Logo
আজঃ বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

বিকেলে খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে নেওয়া হবে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১১৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে মেডিকেল বোর্ডের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী জরুরি স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে নেওয়া হবে।

বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৪টায় গুলশানের বাসা ফিরোজা থেকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতাল নেওয়া হবে তাকে।বিএনপির মিডিয়া সেলের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার সকালে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও ম্যাডামের ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন এবং চেয়ারপার্সনের একান্ত সচিব এ বি এম আব্দুস সাত্তার জানিয়েছেন, জরুরি স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ম্যাডামকে বিকেলে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতাল নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, ৭৯ বছর বয়সী খালেদা জিয়া দীর্ঘদিন আর্থ্রাইটিস, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, কিডনি, লিভার সিরোসিসসহ নানা রোগে ভুগছেন। এর মধ্যে বিদেশ থেকে তিনজন চিকিৎসক তার চিকিৎসা করে গেছেন। তখন থেকে কিছুটা ভালো আছেন খালেদা জিয়া। তার আগে ২০২২ সালের জুনে খালেদা জিয়ার হৃদযন্ত্রে তিনটি ব্লক ধরা পড়লে একটিতে রিং পরানো হয়। এরপর থেকে কয়েক দফায় এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেন সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী।


আরও খবর



রেমিট্যান্স ৯ দিনে এলো ৭ হাজার কোটি টাকা

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:৬৩ কোটি ১৭ লাখ ৭০ হাজার ডলার রেমিট্যান্স (প্রবাসী আয়) এসেছে,চলতি ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম ৯ দিনে। বাংলাদেশি টাকায় যার পরিমাণ ৬ হাজার ৯৪৯ কোটি টাকা (প্রতি ডলার ১১০ টাকা ধরে)। আর প্রতিদিন আসছে ৭ কোটি ডলারের বেশি। রেমিট্যান্সের এই গতি থাকলে চলতি মাসেও দুই বিলিয়ন ডলার ছাড়াবে বলে প্রত্যাশা করছে সংশ্লিষ্টরা।

রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সবশেষ তথ্য বলছে, চলতি মাসের ৯ দিনে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে ৬ কোটি ৯০ লাখ ডলার, বিশেষায়িত একটি ব্যাংকের মাধ্যমে ২ কোটি ৯৬ লাখ মার্কিন ডলার, বেসরকারি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে ৫৩ কোটি ১৬ লাখ ডলার এবং বিদেশি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ১৩ লাখ ৯০ হাজার মার্কিন ডলার।

তবে এই সময়ে ১৩টি ব্যাংকে কোনো রেমিট্যান্স আসেনি। এর মধ্যে রয়েছে রাষ্ট্রীয় মালিকানার বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক বা বিডিবিএল, বিশেষায়িত রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক বা রাকাব, বেসরকারি কমিউনিটি ব্যাংক, সিটিজেন্স ব্যাংক, আইসিবি ব্যাংক, মেঘনা ব্যাংক, পদ্মা ব্যাংক, সীমান্ত ব্যাংক এবং বিদেশি খাতের ব্যাংক আল-ফালাহ, হাবিব ব্যাংক, ন্যাশনাল ব্যাংক অব পাকিস্তান, স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়া এবং উরি ব্যাংক।

সদ্য বিদায়ী মাস জানুয়ারির পুরো সময়ে ২১০ কোটি ডলার বা ২৩ হাজার ১০০ কোটি টাকার বেশি রেমিট্যান্স এসেছে। বিদায়ী বছরের শেষ মাস ডিসেম্বরের পুরো সময়ে আসে ১৯৮ কোটি ৯৮ লাখ ৭০ হাজার ডলার যা ২১ হাজার ৮০০ কোটি টাকার বেশি।


আরও খবর



রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৪৭

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ৯৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:রাজধানীতে মাদক সংশ্লিষ্টতায় গ্রেপ্তার ৪৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)।

সোমবার (২৯ জানুয়ারি) থেকে মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) সকাল ৬টা পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশনস বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) কে এন রায় নিয়তি জানান, ২৪ ঘণ্টার অভিযানে মাদক সেবন ও বিক্রির অভিযোগে ৪৭ জনকে আটক করা হয়েছে।

এ সময় তাদের কাছ থেকে তিন হাজার ৪৪৮টি ইয়াবা, ৫৪.১ গ্রাম হেরোইন, ২৯ কেজি ২২০ গ্রাম গাঁজা, ২৪৭ বোতল ফেনসিডিল, ৬৬.৫ লিটার দেশি মদ ও ৫০টি ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেট জব্দ করা হয়।

