Logo
আজঃ বুধবার ২২ মে ২০২৪
শিরোনাম

সর্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষায় সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ২৬৯জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সর্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষায় সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ২০৩০ সালের মধ্যে সবর্জনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে সরকারি উদ্যোগের পাশাপাশি বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা এবং প্রতিষ্ঠানকেও এগিয়ে আসতে হবে।

৭ এপ্রিল ‘বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস’ উপলক্ষে দেওয়া এক বাণীতে তিনি এ আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও ‘বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস’ পালিত হচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য ‘স্বাস্থ্য অধিকার নিশ্চিতে, কাজ করি একসঙ্গেথে’ যথার্থ ও সময়োচিত হয়েছে বলেও তিনি মনে করেন। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতার পরপরই চিকিৎসা সেবাকে সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে ইউনিয়ন পর্যায় পর্যন্ত স্বাস্থ্যসেবা সম্প্রসারণের যুগান্তকারী উদ্যোগ গ্রহণ করেছিলেন।

তিনি বলেন, বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার জাতির পিতার পদাঙ্ক অনুসরণ করে দেশের স্বাস্থ্যসেবা উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। স্বাস্থ্যখাতে সাফল্যের স্বীকৃতিস্বরূপ বাংলাদেশ অর্জন করেছে এমডিজি অ্যাওয়ার্ড, সাউথ-সাউথ অ্যাওয়ার্ড ও গ্যাভি অ্যাওয়ার্ডের মতো আন্তর্জাতিক পুরস্কার। টিকাদানের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের সাফল্য ও বিশেষ অবদানের জন্য বাংলাদেশ ‘ভ্যাকসিন হিরো’ নামে আখ্যায়িত হয়েছে। বাংলাদেশের কমিউনিটি ক্লিনিক আজ তৃণমূল পর্যায়ে স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থাপনার এক অনন্য দৃষ্টান্ত। সম্প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার আঞ্চলিক পরিচালক পদে বাংলাদেশের জয়লাভ স্বাস্থ্যখাতে সরকারের ধারাবাহিক উন্নয়নের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি।

শেখ হাসিনা আরও বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার গত পনেরো বছরে চিকিৎসাসেবার মানোন্নয়ন, অবকাঠামোগত উন্নয়ন, চিকিৎসা শিক্ষা ও জনশক্তি উন্নয়ন, পর্যাপ্ত সংখ্যক জনবল নিয়োগ, পরিবার পরিকল্পনা ও জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ, নার্সিং সেবার উন্নয়ন, স্বাস্থ্যখাতে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার, আইন ও নীতিমালা প্রণয়নসহ ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকা-বাস্তবায়ন করেছে। নতুন নার্সিং কলেজ, মেডিকেল কলেজ ও মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা এবং চিকিৎসকদের পোস্ট গ্রাজুয়েট কোর্সের আসন সংখ্যা বৃদ্ধি করা হয়েছে। হাসপাতালে রোগীদের সেবার জন্য চিকিৎসক, নার্স, সাধারণ বেড ও ওটি বেডের সংখ্যা বৃদ্ধি করা হয়েছে।

সরকার প্রধান বলেন, বিভিন্ন হাসপাতালে টেলিমেডিসিন সেবা চালু করা হয়েছে। তৃণমূল পর্যায়ে স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে সারা দেশে ১৪ হাজার ২৮৫টি কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন করে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা প্রাপ্তিকে সহজতর করা হয়েছে। ৫ম স্বাস্থ্য, জনসংখ্যা ও পুষ্টি সেক্টর কর্মসূচির মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবার সব চ্যালেঞ্জসমূহ অন্তর্ভুক্ত করে তা মোকাবিলার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এ সমস্ত সেবার মাধ্যমে আর্থিক প্রতিবন্ধকতা ছাড়াই সর্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা অর্জনের পথ সুগম হয়েছে। জাতিসংঘ ঘোষিত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার (এসডিজি) অন্যতম লক্ষ্য হচ্ছে সবার জন্য সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করা। আওয়ামী লীগ সরকার বৈশ্বিক এই ঘোষণার সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেছে। আমাদের সরকার স্বাস্থ্যসেবা প্রাপ্তির অধিকারকে অন্যতম মানবাধিকার হিসেবে প্রাধান্য দিয়ে কাজ করায় স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়ন এখন ঈর্ষণীয় পর্যায়ে পৌঁছেছে। শিশুমৃত্যু, মাতৃমৃত্যুর হারও উল্লেখযোগ্য হারে হ্রাস পেয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী স্বাস্থ্যখাতে সরকারের বিপুল অর্জনকে আরও একধাপ এগিয়ে নেওয়ার জন্য সব পর্যায়ের স্বাস্থ্যকর্মীদের ধন্যবাদ জানান এবং ‘বিশ্বস্বাস্থ্য দিবস ২০২৪’ উপলক্ষে নেওয়া সব কর্মসূচির সাফল্য কামনা করেন।


