Logo
আজঃ শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪
শিরোনাম
কক্সবাজারে পাহাড় ধসে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু বন্ধ শিল্প প্রতিষ্ঠান চালুর পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে: শিল্পমন্ত্রী বাংলাদেশের হার দিয়ে সুপার এইট শুরু গোদাগাড়ীতে রাসেল ভাইপারের চিকিৎসার দাবিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রীর কাছে চিঠি দিয়েছে নাগরিক স্বার্থ-সংরক্ষণ কমিটি রূপগঞ্জে জমে উঠেছে কাঞ্চন পৌরসভা নির্বাচন যাত্রাবাড়ীতে পুলিশ কর্মকর্তার বাবা মাকে কুপিয়ে হত্যা যানজট নিরসনে সংসদ সদস্যগণের সাথে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের সমন্বয়সভা ভোলায় ফের দেখা মিলল রাসেল ভাইপার, জনমনে আতঙ্ক বাজেট পাস হয়নি,অনেক কিছু পুনর্বিবেচনা করা সম্ভব: অর্থমন্ত্রী দেশের সব মহৎ অর্জন আ. লীগের মাধ্যমেই হয়েছে: ওবায়দুল কাদের

রুশ সেনাদের হটিয়ে গুরুত্বপূর্ণ এলাকা দখলে নিলো ইউক্রেন

প্রকাশিত:সোমবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ২৭৮জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:রাশিয়ার সেনাদের হটিয়ে দেশের পূর্বাঞ্চলে কৌশলগত গুরুত্বপূর্ণ একটি গ্রাম দখলে নেওয়ার দাবি করেছে ইউক্রেন। দেশটি বলেছে, পূর্বাঞ্চলীয় ফ্রন্টলাইনের অন্যতম প্রধান গ্রাম ক্লিশচিভকা পুনরায় দখল করেছে ইউক্রেনীয় বাহিনী।

বাখমুতের দক্ষিণে অবস্থিত এই গ্রামটি কৌশলগতভাবে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া রাশিয়ার আক্রমণের বিরুদ্ধে পাল্টা আক্রমণও চালিয়ে যাচ্ছে ইউক্রেন। সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এএফপি।

অবশ্য যুদ্ধক্ষেত্রে এই ধরনের বিজয় বা সাফল্য অর্জন ইউক্রেনের জন্য বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ। কারণ প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি আগামী সপ্তাহে ওয়াশিংটনে সফরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন এবং সেখানে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দেওয়ার পাশাপাশি কিয়েভের জন্য সমর্থন আদায়ের চেষ্টা চালাবেন।

মূলত ইউক্রেনের জন্য আরও সমর্থন জোগাড় করার ক্ষেত্রে পশ্চিমা সহায়তায় পুষ্ট ইউক্রেনীয় বাহিনীর পাল্টা আক্রমণে যে সফলতা আসছে, সেটি দেখানো কিয়েভের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। অবশ্য ইউক্রেনের এই অগ্রগতি এমন সময়ে এসেছে যখন দুই সিনিয়র পশ্চিমা ব্যক্তিত্ব চলমান সংঘাতের দ্রুত সমাপ্তির আশা করার বিরুদ্ধে সতর্ক করেছেন।

ইউক্রেনের সামরিক বাহিনীর স্থলবাহিনীর কমান্ডার ওলেক্সান্ডার সিরস্কি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন, ‘ক্লিশচিভকাকে রাশিয়ানদের থেকে মুক্ত করা হয়েছে।

এদিকে প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি বাখমুতের কাছে যুদ্ধরত সৈন্যদের প্রশংসা করেছেন এবং যারা রাশিয়াকে হটিয়ে ক্লিশচিভকাকে পুনরুদ্ধারের কাজে যুক্ত ছিল তাদেরও আলাদা করে সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে প্রশংসা করেন।

জেলেনস্কি আরও বলেন, কিয়েভ ‘ইউক্রেনের জন্য নতুন প্রতিরক্ষা সমাধান প্রস্তুত করছে’। এই বিষয়ে বিস্তারিত আর কিছু না জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আকাশ প্রতিরক্ষা এবং আর্টিলারি এ ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার হিসেবে থাকবে’।

