Logo
আজঃ শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩
শিরোনাম

ভারতকে হারিয়ে ষষ্ঠ শিরোপা জিতল অস্ট্রেলিয়া

প্রকাশিত:রবিবার ১৯ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১২০জন দেখেছেন

Image

খবর প্রতিদিন ২৪ডেস্ক :ভারতকে হারিয়ে ষষ্ঠ শিরোপা জিতল অস্ট্রেলিয়া। ১৯৮৭, ১৯৯৯, ২০০৩, ২০০৭, ২০১৫ বিশ্বকাপজয়ীরা এবার জিতল ষষ্ঠ বিশ্বকাপ। শুধু আহমেদাবাদের ১ লাখ ৩২ হাজার দর্শক নয় গোটা ভারতকে স্তব্ধ করে দিয়ে মিশন হেক্সা কমপ্লিট করল প্যাট কামিন্সরা।

এ যেন তীরে এসে তরী ডোবার মতো অবস্থা ভারতের। বিশ্বকাপের লিগ আর সেমিফাইনালে অপরাজিত থেকে ফাইনালে উঠেই কিনা পেতে হলো হারের তিক্ত স্বাদ।

আহমেদাবাদে এদিন টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। অজি অধিনায়কের এমন সিদ্ধান্তে অনেকে নাক ছিটকালেও প্যাট কামিন্স বলেছিলেন, সন্ধ্যার পর শিশিরের আধিক্য থাকে বলেই তার এমন সিদ্ধান্ত।

যেই কথা সেটিই হলো। ভারতের দেওয়া ২৪০ রানের লক্ষ্য টপকানোর লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৪২ বল হাতে রেখেই ৪ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্য তাড়া করে ফেলল অজিরা। পিচে শামি-সিরাজদের কোনো কারিকুরিই কাজে লাগল না।

ব্যাট করতে নেমে দ্বিতীয় ওভারেই ডেভিড ওয়ার্নারের উইকেট হারিয়ে ফেলে অস্ট্রেলিয়া। মোহাম্মদ শামির বলে কোহলির হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন ৭ রান করে। দলীয় ৪৩ রানের মাথায় মিচেল মার্শকে ১৫ রানে ফেরান জসপ্রীত বুমরাহ।

শুরুতেই দুই উইকেট হারিয়ে ফেলার পর থিতু হওয়ার আপ্রাণ চেষ্টায় থাকা স্টিভেন স্মিথকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলে ফেরান বুমরাহ। তবে রিপ্লেতে দেখা যায় বল অফ স্টাম্পের অনেক বাইরে দিয়ে চলে যেতে। স্মিথ রিভিউও নেননি।

দলীয় ৪৭ রানে ৩ উইকেট হারানোর পর ওপেনার ট্রাভিস হেড আর মার্নাস লাবুশানের জুটি ম্যাচ থেকে ছিটকে দেয় ভারতকে। ৯৫ বলে ১৪টি চার ও ১টি ছক্কায় হেড তুলে নেন সেঞ্চুরি। হেডের শতকের সঙ্গে লাবুশানে তুলে নেন অর্ধশতক।

শেষ পর্যন্ত হেড-লাবুশানের ১৯২ রানের অনবদ্য জুটিতে মাথা উঁচু করে মাঠ ছাড়ে অজিরা। হেড সাজঘরে ফেরেন জয় থেকে মাত্র ২ রান দূরে থাকতে ব্যক্তিগত ১৩৭ রানের মাথায়। লাবুশানে অপরাজিত থেকে যান ৫৮ রানে।

ভারতের পক্ষে ২টি উইকেট নেন জসপ্রীত বুমরাহ, ১ট উইকেট নেন মোহাম্মদ শামি।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে পঞ্চম ওভারেই শুভমান গিলকে হারায় ভারত। মাত্র ৪ রান করা শুভমানকে ফেরান মিচেল স্টার্ক। আরেক ওপেনার রোহিত শর্মাকে ৪৭ রানে ফেরান গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। শ্রেয়াস আইয়ারকে ৪ রানে ফেরান প্যাট কামিন্স। বিরাট কোহলি একপাশ আগলে রেখে রানের চাকা সচল রেখেছিলেন, তুলে নেন ক্যারিয়ারের ৭২তম ফিফটি। তবে শেষ পর্যন্ত ফিরতে হয় কামিন্সের বলে বোল্ড হয়ে।

রবীন্দ্র জাদেজাকে ৯ রানে ফেরান জশ হ্যাজেলউড। বিরাটের ফেরার পর কেএল রাহুল ভারতকে ম্যাচে ফেরালেও ৬৬ (১০৭) রানের মাথায় বিদায় করেন স্টার্ক। এরপর মোহাম্মদ শামিকে ৬ রানে ফেরান স্টার্ক। জসপ্রীত বুমরাহকে ১ রানের বেশি করতে দেননি জাম্পা।

