Logo
আজঃ বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

যশোরে মরা গরু জবাই করার সময় তিনজন আটক

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৬৯জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান:মরা গরু জবাই করাকালে যশেরের রাজারহাটে  তিন গোস্ত ব্যবসায়ীকে আটক করে স্থানীয়রা পুলিশি সোপর্দ করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার রাত ২টার পর রাজারহাট-কচুয়া ব্রীজের পাশে। পরে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে তাদের কাছ থেকে জরিমানা আদায় করা হয়েছে। আটককৃতরা হলো, যশোর সদরের আবাদ কচুয়া গ্রামের গোস্ত ব্যবসায়ী মিন্টু মোল্লা সহ ও তার সহকারী একই গ্রামের আজিজুর রহমান ও শীতারামপুর গ্রামের শফিকুল ইসলাম।

স্থানীয়রা জানায়,  ব্রীজের পাশে সোমবার বিকেলে একটি অসুস্থ গরু আনা হয়। গরুটি সন্ধ্যার পর মারা যায়। যা অনেকেই জানতো । গভীর রাতে ওই মরা গরু জবাই দেয় ঐ তিন ব্যবসায়ী। গরুর চামড়া খুলে গোস্ত আলাদা করার প্রক্রিয়া শুরু করলে স্থানীয়রা একট্টা হয়ে প্রতিবাদ জানায়। কিন্তু তারা এতে কর্ণপাত করে না। বাধ্য হয়ে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। এ বিষয়ে এসআই সাইমন হোসাইন জানান, খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থলে যান। পরবর্তিতে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করা হয়।

এ বিষয়ে সহকারী কমিশনার (ভুমি) মাহামুদুল হাসান বলেন, গরুটি মারাত্মক অসুস্থ্য ছিলো। অল্প টাকায় গরুটি কেনা হয়েছিলো। কিন্তু মৃত ছিল কিনা সেটা স্পষ্টভাবে বলা যাচ্ছে না। তিনি আরও বলেন, পশু জবাই আইন ও নিরাপদ গোস্ত আইনে ব্যবসায়ী মিন্টু মোল্লাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। একই সাথে তাদেরকে সতর্ক করা হয়েছে। এ ধরণের কর্মকান্ড ফের করলে কারাদন্ড দেয়া হবে বলে তিনি জানান।


আরও খবর

ঢাকায় মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ২৬

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ড. ইউনূসের বিচার নিয়ে যা বললেন মিলার

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯২জন দেখেছেন

Image

খবর প্রতিদিন ২৪ডেস্ক :শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী অধ্যাপক ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে শ্রম আইনের মামলায় অস্বাভাবিক গতিতে বিচার করা হয়েছে, বলেছেন মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার ।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

মিলার বলেন, অধ্যাপক ড. ইউনূসকে হয়রানি ও ভীতি প্রদর্শন করা হচ্ছে। এ নিয়ে সারা বিশ্ব থেকে যে ব্যাপক নিন্দা জানানো হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রও তার সঙ্গে আছে। বাংলাদেশের শ্রম আইন ব্যবহার করে তাকে হয়রানি ও ভীতি প্রদর্শন করা হচ্ছে বলে আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকরা উদ্বেগ জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রও এ বিষয়ে উদ্বিগ্ন।

তিনি বলেন, আমরা উদ্বিগ্ন যে, শ্রম আইন এবং দুর্নীতি বিরোধী আইনের অপব্যবহারের ফলে আইনের শাসন নিয়ে প্রশ্ন উঠতে পারে এবং ভবিষ্যতে সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগ রোধ করতে পারে। যেহেতু আপিল প্রক্রিয়া চলমান তাই বাংলাদেশ সরকারকে এ বিষয়ে সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ আইনি প্রক্রিয়া নিশ্চিত করতে উৎসাহিত করি।


আরও খবর



ডোমার থানা পুলিশের উদ্যোগে অসহায় শীতার্ত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১১৭জন দেখেছেন

