Logo
আজঃ Monday ০৩ October ২০২২
শিরোনাম
ভুয়া ডাক্তারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া জরুরী

যাত্রাবাড়ি কোনাপাড়ায় এ্যাপোলো ডেন্টাল কেয়ারে একে এম ফিরোজ সিকদার ডাক্তার সেজে রোগী দেখে

প্রকাশিত:Saturday ১৭ September ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৩ October ২০২২ | ১০৪জন দেখেছেন
Image

সোহরাওয়ার্দীঃ

রাজধানীর যাত্রাবাড়ি কোনাপাড়া এলাকায় এ্যাপোলো ডেন্টাল কেয়ার নামক নামসর্বস্ব হাতুড়ে দন্ত চিকিৎসক ডাঃ একে এম ফিরোজ সিকদার ক্লিনিকে রোগী দেখছেন।বিএম ডিসির তালিকাভুক্ত না হয়েও তিনি নামের আগে ডাক্তার শব্দ ব্যাবহার করে রোগীদের কাছ থেকে প্রতারনার মাধ্যমে হাজার হাজার টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন।


তিনি নিজেকে ডাক্তার হিসেবে পরিচয় দিচ্ছেন, আবার প্রেসক্রিপশন প্যাডেও নামের আগে ডাক্তার লিখছেন। এ ডেন্টাল ক্লিনিকে অপচিকিৎসার শিকার হচ্ছেন সাধারণ রোগীরা।তার অপচিকিৎসার শিকার হয়ে অনেক ভুক্তভোগীর মাড়ি ইনফেকশন সহ মুখের ক্যান্সারে ভুগছেন।

কোনাপাড়ায় দাঁতের চিকিৎসা দিয়ে আসছেন দীর্ঘদিন ধরে এ্যাপোলো ডেন্টাল কেয়ার নামের একটি প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী একে এম ফিরোজ সিকদার বলেন, আমার প্রতিষ্ঠানে বিডিএস দন্তচিকিৎসক দিয়ে দাঁতের সব ধরনের চিকিৎসা করানো হয। ওই চিকিৎসকের সহকারী হিসেবে আমি কাজ করি। 


একে এম ফিরোজ সিকদার নিজেই অবৈধ ডেন্টাল ক্লিনিক এর ব্যবসা পরিচালনা করে যাচ্ছেন। তিনি দাতের ডাক্তার না হয়েও নামের আগে ডাক্তার লিখে ব্যানার, পোস্টার ও সাইনবোর্ড লাগিয়েছেন। তিনি নিজেও রোগী দেখেন না। রোগী দেখান তার কর্মচারী দিয়ে। জানা যায়,তার দন্ত চিকিৎসার কোনো বৈধ কাগজপত্র নেই; এমনকি একাডেমিক সার্টিফিকেটও নেই।


গণমাধ্যমে একে এম ফিরোজ সিকদার এর প্রকৃত চিত্র যাতে উঠে না আসে সেই জন্য ফিরোজ সিকদার বিভিন্ন জায়গায় দৌড় ঝাপ শুরু করেছেন। ফিরোজ ডেন্টাল থেকে কাজ শিখে নিজে চেম্বার দিয়েছেন ডাক্তার সেজে রোগীদের সরবনাশ করে চলেছেন। দীর্ঘদিন ধরে তিনি এই পেশার সাথে সম্পৃক্ত।ডাক্তারী একটি মহান পেশা,সেই পেশাকে কলুষিত করে রাতারাতি আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ বনে গেছেন তিনি।


তিনি জানান, প্রশাসনের কোনো নজরদারি না থাকায় আমরা আমাদের মতো করেই রোগী দেখছি। কাগজপত্র কেউ দেখতেও চায়না এইজন্য করাও হয়নি। তার চেম্বারে অত্যন্ত অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ লক্ষ করা যায়। অপরদিকে ভূয়া ডাক্তার ফিরোজ সিকদার নিজেকে এত বড় ডাক্তার ভাবেন যে রীতিমত এ নিয়ে তিনি অহংকার করে বেড়ান।এতে করে সাধারণ রোগীরা অর্থ ব্যয় করেও সুচিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। অথচ এইসব ভূয়া ডাক্তারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দায়িত্বে যারা আছেন তারা এসব দেখেও দেখেন না ।

ঢাকার সিভিল সার্জন আবুল ফজল মোঃ সাহাবুদ্দিন বলেন, অতিসত্তর ভুয়া ডাক্তার এবং অবৈধ ডেন্টাল ক্লিনিক এর ব্যাপারে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে,আইন বহির্ভূতভাবে যে সকল ডেন্টাল ক্লিনিক তাদের ব্যবসা পরিচালনা করছেন তাদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। কাউকেই যেখানে সেখানে নিয়মবহির্ভূতভাবে দন্ত চিকিৎসা করার কোনো সুযোগ দেওয়া হবে না।


আরও খবর