Logo
আজঃ শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪
শিরোনাম
কক্সবাজারে পাহাড় ধসে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু বন্ধ শিল্প প্রতিষ্ঠান চালুর পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে: শিল্পমন্ত্রী বাংলাদেশের হার দিয়ে সুপার এইট শুরু গোদাগাড়ীতে রাসেল ভাইপারের চিকিৎসার দাবিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রীর কাছে চিঠি দিয়েছে নাগরিক স্বার্থ-সংরক্ষণ কমিটি রূপগঞ্জে জমে উঠেছে কাঞ্চন পৌরসভা নির্বাচন যাত্রাবাড়ীতে পুলিশ কর্মকর্তার বাবা মাকে কুপিয়ে হত্যা যানজট নিরসনে সংসদ সদস্যগণের সাথে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের সমন্বয়সভা ভোলায় ফের দেখা মিলল রাসেল ভাইপার, জনমনে আতঙ্ক বাজেট পাস হয়নি,অনেক কিছু পুনর্বিবেচনা করা সম্ভব: অর্থমন্ত্রী দেশের সব মহৎ অর্জন আ. লীগের মাধ্যমেই হয়েছে: ওবায়দুল কাদের

মেসির দখলে আরও একটি রেকর্ড

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ৪৯০জন দেখেছেন

Image

স্পোর্টস ডেস্ক; কাতার বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বে নিজেদের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে পোল্যান্ডের বিপক্ষে ২-০ গোলের দুর্দান্ত জয় পেয়েছে আর্জেন্টিনা। আর এ জয়ে ‘সি’ গ্রুপের সেরা হয়েই শেষ ষোলো পর্বে পা রেখেছে আলবিসেলেস্তারা। এরই সঙ্গে একটি রেকর্ডও করে ফেললেন আর্জেন্টিনার অধিনায়ক লিওনেল মেসি। দেশ কিংবা ক্লাবের হয়ে কোনো টুর্নামেন্টের গ্রুপপর্ব থেকে কখনো বাদ পড়েননি তিনি।

নাইন সেভেন ফোর স্টেডিয়ামে পোল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচটি আর্জেন্টিনার জন্য অঘোষিত ফাইনালে রূপ নিয়েছিল। শেষ ষোলোতে জিততে হলে কোনভাবেই হারা যাবে না পোল্যান্ডের বিপক্ষে! তেমনটা অবশ্য হয়নি। দাপট দেখিয়েই জয় তুলে নেয় মেসিরা। যদিও প্রথমার্ধে মেসির পেনাল্টি রুখে দিয়েছিলেন পোলিশ গোলরক্ষক।

তবে এবারও গ্রুপ পর্ব পার করায় একটি রেকর্ড এখনো মেসির দখলেই থাকলো। আর তা হলো- দেশ কিংবা ক্লাবের হয়ে কোনো টুর্নামেন্টের গ্রুপ পর্ব থেকে কখনো বাদ না পড়া।

মেসি এখন পর্যন্ত দুটি ক্লাবের হয়ে ইউরোপিয়ান ফুটবল খেলেছেন। বার্সেলোনা এবং পিএসজির হয়ে এখন পর্যন্ত গ্রুপ পর্বে বাদ পড়েনি তার দল। বার্সেলোনার হয়ে চারটি চ্যাম্পিয়ন লিগ শিরোপা জিতেছেন মেসি। তবে এখনো চ্যাম্পিয়ন্স লিগে পিএসজির হয়ে সফলতার দেখা পাননি সময়ের অন্যতম সেরা এ ফুটবলার।

এদিকে কাতার বিশ্বকাপে সৌদি আরবের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই হেরে যায় আর্জেন্টিনা। এরপর শঙ্কা জেগেছিল প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায় নেওয়ার। তবে পরের দুই ম্যাচে মেক্সিকো এবং পোল্যান্ডকে হারিয়ে সেই শঙ্কা উড়িয়ে দিয়ে আবারও একবার বিশ্বকাপে শেষ ষোলোতে পা রাখে মেসির দল।