এ ঘটনায় ডিএমপির বিভিন্ন থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৩৫টি মামলা করে আটক ৪৭ জনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।


আরও খবর



কালিয়াকৈরে এবার সাংবাদিকের গাড়িতে তালা ঝুলালেন ইউএনও

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৮৮জন দেখেছেন

Image

সাগর আহম্মেদ,কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:গাজীপুরের কালিয়াকৈরে উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরের ভিতরে পাকিং করায় এক সাংবাদিকের গাড়িতে তালা ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বিরুদ্ধে। তার বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের সংবাদ প্রকাশের জেরেই ওই কর্মকর্তা এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে ধারণা করছেন অনেকে। সোমবার পর্যন্ত গাড়িটি তালাবন্ধ থাকায় নিন্দা জানিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় সাংবাদিক ও সচেতন মহলের লোকজন।

এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগী সাংবাদিক সূত্রে জানা গেছে, গত দ্বাদশ নির্বাচন সুষ্ঠ, সুন্দর নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ করার লক্ষে ঢাকার ধামরাই উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা (ইউএনও) হোসাইন মোহাম্মদ হাই জকীকে গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বদলি করা হয়। তিনি কালিয়াকৈরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে যোগদানের পর নৌকার বিপক্ষে কাজ করে সমালোচিত হন। এরপর তিনি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে মাটি খেকোদের চারটি ভেকু জব্দ করে। এতে আলোচিত হলেও কয়েকদিন পরই জব্দকৃত ভেকু ছেড়ে দিয়ে আবারো সমালোচিত হন ওই কর্মকর্তা। পরে তার অলিখিত অনুমোদনে উপজেলার বিভিন্ন এলাকার মাটি খেঁকোরা বেপরোয়া হয়ে উঠে। প্রায় অর্ধশত পয়েন্টে অবৈধ ভাবে ফসলি জমির মাটি, উচু জমি, খালের পাড়, টিলা, নদীর তীরসহ মাটি কাটার উৎসবে পরিণত হয়েছে। এসব বিষয়ে সংবাদ প্রচারের লক্ষ্যে ওই কর্মকর্তা বক্তব্য নিতে গেলে দুজন টেলিভিশন সাংবাদিকের ওপর চটে যান।

এক পর্যায় তার আনসার সদস্য দিয়ে ওই সাংবাদিকদের ক্যামেরা ও মোবাইল ফোন কেড়ে নেওয়া হয়। ওই তাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহারের মাধ্যমে তার অফিস থেকে বের করে দেন ওই কর্মকর্তা। শুধু তাই নয়, গত ৪ ফেব্রুয়ারী অবৈধ ইটভাটায় লোক দেখানো অভিযান করে তিনি। ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বৈষম্যের জরিমানায় ক্ষুব্দ হন ইটভাটার মালিক ও স্থানীয়রা। মনগড়া উপজেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটি করে আরো বিতর্কিত হন ওই ইউএনও। এসব বিষয়ে বিভিন্ন মিডিয়ায় সংবাদ প্রকাশিত হলে সাংবাদিকদের ওপর ক্ষিপ্ত হন। এর আক্রোশে কালিয়াকৈর প্রেসক্লাবের সদস্য ও দৈনিক স্বদেশ প্রতিদিন পত্রিকার প্রতিনিধি দেলোয়ার হোসেনকে তার গাড়ি উপজেলা চত্ত্বরে পাকিং করতে নিষেধ করেন ওই কর্মকর্তা। এরপর থেকে ওই সাংবাদিক কয়েকদিন ধরে উপজেলা চত্ত্বরে তার গাড়ি রাখেন না। কিন্তু গত রোববার সকালে ওই সাংবাদিক তার গাড়িটি উপজেলা চত্ত্বরে রেখে অন্যত্র চলে যান। দুপুরের পরও তার নির্দেশে ওই সাংবাদিকের গাড়িতে তালা ঝুলিয়ে দেন তার দেহ রক্ষী আনসার সদস্য। পরে তালা সম্বলিত গাড়ির ছবি ওই সাংবাদিকের মোবাইল ফোনে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। মুলত ইউএনও’র বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের সংবাদ প্রকাশের জেরেই তিনি এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে ধারণা করছেন অনেকে। সোমবার পর্যন্ত গাড়িটি তালাবন্ধ থাকায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় সাংবাদিক ও সচেতন মহলের লোকজন। তারা বলছেন, আসলে দেশে সাংবাদিকরা এখন নিরাপদ না, সেখানে সাধারণ জনগন কতটুকু নিরাপদ আছে? তিনি এখানে যোগদানের পর থেকেই একের পর এক সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে। তবে এসব একজন ইউএনওর কারনে দেশের সকল ইউএনও, প্রশাসন ও সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে বলেও জানান তারা। ওই গাড়ির মালিক সাংবাদিক দেলোয়ার হোসেন বলেন, গত কয়েক দিন আগে উপজেলা চত্বরে গাড়ি রাখায় ওই ইউএনর দেহ রক্ষী (আনসার) আমাকে গাড়ি রাখতে নিষেধ করেন। এর পরে আমি সেখানে আর গাড়ি রাখি না। কিন্তু রোববার অফিস সময়ে ওই চত্বরে গাড়ি রেখে বাহিরে গেলে গাড়িতে তালা ঝুলিয়ে দেয়া হয়।

