Logo
আজঃ বুধবার ২২ মে ২০২৪
শিরোনাম

দীর্ঘমেয়াদি ভিসায় সিকিভাগ বাংলাদেশি আছে রোমানিয়ায়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ৩০২জন দেখেছেন

Image

নিউজ ডেস্ক : গত বছর প্রায় ১৩ হাজার বাংলাদেশি দীর্ঘমেয়াদি ভিসা নিয়ে রোমানিয়ায় গিয়েছিলেন। কিন্তু বর্তমানে বসবাসের অনুমতি নিয়ে সেখানে আছেন মাত্র তিন হাজারের কিছু বেশি। দেশটির অভিবাসন কর্তৃপক্ষ অভিবাসীবিষয়ক সংবাদমাধ্যম ইনফোমাইগ্রেন্টসকে এ তথ্য জানিয়েছে।

বাংলাদেশিদের সরাসরি কাজের ভিসা দেয় ইউরোপের এমন দেশগুলোর মধ্যে শীর্ষে আছে রোমানিয়া। করোনা মহামারির পর ২০২২ সালে বিপুলসংখ্যক বাংলাদেশি বৈধভাবে দক্ষিণ-পূর্ব ইউরোপের এই দেশটিতে পাড়ি জমান। খবর ডয়েচে ভেলের।

বুধবার (১১ জানুয়ারি) রোমানিয়া সরকারের জেনারেল ইন্সপেক্টরেট ফর ইমিগ্রেশন (আইজিআই) ইনফোমাইগ্রেন্টসকে জানিয়েছে, ২০২২ সালে বাংলাদেশিদের ১৪৫টি ‘শর্ট-স্টে’ বা সংক্ষিপ্ত মেয়াদের ভিসা দেয়া হয়েছে।

এর মধ্যে ৯৬টি ছিল ভ্রমণ, চিকিৎসা, সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড সংক্রান্ত। গবেষণা কাজের জন্য দেয়া হয়েছে ১৮টি ভিসা। এ ছাড়া ১৭টি বিজনেস বা ব্যবসায়িক ভিসা, ক্রীড়া খাতে যুক্ত ব্যক্তিদের জন্য ১১টি ভিসা এবং তিনটি ট্রানজিট ভিসাও রয়েছে।কাজের ভিসায় ১২ হাজার ২৭১ জন ।

বাংলাদেশিরা ২০২২ সালে সবচেয়ে বেশি ভিসা পেয়েছেন দীর্ঘমেয়াদের জন্য। ইউরোপের দেশগুলোতে শিক্ষা, চাকরি কিংবা অন্য যে কোনো কাজে আসা ব্যক্তিদের যদি ৯০ দিনের বেশি অবস্থান করতে হয় সেক্ষেত্রে এই ভিসা দেয়া হয়।

আইজিআইএর তথ্য অনুযায়ী, ২০২২ সালে বাংলাদেশিদের সর্বমোট ১২ হাজার ৯৬০টি দীর্ঘমেয়াদি ভিসা দেয়া হয়েছে। যার সিংহভাগই পেয়েছেন ওয়ার্ক পারমিট বা কাজের ভিসায় আসা ব্যক্তিরা।

আইজিআইএর দেয়া পরিসংখ্যানে বলা হয়েছে, দীর্ঘমেয়াদি ভিসাপ্রাপ্তদের মধ্যে স্টুডেন্ট ভিসা বা উচ্চশিক্ষার জন্য ৫৩৮ জন, স্থানান্তর ভিসায় ১৪১ জন, পারিবারিক পুনর্মিলন ভিসায় আটজন এবং কূটনৈতিক ভিসা নিয়ে গেছেন দুজন বাংলাদেশি৷ বাকি ১২ হাজার ২৭১ জন ওয়ার্ক পারমিট ভিসা নিয়ে কাজের উদ্দেশে রোমানিয়া প্রবেশ করেন।অবস্থান করছেন ৩ হাজার ৯৬ জন ।

বিপুলসংখ্যক বাংলাদেশিরা দীর্ঘমেয়াদি ভিসা নিয়ে রোমানিয়ায় গেলেও তাদের মধ্যে ঠিক কতজন বছরের শেষ পর্যন্ত বৈধভাবে দেশটিতে অবস্থান করছিলেন সেটি কর্তৃপক্ষের কাছে জানতে চায় ইনফোমাইগ্রেন্টস।

আইজিআই জানায়, ২০২২ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সর্বমোট ৩ হাজার ৯৬ জন বাংলাদেশি অভিবাসী রেসিডেন্স পারমিট অনুমোদন নিয়ে রোমানিয়ায় অবস্থান করছিলেন। তাদের মধ্যে ২ হাজার ৯০৫ জন ওয়ার্ক পারমিটের আওতায়, ১৪৪ জন উচ্চশিক্ষায়, ২০ জন পারিবারিক ভিসায় এবং রাজনৈতিক আশ্রয়ের আওতায় আছেন ১১ জন।