আরও খবর



রূপসীতে ব্যবসায়ীর দোকানে হামলা,ভাংচুর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ৮৯জন দেখেছেন

Image

আবু কাওছার মিঠু রূপগঞ্জ নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি:রূপগঞ্জের রূপসীতে শের ই আলম ভুইয়া নামক এক সিমেন্ট ব্যবসায়ীর দোকানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করেছে সন্ত্রাসী জজ মিয়ার বাহিনী। গত ১২ মে সকালে রূপসী বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অবস্থিত "মেসার্স হেরা ট্রেডার্স" নামক দোকানে এ ঘটনা ঘটে। এব্যাপারে গত ১৩ মে রূপগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন শের ই আলম ভুইয়া। 

অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে রূপসী এলাকার জজ মিয়া (৫৮) ও তার ছেলে রিপনসহ তাহাদের সহযোগী অজ্ঞাতনামা ৭/৮জন হাতে দা, চাকু, ছুরি, লোহার রড, চাপাতি, লাঠিসোটা ইত্যাদি দেশীয় তৈরি অস্ত্রশস্ত্র সজ্জিত হইয়া রূপগঞ্জ থানাধীন রূপসী বাসষ্ট্যান্ড সংলগ্ন স্কয়ার টয়লেট্রিক্স লিঃ এর পূর্ব পার্শ্বে তার প্রতিষ্ঠানে অনধিকার প্রবেশ করিয়া দোকানপাট ভাংচুর ও লুটপাট করিয়া হুমকি ধামকি প্রদান করে। 

শের ই আলম ভুইয়া জানান, ২নং আসামী রিপন আমার প্রতিষ্ঠানের ক্যাশ বাক্সের ড্রয়ার ভাঙ্গিয়া ক্যাশ বাক্সে রক্ষিত নগদ-২,০০,০০০/-টাকা চুরি করিয়া নেয়। আমার ডাক-চিৎকার শুনিয়া আশপাশ হইতে লোকজনসহ পথচারিরা আগাইয়া আসিতে থাকিলে উপরোক্ত আসামীরা বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতিসহ প্রাননাশের হুমকি প্রদান করিয়া দ্রুত পালাইয়া যায়। আশপাশের লোকজনের সহায়তায় আহত অবস্থায় উদ্ধার হইয়া স্থানীয়ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহণ করি।

  -খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



জয়পুরহাটে হত্যা মামলায় তিনজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ৯১জন দেখেছেন

Image
এস এম শফিকুল ইসলাম জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃজয়পুরহাটে বুলু মিয়া হত্যা মামলায় তিনজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও দুই বছরের কারাদন্ড দেওয়া হয়। বুধবার (১৫ মে) দুপুরে অতিরিক্ত দায়রা জজ-২য় আদালতের বিচারক নুরুল  ইসলাম এ রায় দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা জজ আদালতের সরকারি কৌশলী অ্যাডভেকেট নৃপেন্দ্রনাথ মন্ডল।দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন, জয়পুরহাট সদর উপজেলার দস্তপুর গ্রামের মৃত শামসুদ্দিনের ছেলে বাচ্চু মিয়া,গনিরাজের ছেলে এমরান আলী নুহু ও আউশগাড়ার মোকছেদ আলীর ছেলে বাবু মিয়া মিয়া।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, জয়পুরহাট সদর উপজেলার চকদাদরা এলাকার আব্দুর রশিদের ছেলে বুলু মিয়া দস্তপুর গ্রামের মৃত কুদ্দুসের মেয়েকে বিয়ের পর সেখানে ঘর জামাই হিসেবে থাকতেন। ২০০৫ সালের ৩ এপ্রিল রাতে সে হাতে লাঠি নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর বাড়ি ফেরেননি। সে রাতেই আসামীরা পারিবারিক বিরোধের জেড় ধরে বুলুকে গলা কেটে হত্যা করে। পরের দিন ওই গ্রামের একটি বায়োগ্যাস তৈরীর টাংকির উপর তার গলাকাটা ও জখম রক্তাক্ত লাশ দেখতে পায় স্থানীয়রা। পরে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়। এ ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ মামলার দীর্ঘ শুনানি শেষে বিজ্ঞ আদালত আজ এ রায় দেন।

আরও খবর



মধুপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন নিয়ে সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত:শনিবার ১১ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ১৩১জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা মধুপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ-

কারচুপি, অনিয়ম, নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন উপজেলা চেয়ারম্যান প্রতিদ্বন্দী প্রার্থী (দোয়াতকলম) ছরোয়ার আলম খান আবু।শনিবার (১১ মে) সকাল ১১টার দিকে তার নিজ কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে মধুপুর-ধনবাড়ি থেকে নির্বাচিত জাতীয় সংসদ সদস্য সাবেক কৃষি মন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক সর্বোচ্চ প্রভাব খাটিয়ে তার পছন্দের প্রার্থীর পক্ষে নগ্নভাবে প্রশাসনযন্ত্রকে ব্যবহার করেছেন।


বিভিন্ন কেন্দ্রে প্রিজাইডিং অফিসারগন ব্যাপক জাল ভোট দিতে সহায়তা করেছেন।তিনি আরও জানান, ২০/৩০টি কেন্দ্র থেকে এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়েছে। প্রায় প্রতিটি বান্ডিলে ২০/৩০ করে দোয়াত কলম এবং হোন্ডার ভোট আনারস প্রতিকের বান্ডিলের ভিতর ঢুকিয়ে ভোট গণনা করা হয় এবং ভোট গণনার আগেই ফলাফল শিট তৈরি করে মনগড়া ভাবে লিখে তা ফেইসবুকে প্রকাশ করা হয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন। 


তিনি বলেন, ফলাফল শিটে গণনাকারী অফিসারদের সাথে আমার এজেন্টদের কোনো সাক্ষর নেই। ভোট গ্রহন শেষ হয়েছে ৪টায় কিন্তু ৪টা ১৫ মিনিটের সময় থেকে বিভিন্ন কেন্দ্রের ভোটের ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে।সন্ধ্যা ৭টার মধ্যে চেয়ারম্যান প্রার্থীদের ফলাফল প্রকাশ করা হলেও ভাইস চেয়ারম্যানদের ফলাফল রাত সাড়ে ১২টায় প্রকাশ করা হয়েছে।


এতেই প্রমানিত হয় ভোটে ব্যাপক কারচুপি ও অনিয়ম হয়েছে।সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও জানান, বিভিন্ন এলাকায় আমার কর্মীদের উপর হামলা চালানো হচ্ছে। বিভিন্ন দোকানপাটের মালামাল লুট করে নেওয়া হচ্ছে। তিনি বিভিন্ন অনিয়মের কারণে অবৈধ ফলাফল প্রত্যাখান ও নির্বাচনী ফলাফল বাতিল করে পুনঃ নির্বাচনের দাবি জানান।এ সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, সাবেক পৌর মেয়র মাসুদ পারভেজ সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। 

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



আগাছা নাশক বিষ স্প্রে করে ফসল বিনষ্ট: কৃষক সর্বশান্ত!