শেষদিকে সূর্যকুমার যাদবের ২৮ বলে ১৮, কুলদ্বীপ যাদবের ১০ আর মোহাম্মদ সিরাজের ৮ রানে ভর করে কোনোমতে ২৪০ রান করে ভারত।

অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে ৩ উইকেট নিয়েছেন মিচেল স্টার্ক। ২টি করে উইকেট নেন জশ হ্যাজেলউড ও প্যাট কামিন্স। ১টি করে উইকেট নেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও অ্যাডাম জাম্পা।


আরও খবর



নওগাঁয় প্রকাশ্যে বিএনপি নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

প্রকাশিত:সোমবার ২০ নভেম্বর ২০23 | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১০১জন দেখেছেন

Image

নওগাঁ সংবাদদাতা:নওগাঁ শহরের ইয়াদালীর মোড় নামক স্থানে মুখোশধারী সন্ত্রাসীরা কামাল হোসেন (৫২) নামে এক বিএনপি নেতাকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করেছে। শনিবার অনুমান রাত ১০টার দিকে হত্যাকান্ডের এ ঘটনা ঘটে। নিহত কামাল হোসেন শহরের রজাকপুর এলাকার বাসিন্দা। তিনি নওগাঁ পৌর এলাকার ৯নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক ছিলেন। এছাড়া তিনি নওগাঁ নজরুল একাডেমির সাংগঠনিক সম্পাদক ও জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থা (জাসাস) নওগাঁ জেলা কমিটির সদস্য ছিলেন বিলে জানা গেছে। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এদিন রাত ১০টার দিকে সড়কের পাশে কামাল মোটর সাইকেলে বসে মোবাইল ফোনে কথা বলছিলেন। এসময় হঠাৎ করেই মুখোশধারী ও মাথায় হেলমেট পড়া ৫ থেকে ৭জন যুবক চাপাতি ও দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে প্রকাশ্যে কুপিয়ে জখম করে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। দুর্বৃত্তরা কামালের মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। ঘটনার পর রক্তাক্ত অবস্থায় কামাল হোসেনকে উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়ে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। হত্যাকান্ডের কারণ এখনো নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ। 

নওগাঁ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফায়সাল বিন আহসান জানান, পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আলামত সংগ্রহ ও জড়িতদের চিহ্নিত করার চেষ্টা করছে। লাশের  ময়না তদন্তের পর স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এ বিষয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হবে জানান ওসি।


আরও খবর



গাংনীর ফুলকপি চাষীদের মাথায় হাত

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩ | ৭৪জন দেখেছেন

Image

মজনুর রহমান আকাশ, মেহেরপুরঃঅনুকুল আবাহওয়া আর প্রয়োজনীয় পরিচর্যায় মেহেরপুরের গাংনীতে ফুলকপির আবাদ ভালো হলেও তা রপ্তানি করতে না পারাই চাষীদের কপালে পড়েছে চিন্তার ভাজ। বিশেষ করে বড় ধরনের লোকসান গুনতে হবে বর্গা চাষীদের । উৎপাদন ব্যয় বেশি হলেও কপি বিক্রির অর্থ অনেক কম। কৃষি বিভাগ বলছে, চাষীদের প্রয়োজনীয় পরামর্শ দেওয়ায় উৎপাদন ভালো হয়েছে। আর ব্যবসায়ী বলছেন, হরতাল ও অবরোধে রপ্তানী বাধাগ্রস্ত হওয়ায় কপির দর পতন।

গাংনী কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে ২৫০ হেক্টর জমিতে ফুলকপি চাষ হয়েছে যা গত বছরের তুলনায় ৩০ হেক্টর বেশি। এখান মাটি ও আবহাওয়া দু’ই সবজি চাষের উপযোগি । বিশেষ করে ফুলকপি দাম বেশি হওয়ায় চাষিরা এ আবাদে ঝুঁকে পড়েছে। অনেকেই জমি লিজ ও বর্গা নিয়ে ফুলকপির আবাদ করছেন। বিষমুক্ত সবজী চাষে চাষিদেরকে প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিচ্ছে কৃষি বিভাগ।

গাংনী উপজেলার সাহারবাটী গ্রামের সাইফুল ইসলাম জানান, চলতি মৌসুমের দুই বিঘা জমিতে তিনি ফুলকপি আবাদ করেছেন। বিঘা পতি উৎপাদন খরচ হয়েছে প্রায় ৩০ হাজার টাকা । ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে ফুলকপি রপ্তানি করা সম্ভব হলে উৎপাদন খরচের দ্বিগুন লাভ হতো। কিন্তু হরতাল ও অবরোধের কারনে কপি রপ্তানি করতে না পারায় বাধ্য হয়ে

