Logo
আজঃ Friday ০২ December 2০২2
শিরোনাম

যাত্রাবাড়ী মাতুয়াইলে তিতাসের অবৈধ গ্যাস লাইন উচ্ছেদে অভিযান

প্রকাশিত:Monday ১৪ November ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ০২ December 2০২2 | ৯৪জন দেখেছেন
Image

সোহরাওয়ার্দীঃ 

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানা এলাকার মাতুয়াইল কোনাপাড়ার মালিবাড়ি খলিল মাষ্টার রোড ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন ৬৪ নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন আবাসিক বাড়িতে অবৈধ গ্যাস সংযোগ ব্যবহারকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করেছে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি।


 সোমবার ১৩ অক্টোবর সকাল ১১ টা থেকে দিনভর মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে অভিযান পরিচালিত হয়। ঢাকা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মেশকাত জান্নাত রাবেয়া তিতাসের এই অভিযানে নেতৃত্ব দেন। তিতাসের পক্ষে অভিযানে দলনেতা ছিলেন তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির টিকাটুলি জোনের উপমহা ব্যবস্থাপক( ডিজিএম) মনিরুল ইসলাম।

এ সময় বেশ কয়েকটি আবাসিক গ্রাহকদের বিরুদ্ধে বৈধ সংযোগ নিয়ে অবৈধভাবে বাড়তি সংযোগ দিয়ে চুলা ব্যাবহার করায় বিভিন্ন অংকের জরিমানা আদায় করা। এবং অবৈধভাবে আবাসিক সংযোগে বাড়তি চুলা ব্যবহারকারীদের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে রাইজার তুলে নেওয়া হয়।


আব্দুল কাদের বাবু ১৪৩/১ কোনাপাড়া খলিল মাষ্টার রোড বাড়ির মালিক একটি ৬ তলা বিশিষ্ট বহুতল ভবনে ২ টা আবাসিক চুলার অনুমোদন এনে ১০ টি চুলা ব্যাবহার করছিলেন, দেলোয়ার হোসেন নামে এক গ্রাহক ৮ তলা বিশিষ্ট বহুতল ভবনে ২ টি চুলার অনুমোদন এনে ২৬ টি চুলা ব্যাবহার করার অপরাধ স্বীকার করায় ৬০ হাজার টাকা নগদ জড়িমানা আদায় করা হয়।অপর একটি আবাসিক বাড়িতে ১ লক্ষ টাকা জরিমানা আদায় সহ বেশ কিছু হোল্ডিং মালিক কে জরিমানা আদায় করা হয়।


গ্যাস ঘাটতি মোকাবেলায় ২০১০ সালের ১৩ জুলাই আবাসিকে সংযোগ দেওয়া বন্ধ করে দেয় সরকার। এ কারণে আবাসিক লাইনে অবৈধ সংযোগের প্রচলন শুরু হয়। অনেক বৈধ গ্রাহক নির্দিষ্ট চুলার স্থলে একাধিক অবৈধ চুলা ব্যবহার করেও তিতাসের সিস্টেম লস করছে।


 তিতাস গ্যাসের ১২ হাজার ২৫৩ কিলোমিটার পাইপলাইন রয়েছে। এর মধ্যে ঢাকায় রয়েছে সাত হাজার কিলোমিটার।মুলত এই নেটওয়ার্কগুলোর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে লাখ লাখ অবৈধ সংযোগ। একটি সূত্রে জানাগেছে, তিতাসের বিতরণ ব্যবস্থায় প্রায় ২৫০ কিলোমিটার অবৈধ লাইন রয়েছে। এর মধ্যে শুধু নারায়ণগঞ্জেই রয়েছে ১৮০ কিলোমিটার অবৈধ পাইপলাইন। এরপর রয়েছে গাজীপুর, সাভার, নরসিংদী ও ঢাকায়। কুমিল্লা ও চট্টগ্রামেও অবৈধ সংযোগ ও পাইপলাইন ।এই পরিস্থিতি সামাল দিতে দিশেহারা হয়ে পড়েছে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিষ্ট্রিবিউশন কোম্পানী এমনকি খোদ বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়। 


তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের টিকাটুলি জোনাল অফিসের উপ- মহাব্যাবস্থাপক (ডিজিএম) মনিরুল ইসলাম বলেন,অবৈধ গ্যাস সংযোগ বন্ধ করতে অবৈধ সংযোগের উচ্ছেদ অভিযান নিয়মিত চলবে


আরও খবর