Logo
আজঃ শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩
শিরোনাম

যাত্রাবাড়ীতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ৩৫৩জন দেখেছেন

Image

সোহরাওয়ার্দীঃ রাজধানী যাত্রাবাড়ী থানা এলাকার বিদ্যুৎ গলির ১৪৭/৭/৬ হোল্ডিং এর একটি বাড়িতে বিবাদীর শয়নকক্ষে নিয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে যাত্রাবাড়ী থানায় ১১ মার্চ শনিবার একটি মামলা রজ্জু হয়েছে। মামলার আসামি সাকিব (৩৫) কে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে পুলিশ। সাকিব যাত্রাবাড়ী এলাকার মাওলানা আব্দুল আউয়াল এর পুত্র। তার পিতা মোহাম্মদপুরের একটি জামে মসজিদের ইমাম। যাত্রাবাড়িতে সাকিব কিচেন নামে বিবাদীর একটি ফাস্টফুডের দোকান রয়েছে। বিবাদী বিবাহিত তার স্ত্রী বিক্রমপুরে পিতার বাড়িতে অবস্থান করছিলেন। তিনি নয় মাসের অন্তঃসত্তা।

যাত্রাবাড়ী থানার অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী ওই নারীর পুর্ব পরিচিত সাকিব। ঘটনার দিন দুপুর তিনটার দিকে বিয়ের প্রলোভণ দেখিয়ে এলাকার বিদ্যুৎ গলির উল্লেখিত হোল্ডিংয়ে ডেকে নিয়ে যায় ভুক্তভোগী ওই নারীকে। একপর্যায়ে শাকিব ভুক্তভোগীকে তার শয়ন কক্ষে ডেকে নিয়ে জোরপূর্বক শরীরের জামা কাপড় খুলে বাদিনীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে তাকে ধর্ষণ করে। এই ঘটনায় হত বিহবল হয়ে পড়ে ওই নারী। পরে ঘটনার বিষয়টি তার পরিচিত আত্মীয়-স্বজনকে জানালে যাত্রাবাড়ী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়। ভুক্তভোগী ওই নারীর অভিযোগ পেয়ে ঐদিন রাতেই আসামিকে গ্রেফতার করে যাত্রাবাড়ী থানা পুলিশ। 

যাত্রাবাড়ী থানার এসআই আব্দুর রহমান ঘটনার বিষয়ে দৈনিক সকালের সময়কে জানান, ভুক্তভোগী ওই নারী যাত্রাবাড়ী থানায় অভিযোগ করলে ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের নির্দেশে আসামিকে গ্রেফতার করে কোর্টে প্রেরণ করি, পরে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে বিবাদীকে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

ধর্ষণের পর বিবাদী সাকিব টাকা পয়সার বিনিময়ে ধর্ষণ মামলাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে।

ভুক্তভোগী ওই নারী বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলার দেশান্তর কাঠি গ্রামের মোঃ আবুল কাসেমের মেয়ে।


 


আরও খবর

ডেঙ্গুতে ৮ মৃত্যু, হাসপাতালে ১৭৯৩

শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩




বাগেরহাটে ২২ গ্রাম বাল্য বিবাহ মুক্ত ঘোষনা

প্রকাশিত:শুক্রবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ৫২জন দেখেছেন

Image

বাগেরহাট প্রতিনিধি:বাগেরহাটের রামপালে নানা আয়োজনে ২২ গ্রামকে বাল্য বিবাহ মুক্ত ঘোষনা করা হয়েছে। এছাড়াও আরও ৪ গ্রামকে পরিস্কার পরিছন্নতা ও স্বাস্থ্যসম্মত গ্রাম হিসাবে ঘোষনা করা হয়। আগামীতে নিজ সংসদীয় আসন রামপাল ও মোংলা উপজেলাকে বাল্য বিবাহ মুক্ত ঘোষনা করা হবে বলে জানান উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার। বৃহস্পতিবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকালে গ্রাম উন্নয়ন কমিটি ও ইয়ুথ ভিজিলিয়েন্স টিমের আয়োজনে বাবুরবাড়ি দূর্গামন্দির চত্তরে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রনালয়ের উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার এই ঘোষনা দেন। রামপাল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সেখ মোয়াজ্জেম হোসেনে সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান হোসনেয়ারা মিলি, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসএম আশরাফুল আলম, হুড়কা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বাবু তপন কুমার গোলদার, উন্নয়ন সংস্থা ওয়ার্ল্ড ভিশন ফিল্ট অপারেশন উপ- পরিচালক রাজু উইলিয়াম রোজারিও, রামপাল এরিয়া সিনিয়র ম্যানেজার ফুলি সরকারসহ আরও অনেকে। আয়োজকরা জানান, বাল্যবিয়ে বৃদ্ধির ক্রমবর্ধমান হারের লাগাম টেনে ধরতে মানুষের সামাজিক ও আচরণগত পরিবর্তনের জন্য সরকারের পাশাপাশি স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা কাজ শুরু করে। এছাড়া জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের কমিটিগুলো মাঠ পর্যায়ে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ ও সচেতনতা সৃষ্টি করা হয়। বাল্য বিবাহের কুফল সর্ম্পকে সবাইকে সচেতন করে তোলা হয়। এরই উদ্যোগের ফলে গত এক বছরের মধ্যে ওই এলাকাগুলোতে বাল্য বিয়ে হয়নি। বৃহস্পতিবার নানা আয়োজনে রামপাল উপজেলার বাশতলী, রাজনগর, হুড়কা ও সদর ইউনিয়নের ২২ গ্রামকে বাল্য বিবাহ মুক্ত ঘোষনা করে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রনালয়ের উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার। বাল্য বিবাহ মুক্ত ঘোষনায় খুশি এলাকাবাসি ও সংশ্লিষ্টরা। বাগেরহাটের ২২ গ্রামকে বাল্য বিবাহ মুক্ত ঘোষনা করা হয়। পরে অসহায়দের মাঝে ১৯৫টি পানির ট্যাকিং বিতরণ করা হয়। বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রনালয়ের উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার বলেন, আগামীতে নিজ সংসদীয় আসন রামপাল ও মোংলা উপজেলাকে বাল্য বিবাহ মুক্ত ঘোষনা করা হবে বলে জানান তিনি। এজন্য সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবান জানান।


আরও খবর

সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্কতা

শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩




উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে আবারো নৌকাকে বিজয়ী করতে হবে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১০৬জন দেখেছেন

Image
লিয়াকত হোসাইন লায়ন,ইসলামপুর(জামালপুর) প্রতিনিধি।। নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আবারও আওয়ামী লীগকে জনগণের সেবা করার সুযোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব ফরিদুল হক খান দুলাল এমপি। 

রবিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) জামালপুরের ইসলামপুরে উপজেলার বাটিকামারী এলাকার উন্নয়ন কার্যক্রম পরিদর্শন ও সাধারণ জনগনের সাথে মত বিনিময় সভায় বাটিকামারী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এলাকাবাসী আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নের কথা তুলে ধরে  বলেন, নৌকা মার্কা ক্ষমতায় আছে বলেই আজকে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে। নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে আবারও আপনাদের সেবা করার সুযোগ দেবেন। একমাত্র নৌকা মার্কা ক্ষমতায় আসলে দেশের উন্নতি হয়। নৌকা মার্কা ক্ষমতায় আসলে কৃষকের ভাগ্য পরিবর্তন হয়।