এএফপি বলছে, ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়ার সামরিক বাহিনী আক্রমণ শুরু করার আগে ক্লিশচিভকা গ্রামটি কয়েকশ লোকের আবাসস্থল ছিল। তবে চলতি বছরের জানুয়ারিতে রাশিয়ান সৈন্যরা এই এলাকাটি দখল করে নেয়।

পূর্বাঞ্চলে ইউক্রেনীয় সেনাদের মুখপাত্র ইলিয়া ইয়েভলাশ বলেছেন, ক্লিশচিভকা গ্রামের ওপর নিয়ন্ত্রণ ইউক্রেনের সেনাবাহিনীকে কৌশলগত গুরুত্বপূর্ণ আরেক শহর বাখমুত ঘেরাও করতে সহায়তা করতে পারে। মূলত দীর্ঘ এবং রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের পর গত মে মাসে রাশিয়ান বাহিনী বাখমুত দখল করে নিয়েছিল।

ইয়েভলাশ টেলিভিশনে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘আমরা এখন স্টেজিং গ্রাউন্ড দখলে নিয়েছি, যা ভবিষ্যতে আমাদের আক্রমণাত্মক পদক্ষেপগুলো চালিয়ে যেতে এবং দখলদারদের কাছ থেকে আমাদের আরও ভূখণ্ড মুক্ত করার সুযোগ দেবে।

এছাড়া এই গ্রামটি দখলের ফলে ইউক্রেনীয় বাহিনী রাশিয়ান বাহিনীর দিকে আরও সহজে অগ্রসর হতে এবং আরও ভালোভাবে গোলাবর্ষণ করতে পারবে বলেও জানান তিনি।


আরও খবর



ঈদ যাত্রা নির্বিঘ্নে করতে কাজ করছেন পুলিশ

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | ৭৩জন দেখেছেন

Image
মারুফ সরকার, স্টাফ রিপোর্টার: মিরপুর ডিভিশনের  এডিসি (প্রশাসন) মাসুক মিয়া পিপিএম জানান  গাবতলী বাসস্ট্যান্ড থেকে ঢাকা বর্হিগামী  যাত্রীরা যাতে নির্বিঘ্নে দেশের নানা প্রান্তে যেতে  কোনো ধরনের হয়রানির  শিকার না হয় সে লক্ষ্যে মিরপুর ডিভিশনের পুলিশ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে । ঈদ যাত্রা নির্বিঘ্নে  করতে মিরপুরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট গুলিতে চেকপোস্ট জোরদার করা হয়েছে।

মানুষজন যাতে বিভিন্ন গরুরহাটে নিরাপদে কোরবানির গরু কেনাবেচা করতে পারে,সে জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।বিভিন্ন অংশীজনদের নিয়ে নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিষয়ে হোয়াটস এপ গ্রপ খোলা হয়েছে।ব্যাংক বীমা আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় করা হয়েছে।যে সকল সম্মানিত নাগরিকগণ গ্রামের বাড়িতে ঈদ উদযাপন করতে যাবেন তাদের করণীয় বর্জণীয় সংক্রান্ত লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে।নাগরিকদের যে কোন সমস্যায় লোকাল থানায় কিংবা ৯৯৯ জানানোর অনুরোধ জানান। আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে আলাপকালে  তিনি এ কথা জানান।

এডিসি আরো জানান, আমাদের এখানে ৩ টি গরুর হাট আছে। গরুর হাট গুলোর মধ্যে একটি স্থায়ী আর দুইটি হচ্ছে অস্থায়ী। স্থায়ী হাট হল গাবতলী গরুর হাট, অস্থায়ী ২টিহলো, একটি হল পল্লবী থানাধীন ইস্টার্ন হাউজ  আরেকটি হলো ভাষানটেক থানাধীন ক্যান্টন মেন্ট বোর্ড বাজার। প্রতিটি হাটে সার্বক্ষণিক সিসিটিভি ক্যামেরার পাশাপাশি  পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। 
যাতে ছিনতাই, চাঁদাবাজি সহ যেকোনো ধরণের অপকর্ম রোধ করতে কাজ করছে পুলিশ।

