Logo
আজঃ শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

নিহতের সংখ্যা গাজায় ১২ হাজার ছাড়াল

প্রকাশিত:শনিবার ১৮ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ | ২৫২জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায়  ইসরায়েলি বাহিনী ৪২ দিনের অভিযানে নিহতের সংখ্যা ১২ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। এই নিহতদের মধ্যে শিশু এবং অপ্রাপ্তবয়স্কদের সংখ্যা কমপক্ষে ৫ হাজার।

শুক্রবার উপত্যকার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এক সংক্ষিপ্ত বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।

কাছাকাছি সময়ে পশ্চিম তীর অঞ্চলের ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ও পৃথক এক বিজ্ঞপ্তিতে একই তথ্য জানিয়ে বলেছে, ১২ হাজার নিহত ছাড়াও গাজায় এখনও নিখোঁজ রয়েছেন ৩ হাজার ৫৭০ জন মানুষ। এই নিখোঁজদের মধ্যে শিশুদের সংখ্যা প্রায় ১ হাজার ৮০০ জন।

গাজা ও পশ্চিম তীরের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে বিবিসি।

৭ অক্টোবর গাজা উপত্যকার উত্তরাঞ্চলীয় ইরেজ সীমান্তে অতর্কিত হামলা চালিয়ে ইসরায়েলি ভূখণ্ডে প্রবেশ করে উপত্যকার নিয়ন্ত্রণকারী গোষ্ঠী হামাসের কয়েক শ’ যোদ্ধা। সেখানে ঢুকে সামরিক-বেসামরিক লোকজনদের হত্যার পাশপাশি ২৪২ জন ইসরায়েলি ও অন্যান্য দেশের নাগরিককে জিম্মি হিসেবে গাজায় ধরে নিয়ে যায় তারা। পরে গাজায় অভিযান শুরু করে ইসরায়েলের বিমান বাহিনী। ১৬ অক্টোবর থেকে অভিযানে যুক্ত হয় স্থল বাহিনীও।

৪২ দিনের এই অভিযানে এখন পর্যন্ত কোনো বিরতি দেয়নি ইসরায়েল। যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ, রাশিয়া, চীনসহ বিভিন্ন দেশ এবং জাতিসংঘ ইসরায়েলকে নিয়মিত মানবিক বিরতি অথবা যুদ্ধবিরতি ঘোষণার জন্য চাপ দিচ্ছে ইসরায়েলকে, কিন্তু ইসরায়েল জানিয়েছে হামাসকে নির্মূলের আগ পর্যন্ত এই অভিযান চলবে।

প্রসঙ্গত, অনেক আগে থেকেই ইসরায়েল ফিলিস্তিনের মানুষের ওপর অত্যাচার করে আসছে। তার জবাব দিতেই হামাস যুদ্ধে নামে।


আরও খবর

চীনে শপিং মলে আগুন, নিহত ১৬

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহাল থাকছে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ | ১৫৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:মুক্তিযোদ্ধা কোটা পদ্ধতি বাতিলের সিদ্ধান্ত অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্টের রায় আপাতত বহাল থাকছে সরকারি চাকরির প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণিতে । বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে ছয় বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

কোটা সংস্কার আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে পাঁচ বছর আগে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরির নিয়োগে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিলের সিদ্ধান্ত অবৈধ ঘোষণা করে গত ৫ জুন রায় দেন হাইকোর্ট। এ রায়ের ফলে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা ফিরে আসে।

পরে এ রায় স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগের চেম্বার আদালতে আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ। কিন্তু গত ৯ জুন প্রাথমিক শুনানির পর আবেদনটি আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে পাঠানো হয়।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে কোটা পদ্ধতি বাতিল করার আগ পর্যন্ত সরকারি চাকরিতে নিয়োগে ৫৬ শতাংশ পদ বিভিন্ন কোটার জন্য সংরক্ষণ করা হতো। এর মধ্যে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের জন্য ছিল ৩০ শতাংশ, নারী ১০ শতাংশ, জেলা ১০ শতাংশ, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী ৫ শতাংশ, প্রতিবন্ধী ১ শতাংশ কোটা।


আরও খবর



মধুপুরে বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের দায়ে জরিমানা

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | ১১৯জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা মধুপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃটাঙ্গাইলের মধুপুরে যাত্রীদের কাছ থেকে বিআরটিএ কর্তৃক নির্ধারিত গাড়ি ভাড়ার অতিরিক্ত ভাড়া  আদায় করায় ঢাকাগামী দুটি বিনিময়  পরিবহনকে  ৪ হাজার  টাকা  জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। রবিবার  বিকেলে  মধুপুর পৌর শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এ জরিমানা করা হয়।ভ্রাম্যমাণ আদালত  পরিচালনা করেন মধুপুর উপজেলার সহকারী কমিশনার( ভূমি) রিফাত আনজুম পিয়া।

এসময়  মধুপুর থানার  এস আই ফখরুলের নেতৃত্বে মধুপুর থানার একদল চৌকস পুলিশ অফিসার ও পুলিশ সদস্য গন উপস্থিত থেকে সহযোগিতা করেন।উপজেলার সহকারী কমিশনার( ভূমি) রিফাত আনজুম পিয়া জানান, মধুপুর পৌরসভার বাসস্ট্যান্ডে  ইদুল  আযহা পরবর্তী অতিরিক্ত  গাড়ীর ভাড়া আদায় করা হচ্ছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে জরিমানা করা হয়েছে।’ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, ঈদুল আজহার ছুটি শেষে কর্মস্থলগামী যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছিল বিভিন্ন যাত্রীবাহী পরিবহন।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এমন অভিযোগ পেয়ে  উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) রিফাত আনজুম পিয়া মধুপুর বাসস্ট্যান্ডে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। তিনি জানান, অভিযানের সময় ঢাকাগামী বিনিময়  পরিবহনের লোকজন অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করেছে বলে প্রমাণিত হওয়ায় দুইটি বিনিময় পরিবহনের সুপারভাইজারকে ৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এর পাশাপাশি বাসের সংশ্লিষ্টদের সতর্ক করা হয়েছে। জনস্বার্থে এই অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



জুনে প্রবাসী আয় এলো ২৫৪ কোটি ডলার, তিন বছরের মধ্যে

প্রকাশিত:সোমবার ০১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ | ১৪০জন দেখেছেন

Image

খবর প্রতিদিন ২৪ডেস্ক:প্রবাসী আয় গেল জুন মাসে ২৫৪ কোটি ডলার এসছে। গত তিন বছরে এটি সর্বোচ্চ। এর আগে ২০২০ সালের জুলাইয়ে এসেছিল ২৫৯ কোটি ডলার প্রবাসী আয় । সোমবার (১ জুলাই) বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

জুনের প্রথম ১২ দিনে প্রবাসী বাংলাদেশিরা ব্যাংকের মাধ্যমে ১৪৬ কোটি ডলারের আয় দেশে পাঠান। আর ২৩ জুন পর্যন্ত তারা পাঠিয়েছেন ২০৫ কোটি ২০ লাখ ডলার। ২৮ থেকে ৩০ জুন এই তিন দিনে দেশে প্রবাসী আয় আসে ১৬ কোটি ৭০ লাখ ডলার। সব মিলিয়ে পুরো মাসে দেশে প্রবাসী আয় এসেছে ২৫৪ কোটি ২০ লাখ ডলার। গত বছরের জুনে ২১৯ কোটি ৯০ লাখ ডলারের প্রবাসী আয় দেশে এসেছিল।

এর আগে মে মাসে এসেছে ২২৫ কোটি ৩৮ লাখ ডলারের রেমিট্যান্স বা প্রবাসী আয়। সে হিসাবে মে মাসের তুলনায় জুনে ২৮ কোটি ৮২ লাখ ডলার বেশি এসেছে। আর গত বছরের একই মাসের তুলনায় বেশি এসেছে ৩৪ কোটি ৩০ লাখ ডলার। গত বছরের জুন মাসে এসেছিল ২১৯ কোটি ৯০ লাখ ডলারের রেমিট্যান্স।

অন্যদিকে ২০২৩-২৪ অর্থবছরের পুরো সময়ে এসেছে ২৩ দশমিক ৯২ বিলিয়ন ডলার বা ২ হাজার ৩৯১ কোটি ৫০ লাখ ডলার। এর আগের অর্থবছরে এসেছিল ২ হাজার ১৬১ কোটি ডলার। সে হিসাবে এক বছরের ব্যবধানে রেমিট্যান্স বেড়েছে ২৩১ কোটি ডলার।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তারা বলছেন, রেমিট্যান্সে ডলারের ক্ষেত্রে অনানুষ্ঠানিক চ্যানেলের সঙ্গে ব্যাংকের দরে পার্থক্য কমে এসেছে। আবার বর্তমান পরিস্থিতিতেও বাংলাদেশ ব্যাংক রেমিট্যান্স বাড়াতে অনেক চেষ্টা করছে। ব্যাংকগুলো প্রবাসীদের উৎসাহিত করছে, এতে রেমিট্যান্স বাড়ছে। আগামীতেও বাড়বে বলে জানান তারা।


