Logo
আজঃ সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

নাসিরনগরে আদালতের নিষেধাজ্ঞার পরও চলছে ব্রীজ নির্মান

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৪ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ২০৩জন দেখেছেন

Image

মোঃ আব্দুল হান্নান, নাসিরনগর,ব্রাহ্মণবাড়িয়াঃ-

জেলার নাসিরনগরে আদালতের নিষেধাজ্ঞার পরও চলছে ব্রীজ নির্মানের কাজ।ঘটনাটি ঘটেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার সদর ইউনিয়নের নাসিরপুর কুকুরিয়া খালের পূর্বপাশে।ঘটনার বিবরণে জানা গেছে কুকুরিয়া খালের পাড়ে সাবেক ২৪৭৫ ও হালে বিএস ৫৩৫৬ দাগের ৩০১ নাল,সেঃ মেঃ ৫৩৫৭ দাগে নাসিরপুর গ্রামের নারায়ন চন্দ্র বিশ্বাসের ছেলে  সত্যরজ্ঞন বিশ্বাসের খরিদ সুত্রে ৬৯ শতক নাল ভূমি রয়েছে।যার উত্তরে খাল,দক্ষিনে আব্দুল মোতালিব পূর্বে রাস্তা  পষ্চিমে কুকুরিয়া খাল।যার মালিকানা নিয়ে সরকারের সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ বিজ্ঞ আদালতে মামলা চলমান রয়েছে।২০১৫ সালে বিজ্ঞ সিনিয়র সহকারী জজ আদালত সত্য রঞ্জন বিশ্বাসের পক্ষে প্রথম রায় প্রদান করেন। পরবর্তীতে সরকারের পক্ষ থেকে আপিল করা হলেও২৮ নভেম্ভর ২০২২ তারিখে আবারো আপিলের রায় সত্য রঞ্জনের বিশ্বাসে পক্ষে রায় দেয় আদালত।


কিন্তু আদালতের নিষেধাজ্ঞার পরও উক্ত খালের উপরে ভেকু দিয়ে মাঠি কেটে চলছে ব্রীজ নির্মানের কাজ।আবারো ব্রীজ নির্মান বন্ধের জন্য সত্যরঞ্জন বিশ্বাস  ১৯ জানুয়ারী ২০২৩ তারিখে  ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজ্ঞ  অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা রুজু করলে ওই দিনই আদালত নিষেধাজ্ঞা জারী করেন।

তাছাড়াও আইনশৃংখলা রক্ষার স্বার্থে ২১ জানুয়ারী সত্যরঞ্জন বিশ্বাস বাদী হয়ে নাসিরনগর থানায় লিখিত অভিযোগ দাখিল করলে  এস আই মোঃ ইছহাক সরেজমিন ঘটনাস্থলে গিয়ে ভেকু দিয়ে মাঠি কাটা বন্ধ করে দিয়ে আসেন। 


এবিষয়ে জানতে চাইলে সত্য রঞ্জন বিশ্বাস বলেন ২৪৭৪ দাগে ১৬৫ শতাংশ জায়গা থেকে সরকার ব্রীজ ও খালের জন্য গোগাম শ্রেনীর জায়গা একুয়ার করলেও অজ্ঞাত কারনে আমার মত নিরীহ ও অসহায় মানুষের জায়গা কেন জোর পূর্বক দখলের চেষ্টা চলছে আমা জানি না।তিনি আরো বলেন ম্যাপে রাস্তাটি সোজা থাকলেও বর্তমানে একটি কুচক্রী মহলে ইঙ্গিতে ব্রীজটি ব্যাকা করে আমার জায়গা দখলের চেষ্টা করছে।তিনি এ বিষয়ে আদালতের ন্যায় বিচার প্রার্থনা করছেন।


এ বিষয়ে জানতে চাইলে নাসিরনগর উপজেলা সহকারী প্রকৌশলী মোঃ ইছহাক মিয়া বলেন আমি আমিন সাথে নিয়ে গিয়ে  জায়গাটি একুয়ার করার প্রস্তাব দিয়েছি।তাদের কাগজ পত্র সঠিক থাকলে সরকার উপযুক্ত মুল্য পরিশোধ করতে বাধ্য রয়েছে।



আরও খবর



বাগেরহাটে শিক্ষকের বাড়িতে চুরি, নগদ অর্থ লুট

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৪৫জন দেখেছেন

Image

বাগেরহাট প্রতিনিধি:বাগেরহাটের কচুয়ায় অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকের বাড়িতে দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে। শনিবার গভীর রাতে উপজেলার পালপাড়া গ্রামে শেখ আব্দুল জব্বার এর বাড়িতে এ চুরির ঘটনা ঘটে।