মাটি খেঁকোদের পক্ষে সাফাই গেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হোসাইন মোহাম্মদ হাই জকী জানান, যদি মাটি কাটা বন্ধ হলে বাড়িঘর হবে কিভাবে? আইনে নিয়ম না থাকলেও বাস্তবে বন্ধ করা সম্ভব নয়। এছাড়া সাংবাদিকের গাড়িতে তালা ঝুলানোর বিষয়ে তিনি মুঠোফোনে বলেন, উপজেলা পরিষদ পাকিংয়ের জায়গা না।

এখানে কেউ অবৈধ ভাবে পাকিং করলে আমরা তালা বদ্ধ করতেই পারি। এখানে বক্তব্য নেওয়ার দরকার নাই। তবে ওনার আসার দরকার বলে তিনি উত্তেজিত কন্ঠে বলেন, এটা কি নিউজ করার বিষয়?


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




সিরাজগঞ্জে জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৭জন দেখেছেন

Image
রাকিবুল ইসলাম সিরাজগঞ্জ সদর থেকে:"স্মার্ট হবে স্থানীয় সরকার,নিশ্চিত করবে সেবার অধিকার" এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সোমবার(২৭ ফ্রেব্রুয়ারি) সারাদেশের ন্যায় সিরাজগঞ্জে জেলা প্রশাসন এর আয়োজনে স্থানীয় সরকার দিবস২০২৪ হয়েছে। এ উপলক্ষে জেলা প্রশাসক কার্যালয় থেকে বর্ণাঢ্য  র‍্যালি বের হয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ মোড় প্রদক্ষিন করে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের শহীদ এ কে শামসুদ্দিন সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভা হয়েছে। 

স্বাগত বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সরকারের উপপরিচালক উপসচিব মোহাম্মদ তোফাজ্জল হোসেন, সভাপতিত্ব করেন ও বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মীর মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান। 

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(সার্বিক) গণপতি রায় এছাড়াও উপস্থিতি মধ্যে বক্তব্য রাখেন পৌর মেয়র সৈয়দ আব্দুল রউফ মুক্তা। সঞ্চান করেন দোলোয়ার হোসেন পরিসংখ্যান কর্মকতা৷জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের কর্মকতা কানিজ ফাতেমা। কামিল হাসান সহকারী প্রকৌশলী পরিসংখ্যান অধিদপ্তরের কর্মকতা। পৌর কাউন্সিল রোমানা রেসমা। প্যানেল মেয়র নরুল হক, সৌরভ কুমার সাহা, সহকারী পরিচালক এলজিইডি সহ স্থানীয় সরকার বিভাগের সকল কমকর্তা বৃদ্ধ ও পৌরসভার সকলেই উপস্থিত ছিলেন।

আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




প্রধানমন্ত্রীর সাথে একবার দেখা করতে চায় মোনায়েম

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ ফেব্রুয়ারী 2০২4 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০৫জন দেখেছেন

Image

সাহিদা সাম্য লীনা ফেনী:ফেনী দাগনভূইয়ার সেই মোনায়েম ।দাগনভূইয়া ও ফেনীর অনেক সংবাদকর্মী তাকে চিনে জানে। ২০১৯ সালে সে সবার নজর কাড়তে সক্ষম হয়।দাগনভুইয়ার উজ্জীবক আর্ট স্কুলে তার শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন ভূইয়ার কাছে সে আর্ট শিখে।সেখান থেকেই মূলত তার উঠে আসা।

