়। প্লাস্টিকের থেকে দাম একটু বেশি। এটা পরিবেশবান্ধব একটি উদ্যোগ। এর পাশাপাশি এটি স্বাস্থ্যসম্মত। পরিবেশ সুরক্ষায় এর বিকল্প নেই বলে মনে করেন।

স্থানীয় কয়েকজন সুপারি বাগানের মালিকের সাথে কথা হয়। তারা জানান, আগে সুপারির বাগানের পাতা পড়ে নষ্ট হতো। এখন কারখানা হওয়ায় ঝরে পড়া সুপারির খোলের মূল্য হয়েছে। কারখানার শ্রমিক কাবলু জানান, কারখানাটি হওয়ায় তার মতো অনেকের কর্মসংস্থান হয়েছে। এমন কারখানা জেলায় আরও হলে অনেক বেকার লোকের কাজের সুযোগ হবে।

এ ব্যাপারে উপজেলার নির্বাহী অফিসার মো. শাহরিয়ার নজির জানান, এটা নিঃসন্দেহে একটি ভালো উদ্যোগ। সুপারির খোল দিয়ে তৈরি তৈজসপত্রের দেশ ছাড়া বিদেশেও চাহিদা রয়েছে। এসব পণ্য বিদেশে রপ্তানি করে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা আয় করা সম্ভব।


আরও খবর



রাণীশংকৈলে সেই স্বর্ণের মাটির স্তুপ পরিক্ষা ও স্ক্যান করার নির্দেশে দুই সদস্যের কমিটি গঠন

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ১০১জন দেখেছেন

Image
মাহাবুব আলম, রাণীশংকৈল(ঠাকুরগাঁও)প্রতিনিধি:ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার বাচোর ইউনিয়নের কাতিহার রাজোর এলাকার আরবিবি ইট ভাটার স্তুপ করা মাটি পরীক্ষা,অনুসন্ধান ও স্ক্যান করার নির্দেশসহ দুই সদস্যের একটি কমিটি করা হয়েছে। গত ২ জুন বাংলাদেশ ভুতাত্বিক জরিপ অধিদপ্তর পরিকল্পনা ও বাস্তবায়ন শাখা ঢাকার ভুতত্ব পরিচালক কামাল হোসেন স্বাক্ষরিত এক পত্রে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে। 

স্বর্ণ পাওয়ার বিষয়টি গুরত্বসহকারে নিয়ে বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবি মেহেদী হাসান বাংলাদেশ ভুতাত্বিক জরিপ অধিদপ্তরে আরবিবি ইটভাটার মাটির পূর্বের স্থানসহ বর্তমান স্থান পরীক্ষা,অনুসন্ধান ও মাটি স্ক্যানের আবেদন করে। সেই পেক্ষিতে এ অফিস আদেশ দেয় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। চিঠিতে উল্লেখ্য করা হয়েছে, সহকারী পরিচালক ভুতত্ব আনোয়ার সাদাৎ মুহাম্মদ সায়েম ও মোহাম্মদ আল রাজীকে আগামী ৩জুন থেকে ৫জুন অথবা প্রকৃত যাত্রার তারিখ হতে তিনদিনের মধ্যে প্রকৃত ঘটনার তথ্যসহ প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। 

এর আগে আজকের পত্রিকাসহ বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় ইটভাটায় স্বর্ণের খোজে কোদাল নিয়ে হুমড়ি খেয়ে পড়েছে হাজারো মানুষ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হয়। এর পরে দিনে রাতে ইটভাটার মাটির স্তুপে অতিরিক্ত মানুষের সমাগম হওয়ায়। আইনশৃঙ্খলা অবনতির আশঙ্কায় গত ২৫ মে ইটভাটায় ১৪৪ ধারা জারী করে রাণীশংকৈল উপজেলা প্রশাসন। এরপর থেকে সেখানে পুলিশি পাহারায় চৌকি বসানো হয়। এতে সাধারণ মানুষ ইটভাটায় ভিড়তে পারে না। বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবি মেহেদী হাসান বলেন, যেহেতু ওই ইটভাটার মাটি ঐতিহাসিক এলাকা থেকে কাটা হয়েছে। এবং মানুষের মুখে মুখে স্বর্ণ পাওয়ার বিষয়টি চাউর হয়েছে। তাই রাষ্ট্রীয় ভাবে এটি পরীক্ষা নিরীক্ষা করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। যদি কোন ধরনের স্বর্ণ পাওয়া যায়। তাহলে সেটি রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা হবে।

রাণীশংকৈল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) রকিবুল হাসান বলেন, বাংলাদেশ ভুতাত্বিক জরিপ অধিদফতর এর নির্দেশে মাটির পরীক্ষা করা হবে বলে জানতে পেরেছি। তারা আসলে উপজেলা প্রশাসন থেকে সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে।

আরও খবর