এদিকে কাফরুল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি ফারুকুল আলম জানান, পবিত্র ঈদুল আযহা খুব সন্নিকটে। এই ঈদে অনেক মানুষ ঢাকা ছাড়ে। তাই আমরা কাফরুল থানা পুলিশ সবসময় নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সর্তক অবস্থানে রয়েছি।আমরা বিভিন্ন স্থানে রাতের বেলা চেকপোস্ট  করি। যাতে করে কেউ ছিনতাইয়ের  কবলে না পড়ে।

আরও খবর



ছাতক উপজেলা নির্বাচনে ভোটযুদ্ধ চাচা-ভাতিজার!

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ১৫০জন দেখেছেন

Image

রনি,ছাতক (সুনামগঞ্জ)প্রতিনিধি:সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আব্দুল হক কলেজের সাবেক ভিপি আওয়ামীলীগ নেতা আওলাদ আলী রেজা (চাচা) ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম কিরন ভাতিজার মধ্যে এবার ভোট যুদ্ধে লড়ছেন একই পদে। প্রভাবশালী এই পরিবারের একই পদে চাচা-ভাতিজা প্রার্থী থাকায় শঙ্কায় আছেন সাধারণ ভোটাররা। জানা গেছে উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা হিসাবে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এবং দীর্ঘদিন থেকে উপজেলা ২০২২-২৩ সালে ভয়াবহ বন্যা অসহায় মানুষের পাশে দাড়িয়ে ছিলেন। উপজেলা চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন তিনি। তার প্রতীক আনারস। একই পদে লড়ছেন তারই ভাতিজা সাবেক ছাত্রলীগ নেতা  রফিকুল ইসলাম কিরন। একই পরিবারের দুই শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী থাকায়সঙ্ঘাতের আশঙ্কায় আতঙ্কিত ভোটাররা। দুই দিন পর ভোটগ্রহণ, তবুও জমে ওঠেছে ভোটের মাঠ। এখানে চাচা-ভাতিজা ছাড়াও দু বারে উপজেলা ভাইন্সচেয়ারম্যান আবু সাদাত মোহাম্মদ লাহিন ঘোড়া প্রতীকে। মাহমুদ ও আমজদ আলী নামে আরো দুইজন চেয়ারম্যান পদের প্রার্থী আছেন। দলীয় কার্যক্রমে তেমন সম্পৃক্ত না থাকলেও প্রবাসী ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা কিরন উপজেলা হাট বাজার গ্রাম গঞ্জে  তেমন বেগ পেতে হয়নি তার। তবে জনপ্রতিনিধি হতে এবারই প্রথম  উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চাচার বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে ভাতিজা কিরন লড়ছেন। তার প্রতীক কাপ পিরিচ। এ ছাড়াও  উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে আওলাদ আলী রেজা এবার আনারস  প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান পদে নিবাচন করছেন একই গ্রামের চাচা ভাতিজা দুজন চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়েছেন। দলীয় কর্মীরা কে কার সাথে দেখা করছেন, ভোটের কাজ কে কার পক্ষে করছেন, সেটা নিয়েও ক্ষোভ চলছে প্রার্থীদ্বয়ের মধ্যে। এ কারণে অনেকটাই বিপাকে ভোটার কর্মী ও সমর্থকরা। একজনের পক্ষে কাজ করলে একই  গ্রামের  অপর জনের রোষাণলে পড়ার শঙ্কা দেখছেন তারা। সাধারণ ভোটাররা জানান, একজনের পক্ষে গেলে অপরজনের রোষাণলে পড়তে হবে। ভোট শেষে চাচা-ভাতিজা রক্তের টানে হয়তো মিলমিশ হয়ে যাবে। কিন্তু কর্মীদের প্রতি এই রোষাণলের রেশ সহজে কাটবে না। স্থানীয় ভোটার বোরহান উদ্দিন, আলী আহমদ ও উপজেলা যুবলীগের নেতা সায়াদুর রহমান সায়েদ বলেন,গ্রাম গঞ্জে পাড়া মহল্লায় সৎ যোগ্য প্রাথী আওলাদ আলী রেজার আনারস প্রতীকের গন জোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। ভাতিজা কিরন থেকে অনেক গুন এগিয়ে রয়েছেন চাচা আওলাদ আলী রেজার পাল্লা দিন দিন ভারি হয়ে উঠেছে। কিরন বলেন, আমার বাবা স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবেই জনগণের সেবা করছেন। আমি ও ভোটারদের কাছে যাচ্ছি। ভোটে গণসংযোগ করছি। জনগণ সাড়া দিচ্ছেন। আওলাদ আলী রেজা বলেন, জনগণের পাশে ছিলাম, আছি ও থাকব। জনগণও আমাকে সাড়া দিচ্ছেন। ওদিকে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে এমপি মানিকের নাম ভাঙ্গিয়ে ভোট চাওয়ার অভিযোগ করে তিনি জন প্রতিনিধিদের ঢাকা বাসা ডেকে নিয়ে কাবিখা, টিআরসহ সরকারি নানা সুবিধা দিয়ে লাহিন ও কিরনের জন্য ভোট চাচ্ছেন। তার দলীয় নেতাকমীদের নিয়ে বিশেষ সভা মিটিং করাচ্ছেন কিরনের পক্ষে। উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা গৌছ মিয়া বলেন, এটা কোনো আওয়ামী লীগের নির্বাচন নয়। যার যাকে ভালো লাগে তার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে। আওয়ামীলীগ একক কোন প্রাথীর নাম স্থানীয় এমপি সর্মথন করার এখতিয়ার নেই। 

