Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

যশোরের মুজিব সড়ক থেকে উদ্ধার হওয়া মরদেহ ঝিকরগাছার আখির

প্রকাশিত:বুধবার ১০ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৮৫জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:যশোরের মুজিব সড়ক থেকে উদ্ধার হওয়া মরদেহের পরিচয় মিলেছে। উদ্ধার হওয়া মরদেহ আকিকুল ইসলাম অরফে আঁখি (৪৮) নামের এক ফল ব্যবসায়ীর। বুধবার ভোররাতে যশোর শহরের রেলগেট মডেল মসজিদ এলাকা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তিনি ঝিকরগাছার পায়রাডাঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা ও ঝিকরগাছা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ফল ব্যবসায়ী। এ ঘটনায় পুলিশ এক নারীকে আটক করেছে।

নিহতের স্বজনরা জানান, আখি মঙ্গলবার রাতে বাড়ি থেকে বের হয়ে বাড়ির সামনে চায়ের দোকানে যায়। এরপর থেকে তাকে আর ফোনে পাওয়া যায়নি । ভোর রাতে তার ছেলে আবির হোসেন ফেসবুকে জানতে পারেন বাবার মরদেহ যশোর শহরের মুজিব সড়ক এলাকায় পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে কোতোয়ালি থানার এস আই রফিক জানান, যশোর পৌরসভার ষষ্ঠীতলা (যশোর মডেল মসজিদের বিপরীত পার্শ্বে) মৃত সিরাজ আহমেদ এর বাড়ির সামনে গলিতে একজনের মৃতদেহ পড়ে আছে দেখে স্থানীয়রা থানায় সংবাদ দেয়। পরবর্তীতে তারা সেখানে গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে। তিনি আরোও জানান, তার ঘাড়ে আঘাতের চিহ্ন এবং মুখে বালু পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় ডিবি পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ঘটনাস্থলের পাশে বীর মুক্তিযোদ্ধা পাঞ্জু সরদার এর বাড়ির ভাড়াটিয়া সুফিয়া বেগম (৪২) নামে এক নারীকে আটক করে। বর্তমানে তার মৃতদেহ যশোর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের মর্গে রয়েছে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



শাহবাগ এলাকার জনসাধারণের ভোগান্তি কমাতে কাজ করছে টিআই মঞ্জুরুল আলম

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ২১০জন দেখেছেন

Image

কামাল হোসেন খানঃঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের(ট্রাফিক) যুগ্ম কমিশনার  মেহেদী হাসানের নির্দেশনায়, রমনা ট্রাফিক বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (অতিরিক্ত ডিআইজি) মোঃ জয়নুল আবেদীন এর তত্ত্বাবধানে ট্রাফিক শাহবাগ জোনের সহকারি পুলিশ কমিশনার মেহেদী হাসান শাকিল এর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ট্রাফিক পুলিশের শাহবাগ জোনের পরিদর্শক (শহর ও যানবাহন) এ কে এম মঞ্জুরুল আলম এর উদ্যোগে সড়কের শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে শাহবাগ মোড় থেকে আজিজ সুপার মার্কেট গ্যাপ পর্যন্ত মিডওয়ে আইল্যান্ডে বাঁশও কাঁটাতার দিয়ে বেরিয়ার তৈরি করেন। এবং এসব বেরিয়ার এর মধ্যে রিফ্লেক্টিভ স্টিকার সংযোজন করা হয়।যাতে জনসাধারণ বিশৃংখল ও অনিরাপদ ভাবে রাস্তা পারাপার না করতে পারে সেই সাথে ফুট ওভারব্রিজ ও জেব্রা ক্রসিং ব্যবহার করতে বাধ্য হন। রাস্তা পারাপারে সড়ক আইন মেনে চলে ফুট ওভারব্রিজ জেব্রা ক্রসিং ব্যবহারে সাধারণ মানুষের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ট্রাফিক পুলিশের এই কার্যক্রম প্রতিনিয়ত অব্যাহত আছে। এছাড়াও এসব এলাকায় ফুটপাত থেকে অবৈধ দখলদার ও হকার উচ্ছেদ করেন। এ সময় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের বহিঃ বিভাগ (পিজি-আউটডোর) ও বিসিএস একাডেমি গ্যাপ এলাকা হকার ও ভাসমান দোকান মুক্ত করা হয়। এর ফলে এই হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা রোগী ও জনসাধারণের নির্বিঘ্নে চলাচল সুনিশ্চিত করা হয়। ইতোপূর্বে উক্ত এলাকাটি হকার ও ভাসমান দোকান এবং অবৈধ পার্কিংয়ের কারণে জনসাধারণের চলাচলে বিপত্তি ঘটতো। ট্রাফিক পুলিশের অভিযানে এসব এলাকায় অবৈধ পার্কিং ও হকার উচ্ছেদের কারণে সড়ক গুলোতে শৃঙ্খলা ফিরে এসেছে। এতে করে পথচারীদের চলাচলে অনেকটাই স্বস্তি ফিরে এসেছে।

