Logo
আজঃ বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

জাতীয় পার্টির ২৮৯ আসনে প্রার্থী ঘোষণা

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৯১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য দলীয় প্রার্থী ঘোষণা করেছে জাতীয় সংসদের প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টি। এসময় ৩০০ আসনের মধ্যে ২৮৯টির প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেন তিনি। বাকি ১১টি আসনে প্রার্থীর নাম পরে ঘোষণা করা হবে বলে জানান চুন্নু।

সোমবার (২৭ নভেম্বর) বিকেলে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন দলটির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু।

চুন্নু বলেন, আমরা নির্বাচনি প্রক্রিয়ায় আছি। আমরা একটা পরিবেশ আশা করেছিলাম যে, নির্বাচন সুষ্ঠু হবে সেই আস্থা এখনও পুরোপুরি আসে নাই।

জাতীয় পার্টি মহাসচিব বলেন, আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নির্বাচন কমিশন একটা শিডিউল ঘোষণা করেছে। জাতীয় পার্টি নির্বাচনমুখী দল। আমরা আশা করেছি, একটা আনন্দমুখর পরিবেশে নির্বাচন হবে। দেশের মানুষ সে নির্বাচনে স্বতঃস্ফূর্ত ভোট দিতে পারবে। সব দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে।

তিনি বলেন, আমরা নির্বাচনের প্রক্রিয়া আরম্ভ করেছি, কিন্তু এটাই আমাদের নির্বাচনে যাওয়ার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নয়। নির্বাচনে যাওয়ার জন্য যা করতে হয় তা আমরা করছি। খুব শিগগিরই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাব। মহাজোটে নয়, এবার এককভাবে ৩০০ আসনে প্রার্থী দেবে জাতীয় পার্টি।

নির্বাচন নিয়ে আওয়ামী লীগ-বিএনপিকে সংলাপে বসার আহ্বানও জানান তিনি। বলেন, সরকারি দল ও বিএনপি কেউ আগ্রহী নয় সংলাপে, তবে এখনও সময় আছে আলোচনায় বসার।


আরও খবর



মেহেরপুরে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বীর মুক্তিযোদ্ধার দাফন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৭২জন দেখেছেন

Image

মেহেরপুর প্রতিনিধিঃরাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হয়েছে মেহেরপুর সদর উপজেলার বর্শিবাড়ীয়া গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা ফয়েজ উদ্দীনকে। আজ মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০ টার সময় বর্শিবাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে এই গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়।

মেহেরপুর সদর থানা পুলিশের একটি দল গার্ড অব অনার প্রদান করেন। রাষ্ট্রের পক্ষে থেকে সদর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মাজহারুল ইসলাম অভিবাদন গ্রহণ করেন। মুক্তিযোদ্ধা ফয়েজ উদ্দীনের মরদেহ জাতীয় পতাকা দিয়ে আচ্ছ্বাদিত করেন। এসময় বিহ্গলের সুর বেজে ওঠে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন মেহেরপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বারাদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোমিনুল ইসলাম মোমিন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা ফয়েজ উদ্দীনকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহাতাব আলী, মিনহাজ উদ্দিন, আফজাল হোসেন, জালাল উদ্দিন, গুরুদাস হালদার, আজিজুল হক, মাসুদ আহমেদ, শুকুর আলী, আহাদ আলী, গাংনী উপজেলার খড়মপুর গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম।

পরে গার্ড অব অনার ও নামাজে জানাযা শেষে স্থানীয় গােরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়।

উল্লেখ্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা ফয়েজ উদ্দীন গতকাল সােমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বার্ধক্যজনিত কারনে অসুস্থ হয়ে মেহেরপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হন। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

মুক্তিযোদ্ধা ময়েজ উদ্দিন কয়েকটি জটিল রােগে আক্রান্ত ছিলেন। তার ৫ সন্তান, স্ত্রী বন্ধু বান্ধব ও গুনগ্রাহি রয়েছে। মেহেরপুর সদর উপজেলার বর্শিবাড়ীয়া গ্রামের মৃত বদর উদ্দীনের ছেলে।


আরও খবর



বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব আম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১১০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আম বয়ানের মধ্য দিয়ে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু হয়েছে গাজীপুরের টঙ্গীর তুরাগতীরে। আজ শুক্রবার বাদ ফজর মাওলানা ইলিয়াস বিন সাদ আম বয়ান করেন। তাৎক্ষণিকভাবে তা বাংলা তরজমা করে মাওলানা মনির বিন ইউসুফ।

