Logo
আজঃ শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪
শিরোনাম

টুইটারের অফিস বন্ধ হচ্ছে

প্রকাশিত:শনিবার ১৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ৩৩৩জন দেখেছেন

Image

অনলাইন ডেস্ক; বিশ্বের শীর্ষ ধনী ইলন মাস্কের মালিকানাধীন সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম টুইটারের সব অফিস সাময়িকভাবে বন্ধ করার ঘোষণা এসেছে। এ সিদ্ধান্ত শিগগির কার্যকর হবে। আগামী সোমবার, ২১ নভেম্বর আবারও খুলে দেওয়া হবে অফিস। খবর বৃটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসির।

প্রতিবেদনে ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যমটি জানায়, কর্মীদের কাছে পাঠানো এক বার্তায় টুইটার কর্তৃপক্ষ এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে। অবিলম্বে এ ঘোষণা কার্যকর হবে বলে মেইলে জানানো হয়।

একই সঙ্গে ‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, গণমাধ্যম বা অন্য কোথাও কোম্পানির তথ্য নিয়ে আলোচনা করা থেকে বিরত থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তবে এ তথ্য যাচাইয়ের ক্ষেত্রে বিবিসির কাছে তাৎক্ষণিকভাবে কোনও মন্তব্য করেনি টুইটার কর্তৃপক্ষ।

উল্লেখ্য, গত ২৭ অক্টোবর চার হাজার ৪শ কোটি ডলারে টুইটার কেনেন টেসলার ও স্পেস এক্সের প্রধান নির্বাহী ও বিশ্বের শীর্ষ ধনী ইলন মাস্ক। মালিকানা নেওয়ার পর এর উপর নিজের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করেন তিনি। প্রথমেই তিনি প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী এবং অর্থ ও আইন বিভাগের নির্বাহী কর্মকর্তাদের বিদায় দেন। ভেঙে দেন পরিচালনা পর্যদ এবং জারি করেন ১২ ঘণ্টার অফিস ও ছুটিহীন অফিস নীতি। এছাড়া তিনি কর্মীদের অবকাঠামোগত খরচ বছরে ১শ কোটি ডলার সাশ্রয়ের নির্দেশ দেন।

এক টুইটার বার্তায় মাস্ক বলেন, দিনে যখন কোম্পানিটি ৪০ লাখ ডলার লোকসান করছে, তখন দুর্ভাগ্যবশত জনবল ছাঁটাই ছাড়া কোনও বিকল্প নেই।


আরও খবর



প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনা বৃহস্প‌তিবার জার্মা‌নি সফরে যাচ্ছেন

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৬৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বৃহস্প‌তিবার (১৫ ফেব্রুয়া‌রি) মিউনিখ সিকিউরিটি কনফারেন্সে যোগ দিতে জার্মা‌নি সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনা। টানা তৃতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর এটি তার প্রথম বিদেশ সফর।

জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ১৬ থেকে ১৮ ফেব্রুয়ারি জার্মানির মিউনিখে অনুষ্ঠিতব্য মিউনিখ সিকিউরিটি সম্মেলনের ৬০তম আসরে অংশ নেবেন। আসন্ন সম্মেলনে অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ইস্যুতে বাংলাদেশের অবস্থা তুলে ধর‌বেন। তি‌নি জলবায়ু পরিবর্তন ইস্যুকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেবেন।

মিউ‌নি‌খ স‌ম্মেল‌নে যোগ দেওয়ার পাশাপা‌শি বেশ কয়েকজন সরকারপ্রধানসহ অন্যদের সঙ্গে বৈঠকের কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর। এর মধ্যে জার্মানির চ্যান্সেলর ওলাফ শোলজ, ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রী মেট ফ্রেডেরিকসেন ও নেদারল্যান্ডসের প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুটের সঙ্গে বৈঠক করবেন শেখ হা‌সিনা।

এছাড়া ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর এবং মেটা গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্সের প্রেসিডেন্ট নিক ক্লেগ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন।

মিউনিখ সিকিউরিটি সম্মেলন মূলত সমকালীন ও ভবিষ্যৎ নিরাপত্তার স্বার্থে উচ্চ-পর্যায়ের নিয়মিত আলোচনার জন্য বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ফোরাম হিসেবে বিবেচিত। উল্লেখযোগ্য সংখ্যক রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধান, আন্তর্জাতিক সংস্থা ও এনজিও নেতারা, মিডিয়া, সুশীল সমাজ, সরকারি ও বেসরকারি খাতের শীর্ষস্থানীয় প্রতিনিধিরা এ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করে থাকেন। এর আগে, ২০১৭ ও ২০১৯ সালে মিউনিখ সম্মেলনে যোগ দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী দেশে ফেরার পথে সংযুক্ত আরব আমিরাত সফর করার কথা রয়েছে।


আরও খবর



ঢাকা-১৭ আসনের সকল নাগরিক সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিলেন আরাফাত

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯৮জন দেখেছেন

Image
মারুফ সরকার, স্টাফ রিপোর্টার: তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী আরাফাত আজ বলেছেন, তিনি ঢাকা-১৭ আসনের বাসিন্দাদের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখবেন এবং তাদের ভোটে নির্বাচিত একজন সংসদ সদস্য হিসেবে তাদের সমস্যা সমাধানে তার প্রচেষ্টা থাকবে।
তিনি বলেন, ‘আমি এই নির্বাচনী এলাকার প্রতিটি ওয়ার্ডের এমনকি প্রতিটি মানুষের কাছ থেকে  আপনাদের কথা শুনব এবং আপনাদের পক্ষে কাজ করব। ’

রাজধানীর বনানী বিদ্যানিকেতন স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে ঢাকা-১১-এর সংসদ সদস্য মো. ওয়াকিল উদ্দিনকে দেওয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরাফাত এসব কথা বলেন।তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী এবং এ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় আরাফাতের জন্য  ঢাকা মহানগর উত্তরের ১৯ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ এ সম্বর্ধনার আয়োজন করে।বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার অঙ্গীকারও করেন আরাফাত।তিনি বলেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন গণতন্ত্রকে রক্ষা করেছে এবং দেশে গণতান্ত্রিক চর্চা নিশ্চিত করেছে।

এ নির্বাচন শুধু সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার জন্য নয় বরং  যারা নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছিল  এটা তাদের জন্য যথার্থ জবাব বলেও  উল্লেখ করেন প্রতিমন্ত্রী ।
নির্বাচন কমিশনের ঘোষণা অনুযায়ী ভোটার উপস্থিতি ৪১ দশমিক ৮ শতাংশ ছিল উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী  বলেন দেশে বসবাস করছেন না  এবং দেশের মধ্যেও এক স্থান থেকে  অন্য স্থানে চলে  গেছেন  তাদেরটা হিসেব করা হয়নি।

প্রায় ১.২৭ কোটি ভোটার অর্থাৎ আমাদের দেশের ১০ শতাংশ ভোটার দেশে থাকেন না এবং ১০-১৫ শতাংশ ভোটার দেশের  মধ্যেই স্থান পরিবর্তন  করেছেন,  কিন্তু তারা নির্বাচন কমিশনকে অবহিত করেন না।সুতরাং, আমরা যদি ভোটারের প্রকৃত হার নির্ধারন  করতে চাই তবে আমাদেরকে ৭৫ শতাংশ ভোটারের মধ্যে গণনা করতে হবে।  কারণ আপনি প্রতিটি আসনে গড়ে ২৫ শতাংশ ভোটার খুঁজে পাবেন না। সুতরাং, আমরা বলতে পারি প্রায় ৬০ শতাংশ ভোটার নির্বাচনে তাদের ভোট দিয়েছেন। একই সমস্যা তার নির্বাচনী এলাকায়ও রয়েছে।

নির্বাচন নিয়ে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিএনপি ও তাদের দোসরদের ভোট বর্জনের  আহ্বান ও হুমকির মধ্যেও জনগণ ভোট দিয়ে নির্বাচন সফল করেছে।
তিনি বলেন, বিএনপি ও তাদের মিত্ররা নির্বাচন বানচাল করতে হরতাল, অবরোধ ইত্যাদি ডেকে বাস, ট্রেনের  কোচে আগুন দেওয়াসহ নাশকতামূলক কর্মকান্ড চালালেও জনগণ নির্বাচনে ভোট দিয়ে তাদের যথাযথ  জবাব দেওয়ায় তারা ব্যর্থ হয়েছে।

১৯ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ  সভাপতি ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. মফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি এবং আওয়ামী লীগের ঢাকা মহানগর উত্তর শাখার সহ-সভাপতি ওয়াকিল উদ্দিন এমপি  প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য গোলাম রব্বানী চিনু, বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শবনম জাহান শিলা, বনানী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এ কে এম জসিম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মীর মোশাররফ হোসেন প্রমুখ।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের পর বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

আরও খবর



নাসিরনগর থেকে তিন ডাকাত ও এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৩২৫জন দেখেছেন

