Logo
আজঃ বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

সংরক্ষিত আসনের প্রার্থীদের খেলাপি ঋণের তথ্য চায় ইসি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০৯জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:নির্বাচন কমিশন (ইসি) আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের নির্বাচনে অংশ নেওয়া প্রার্থীদের খেলাপি ঋণের তথ্য চেয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) ইসির নির্বাচন পরিচালনা শাখার উপসচিব এম মাজাহারুল ইসলাম এ সংক্রান্ত একটি চিঠি আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিবকে পাঠিয়েছেন।

চিঠিতে ইসি জানায়, সংবিধানের ৬৫ অনুচ্ছেদের (৩) দফার বিধান অনুসারে আগামী ১৪ মার্চ দ্বাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ লক্ষ্যে নির্বাচন কমিশন কর্তৃক ইতোমধ্যে নির্বাচনি সময়সূচি জারি করা হয়েছে এবং নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের যুগ্মসচিব মো. মনিরুজ্জামান তালুকদারকে রিটার্নিং অফিসার নিয়োগ করা হয়েছে।

ইসি জানায়, জাতীয় সংসদ (সংরক্ষিত নারী আসন) নির্বাচন আইন, ২০০৪ এর ধারা ২৯ অনুযায়ী আইনের সাথে অসামঞ্জস্য না হলে, প্রয়োজনীয় অভিযোজন সহকারে, সংরক্ষিত নারী আসনে নির্বাচনের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য হবে এমন বিধান রয়েছে। সেই অনুযায়ী জাতীয় সংসদের ৩০০ আসনের নির্বাচনের ন্যায় জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের নির্বাচনেও যাতে ঋণ খেলাপি ব্যক্তি অংশগ্রহণ করতে না পারেন, এ বিষয়টি নিশ্চিতকরণের জন্য গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ, ১৯৭২ এর ১২ অনুচ্ছেদের সংশ্লিষ্ট বিধানাবলি (সংযুক্ত) এবং জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের নির্বাচনে অংশগ্রহণে ইচ্ছুক প্রার্থীদের ঋণ খেলাপি সংক্রান্ত তথ্য সংকলন ও সরবরাহ পদ্ধতি ইতোমধ্যে সংসদ নির্বাচনে অর্থ বিভাগ থেকে গত বছরের ২৮ নভেম্বর জারি হয়েছে।

ইসি আরও জানায়, নির্বাচন কমিশনের জারি করা সময়সূচি অনুসারে মনোনয়নপত্র দাখিলের দিন অর্থাৎ ১৮ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৪টার পর মনোনয়নপত্র দাখিলকারীদের নাম, পিতা/মাতা/স্বামীর নাম ও প্রয়োজনীয় অন্যান্য তথ্য বাংলাদেশ ব্যাংকসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠানকে ইতঃপূর্বে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ন্যায় রিটার্নিং অফিসারের নিকট হতে সংগ্রহ করতে হবে। সেই সাথে অর্থ মন্ত্রণালয় হতে জারিকৃত নির্দেশনার আলোকে ঋণ খেলাপি সংক্রান্ত তথ্য ১৯ ফেব্রুয়ারি মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের সময়সীমার পূর্বে রিটানিং অফিসারের বরাবরে প্রদানসহ প্রয়োজনীয় অন্যান্য ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ করা হলো।


আরও খবর



বাগেরহাটে এসএসসি পরীক্ষার প্রথম দিনে অনুপস্থিত ২৭৪ শিক্ষার্থী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৬০জন দেখেছেন

Image

বাগেরহাট প্রতিনিধি:বাগেরহাটে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার প্রথমদিনে ২৭৪ জন শিক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলেন। এদের মধ্যে এস এস সি-তে ৭৫ জন, দাখিল থেকে ১৫৪ জন এবং ভকেশনাল থেকে ১৮ জন শিক্ষার্থী রয়েছেন। 

বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টায় শুরু হওয়া পরীক্ষায় এসএসসিতে ১৩ হাজার ৬৩৫, দাখিল ৪ হাজার ১১১ এবং কারিগরি ১ হাজার ৪৬৩ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহন করেছেন। প্রথমদিনে কোন কেন্দ্রে কোন প্রকার অপ্রিতিকর ঘটনা ঘটেনি।

বাগেরহাটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোঃ আব্দুল জব্বার বলেন, এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় জেলায় ১৯ হাজার ৪৫৬ জন শিক্ষার্থী এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় অংশগ্রহন করার কথা ছিল।  এদের মধ্যে প্রথম দিনে অনুপস্থিত ২৭৪ জন শিক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলেন। এছাড়া শান্তিপূর্ণভাবে পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।


আরও খবর



বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ব্রাজিলে নিহত ৭

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৪৬জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:এক ইঞ্জিন বিশিষ্ট বিমান দুর্ঘটনায় সাত জন নিহত হয়েছে ব্রাজিলের মিনাস গেরিস রাজ্যে।

রোববার (২৮ জানুয়ারি) দেশটির কর্তৃপক্ষ বিমান দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। খবর জিও নিউজ

দেশটির ফায়ার সার্ভিসের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, বিমানটি সাও পাওলো রাজ্যের ক্যাম্পিনাস থেকে উড্ডয়ন করে। পরে স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মধ্য আকাশেই এটি বিধ্বস্ত হয়।

ফায়ার সার্ভিস আরও জানায়, এ ঘটনায় সাতজন নিহত হয়েছে। কিন্তু তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

ব্রাজিলের মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ছবিতে বিমানের বিভিন্ন অংশ ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকতে দেখা গেছে। বিমানটি যে স্থানে বিধ্বস্ত হয় সেখানে পাহাড়, ঘাস ও বনজঙ্গনে ঘেরা ছিল।

গত বছরের সেপ্টেম্বরেও ব্রাজিলে বিমান বিধ্বস্তের ঘটনা ঘটে, এতে ১৪ জন নিহত হয়। দেশটির আমাজন বনে এ ঘটনা ঘটে।


আরও খবর



শার্শায় অবৈধ ইট ভাটা জন্য মাটি বালু উত্তলনে পরিবেশ হুমকির মুখে

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৬৮জন দেখেছেন

Image
ইয়ানূর রহমান:যশোরের শার্শায় অবাধে একের পর এক অবৈধ ইট ভাটা নির্মাণ আর বালু উত্তলনে হুমকির মুখে পড়েছে  পরিবেশের ভারসাম্য।  অবৈধ মাটি ও ইটবাহী যানবাহনের চাপায়  প্রতিনিয়ত জীবন ঝরেছে  মানুষের। এতে উপজেলা প্রশাসনের  বিরুদ্ধে ক্ষোভ জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা। এদিকে বছরের পর বছর এ অবস্থা শার্শার সব কটি ইউনিয়নে বিরাজ করলেও টনক নড়েনি প্রশাসনের।  অভিযোগ রয়েছে সংশিষ্টদের  ঘুষ বানিজ্যে এর প্রতিকার হচ্ছেনা।  তবে উপজেলা প্রশাসন এসব কর্মকান্ডের বিষয়টি স্বীকার করে বলছেন দ্রুত এসব অনিয়ম রোধে আরো শক্তভাবে  কাজ  করবেন তিনি।

ভুক্তভোগী শার্শা উপজেলার বাসিন্দা ঢাকা বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নাহিদ হাসান নিপুন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে উদ্দেশ্যে করে বলেন, অবৈধ ইট ভাটাগুলো একটা নিয়ন্ত্রণে আনা যায় কিনা একটু দেখেন!  পিচের পাঁকা রাস্তা! অল্প বৃষ্টি হলে রাস্তার বেহাল অবস্থা হয়ে যায়। ইটভাটাগুলো বন্ধ করতে না পারলেও তাদের গাড়ি থেকে পরা কাদা মাটি থেকে অন্তত রাস্তাগুলো পরিষ্কার রাখার একটু ব্যবস্থা করেন। এলাকার হাজার হাজার মানুষ প্রতিদিন কষ্ট পাচ্ছে। কাদা শুকালে এমন ধূলা উড়ে যে ঐ এলাকায় চলাচল করা যায় না। এটা করতে পারলে হাজার হাজার মানুষ মন থেকে আপনার জন্য দোয়া করবে। 

এ বিষয়ে অভিজ্ঞ একজন প্রভাষক মনির হোসেন বলেন, কৃষি জমির পাশে  ইট ভাটা থাকলে ফসলের  উৎপাদন ক্ষমতা কমে যায় ও জীব বৈচিত্র ক্ষতির মুখে পড়ে। এছাড়া নিয়ন না মেনে বালু উত্তোলনে যে কোন সময় ভুমি ধসের ঘটনাও  ঘটতে পারে। একারণে ইট ভাটা নির্মাণ বা বালু উত্তোলনের ক্ষেত্রে নিয়ম মানতে হবে।

উপজেলা সূত্রে জানা গেছে গত ১২ ডিসেম্বর নয়ন কুমার রাজবংশী উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসাবে যোগদান করলেও এখন পর্যন্ত কোন অবৈধ স্থাপনা, অবৈধ কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে তিনি কোন অভিযান পরিচালনা করেননি। অভিযোগ আছে প্রভাবশালীরা উপজেলা প্রশাসনকে ম্যানেজ করে দেদারছে বালু, মাটি উত্তোলন, ইটভাটা, করাতকল, ক্লিনিক পরিচালনা করে আসছে। শার্শা উপজেলা ব্যাপী অবাধে চলছে অবৈধ ১৯টি ইটভাটা। অনুসন্ধানে জানা গেছে ১৯টি ইটভাটার না আছে পরিবেশ ছাড়পত্র, না আছে জেলা প্রশাসনের অনুমোদন। এরপরও শার্শায় কোন অদৃশ্য শক্তিতে এসব অবৈধ ইটভাটাগুলোর বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না প্রশাসন। একাধিক ভাটা আছে সরকারি স্কুল ও আবাসিক এলাকার মধ্যে। গত বছর ১৩ নভেম্বর হাইকোর্ট দেশের সব অবৈধ ইটভাটার কার্যক্রম বন্ধে জেলা প্রশাসকদের ব্যবস্থা নিতে আদেশ দেন। হাইকোর্টের নির্দেশের পর দেশের বিভিন্ন স্থানে যখন অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে অভিযান চললেও শার্শা উপজেলাতে চিত্র ভিন্ন। এখানে প্রশাসন অবৈধ ইটভাটা বন্ধে কোন ব্যবস্থাই নিচ্ছে না। এছাড়াও আবাসিক এলাকার মধ্যে অবৈধ করাতকল থাকলেও কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না উপজেলা প্রশাসন। উপজেলা ব্যাপি চলছে মাটি বালু উত্তোলনের মহাউৎসব কোন অভিযান না থাকার কারনে কৃষি জমি থেকে প্রথমে গভীর করে মাটি উত্তোলন করে ইটভাটার চাহিদা মিটাচ্ছে। হাওর বাওর ও গভীর পুকুর থেকে দেদারছে চলছে বালু উত্তোলন।  

বেনাপোলের  বাসিন্দা ফারুক আহম্মেদ জানান,অনেক বছর যাবৎ বাহাদুরপুর রোড়ে আবাসিক এলাকার প্রানকেন্দ্রে অবস্থিত আলামিন স-মিল চালানোর কারনে স-মিলের বিকট শব্দ ও কাঠের গুড়ার কারনে অতিষ্ট এলাকাবাসী। একাধিকবার পৌরমেয়র সহ উপজেলা প্রশাসনের নিকট লিখিত অভিযোগ দিয়েও কোন প্রতিকার পাননি। 

ভুক্তভোগী শার্শার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা ইসমাইল হোসেন জানান, সজনের ঘেরের পাশে ফসলি জমি থেকে বালু উত্তোলন করে বাড়ির পাশ দিয়ে দিনে ও রাতে দেদারছে বালুবাহী ট্রাক্টর-ট্রলি চলাচলের ফলে ধুলাবালির কারনে অতিষ্ট গ্রামবাসি। রাতেও ঘুমাতে পারছেন না এমনকি স্কুল পড়ুয়া ছেলে মেয়েরা পড়ালেখায় ব্যাপক বিঘ্ন ঘটছে। উপজেলা প্রসাশনের কোন তদরকি না থাকায় সাধারন মানুষ ব্যাপক ভোগান্তির শিকার হচ্ছে।

বাহাদুরপুর ইউনিয়নের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের গুরুত্বপূর্ণ স্থান বাহাদুরপুর বাঁওড় থেকে জনসম্মুখে মেইন রডের সাথে ব্রীজের পাশে দেদারসে বালু উত্তোলন করে স্তুপ করে রাখা হয়েছে। কিন্তু দেখার কেউ নেই।