সকাল ১০টায় ভারতের মাওলানা ইলিয়াস তালিমের মৌজু, জুমার আগে জুমার ফাজায়েলের ওপর ১০ মিনিট বয়ান করবেন মাওলানা মনির বিন ইউসুফ। জুমার পরে বয়ান করবেন শেখ মোফলে (আরবি), তাৎক্ষণিকভাবে তা বাংলায় তরজমা করবেন মাওলানা শেখ আব্দুল্লাহ্ মনসুর, আসরের পর বয়ান করবেন মাওলানা মোশাররফ, মাগরিবের পর বয়ান করবেন ভারতের মাওলানা ইউসুফ বিন সাদ, তাৎক্ষণিকভাবে তা বাংলায় তরজমা করবেন মাওলানা জিয়া বিন কাশেম।

বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বের মিডিয়া সমন্বয়ক মোহাম্মদ সায়েম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এবারের ইজতেমায় ভারতের দিল্লি মারকাজের মাওলানা সা’দ কান্ধলভী না এলেও এসেছেন তার তিন ছেলে। গত বুধবার মাওলানা সা’দ কান্ধলভীর বড় ছেলে মাওলানা ইউসুফ, মেজো ছেলে মাওলানা সাঈদ ও ছোট ছেলে মাওলানা ইলিয়াসসহ ভারতের নিজামউদ্দিন মারকাজের ১৪জনের একটি দল গত বুধবার সন্ধ্যায় টঙ্গীর ইজতেমা ময়দানে পৌঁছান।

এদিকে টঙ্গীর তুরাগ তীরের ময়দানে অবস্থান নেওয়া মুসল্লিদের উদ্দেশে গতকাল বৃহস্পতিবার বাদ ফজর থেকে বয়ান শুরু করেন মুরুব্বিরা।

বিশ্ব ইজতেমার মিডিয়া সমন্বয়ক মোহাম্মদ সায়েম জানান, টঙ্গী বিশ্ব ইজতেমার এবারের দ্বিতীয় পর্বে ১২ থেকে ১৪ হাজার বিদেশি মেহমান যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে। এরই মধ্যে প্রায় তিন হাজারের বেশি বিদেশি মেহমান এবং দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে লাখো মানুষ টঙ্গীর ইজতেমা ময়দানে এসে পৌঁছেছেন।

আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে প্রথম পর্ব শেষ হয় গত ৪ ফেব্রুয়ারি ।


আরও খবর



গাংনীতে আমৃত্যু কারাদন্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৪৬জন দেখেছেন

Image

মজনুর রহমান আকাশ,মেহেরপুর প্রতিনিধিঃজমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে হত্যা মামলায় আমৃত্যু সশ্রম কারাদন্ড প্রাপ্ত আসামী আমানুল্লাহ ওরফে রিপন(৫৫) কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মেহেরপুরের গাংনী থানা পুলিশের একটি টীম পাবনা জেলা শহর থেকে সোমবার রাতে তাকে গ্রেপ্তার করে।আমানুল্লাহ ওরফে রিপন গাংনী উপজেলার আড়পাড়া গ্রামের আবুছদ্দীনের ছেলে। আজ মঙ্গলবার সকালে তাকে মেহেরপুর জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

গাংনী থানার ওসি (তদন্ত) মনোজিৎ কুমার নন্দী জানান, উপজেলার আড়পাড়া গ্রামের মহসিন আলীর সাথে জমি সংক্রান্ত বিরোধ ছিল আমানুল্লাহ ওরফে রিপনদের। এরই জেরে ২০০৫ সালে মহসিন আলীকে হত্যা করে তারা। এ ব্যাপারে গাংনী থানায় একটি হত্যা মামলা হয়। মামলায় ২০১৯ সালে আমানুল্লাহ ওরফে রিপনের আমৃত্যু সশ্রম কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড দেন বিজ্ঞ আদালত। সে সময় থেকে আমানুল্লাহ পলাতক ছিল।

প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে আমানুল্লাহ ওরফে রিপন পাবনা জেলা শহরে বিদেশী পাখির ব্যবসা করতো। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় গাংনী থানার এসআই শিমুল, এএসআই তাওহীদ ও এএসআই মাহবুবসহ সঙ্গীয় ফোর্স তার অবস্থান নিশ্চিত হয়ে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে।


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




তানোরে ছুরিকাঘাত ও জবাই করে হত্যা; শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে লাশ হলেন

প্রকাশিত:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৪০জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:রাজশাহীর তানোরে শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে বাড়ী যাওয়ার সময় এক আওয়ামী লীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে  নিশ্চিত হওয়া গেছে। মঙ্গলবার  রাতে উপজেলা পরিষদ চত্বরের শহিদ মিনারে ফুল দিয়ে বাড়ি ফেরার সময় ছুরিকাঘাত ও এলোপাতাড়ি কোপে হত্যা করা হয় জিয়ারুল হক নামের এক যুবককে। তার বাড়ি  তালন্দ ইউনিয়নের বিলশহর গ্রামে। সে মৃত মোহর মন্ডলের পুত্র।   