নৌকা মার্কা ক্ষমতায় আছে বলেই ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ গেছে। দেশ ও জনগণের উন্নয়ন করতেই আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসে। নৌকা মার্কায় ভোট পেলে দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন হয় সেটা জননেত্রী শেখ হাসিনা প্রমাণ করেছেন। প্রতিটি কাজের লক্ষ্য দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করা। দেশের মানুষের উন্নতি করা।
তিনি আরো বলেন, একটি গোষ্ঠী দেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে খেলছে মন্তব্য করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা চাই আমাদের দেশ এগিয়ে যাক, এখানে একটা গোষ্ঠী আছে যারা সব সময় দেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে খেলে। জাতির পিতাকে হত্যা করে সেই খেলা শুরু হয়েছিল। বার বার ক্ষমতা দখল, হত্যা-ক্যু ষড়যন্ত্রের রাজনীতি। তাই সকল ষরযন্ত্র উৎখাত করে উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে আবারো নৌকাকে বিজয়ী করতে হবে।
উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আঃ খালেক আকন্দের সভাপতিত্বে এতে জেলা পরিষদ সদস্য মজিবুর রহমান শাহজাহান,উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. আঃ সালাম, সহ সভাপতি শাহাদত হোসেন, মহিলা সম্পাদক শাহিদা পারভিন লিপি,পলবান্ধা ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান কমল প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

আরও খবর

ফের সিসিইউতে খালেদা জিয়া

শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩




বজ্রপাত প্রতিরোধে কলারোয়ায় ৫০০০হাজার তালের চারা রোপন

প্রকাশিত:শনিবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১২১জন দেখেছেন

Image

কলারোয়া(সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি:বজ্রপাত মোকাবেলা ও প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে মানুষকে রক্ষার লক্ষ্যে সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার পাটুলিয়া গ্রাম সহ মাঠের বিভিন্ন সড়কের পাশে ৫০০০ টি তালের চারা রোপন করা হয়েছে। পরিবেশবান্ধব এ তালের চারাগুলো একদিকে যেমন বজ্রপাতে মৃত্যুহার কমাতে ভূমিকা রাখবে ঠিক তেমনিভাবে সড়কের পাশের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করবে। গত ১মাস ধরে এ তালের চারা রোপন করে এলাকায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন পাটুলিয়া গ্রামের মৃত রমজান গাজীর ছেলে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও কৃষক সিদ্দিক গাজী। তিনি তালের চারা রোপনের বিষয়ে বলেন-তার এলাকায় ধান সহ বিভিন্ন ফসলের জমি অনেক বেশি। এখন তো প্রায় সময় বৃষ্টি হচ্ছে। বজ্রপাতও বেশি। তিনি এলাকাবাসীর কথা চিন্তা করে বজ্রপাত মোকাবেলায় তার নিজ গ্রাম পাটুলিয়াসহ ঝিকরগাছার বাবু ব্রিজ পর্যন্ত রাস্তার দুই ধারে তালের চারা রোপন করেছেন। তিনি আরো বলেন-এই গাছ বড় হলে ফলসহ গাছ কখনো তার নিজের বলে দাবী করবেন না। পাটুলিয়া গ্রামের নুর ইসলাম ও নুরুজ্জামান বলেন-তারা ৩শত টাকায় জোন হিসাবে এই তালের চারা রোপনের কাজ করছেন। তারা আরো বলেন-সিদ্দিক ভাই এক জন বড় মনের মানুষ। শুধুমাত্র এলাকাবাসীকে বজ্রপাত থেকে রক্ষা করতে নিজের ব্যক্তিগত টাকা খরচ করে তালের চারা রোপন করেছেন। এই তালের চারা রোপন করে তিনি এলাকায় মহত্বের পরিচয় দিয়েছেন। উপজেলার কুশোডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান সাইদ আলী গাজী বলেন-আমার ইউনিয়নে যে একজন গাছ প্রেমিক মানুষ আছে জানতাম না। তিনি এলাকায় বজ্রপাত রক্ষায় তালের চারা রোপন করে চেয়ারম্যানি দায়িত্ব পালন করেছেন। আমি তাকে ব্যক্তিগত ভাবে অভিনন্দন জানাচ্ছি। দেয়াড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহবুবর রহমান মফে বলেন-সিদ্দিক গাজী একজন ভাল মানুষ তাকে সাধুবাদ জানাই এলাকায় বজ্রপাত নিয়ন্ত্রনে তালের চারা রোপন করায়। উপজেলা কৃষি অফিসার সুভ্রাংশু শেখর দাস বলেন, তাল গাছ যুগ যুগ ধরে বজ্রপাত রোধে অবদান রেখে আসছে। যে অঞ্চলে তাল গাছ বেশি সে অঞ্চলে বজ্রপাতে মৃত্যুর সংখ্যাও ততকম। কৃষক সিদ্দিক সাহেব এলাকায় তালের চারা রোপন করে  মহত্বের পরিচয় দিয়েছেন। তাকে উপজেলা কৃষি অফিসের পক্ষকে সাধুবাদ জানাই।