ট্রাফিক রমনা বিভাগের অন্তর্গত শাহবাগ জোনের টিআই এ.কে.এম মঞ্জুরুল আলম জানান"ট্রাফিক পুলিশের এই ধরনের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।"

শাহবাগ এলাকার গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি অবৈধ ভাসমান দোকান ও হকারমুক্ত হওয়ায় এবং মিডওয়ে আইল্যান্ডে বাঁশও কাঁটাতার দিয়ে বেরিয়ার দিয়ে সড়কটি পথচারীদের চলাচলের জন্য নির্বিঘ্ন করায় মানুষের কাছে প্রশংসা পেয়েছে রমনা ট্রাফিক বিভাগ।


আরও খবর

রাজধানীতে তাজিয়া মিছিল শুরু

বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪




পদ্মা সেতু রক্ষণাবেক্ষণে হচ্ছে নতুন কোম্পানি

প্রকাশিত:সোমবার ০১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৪৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:সরকার আলাদা একটি কোম্পানি গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে পদ্মা সেতু পরিচালনা ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য । কোম্পানির অনুমোদিত মূলধন হবে এক হাজার কোটি টাকা। শতভাগ মালিকানাধীন এই কোম্পানির মূল দায়িত্ব থাকবে পদ্মা সেতুর টোল আদায়সহ পরিচালনার কাজ।

সোমবার (১ জুলাই) মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে ‘পদ্মা ব্রিজ অপারেশন অ্যান্ড মেইনটেন্যান্স কোম্পানি, পিএলসি’ গঠনের প্রস্তাব অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা। সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বৈঠকের সিদ্ধান্ত জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, বৈঠকে পদ্মা ব্রিজ অপারেশন অ্যান্ড মেইনটেনেন্স কোম্পানি পিএলসি’ শিরোনামে শতভাগ সরকারি মালিকানাধীন কোম্পানি গঠনের প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সেতু বিভাগ থেকে এই প্রস্তাব করা হয়েছিল। তিনি আরও জানান, কোম্পানির অনুমোদিত মূলধন হবে এক হাজার কোটি টাকা। কোম্পানির মূল দায়িত্ব থাকবে পদ্মা সেতুর রক্ষণাবেক্ষণ। মন্ত্রিপরিষদ সচিব মাহবুব হোসেন বলেন, কোম্পানি আইন অনুযায়ী এই কোম্পানি গঠন করা হচ্ছে। এই বোর্ডে থাকবেন ১৪ জন। তারা জনবল কাঠামো ঠিক করবে। বোর্ডে সেতু বিভাগ, অর্থ বিভাগসহ বিভিন্ন পর্যায়ের প্রতিনিধিরা থাকবেন। বর্তমানে বিদেশি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে থাকা চুক্তি শেষ হওয়ার পরই, নতুন এই কোম্পানির বাস্তবায়ন হবে বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মাহবুব হোসেন।