স্থানীয় বাজারে বিক্রি করতে হচ্ছে । এতে উৎপাদন খরচ উঠছেনা। বর্গা চাষী নওপাড়া গ্রামের আক্তারুজ্জামান জানান, তিনি এক বিঘা জমি বর্গা নিয়ে ফুলকপি আবাদ করেছিলেন। লিজ খরচসহ মোট ব্যয় হয়েছে ৪০ হাজার টাকা । আর সেই কপি বিক্রি হয়েছে মাত্র ২৫ হাজার টাকায় । এতে মোটা অংকের টাকা লোকসান হয়েছে তার। একই কথা জানালেন বর্গাচাষী সামীম হোসেন। তিনি দুই বিঘা জমি লিজ নিয়ে ফুলকপি আবাদ করেছিলেন। এক বিঘা জমির কপি ২৮ হাজার টাকায় বিক্রি করেছেন। স্থানীয় ব্যবসায়ীরা বাকি এক বিঘা কপির দাম হাঁকছেন ২০ হাজার টাকা। এতে মোটা অংকের টাকা লোকসান গুনতে হবে  তাকে।

বামন্দী বাজারের কয়েকজন সবজী ব্যবসায়ী জানান, এমনিতেই ভরা মৌসুমে সবজীর দাম কিছুটা কম থাকে। তার উপর হরতাল ও অবরোধের কারনে কপি রপ্তানি করতে পারছেনা চাষীরা। তাই দর পতন।

গাংনী কাঁচা বাজারের কয়েক জন আড়তদার জানান, হরতাল ও অবরোধের দুর্বৃত্তরা গাড়িতে আগুন লাগাতে পারে এই ভয়ে গাড়ির মালিকরা গাড়ি চালাতে চাইছেন না। তাই সবজি রপ্তানি করা সম্ভব হচ্ছে না। স্থানীয় বাজারে চাহিদার তুলনায় সরবরাহ বেশি থাকায় বাজারে ফুলকপির দাম কমে গেছে। এতে চাষিরা লোকসানের মুখে পড়ছেন।

গাংনী উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ ইমরান হোসেন জানান, কৃষি অফিসের পক্ষে থেকে কৃষকদের পরামর্শ দিয়ে সার্বিক সহযোগিতা করা হয়েছে। চাষিরা বিষমুক্ত সবজি চাষ করছেন। বাম্পার ফলনও হয়েছে। তবে চাষিরা ফুলকপি রপ্তানি করতে না পারায় লোকসানের মুখে পড়েছে। এ সংকট কেটে গেলে চাষিরা ক্ষতির হাত থেকে বাঁচবে বলেও মন্তব্য করেন এই কৃষি কর্মকর্তা।


আরও খবর



জাসাস নেত্রীর বাড়ি ঘর ভাংচুর হুমকি

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১২৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রবাসী নেতাদের পরিবারকে হুমকি ও হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে  যারা প্রবাসে বসে বিএনপি ’র জন্য কাজ ও আন্দোলন করে যাচ্ছে , যারা আওয়ামিলীগ সরকারের ও শেখ হাসিনার সন্ত্রাসী কাজের কথা  ও পুলিশ নির্যাতনের কথায় প্রতিবাদ করছে।BNP নেত্রী  শাহরিয়া ইসলাম শায়লা । যুগ্ম আহবায়ক জাসাস কেন্দ্রীয় কমিটি।তিনি প্রতি নিয়তই টকশোতে এবং ফেসবুকে প্রতিবাদ করে যাচ্ছে যার কারনে  গত কাল  ২৬ শে নভেম্বর রবিবার আওয়ামিলীগ সন্ত্রাসীরা  তার বাড়ী হামলা ও ভাংচুর করে এবং হুমকি দেয় তার পরিবারের সদস্যদের।


কারন শেখ হাসিনা যখন লন্ডন যান ৪ই মার্চ ২০২৩।এবং  যুক্তরাজ্যে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারবিরোধী বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেয়ায় ও ফেসবুকে পোস্ট দেয়ায় প্রবাসী বিএনপি নেতাদের পরিবারকে হয়রানির অভিযোগ করেছেন বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, গত ২ ও ৩রা অক্টোবর প্রধানমন্ত্রীর সফরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ করে বিএনপি ও সেখানকার অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।

এরপরই তাদের পরিবারের সদস্যদের হুমকি দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে।তাদের মধ্যে  রয়েছেন- যুক্তরাজ্যে অবস্থানরত জাসাসের কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহ্বায়ক শাহরিয়া ইসলাম শায়লা, তাকে না পেয়ে তার নেতাকর্মীদের নামে মামলা দিচ্ছে ও ধরে নিয়ে জেলে দিচ্ছে এখন কেউই ঘরে ঘুমাতে পারছে না । তার বাড়ী পুলিশ বার বার তল্লাশি করছে।হুমকি ও জিগাসা করায় ভয়ে পরিবারের সবার করুন পরিনতি হচ্ছে ঘরে বৃদ্ধ অসুস্থ বাবা।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



