Logo
আজঃ বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

ঝিনাইদহ-১ আসন:আব্দুল হাইয়ের এমপি পদ স্থগিতের বিরুদ্ধে আবেদন

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৩২জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ঝিনাইদহ-১ আসনে নৌকার প্রার্থী আব্দুল হাইকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী ঘোষণা করেছিল ইসি। সেই গেজেট স্থগিত করেছিলেন হাইকোর্ট। এবার হাইকোর্টের সেই স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে আবেদন করা হয়েছে আপিল বিভাগে।

সোমবার (৫ জানুয়ারি) আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় বিজয়ী নৌকার প্রার্থী আব্দুল হাই এ আবেদন করেন। তার পক্ষের আইনজীবী হলেন অ্যাডভোকেট সাঈদ আহমেদ রাজা।

গত ১ ফেব্রুয়ারি ঝিনাইদহ-১ আসনের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আব্দুল হাইকে বিজয়ী ঘোষণা করে ইসির গেজেট স্থগিত করেন হাইকোর্ট। দুই মাসের জন্য এই স্থগিতাদেশ দেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার (১ জানুয়ারি) বিচারপতি এ কে এম আসাদুজ্জামানের একক হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মজিবুর রহমান।

এর আগে ভোটগ্রহণ ও ভোট গণনায় অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগে ঝিনাইদহ-১ আসনের সংসদ সদস্য পদের গেজেট স্থগিত চেয়ে ইলেকশন পিটিশন দায়ের করেন ওই আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী নজরুল ইসলাম দুলাল। পরে ইসির ওই নির্বাচনি গেজেট স্থগিত করেন বিচারপতি আসাদুজ্জামানের কোর্ট।


আরও খবর



বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব শুরু হচ্ছে আজ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ ফেব্রুয়ারী 2০২4 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯৯জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে আজ শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) শুরু হচ্ছে তাবলীগ জামাতের তিনদিন ব্যাপী বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। ইতেমাধ্যে মুসল্লিদের পদচারণায় মুখর হয়ে উঠছে তুরাগতীর। বিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইজতেমার সাফল্য কামনা করে ও মুসল্লিদের শুভেচ্ছা জানিয়ে বাণী দিয়েছেন।

আজ শুক্রবার বাদ ফজর আমবয়ানের মধ্য দিয়ে ইজতেমার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে। দুপুর দেড়টায় ইজতেমা মাঠে বৃহত্তম জুম্মার জামায়াত অনুষ্ঠিত হবে। জুম্মার নামাজে অংশ নিতে বৃহস্পতিবার থেকেই আশপাশের এলাকার মুসল্লিরা মাঠে অবস্থান করছেন।

বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) বাদ ফজর থেকে শুরু হয়েছে আঞ্চলিক বয়ান। মুসল্লিদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে প্রস্তুত রয়েছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনী।

ইজতেমার সার্বিক প্রস্তুতির কাজ সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিশ্ব ইজতেমা আয়োজক কমিটির শীর্ষ মুরব্বি প্রকৌশলী মাহফুজ হান্নান। প্রথম পর্বের ইজতেমায় মাওলানা জোবায়ের অনুসারীরা এবং দ্বিতীয় পর্বে মাওলানা সাদ কান্ধলভীর অনুসারীরা অংশ নেবেন।

ইতোমধ্যে যারা ময়দানে এসে পৌঁছেছেন, তারা তাদের জন্য নির্ধারিত খিত্তায় অবস্থান নিয়ে তাসবিহ-তাহলিল, জিকির-আসকার ও বিভিন্ন নফল ইবাদতে মশগুল রয়েছেন। কিন্তু গভীর রাতে এক পশলা বৃষ্টি তাদের ভোগান্তিতে ফেলেন। অনেকের খিত্তায় শামিয়ানা না থাকায় বৃষ্টিতে তাদের ইস্তেমায়ি সব সামানা ভিজে গেছে। কনকনে বাতাস, ঠান্ডা আবহাওয়া এবং বৃষ্টিতে সাথীদের পরিহিত কাপড় চোপর ভিজে যাওয়ায় রাতভর তাদের ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে।

ইজতেমায় যোগ দিতে ভারতের ত্রিপুরাসহ উত্তর-পূর্ব ভারতের সাতটি রাজ্য থেকে মুসল্লিরা আসছেন। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত এক হাজারের মতো ভারতীয় মুসল্লি এসেছেন বলে ইমিগ্রেশন সূত্রে জানা গেছে।

