Logo
আজঃ বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪
শিরোনাম

২ লাখ টাকার ফ্যামিলি ট্রিপের সেরা ঈদ অফার দিচ্ছে রিয়েলমি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ১৪৯জন দেখেছেন

Image

প্রযুক্তি ডেস্ক:তরুণদের জনপ্রিয় ব্র্যান্ড রিয়েলমি এবার হাজির হলো ‘রমজান অফলাইন ক্যাম্পেইন’ নিয়ে। সম্প্রতি ‘ঈদের খুশি, রিয়েলমিতে বেশি’- শীর্ষক বিশেষ এই ক্যাম্পেইন চালুর ঘোষণা দিয়েছে স্মার্টফোন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানটি।

রিয়েলমি’র সঙ্গে ঈদের খুশিকে আরও বাড়িয়ে তুলতে স্মার্টফোনপ্রেমীদের জন্য ‘রমজান অফলাইন ক্যাম্পেইন’টি শুরু হয়েছে গত ২০ মার্চ থেকে, চলবে ঈদুল ফিতরের আগের দিন পর্যন্ত। এই ক্যাম্পেইনে অংশ নিয়ে রিয়েলমি গ্রাহকরা পাচ্ছেন এক্সক্লুসিভ অফার গ্রহণের দারুণ সুযোগ! ক্যাম্পেইনে অংশহগ্রহণকারী প্রত্যেকে বাংলাদেশে রিয়েলমি’র সকল আউটলেটে বিশেষ এসব সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছেন।

এবারের রমজানকে আরও স্মৃতিমধুর করে তুলতে, স্মার্টফোন প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান রিয়েলমি গ্রাহকদের দিচ্ছে ২ লাখ টাকা মূল্যের অবিস্মরণীয় ফ্যামিলি ট্রিপের সুযোগ!

এছাড়াও, ব্র্যান্ডের জনপ্রিয় সি৫৫, সি৫৩, সি৫১, সি৬৭ ও নোট ৫০ সহ নির্দিষ্ট কিছু ডিভাইস কিনলেই পাচ্ছেন বোগো (একটি কিনলে একটি ফ্রি) অফার উপভোগের দারুণ সুযোগ। আর এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে কাছের মানুষটিকে একটি ফোন উপহার দিয়ে গ্রাহকরা এবারের ঈদ আনন্দকে দ্বিগুণ করে তুলতে পারেন।

রমজানের স্মৃতিগুলোকে আরও বাড়িয়ে তুলতে, রিয়েলমি দিচ্ছে এক হাজার ভিডিও স্ট্রিমিং স্ট্যান্ডস। এ উদ্ভাবনী সুবিধাকে কাজে লাগিয়ে ফোন ব্যবহারকারীরা জীবনের গুরুত্বপূর্ণ মুহুর্তগুলোকে ভাগাভাগি করে নিতে পারেন বন্ধু-বান্ধব ও পরিবারের সঙ্গে।

পবিত্র এ মাসজুড়ে স্মার্টফোনপ্রেমীরা যেন কাছের মানুষদের সঙ্গে সহজেই যুক্ত হতে পারেন, সেজন্য বিশ্বস্ত গ্রাহকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে রিয়েলমি দিচ্ছে ফ্রি গ্রামীণফোন ও বাংলালিংক ডেটা বান্ডেল অফার।

রিয়েলমি বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অ্যালেন চেন বলেন, “রমজান হলো উপহার দেওয়ার, ভাগাভাগি করে নেওয়ার এবং প্রিয়জনের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার একটি সময়। রিয়েলমি’র গ্রাহকদের মধ্যে আনন্দ ও খুশি ছড়িয়ে দিতে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। রমজান অফলাইন ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে, অসাধারণ উপহার ও এক্সক্লুসিভ অফার দিয়ে এই পবিত্র মাসের আনন্দকে দ্বিগুণ করাই আমাদের লক্ষ্য। আমরা সবাইকে আমাদের আউটলেট পরিদর্শন করতে এবং এই বিশেষ উদযাপনের অংশ হতে আমন্ত্রণ জানাচ্ছি।”

রিয়েলমি বাংলাদেশ এবং এর ‘রমজান অফলাইন ক্যাম্পেইন’ সম্পর্কে আরও তথ্যের জন্য, গ্রাহকদের তাদের নিকটস্থ রিয়েলমি আউটলেটে যেতে উৎসাহিত করা হচ্ছে।


