Logo
আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪
শিরোনাম

দেশে ফিরেছে টাইগাররা

প্রকাশিত:শনিবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ৩৩৭জন দেখেছেন

Image

ক্রীড়া প্রতিবেদক:বাংলাদেশ দলের এবারের এশিয়া কাপে দারুণ কিছু করার স্বপ্ন ছিল। সেই স্বপ্ন দুসর হয়ে গেছে। ফাইনালে খেলার আগেই আজ দেশে ফিরতে হলো বাংলাদেশ দলকে।

বেলা ১১টার দিকে ঢাকার হজরত শাহাজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে এসে পৌঁছান সাকিব-মিরাজরা। এবারের আসর বাংলাদেশ শুরু করেছিল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হার দিয়ে। গ্রুপ পর্বের ওই ম্যাচ হেরে যাওয়ায় ক্ষীণ হয়ে গিয়েছিল সুপার ফোরে খেলার আশা।

তবে আফগানিস্তানকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে নিশ্চিত করে শেষ চারে খেলা। এই পর্বে পাকিস্তানের বিপক্ষে কাছে হারের পর শ্রীলঙ্কার কাছেও হারে বাংলাদেশ। তাতে শেষ হয়ে যায় ফাইনালে খেলার আশা।

ভারতের বিপক্ষে শুক্রবার ছিল নিয়ম রক্ষার ম্যাচ। এই ম্যাচে পাঁচ পরিবর্তন নিয়ে খেলতে নামলেও দারুণ এক জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। আসরে মোট পাঁচ ম্যাচ খেলে দুই জয়, বলা যায় ভালো-খারাপের মিশ্র অভিজ্ঞতা নিয়ে ঘরে ফিরেছে ঘরের ছেলেরা।

দেশে ফিরেও বিশ্রাম নেই, আবার নামতে হবে মাঠে। আগামী ২১ তারিখ থেকে ঢাকায় নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ রয়েছে।


আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪




সারা‌ দেশে কঠোরভাবে বাজার মনিটরিংয়ের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১০ জুন ২০২৪ | ১৫২জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:সারা‌ দেশে কঠোরভাবে নিত‌্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে বাজার মনিটরিংয়ের নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনা।

সোমবার (২০ মে) সকালে তেজগাঁও প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত ম‌ন্ত্রিসভার বৈঠকে বা‌ণিজ‌্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টি‌টুকে এ নির্দেশনা দেন তি‌নি।

বৈঠক শেষে বিকেলে স‌চিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন ব্রিফিংয়ে বলেন, আজকে নির্ধারিত ইস্যুর বাইরে দুইটি বিষয় ছিল। তার মধ্যে প্রধানমন্ত্রী আজকে বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রীকে কঠোরভাবে বলেছেন, বাজার মনিটরিং যেন জোড়ালোভাবে হয় এবং ভালোভাবে নজর দিতে বলেছেন। বাজারে সাপ্লাই যেন ঠিক থাকে।

তিনি  আরও বলেন, কিছু কিছু পণ্যে সরবরাহ ঠিক আছে, ক্রাইসিস না থাকার পরেও বাজারে কৃত্রিম মূল্যবৃদ্ধির প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। সেজন্য কঠোরভাবে যাতে বাজার মনিটরিং শুরু করতে প্রধানমন্ত্রী সুনির্দিষ্টভাবে বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রীকে নির্দেশনা দিয়েছেন।


আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪




বিরামপুরে ছোট যমুনা নদীর পাড়ে হাঁস পালন করে স্বাবলম্বী ফারুক

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ১৪৫জন দেখেছেন

Image

মিজান, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃহাঁস পালন একটি লাভজনক পেশা। হাঁস পালন করে স্বাবলম্বী হয়েছেন দিনাজপুর জেলার বিরামপুর উপজেলার জহুরুল ইসলাম ফারুক নামে এক যুবক। তিন বছর আগে ৭০০ হাঁস দিয়ে খামার শুরু করলেও তিনি। তিন বছরে ৫ হাজারেরও বেশি হাঁস বিক্রি করেছেন। বর্তমানে তাঁর খামারে  এক হাজার হাঁস রয়েছে। সেই হাঁসগুলো অল্প দিনের মধ্যেই ডিম দেবে। যমুনা নদীর ধারে তাঁর এই খামার দেখতে প্রতিদিন ভিড় করছেন অনেকেই। উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিস থেকে দেওয়া হচ্ছে নানান পরামর্শ।

