Logo
আজঃ বুধবার ২২ মে ২০২৪
শিরোনাম

উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে আবারো নৌকাকে বিজয়ী করতে হবে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ২৬৮জন দেখেছেন

Image
লিয়াকত হোসাইন লায়ন,ইসলামপুর(জামালপুর) প্রতিনিধি।। নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আবারও আওয়ামী লীগকে জনগণের সেবা করার সুযোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব ফরিদুল হক খান দুলাল এমপি। 

রবিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) জামালপুরের ইসলামপুরে উপজেলার বাটিকামারী এলাকার উন্নয়ন কার্যক্রম পরিদর্শন ও সাধারণ জনগনের সাথে মত বিনিময় সভায় বাটিকামারী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এলাকাবাসী আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নের কথা তুলে ধরে  বলেন, নৌকা মার্কা ক্ষমতায় আছে বলেই আজকে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে। নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে আবারও আপনাদের সেবা করার সুযোগ দেবেন। একমাত্র নৌকা মার্কা ক্ষমতায় আসলে দেশের উন্নতি হয়। নৌকা মার্কা ক্ষমতায় আসলে কৃষকের ভাগ্য পরিবর্তন হয়।

নৌকা মার্কা ক্ষমতায় আছে বলেই ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ গেছে। দেশ ও জনগণের উন্নয়ন করতেই আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসে। নৌকা মার্কায় ভোট পেলে দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন হয় সেটা জননেত্রী শেখ হাসিনা প্রমাণ করেছেন। প্রতিটি কাজের লক্ষ্য দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করা। দেশের মানুষের উন্নতি করা।
তিনি আরো বলেন, একটি গোষ্ঠী দেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে খেলছে মন্তব্য করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা চাই আমাদের দেশ এগিয়ে যাক, এখানে একটা গোষ্ঠী আছে যারা সব সময় দেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে খেলে। জাতির পিতাকে হত্যা করে সেই খেলা শুরু হয়েছিল। বার বার ক্ষমতা দখল, হত্যা-ক্যু ষড়যন্ত্রের রাজনীতি। তাই সকল ষরযন্ত্র উৎখাত করে উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে আবারো নৌকাকে বিজয়ী করতে হবে।
উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আঃ খালেক আকন্দের সভাপতিত্বে এতে জেলা পরিষদ সদস্য মজিবুর রহমান শাহজাহান,উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. আঃ সালাম, সহ সভাপতি শাহাদত হোসেন, মহিলা সম্পাদক শাহিদা পারভিন লিপি,পলবান্ধা ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান কমল প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

আরও খবর



শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৭ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৭ মে ২০২৪ | জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আজ (শুক্রবার)। ১৭ মে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার ৪৪তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস।জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার পর ১৯৮১ সালের ১৭ মে দীর্ঘ নির্বাসন জীবন শেষে শেখ হাসিনা বাংলার মাটিতে ফিরে আসেন।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালরাতে বিপথগামী একদল সেনা কর্মকর্তা নির্মম বুলেটের আঘাতে ইতিহাসের নৃশংসতম হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করে। এসময় বিদেশে থাকায় বেঁচে যান বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা। বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের পর স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ভূলুণ্ঠিত করে বাঙালি জাতির অস্তিত্বকে বিপন্ন করতে নানামুখী ষড়যন্ত্র শুরু করে ঘাতকগোষ্ঠী।

বাঙালি জাতির জীবনে জগদ্দল পাথরের মতো চেপে বসে ঘোর অন্ধকার। ঠিক তেমনি এক ক্রান্তিলগ্নে ১৯৮১ সালের ১৪, ১৫ ও ১৬ ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার অনুপস্থিতিতে তাকে সংগঠনের সভাপতি নির্বাচিত করা হয়। দেশমাতৃকার মুক্তির সংগ্রামে নেতৃত্ব দেওয়ার দায়িত্ব অর্পণ করা হয় জাতির পিতার জ্যেষ্ঠ কন্যার হাতে। বঙ্গবন্ধু কন্যার হাতে যেন নেতৃত্ব না যায়, সেজন্য নানা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে সামরিক শাসকগোষ্ঠী।