২০২২ সালের ২৫ জুন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা বহুমুখী সেতু উদ্বোধনের পর থেকে দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলা ও দেশের সার্বিক অর্থনৈতিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।


আরও খবর



বিশ্বমানের এল. জি. টিভি তৈরি করবে র‍্যানকন ইলেকট্রনিক্স

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৬০জন দেখেছেন

Image

প্রযুক্তি ডেস্ক:এবার দেশে টেলিভিশন শিল্পে যোগ হলো আর একটি নতুন অধ্যায়। টেলিভিশন উৎপাদনে র‍্যানকন ইলেকট্রনিক্স লিমিটেড এর সাথে ফ্যাক্টরি উদ্বোধন করলো এলজি ইলেক্ট্রনিক্স। এখন থেকে এলজি ব্রান্ডের সকল লেটেস্ট মডেলের স্মার্ট টেলিভিশন উৎপাদন হবে গাজীপুরে সাত লক্ষ স্কয়ার ফিট জায়গা জুড়ে গঠিত র‍্যানকন ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে।

টেলিভিশন উৎপাদনে এরই মধ্যে র‍্যানকন ইলেকট্রনিক্স লিমিটেড তাদের সক্ষমতা প্রমাণ করেছে।প্রতিষ্ঠানটির রয়েছে অত্যাধুনিক টিভি ম্যানুফ্যাকচারিং প্লান্ট। দেশে স্মার্ট টেলিভিশনের বাজারও বড় হচ্ছে। গত ১১ বছর ধরে ওলেড টেলিভিশনের ক্ষেত্রে এলজি সারা বিশ্বে শীর্ষস্থানে রয়েছে।

দক্ষিণ কোরিয়াভিত্তিক এলজি কোম্পানির বিভিন্ন আকারের এবং মডেলের টেলিভশন বাজারজাত করবে র‍্যানকন ইলেকট্রনিক্স। জানা গিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি দেশের বাজারে বছরে প্রায় ১ লক্ষ্য গ্রাহক চাহিদা মেটাতে সক্ষ্যম হবে।

এই অনুষ্ঠানে র‍্যানকন ইলেকট্রনিক্স লিমিটেডের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির গ্রুপ এমডি- রোমো রউফ চৌধুরী, এমডি- ফারহানা করিম, বিভাগীয় পরিচালক- ইমরান জামান এবং নির্বাহী পরিচালক কাজী আশিক উর রহমান। এলজি ইলেকট্রনিক্সের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন আঞ্চলিক সিইও- জা সেউং কিম, সিঙ্গাপুর এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর (এমডি)- সুংহো চুন এবং বাংলাদেশ এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর (এমডি)- পিটার কো।

অনুষ্ঠানে র‍্যানকন ইলেকট্রনিক্স লিমিটেডের গ্রুপ ম্যানেজিং ডিরেক্টর রোমো রউফ চৌধুরী বলেন, “আমরা সাশ্রয়ী মূল্যে এবং দেশব্যাপী সেবার মাধ্যমে এলজি ব্র্যান্ডটিকে বাংলাদেশের জনগণের মাঝে পৌছে দিতে চাই” ।

এলজি ইলেকট্রনিক্স এর আঞ্চলিক সিইও- জা সেউং কিম বলেন, “বাংলাদেশ মার্কেট আমাদের জন্য অনেক গুরুতপূর্ন এবং প্রতিটি ঘরে ঘরে বিশ্বসেরা প্রযুক্তি পৌঁছে দেওয়াই আমাদের লক্ষ্য।


আরও খবর



উলিপুরে তিস্তায় নৌকাডুবির ঘটনায় ২৪ ঘন্টা পরেও ৬ জনকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৪৩জন দেখেছেন