Image

আনিছুর রহমান মানিক, ডোমার (নীলফামারী):নীলফামারীর ডোমার থানা পুলিশের উদ্যোগে এলাকার ৫শতাধীক অসহায় ও শীতার্ত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ চায়না ফ্রেন্ডসিপ সেন্টারের সহযোগিতায় বুধবার (৩১ জানুয়ারি) বিকালে ডোমার ইসলামিয়া ফাযিল মাদ্রাসা মাঠে ডোমার থানার এসআই রেজানুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বিতরণ কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন নীলফামারী জেলা পুলিশ সুপার মোঃ গোলাম সবুর (পিপিএম সেবা) মহোদয়। ডোমার থানার অফিসার ইনচার্জ আবু সাঈদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসাবে সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) আলী মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, বাংলাদেশ চায়না ফ্রেন্ডসিপ সেন্টারের কালচারাল কাউন্সিল লিউ এন ইউ, জেনারেল সেক্রেটারী এইচ এম জাহাঙ্গীর আলম রানা, ডোমার ইসলামিয়া ফাযিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওঃ শামসুদ্দিন হোসাইনী প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

নীলফামারী জেলা পুলিশ সুপার মোঃ গোলাম সবুর (পিপিএম সেবা) জানান, চায়না আমদের পরিচিত বন্ধু, দেশের অবকাঠামো উন্নয়নের জন্য তারা অনেক কাজ করে যাচ্ছে, আমাদের ডাকে সাড়া দিয়ে ডোমার এলাকার ছিন্নমুল মানুষকে সহযোগিতা করায় জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন তিনি। চায়না ফ্রেন্ডসিপ সেন্টারের কালচারাল কাউন্সিল লিউ এন ইউbবলেন, বাংলাদেশ এবং চায়নার মধ্যে একটা বন্ধুত্বের সর্ম্পক রয়েছে। চায়না ফ্রেন্ডসিপ সেন্টারের মাধ্যমে আমরা অনেক প্রোগ্রাম করে থাকি এরই ধারিবাহিকতায় উত্তর অঞ্চলের মানুষের কথা চিন্তা করে ৩টি জেলায় ১ হাজার ৫ শত জন অসহায় মানুষকে এ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




দয়ারামপুর সিরাজুল হক দাখিল মাদ্রাসায় দাখিল পরিক্ষার্থীদের বিদায় ও দোয়া

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৭৮জন দেখেছেন

Image

(বগুড়া) প্রতিনিধিঃবুধবার বগুড়ার গাবতলী বালিয়াদীঘির দয়ারামপুর সিরাজুল হক দাখিল মাদ্রাসার দাখিল পরীক্ষার্থীদের বিদায় উপলক্ষে আলোচনা সভা শেষে দোয়া মাহফিল ও শিক্ষা উপকরন বিতরন করা হয়েছে। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন অত্র মাদ্রাসার সভাপতি ও গ্রীন কলাকোপা এষ্টেট এর মহাপরিচালক বেগম শামসুন নাহার জামান তালুকদার। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন দৈনিক উত্তর কোণ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাহেদুজ্জামান সিরাজ বিজয়। অত্র মাদ্রাসার সুপার মাওঃ মোসলেম উদ্দিনের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন গ্রীন কোলাকোপা এষ্টেট পরিচালক তাহরিমা আফরিন তমা, সার্দাদুজ্জামান তালুকদার জাওয়াদ, ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ইউসুফ আলী সরকার, আছমা বেগম, মোকছেদ আলী, মোঃ রবিন মিয়া, শিক্ষার্থী আতিকুল রহমান প্রমূখ। শেষে ১ম শ্রেনী থেকে ১০শ্রেণী পর্য়ন্ত ১ম, ২য় ও ৩য় স্থান অধিকারী মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে সাবেক এমপি ‘আলহাজ্ব হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু’ স্মরণীয় পুরস্কার বিতরণ করা হয়। 