ইজতেমা ময়দানের পাশে স্থাপিত বিভিন্ন ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্প উদ্বোধন করেন ধর্মমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান। ইজতেমায় আসা মুসল্লিদের চিকিৎসা নিশ্চিত করতে টঙ্গী আহসানউল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে কর্মরত সব চিকিৎসক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীর সব ধরনের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। আর র‌্যাবের পাঁচটি ব্যাটালিয়নের সমন্বয়ে আকাশপথে হেলিকপ্টার টহল, ডগ স্কোয়াড টিম, ফুট প্যাট্রলিং, মোবাইল টিম, টহল টিম, নৌ টহল, সাইবার মনিটরিংসহ সাত স্তরের নিরাপত্তাব্যবস্থা থাকছে এবার বিশ্ব ইজতেমায়।

বৃহস্পতিবার রাতে ইজতেমায় দুই মুসল্লি অসুস্থ হয়ে মারা গেছেন। তাঁরা হলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের চৌহদ্দীটোলা গ্রামের জামান মিয়া (৪০) ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল থানার ধামাউরা গ্রামের ইউনুছ মিয়া (৬০)।


আরও খবর



প্রতারণার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী ও তার স্বামী রিমান্ডে

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৭২জন দেখেছেন

Image
মারুফ সরকার, স্টাফ রিপোর্টার:প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে পাবনা জেলা যুব মহিলা লীগের সদস্য মিম খাতুন ওরফে আফসানা মিম ও তার স্বামী ওবায়দুল্লাহর একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।বাদী পক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট মেজবা উদ্দীন শরীফ।

বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তাহমিনা হকের আদালত শুনানি শেষে জামিন নামঞ্জুর করে তাদের রিমান্ডে পাঠান।

এদিন গ্রেফতার আসামিদের আদালতে হাজির করা হয়। এসময় মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও গুলশান থানার উপপরিদর্শক মো. রোমেন মিয়া রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন।অন্যদিকে আসামিপক্ষ আইজীবী এ্যাড.সুমন মিয়া রিমান্ড বাতিল ও জামিন চেয়ে আবেদন করেন।

জানা গেছে, ওবায়দুল্লাহ নামে এক ব্যক্তিকে দুলাভাই হিসেবে মামলার বাদী মনিরুজ্জামানের সঙ্গে পরিচয় করে দেন মিম। পরে বিভিন্ন সময়ে ব্যবসার কথা বলে ১৩ লাখ ১৭ হাজার টাকা নেন মিম ও ওবায়দুল্লাহ। বিশ্বাস করে দলিল ছাড়া লেনদেন হলেও পরে দলিল করতে চাইলে তারা টালবাহানা শুরু করেন। পাওনা টাকা ফেরত দেবেন না বলে হুঁশিয়ারি দেন এবং তাকে বিভিন্ন রকমের ভয়ভীতি ও হুমকি দেখান।

এ ঘটনায় আটঘড়িয়া উপজেলার যুবলীগ নেতা ও ব্যবসায়ী মনিরুজ্জামান বাবু বাদী হয়ে রাজধানীর গুলশান থানায় মামলা দায়ের করেন। এ মামলার পর গতকাল বুধবার সকালে এ দম্পতিকে পাবনা সদর এলাকা থেকে গ্রেফতার করে গুলশান থানা পুলিশ।

আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




যুবলীগ নেতার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী গ্রেফতার!

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৫৪জন দেখেছেন

Image
মারুফ সরকার, স্টাফ রিপোর্টারঃ সাম্প্রতিক সময়ে  যুবলীগ নেতা ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মনিরুজ্জামান বাবুর করা প্রতারনার মামলায় মিম খাতুন ওরফে আফসানা মিম(২৬)’ ও তার ৪র্থ স্বামী ওবায়দুল্লাহ’কে গ্রেফতার করেছে  গুলশান থানা পুলিশ ।ভিকটিম মনিরুজ্জামান বাবুর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে আমার সাথে পরিচয়,পরিচয়ের কয়েকদিন পর প্রতারক আফসানা মিম তার ৪র্থ স্বামী ওবায়াদু্ল্লাহ’কে তার দুলাভাই বলে আমার সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়।পরভর্তিতে বিভিন্ন তালবাহনা করে আমার কাছ থেকে বিভিন্ন সময়ে ব্যবসায়ের কথা বলে”১৩০০০০০/=(তের লক্ষ টাকা )ধার নেয় প্রতারক আফসানা মিম।পাওনা টাকা ফেরত চাইতে গেলে প্রশাসনের উদ্ধতর কর্মকর্তাদের কথা বলে আমাকে বিভিন্ন রকমের ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করে। উপায় না পেয়ে এক পযার্য়ে আমি গুলশান থানা পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে তার বিরুদ্ধে গুলশান থানায় মামলা দায়ের করি।