দাগনভূ ইয়ার কয়েকজন সাংবাদিক তাকে নিয়ে প্রচুর লেখালেখি করে। সে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে বিশেষ ভালবাসা অর্জন করে। ২০২১ সালে ফেনী জেলা পুলিশের আয়োজনে যেমন পুলিশ চাই শীর্ষক প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় স্থান অর্জন করে।

পৃথিবীতে এমন কিছু মানুষ জন্ম গ্রহণ করে।যারা তাদের মেধা দিয়ে চারপাশের মানুষকে তাক লাগিয়ে দেয়। জন্মগত ভাবে সেসব মানুষ হয়তো আর দশটা স্বাভাবিক মানুষের মতো সব অঙ্গ নিয়ে অর্থাৎ, হাত ,পা,চোখ নিয়ে আসতে পারে না। পৃথিবীতে আসলে আমরা তাদের নাম দেই বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশু বা মানুষ। ফেনী দাগনভূইয়ায় সেরকম একটা শিশু সবার নজর কাড়ে সে আব্দুল মোনায়েম।বাবা হারা ছেলেটি বাবাকে অতটা দেখেনি। প্রবাস জীবনে বাবার বেশীরভাগ সময় কাটে।একদিন পৃথিবীও ছেড়ে দেয় সে বাবা।মোনায়েম পা দিয়ে ছবি একে জেলা উপজেলা পর্যায়ে হয়েছে শ্রেষ্ঠ । কখনো প্রথম, দ্বিতীয় ,কোনবার তৃতীয় ।প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করতে

সক্ষম হয় মোনায়েম । প্রধানমন্ত্রী একটি ছবি পছন্দ করেন। কে একেছে জানার পর জানলেন ছেলেটি পা দিয়েই একেছে ছেলেটির হাত নেই। প্রধানমন্ত্রী বিস্মিত হয়ে তাকে ভালবাসা স্বরুপ পুরস্কার দেন নগদ একলাখ টাকা ও একটি ঘর। যদিও তারা এখনো তাদের ভাড়া বাসাটাতেই বসবাস করছে। মোনায়েমের ইচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর সাথে একটু দেখা করার । যখন পুরস্কারের অর্থ আনতে গিয়েছিল তখন প্রধানমন্ত্রীর সাথে তার দেখা হয়নি।

মোনায়েমের আক্ষেপ সে কেন প্রশাসণ থেকে আয়োজিত প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবে না আর ! সে একবার পুরস্কার পেয়েছে দেশের অনেক শিশুর ছবি থেকে প্রধানমন্ত্রী একটা ছবিকে পছন্দ করার

কারণে । সে তো এটা কোন প্রতিযোগিতায় জিতে অর্জন করেনি। তার ইচ্ছা তাকে সবসময় সব প্রতিযোগিতায় আকতে সুযোগ দেয়া। কারণ তার ছবি আকতে ভাল লাগে। মোনায়েম জানায় প্রতিযোগিতায় অংশ নিলে আমাকে পুরস্কার পেতেই হবে এমন কথা নেই। প্রধানমন্ত্রী যে ঘরটা ওর মায়ের নামে দিয়েছে তা যদি ভূমিহীন ভাবে না দিয়ে তাদের নামে দলিল করে বা অন্যত্র দিয়ে দিত থাকার মতো হতো তাদের। যেখানে ওই ঘরটি দেয়া সেখানে তাদের জন্য একা বসবাস ঝুকিপূর্ণ হয় জানায় মোনায়েমের মা। মোনায়েম দুই হাত ছাড়া শিশু। তার অপর সন্তানটি ছোট ।এমন অবস্থায় প্রধানমন্ত্রীর দেয়া বাড়ি তার কাজে আসছে না। থাকতে হচ্ছে ভাড়া বাড়িতে। আত্বীয়স্বজন সহ বর্তমান

স্বামীর সহযোগিতায়। এমন কোন ইনকাম তাদের নেই যে ভাড়া বাসায় তাদের জীবন চলে যাবে। প্রশাসন যদি ব্যাপারটাকে উপলব্দি করেন তাহলে এই পরিবারটির উপকার হয়। মোনায়েম বড় হয়ে সিভিল ইন্জিনিয়ার হতে চায়। পাশাপাশি ছবি আ কাকে ভালবাসে সে। প্রধানমন্ত্রীর

৭৭তম জন্মদিনে মোনায়েম একটি চিঠি লিখে । কিন্তু সে চিঠির জবাব এখনো আসেনি। মোনায়েমের মনোবল দৃ। সুযোগ পেলে সে অনেকদূর যেতে পারবে।


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