পরে ১৯৮১ সালের ১৭ মে বিকেল সাড়ে ৪টায় ইন্ডিয়ান এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে শেখ হাসিনা ভারতের রাজধানী দিল্লী থেকে কোলকাতা হয়ে তৎকালীন ঢাকা কুর্মিটোলা বিমানবন্দরে এসে পৌঁছান। সেদিন রাজধানী ঢাকা মিছিলের নগরীতে পরিণত হয়। সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত ঢাকা শহর মিছিল আর স্লোগানে প্রকম্পিত হয়ে ওঠে। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া আর প্রচণ্ড ঝড়-বৃষ্টিও সেদিন লাখ লাখ মানুষের মিছিলকে গতিরোধ করতে পারেনি। কুর্মিটোলা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ও শেরেবাংলা নগর পরিণত হয় জনসমুদ্রে।

বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে এক নজর দেখতে সেদিন সারাদেশের মানুষের গন্তব্য ছিল রাজধানী ঢাকা। স্বাধীনতার অমর স্লোগান, ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ ধ্বনিতে প্রকম্পিত হয় বাংলার আকাশ-বাতাস। জনতার কণ্ঠে বজ্রনিনাদে ঘোষিত হয়েছিল ‘হাসিনা তোমায় কথা দিলাম পিতৃ হত্যার বদলা নেব’, ‘ঝড়-বৃষ্টি আঁধার রাতে আমরা আছি তোমার সাথে’, ‘শেখ হাসিনার আগমন, শুভেচ্ছায় স্বাগতম’ ইত্যাদি স্লোগান।

দেশে ফিরে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও স্বপ্ন বাস্তবায়নের অঙ্গীকার, বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতা হত্যার বিচার, স্বৈরতন্ত্রের চির অবসান ঘটিয়ে জনগণের হারানো গণতান্ত্রিক অধিকার পুনঃপ্রতিষ্ঠা, সার্বভৌম সংসদীয় পদ্ধতির শাসন ও সরকার প্রতিষ্ঠার শপথ নিয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন শেখ হাসিনা।

১৯৮১ সালের ১৭ মে ঝড়-বাদল আর জনতার আনন্দ অশ্রুতে অবগাহন করে শেরেবাংলা নগরে লাখ লাখ জনতার সংবর্ধনার জবাবে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা বলেছিলেন, ‘সব হারিয়ে আমি আপনাদের মাঝে এসেছি, বঙ্গবন্ধুর নির্দেশিত পথে তার আদর্শ বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে জাতির পিতার হত্যার প্রতিশোধ গ্রহণে আমি জীবন উৎসর্গ করতে চাই।

তিনি আরও বলেছিলেন, ‘আমার আর হারাবার কিছুই নেই। পিতা-মাতা, ভাই রাসেলসহ সকলকে হারিয়ে আমি আপনাদের কাছে এসেছি, আমি আপনাদের মাঝেই তাদেরকে ফিরে পেতে চাই। আপনাদের নিয়েই আমি বঙ্গবন্ধুর নির্দেশিত পথে তা বাস্তবায়ন করে বাংলার দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে চাই। বাঙালি জাতির আর্থ-সামাজিক তথা সার্বিক মুক্তি ছিনিয়ে আনতে চাই।’

স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আজ ১৭ মে সকাল ৯টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের নেতাদের শুভেচ্ছা বিনিময়, বিকেল সাড়ে ৩টায় তেজগাঁওয়ে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগ ভবনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় জাতীয় নেতা ও বরেণ্য বুদ্ধিজীবীরা বক্তব্য রাখবেন। এতে সভাপতিত্ব করবেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন।