হিলিতে ৪ হাজার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকেরা পেলো বিনামূল্যে বীজ ও রাসায়নিক সার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | ২৫জন দেখেছেন

Image

মাসুদুল হক রুবেল হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:দিনাজপুরের হাকিমপুরের হিলিতে ২০২৩-২০২৪ অর্থ বছরের রবি মৌসুমে বোরো ধানের হাইব্রিড ও উফশী জাতের আবাদ ও উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে ধানের বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণ এর উদ্বোধন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২ টায় উপজেলা কৃষি অধিদপ্তরের আয়োজনে কৃষি অফিস চত্বরে হাইব্রিড (২০০০) জন এবং উফশি জাত (২০০০) জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে এসব বীজ ও সার বিতরণের উদ্বোধন করা হয়।

উদ্বোধনী দিনে উপজেলার খট্রামাধবপাড়া ইউনিয়ন এর কৃষকদের মাঝে জন প্রতি দুই কেজি হাইব্রিড ধানের বীজ বিতরণ করা হয়েছে। পরবর্তীতে পর্যায়ক্রমে উপজেলার তিনটি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় হাইব্রিড ও উফশি জাত ধানের বীজ ও সার বিতরণ করা হবে বলে জানান উপজেলা কৃষি অফিসার।

বিনামূল্যে বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আরজেনা বেগম, কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার মেজবাহুর রহমান,উপ-সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ অফিসার মাহেবুর রহমান ও মাজেদুল ইসলাম মাজেদসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

হাকিমপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আরজেনা বেগম জানান, দুই হাজার জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে শুধুমাত্র হাইব্রিড জাতের ধানের দুই কেজি বীজ বিতরণ করা হবে। দুই হাজার জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে শুধুমাত্র উফশি জাতের ধানের ৫ কেজি বীজ, ১০ কেজি ডিএপি সার ১০ কেজি এমওপি সার প্রত্যকে মাঝে বিনামূল্যে বিতরণ করা হবে। আজ এই কর্মসূচির উদ্বোধনী করা হয়েছে।


আরও খবর



সংবিধান অনুযায়ী যিনি প্রধান মন্ত্রী থাকবেন তার অধীনেই নির্বাচন হবে: কৃষিমন্ত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ১০ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১৫৮জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধি:আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড.আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন জানুয়ারীতে অনুষ্ঠিত হবে। সংবিধান অনুযায়ী যে প্রধানমন্ত্রী থাকবেন তার অধীনেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।শুক্রবার(১০নভেম্বর) সকালে টাঙ্গাইলের মধুপুরে পীরগাছা সেন্ট পলস উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত ফ্রী মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠানে এসে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় তিনি বিএনপি-জামায়াত এর সমালোচনা করে বলেন, নির্বাচন বানচাল করতে বিএনপি আবার জ্বালাওপোড়াও ও আগুন সন্ত্রাস করছে। বাসে আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করছে। যেকোন মুল্যে এসব সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড কঠিন হস্তে দমন করবে আইন শৃংখলা বাহিনী।সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠান বিষয়ে তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনকে সর্বোচ্চ ক্ষমতা দেয়া হয়েছে। নির্বাচন সুষ্ঠু করতে কাজ করবে পুলিশ বাহিনী, সেনাবাহিনীসহ অন্যান্য আইন শৃংখলা রক্ষা বাহিনীর সদস্যরা।তারা সুষ্ঠু সুন্দর গ্রহনযোগ্য নিরপেক্ষ নির্বাচন করবে।

বিএনপির নির্বাচনে আসার বিষয়ে তিনি বলেন, কোন দল নির্বাচনে না আসলে সে জন্য নির্বাচন বৈধ হবেনা এমনটি সংবিধানের কোথায় লেখা নেই। যাদের ইচ্ছে তারা নির্বাচনে অংশ নিবে। তবে আমরা চাই বিএনপি নির্বাচনে আসুক। তবে বিএনপি জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েছে। তাদের মানুষ আর ভোট দিবেনা। আওয়ামী লীগ সরকার দেশের ব্যাপক উন্নয়ন করেছে।  মানুষ আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগকেই ভোট দিবে বলেও জানান তিনি।এর আগে মন্ত্রী স্থানীয়দের সাথে আলোচনা সভা ও পরে মেডিকেল ক্যাম্প ঘুরে দেখেন। দিনব্যাপী মেডিকেল ক্যাম্পে শতাধিক ডাক্তার চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন। স্থানীয় কয়েক হাজার মানুষ সকাল থেকে চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করছেন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর