Logo
আজঃ বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪
শিরোনাম

উপজেলা চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের জন্য দেওয়ান আতিকুর রহমান আখিঁর প্রার্থীতা ঘোষনা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ৪৪৭জন দেখেছেন

Image

মোঃ আব্দুল হান্নানঃ- আসন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর নাসিরনগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সমাজ সেবক,দানবীর,শিক্ষানুরাগী, রাজনীতিবিদ ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী দেওয়ান আতিকুর রহমান আঁখি উপজেলা চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীতা ঘোষনা করেছেন।

আঁখি  উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের শংকরাদহ গ্রামের ঐতিহ্যবাহী দেওয়ান পরিবারের মৃত দেওয়ান মশিউর রহমানের সুযোগ্য সন্তান। আখিঁ আসন্ন ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী হিসেবে উপজেলার সর্বস্তরের জনগণের দোয়া, আর্শিবাদ ও সমর্থন প্রত্যাশী।


আখিঁ  ১৯৭৩ সালের ২রা ফেব্রুয়ারী ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার শংকরাদহ গ্রামের ঐতিহ্যবাহী দেওয়ার পরিবারে জন্ম গ্রহন করেন। তার পিতার নাম মৃত দেওয়ান মশিউর রহমান মাতার নাম দেওয়ান হাজী হেনা বেগম। তার পিতা ও একজন সমাজ সেবক ও রাজনীতিবিদ ছিলেন। তিনি  ঐতিহ্যবাহী হরিপুর ইউনিয়ন পরিষদের সুনামধন্য চেয়ারম্যান ছিলেন


৬ ভাই ১বোনের মাঝে  আখিঁ ৪র্থ। আখিঁ ১৯৯০ সালে ব্রাহ্মণবাড়ীয়া অন্নদা সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এস, এস, সি,১৯৯২ সালে ব্রাহ্মণবাড়ীয়া সরকারী কলেজ থেকে এইচ, এস,সি ও ১৯৯৪ সালে উক্ত কলেজ থেকে বি, এস, এস পাস করেন। পরবর্তীতে তিনি বিভিন্ন ব্যবসা বানিজ্য, ও জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান ও তার সুযোগ্য কন্যা দেশ রত্ন শেখ হাসিনার আদর্শে অনুপ্রানিত হয়ে রাজনীতি ও মানবসেবায় নিজেকে মনোনিবেশ করেন। বর্তমানে তিনি ব্রাহ্মণবাড়ীয়া সদর উপজেলা শাখার মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগের সহ- সভাপতি এবং একাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান। 


ছোট বেলা থেকেই আঁখি নিজেকে মানব সেবায় নিয়োজিত করেন। বর্তমানে তিনি বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়মূলক কর্মকান্ড ও মানবসেবার সাথে জড়িয়ে এলাকার বহু নিরীহ ও অসহায় মানুষের কাছে দাড়িয়ে এলাকার বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজে অগ্রনী ভূমিকা পালন করে আসছেন।


আখিঁ ৯০ এর দশকে ব্রাহ্মনবাড়িয়া সরকারী কলেজ ছাত্রলীগের সদস্য হয়ে স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে অগ্রনী ভূমিকা পালন করেন। ইতিমধ্যে তিনি মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষিত পরিবেশ উন্নয়ন ও জলবায়ুর দুষণ রোধের লক্ষ্যে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন সহ তার নিজ  ইউনিয়নে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চৌধুরী মোয়াজ্জম আহম্মদকে প্রধান অতিথি করে ৪ হাজার বিভিন্ন ফলজ ও কাটের গাছের ছাড়া বিতরণ করেন।


 তিনি নিজ উদ্যোগে ও অর্থায়নে এলাকার বহু রাস্তা ঘাঠের উন্নয়ন করেছেন। এলাকার দরিদ্র ও হত দরিদ্র রোগীদের নিজ অর্থায়নে চিকিৎসা সেবা ও অসহায় ছেলে মেয়েদের বিবাহের ব্যবস্থা তাছাড়াও এলাকায় স্বাস্থ্যসম্মত বহু সেনিটেশনের ব্যবস্থা করেছেন । ইতি মধ্যে তিনি পি,এস,সি ও জে, এস,সির ১৫০ জন মেধাবী ছাত্র ছাত্রীর মাঝে বৃত্তি ও সম্মাননা স্বারক প্রদান করেন। তাছাড়াও দেওয়ান আতিকুর রহমান আখিঁ হিন্দু ও মুসলমানদের বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান সহ বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠানে আর্থিক সহায়তা করে যাচ্ছেন।