Image
সহিদুল আলম বাবুল, কুড়িগ্রাম ব্যুরো:কুড়িগ্রামের উলিপুরে ঈদের তৃতীয় দিন সন্ধ্যার পূর্বক্ষণে তিস্তা নদীতে নৌকা ডুবির ঘটনা ঘটে lসরেজমিনে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নৌকায় শিশু ও নারীসহ ২৬ জন যাত্রী ছিল lএ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ডুবে যাওয়া নৌকার এক শিশুর মৃতদেহ ও ১৯ জন যাত্রীকে জীবিত উদ্ধার হলেও ঘটনার প্রায় ২৪ ঘন্টা পরেও একই পরিবারের ৪ জনসহ ৬ জনকে খুঁজে পাওয়া যায়নি lঘটনার পর পরই উলিপুর উপজেলা প্রশাসন, ফায়ার সার্ভিস, থানা প্রশাসন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন l

রাতেই ফায়ার সার্ভিসের লোকজন উদ্ধার কাজের জন্য ঘটনাস্থলে এসেছিলেন l বৈরী আবহাওয়ার কারণে উদ্ধার কাজে কিছুটা বিঘ্ন ঘটে lআজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দল নিখোঁজদের উদ্ধারের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন lঘটনাস্থলের প্রত্যক্ষদর্শী ও নিখোঁজদের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গতকাল বুধবার বিকেল পাঁচটার দিকে উলিপুর উপজেলার বজরা ইউনিয়নের পশ্চিম বজরা ঘাট থেকে ভাড়া করা একটি ইঞ্জিন চালিত ছোট শ্যালো নৌকা যোগে ২৬ জন যাত্রী যাত্রা শুরু করে l

উদ্দেশ্য ছিল উপজেলার থেতরাই ইউনিয়নের বিরহীমের চর এলাকায় বিয়ের এক বছর পর সাগাই ফিরাইনি দাওয়াত খাওয়া lবজরা ঘাট থেকে নৌকা ছেড়ে দেয়ার পর তিস্তার প্রবল স্রোতের বিপরীত দিকে প্রায় ২ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে নৌকাটি l  নৌকাটি একই ইউনিয়নের সাদুয়া দামার হাট নামক স্থানের বিপরীত পাড়ে অর্থাৎ  আলিবাবা থিম পার্কের সন্নিকটে পৌঁছাতেই প্রবল স্রোতের মুখে পড়ে l এ সময় নদীতে বৈরী আবহাওয়া বিরাজ করছিল l ফলে মুহূর্তের মধ্যেই নৌকাটি ডুবে যায় lতাৎক্ষণিকভাবে ১০ জন যাত্রী সাঁতরিয়ে  তীরে পৌঁছায় l

খবর পেয়ে দ্রুত উলিপুর ফায়ার সার্ভিসের টিম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আতাউর রহমান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সাজাদুর রহমান তালুকদার সাজু, উলিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গোলাম মর্তুজা রাতের বেলায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন lখবর পেয়ে রাতেই জেলা প্রশাসক মোঃ সাইদুল আরিফ, পুলিশ সুপার আল আসাদ মোঃ মাহফুজুল ইসলামসহ ফায়ার সার্ভিসের জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন lপরবর্তীতে আরও ৯ জনকে জীবিত উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে l এদের মধ্যে চারজনকে উলিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয় l

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ ভর্তিকৃতরা হলেন, আনজু বেগম (৪৫), চায়না বেগম (২৪),শরিফা বেগম ( ২৫), ও রাশেদা বেগম (৪৮) lওই রাতের মধ্যেই ১৩/১৪  মাস বয়সী আয়েশা সিদ্দিকা নামের এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস lআয়েশা সিদ্দিকার মা চায়না বেগম (২৪) ও পিতা আজিজুল হককে উদ্ধার করা সম্ভব হলেও তাদের আরেক সন্তান শামীম (৭) এখন পর্যন্ত নিখোঁজ রয়েছে l  উদ্ধারের পর অসুস্থ চায়না বেগমকে উলিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয় lতাদের বাড়ি বজরা ইউনিয়নের মিয়াজি পাড়া গ্রামে l