এদিকে শেষ ষোলোর টিকিট পাওয়ার পাশাপাশি তাদের প্রতিপক্ষ জেনে গেছে দুবারের বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়নরা। গ্রুপ ‘ডি’ থেকে রানার্স আপ হওয়া অস্ট্রেলিয়াই হচ্ছে আর্জেন্টিনার শেষ ষোলোর প্রতিপক্ষ।


আরও খবর



ভোলায় ফের দেখা মিলল রাসেল ভাইপার, জনমনে আতঙ্ক

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ৩৭জন দেখেছেন

Image

শরীফ হোসাইন, ভোলা বিশেষ প্রতিনিধি:ভোলায় ফের দেখা মিলল রাসেল ভাইপারের। বৃহস্পতিবার (২০ জুন) সকালে ভোলা সদর এবং তজুমদ্দিন উপজেলায় দেখা মেলে রাসেল ভাইপারের। পরবর্তীতে স্থানীয় লোকজন লাঠি দিয়ে পিটিয়ে মেরে ফেলে রাসেল ভাইপার গুলো। প্রতিনিয়ত ভোলার বিভিন্ন এলাকায় বিষধর রাসেল ভাইপার দেখা মেলায় স্থানীয় লোকজনের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

জানা গেছে, ভোলা সদর উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের শান্তির হা নামক এলাকার চায়না ইপিজেড সংলগ্ন এলাকায় দেখা মেলে একটি রাসেল ভাইপার। পরবর্তীতে স্থানীয় লোকজন ওই সাপটিকে পিটিয়ে মেরে মাটিতে পুতে ফেলে।

স্থানীয় বাসিন্দা আরিফুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার সকালের দিকে শান্তির হাট এলাকার চায়না ইপিজেড সংলগ্ন নদীর তীরবর্তী এলাকায় রাসেল ভাইপারটিকে স্থানীয় লোকজন দেখতে পায়। ওই সময় স্থানীয় লোকজন সাপটিকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে মেরে মাটিতে পুঁতে ফেলে।

অন্যদিকে তজুমদ্দিন উপজেলায় দেখা গেছে ভয়ঙ্কর বিষধর রাসেল ভাইপার। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার সোনাপুর ইউনিয়নের কাচারী বাড়ির দরজায় এলাকাবাসী দেখতে পায় রাসেল ভাইপারটি। এ সময় সাপটিকে পিটিয়ে মেরে মাটিচাপা দেন স্থানীয়রা। এতে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন এলাকাবাসী।

এর আগে, বুধবার (১৯ জুন) বিকেলে চাঁদপুর ইউনিয়নের চৌমুহনী ঘাট সংলগ্ন একটি ফসলি জমির খেলার মাঠে বল খেলতে দেখা মেলে সাপটির। স্থানীয় খেলোয়াড়দের সাপটি আক্রমণ করতে আসলে নিজেদের রক্ষা করতে সাপটিকে মেরে ফেলেন। পরে পলিথিন পেঁচিয়ে সাপটিকে মাটির নিচে পুঁতে রাখেন।

রায়হান নামে এক খেলোয়াড় বলেন, বিভিন্ন সময় ফেসবুকে রাসেল ভাইপার সাপ দেখেছি। এবার বাস্তবে ফসলি জমিতে ফুটবল খেলতে গিয়ে সাপটিকে নিজ চোখে দেখলাম। পরে সাপটির ছবি তুলে ইন্টারনেটের মাধ্যমে শনাক্ত করি যে সাপটি বিষাক্ত রাসেল ভাইপার। সাপটি দেখে আমি আতঙ্কিত হয়ে পড়ি।আরো জানা গেছে, বাংলাদেশে বর্তমানে যেসব সাপ দেখা যায় সেগুলোর মধ্যে রাসেল ভাইপার সবচেয়ে বিষাক্ত। এই সাপের কামড়ে শরীরের দংশিত অংশে বিষ ছড়িয়ে অঙ্গহানি, ক্রমাগত রক্তপাত, রক্ত জমাট বাঁধা, স্নায়ু বৈকল্য, চোখ নষ্ট হয়ে যাওয়া, পক্ষাঘাত ও কিডনির ক্ষতিসহ বিভিন্ন ধরনের শারীরিক উপসর্গ দেখা দেয়।