আরও খবর

রিজার্ভ কমল ১৩২ কোটি ডলার

বৃহস্পতিবার ১১ জুলাই ২০২৪

বাড়ল স্বর্ণের দাম

রবিবার ০৭ জুলাই ২০২৪




দেশে ফিরেছেন ১১ হাজার ৬৪০ হাজি, মৃত্যু ৪৪

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ | ১২৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:এখন পর্যন্ত পবিত্র হজ পালন শেষে ১১ হাজার ৬৪০ হাজি দেশে ফিরেছেন। আর মৃত্যু হয়েছে ৪৪ জনের।রোববার (২৩ মে) দিনগত রাতে হজ পোর্টালের সবশেষ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়।সৌদি থেকে ৩০টি ফ্লাইটে এসব হাজি বাংলাদেশে এসেছেন। এর মধ্যে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ৮টি, সৌদি এয়ারলাইনসের ১০টি এবং ফ্লাইনাস এয়ারলাইনস ১২টি ফ্লাইট পরিচালনা করে।

হজ শেষে গত ২০ জুন থেকে দেশে ফেরার ফ্লাইট শুরু হয়। ওইদিন বাংলাদেশ বিমানের প্রথম ফিরতি ফ্লাইট ৪১৭ হাজি নিয়ে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। আগামী ২২ জুলাই পর্যন্ত হাজিদের ফিরতি ফ্লাইট অব্যাহত থাকবে।

এবার বাংলাদেশ থেকে মোট ৮৫ হাজার ২২৫ জন (ব্যবস্থাপনা সদস্যসহ) হজযাত্রী সৌদি আরবে গেছেন। হজে গিয়ে এখন পর্যন্ত ৪৪ জন বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে পুরুষ ৩৫ এবং মহিলা ৯ জন।

আগামী বছর (২০২৫) বাংলাদেশের জন্য এক লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জনের কোটা দিয়েছে সৌদি আরব।

বিষয়টি নিশ্চিত করে হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম জানান, নির্ধারিত সংখ্যার মধ্যে কতজন সরকারি ব্যবস্থাপনায় আর কতজন বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যাবেন তা বাংলাদেশ সরকার পরে নির্ধারণ করে দেবে।


আরও খবর



ব্রাজিলকে আটকে দিলো কোস্টারিকা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | ১৯২জন দেখেছেন

Image

স্পোর্টস ডেস্ক:ব্রাজিলের জন্য কোপা আমেরিকায় নিজেদের প্রথম ম্যাচটা সুখকর হলো না। মঙ্গলবার (২৫ জুন) যুক্তরাষ্ট্রের সোফাই স্টেডিয়ামে কোস্টারিকার বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করেছে সেলেসাওরা। পুরো ম্যাচে ৭৩ শতাংশ বল নিজেদের দখলে রাখলেও মাত্র মাত্র তিনটি শট অন-টার্গেটে রাখতে পেরেছে দরিভাল জুনিয়রের দল।

একের পর এক গোল মিসে হতাশ করেছেন ব্রাজিলের তারকায় ঠাসা দলটি। এক গোল বাতিলের পর দ্বিতীয়ার্ধে একের পর এক মিস করে কেবল হতাশাই বাড়িয়েছেন দোরিভাল জুনিয়র শিষ্যরা। লুকাস পাকেতা, রদ্রিগো, ভিনিসিয়ুস জুনিয়র, রাফিনহাদের নিয়ে আক্রমণভাগ সাজিয়েছিলেন কোচ দোরিভাল জুনিয়র। বদলি হিসেবে নেমেছিলেন এন্ড্রিক ফিলিপে। শেষ দিকে গোলের আশায় গ্যাব্রিয়েল মার্টিনেল্লিকেও নামানো হয়েছিল। কিন্তু হতাশাটাই শেষ পর্যন্ত সঙ্গী হয়েছে তাদের।

ম্যাচের শুরু থেকে প্রতিপক্ষকে চেপে ধরে ব্রাজিলিয়ানরা। তবে ভাঙা যায়নি কোস্টারিকার রক্ষণ। ম্যাচের ৩৩ মিনিটে অবশ্য গোল পেয়েছিল সেলেসাওরা। রাফিনিয়ার ফ্রি কিক থেকে রদ্রিগোর কাছ থেকে বল পেয়ে গোল করেন মার্কুইনহোস। তবে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারিতে (ভিএআর) বাতিল হয় গোলটি। কারণ রাফিনিয়া যখন ফ্রি কিক নিচ্ছিলেন, তখন অফসাইডে ছিলেন রদ্রিগো।


আরও খবর