এসময় চোরের নগদ অর্থ ও স্বর্ণালংকার সহ পাঁচ লক্ষ টাকার মালামাল লুটে নেয় বলেঅভিযোগ ভুক্তভোগী পরিবারের। রবিবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে পুলিশ এ ঘটনার তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মহসিন হোসেন।

অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক শেখ আব্দুল জব্বার বলেন, শনিবার রাতে বাজার থেকে বাড়িতে ফিরে জানতে পারি বাড়ির আশেপাশে কিছু লোকজন রান্না ঘরের পাশে ঝুপটি মেরে থাকে এবং চেতনাশক ঘরে দিয়েছে। পরে বাড়ির মানুষের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা পালিয়ে যায়। রাতে পরিবারের সবাই যখন ঘুমিয়ে পড়েছিল তখন তারা জানালার সিটকানি ভেঙ্গে ঘরে প্রবেশ করে আলমারি ভেঙে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে যায়। পরে ৯৯৯ এ ফোন করে পুলিশকে খবর দেওয়ার পর পুলিশ এসে ঘরের আলমারী ভাংচুর দেখতে পায়। আমরা এঘটনার বিচার দাবী করেন।

কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মহসিন হোসেন বলেন, ৯৯৯ এ ফোন পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছে। আমরা বাড়িটি পরিদর্শন করেছি। ঘটনাটি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে জানান ওই কর্মকর্তা।


আরও খবর



সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি’কে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করেছে দাগনভূঁঞা থানা পুলিশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ২৯জন দেখেছেন

Image

মারুফ সরকার, স্টাফ রিপোর্টার: সাম্প্রতিক সময়ে দাগনভূঁঞা থানায় যোগদানকৃত অফিসার ইনচার্জ(ওসি)আবুল হাসিম দাগনভূঁঞা থানায় যোগদান এর পর থেকে থানাধীন এলাকায় চুরি-ছিনতাই ইফটিজিং কিশোর গ্যাং মাদকসেবন ও মাদক ক্রয়- বিক্রয়ের সাথে জড়িত ও  পরোয়ানাভুক্ত আসামী গ্রেফতারসহ নানান অপরাধ দমনে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন । 

তারাই ধারাবাহিকতায় সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সোনাগাজী সার্কেল  দিকনির্দেশনায় অফিসার ইনচার্জ আবুল হাসিম এর সার্বিক তত্তাবধানে এসআই/মোঃ ফখরুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্সসহ অদ্য ২১ ফেব্রুয়ারি ২৪ ইং রাতে ঢাকার বিভিন্ন জায়গায় অভিযান পরিচালনা করিয়া ০৪টি সিআর সাজা প্রাপ্ত যাবৎ আত্নগোপনে থাকা আসামি মর্ডান ব্রীক ফিল্ডের মালিক মোঃ ছালেহ উদ্দিন ছালু’কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় দাগনভূঁঞা থানা পুলিশের একটি চৌকস ট্রিম। 

এই বিষয়ে দাগনভূঁঞা থানার ওসি আবুল হাসিম সাংবাদিকদের জানান গ্রেফতারকৃত আসামি সাজা এড়াতে দীর্ঘদিন দিন ধরে দেশের বিভিন্ন জায়গায় আত্মগোপনে আছেন।গ্রেফতারকৃত আসামীকে বিধি মোতাবেক অদ্য ২১ ফেব্রুয়ারি ২৪ ইং বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হইয়াছে। 


আরও খবর



এমবাপ্পে পিএসজি ছাড়ছেন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৬৭জন দেখেছেন

Image

স্পোর্টস ডেস্ক:এমবাপ্পে পিএসজি ছাড়বেনই প্যারিসের দলটিকে এটা জানিয়ে দেওয়ার পর থেকেই রিয়াল মাদ্রিদ সমর্থকদের মধ্যে শুরু হয়েছে কিলিয়ান

এমবাপ্পেকে পাওয়ার ক্ষণগনণা। এবার জানা গেল, সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর দলটির সঙ্গে চুক্তিই হয়ে গেছে ফরাসি ফরোয়ার্ডের!