তজুমদ্দিন উপজেলার শশীগঞ্জ বনবিভাগের বিট অফিসার গাজী মোহাম্মদ আবুল বাশার বলেন, রাসেল ভাইপার সাপ লোকালয়ে সাধারণত খুব কমই দেখা যায়। বাচ্চা দেওয়ার কারণে হয়তো ওই সাপটি লোকালয়ে চলে এসেছে। তবে সবাইকে এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে।


আরও খবর



সরকারি দপ্তর গুলোতে সঠিক ভাবে তদারকি করলে জনগনের সকল প্রত্যাশা পূরণ করা সম্ভব হবে: বিপ্লব

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ৭০জন দেখেছেন

Image
মাহাবুব আলম,রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি:ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার  নবনির্বাচিত উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানদ্বয়ের বরণ ও বিদায় অনুষ্ঠান  রবিবার (৯ জুন) বিকালে উপজেলা পরিষদ নতুন ভবনে অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রকিবুল হাসানের সভাপতিত্বে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান আহাম্মদ হোসেন বিপ্লব প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন,সরকারি দপ্তর গুলোতে সঠিক ভাবে দার্য়িত্ব পালন করলে জনগনের সকল প্রকার প্রত্যাশা পূরণ করা সম্ভব হবে। বিশেষ করে হাসপাতাল, উপজেলা প্রকৌশলী,প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা, ভূমি অফিস ও কৃষি অফিস। এগুলোতে জনগণের অনেক চাহিদা থাকে তা নিয়ম অনুযায়ী বাস্তবায়ন করতে হবে। এসব করাই আমার মূল লক্ষ্য। 

এছাড়াও বিশেষ অতিথি, ভাইস চেয়ারম্যান সোহেল রানা ও শারমিন আক্তার,বিদায়ী ভাইস চেয়ারম্যান সেফালী বেগম,জেলা পরিষদের সদস্য আব্দুল বাতেন স্বপন, উপজেলা আ’লীগ যুগ্ন সম্পাদক মামুনুর রশীদ এলবাট, পৌর আ’লীগ সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম,অধ্যক্ষ নবাব আলী ও মহাদেব বসাক,সমাজ সেবা কর্মকর্তা আব্দুর রহিম,কৃষি কর্মকর্তা সইদুল ইসলাম, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার তোবারক আলী,উপজেলা জাতীয় পাটির আহবায়ক জাহাঙ্গীর আলম,প্রেসক্লাব সভাপতি মোবারক আলী ও সহ সভাপতি হুমায়ুন কবির,ইউপি চেয়ারম্যানগন, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা কর্মিবৃন্দ,বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারী জনপ্রতিনিধি প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকেরাসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন,পল্লী বিদ্যুৎতের ডিজিএম নেজামুল হক। 

আরও খবর



ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জুন ২০২৪ | ১২৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলায় ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে যাচ্ছেন।

মঙ্গলবার (২৮ মে) দুপুরে পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসক মো. নূর কুতুবুল আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, আগামী ৩০ মে প্রধানমন্ত্রী পটুয়াখালী সফরে আসবেন। প্রধানমন্ত্রীর সফর নিয়ে আমরা কাজ করছি।

জেলা প্রশাসক বলেন, জেলায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন তিন লাখ ২৭ হাজার মানুষ। এছাড়া ২৩৫ ঘরবাড়ি পুরোপুরি বিধ্বস্ত হয়েছে। পাশাপাশি ১৮৬৫ বাড়িঘর আংশিক বিধ্বস্ত এবং কৃষির ২৬ কোটি ২১ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

মো. নূর কুতুবুল আলম বলেন, মৎস্য খাতের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে ২৮ কোটি ৬৯ লাখ টাকার। আশ্রয়কেন্দ্র থেকে সব মানুষ বাড়িঘরে ফিরে গেছে।


আরও খবর



৫% মুক্তিযোদ্ধা কোটা/বিনাবেতনে অধ্যয়নে সব বেসরকারি কলেজে চিঠি দিলেন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম সভাপতি তুষার