এই বিষয়ে যুবমহিলা লীগের সভানেত্রী ডেইজি সারোয়ার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,আমার কাছে তার বিষয়ে কোনো অভিযোগ আসেনি অভিযোগ আসলে আমি সঙ্গে সঙ্গে পদ থেকে বহিস্কার করবো ।

এই বিষয়ে গুলশান থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাজহারুল ইসলাম এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,প্রতারনার মামলায় আমরা তাকে গ্রেফতার করি তিনি কোন দল করেন সেটা আমাদের দেখার বিষয় নয় এজাহার ভুক্ত আসামী এটাই আমাদের বড় পরিচয়।আসামীর বিরুদ্ধে আইননানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

আরও খবর

ঢাকায় মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ২৬

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




সৈয়দপুরে ফসলি জমির উর্বর মাটি যাচ্ছে ইটভাটায়

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৭৯জন দেখেছেন

Image

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি:- নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ফসলি জমির উর্বর মাটি যাচ্ছে ইটভাটায়।এতে কৃষি নির্ভর জমি গুলো পুকুর কিংবা ডোবায় পরিনত হয়ে চাষাবাদে ব্যাঘাত ঘটছে। স্হানীয় প্রশাসনে এ বিষয়ে  অভিযোগ দিয়ে ও প্রতিকার মিলছেনা বলে একাধিক কৃষকের অভিযোগ। 

অভিযোগে প্রকাশ,সৈয়দপুর উপজেলাটি ৫ টি ইউনিয়ন ও ১ টি পৌরসভা নিয়ে  গঠিত। ব্যবসা ও কৃষি খাতে এ উপজেলাটি দেশ জুড়ে পরিচিতি পেলেও বর্তমানে চাষাবাদে ধস নেমেছে শুরু মাত্র ফসলি জমির উর্বর মাটি ইটভাটায় যাওয়ার কারনে।

ভুক্তভুগীরা বলছেন,কামারপুকুর ইউনিয়নের তোফায়েলের মোড় এলাকার জয়নুল নামের এক ব্যাক্তি সরল শান্ত কৃষকদের লোভ দেখিয়ে কম দামে জমির উর্বর মাটি ক্রয় করে সেই মাটি চড়া দামে বিক্রি করছেন ইটভাটায়।একসময়ের লেবার শ্রেনীর এই মানুষ টি ফসলি জমির মাটি বিক্রি করে বর্তমানে ১০ ট্রাকটারের মালিক।এলাকা বাসী তার মাটি বিক্রির অভিযোগ উপজেলা প্রশাসনকে দেয়ার কথা বললেও কোন কর্নপাতই করেন না তিনি। ফসলি জমির মাটি খেকো জয়নুলের বিরুদ্ধে এখনই পদক্ষেপ না নিলে এ উপজেলায় তিন ফসলি জমিতে চাষাবাদ অর্ধেকে নেমে আসবে বলে জানান তারা। অন্য দিকে একই ইউনিয়নের সোহাগ নামের অপর এক ব্যাক্তি প্রায় প্রতিদিনই ১০/১২ টি ট্রাকটার লাগিয়ে কৃষকের জমির মাটি নিয়ে যাচ্ছে ইটভাটায়। কামার পুকুর ইউনিয়ন এর মাটি খেকো জয়নুল ও সোহাগের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্হা না নিলে সৈয়দপুর উপজেলায় তিন ফসলি জমিতে ফলন অর্ধেকে নেমে আসবে বলে শতাধিক কৃষক মতামত ব্যাক্ত করেন।

গত ৩০ জানুয়ারি সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ফসলি জমির উর্বর মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছে মাটি খেকো জয়নুল ও সোহাগ।অথচ গত ২/৩ বছর আগেও ওইসব জমিতে ফলন ফলেছে বছরে তিন ফসল। গোলা ভর্তি করা ধান,আর আগাম৷ সবজি চাষাবাদ করে হাসি ফুটেছে কৃষকের মুখে। 

জানা যায়, মাটি খেকো জয়নুল ও সোহাগের মাথায় হাত রয়েছে অবৈধ ক'জন ইটভাটা মালিকের।যার ফলে অসহায় অনেক কৃষকদের একপ্রকার হুমকির মধ্যে কমদামে ফসলি জমির মাটি নিয়ে যাওয়া হচ্ছে ইটভাটায়। জয়নুল ও সোহাগ সহ ইটভাটার মালিকরা অর্থ ও বিত্তশালী হওয়ায় প্রতিবাদ করতে কেউ সাহস পাচ্ছেন না। 

জানতে চাইলে জয়নুল ও সোহাগ জানান, কামার পুকুর ইউনিয়ন এর অনেকেই মাটির ব্যবসা করেন।অন্যরা মাটি বিক্রি করলে দোষ হয়না কিন্তু আমরা বিক্রি করলে দোষ কিসের। একই ইউনিয়নের টোকাই সেলিম নামের এক যুবক উপজেলা প্রশাসনের সাথে থেকে প্রায় সব ইউনিয়নের মাটি নিয়ে আবাসন প্রকল্পো ভরাটের নামে অনত্র মাটি বিক্রি করে লাখ লাখ টাকার মালিক হলেও তার বিরুদ্ধে কেউই কোন অভিযোগ করেন না।

এবিষয়ে কামার পুকুর ইউনিয়ন এর চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বলেন,উপজেলা প্রশাসন কঠোর হলেই ফসলি জমির মাটি কেটে কেউই বিক্রি করতে পারবেন না।উপজেলা প্রশাসনের কঠোরতা নেই বলেই তি ফসলি জমির উর্বর মাটি চলে যাচ্ছে বিভিন্ন ইটভাটায়। ফলে আবাদ কমে এসেছে অর্ধেকে।
এ বিষয়ে উপজেলার সহকারী কমিশনার( ভুমি) আমিনুল ইসলাম বলেন কৃষকরা অভিযোগ দিলে অবশ্যই কঠোর ব্যবস্হা নেয়া হবে।

আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




হাসপাতালে শয্যা সংকট,মেঝেতেও হচ্ছে না ঠাঁই

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৬১জন দেখেছেন

Image

আব্দুল হান্নান,নাসিরসগর,ব্রাহ্মণবাড়িয়াঃব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে দেখা দিয়েছে শয্যা সংকট,মেঝেতেও হচ্ছেনা ঠাঁই।সরেজমিন হাসপতালে গিয়ে দেখা গেছে এমনই চিত্র।

হাসপাতালে সীট না পেয়ে রােগীদের মেঝেতে শুয়ে চিকিৎসা নিতে দেখা যাচ্ছে।হাতপাতাল সুত্রে জানা গেছে ৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল হলেও এখানে প্রতিদিন ৮০ থেকে ৯০ জন রোগীকে ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।অতিরিক্ত রোগীর চাপ সামলাতে ডাক্তার আর নার্সদের খেতে হচ্ছে হিমশিম।

এমন হওয়ার কারন কি জানতে চাইলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়,এখানে ডাক্তারদের ব্যবহার,পর্যাপ্ত ঔষধ পত্র আর সেবার মান ভাল হওয়া পার্শ্ববর্তী সরাইল,লাখাই,মাধবপুর,অষ্টগ্রাম থেকেও চিকিৎসা নেয়ার জন্য রোগীরা আসেন।আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আর,এম,ও) ডাঃ সাইফুল ইসলাম জানান উক্ত হাসপাতালে আউটডোরে প্রতিদিন প্রায় ৫ থেকে ৬ শ রোগী দেখতে ডাক্তারদেন হিমশিম খেতে হচ্ছে।

নাসিরনগর হাসপাতালের চিকিৎসকদের  মাঝে ডাক্তার অভিজিৎ রায়,ডাক্তার মোঃ সাইফুল ইসলাম,ডাক্তার জীবণ চন্দ্র দাস,ডাক্তার মৌমিতা বসাকের চিকিৎসা ব্যবস্থা অন্যতম।তাই হাসপাতালের শয্যা সংকট দুর করতে স্থানীয়রা মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সৈয়দ একে একরামুজ্জামজন এমপি সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সু দৃষ্টি কামনা করছেন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