Logo
আজঃ বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩
শিরোনাম

তদারকির অভাবে, নবীনগর শিবপুর-রাধিকা সড়কে অতিরিক্ত ভাড়া

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ৩০৬জন দেখেছেন

Image

মোহাম্মাদ হেদায়েতুল্লাহ্ নবীনগর ব্রাহ্মণবাড়ীয়া প্রতিনিধি:ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে নবীনগর উপজেলায় যাতায়াতে কাইতলা,বিটঘর, শিবপুর, কুড়িঘর, গোকনঘাট, নারুই রাধিকা সড়কের সিএনজি ভাড়া বেশি গুনতে হচ্ছে যাত্রীসাধারণের। আগে সিএনজি যোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে তিললাখপীর রোডে বিটঘর যাওয়া আসার সময় লাগত দুই ঘন্টা, তখন সিএনজি ভাড়া ছিল জনপ্রতি ১২০টাকা থেকে ১৩০ টাকা পর্যন্ত। অনেক সময় ঝড়বৃষ্টি অথবা যাত্রীদের সময়-সুযোগ বুঝে বেশি ভাড়া আদায় করে নেওয়ার অভিযোগও উঠে।যেসকল যাত্রীগণ রাধিকা হয়ে ব্রাহ্মণহাতা, শিবপুর, বিটঘর,পর্যন্ত সিএনজি যোগে যাতায়াত করে বর্তমানে ১৩০টাকা দিতে হচ্ছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া হতে রাধিকার রাস্তা ভাল হওয়ায় সময় লাগে আগের অর্ধেকর চেয়েও কম সময়।বিটঘর ইউনিয়নের গুড়িগ্রামের মোশারফ হোসেন বলেন,-" আমি বিটঘর পুকুরপাড় সিএনজি স্টেশন থেকে ৪৫মিনিট বা ৫০ মিনিট সময় লাগছে, এই নতুন  রাধিকা সড়কে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পর্যন্ত আসতে কিন্তু ভাড়া দিতে হয়েছে সেই চারগাছ-তিললাখপীর সড়ক হয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দুই ঘন্টা সময় লাগার ১৩০ টাকা ভাড়া, ৪৫/৫০ মিনিটে আসা ভাড়া কিভাবে ১৩০ টাকা নিল, তা আমার বোধগম্য নয়, আমি মেনে নিতে পারছি না, তবুও ১৩০টাকা ভাড়া দিলাম। আপনারা সাংবাদিকতা করেন, জনসাধারণের কষ্টের কথা তুলে ধরা আপনাদের দায়িত্বের মধ্যে পড়ে, এই নিয়ে কিছু একটা করেন!!। 

তেমনি আরেকজন মহিলা যাত্রী নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক, তিনি বলেন-"আগে ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে তিললাখপীর রোডে বিটঘর দুই ঘন্টার যাতায়াতের ভাড়া যদি ১৩০টাকা আদায় করে, তাহলে বর্তমানে রাধিকারোডে ব্রাহ্মণহাতা,শিবপুর হয়ে বিটঘর পর্যন্ত সময় অনুযায়ী ৬০টাকা ভাড়াই অনেক বেশি। নতুন রোডে সঠিক তদারকির অভাব। তাই নতুন এই রোডে ব্রাহ্মণবাড়িয়া হতে ব্রাহ্মণহাতা, শিবপুর এবং বিটঘরের সিএনজি ভাড়ার বিষয়ে কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন।যেখানে সিএনজি ডাইভাররা মনগড়া ইচ্ছে মতো ভাড়া নিয়ে যাচ্ছে। আবার কখনো কখনো অতিরিক্ত টাকাও দিতে হচ্ছে। এই লাগামহীন ভাড়া আদায়ের,যেন দেখার কেউ নাই।

এখন রাস্তা ভালো করা হয়ছে, আগের সময় নতুন এই রাধিকা সড়কে এখন লাগে না, রাধিকা হয়ে নতুন রোডে বিটঘর যেতে বেশি হলে সময় লাগে ৪৫/৫০ মিনিট। এখানে ভাড়া অনেক বেশি নেওয়া হচ্ছে"। ব্রাহ্মণবাড়িয়া হতে ভাড়ার টাকা নতুন রোডে সঠিক তদারকির মাধ্যমে নির্ধারণ করে দেওয়ার জন্য জোরালো দাবী জানাচ্ছি কর্তৃপক্ষের নিকট"।সরেজমিনে গিয়ে খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, এই নতুন সড়কে অতিরিক্ত ভাড়া দিতে অনিচ্ছুক যাত্রীসাধারন। ভাড়া নিয়ে ড্রাইভার আর যাত্রীদের মধ্যে তর্কবিতর্ক যেন নিত্যদিনের সঙ্গী। ড্রাইভার আর যাত্রীদের মধ্যে তর্ক বিতর্কই থেমে যায় না, হাতাহাতি- মারামারির ঘটনাও অনেক সময় হয়ে থাকে এই ভাড়া অতিরিক্ত দিতে হচ্ছে মনে করে।