সরেজমিনে দেখা যায়, দিনাজপুর জেলার  বিরামপুর উপজেলার ছোট যমুনা নদীর পাড়ে ফারুক গড়ে তুলেছেন এ হাঁসের খামার। দল বেঁধে চলছে হাঁসের দল। প্রতিটি হাঁসের বাচ্চা ৩০ টাকা দরে কিনেছেন বলে জানান তিনি। প্রথম পর্যায়ে ২ লাখ ৮০ হাজার টাকা দিয়ে ৭০০ হাঁসের মাধ্যমে খামার তৈরি করলেও তিন বছরে তিনি ৫ হাজারেরও বেশি হাঁস বিক্রি করেছেন। নদীর বুকে সারাদিন হাঁসগুলো খাবার খেয়ে থাকেন। বর্তমানে তাঁর খামারে ক্যাম্বেল জাতের হাঁসও রয়েছে।

হাঁসগুলোকে সন্ধ্যার পর শুধু ৫০ কেজি গম খেতে দেন তিনি। দেখা যায়, ফারুক হাঁসগুলোকে ডাকা মাত্রই ছুটে আসে তাঁর কাছে। সারাদিন হাঁসগুলো এখানে প্রাকৃতিক খাবার খায়। সন্ধ্যায় সেগুলোকে শুকনো স্থানে রেখে পরিচর্যা শেষে পুনরায় সকালে নদীতে উন্মুক্ত করা হয়। এক জায়গায় স্থির না রেখে পানি ও প্রাকৃতিক খাবারের প্রাপ্যতানুসারে স্থানান্তর করা হয় হাঁসগুলোকে। ভ্রাম্যমাণ খামারটি একদিকে বদলে দিয়েছে তাঁর ভাগ্য। অপরদিকে ওই এলাকাবাসী পেয়েছে স্বাবলম্বী হওয়ার প্রেরণা। হাঁস পালন সম্পর্কে নানা পরামর্শ নিতে আসছেন অনেকেই। তাঁর খামারে কাজ করে সংসার পরিচালনা করছেন অনেক পরিবার।

এ বিষয়ে হাঁস খামারি জহুরুল ইসলাম ফারুক বলেন, ছোট পরিসরে প্রায় তিন বছর ধরেই যমুনা নদীর তীরে হাঁস পালন করছেন তিনি। তাঁর খামারে ক্যাম্বেল জাতের হাঁস রয়েছে। সরকার থেকে সহযোগিতা পেলে তিনি হাঁসের একটি বড় হ্যাচারি তৈরি করবেন। তাঁর খামারের হাঁসগুলো অল্পদিনের মধ্যেই ডিম দেবে। সেই ডিম থেকে তিনি আবার বাচ্চা তৈরি করার চিন্তা করছেন।

বিরামপুর উপজেলার প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. বিপুল কুমার চক্রবর্তী বলেন, বিরামপুরের ছোট যমুনা নদীতে ভ্রাম্যমাণ হাঁস পালনের অপার সম্ভাবনা রয়েছে। ফারুকের খামারটি নিঃসন্দেহে একটি ভালো উদ্যোগ। আমরা প্রাণিসম্পদ দপ্তর থেকে খামারিদের সরকারের নির্ধারিত মূল্যে ভ্যাকসিন, চিকিৎসা ও পরামর্শ সেবা দিয়ে থাকি। বিরামপুর উপজেলাতে প্রায় ৩৪টির মতো ছোট -বড় হাঁসের খামার রয়েছে। এই খামারগুলোতে বিভিন্ন জাতের হাঁস রয়েছে। হাঁসগুলো থেকে স্থানীয় মাংস এবং ডিমের চাহিদা মিটিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করা হয়ে থাকে।


আরও খবর



ভূমিকম্পে কাঁপলো জাপান

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ৯৩জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে জাপানের মধ্যাঞ্চল ইশিকাওয়াতে। জাপানের আবহাওয়া সংস্থা (জেএমএ) এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

মার্কিন বার্তাসংস্থা এপি জানিয়েছে, স্থানীয় সময় সোমবার (৩ জুন) কয়েক মিনিটের ব্যবধানে ৫ দশমিক ৯ এবং ৪ দশমিক ৮ মাত্রার দুটি ভূমিকম্প আঘাত হানে।

জেএমএ জানায়, এতে এখন পর্যন্ত ক্ষয়ক্ষতি বা হতাহতের বিষয়ে কোনো তথ্য জানা যায়নি। ভূমিকম্পে দেশটিতে কোনো সুনামি সতর্কতাও জারি করা হয়নি। জাপানের আবহাওয়া কর্মকর্তা সাতেশি হারদা বলেন, সোমবারের ভূমিকম্পগুলোকে গত ১ জানুয়ারি ৭ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্পের আফটারশক বলে মনে করা হচ্ছে।

ভূমিকম্পের কারণে স্থানীয় রেল পরিষেবা সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয়া হয়। তবে কিছু সময়রে পর আবার বেশিরভাগ রেল পরিষেবা চালু হয়।

জাপানে ভূমিকম্প নিত্যদিনের ঘটনা। দেশটিতে প্রায়ই শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনে থাকে। চলতি বছরের জানুয়ারি মাসের প্রথমদিনে ইশিকাওয়া অঞ্চলে ৭ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্পে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। ওই ভূমিকম্পে ২৪১ জনের মৃত্যুর তথ্য জানা যায়।