আরও খবর



চন্দ্রগ্রহণ চলছে, দেখা যাচ্ছে যেখান থেকে

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ এপ্রিল ২০২৪ | ১১০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আজ চলতি বছরের প্রথম চন্দ্রগ্রহণ শুরু হয়েছে । সোমবার (২৫ মার্চ) সকাল ১০টা ২৩ মিনিট থেকে শুরু হয়ে বিকেল ৩টা পর্যন্ত চলবে গ্রহণ। তবে বাংলাদেশ বা ভারত থেকে দেখা যাবে না এটি।

জানা গেছে, মূলত পৃথিবীর পশ্চিম গোলার্ধ থেকে আজকের চন্দ্রগ্রহণ দেখা যাবে। চলতি বছরের প্রথম চন্দ্রগ্রহণের সাক্ষী থাকবে এশিয়ার উত্তর ও পূর্ব অংশ। এছাড়াও চন্দ্রগ্রহণ দেখা যাবে ইউরোপ, অস্ট্রেলিয়া, উত্তর আমেরিকা, দক্ষিণ আমেরিকা, আফ্রিকায়। প্রশান্ত মহাসাগরীয় আর্কটিক ও আন্টার্টিকার বহু অংশ দেখতে পাবে গ্রহণ।

আজকের চন্দ্রগ্রহণের একটি বিশেষত্ব রয়েছে। এটি চাঁদের পূর্ণ বা আংশিক গ্রহণ নয়। একে বলে ‘পেনম্ব্রাল’ চন্দ্রগ্রহণ। গ্রহণের সময়ে সাধারণত সূর্য, পৃথিবী এবং চাঁদ একই সরলরেখায় অবস্থান করে। ফলে সূর্যের আলো পৃথিবীর উপরে পড়ে এবং পৃথিবীর ছায়া চাঁদকে ঢেকে দেয়।

‘পেনম্ব্রাল’ গ্রহণের ক্ষেত্রে তা হবে না। এ পর্যায়ে পৃথিবী, সূর্যের আলো পুরোপুরিভাবে আড়াল করতে পারে না। বরং চাঁদের ঔজ্জ্বল্য খানিক হ্রাস পায়। একে আংশিক গ্রহণও বলা যায় না।


আরও খবর



টাঙ্গাইলের মধুপুরে জোরপূর্বক জমি দখলের অভিযোগ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ১১৬জন দেখেছেন

Image

মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃটাঙ্গাইলের মধুপুর পৌরসভাধীন ৭নং ওয়ার্ডের পুন্ডুরাগ্রামে জোরপূর্বক ছাপড়া ঘর তুলে জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে। ভুক্তভোগী বকুলের ছেলে রিপন জানান, তাদের পৈত্রিক জমি জোরপূর্বক পুন্ডুরা গ্রামের মৃত তসর শেখের ছেলে আফছার, আফছারের ছেলে শাকিল, সাকিব, হাবেজ আলীর ছেলে লালন, এলাহী, সিদ্দিকের ছেলে হানু, ইয়াদ আলীর ছেলে ছাত্তার মেকার,মৃত আফজালের ছেলে পলাশ, হাবেজের মেয়ে  কালাগেদী, দুখীনী সহ ১৫/২০ জন মিলে পুন্ডুরা গ্রামের মৃত বকুলের ছেলে রিপনদের পৈতৃক জমি জোরপূর্বক ছাপড়া ঘর তুলে বেদখল দেয়ার চেষ্টা করছেন। আমরা তাদের ছাপড়া ঘর সড়াতে বললে তারা আমাদের উপর হামলা চালিয়ে মারপিট করে এবং আমার বকুল তলা মোড়ে মনোহরী দোকানের সাটার কুপাইয়া ক্ষতি করে। এব্যাপারে মধুপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান ভুক্তভোগী রিপন।


আরও খবর



রাণীশংকৈলে বৈদ্যুতিক শক খেয়ে শ্রমিকের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ৭২জন দেখেছেন