এছাড়াও শার্শা উপজেলার গোগা ইউনিয়ন, কায়বা ইউনিয়ন, পুটখালী ইউনিয়ন, বাঁগআচড়া ইউনিয়ন, লক্ষণপুর ইউনিয়ন, শার্শা ইউনিয়ন, উলশী ইউনিয়ন সহ বিভিন্ন স্থানে অবাধে মাটি এবং বালু উত্তোলন করার একাধিক অভিযোগ থাকলেও নেই কোন কার্যকরী পদক্ষেপ। 

এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নয়ন কুমার রাজবংশীকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, আমিও এমন কয়েকটি অভিযোগ পেয়েছি এবং কয়েকটি ইটভাটার সাথে কথা বলেছি তারা জানিয়েছেন বর্তমানে লাইসেন্স বন্ধ থাকায় তারা লাইসেন্স করতে পারছেন না। আর মাটি এবং বালুর সুনির্দিষ্ট অভিযোগ থাকলে সেটা সহকারী ভূমি কর্মকর্তাকে জানাবেন। এগুলো দেখার জন্য তিনি আছেন।

তথ্য বলছে, গত ৫ বছরে মাটি ও বালুবাহী অবৈধ যানবাহনের চাপায় ১০ জনেরও বেশি নিহত হয়েছে। যার অধিকাংশ রয়েছে শিশু। এছাড়াও দূর্ঘটনায় আহত হয়েছেন অনেকেই।  এদের মধ্যে আপাতত পাওয়া কয়েকজন নিহতের পরিচয় পাওয়া গেছে। তাদের মধ্যে রয়েছেন, ২০২৪ সালের ২৮ জানুয়ারি শার্শার পাচভুলোট গ্রামের আবু বক্কর ছিদ্দিকের ছেলে মিজানুর রহমান নিহত হয়। গত  বছরের  ১৩ সেপ্টম্বর শার্শার উলাশী গ্রামের মনির ছেলে আব্দুর রহমান মাটির টলি চাপায় নিহত হয়। ১৯ আগস্ট শার্শার উত্তর বুরুজবাগান গ্রামের মোকসেদ আলীর ছেলে  খোরশেদ আলী ইঞ্জিন চালিত অবৈধ নসিমন চাপায় নিহত হয়। ২০২১ সালের ২২ মে শার্শার সেতাই গ্রামে মাটি বোঝায় ট্রাকটরের চাপায় হাসান আলীর ছেলে বিপ্লব হোসেন নামের এক যুবক ২০২১,সালের ১৪ ডিসেম্বর শার্শার কন্যাদহ গ্রামের কোরবান আলীর ৪ বছরের শিশু সন্তান তামিম ইকবাল বালুবোঝাই ট্রাকের চাপায় নিহত হয়। ২০২০ সালের ১২ ফেব্রুয়ারী শার্শার রামপুর গ্রামের শরিফুল ইসলামের শিশু সন্তান মাটিবাহী ট্রাকটরের ঢাক্কায় নিহত হয়। ২০১৮ সালের ৯ ডিসেম্বর শার্শার বসতপুর গ্রামের জতিন দাসের ৭ বছরের শিশু সন্তান সোহাগ দাস মাটিবাহী ট্রাকের চাপায় নিহত হয়। এসময় এলাকার ক্ষুব্ধ জনতা ট্রাকটিতে আগুন লাগিয়ে দেই।

আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




মধুপুরে প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে বাল্যবিবাহ অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৩৪৬জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধি:টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলাধীন কুড়ালিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড মেম্বার আঃ আজিজের ছেলের সাথে ১৩ বছরের মেয়ের বিয়ে সংঘটিত হয়েছে।দীর্ঘদিন পর মধুপুরে এতো অল্প বয়সের একটি কিশোরী মেয়ের বিয়ে সংঘটিত হলো।জানা যায়, ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া কেশরগন্জ এলাকায় একটি বাল্যবিবাহ  সংঘটিত হচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে ফুলবাড়িয়া পুলিশ প্রশাসন এবং সাংবাদিক মিলে ঘটনা স্থলে গিয়ে সত্যতা পেয়ে বিয়ে বন্ধ করেন।