আরও খবর



এমপি আনার খুন : ডিবি কার্যালয়ে যা জানাল ভারতীয় পুলিশ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ মে 20২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ১১১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) প্রধান মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ, এমপি আনোয়ারুল আজিম আনারের মরদেহ শিগগিরই উদ্ধার করতে পারবেন বলে আশা প্রকাশ করেছেন ।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) রাত পৌনে ১০টায় ভারত থেকে আসা চার পুলিশের সঙ্গে বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ তথ্য জানান।

ডিবিপ্রধান বলেন, ভারতীয় পুলিশের যে টিম ডিবিতে এসেছে তারা আমাদের হাতে গ্রেপ্তার আসামিদের সঙ্গে কথা বলেছে। আমাদের ডিবি পুলিশের কাছে আসামিরা যে তথ্যগুলো জানিয়েছিল, তারা ভারতীয় পুলিশের কাছেও একই তথ্য স্বীকার করেছে।

হারুন অর রশীদ বলেন, উভয় দেশের পুলিশ তথ্য দিয়ে একে-অপরকে সহযোগিতা করছে। এখনও কোনো সন্ধান মেলেনি। তবে তথ্যের ভিত্তিতে শিগগিরই এমপি আনারের দেহের খণ্ডিত অংশগুলো উদ্ধারের চেষ্টা চালাচ্ছে। আশা করছি দ্রুতই পেয়ে যাবে।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (২৩ মে) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ভারতীয় পুলিশের প্রতিনিধিদল ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের কার্যালয় যায়। সেখানে এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত যে তিনজন বাংলাদেশে গ্রেপ্তার হয়েছে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন তারা।


আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪




ড. ইউনূসকে নিয়ে যা বললেন আইনমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ৫০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে কর ফাঁকি দেওয়ার মামলাকে গুরুত্বপূর্ণ মামলা হিসেবে বিবেচনা করে,বলেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক । ঠিক সেভাবেই ড. ইউনূসের মামলা পরিচালিত হচ্ছে।

বুধবার (১২ জুন) সচিবালয়ে আইন মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে ইউরোপিয়ান দুই প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে তিনি এ কথা বলেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, দেশের যেকোনো নাগরিক আইন ভঙ্গ করলে তার যেমন বিচার হয় ড. ইউনূসেরও সেভাবেই বিচার হচ্ছে। তবে তিনি যেসব কথা বলে বেড়াচ্ছেন তা অসত্য। তার কথা বাংলাদেশের জনগণের জন্য অপমানজনক।

আনিসুল হক বলেন, ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন একটি মামলা করেছে। সে মামলার ব্যাপারে আমি বলেছি- মামলাটি আদালতে চলমান রয়েছে। আদালতে যে মামলা চলমান থাকে সে মামলা সম্পর্কে আইনমন্ত্রী কোনো কথা বলেন না সে ব্যাপারটাও তাদেরকে (ইউরোপিয়ান প্রতিনিধি দল) বলেছি।

তিনি বলেন, ইউরোপীয় প্রতিনিধি দলের সঙ্গে শ্রম আইন, আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সি আইন, ডেটা প্রটেকশন ও সাইবার সিকিউরিটি অ্যাক্ট নিয়ে কথা হয়েছে। তাদের নির্বাচন কমিশন থেকে একটি টিম এসেছিল সেই টিমে রিপোর্টের পরিপ্রেক্ষিতে আমরা কি চিন্তা ভাবনা করছি, রোহিঙ্গা ইস্যু এবং সর্বশেষ এন্টি ডিসস্ক্রিমিনেশন বেল সম্পর্কেও তাদের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে।

ড. ইউনূসের বিষয়ে কি কথা হয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ড. ইউনূসের বিচার প্রক্রিয়া নিয়ে তাদের দেশ থেকে অনেকগুলো প্রশ্ন এসেছে সেসব বিষয়গুলো তারা পরিষ্কার হতে চেয়েছিলেন। ড. ইউনূসের ব্যাপারে যেসব মামলা রয়েছে আমি তাদের সেসব বলেছি। বলেছি- তিনি শ্রমিকদের অধিকার লঙ্ঘন করেছিলেন সেখানে মামলা হয়েছে। তাকে সাজা দেওয়া হয়েছে। ১০৮ জন শ্রমিক ব্যক্তিগতভাবে তার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

উল্লেখ্য, গ্রামীণ টেলিকমের শ্রমিক কর্মচারীদের অর্থ আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগে করা মামলায় নোবেলজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত। এর ফলে এ মামলার আনুষ্ঠানিক বিচার শুরু হলো। বুধবার ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪ এর বিচারক সৈয়দ আরাফাত হোসেন আসামিদের অব্যাহতির আবেদন খারিজ করে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন।


আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