অপরদিকে, বর্তমানে দেশটিতে ২০ জন বাংলাদেশি স্থায়ীভাবে অর্থাৎ পার্মানেন্ট রেসিডেন্সি নিয়ে বসবাস করছেন বলে নিশ্চিত করেছে বুখারেস্ট কর্তৃপক্ষ।

অর্থাৎ দীর্ঘমেয়াদি ভিসা নিয়ে যাওয়া বাংলাদেশিদের মাত্র সিকিভাগ শেষ পর্যন্ত রোমানিয়ায় অবস্থান করছেন। বাকিরা অনিয়মিত উপায়ে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে চলে গেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

২০২২ সালে অনিয়মিতভাবে রোমানিয়া থেকে শেঙেন জোনে প্রবেশ করতে গিয়ে বাংলাদেশিরা বারবার দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে আটক হয়েছেন। বেশ কয়েকজনকে আটক পরে সরাসরি ঢাকায় ফেরত পাঠানোর পাশাপাশি তাদের রোমানিয়ায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞাও দেয়া হয়েছে।


আরও খবর



তানোরে মাসিক সাধারণ সভা ও চেক বিতরণ

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৭ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২১ মে ২০২৪ | ৪৬জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:রাজশাহীর তানোরে মাসিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে উপজেলা পরিষদের আয়োজনে ও পরিষদ চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয় সাধারণ সভা। এতে বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইউএনও মোস্তাফিজুর রহমান, অফিসার ইনচার্জ ওসি আব্দুর রহিম, টিএইচও বার্নাবাস হাসদাক, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সিদ্দিকুর রহমান, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মনিরা বেগম,প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা: ওয়াজেদ আলী, কৃষি অফিসার সাইফুল্লাহ আহম্মেদ, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা এম ফজলুর রহমান, মৎস্য কর্মকর্তা বাবুল, সমাজ সেবা অফিসার মোহাম্মাদ হোসেন, কলমা ইউপি চেয়ারম্যান খাদেমুন নবী বাবু চৌধুরী, পাঁচন্দর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন, সরনজাই ইউপি চেয়ারম্যান নাজিমুদ্দিন বাবু, সরনজাই ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক খাঁন, কামারাগাঁ ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন প্রামানিক, তানোর পৌরসভার প্যানেল মেয়র আরব আলী প্রমুখ। এসময় উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন। 
এদিকে সমাজ সেবা দপ্তর থেকে চারজন ক্যান্সার রোগীর মাঝে ৫০ হাজার টাকা করে দুই লাখ টাকার চেক বিতরন করেন চেয়ারম্যান ও ইউএনও।

আরও খবর



একসঙ্গে এসএসসি পাস করলেন নাসিরনগরের মা ও মেয়ে৷

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ১৭৩জন দেখেছেন

Image

মোহাম্মদ হেদায়েতুল্লাহ  নবীনগর(ব্রাহ্মণবাড়িয়া)প্রতিনিধি:ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার চাতলপাড় ইউনিয়ন পরিষদের ১,২,৩ ওয়ার্ডের সংরক্ষিত সদস্য (মেম্বার) ৪৪ বছর বয়সে পরীক্ষা দিয়ে এসএসসি পাশ করেছেন। এমন খবর জেনে খোঁজ নিতে গিয়ে ফোন করতেই বেশ খুশি নিয়ে বললেন আমার মেয়েও পাশ করেছেন। মা ও মেয়ের একসঙ্গে পাশ করার ঘটনা এলাকায় বেশ আলোচনার জন্ম দিয়েছেন। সবাই ইউনিয়ন পরিষদ মেম্বার নুরুন্নাহার বেগমের প্রশংসা করছেন। নুরুন্নাহারের পরিবারেও বইছে আনন্দের বন্যা। স্বজনরা ছুটে আসছেন তাঁর বাড়িতে।

নুরুন্নাহার বেগম জানান, তিনি আরো পড়তে চান। অনেক বিপত্তি পেরিয়ে তার এই এগিয়ে চলা। নিজের দুইসন্তান কেও পড়ালেখা শিখিয়ে মানুষের মতো মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি। পড়া শুনার কোনো বয়স নেই বলে তিনি মনে করেন। মানুরুন্নাহার বেগমও মেয়ে নাসরিন আক্তার নাসিরনগর উপজেলার চাতলপাড়া ওয়াজ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাশ করেন।

মা কারিগরি বিভাগ থেকে ও মেয়ে স্কুল থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেন। নুরুন্নাহার বেগম জিপিএ ৪.৫৪ ও মেয়ে নাসরিন জিপিএ ২.৬৭ পেয়েছেন। নুরুন্নাহার বেগমের বয়স ৪৪ বছর ও নাসরিনের বয়স ১৮ বছর। কথা হলে নুরুন্নাহার বলেন, ‘অষ্টম শ্রেণিতে পড়ার সময় বিয়ে হয়ে যায়। শশুর বাড়ির লোক জন ছিলেন রক্ষণশীল। এ অবস্থায় পড়াশুনা চালিয়ে যেতে পারিনি। এক পর্যায়ে মেম্বার নির্বাচিতহই। এ নিয়ে দুইবার মেম্বার। সবার অনুমতি নিয়ে আবার পড়াশুনা করি। কেননা, লেখাপড়ার কোনো বিকল্প নেই বলে মনেকরি।

নুরুন্নাহারের ছোট ভাই স্বপন আহমেদ এ বিষয়ে অনুভুতি ব্যক্ত করতে গিয়ে আপ্লুত হয়ে পড়েন। বোনের পাস করার খবরে কি যে খুশি হয়েছিতা বলে বুঝানো যাবেনা। একই সঙ্গে ভাগ্নি পাস করলেও তার খবরটি নাদিয়ে ফেসবুকে বোনের রেজাল্টের স্ট্যাটাস দিয়েছি।

  -খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



বাঁধের কয়েক হাজার গাছ কেটে সাবাড়! হুমকিতে পরিবেশ

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ১৩২জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:বাঁধের কয়েক কিলোমিটার জুড়ে অপরিপক্ক কয়েক হাজার গাছ কেটে সাবাড় করে ফেলেছে বন বিভাগ। রাজশাহী তানোর সীমান্তবর্তী বিল কুমারী বিলের বাঁধে ঘটে রয়েছে গাছ কাটার ঘটনাটি। এক সাথে এত পরিমান গাছ কাটার কারনে মরু প্রান্তরে পরিনত হয়ে পড়েছে বাধটি। সেই সাথে পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতি সাধন হয়েছে বলে মনে করছেন পরিবেশ বীদরা। এতে করে ওই এলাকা মরু প্রান্তরে পরিনত হয়ে পড়েছে। এভাবে অপরিপক্ক গাছ কাটায় সংশ্লিষ্ট দপ্তরের বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্তের দাবি তুলেছেন পরিবেশ বীদরা।

জানা গেছে, তানোর পৌর এলাকার বিল কুমারী বিলের বাধটি মোহনপুর সীমানার মধ্যে পড়ে। পৌর এলাকার বুরুজ ব্রীজ ঘাটের উত্তরে বাধের প্রায় দেড় কিলোমিটার এবং ব্রীজ ঘাট থেকে কালিগঞ্জ যাওয়ার বাধের প্রায় আড়াই কিলোমিটার বাঁধে রোপনকৃত কয়েক হাজার গাছ কেটে সাবাড় করেছেন বন বিভাগ। এসব এলাকা প্রচন্ড খরা প্রবন হওয়ার কারনে পরিবেশ বীদরা বেশি বেশি গাছ রোপন করতে বলছেন। কিন্তু বন বিভাগ সেই নির্দেশনা অমান্য করে ছোট বড় কয়েক হাজার গাছ কেটে মরু প্রান্তরে পরিনত করে ফেলেছেন।

গত এপ্রিল মাসের ১৭ তারিখ থেকে টানা তীব্র তাপপ্রবাহ চলমান ছিল। ৪০ থেকে ৪২ ও ৪৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা বিরাজমান ছিল। তীব্র তাপদহের কারনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পর্যন্ত বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়। তাপপ্রবাহের মধ্যেই বাঁধের গাছ কেটেছে বন বিভাগ।পরিবেশ বিদদের দাবি উন্নয়নের কথা বলে পাইকারি ভাবে গাছ নিধন করা হয়েছে। গাছ নিধনের কারনেই পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতি সাধন হয়েছে। আর বাধের গাছ কাটার কোন প্রয়োজন ছিল না।  অতিরিক্ত তাপপ্রবাহের অন্যতম কারন গাছ নিধন বলে মনে করেন তারা।

বাধ সংলগ্ন এলাকার বাসিন্দা জুয়েল, মাসুদ সৈকত, সোহেলসহ অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, শ্রমিকরা কাজ করে বাধের গাছের ছায়াতলে বসে আরাম করত। ছোট বড় মাঝারি কয়েক হাজার গাছ কর্তন করেছে। এখন বাধ না মরু ভূমিতে পরিনত হয়েছে। গাছ কাটার পর বাধের সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে পড়েছে। অযথা গাছগুলো কেটে পরিবেশের ক্ষতি করা হয়েছে। তাপমাত্রা থেকে বাচতে এবং পরিবেশ রক্ষার জন্য সরকার ও পরিবেশ সংগঠন গুলো বেশি বেশি গাছ রোপন করতে বলছেন। কিন্তু বন বিভাগ তার উল্টো পথে চলছে।

মোহনপুর বন কর্মকর্তা নুরুজ্জামান বলেন, বন বিভাগের সামাজিক কর্মসূচির আওতায় গাছগুলো রোপন করা হয়েছিল। রোপনের পর দশ বছর হলে গাছ কাটতেই হবে। টেন্ডারের মাধ্যমে গাছ কাটা হয়েছে। কত কিলোমিটার বাধের কত হাজার গাছ কাটা হয়েছে এবং টেন্ডারে সর্বোচ্চ দরদাতা কে ছিল জানতে চাইলে তিনি জানান, এসব বিভাগীয় অফিসে গিয়ে তথ্য নিতে হবে, আমার এমুহূর্তে সরন নাই বলে এড়িয়ে যান তিনি । 

বিভাগীয় অফিসের বন সংরক্ষক মেহেদীজ্জামানের সাথে যোগাযোগ  করে গাছ কাটার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান, অফিসে চা খেতে আসেন সব তথ্য দেয়া হবে।মোহনপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আয়শা সিদ্দিকা বলেন, বন বিভাগের সামাজিক কর্মসূচি থেকে গাছ রোপন করা হয় এবং ওই গাছের দশ বছর বয়স হলে কাটার নিয়ম আছে বলে আমাকে অবহিত করেছে। আরো কিছু তথ্য নিতে হলে বিভাগীয় বন অফিসে যোগাযোগ করার পরামর্শ দেন ইউএনও।

আরও খবর



মাগুরায় শিক্ষাগত মর্যাদার দাবিতে ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ৪০জন দেখেছেন

Image
স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:প্রধানমন্ত্রীর ঘোষনা অনুযায়ী ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের চার বছরের কোর্সকে বিএসসি সমমান দেয়ার বিরোধীতা করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে মাগুরা জেলার ডিপ্লোমা প্রকৌশলীরা। 

মঙ্গলবার দুপুরে শহরের ভায়না মোড়ে ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স মাগুরার কার্যালয়ে সংগঠনের জেলা সভাপতি ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় কর্মকর্তা ইঞ্জিনিয়ার মোঃ রেজাউল ইসলামের সভাপতিত্বে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ও ইসলামিক কারিগরি ইনস্টিটিউট এর অধ্যক্ষ ইঞ্জিনিয়ার মোঃ মাহবুবুর রহমান টিটো। বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা ইঞ্জিনিয়ার মোল্লা আবুল হাসান, বিশিষ্ট আইনজীবী অ্যাডভোকেট ওয়ালিদ বিন জাহাঙ্গীরসহ অন্যরা। বক্তারা বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা এবং মাননীয় শিক্ষামন্ত্রীর নির্দেশনার পর দীর্ঘ চব্বিশ বছরে ডিগ্রি ইঞ্জিনিয়ারস ইনস্টিটিউশনের যুক্তিহীন বিরোধিতার কারণে চার বছরের ডিপ্লোমা প্রকৌশলী কোর্সকে বিএসসি সমমান প্রদানের কার্যক্রম বিঘ্নিত হচ্ছে।  দেশের ৮৫ ভাগ উন্নয়ন কার্যক্রম ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের দ্বারা সম্পন্ন হলেও তাদের উপযুক্ত সম্মান না দেয়ায় ক্ষোভে ফুসছেন প্রকৌশলীরা। এ অবস্থায় দ্রুত ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের সম্মান প্রদানের দাবি জানান তারা। অন্যথায় কঠোর কর্মসূচি ঘোষনা করা হবে বলে হুমকি দেন আয়োজকরা।

আরও খবর



মাগুরায় সড়ক দুর্ঘটনায় কিশোর নিহত

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১৯ মে ২০২৪ | ৭৯জন দেখেছেন

Image
স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নের তল্লাবাড়িয়া এলাকায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় বাবুখালী ইউনিয়নের বহলবাড়িয়া গ্রামের জাকির হোসেনের ছেলে জান্নাত (১৭) নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে সদরের বরুনাতৈল গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে ওসমান (১৬)। বৃহস্পতিবার দুপুরে এই দূর্ঘটনা ঘটে।

আরও খবর