এমনকি বিএনপির, জামায়াত ও জাপার তলে তলে আনারস প্রতীকের পক্ষে রাজনৈতিক দলের মৌন সমর্থনও আদায় করার খবর পাওয়া গেছে। আওয়ামীলীগের সমর্থিত প্রাথী মাহমুদ আলী ও আমজদ আলী নির্বাচনী মাঠে নতুন আগমন করায় নির্বাচনী হাবভাব এখনো বুঝে উঠতে পারছেন না। দলে কোন্দল থাকায় বেকায়দায় পড়তে পারেন আওয়ামীলীগের এমপির সমথিত কিরন,লাহিন ও আমজদ তিনজন প্রাথীরা। আওয়ামীলীগের এমপি সমথিত ইউপির চেয়ারম্যান গয়াছ আহমদ,ওদুদ আলম, বিল্লাল আহমদ,সাবেক চেয়ারসম্যান জয়নাল আবেদীন আবুল, কাপ পিরিচ পক্ষে জন্য ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ভোট চাইতে দেখে বিজয়ের স্বপ্নে বিভোর কিরনের। নির্বাচনকে সামনে রেখে ছাতক উপজেলাবাসী ও সচেতন মহলের একটাই প্রত্যাশা সৎ, যোগ্য ও কর্মট প্রার্থী নির্বাচিত হলে উন্নয়নের বাধভাঙ্গা জোয়ারে ভাসবে দেশ, সমৃদ্ধ হবে উপজেলা। ২৯ মে অনুষ্টিত হবে নিবাচন। ১শত ৩টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে বেশী ভাগ কেন্দ্র ঝুকিপুর্ন রয়েছে।


আরও খবর



পাঁচ থানার ওসি প্রত্যাহারের নির্দেশ

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ১৭৯জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:সোমবার (২৭ মে) নির্বাচন কমিশন (ইসি) সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের স্বার্থে পাঁচটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) প্রত্যাহার করার নির্দেশনা দিয়েছে । ইসির উপ-সচিব মো. মিজানুর রহমান এ নির্দেশনা পাঠিয়েছেন।