 তিনি শংকরাদহ হাফিজিয়া মাদ্রাসার পরিচালক থেকে নিজ অর্থায়নে প্রতিষ্ঠানটি পরিচালনা করে আসছেন। অত্র মাদ্রাসার ছাত্র ছাত্রীদের বিনামূল্যে পড়ানোর ব্যবস্থা করেছেন। বর্তমানে তিনি নাসিরনগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী। এলাকার বিভিন্ন মহলের ধারনা তিনি উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে  তার দ্বারা উপজেলার রাস্তাঘাট,শিক্ষারমান সহ বিভিন্ন উন্নয়ন সম্ভব।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



জিম্মি নাবিকরা জাহাজে ঈদের নামাজ আদায় করলেন

প্রকাশিত:বুধবার ১০ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ৭১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:সোমালিয়ার জলদস্যুদের হাতে জিম্মি বাংলাদেশি জাহাজ এমভি আবদুল্লাহর নাবিকরা জাহাজে ঈদের নামাজ আদায় করলেন।

বুধবার (১০ এপ্রিল) বিভিন্ন দেশের মতো সোমালিয়ায় ঈদুল ফিতর উদযাপিত হচ্ছে।

জানা গেছে, ঈদের নামাজ আদায়ের জন্য এদিন নাবিকদের জাহাজের ডকে যাওয়ার সুযোগ দেয় দস্যুরা। এছাড়া ঈদ উপলক্ষে নাবিকদের জন্য বিশেষ খাবারের ব্যবস্থা করা হয় বলেও জানা গেছে।

নামাজের পরে তারা কোলাকুলি করেন, পরস্পরের মধ্যে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। এবং একসঙ্গে ছবিও তোলেন। ছবিটি গণমাধ্যমের হাতে এসেছে।


আরও খবর



বুয়েটে ছাত্র রাজনীতি চলবে : হাইকোর্ট

প্রকাশিত:সোমবার ০১ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ১৫৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:হাইকোর্ট বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) নিয়মতান্ত্রিকছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ করে করা বিজ্ঞপ্তি স্থগিত করে দিলেন।ফলে বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি চলতে বাধা নাই।

সোমবার (১ এপ্রিল) বিচারপতি মো. খসরুজ্জামানের বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এর আগে, বুয়েটে ছাত্র রাজনীতি করার অনুমতি চেয়ে হাইকোর্টে একটি রিট করা হয়। হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিট আবেদনটি করেন বুয়েটের শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ নেতা ইমতিয়াজ রাব্বি।

আদালতের এ আদেশের ফলে বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি চলতে বাধা নেই বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের হাতে আবরার ফাহাদ নিহত হওয়ার পর ছাত্র আন্দোলনের মুখে ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ হয় প্রতিষ্ঠানটিতে। কিন্তু ওই ঘটনার চার বছর না পেরোতেই বুয়েটে আবারও ছাত্র রাজনীতি চালুর জন্য তৎপরতা শুরু করেছে ছাত্রলীগ। এতে সায় আছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগেরও। বুয়েটের উপাচার্য বলেছেন, শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা চাইলে আবারও ছাত্র রাজনীতি চালু করা যেতে পারে।

বুয়েটে ছাত্র রাজনীতির পক্ষে-বিপক্ষে বিতর্ক শুরু হয় গত ২৭ মার্চ রাতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাদ্দাম হোসেনের বুয়েট ক্যাম্পাসে প্রবেশকে কেন্দ্র করে। এ ঘটনায় পরদিনই তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখান সাধারণ শিক্ষার্থীরা। ক্যাম্পাসে রাজনীতির বীজ বপনের চেষ্টা হচ্ছে, এমন অভিযোগ এনে গত বৃহস্পতি ও শুক্রবার ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করেন শত শত শিক্ষার্থী।


আরও খবর



‘জাতীয় লজিস্টিকস নীতি’ অনুমোদন পণ্য সরবরাহ নিশ্চিতে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ এপ্রিল ২০২৪ | ৯৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আমদানি-রপ্তানি এবং স্থানীয় পণ্যের সহজ ও অবাধ চলাচল নিশ্চিত করতে ‘জাতীয় লজিস্টিক নীতিমালা-২০২৪’ এর খসড়া অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

সোমবার (৮ এপ্রিল) সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৈঠকে সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভা বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়। পরে বিকেলে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বৈঠকের সিদ্ধান্ত জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন।

তিনি বলেন, লজিস্টিক ব্যবস্থাপনা নিয়ে এর আগে বাংলাদেশে কোনো নীতিমালা হয়নি। অনেকদিন থেকে এটা নিয়ে দাবি ছিল। আমদানি ও রপ্তানি বাণিজ্যে লজিস্টিক সাপোর্টের গুরুত্ব অপরিসীম। মোট ব্যয়ের একটা বড় অংশ এখানে আছে।

মাহবুব হোসেন বলেন, এ সংক্রান্ত সব নীতিমালা পরীক্ষা করে তা ব্যবসাবান্ধব করতে বলা হয়েছে। কোন সেবা ব্যক্তিখাতে আসবে, কোনটা পিপিপি (পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপ) হবে, কোনটায় সরকার বিনিয়োগ করবে, সে তালিকাও রয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, মানবসম্পদ উন্নয়ন একটি বড় খাত। আমরা দেখেছি এখানে ১০৬ ধরনের পেশার কথা হয়েছে, সেখানে ৫২ ক্যাটাগরিতে প্রশিক্ষণও রয়েছে। সর্বনিম্ন কত ঘণ্টার প্রশিক্ষণ হবে, তারও একটা বিধানের কথা রয়েছে এই নীতিমালায়।

তিনি বলেন, নির্ধারিত সময়ে বা স্বল্পতম সময়ে স্বল্পতম ব্যয়ে স্মুথলি যেন পণ্য সরবরাহ ব্যবস্থাটা নিশ্চিত হয় সেজন্য সংশ্লিষ্ট সব মন্ত্রণালয়ের তরফ থেকে কার্যক্রম গ্রহণ করবেন এবং কী কার্যক্রম গ্রহণ করলে এই সার্ভিসটা দেওয়া সম্ভব হবে, সে সংক্রান্ত একটি দিক-নির্দেশনা এ নীতিমালায় আছে।

খসড়া নীতি অনুযায়ী, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে ১৬ সদস্যের একটি কাউন্সিল থাকবে। তাতে আটজন মন্ত্রী ছাড়াও বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যক্তিরা থাকবেন। এই কাউন্সিল সামগ্রিক দিকনির্দেশনা দেবে। এ ছাড়া প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিবের নেতৃত্বে সমন্বয় কমিটি থাকবে।


আরও খবর



সদরঘাটে লঞ্চ দুর্ঘটনায় নিহত-৫

প্রকাশিত:শুক্রবার ১২ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | ১০২জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হাসানঃরাজধানীর সদরঘাটে লঞ্চ দুর্ঘটনায় পাঁচজন নিহত হয়েছেন।গত বৃহস্পতিবার দুপুর ৩টার দিকে সদরঘাট লঞ্চঘাটের ১১ নম্বর পল্টুনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে।

নৌ পুলিশের পুলিশ সুপার আশিক সাঈদ বলেন, 'এ ঘটনায় পাঁচজন গুরুতর আহন হন। পরে তারা মারা যান।

তিনি বলেন, 'পাঁচ যাত্রী নিহতের ঘটনায় দুটি লঞ্চের ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ। 

ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা গেছে, এমভি তাশরিফ–৪ ও এমভি পূবালী–১ নামের দুটি লঞ্চ রশি দিয়ে পন্টুনে বাঁধা ছিল। লঞ্চ দুটির মাঝখান দিয়ে ফারহান নামের আরেকটি লঞ্চ ঢুকানোর সময় এমভি তাসরিফ–৪ লঞ্চের রশি ছিঁড়ে যায়। ঠিক তখন লঞ্চে ওঠার সময় এক শিশু ও এক নারীসহ পাঁচ যাত্রী গুরুতর আহত হন।

পরে তাদের উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের অ্যাম্বুলেন্সে করে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

ঢাকা নদী বন্দর, সদরঘাটের যুগ্ম-কমিশনার (ট্রাফিক) জয়নাল আবেদীন জানান, ঘটনাটি খতিয়ে দেখতে কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এ ঘটনায় বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। বিআইডব্লিউটিএ'র পরিচালক (ক্রয় ও সংরক্ষণ) মো. রফিকুল ইসলাম কমিটিতে আহ্বায়ক করা হয়েছে। এছাড়াও নৌ সংরক্ষণ ও পরিচালন বিভাগের যুগ্ম পরিচালক মো. আজগর আলী এবং বন্দর শাখার যুগ্ম পরিচালক মো. কবীর হোসেনকে কমিটিতে সদস্য করা হয়েছে।



আরও খবর



কালিয়াকৈরে সড়ক দুর্ঘটনায় স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু, বাস আটক

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ৫২জন দেখেছেন

Image

সাগর আহম্মেদ,কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বেপরোয়া গতির একটি বাস চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী স্বামী-স্ত্রীর মর্মান্তিকভাবে মৃত্যু হয়েছে।গত রোববার রাতে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের উপজেলার কালিয়াকৈর বাইপাস বাসষ্টেশন এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর ঘাতক বাসটি আটক করলেও চালক ও সহযোগীকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। নিহতরা হলেন, কালিয়াকৈর উপজেলার বড়ইতলী এলাকার মোজাম্মেল হকের ছেলে আসিফ মাহমুদ হৃদয় এবং তার স্ত্রী তানজিম বকশি।

এলাকাবাসী, নিহতের পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত ছয় মাস আগে আসিফের সঙ্গে পারিবারিকভাবে একই উপজেলার উপজেলার বলিয়াদি বকশিবাড়ির মৃত মুক্তা বকশির মেয়ে তানজিম বকশির বিয়ে হয়। গত রোববার দুপুরে স্বামী-স্ত্রী দুজনে মোটরসাইকেল যোগে তাদের এক স্বজনের গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে পার্শ্ববর্তী টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার কুড়িপাড়া এলাকার যান। ওই অনুষ্ঠান শেষে ওইদিন রাতে তারা মোটরসাইকেল যোগে বাড়ি ফিরছিলেন। ফেরার পথে রাত সাড়ে ১১টার দিকে তারা ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের কালিয়াকৈর বাইপাস এলাকায় পৌছে। পরে তারা আন্ডারপাসের নিচ দিয়ে মোটরসাইকেল যোগে বাইপাস বাসষ্টেশন এলাকায় মহাসড়কটি পারাপার হচ্ছিলেন। কিন্তু টাঙ্গাইলগামী বেপরোয়া দ্রুতগতির মাহি পরিবনের বাস তাদের চাপা দিলে মোটরসাইকেলটি মহাসড়কের ওপর ছিটকে পড়ে। আর আসিফ ও তার স্ত্রী বাস চাপায় গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে ঢাকার সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। ওই হাসপাতালে নেওয়ার পথেই স্বামী-স্ত্রী দুজনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে পুলিশ নিহতদের লাশ উদ্ধার এবং ঘাতক বাসটি আটক করে। কিন্তু পুলিশ পৌছানোর আগেই ঘাতক বাসের চালক সহযোগী পালিয়ে যাওয়ায় তাদের আটক করা যায়নি। পরে আবেদনের প্রেক্ষিতে নিহতদের লাশ তাদের স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করে পুলিশ। এদিকে নিহত স্বামী-স্ত্রীর লাশ তাদের গ্রামের বাড়ি পৌছলে এক হৃদয়বিধারক দৃশ্যের সৃষ্টি হয়। স্থানীয়দের অভিযোগ, রাতে দুরপাল্লার মালামাল ভর্তি ওভারলোড করা ট্রাকগুলো খুব ধীরগতিতে ফ্লাইওভার ও আন্ডারপাসগুলোতে উঠে। আর দুরপাল্লার বাস ওই ধীরগতি ট্রাকের পেছনে না গিয়ে ফ্লাইওভার ও আন্ডারপাসের নিচ দিয়ে বেপরোয়া গতিতে যায়। এই বেপরোয়া গতির জন্যই অকালেই নিভে গেলো ওই স্বামী-স্ত্রীর প্রাণ। তবে এসব ওভারলোড ট্রাক ও বেপরোয়া গতির বাসের বিরুদ্ধে পুলিশ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না নেওয়ায় প্রায় প্রতিনিয়ত এমন দুর্ঘটনা ঘটছে।

নাওজোড় হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহাদাত হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ওই দুর্ঘটনার পর ঘাতক বাসটি আটক করলেও চালক ও তার সহযোগী পালিয়ে গেছেন। তবে এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আরও খবর