এছাড়া সব ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান বিশেষ প্রার্থনাসহ দেশব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হবে।


আরও খবর



রূপসীতে ব্যবসায়ীর দোকানে হামলা,ভাংচুর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ৮৯জন দেখেছেন

Image

আবু কাওছার মিঠু রূপগঞ্জ নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি:রূপগঞ্জের রূপসীতে শের ই আলম ভুইয়া নামক এক সিমেন্ট ব্যবসায়ীর দোকানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করেছে সন্ত্রাসী জজ মিয়ার বাহিনী। গত ১২ মে সকালে রূপসী বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অবস্থিত "মেসার্স হেরা ট্রেডার্স" নামক দোকানে এ ঘটনা ঘটে। এব্যাপারে গত ১৩ মে রূপগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন শের ই আলম ভুইয়া। 

অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে রূপসী এলাকার জজ মিয়া (৫৮) ও তার ছেলে রিপনসহ তাহাদের সহযোগী অজ্ঞাতনামা ৭/৮জন হাতে দা, চাকু, ছুরি, লোহার রড, চাপাতি, লাঠিসোটা ইত্যাদি দেশীয় তৈরি অস্ত্রশস্ত্র সজ্জিত হইয়া রূপগঞ্জ থানাধীন রূপসী বাসষ্ট্যান্ড সংলগ্ন স্কয়ার টয়লেট্রিক্স লিঃ এর পূর্ব পার্শ্বে তার প্রতিষ্ঠানে অনধিকার প্রবেশ করিয়া দোকানপাট ভাংচুর ও লুটপাট করিয়া হুমকি ধামকি প্রদান করে। 

শের ই আলম ভুইয়া জানান, ২নং আসামী রিপন আমার প্রতিষ্ঠানের ক্যাশ বাক্সের ড্রয়ার ভাঙ্গিয়া ক্যাশ বাক্সে রক্ষিত নগদ-২,০০,০০০/-টাকা চুরি করিয়া নেয়। আমার ডাক-চিৎকার শুনিয়া আশপাশ হইতে লোকজনসহ পথচারিরা আগাইয়া আসিতে থাকিলে উপরোক্ত আসামীরা বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতিসহ প্রাননাশের হুমকি প্রদান করিয়া দ্রুত পালাইয়া যায়। আশপাশের লোকজনের সহায়তায় আহত অবস্থায় উদ্ধার হইয়া স্থানীয়ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহণ করি।

  -খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



ইভটিজিং এর প্রতিবাদ করায় শিক্ষকের দুহাত ভাঙ্গলো কিশোর গ্যাং!!

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৭ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ৯৫জন দেখেছেন

Image

কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি:নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে শ্রেণি কক্ষে ঢুকে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে ইভটিজিং করার প্রতিবাদ করায় এক শিক্ষককে পিটিয়ে দুই হাত ভেঙ্গে দিয়েছে কিশোর গ্যাং।ভুক্তভোগী শিক্ষকের নাম মো.হাসান (৩৪)। তিনি উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের জামেয়া শরাফতিয়া ইসলামিয়া ফাযিল মাদরাসার শিক্ষক।

খবর নিয়ে জানা যায় বিকেলে দিকে উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের মদিনা বাজারের পূর্ব পাশে এ ঘটনা ঘটে। এর আগে, একই দিন বেলা পৌনে ১১টার দিকে উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের জামেয়া শরাফতিয়া ইসলামিয়া ফাযিল মাদরাসার ৬ষ্ঠ শ্রেণির কক্ষে এই ইভটিজিংয়ের এই ঘটনা ঘটে।

হামলাকারী মো.রাজু (২৪) ও আবু নোমান (২৫) মুছাপুর ইউনিয়নের জামেয়া শরাফতিয়া ইসলামিয়া ফাযিল মাদরাসা এলাকার বাসিন্দা।

জামেয়া শরাফতিয়া ইসলামিয়া ফাযিল মাদরাসার আরবি প্রভাষক মো.শহীদ উল্লাহ অভিযোগ করে বলেন, বেলা পৌনে ১১টার দিকে বহিরাগত রাজু জামেয়া শরাফতিয়া ইসলামিয়া ফাযিল মাদরাসার ক্যাম্পাসে আসে। এরপর সে মাদরাসার ছাত্র নোমানের সহযোগিতায় ৬ষ্ঠ শ্রেণির কক্ষে ঢুকে এক ছাত্রীকে ইভটিজিং করে। ওই সময় ছাত্রী তার ভয়ে শ্রেণী কক্ষে থাকা বেঞ্চের নিচে লুকিয়ে যায়। এরপর ইভটিজিংয়ের শিকার ছাত্রীর অন্য সহপাঠীরা বাধা দিলেও রাজু তাকে উত্ত্যক্ত করতে থাকে। খবর পেয়ে মাদরাসার নূরানি বিভাগের শিক্ষক মো.সোহেল এগিয়ে আসলে ইভটিজার রাজু ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা মাদরাসার ভিতরে ওই শিক্ষককে মারধর করে। তাৎক্ষণিক একই মাদরাসার শিক্ষক হাসান এগিয়ে এসে সহকর্মী শিক্ষকের ওপর হামলা ও ছাত্রীকে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করলে তার সাথেও ইভটিজারদের বিরোধ দেখা দেয়। ওই বিরোধের জের ধরে বিকেল ৫টার দিকে মাদরাসা থেকে বাড়ি ফেরার পথে কিশোর গ্যাংয়ের সদস্য রাজু ও নোমানের নেতৃত্বে ৭/৮জন কিশোর গ্যাং সদস্য তার গতিরোধ করে। পরে তারা শিক্ষক হাসানের ওপর হামলা চালায়। তখন হামলাকারীরা তাকে রাস্তায় দৌড়াতে দৌড়াতে বেধড়ক পেটায়। এতে তার দুই হাত ভেঙ্গে যায়।

হামলার শিকার শিক্ষকের শাশুড়ি বিবি খাদিজা ও শ্বশুর মো.সাহাব উদ্দিন বলেন, ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় কিশোর গ্যাং সদস্যরা এ হামলা চালায়। বর্তমানে হাসানকে জেলা শহর মাইজদির জাপান বাংলাদেশ হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

জাপান বাংলাদেশ হাসপাতালের অর্থোপেডিক ডাক্তার আবদুর রহমান বলেন,তার একটি হাতে অপারেশন করে পাত বসানো হয়েছে। অন্য একটি হাতে প্লাস্টার করা হয়েছে। তার দুটি হাত ভেঙ্গে গেছে।

নোয়াখালীর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান বলেন, বিষয় শুনেছি। ভুক্তভোগী শিক্ষকের পরিবারকে কোম্পানীগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর



বিচারপতি সৈয়দ মাহাবুব মোর্শেদের ৪৫ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ‘চারুলতা পদক’-২০২৪ প্রদান

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ৫৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আমাদের বাংলাদেশের ইতিহাস, ঐতিহ্যকে সমৃদ্ধ করার লক্ষ্যে ২৫নভেম্বর ২০১০ইং সাল থেকে কাজ করে যাচ্ছে নিয়মিত ভাবে চারুলতা সংস্কৃতি সংসদ। শুরু থেকেই সুস্থ শিল্প সাহিত্য ও উন্নয়ন, সামাজিক সচেতনতাসহ সাহিত্যসভা, কবি-সাহিত্যিকদের স¦রনের অনুষ্ঠানের পাশাপাশি মানুষের ভালোবাসা নিয়ে কাজ করছে। প্রতিভা বিকাশে গুণী মানুষদের বিশেষ স্বীকৃতি হিসেবে ‘চারুলতা পদক’ প্রদানের মাধ্যমে আজোও কাজ করছে। সংগঠনের কাজের ধারাবাহিকতায় ‘প্রয়াত প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহাবুব মোর্শেদের ৪৫ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ‘অনিন্দ্য সমাজ গড়তে আমাদের ভূমিকা শীর্ষক আলোচনা, ‘চারুলতা পদক’-২০২৪ প্রদান ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান’ হয়ে গেলো ১৭ মে, ২০২৪, শুত্রুবার, বিকেল ৪টায়, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র মিলনায়তনে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যারা ছিলেন :

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ের সাবেক তথ্য সচিব ও সৈয়দ মার্গুব মোর্শেদ। সভাপতিত্ব করেন সংগঠক, নাট্যকার, নির্মাতা, ৯০ দশকের কবি রানা হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন : বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, কবি কাজলী আহমেদ।  প্রধান আলোচক হিসেবে ছিলেন : বাংলাদেশ কলেজ শিক্ষক সমিতি’র  প্রেসিডিয়াম মেম্বার অধ্যাপক এ. কে. এম আব্দুল আঊয়াল।  প্রয়াত প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহাবুব মোর্শেদকে দিবেদিত করে কবিতা আবৃত্তি পরিবেশন করেন: সয়ৈদ ইসমাত তোহা, বশরিুল আলম নান্নু, আনোয়ার পারভজে, রোকসানা মহুয়া, জাহানারা রখো,  গাজী জাকির হোসেন। সংগীত পরিবেশন করেন: সংগীতশিল্পী সোহেল আহমেদ। 

‘চারুলতা পদক’-২০২৪ প্রদান আর যারা এবছর পদক পেলেন তারা হলেন:

খালেদা আক্তার কল্পনা (খ্যাতিমান অভিনেত্রী), সোহেল আহমেদ (সংগীতশিল্পী), সয়ৈদ ইসমাত তোহা (আবৃত্তিশিল্পী), মোঃ সোহেল রানা (প্রতিষ্ঠাতা, এস বি এগ্রো ফার্ম), অধ্যাপক মাহবুবা বেগম (কবি), নাজনীন নাজু (সংগীতশিল্পী), ভিপি হযরত আলী মিয়া (সমাজসেবায়), এ্যাডভোকেট মোঃ মোজাহার আলী (বিজ্ঞ আইনজীবি), মোঃ ওবায়দুল হক (সংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব), মীর হাসান স্বপন (সংগীত পরিচালক), মনিরা খাতুন (গ্র্রন্থকার সেবা)।



আরও খবর



ইউক্রেনের ক্ষেপনাস্ত্র হামলা রাশিয়ার অভ্যন্তরে, নিহত ১৪

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ৯৩জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:ইউক্রেন ভয়াবহ পাল্টা হামলা চালিয়েছে রাশিয়ার অভ্যন্তরে। রবিবার (১২ মে) রাশিয়ার সীমান্ত শহর বেলগ্রোদে ইউক্রেনের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় একটি ১০তলা ভবনের একটি অংশ ধসে পড়ে।

এতে কমপক্ষে ১৪ জন নিহত এবং ২০ জনেরও বেশি রুশ নাগরিক আহত হয়েছেন। খবর তাসের

এ ঘটনায় ধবংসস্তূপের নীচে আরো অনেকে চাপা পড়ে থাকতে পারে বলেও ধারনা করছে রুশ কর্তৃপক্ষ। রাশিয়ার জরুরি সহায়তা বিষয়ক মন্ত্রণালয় সোমবার এক টেলিগ্রাম বার্তায় এ খবর জানিয়েছে।

রুশ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ইউক্রেনের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ওই ১০তলা অ্যাপার্টম্যান্ট ভবনটি বিধ্বস্ত হয়ে ওই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পরই উদ্ধারকর্মীরা ধ্বংসস্তূপের মধ্য থেকে ১৪ জনের মরদেহ উদ্ধার করেন। ২০ জনকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।


আরও খবর