গতকাল স্প্যানিশ দৈনিক মার্কা দিয়েছে এমন খবর। পত্রিকাটির তথ্যানুযায়ী, দুই সপ্তাহ আগেই চুক্তি সম্পন্ন হয়েছে দুই পক্ষের মধ্যে। আগামী ১ জুলাই থেকে এমবাপ্পে আনুষ্ঠানিকভাবে হয়ে যাবেন রিয়ালের খেলোয়াড়।

মার্কার তথ্যানুযায়ী, গত মঙ্গলবার পিএসজি সভাপতির সঙ্গে দেখা করেন এমবাপ্পে। সে সময়ই ফরাসি ফরোয়ার্ড জানিয়ে দেন, ৩০ জুন মেয়াদ শেষের পর তিনি আর পিএসজিতে থাকবেন না এবং অনুরোধ করেন যেন চুক্তি নবায়নের প্রস্তাব না দেওয়া হয়। কারণ হিসেবে, রিয়ালের সঙ্গে এরই মধ্যে তিনি ৫ মৌসুমের জন্য চুক্তি করে ফেলেছেন!

তো রিয়ালে যোগ দিয়ে কেমন বেতন-ভাতা পাবেন এমবাপ্পে? দলের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক পাওয়া ফুটবলার হবেন এমবাপ্পে। ক্লাবটির ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাত দিয়ে মার্কা জানিয়েছে, রিয়ালে এমবাপ্পের বেতন হবে বার্ষিক ১ কোটি ৫০ লাখ ইউরো থেকে ২ কোটি ইউরোর মধ্যে। এর সঙ্গে যুক্ত হবে বোনাসও।

সাইনিং বোনাস হিসেবে পাবেন ৫ কোটি ইউরো। বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় হিসেবে বিবেচিত হওয়া এমবাপ্পে যদি রিয়ালে গিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ এবং ব্যালন ডি’অর জিততে পারেন, তবে স্পনসর চুক্তির আওতায় তাঁর মূল্যও চূড়ায় গিয়ে ঠেকবে।


আরও খবর



আর কোনো রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না: বিজিবি ডিজি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১১৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্ত পরিস্থিতি বিজিবির সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। কোনোভাবেই নতুন করে আর কোনো রোহিঙ্গা নাগরিককে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না।বলেছেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) নবনিযুক্ত মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামান সিদ্দিকী

বিজিবি মহাপরিচালক মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ কথা বলেন।

বিজিবি মহাপরিচালক বলেন, আমি গতকাল দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে সবচেয়ে বেশি এই সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে ইনভলভ আছি। বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) আমি নিজে সরেজমিনে সীমান্ত পরিদর্শনে যাচ্ছি। আমরা ধৈর্য ধারণ করে, মানবিক দিক বিবেচনা করে এবং আন্তর্জাতিকভাবে সুসম্পর্ক বজায় রেখে পরিস্থিতি মোকাবিলার চেষ্টা করছি। আমাদের প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা সেরকমই। গতকাল প্রধানমন্ত্রী এব্যাপারে কথাও বলেছেন, ধৈর্যধারণের নির্দেশনা দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী বিজিবি কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, গতকাল রাত পর্যন্ত ১১৫ জন বিজিপি সদস্য আমাদের কাছে আত্মসমর্পণ করে বা আশ্রয় নিয়েছেন। আজ সকালে আরও ১১৪ জন যুক্ত হয়েছে। দুপুর পর্যন্ত এই সংখ্যা ছিল ২২৯। দুপুরের পর আরও বিজিপিসহ দেশটির অন্যান্য বাহিনীর ৩৫ জন যোগ হয়ে ২৬৪ জন আশ্রয় নিয়েছেন। তাদের আমরা থাকা ও খাবারের ব্যবস্থা করেছি। তাদের মধ্যে ১৫ জন আহত ছিলেন, এরমধ্যে ৮ জন ছিলেন গুরুতর আহত। এই ৮ জনের মধ্যে চারজনকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে বিজিবির ব্যবস্থাপনায় ভর্তি করা হয়েছে। বাকি চারজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বিজিবির ব্যবস্থাপনায় চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

সীমান্তে উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে সরকারি পরিকল্পনা সম্পর্কে তিনি বলেন, সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ে ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কাজ করছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মিয়ানমারের সঙ্গে যোগাযোগ করছে। আশ্রিতদের প্রত্যাবর্তন বা ফেরানোর বিষয়ে কীভাবে সমাধান করা যায় তা নিয়ে কাজ চলছে। মিয়ানমার এ ব্যাপারে সহযোগিতা করবে বলে জানিয়েছে। তারাও প্রত্যাবর্তনের ব্যাপারে নোট নিয়েছে। আশা করি খুব শিগগিরই তাদের প্রত্যাবর্তন করানো হবে।

বিজিবি ডিজি বলেন, একই সঙ্গে দুই দেশের দুই সীমান্ত বাহিনীর মধ্যে যোগাযোগ হচ্ছে। সীমান্তবর্তী পরিস্থিতি আপনারা জানেন। মিয়ানমারে গোলাগুলির মধ্যে কিছু শেল এসে বাংলাদেশে পড়ছে। দুর্ভাগ্যজনকভাবে গতকাল এক রোহিঙ্গা নাগরিক ও একজন বাংলাদেশি নারী মারা গেছেন। এই মৃত্যু কোনোভাবেই কাম্য নয়। আমরা প্রোটেস্ট নোট দিয়েছি। আমরা বারবার বলেছি আজকেও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে একটি বড় মিটিং হচ্ছে। আর আমি আগামীকাল সরেজমিন সীমান্ত পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে যাব।

তিনি বলেন, আজকে মিয়ানমারের ডিএ (ডিফেন্স অ্যাটাচ) আমার সঙ্গে দেখা করেছেন। সবদিক অ্যাঙ্গেজ করে কীভাবে এর আশু সমাধান করা যায়, সে চেষ্টা আমরা করছি।

বিজিবি মহাপরিচালক বলেন, আজকে ৬৫ জন রোহিঙ্গা বোটের মাধ্যমে নদী পথে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশের প্রবেশের চেষ্টা করেছে। আমাদের টেকনাফ বিজিবি তাদেরকে প্রতিহত করেছে। তাদের পুশব্যাক করার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। আমরা নতুন করে কোনো রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশে আর প্রবেশ করতে দেব না। এভাবে আমরা বাংলাদেশের অখণ্ডতা রক্ষা করে প্রধানমন্ত্রী দিক-নির্দেশনায় বিজিবি কাজ করে যাচ্ছে। সীমান্তের সার্বিক নিরাপত্তা পরিষদের এখন পর্যন্ত বিজেপি নিয়ন্ত্রণ রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৫ ফেব্রুয়ারি তিনি বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন।


আরও খবর



গোদাগাড়ীতে ভুটভুটি-মাহিদ্রার মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ১০

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৫৪জন দেখেছেন

Image

গোদাগাড়ী(রাজশাহী)প্রতিনিধিঃরাজশাহীর গোদাগাড়ীতে ভুটভুটি-মাহিদ্রার মুখোমুখি সংঘর্ষে এক নারী নিহত ও ১০ জন গুরুতর আহত। শুক্রবার (১৬ ফেব্রয়ারী) দুপুর পোনে ৩ টার গোদাগাড়ী-কাকনহাট সড়কের পাহাড়পুর এলাকার দুর্ঘটনা ঘটে।এ সময় ভুটভুটির যাত্রী দিপালী(১৮) ঘটনাস্থলেই মারা যায়। সে উপজেলার কাকনহাট পৌর এলাকা শেরেপাড়া গ্রামের ইমনের স্ত্রী। ছাড়াও আরও ১০জন গুরুতর আহত হয়েছেন বলে গোদাগাড়ী ফায়ার স্টেশনের সাব অফিসার নমীর উদ্দীন নিশ্চিত করে বলেন,আহতদের উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা গোদাগাড়ী ৩১ শয্যা বিশিষ্ট

হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হলেন- চাঁপাইনবাবগঞ্জ শিবগঞ্জ মনাকষা গ্রামের জিল্লার রহমানের ছেলে জিয়াউল হক(৩০),গোদাগাড়ী পৌর এলাকার রামনগর গ্রামের বিল্লালের ছেলে হাবিবুল্লাহ(৪),উপজেলা কাকনহাট পৌর এলাকার শেরেপাড়া গ্রামের মনমোহন মেয়ে পুজারী(১৭)ও ছেলে জোসেফ সরকার(২০),জীবনের ছেলে জয়ন্ত(১৪),চয়ন(৮),দুলাল ছেলে রুপালী(৪০), ইমন(২৬), ইমনের ছেলে ইসান(১২মাস),হাবিবুলের চেলে জিয়ারুল(২২) আহতরা সবাই শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসাধীন আছে।গোদাগাড়ী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) আব্দুল মতিন বলেন,ভুটভুটি ও মাহিদ্রার মুখোমুখী সংঘর্ষে ঘটনাস্থালেই একজন আদিবাসী নারী নিহত ও ১০জন আহত হয়েছে। দুর্ঘটনা ভুচভুটি ও মাহিদ্রা চুরমার হয়ে ঘটনাস্থল থেকে জব্দ করা হয়েছে। সেখানে পুলিশ কাজ করছে। সবকিছুই আইনগত প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সম্পন্ন করা হবে বলে জানান।


আরও খবর