Image

মোঃ আব্দুল হান্নান,নাসিরনগরঃ- ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর থানা পুলিশ গত দুই দিনে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে উপজেলা বিভিন্ন জায়গা থেকে তিন ডাকাত ও এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে।জানা গেছে নাসিনগর থানা পুলিশের এস আই রূপন নাথ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে আনন্দপুর রাস্তার ডাকাতির মামলার প্রধান আসামী শুক্কুল আলীকে পার্শ্ববর্তী মাধবপুর থানাধীন রতনপুর থেকে গ্রেপ্তার করে।


সেই সাথে ডাকাত নাসিরনগর সদরের মহর রাজার ছেলে ডাকাত সর্দার  তাবাকর  রাজাকে তার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।অপরদিকে ডাকাত সর্দার কালন ও গুনিয়াউক ইউনিয়নের কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী  সাহেদ মিয়ার ছেলে মোঃ আলাউদ্দিন (২৬) কে ৫০ পিস ইয়াবা সহ গ্রেপ্তার করেছে নাসিরনগর থানার মেধাবী ও চৌকশ পুলিশ অফিসার এস আই রূপন নাথ।

এস আই রূপন নাথ জানায়,তাদের প্রত্যেকের বিরোদ্ধে একাদিক মামলা চলমান রয়েছে।আদালতের মাধ্যমে তাদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



"নোবেলের ম্যাজিক শুধু প্রতারণা"

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৭৯জন দেখেছেন

Image

রমজান আলীঃ

দুনিয়ার প্রাচুর্যশালী ব্যক্তিবর্গ, সংস্থা, খ্যাতিমান,এর কীর্তি,তথ্য, উপাত্ত দিয়ে তৈরি করে বিশেষ বিবেচনার জন্য। মহৎ মানুষের গভীর ক্রন্দন থেকে সারা জীবনের সঞ্চয়ী সকল অর্থ দান করে গেলেন মানব কল্যাণার্থে। যিনি রেখে গেলেন তিনি আজ বিতর্কিত। য আলফ্রেন্ড নোবেল পৃথিবীর তাবৎ মানুষের মনের মনি কোঠায় স্থান করে রয়ে গেল এবং তার পূর্ববর্তী বা পরবর্তী প্রজন্মের চিলি কোঠায়। ভারত উপমহাদেশে প্রথম ১৯১৩ সালে সাহিত্যের এক অঙ্গে গীতাঞ্জলির জন্য রবীন্দ্রনাথ প্রথম নোবেল প্রাইজ এ নির্বাচিত হন। আমরা ভারতবাসী গভীর আপ্লুত, গর্বিত। নন্দিত নায়ক রবি ঠাকুর বাংলা ভাষাকে বিশ্ব দরবারে স্থান করে নেওয়ায় কোটি প্রণাম। বিশ্বকবি রবি ঠাকুর কবি,নাট্যকার, ছড়াকার, গীতিকার ছিলেন। উপরন্ত তাকে স্বভাব কবি ও বলা হয়। ভারত উপমহাদেশে তিনজন স্বভাব জন্মেছিলেন। তারা হলেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কাজী নজরুল ইসলাম ও কবি গোবিন্দ্র নাথ। তারা কাগজ কলম হাতে নিলেই কলম যোদ্ধা হয়ে যান। এইজন্য এই তিনজনই স্বভাব কবি হয়েছেন। কবি কাজী নজরুল ইসলাম ২০০ কোটি মুসলিমের প্রতিনিধিত্ব করে কবিতা লিখে জেল খেটেছেন, এমন নজির পৃথিবীর ইতিহাসে আর নেই।