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | ১৫০জন দেখেছেন

Image

কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধিঃনটরডেম, আদমজী ও ভিকারুননিসা-সহ সব বেসরকারি কলেজে মুক্তিযোদ্ধা কোটা অনুসরণ করাতে চায় মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম, কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের সভাপতি অহিদুল ইসলাম তুষার। এজন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি নীতিমালা-২০২৪ অনুযায়ী চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকে যথাযথ ভাবে ৫% মুক্তিযোদ্ধা কোটা অনুসরণ এবং শিক্ষা ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পরিপত্র বা আদেশ অনুযায়ী ভর্তিকৃত মুক্তিযোদ্ধা কোটার প্রার্থীদের বিনাবেতনে অধ্যয়নের বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে প্রাথমিক ভাবে দেশসেরা নিম্নোক্ত ১৫ বেসরকারি নটরডেম কলেজ,আদমজী ক্যান্টনমেন্ট কলেজ, ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজ, ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজ,হলি ক্রস কলেজ, সেন্ট যোসেফ হায়ার সেকেন্ডারি স্কুল, রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ, মাইলস্টোন কলেজ, আইডিয়াল কলেজ,নৌবাহিনী কলেজ, ন্যাশনাল আইডিয়াল কলেজ,ঢাকা সিটি কলেজ,বিএএফ শাহীন কলেজ,নটরডেম কলেজ ময়মনসিংহ, শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম কলেজ,ময়মনসিংহকে ২৩ মে ২০২৪ ইং বৃহস্পতিবার চিঠি দেন “মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম, কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের সভাপতি অহিদুল ইসলাম তুষার”।

 তিনি সাংবাদিকদের বলেন, চলতি শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ৫% মুক্তিযোদ্ধা কোটা অনুসরণ এবং বিনা বেতনে অধ্যয়নের সুবিধা দিতে প্রাথমিক ভাবে ১৫টি বেসরকারি কলেজকে চিঠি দিয়ে অবহিত করেছি এবং পর্যায়ক্রমে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে দেওয়া হবে। যদি কর্তৃপক্ষ যথাযথ ভাবে ৫% মুক্তিযোদ্ধা কোটা অনুসরণ এবং বিনাবেতন অধ্যয়নের সুযোগ প্রদান না করে থাকে তাহলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে উক্ত প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে নিবন্ধন বাতিলের জন্য আবেদন করবো। অপর এক প্রশ্নের জবাবে অহিদুল ইসলাম তুষার বলেন, একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি নীতিমালা-২০২৪ এর ৩.২ অনুচ্ছেদে যথাযথ ভাবে সরকারি ও বেসরকারি কলেজে ৫% মুক্তিযোদ্ধা কোটা অনুসরণের কথা বলা হয়েছে এবং ২০০৫ সালে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ২০০৮/ ২০২৩ সালে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের একাদিক আদেশে ৫% কোটা ও বিনা বেতনে অধ্যয়নের কথা বলা হয়েছে কিন্তু দীর্ঘদিন ধরেই বেসরকারি স্কুল ও কলেজ কর্তৃপক্ষ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে সুযোগ সুবিধা দিতে অনিহা, তারা এ সংস্কৃতি থেকে অনেক দূরে। চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকে একাদশ শ্রেণিতে ৫% মুক্তিযোদ্ধা কোটা যথাযথ ভাবে অনুসরণ করছে কিনা দেশের প্রতিটি জেলা - উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা / সন্তান ও প্রজন্মকে খোঁজ খবর রাখার অনুরোধ করেন অহিদুল ইসলাম তুষার এবং কোথাও যদি তার ব্যত্যয় ঘটে তাহলে মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী এবং শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মহোদয় বরাবর কলেজের অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করার অনুরোধ করেন তিনি ।নিশ্চিত মৃত্যু জেনেও মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেওয়া বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদের রাষ্ট্র প্রদত্ত সুবিধা দিতে অনিহা দুঃখজনক এবং রাষ্ট্রের আইনকানুন নীতিমালা না মেনে যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চলছে তাদের বিরুদ্ধে এবার লিখিত অভিযোগ দিবো , মি. অহিদুল ইসলাম তুষার যোগ করেন।