Image
রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধিঃঠাকুরগাঁয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার রাজোর কাতিহার মন্দিরপাড়া এলাকায় নরেশ আমাসু রায়ের নির্মানাধীণ বাড়িতে কাজ করতে গিয়ে মঙ্গলবার ( ১৬ এপ্রিল) পরিক্ষিত রায় (৩০) নামে এক নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। পরিক্ষিত রায় উপজেলার চোপড়া উত্তর পাড়া এলাকার খিরেন্দ্র চন্দ্র রায়ের ছেলে। প্রতিদিনের ন্যায় স্থানীয় রাজমিস্ত্রী সুমনের সাথে কাজ করতে যায়।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, উপজেলার রাজোর মন্দির পাড়া এলাকায় নরেশ আমাসু রায়ের নির্মাণাধীন ভবনে ৫ জন শ্রমিক কাজ করছিলেন। এসময় অসাবধানতাবশত পরিক্ষিত রায় রড কাটার জন্য ড্রিল মেশিনে বৈদ্যুাতিক সংযোগ দিতে গিয়ে ছেঁড়া তারের সঙ্গে জড়িয়ে গুরুতর আহত হন । পরে স্থানীয়দের সহায়তায় পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

পীরগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খায়রুল আনাম ডন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, লাশ আমাদের হেফাজতে রয়েছে এজন্য রাণীশংকৈল থানায় আমরা একটি বার্তা পাঠিয়েছি। যাচাই বাচাই শেষে বার্তার উত্তর পেলে লাশ হস্তান্তর করা হবে।

আরও খবর



দেশের বৃহৎ দিনাজপুরের ঐতিহাসিক গোর- এ শহীদ মাঠে ৬ লাখ মুসল্লির একসাথে নামাজ আদায়

প্রকাশিত:শুক্রবার ১২ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ৬৭জন দেখেছেন

Image

দিনাজপুর প্রতিনিধি:যথাযোগ্য মর্যাদা, ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য, আনন্দ-ও কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে দিনাজপুরসহ বিভিন্ন জেলার মুসল্লিদের অংশগ্রহনে উপমহাদেশের বৃহৎ ঈদগাহ ঐতিহাসিক গোর-এ শহীদ বড় ময়দানে দেশের বড় ঈদের জামাতে লাখো লাখো মুসল্লিরা একসাথে নামাজ আদায় করেছেন। রোদের তীব্রতা উপেক্ষা করে শান্তিপূর্ণভাবে দেশের বৃহৎ এই ঈদের জামাতে ৬ লাখ মুসল্লি একসাথে ঈদ-উল ফিতরের নামাজ আদায় করেছেন বলে আয়োজকদের দাবী।

ঈদের দিন বৃহস্পতিবার ভোর থেকেই বিভিন্ন জেলা-উপজেলাসহ দুরদুরান্ত থেকে আসার ঢল নামে মুসল্লিদের। দুটি বিশেষ ট্রেন সার্ভিসে ছাড়াও মুসল্লিরা বিভিন্ন যানবাহনে ও পায়ে হেঁটে ঈদগাহ মাঠে আসেন। এসময় শহরের সব রাস্তাগুলো যেন একমুখী হয়ে যায়। ঈদের দিন সকাল ৯টায় এই ঈদের জামাতের ইমামতি করেন দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতাল জামে মসজিদের খতিব মাওলানা শামসুল ইসলাম কাশেমী। নামাজ আদায় শেষে মোনাজাতে দেশ এবং মুসলিম উম্মার শান্তি কামনা করা হয়।

বৃহৎ এই জামাতে অংশ নেন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি(ভারপ্রাপ্ত) এম ইনায়েতুর রহিম, জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম, জেলা প্রশাসক শাকিল আহমেদ, পুলিশ সুপার শাহ ইফতেখার আহম্মেদ, দিনাজপুর পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র আবু তৈয়ব আলী দুলাল, বিচার বিভাগের কর্মকর্তা, প্রশাসনের কর্মকর্তা, বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দসহ সর্বস্তরের জনতা।

নামাজ শেষে বৃহৎ এই ঈদগাহ মাঠ ও মিনার নির্মাণের উদ্যোক্তা এবং পরিকল্পনাকারী হুইপ ইকবালুর রহিম জানান, এই জামাতে একসঙ্গে ৬ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসল্লি শান্তিপূর্ণভাবে নামাজ আদায় করেছেন। নিরাপত্তার ব্যাপারে ছিল জিরো টলারেন্স। সফলভাবে ঈদের জামাত সম্পন্ন হওয়ায় সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন তিনি। দিন দিন এই জামাতে মুসল্লীর সংখ্যা বাড়ছে।

এইবার ভারত থেকে নামাজে অংশ নিয়েছেন মুসল্লী। দিনাজপুর ছাড়াও ঢাকা, নীলফামারী, জয়পুরহাট, বগুড়া, ঠাকুরগাঁ, রংপুর জেলাসহ আশেপাশের অনেক মুসল্লি বাস, কার, মাইক্রো, জীপ এবং মোটরবাইকে করে এই ঈদ জামাতে অংশ নেন।

ভারতের গঙ্গারামপুর থানা থেকে আসা ওসমান আলী জানান, টিভি অনলাইনসহ বিভিন্ন মাধ্যমে এতবড় মাঠ ও এত মুসল্লি একসাথে নামাজ আদায় করে। এতে আমারও ইচ্ছা হয়। তাই এবার এখানে নামাজ পড়ার জন্য এসেছি।এত মানুষের একসাথে এটাই আমার প্রথম নামাজ। এখানে নামাজ আদায় করতে পেরে খুব খুশি।

নামাজ আদায় করে একইরকম অনুভূতি প্রকাশ করে ঢাকার রামপুরার বনশ্রী নিবাসী হাজী মোঃ আব্দুল আলী বলেন, এশিয়ার বড় জামাতের কথা শুনে ঈদের নামাজ আদায় করতে এসেছি। এটি আসলেই বৃহৎ জামাত। এতবড় জামাতে নামাজ আদায় করেছি সওয়াবের আশায়।ঢাকা থেকে মোঃ ইমরান কবির ও মোঃ রাতুল বলেন, ঈদের কারণে যানবাহন পেতে সমস্যা হয় দেখে ইচ্ছা থাকলেও অনেকে নামাজ আদায় করতে আসেন না। যদি প্রতিটি জেলা থেকে বিশেষ পরিবহনের ব্যবস্থা করা হয় তাহলে মুসল্লি আরও বাড়বে। ভবিষ্যতে এখানে মুসল্লিদের সংখ্যা আরও বাড়বে।রংপুর থেকে আসা অলিউল ইসলাম বলেন, এশিয়া মহাদেশের সবচেয়ে বড় ও দেশের সর্ববৃহৎ ঈদ জামাতে নামাজ আদায় করার অন্য অনেক দিনের ইচ্ছে ছিল। আল্লাহ আজ সে আশা পুরণ করেছে। জীবনে প্রথম লাখ লাখ মুসল্লির সঙ্গে ঈদের নামাজ পড়তে পেরে ভালো লাগছে।

যে কোনও পরিস্থিতি মোকাবিলা এবং অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশের পক্ষ থেকে তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। অস্ত্রধারী পুলিশ সদস্যসহ পুলিশ, র‌্যাব, আনসার, ডিবি, ডিএসবি, এনএসআই, ডিজিএফআই সদস্যরা আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে কাজ করেন। মাঠে সিসি ক্যামেরা স্থাপনসহ ড্রোনের মাধ্যমে সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ করা হয়। ছিল ঈদগাহের মাঝে র‌্যাবের ওয়াচ টাওয়ার, প্রবেশের পূর্বে মুসল্লিদের আনা যানবাহন রাখার বিভিন্ন পয়েন্টে তল্লাশী ব্যবস্থা। মাঠে মেটাল ডিটেক্টরে তল্লাশির পর প্রবেশ করানো হয় মুসল্লিদের।

উল্লেখ্য, উপমহাদেশের বৃহৎ ঈদগাহ দিনাজপুরের গোর-এ শহীদ বড় ময়দানের আয়তন প্রায় ২২ একর। ২০১৭ সালে নির্মিত ৫২ গম্বুজের এ ঈদগাহ মিনার। এই ৫০ গম্বুজের দুই ধারে ৬০ ফুট করে দুটি মিনার, মাঝের দুটি মিনার ৫০ ফুট করে। ঈদগাহ মাঠের মিনারের প্রথম গম্বুজ অর্থাৎ মেহেরাবের (যেখানে ইমাম দাঁড়াবেন) উচ্চতা ৪৭ফুট। এর সঙ্গে রয়েছে আরও ৪৯টি গম্বুজ। এছাড়া ৫১৬ফুট লম্বায় ৩২টি আর্চ নির্মাণ করা হয়। মিনার সিরামিক্স ইট দিয়ে আচ্ছাদিত। রাতে আলোকিত করতে প্রতিটি গম্বুজ ও মিনারে রয়েছে বৈদ্যুতিক লাইটিং। ২০১৭সাল থেকে প্রতিবছর এখানে ঈদের নামাজ আদায় করেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। এই গোর-এ শহীদ মযদানে একসঙ্গে ১০লাখ মানুষ ঈদের জামাত আদায় করতে পারার ব্যবস্থা রয়েছে। উপমহাদেশে এত বড় ঈদগাহ মাঠ দ্বিতীয়টি নেই। এছাড়াও পর্যটকদের কাছেও এটি এখন দর্শনীয়।


আরও খবর



বাংলাদেশি আমেরিকানদের প্রশংসায় ডোনাল্ড লু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ৯০জন দেখেছেন

Image

খবর প্রতিদিন ২৪ডেস্ক :দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়াবিষয়ক মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোনাল্ড লু বাংলাদেশ-আমেরিকার মধ্যকার সম্পর্কের ভিত্তি স্থাপনে বাংলাদেশি-আমেরিকানদের অবদানের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।

বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ২৬ মার্চ সন্ধ্যায় ওয়াশিংটন ডিসির বাংলাদেশ দূতাবাস আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি ছিলেন ডোনাল্ড লু। এসময় বক্তৃতায় তিনি বাংলাদেশি-আমেরিকানদের অবদানের কথা উল্লেখ করেন।

দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ ইমরান। বৃহস্পতিবার সকালে ওয়াশিংটন ডিসির বাংলাদেশ দূতাবাস প্রচারিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত বিপুলসংখ্যক বাংলাদেশি-আমেরিকানদের কথা উল্লেখ করে ডোনাল্ড লু বলেন, তাদের শক্তি ও অসাধারণ কঠোর পরিশ্রম দুটি মহান জাতির মধ্যে সম্পর্কের ভিত্তি তৈরি করেছে। বাংলাদেশি-আমেরিকানরা দুই দেশের সম্পর্ক জোরদারে যেভাবে কাজ করে যাচ্ছেন, তা গর্বের বিষয়।

মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশি-আমেরিকান উদ্যোক্তারা তাদের অনন্য উদ্ভাবনী শক্তি ও ধারণার মাধ্যমে বিভিন্ন ক্ষেত্রে দক্ষতা অর্জন করেছেন। ‘শুভ জন্মদিন বাংলাদেশ, জয় বাংলা’ বলে বক্তব্য শেষ করেন মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোনাল্ড লু।

বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ ইমরান স্বাগত বক্তব্যে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে দেশ-বিদেশে বসবাসরত সব বাংলাদেশিদের আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান। তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং স্বাধীনতার জন্য জীবন উৎসর্গকারী ৩০ লাখ শহীদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান।

রাষ্ট্রদূত ইমরান বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে দীর্ঘস্থায়ী অংশীদারত্বকে অত্যন্ত গুরুত্ব দেয় বাংলাদেশ। দুই দেশের সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার পর থেকেই বাংলাদেশের উন্নয়ন অভিযাত্রায় ওয়াশিংটনের সঙ্গে ঢাকার চমৎকার বোঝাপড়া ও সহযোগিতা বিরাজ করছে। সবার সমৃদ্ধি অর্জনের জন্য একটি মুক্ত ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাংলাদেশের অভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি রয়েছে।

রাষ্ট্রদূত ইমরান বলেন, ‘আমরা আন্তরিকভাবে বিশ্বাস করি যে দুই দেশ তাদের মধ্যকার সম্পর্ককে আরও শক্তিশালী ও এগিয়ে নিতে সহযোগিতার নতুন নতুন ক্ষেত্র উন্মোচন করতে সক্ষম হবে।

অতিথিদের উপস্থিতিতে পরে মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত যৌথভাবে কেক কাটেন। এর আগে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় সংগীত বাজানোর মধ্য দিয়ে সংবর্ধনা অনুষ্ঠান শুরু হয়। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ ও উন্নয়নের ওপর একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়।


আরও খবর