আরও খবর

সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্কতা

শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩




সুনামগঞ্জে চোরাচালান বাণিজ্য জমজমাট: গরু ও নৌকাসহ গ্রেফতার ৮

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ৭০জন দেখেছেন

Image

মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া-সুনামগঞ্জ সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:সুনামগঞ্জের বিভিন্ন উপজেলার সীমান্ত দিয়ে প্রতিদিন অবৈধ ভাবে ভারত থেকে পাচাঁর করছে গরু, চিনি, কাঠ, কয়লা, পাথর, সুপারী, কসমেটিস, নাসিরউদ্দিন বিড়ি, ইয়াবা ও মদসহ নানান পন্যসামগ্রী। এর ফলে একদিকে লাখলাখ টাকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সরকার। অন্যদিকে অবৈধ চোরাচালান বাণিজ্য করে চোরাকারবারী, তাদের গডফাদার ও সোর্স পরিচয়ধারীরা আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ হয়েগেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে- পুলিশ পৃথক অভিযান চালিয়ে গত ২দিনে জেলার দোয়ারাবাজার উপজেলার দোহালিয়া ইউনিয়নের পানাইল নতুনপাড়া গ্রামের চোরাকারবারী জামাল মিয়া জালাল(৫০), আলাউদ্দিন আলাল(৩০), বাবুল হোসেন(২৮), পাশের ভবানীপুর জাঙ্গালপাড়া গ্রামের আব্দুল বাছির মিয়া(৩৮)কে ১৪টি ভারতীয় গরুসহ গ্রেফতার করে। পরে তাদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী একই উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের খাসিয়ামারা নদীর টিলাগাঁও নৌকাঘাটে অভিযান চালিয়ে চোরাকারবারী রাদেন মিয়া(২২), আব্দুল কাদির(২৭), বাচ্চু খান(৪৫) ও আফসার উদ্দিন(৫০)কে ১টি স্টিলবডি ইঞ্জিনের নৌকা ও ২২টি ভারতীয় গরুসহ গ্রেফতার করা হয়। এছাড়াও জেলার ছাতক ও মধ্যনগর সীমান্ত এলাকায় পুলিশের এই অভিযান অব্যাহত রয়েছে। কিন্তু চোরাচালানের স্বর্গরাজ্য হিসেবে পরিচিত তাহিরপুর সীমান্তে কোন অভিযান না হওয়ার কারণে একাধিক চোরাচালান মামলার আসামী উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের কলাগাঁও গ্রামের রফ মিয়া, সাইফুল মিয়া, জঙ্গলবাড়ি গ্রামের লেংড়া জামাল, আইনাল মিয়া, হযরত আলী, চারাগাঁও গ্রামের আনোয়ার হোসেন বাবুল, লালঘাট গ্রামের খোকন মিয়া, রুবেল মিয়া, ইয়াবা কালাম মিয়া, লাকমা গ্রামের রতন মহলদা, কামরুল মিয়া, দুধেরআউটা গ্রামের জিয়াউর রহমান জিয়া, মনির মিয়া, কুড়েরপাড় গ্রামের নেকবর আলী ও বাদাঘাট ইউনিয়নের লাউড়গড় গ্রামের বায়েজিদ মিয়া, জসিম মিয়াগং তাদের গডফাদারকে নিয়ে দাপটের সাথে তাদের চোরাচালান বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছে প্রায় ২বছর যাবত। তবে তাহিরপুর থানা থেকে ওসি সৈয়দ ইফতেখার হোসেন সম্প্রতি বদলি হয়ে যাওয়ার কারণে সীমান্ত চোরাকারবারীদের গডফাদার ও সোর্স বাহিনী থমকে গেলেও বন্ধ হয়নি তাদের অবৈধ বাণিজ্য। তাই লাউড়গড়, চাঁনপুর, টেকেরঘাট, বালিয়াঘাট, বীরেন্দ্রনগর ও চারাগাঁও সীমান্তসহ কামড়াবন্দ গ্রামে অভিযান পরিচালনা করলে চোরাকারবারীদের গর্ডফাদার ও সোর্স বাহিনীর মজুতকৃত কোটি টাকা মূল্যের অবৈধ কয়লা, পাথর, চিনি, সুপারী, কাঠ, বিড়ি, ইয়াবা ও মদসহ অবৈধ মোটর সাইকেল ও বিভিন্ন পন্যসামগ্রী উদ্ধার করা সম্ভব হবে জানা গেছে। এব্যাপারে তাহিরপুর থানার নবাগত ওসি নাজিম উদ্দিন বলেন-আমি এই থানায় নতুন এসেছি, সকলের সহযোগীতা নিয়ে এব্যাপারে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে। দোয়ারাবাজার থানার ওসি বদরুল হাসান সাংবাদিকদের জানান- গরু ও নৌকাসহ গ্রেফতার হওয়া ৮ চোরাকারবারীর বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। শুল্ক ফাঁকি দিয়ে ভারত থেকে সীমান্ত পথে পাচাঁরকৃত মালামালসহ চোরাকারবারীদের গ্রেফতারের জন্য বিশেষ অভিযান অব্যাহত থাকবে।