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




তানোরে শীতবস্ত্র হিসেবে কম্বল বিতরণ

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯৫জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:রাজশাহীর তানোর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান উপজেলা যুবলীগের সভাপতি লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না আদিবাসী সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার অসহায় দুস্থ দের মাঝে কম্বল বিতরণ করেছেন। সোমবার বিকেলের দিকে পৌর সদর গোল্লাপাড়া বাজারস্থ দলীয় কার্যালয়ে ৫০ জন শীতার্ত বয়োজ্যেষ্ঠ মহিলা পুরুষের মাঝে এমপি ফারুক চৌধুরী পক্ষে কম্বলগুলো বিতরণ করেন। এসময় পৌর আওয়ামী লীগ নেতা প্রতাপ সরকার, তারেক সরকার, সাবেক কাউন্সিলর আব্দুল লতিফ, ৫ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আশরাফুল ইসলাম, মৎসজীবি লীগ নেতা ইদ্রিস, শাবানসহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।  সেখান থেকে তিনি পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ড বেলপুকুরিয়া আদিবাসী সম্প্রদায়ের মাঝে ৫০ টি কম্বল বিতরণ করেন। সন্ধ্যার পরে চান্দুড়িয়া ইউনিয়ন ইউপির রাতৈল গ্রামেও ৫০ টির মত কম্বল বিতরণ করেন। এসময় ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান সহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। 

এদিকে সোমবার সকালের দিকে তানোর পৌর ভবনে ৩০০ জন শীতার্ত দের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন পৌর মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ইমরুল হক। এসময় প্যানেল মেয়র আরব আলী, সংরক্ষিত কাউন্সিলর মমেনা আহম্মেদ, জুলেখা বেগম, কাউন্সিলর রোকনুজ্জামান জনি, হাবিব সরকার, লিয়াকত, অফিস সহকারী ওমর আলী, কার্যসহকারী অহেদুজ্জামান বাবু, মাহাবুর রহমান, আব্দুর রাজ্জাক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আরও খবর



মিয়ানমারে বিজিপিসহ ৩৩০ জনকে হস্তান্তর

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৮৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আরাকান আর্মির সাঁড়াশি আক্রমণের মুখে প্রাণভয়ে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা মিয়ানমারের সেনা, সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সদস্য, শুল্ক কর্মকর্তাসহ ৩৩০ জনকে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে তথ্য যাচাই-বাছাই শেষে তাদের কক্সবাজারের উখিয়ার ইনানী নৌবাহিনী জেটিঘাট থেকে জাহাজে তোলা হয়।

এ সময় সেখানে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামান সিদ্দিকী ও বাংলাদেশে নিযুক্ত মিয়ানমার রাষ্ট্রদূত অং কিয়াও মোয়ে উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে, সকাল ৯টা ৫০ মিনিটে মিয়ানমারের ৫ সদস্য বিশিষ্ট বিজিপি প্রতিনিধি দল কক্সবাজারের ওই জেটিঘাটে এসে পৌঁছায়। ওই জাহাজটি থেকে মিয়ানমারের ৫ সদস্যের প্রতিনিধি দলটিকে কোস্টগার্ডের একটি জলযান ইনানী জেটিঘাটে নিয়ে আসে। এ সময় তাদের স্বাগত জানান বিজিবির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বিজিবির জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. শরীফুল ইসলাম।

এদিকে ভোরে বান্দরবানের নাইক্ষ্যমছড়ি উপজেলার ঘুমধুম সীমান্ত ও টেকনাফ থেকে বিজিবির কড়া পাহারায় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সদস্য, শুল্ক কর্মকর্তাসহ ৩৩০ জনকে কক্সবাজারের ইনানীর নৌ-বাহিনীর জেটিঘাটে আনা হয়। সেখানে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মিয়ানমার বিষয়ক পরিচালক মো. রাকিবুল ইসলাম, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের উপ-সচিব মো. রাশেদ হোসেন চৌধুরী, বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামান সিদ্দিকী এবং মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতসহ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, গত ২ ফেব্রুয়ারি রাত থেকে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার সীমান্তের ওপারে বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মির সঙ্গে মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপির সংঘর্ষ শুরু হয়। যুদ্ধের মধ্যে বিদ্রোহীরা বিজিপির কয়েকটি সীমান্ত ফাঁড়ি দখল করে নিলে মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সদস্যরা ৪ ফেব্রুয়ারি সকাল থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে শুরু করে। এসময় তাদের নিরস্ত্র করে বিজিবি হেফাজতে রাখা হয় ঘুমধুমের একটি স্কুলে। পরে তাদের মধ্যে ১০০ জনকে সরিয়ে নেওয়া হয় টেকনাফে।


আরও খবর