এসময়  প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্ষন্ত ছেলে মেয়ের বিয়ে দিবেন না বলে একটি অঙ্গিকার নামায় স্বাক্ষর  প্রদান করেন উভয় পক্ষের অভিভাবক।  কিন্তু পরবর্তীতে সুকৌশলে ছেলের বাবা কুড়ালিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আঃ আজিজ সেখান থেকে মেয়েকে এনে প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গলী দেখিয়ে নিজ বাড়িতে  বিয়ে সম্পুর্ন করেন বলে জানা যায়।  বিষয়টি মধুপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুবায়ের হোসেনকে অবহিত করা হলে তিনি ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য স্হানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আঃ মান্নানকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বলে জানান।

উক্ত বিয়ে বেশ কয়েকদিন আগে সংঘটিত হয়েছে বলে জানান ইউপি চেয়ারম্যান।ঘটনাটি ঘটেছে ১৪ ফেব্রুয়ারী বুধবার বিকেলে উপজেলার কুড়ালিয়া গ্রামে। বাল্য বিবাহ রোধে দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উপদেশ দিয়া আসছেন মধুপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মানবতার ফেরিওয়ালা খ্যাত মোল্লা আজিজুর রহমান।

তিনি মাদক, বাল্য বিবাহ, ইভটিজিং সহ মোবাইলের অপব্যবহার রোধে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছাত্র ছাত্রী ও অভিভাবকদের পরামর্শ দিয়ে ব্যাপক আলোচনায় এসেছেন। এ বাল্যবিবাহের ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি সরেজমিনে দেখে বাল্যবিবাহ সংঘটিত ব্যাক্তিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে না পারলে ভবিষ্যতে অনেক ফুটফুটে কিশোরী অকালে ঝরে পড়বে এমনটাই বলছেন এলাকার সুধী মহল।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




২০২৬ বিশ্বকাপ: মেক্সিকোতে উদ্বোধনী ম্যাচ, ফাইনাল নিউইয়র্কে

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৫৩জন দেখেছেন

Image

স্পোর্টস ডেস্ক:তিন দেশে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ৪৮ দলের অংশগ্রহণে ২০২৬ বিশ্বকাপের সূচি প্রকাশ করেছে ফিফা। ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা জানিয়েছে ১১ জুন বিশ্বকাপ শুরু হয়ে ফাইনাল হবে ১৯ জুলাই।

মেক্সিকো সিটির আজতেকা স্টেডিয়ামে স্বাগতিক দলের ম্যাচ দিয়ে শুরু হওয়ার পর ৩৯ দিনের আসরের সমাপ্তি হবে নিউজার্সির মেটলাইফ স্টেডিয়ামে, ১৯ জুলাই।

তাদের উদ্বোধনী ম্যাচ খেলবে কানাডা টরেন্টোতে, যুক্তরাষ্ট্র দলের প্রথম ম্যাচ রাখা হয়েছে লস এঞ্জেলসে। ৩২ দলের বিশ্বকাপে এতদিন ম্যাচ সংখ্যা ছিল ৬৪টি। এবার ৪৮ দলের আসরে তা বেড়ে হচ্ছে ১০৪টি।

গ্রুপ পর্বের ১০ ম্যাচসহ ১৩ ম্যাচ আয়োজন করবে কানাডার দুই শহর টরেন্টো ও ভ্যানকুবার। মেক্সিকোতেও হবে ১৩ ম্যাচ। মেক্সিকো সিটি, গুয়াদালজারা ও মনেটেরিতে হবে খেলা। টুর্নামেন্টের বাকি ৭৮টি ম্যাচই হবে যুক্তরাষ্ট্রের ১১টি শহরে।

১১ জুন থেকে ২৭ জুন পর্যন্ত গ্রুপ পর্বের লড়াই শেষে ২৯ জুন থেকে ৩ জুলাই পর্যন্ত হবে শেষ ৩২ এর ম্যাচ। ৪ থেকে ৭ জুলাই হবে শেষ ষোলোর লড়াই। কোয়ার্টার ফাইনাল ৯ থেকে ১১ জুলাই। কোয়ার্টার ফাইনাল হবে লস অ্যাঞ্জেলস, কানসাস সিটি, মায়ামি ও বোস্টনে।

ডালাস ও আটলান্টায় দুই সেমিফাইনাল হবে ১৪ ও ১৫ জুলাই। ১৮ জুলাই মায়ামিতে তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচ। এবং সবশেষে ১৯ জুলাই নিউজার্সিতে হবে ফাইনাল।

তারিখ জানালেও ম্যাচ শুরুর সময় এখনো চূড়ান্ত করেনি ফিফা।


আরও খবর