"রমজানের ওই রোজার শেষে এলো খুশির ঈদ"এই গান টি তো শিক্ষা সংস্কৃতিতে পড়ে। ভাষার জন্য শহীদ হয়েছেন তার দৃষ্টান্ত তো পৃথিবীর ইতিহাসে আর কারো নাই। কিন্তু উনারা মুসলিম হওয়ায় তার নজর করেনি পৃথিবীর কোন সংস্থায়। নজর কারেণি বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য। যিনি প্রায় ৪৪ বছর পর্যন্ত দলনেত্রী, পঞ্চম বারের মত একটি দেশের প্রধানমন্ত্রী যা ইন্দিরা গান্ধীর থেকেও প্রায় ১০ বছর বেশি ক্ষমতা আরোহণ করে আসছেন। কিন্তু এই বাঙালি নেত্রী নাকি বিশ্বের ২২ তম ক্ষমতাধর নারী। যদি উনি ইউরোপ বা আমেরিকার কোন অখ্যাত দেশের নেত্রী ও হতেন তাহলে একাধিকবার নোবেল পুরস্কারে ভূষিত হতেন। তবে ডক্টর ইউনুস এর জন্য তাদের দরদের কমতি নেই। যদিও আরেকবার নোবেল উপাধি দেওয়া যায় কিনা সেই ব্যাপারে তদবির করা উচিত। আমাদের সন্ত্রাসী প্রতিবেশী মিয়ানমার তারা যে নারকীয় হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছিল তার প্রতিবাদ না করে আমাদের ধনাঢ্য প্রতিবেশীরাও কৌশলে চুপ করেছিলেন। রোহিঙ্গা মুসলিমরা দুনিয়ার কেয়ামত দেখে দিগ্বিদিক হারিয়ে এই বাংলায় আশ্রয় নিয়েছিল। ১৫ লক্ষ মুসলিমকে জীবিত অবস্থায় আশ্রয় দিয়ে যে নজির বাংলার প্রধানমন্ত্রী স্থাপন করলেন তাকে শতবার নোবেল পুরস্কারে ভূষিত করা উচিত। ৭২ টি বাংলাদেশের সমান কানাডা সেখানেও কি এই রোহিঙ্গাদের স্থান দিতে পারতো না? অথবা ৩৮ টি বাংলাদেশের সমান দেশ নিয়ে আমাজান বন সৃষ্টি সেখানে কি এই অসহায় রোহিঙ্গাদের স্থান হতো না? কারণ আশ্রয় প্রার্থীরা সবাই মুসলিম, সেজন্যই এত অবহেলা। ভাই আমরা এই বিবেকহীন বিচারকদের ঘৃণা করি। তামাশার বিচার ব্যবস্থা মানি না, ভুয়া জাতিসংঘ মানি না।


আরও খবর

ভালোবাসার দিন আজ

বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




মাটিরাঙ্গায় অভিভাবক ও মা সমাবেশ অনুষ্টিত

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৪৮জন দেখেছেন

Image
জসীম উদ্দিন জয়নাল,পার্বত্যাঞ্চল প্রতিনিধি:শিক্ষিত মা এক সুরভিত ফুল, প্রতিটি ঘর হবে একটি স্কুল, সবার জন্য মানসম্মত প্রাথমিক  শিক্ষা নিশ্চিত কল্পে খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গায় গকুল পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অভিভাবকদের মা সমাবেশ অনুষ্টিত হয়েছে। 

মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি )দুপুরের দিকে গকুল পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্টিত অভিভাবক ও মা সমাবেশে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ধর্ম জ্যোতি ত্রিপুরা,র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্যে রাখেন মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ডেজী চত্রুবর্তী।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন, গকুল পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এর প্রধান শিক্ষক মো.মাসুদ পারভেজ।

গকুল পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এর শিক্ষক আইন উদ্দিন এর সঞ্চালনায় মাটিরাঙ্গা সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হেমেন্দ্র ত্রিপুরা, মাটিরাঙ্গা উপজেলা সহকারি প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার অংহ্লা প্রু মারমা,  মাটিরাঙ্গা উপজেলা রিসোর্স ইন্সট্রাক্টার মো.আগজর হোসেন,মাটিরাঙ্গা সদর ইউপি সদস্য দ্বীপার মোহন ত্রিপুরা সহ জনপ্রতিনিধি,শিক্ষক, অভিভাবক, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য, বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথি,র বক্তব্যে মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ডেজী চত্রুবর্তী  শিক্ষার্থীদের নিয়মিত স্কুলে পাঠানোর জন্য  অভিভাবকদের  আহবান জানিয়ে বলেন পাঠ্য বইয়ের পাশাপাশি নতুন কারিকুলামের বিভিন্ন বই  পড়ার জন্য অভিভাবকদের পরামর্শ দেন।শিশুরা জীবনের প্রথম শিক্ষাগুলো মায়েদের কাছ থেকেই পায়। শিশুর প্রথম শিক্ষক মা। তাই সবার আগে মায়েদের সচেতন হতে হবে। শিক্ষার্থীদের  জীবনের প্রতিটি সময় মূল্যবান তাই নিজেকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে ভাল ভাবে পড়া লেখা করতে হবে। মোবাইল আসক্ত থেকে শিক্ষাথীদের ধরে রাখতে হবে। শিক্ষার্থীকে শিক্ষার পাশাপাশি দেশপ্রেমে সমৃদ্ধ আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। শিক্ষার্থীরাই বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বাস্তবায়নের মাধ্যমে একদিন বাংলাদেশকে উন্নত রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তুলবে।

মা সমাবেশ শেষে প্রধান অতিথি মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ডেজী চত্রুবর্তী উপজেলা প্রশাসনের পক্ষথেকে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরন, খেলার সামগ্রী,শীতার্তদের মাঝে শীত বস্ত্র তুলেদেন।

আরও খবর