আরও খবর

সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্কতা

শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩




দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে উঠান বৈঠক ও আলোচনা সভা

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ সেপ্টেম্বর 20২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ৮৬জন দেখেছেন

Image

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি:কামারখন্দ উপজেলার আওতাধীন ৪নং রায়দৌলতপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড সর্বস্তরের এলাকাবাসী কর্তৃক আয়োজিত আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে উঠান বৈঠক ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২২ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার) বিকাল ৪ টা কাজিপুরা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গনে ৬নং ওয়ার্ড সর্বস্তরের এলাকাবাসী কর্তৃক আয়োজিত আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে উঠান বৈঠক ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আলহাজ্ব অছিম উদ্দিন ভূঁইয়া, এর সভাপতিত্বে
জি. এম মোস্তফা ফিরোজ, এর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিরাজগঞ্জ জেলা শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. জান্নাত আরা হেনরী।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মোঃ আব্দুল ওয়াদুদ নাসির, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক, মোঃ আব্দুস সাত্তার শিকদার, বন ও পরিবেশ সম্পাদক, মোঃ মিজানুর রহমান দুদু, সদস্য মোঃ জিহাদ আল ইসলাম, সদস্য মোঃ জাকির হোসেন, সাবেক ছাত্রলীগ সিরাজগঞ্জ জেলা শাখা মোঃ জাকিরুল ইসলাম লিমন সভাপতি বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ সিরাজগঞ্জ জেলা শাখা। প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ বিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক ছাত্রলীগ সিরাজগঞ্জ জেলা শাখা। প্রমুখ

আরও খবর

সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্কতা

শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