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ২৪২জন দেখেছেন

Image

মিজান, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃদিনাজপুর জেলার বিরামপুর উপজেলার ৩নং খানপুর ইউনিয়নের রতনপুর দলদলিয়া গ্রামের দক্ষিণ পাশে এক কৃষকের আড়াই বিঘা বোরো জমির ধান গাছে প্রতিপক্ষরা আগাছা নাশক বিষ স্প্রে করায় ধান গাছের পাতা পুড়ে খেত বিনষ্ট হয়েছে। এতে ঐ কৃষক পরিবার সর্বশান্ত হয়ে পড়েছেন।

অভিযোগে সুত্রে জানা যায়,বিরামপুর উপজেলার টাটকপুর গ্রামের মৃত দানেজ আলীর ছেলে আব্দুস সালাম জমি বর্গা নিয়ে বোরো ধান চাষ করে। ধান প্রায় পাকার পর্যায়ে। ইতিমধ্যে পূর্ব শশ্রুতার জের ধরে দলদলিয়া কুর্শাখালী গ্রামের হোসেন আলীর ছেলে বুলবুল হোসেন’সহ অজ্ঞাতনামা কয়েক জন গত ১৮ এপ্রিল রাতে বিষাক্ত কীটনাশক স্প্রে করে সমুলে বিনষ্ট করে দিয়েছে।  গত ২১ এপ্রিল রাতে বিরামপুর থানায় একটি অভিযোগ করেন।

সোমবার (২২ এপ্রিল) দুপুরে বিরামপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকটও অভিযোগ করেন। অভিযোগ পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বলেন, দ্রুত সময়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। এটি একটি জঘন্নতম অপরাধ।

৩নং খানপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান চিত্তরঞ্জন পাহান বলেন, বিষাক্ত কীটনাশক স্প্রে করে বোরো ধানক্ষে নষ্ট করেছে। জানতে পেরে কৃষকের ধানক্ষেত পরিদর্শন করেন। তিনি অপরাধীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।এসময় খানপুর কৃষি উপ-সহকারী কর্মকর্তাও উপস্থিত ছিলেন।

বিরামপুর থানার উপ-পরিদর্শক এসআই তুহিন বাবু জানান, জমির বোরো খেত নষ্ট করে দুর্বৃত্তরা অমানবিক কাজ করেছে। তদন্ত সাপেক্ষে অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আরও খবর



ফুলবাড়ীতে ছাত্রলীগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি

প্রকাশিত:বুধবার ০১ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ৯৩জন দেখেছেন

Image

দিনাজপুর প্রতিনিধি:প্রচন্ড তাপদাহ থেকে বাঁচতে ও এস ডিজি অরিজনের লক্ষ্যে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় ঘোষণা অনুযায়ী। দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলা ছাত্রলীগের আয়োজনে মাসব্যাপী বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার ফুলবাড়ী উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান,হাফিজিয়া মাদ্রাসা, এতিমখানায় বৃক্ষরোপণ করেন ছাত্রলীগের কর্মীরা।

উক্ত অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে কর্মসূচির উদ্বোধন করেন ফুলবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী মুশফিকুর রহমান বাবুল।

বিশেষ অতিথি হিসেবে ভিডিও কলে যুক্ত ছিলেন দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ফারহানা রহমান মুক্তা,ফুলবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ফারজানা রহমান শিমলা। ফুলবাড়ী উপজেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক গোলাম আজম এর নেতৃত্বে এই কর্মসূচি পালন করা হয়। এতে অংশগ্রহণ করেন ছাত্রলীগ নেতা আসাদ সরকার ,সোহানুর রহমান শাওন,শাহিনুর, মেহেদী হাসান। এ বিষয়ে ফুলবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুশফিকুর রহমান বাবুল জানান সারাদেশে ছাত্রলীগের পাঁচ লক্ষ বৃক্ষ রোপনের যে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে সেটি অত্যন্ত প্রশংসনীয়,তারই ধারাবাহিকতায় ফুলবাড়ী উপজেলা ছাত্রলীগ বৃক্ষ রোপনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে, তাদের এই উদ্যোগকে আমি সাধুবাদ জানাই। ফুলবাড়ী উপজেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক গোলাম আযম জানান প্রচন্ড তাপদাহ থেকে বাঁচতে গাছের বিকল্প নেই, কেন্দ্রীয় ঘোষণা অনুযায়ী আমরা বৃক্ষরোপণের মাসব্যাপী কর্মসূচি পালন করব।


আরও খবর