বুধবার ভোরে গ্রামের একটি সড়কের প্রান্ত থেকে তার ক্ষতবিক্ষত লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশ কে খবর দিলে উদ্ধার করে পুলিশ। ময়নাতদন্তের জন্য জিয়ারুলের লাশ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে। জিয়ারুলের মৃত্যুর খবরে স্ত্রী সহ পরিবারে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। স্ত্রী সন্তানরা জ্ঞান হারিয়ে ফেলছেন, আর চিৎকার দিয়ে মাটিতে নুয়ে পড়ছেন। সকাল থেকেই কয়েকগ্রামের মানুষ বিলশহরগ্রামে উপস্থিত হয়ে পরিবারের লোকজন দের সান্ত্বনা দিচ্ছেন।
এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার দিবাগত গভীর রাতে তানোর উপজেলা সদরে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে শহিদ মিনারে ফুল দিয়ে নিজের মোটরসাইকেলে করে পাঁচ কিলোমিটার দূরে নিজ বাড়ি বিলশহর গ্রামের দিকে চলে যান জিয়ারুল। বুধবার ভোরের দিকে পুকুরে মাছ ধরতে যাওয়া লোকজন সড়কের পার্শ্ববর্তী একটি জায়গায় জিয়ারুলের লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেন। সকাল ৮টায় পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে জিয়ারুলের মরদেহ উদ্ধার করে। জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, জিয়ারুলকে শক্ত কোনো বস্তু দিয়ে প্রথমে মাথায় আঘাত করা হয়েছে। এরপর মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্র দিয়ে উপর্যুপরি আঘাত করার পর পেটে কয়েকবার ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। অন্য কোথাও হত্যা করে জিয়ারুলের মরদেহ বিলশহর গ্রামের উত্তরপ্রান্তে ফেলে দেওয়া হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

জানা গেছে, নিহত জিয়ারুল হক তালন্দ ইউনিয়নের বিলশহর গ্রামের মোহর আলির ছেলে। জিয়ারুল রাজশাহী-১ (গোদাগাড়ী-তানোর) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি গোলাম রাব্বানীর চাচাতো ভাই। 

গোলাম রাব্বানী অভিযোগে বলেছেন, গত ৭ জানুয়ারির সংসদ নির্বাচনে জিয়ারুল তার পক্ষে ব্যাপকভাবে কাজ করেন। ওই নির্বাচনে জিয়ারুলের ব্যাপক ভূমিকার কারণে লালপুর স্কুল ভোটকেন্দ্রে স্বতন্ত্র প্রার্থীর কাঁচি প্রতীক, নৌকা প্রতীকের চেয়ে ছয় শতাধিক ভোট বেশি পেয়েছিল। ভোটের পর থেকে প্রতিপক্ষরা ব্যাপক হুমকি ধামকি দিয়ে আসছিলে । স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে কাজ করায় প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীরা জিয়ারুলকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে বলে দাবি করেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী গোলাম রাব্বানী। 

এদিকে এলাকাবাসী ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত সংসদ নির্বাচনে তালন্দ ইউপি চেয়ারম্যান নাজিমুদ্দিন বাবু ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসান মেম্বারের কর্মী সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা চলে আসছে। নিহত জিয়ারুল ছিলেন বাবু চেয়ারম্যানের পক্ষের লোক। গত সংসদ নির্বাচনে বাবু চেয়ারম্যানসহ তার পক্ষের নেতাকর্মীরা স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেন। গত ৭ জানুয়ারি ভোটের ফলাফল প্রকাশের পরদিন এলাকার সংসদ সদস্য ওমর ফারুক চৌধুরীর ঘনিষ্ঠ হাসান মেম্বারের নির্দেশে নিহত জিয়ারুলের একটি গভীর নলকূপে তালা মেরে দেন। গত কয়েকদিন আগে নিহত জিয়ারুলের একটি কাঁচামালের গুদামে অগ্নিসংযোগ করা হয়। জিয়ারুলকে এলাকা ত্যাগের জন্য হুমকি দিয়ে যাচ্ছিল হাসান মেম্বারের ক্যাডাররা। জিয়ারুল তার নিরাপত্তাহীনতার কথা থানা পুলিশকেও জানিয়েছিলেন।
এদিকে গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে হাসান মেম্বারের কীটনাশকের দোকানে আগুন দেয় দূর্বৃত্তরা। এরপর থেকে ওই এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছিল।