নির্দেশনায় বলা হয়, ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে করার লক্ষে কুমিল্লার দেবীদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ, চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ, চট্টগ্রামের চন্দনাইশ থানার অফিসার ইনচার্জ এবং আনোয়ারা থানার অফিসার ইনচার্জকে সংশ্লিষ্ট রেঞ্জ ডিআইজির কার্যালয়ে অদ্যই (আজ) সংযুক্ত করে সংশ্লিষ্ট থানার নিরস্ত্র পুলিশ পরিদর্শককে (তদন্ত) ৩১ মে পর্যন্ত দায়িত্ব দেওয়ার জন্য কমিশন সিদ্ধান্ত দিয়েছে।

এছাড়া, পটুয়াখালীর দুমকী থানার অফিসার ইনচার্জকে নির্বাচন শেষ না হওয়া পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট রেঞ্জ ডিআইজির কার্যালয়ে অদ্যই সংযুক্ত করে সংশ্লিষ্ট থানার নিরস্ত্র পুলিশ পরিদর্শককে (তদন্ত) দায়িত্ব দেওয়ার জন্য নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত দিয়েছে।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রয়োজনীয় কার্যক্রম নিয়ে নির্বাচন কমিশনকে জানাতে বিনীতভাবে অনুরোধও করা হয়েছে চিঠিতে।


আরও খবর



রাণীশংকৈলে সেই সোনার খনিতে ১৪৪ ধারা জারি

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ১৪৩জন দেখেছেন

Image
মাহাবুব আলম,রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি:ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল বাচোর ইউনিয়নের কাতিহার বাজারের উত্তর পাশে রুহুল আমিন মালিকানাধীন ‘সোনার খনি’ খ্যাত আরবিবি (জইই) ইটভাটা এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে উপজেলা প্রশাসন।

রবিবার (২৬ মে) উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রকিবুল হাসান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন । এর আগে গত শনিবার (২৫ মে) ১৪৪ ধারা জারি করা হয়।

জানা গেছে,গত এক মাস ধরে ওই ইটভাটায় কাঁচা ইট তৈরির জন্য এলাকার বিভিন্ন পুকুর থেকে মাটি কেটে এনে ৩টি মাটির স্তুপ করা হয়। ওই মাটির স্তূপগুলোতে বিভিন্ন ধরনের সোনার মোহর, স্বর্ণের দুল, আংটিসহ বিভিন্ন সোনার তৈরি জিনিস পাওয়া যায়। এতে করে প্রতিদিন হাজার হাজার নারী, পুরুষ স্বর্ণ পাওয়ার আশায় রাত দিন মাটি খনন করতে থাকে। যা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমসহ দেশের বিভিন্ন শীর্ষস্থানীয় পত্রিকা ও টেলিভিশনে নিউজ প্রকাশিত হয়।

এরই প্রেক্ষিতে শনিবার ১৪৪ ধারা জারি করে স্থানীয় প্রশাসন। আদেশে বলা হয়েছে, ওই ইট ভাটার মাটির স্তপ খুঁড়ে সোনা পাওয়া যাচ্ছে মর্মে স্থানীয় লোকজনসহ আশেপাশের অসংখ্য লোকজন বেশ কিছুদিন যাবৎ খুন্তি, কোদাল, বাশিলা ইত্যাদি দিয়ে মাটি খুঁড়া-খুঁড়ি শুরু করে প্রতিদিন ওই স্থানের তিনটি মাটির স্তূপে সোনার সন্ধান করছে। এতে আগ্রাসী লোকজন স্বর্ণ পাওয়ার আশায় ঝগড়া বিবাদ, কলহ ও দ্বন্দ্বে লিপ্ত হচ্ছে। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ মাটি খুঁড়ে স্বর্ণের সন্ধান করতে থাকলে যে কোনো সময় ঘটনাস্থলে মারামারি, খুন, জখমসহ আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির আশঙ্কা রয়েছে। এমতাবস্থায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আরবিবি (জইই) ইটভাটা এলাকা ও এর আশেপাশে ফৌজদারি কার্যবিধি ১৪৪ ধারা জারি করা হয়।

গভীর রাতে মাটি খুঁড়ছেন হাজার হাজার মানুষ চিঠিতে ঠাকুরগাঁও বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ সুপার, থানার ওসি, বাচোর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান, রাণীশংকৈল প্রেসক্লাব (পুরাতন) ও রাণীশংকৈল প্রেসক্লাব বরাবরে সদয় অবগতির জন্য অনুলিপি পাঠানো হয়।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রকিবুল হাসান জানান, ১৪৪ ধারা জারির পর শনিবার দিনগত রাত ৪টা থেকে সকাল পর্যন্ত ঘটনাস্থলে গিয়ে সকল জনগণকে ওই স্থান থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। এখন সেখানে জনমানবশূন্য। পরিস্থিতি পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে। পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। এ ছাড়াও ইটভাটা কর্তৃপক্ষকে দ্রুত ওইসব মাটি অপসারণের জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আরও খবর



কালিয়াকৈরে বিদ্যুৎ অফিসের গাফিলতি বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে নারীসহ দুটি কুকুরের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ১২২জন দেখেছেন

Image

সাগর আহম্মেদ,কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বিদ্যুৎ অফিসের গাফিলতিতে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে এক নারী পোশাক শ্রমিকসহ দুটি কুকুরের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার ভোরে উপজেলার উলুসারা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়দের অভিযোগ, ওই তারে আগে থেকে স্পার্কিং হলে স্থানীয় পল্লীবিদ্যুৎ অফিসে জানালেও কোনো কর্ণপাত করেনি।

মূলত তাদের গাফিলতিতে এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটেছে।নিহত হলেন, নেত্রকোনা জেলার বারহাট্টা থানার বিকালিকা এলাকার ইছামদ্দীনের মেয়ে আল্পনা আক্তার (২৫)। তিনি উপজেলার উলুসাড়া এলাকার এখলাসের বাড়িতে ভাড়া থেকে স্থানীয় পোষাক কারখানায় কাজ করতেন।

এলাকাবাসী, পল্লীবিদ্যুৎ অফিস ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে,আল্পনা কারখানার নাইট ডিউটি শেষে উপজেলার উলুসারা এলাকায় তার ভাড়া বাসায় যাচ্ছিলেন। যাওয়ার পথে মঙ্গলবার ভোরে বিদ্যুতের খুঁটির সাথে থাকা গ্রাউন্ডিং তারের স্পর্শে এলে বিদ্যুৎ পৃষ্টে আল্পনা নামে ওই নারী শ্রমিকের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহত নারী শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করে। পরে আবেদনের প্রেক্ষিতে নিহতের লাশ তার স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করে পুলিশ। এদিকে ওই নারী শ্রমিক আল্পনার লাশের পাশে জমে থাকা বৃষ্টির পানিতে আরো দুটি কুকুরের মৃতদেহ পড়ে ছিল। এ কারণে স্থানীয়দের ধারণা, ওই কুকুর দুটোও বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মারা গেছে। এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা। তাদের অভিযোগ, যে তারে জড়িয়ে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে আল্পনা মারা যান, সে তারে আগে থেকেই স্পার্কিং হতো। বিষয়টি ঢাকা পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির -১ এর চন্দ্রা জোনাল অফিসে জানানো হলেও তারা কোনো কর্ণপাত করেনি। মূলত বিদ্যুৎ অফিসের গাফিলতিতে এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটেছে।

কালিয়াকৈর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাজিদ আহম্মেদ জানান, খবর পেয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে আবেদনের প্রেক্ষিতে তার স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়।

এব্যাপারে ঢাকা পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির -১ এর চন্দ্রা জোনাল অফিসের ডিপুটি জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী জসীম উদ্দীন বলেন, শুনেছি বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে একজন মানুষ মারা গেছেন। ঘূর্ণিঝড় রেমালের তা-বে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে গিয়ে দুর্ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।তবে এ বিষয়ে পূর্বে কেউ আমাদের অবহিত করেননি।


আরও খবর