অপরদিকে, পশ্চিম বজরা এলাকার একই পরিবারের চারজন এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত  নিখোঁজ রয়েছে, নিখোঁজরা হলেন, আনিসুর রহমান (২৫), আনিসুর রহমানের স্ত্রী রূপালী বেগম (২৩), তাদের একমাত্র দশ বছরের কন্যা সন্তান আইরিন বেগম, এবং রুপালির বোনের সন্তান ইরামনি(৯),এছাড়াও নিখোঁজের তালিকায় রয়েছে, কয়জল এর পাঁচ বছরের কন্যা সন্তান কুলসুম l
এদিকে, আজ ২০ জুন বৃহস্পতিবার দুপুর বেলা ২৭ কুড়িগ্রাম-৩ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য সৌমেন্দ্র প্রসাদ পান্ডে গবা,  উলিপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, উলিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আবু সাঈদ সরকার পশ্চিম বজরা তিস্তা নদীর ঘাট পরিদর্শনে যান l এ সময় ফায়ার সার্ভিসের একটি ডুবুরি দল নিখোঁজদের উদ্ধারে পশ্চিম বজরার ঘাট এলাকায় অভিযান করার জন্য অপেক্ষা করছিলেন l দুপুর আড়াইটার দিকে পশ্চিম বজরা ঘাট এলাকায় নৌ পুলিশের একটি নৌকা পৌঁছায় lশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিখোঁজ ৬ জনকে উদ্ধারের জন্য ফায়ার সার্ভিসের একটি চৌকস ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রেখেছে l

আরও খবর



রূপগঞ্জে পূর্বশত্রুতার জেরে যুবককে কুপিয়ে জখম

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৫৪জন দেখেছেন

Image

আবু কাওছার মিঠু রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধিঃনারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে পুর্বশত্রুতার জেরে নুর আলম (২৪) নামে এক যুবককে কুপিয়ে জখম ও বাড়িঘর ভাংচুরের  ঘটনা ঘটেছে। গত ২৪ জুন সোমবার বিকেলে উপজেলার তারাবো পৌরসভার যাত্রামুড়া টাটকী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত নুর আলম যাত্রামুড়া টাটকী এলাকার  তোফাজ্জল হোসেন মিয়ার ছেলে। এ ঘটনায় আহতের বড় ভাই শাহীন মিয়া বাদী হয়ে  শাহিন ওরফে ডিস শাহিন (৩০), রফিক খান (৩০), রুবেল ভুইয়া (৩৫)।

শ্রাবণ (২০), মেহেদী (২৪), শান্ত (২৪), কাজল (২৫), হৃদয় (২২), মারুফ (১৯), বাদন মিয়া (২২), জাকির (৩৫), সাহেদ (২৩), হাসান (১৯), নিরব (২০) ও মোসাঃ সাথি আক্তারসহ (২৮) আরো অজ্ঞাত ১০/১৫ জনকে আসামী করে রূপগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, গত ২৪ জুন বিকেলে পূর্বশত্রুতার জেরে ২৫/৩০ সদস্যের এক দল সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র রাম দা, চাপাতি, চাইনিস কুড়াল, সুইচ গিয়ার, ছেন, দা, এসএস পাইপ ও লোহার রড নিয়ে টাটকি এলাকার তোফাজ্জল হোসেনের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ঘরের আসবাবপত্র ভাংচুর করে।

এসময় তোফাজ্জল হোসেনের ছোট ছেলে নুর আলম বাধা দিলে সন্ত্রাসী তাকে এলোপাথারিভাবে পিটিয়ে ও শরীরের বিভিন্নস্থানে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। এসময় তার ডাক-চিৎকারে আশপাশের লোকজন ও তার মা মোসাঃ তলেমান নেছা এসে তাকে গুরুতর অবস্থায় উদ্বার করে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়।এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ওসি দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে আসামিদের গ্ৰেফতারে পুলিশ তৎপর রয়েছে ।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর