Logo
আজঃ সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তির সংগ্রাম চলছে: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৭ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৩৩২জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন। এখন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তির সংগ্রাম চলছে। তার নেতৃত্বে আমরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার পথে এগিয়ে যাচ্ছি।

আজ শুক্রবার সকাল ৭টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি সরকার সংবিধানের ওপর আঘাত এনেছে, কলঙ্কিত করেছে। আওয়ামী লীগ সংবিধানের মর্যাদা রক্ষা করে সে আলোকে আগামী নির্বাচনে যেতে চায়। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মানের পথের বাধা সাম্প্রদায়িক শক্তির বিষবৃক্ষকে উপড়ে ফেলা হবে।

এর আগে, সকাল ৭টার দিকে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরে সেখানে দাঁড়িয়ে দোয়া ও মোনাজাতে অংশ নেন তিনি।

এরপর শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের নেতারা ফুল দিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান।


আরও খবর



পুলিশের ৩৩ কর্মকর্তাকে পদোন্নতি

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০২জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:পুলিশের তিন পদে কর্মরত ৩৩ কর্মকর্তাকে পদোন্নতি দিয়ে পরিদর্শক করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ সংক্রান্ত আদেশ দেওয়া হয়।

এতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ পুলিশের সাব-ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র) থেকে পুলিশ পরিদর্শক (নিরস্ত্র) পদে ১৫ জন, সাব-ইন্সপেক্টর (সশস্ত্র) থেকে পুলিশ পরিদর্শক (সশস্ত্র) পদে ১৪ জন এবং পুলিশ সার্জেন্ট থেকে পুলিশ পরিদর্শক (শহর ও যানবাহন) চারজনসহ মোট ৩৩ জন কর্মকর্তাকে পদোন্নতি প্রদান করা হয়েছে।


আরও খবর



রাশিয়ার বিরোধীনেতা নাভালনি কারাগারে মারা গেলেন

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৭৮জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:রাশিয়ার কারাগারে মারা গেলেন পুতিন বিরোধী নেতা নাভালানি । ৪৭ বছর বয়সে ইয়ামালো-নেনেটস প্রদেশের কারাগারেই তিনি মারা গেছেন বলে জানিয়েছে দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম। ১৯ বছরের সাজার বিপরীতে কারাগারটিতে ছিলেন নাভালনি। খবর আল-জাজিরার।

এক বিবৃতিতে রুশ কারা কর্তৃপক্ষ জানায়, ‘হাঁটার পর নাভালনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। স্বল্প সময়ের মধ্যেই জ্ঞান হারান তিনি। দ্রুত সেখানে চিকিৎসা কর্মীরা উপস্থিত হন ও অ্যাম্বুলেন্স ডাকেন। চিকিৎসকরা চেষ্টা করলেও তিনি সাড়া দেননি।

তবে, কি কারণে নাভালনি মারা গেছেন সে বিষয়ে ওই বিবৃতিতে কিছু জানানো হয়নি। সেখানে বলা হয়, বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।

নাভালানির মৃত্যুর বিষয়টি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে জানানো হয়েছে বলে জানিয়েছে ক্রেমলিন।

পুতিনবিরোধী নাভালনিকে যে কারাগারে রাখা হয়েছিল সেটি মস্কো থেকে এক হাজার ৯০০ কিলোমিটার (এক হাজার ২০০ মাইল) উত্তর-পূর্বে খার্পে অবস্থিত। আলাস্কার পার্শ্ববর্তী এই কারগারটি রাশিয়ার অন্যতম মারাত্মক জেল। গুরুত্বর অভিযোগে সাজাপ্রাপ্তদের এই কারাগারে রাখা হতো।

নাভালানির সহযোগী লেওনিড ভোলকোভ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এক্সে (সাবেক টুইটার) এক পোস্টে লেখেন, ‘রাশিয়ান কর্তৃপক্ষ একটি স্বীকারোক্তি প্রকাশ করেছে যে তারা কারাগারে নাভালনিকে হত্যা করেছে। এটি সত্য নয় তা নিশ্চিত করার বা প্রমাণ করার কোনো উপায় আমাদের কাছে নেই।’

২০২১ সালের জানুয়ারিতে জার্মানি থেকে নাভালানিকে রাশিয়ায় ফেরত আনা হয়। এর আগে তাকে বিষপ্রয়োগ করা হয়। এর জন্য রাশিয়ার গুপ্তচরদের দিকেই আঙুল তুলেন তিনি। দেশে ফেরার পর থেকেই কারাগারে বন্দি ছিলেন তিনি।

গ্রেপ্তার হওয়ার আগে নোভালানি দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রচারাভিযানের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। ক্রেমলিন বিরোধী বড় বড় বিক্ষোভের আয়োজন করেছিলেন। এমনকি, ইউক্রেন আগ্রাসনের বিপক্ষে সরব ছিলেন পুতিনের এই কট্টর সমালোচক।


আরও খবর



সাকিবের পৃষ্ঠপোষকতায় মহান একুশ উপলক্ষে শহরে আলপনার উদ্যোগ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৬১জন দেখেছেন

Image

স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:‘একুশের আলপনায় মাগুরা’ এই শিরোনামে মাগুরায় প্রথমবারের মতো জেলা শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলোকে আলপনার রঙে সজ্জিত করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। মাগুরা -১ আসনের সংসদ সদস্য বিশ্বখ্যাত অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের পৃষ্ঠপোষকতায় মাগুরার চিত্রশিল্পী, সাহিত্যিক সাংবাদিকসহ এক ঝাঁক স্বেচ্ছাসেবক এর উদ্যোগে এ কর্মসূচিটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে। কর্মসূচির অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি ২৪) বিকালে মাগুরা সরকারি হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে এক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। মাগুরা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ কুন্ডুর সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সরকারি হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর রেজভি জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ কলিমুল্লাহ, জেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ আনিসুর রহমান খোকন, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যাপক (অব:) খান শফিউল্লাহ, মাগুরা জার্নালিস্ট নেটওয়ার্কের সদস্য সচিব সাংবাদিক রূপক আইচ, মাগুরা টিভি জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক শেখ ইলিয়াস মিথুন, জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি এইচ এন কামরুল ইসলাম, জেলা মহিলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কাজী লাবনী জামান, চিত্রশিল্পী আশিষ রায় সহ অন্যরা।

সভায় জানানো হয়, মহান একুশে ফেব্রুয়ারীর মহত্ব নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে শহরের ভায়নার মোড় থেকে চৌরঙ্গীর মোড় হয়ে নোমানী ময়দান শহীদ বেদী পর্যন্ত এবং কেশব মোড় থেকে চৌরঙ্গীর মোড় হয়ে সাব রেজিস্ট্রি অফিস পর্যন্ত আলপনা আকার কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। বিশ্বখ্যাত ক্রিকেট অলরাউন্ডার ও মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য সাকিব আল হাসানের পৃষ্ঠপোষকতায় এ কর্মসূচির পেইন্ট পার্টনার হিসেবে থাকছে এশিয়ান পেইন্টস। কর্মসূচির মিডিয়া পার্টনার হিসেবে আছে মাগুরা জার্নালিস্ট নেটওয়ার্ক ও মাগুরা টিভি জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন।


আরও খবর



ধানী জমির আইলে দানাদার বীষ ১২ টির মত মুরগির মৃত্যু

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৫১জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:বিলের ধানী জমির আইলে পরিকল্পিত ভাবে গমের সাথে  দানাদার বিষ দিয়ে রাখেন কৃষক ডালার। রবিবার সকালের দিকে  সেই বিষ খেয়ে অসহায় দরিদ্র ব্যাক্তিদের ১২ টির মত মুরগী মারা যায়। রাজশাহীর তানোর পৌর সদর শীতলীপাড়া গ্রামে ঘটে মুরগী মারা যাওয়ার ঘটনাটি। এঘটনায় সুবিচার পেতে ডলারের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ভুক্তভোগী দরিদ্র মৎস্য জীবিরা। এখবর ছড়িয়ে পড়লে ডলারের শাস্তিসহ ক্ষতিপূরুনের দাবি তুলেছেন ভুক্তভোগীরা। 

জানা গেছে, পৌর সদর এলাকার শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামের পূর্ব দিকে শীতলীপাড়া গ্রাম। গ্রামের চারদিকে আবাদি জমি। জমিগুলোতে বোরো রোপন করা আছে। গ্রামের প্রায় সবাই মৎস্য জীবি বা বিল থেকে মাছ মেরে জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন। গ্রামের নিচে  উপজেলা ক্যাম্পাস এলাকার কৃষক হাজী ইউনুস আলীর ছেলে ডলারের জমি রয়েছে। জমির ধানগুলো কালচে আকার ধারন করেছে। এখনো ধানে শীষ গজায়নি।শীতলীপাড়া গ্রামের মধুবালার ৪ টি, তারা বিবির ৪ টি ও রানীর একটি এবং গোলাপীর একটি মুরগী মারা যায়।

ভুক্তভোগীরা জানান, সংসারে একটু সাচ্ছন্দ্য আনতে মুরগী লালন পালন করে থাকি। গ্রামের চারদিকে ধানী জমি। ধানে এখনো শীষ গজায়নি। মুরগী খাবে এমন কিছুই নেই। শুধু হিংসাত্মক ভাবে ডলার জমির আইলে গমের সাথে দানাদার বীষ দিয়ে রেখেছিল মুরগীগুলো মেরে ফেলার জন্য। তার ভয়ে কেউ হাঁস লালন পালন করতে চায়না। গত বছরও তিনি গ্রামের কয়েক ব্যক্তির হাঁস বিষ দিয়ে মেরেফেলেছিল। প্রতি বছর মুরগী হাস মারলেও ভয়ে কেউ কিছুই বলতে পারেনা। তার জমির কাছে হাস বা ছাগল গেলেই খোয়াড়ে দেয়। কিন্তু মুরগীর কি অপরাধ যে গমের সাথে বিষ প্রয়োগ করে মেরে ফেলতে হবে। আমরা থানায় অভিযোগ করেছি ন্যায্য বিচার পাওয়ার জন্য। 

কৃষক ডলার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমি কেন জমির আইলে গমের সাথে বিষ দিব, আমি কি পাগল। হ্যাঁ হাস, ছাগল খোয়াড়ে দিই। তবে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করেছে। এত কৃষকের জমি থাকতে আপনার নামে কেন অভিযোগ করল জানতে চাইলে তিনি জানান, কেউ অভিযোগ করলেই যে সঠিক হবে কে বলেছে, তদন্ত করে দেখুক বলে দায় সারেন তিনি।
থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি আব্দুর রহিম বলেন, অভিযোগ আমার হাতে এসে পৌছেনি, পৌছলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরও খবর



অপরাধীদের কার্যক্রমে বহুমাত্রিকতা সংযোজিত হয়েছে : আইজিপি

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ৬০জন দেখেছেন

Image
মারুফ সরকার,স্টাফ রিপোর্টার : আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার এবং বৈশ্বিক পরিবর্তিত সমাজ ব্যবস্থায় অপরাধ ও অপরাধীদের কার্যক্রমে বহুমাত্রিকতা সংযোজিত হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন।

শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) পুলিশ স্টাফ কলেজে 'মাস্টার্স অব অ্যাপ্লাইড ক্রিমিনাল অ্যান্ড পুলিশ ম্যানেজমেন্ট' শীর্ষক মাস্টার্স প্রোগ্রামের ৮ম ব্যাচের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন বলেন, আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার এবং বৈশ্বিক পরিবর্তিত সমাজ ব্যবস্থায় অপরাধ ও অপরাধীদের কার্যক্রমে বহুমাত্রিকতা সংযোজিত হয়েছে।

এসময় তিনি এ ধরনের অপরাধ মোকাবিলায় বাংলাদেশ পুলিশের সদস্যদেরকে অপরাধ বিষয়ক উচ্চ শিক্ষা ও প্রশিক্ষণের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

তিনি বলেন, মাঠ পর্যায়ে যেসব অপরাধ সংঘটিত হতো এখন সেটি ছাড়াও তথ্য প্রযুক্তির ও যোগাযোগের কার্যক্রম বৃদ্ধি পাওয়ায় প্রচলিত অপরাধের ধরন যেমন পরিবর্তন হয়েছে, তেমনি ডিজিটালাইজড পদ্ধতির অপরাধ সংযোজিত হয়েছে। বাংলাদেশ পুলিশ উচ্চতর শিক্ষা ও প্রযু্িক্তগত উন্নয়নের মাধ্যমে সেসব অপরাধ মোকাবিলায় নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। বৈশ্বিক অপরাধের প্রভাবে বাংলাদেশেও সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও উগ্রবাদের মতো অপরাধ যুক্ত হয়েছে। বাংলাদেশ পুলিশ সফলতার সঙ্গে সব ধরনের দেশীয়, আঞ্চলিক এবং আন্তর্জাতিক বহুমাত্রিক অপরাধ মোকাবিলায় শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও গবেষণা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।  

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আন্তরিক ইচ্ছার ফলে ২০০০ সালে পুলিশ স্টাফ কলেজ বাংলাদেশের যাত্রা শুরু করে প্রশিক্ষণ ও গবেষণা বিষয়ে বিশেষ অবদান রেখে চলেছে। 

কোর্স উদ্বোধনের আগে তিনি পুলিশ স্টাফ কলেজের নবনির্মিত সাইবার ল্যাবের উদ্বোধন করেন এবং পরে আন্তর্জাতিক পুলিশ গবেষণা ও উদ্ভাবন কেন্দ্র পরিদর্শন করেন।

আরও খবর