এলাকাবাসী আরও জানায়, গত কিছুদিন ধরে হাসান মেম্বারের সশস্ত্র ক্যাডার ফরহাদ, শাওন, মিঠু, ও হাসান মেম্বারের ভাই হাকিম বাবুসহ ক্যাডাররা নিহত জিয়ারুলকে নারায়ণপুর বাজার মোড়ে ঘেরাও করেছিল। কিন্তু জিয়ারুল দ্রুত মোটরসাইকেলে চড়ে স্থান ত্যাগ করায় ওইদিন প্রাণে বেঁচে যান। বুধবার ভোরে পুলিশ ফরহাদ, রাসেল ও হাসান মেম্বারের দ্বিতীয় স্ত্রী তারাবানুকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে থানায় নিয়ে আসেন পুলিশ । অন্যদিকে আওয়ামী লীগ নেতা হাসান মেম্বারসহ তার ক্যাডাররা ঘটনার পর থেকে  এলাকা ছেড়ে পালিয়েছেন।হাসান মেম্বারের মোবাইলে ফোন দেয়া হলে বন্ধ পাওয়া যায়।নিহত জিয়ারুলের স্বজনরা জানায়, তার তিন ছেলে সন্তান রয়েছে। বড় ছেলে আওতা অনার্সে পড়ে,  মেজো ছেলে অলি ৪র্থ শ্রেণীতে পড়ে এবং জিহানের বয়স চার বছর।  

ঘটনার বিষয়ে জানতে  থানার ওসির মোবাইলে কল করা হলে এসআই আনোয়ার  বলেন, জিয়ারুল হত্যায় জড়িত সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিনজনকে আটক করা হয়েছে। পুলিশ হত্যাকাণ্ডের তদন্ত শুরু করেছে এবং লাশ ময়না তদন্তের জন্য রামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




সিএনজিতে চড়ে সংসদে এলেন সর্বকনিষ্ঠ এমপি আজিজ

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৩১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:দ্বাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশন মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) অনুষ্ঠিত হয়েছে। এদিন প্রায় সব সংসদ সদস্যই (এমপি) হাজির হন ব্যক্তিগত গাড়িতে চেপে। কিন্তু একমাত্র ব্যতিক্রম সর্বকনিষ্ঠ এমপি আজিজুল ইসলাম খন্দকার আজিজ। তিনি সংসদে আসেন সিএনজিচালিত অটোরিকশায় চড়ে। যা দেখে উপস্থিত সবাই অবাক হয়ে যান।

জানা যায়, বিকেল ৩টায় সংসদ অধিবশেন শুরু হয়। তার আগে অন্য সবার মতো আজিজুলও এসে পৌঁছান সংসদ ভবনে। তাকে সিএনজি থেকে নামতে দেখে অনেকেই কৌতূহলী হন। এ সময় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।

আজিজুল প্রথমেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, তিনি সুযোগ দিয়েছেন বলেই আমার মতো মানুষ আজকে সংসদ সদস্য হতে পেরেছে। প্রধানমন্ত্রী যে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার ঘোষণা দিয়েছেন আমরা তরুণরা সেটা গড়তে সর্বোচ্চ সহযোগিতা করব।

নির্বাচনে জয় পাওয়া প্রসঙ্গে আজিজুল বলেন, এখানে কোনো ম্যাজিক না, মানুষের ভালোবাসা। আমি যখন ভোট চাইতে গিয়েছিলাম, মানুষ এতো পরিমাণ আমাকে দোয়া দিয়েছে, এতো মানুষের চোখের পানি আমার গায়ে লেগে আছে। এই মানুষের চোখের পানি দিয়েই কিন্তু আজকে আমি সংসদে আসছি।

মানুষের কল্যাণে কাজ করা দায়িত্ব হয়ে গেছে জানিয়ে আজিজুল ইসলাম বলেন, আজকে প্রথম অধিবেশন। আমি সর্বকনিষ্ঠ সদস্য। আমার ভেতরটা অনেক ভারী। কারণ আমার যে দায়িত্ব এটা অবশ্যই পূরণ করতে হবে।

সার্টিফিকেট অনুযায়ী বর্তমানে আজিজুল ইসলামের বয়স মাত্র ২৮ বছর। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি যশোর-৬ (কেশবপুর) সংসদীয় আসন থেকে ৯ হাজার ৫৭৫ ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হন।

আজিজুল ইসলাম খন্দকার আজিজের প্রতিপক্ষও ছিলেন দুই হেভিওয়েট প্রার্থী। একজন নৌকা প্রতীকের আলোচিত-সমালোচিত যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদ্য সাবেক সংসদ সদস্য শাহীন চাকলাদার।অন্যজন স্বতন্ত্র প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও দু’বারের উপজেলা চেয়ারম্যান এইচ এম আমির হোসেন।


আরও খবর