আরও খবর



কুষ্টিয়ায় নিরাপদ খাদ্য বিষয়ক জনসচেতনতামূলক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ৭১জন দেখেছেন

Image
কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি:চাল নিয়ে চালবাজির চালকল মালিকদের সাথে নিরাপদ খাদ্য বিষয়ক সচেতনতামূলক বিভাগীয় কর্মশালায় ‘উপরিভাগের আবরণ ছেটে ফেলা’ সরু মিনিকেট চাল নিয়ে তুমুল আলোচনা হয়েছে। কুষ্টিয়া শিল্পকলায় সোমবার বেলা ১১টায় শুরু হওয়া এ কর্মশালায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ এমপিসহ কুষ্টিয়ার চার এমপি, সরকারি শীর্ষ কর্মকর্তা, বিভিন্ন পর্যায়ের জনপ্রতিনিধি ও সকল শ্রেনি পেশার মানুষ এতে অংশ নেন। নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের সদস্য আবু নূর মো. শামসুজ্জামান এক অংশে বলেন, মিনিকেট নামে কোনো ধান নেই। মেশিনের মাধ্যমে চালের আবরণ ছেটে ফেলে সরু ও চকচকে করে মিনিকেট নামে বাজারজাত করা হচ্ছে। এতে ভিটামিন, খনিজ দ্রব্য, প্রোটিন ও শর্করা বের হয়ে যাচ্ছে পলিশের নামে। কমে যাচ্ছে পুষ্টিগুণ। এই চাল অস্বাস্থ্যকর। তিনি বলেন, এতে বছরে ১৮ লক্ষ মেট্রিক টন চাল অপচয় হচ্ছে। কর্মশালায় মুক্ত আলোচনা পর্বে মিনিকেট ধান-চাল ও পলিশ নিয়ে এসব কথার প্রতিবাদ জানান অটোমেটিক চালকল দেশ এগ্রোর মালিক আব্দুল খালেক। তিনি বলেন, দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল ও উত্তরাঞ্চলে কৃষকরা মিনিকেট নামে যে ধান চাষ করছেন তার কি হবে? এসব ধান কি আমরা ফেলে দেবো, না বস্তার গায়ে জাতের নাম হিসেবে কি লিখবো? এসব প্রশ্ন আমরা সরকারকে বলেছি, কোন উত্তর মেলেনি। খালেক দাবি করেন, চাল ছেটে সরু করা হয় না। মানুষের চাহিদার কথা চিন্তা করে উপরের আবরণ পলিশ করে সিল্কি করা হয়। জবাবে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান জাকারিয়া বলেন, চালের উপরের আবরণ ফেলে দেয়ায় শুধু কর্বোহাইড্রেড থাকছে। অন্য জরুরি উপাদান বাদ চলে যাচ্ছে। তাই এ খাবারের খাদ্যমান নষ্ট হচ্ছে। এ বিষয়ে কুষ্টিয়া-২ আসনের সংসদ সদস্য কামারুল আরেফিন বলেন, মিনিকেট নামে কোনো ধান নেই। কিন্তু চাল আছে। মিনিকেট এখানে আবিস্কার করা হয়েছে। আব্দুর রশিদকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, মিনিকেটের নামে চাল খাইয়ে তিনি মানুষের চরম ক্ষতি করেছেন। মিনিকেটের ওই জনকের অভিশাপ লেগে গেছে। কুষ্টিয়ার মানুষ সবাই জানেন তার আজ কি অবস্থা। তাই খালেক ভাইসহ চালকল মালিকদের আহ্বান জানাবো মানুষের উপকার হয় ভালো প্রজন্ম গড়ে উঠতে পারে তেমন কাজ করুন। ভালো পুষ্টিকর খাবার খাওয়ান মানুষকে। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ এমপি বলেন, পলিশ করা চাল খাদ্য হিসেবে নিরাপদ হলেও স্বাস্থ্যসম্মত নয়। 

আরও খবর