তাই অতিবিলম্ব এই রাধিকা সড়কে ব্রাহ্মণবাড়িয়া হতে যাতায়াতের জন্য ব্রাহ্মণহাতা, শিবপুর,বিটঘর ও কাইতলা পর্যন্ত প্রতি স্টেশনের নতুন ভাড়া নির্ধারণ করিয়া দিতে জরুরি ভিত্তিতে পদক্ষেপ গ্রহণ করিতে কর্তৃপক্ষের নিকট জোরালো দাবী জানাচ্ছেন এলাকাবাসী।বিটঘর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মেহেদী জাফর দস্তগীর এবিষয়ে বলেন,- এই রোড পরিচালনায় দায়িত্বরত সকলকে নিয়ে শিবপুর ফাঁড়ির ইনচার্জ কামাল হোসেন ভাইকে সাথে নিয়ে বসব, সকলের পরামর্শক্রমে অচিরেই নতুন করে ভাড়া নির্ধারণের ব্যবস্হা গ্রহন করবো, এই অতিরিক্ত ভাড়া কিছুতেই গ্রহনযোগ্য নয়, এখানের মত এত বেশি ভাড়া বাংলাদেশে কোথাও নাই আমার জানা মতে, আমি এর ব্যবস্হা নিব, সকলের মতামত নিয়ে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



মাগুরায় কাব স্কাউটিং বিষয়ক দিনব্যাপী ওরিয়েন্টেশন কোর্স সম্পন্ন

প্রকাশিত:সোমবার ২৮ আগস্ট ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১০৮জন দেখেছেন

Image
স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:মাগুরা জেলার ৪০ টি  সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪০ জন শিক্ষক নিয়ে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ৫১৬ তম কাব স্কাউটিং বিষয়ক ওরিয়েন্টেশন কোর্স সম্পন্ন হয়েছে।

রবিবার ২৭ আগস্ট দিনব্যাপী এ ওরিয়েন্টেশন কোর্সে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক ও সভাপতি, বাংলাদেশ স্কাউটস, মাগুরা,  মোহাম্মদ আবু নাসের বেগ।

অনু্ষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো: রোকুনুজ্জামান, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার  এ এস এম সিরাজুদ্দোহা প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক,  মোহাম্মদ আবু নাসের বেগ কাবিং কার্যক্রমের গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে বলেন  প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মেধা ও মনন তৈরীতে কাবিং কার্যক্রম অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। যে সকল বিদ্যালয়ে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত  শিক্ষক না থাকার ফলে কাবিং কার্যক্রম বন্ধ ছিল, সে সকল বিদ্যালয়ে এখন কাবিং কার্যক্রম নতুন উদ্যমে শুরু করতে হবে। পৃথিবীর ১৭৬ টি দেশের ন্যায় বাংলাদেশে এই কার্যক্রম সঠিকভাবে পরিচালনা করতে পারলে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা উপকৃত হবে।  

 কাবিং ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে ৪০ জন শিক্ষককে সারাদিনব্যাপী বিভিন্ন সেশনে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। মাগুরা জেলার সিনিয়র স্কাউট লিডারসহ বাংলাদেশ স্কাউটস, খুলনা অঞ্চল থেকে আগত অভিজ্ঞ স্কাউট লিডাররা এই কোর্সে বিভিন্ন সেশন পরিচালনা করেন। শেষে প্রশিক্ষণার্থীদের হাতে সার্টিফিকেট তুলে দেন জেলা প্রশাসক।

আরও খবর



দেশের উন্নয়ন দেখে বিএনপির গাত্রদাহ হচ্ছে: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:রবিবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১৩০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:দেশের উন্নয়ন, অগ্রগতি ও মেগাপ্রকল্প বাস্তবায়ন হওয়ায় বিএনপির গাত্রদাহ হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। আজ রোববার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘বিএনপির রাজনৈতিক দর্শনে জনগণের ভাগ্যোন্নয়নের কোনো প্রত্যয় নেই। তারা যখনই ক্ষমতায় এসেছে দেশের মানুষকে শোষণ করেছে। তাই দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতি তাদের চোখে পড়ে না। আমরা বিএনপি নেতাদের আহ্বান জানাই, তাদের রাজনৈতিক দর্শনের চশমারর লেন্স পরিবর্তন করা দরকার। তাহলেই তারা দেশের উন্নয়ন-অগ্রগতি ও সমৃদ্ধির অভিযাত্রা দেখতে সক্ষম হবে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি নেতারা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা নিয়ে হীন উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বক্তব্য দিচ্ছেন। তাদের বক্তব্যে ধারাবাহিক ষড়যন্ত্র, চক্রান্ত ও পিছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতা দখলের অপতৎপরতার বহিঃপ্রকাশ। নির্বাচন নির্দিষ্ট কোনো দলের জন্য অনুষ্ঠিত হয় না বা কোনো দলের জন্য থেমে থাকে না। সাংবিধানিক বিধান অনুযায়ী জনগণের ভোটাধিকার প্রয়োগের জন্য যথাসময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

তিনি আরও বলেন, ভুল রাজনীতির কারণে জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়া বিএনপি বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক অভিযাত্রাকে নষ্ট করতেই নির্বাচন প্রক্রিয়াকে প্রশ্নবিদ্ধ করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। জনগণের মুখোমুখি হতে ভয় পেয়ে বিএনপি ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তের পথে রাজনীতি করছে। 

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ইতিহাসের নিষ্ঠুর সামরিক স্বৈরাচার জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি, যুদ্ধাপরাধী ও বিদেশি এজেন্টদের সমন্বয়ে গঠিত বিএনপি কোনো দিনই গণতন্ত্রকে ধারণ করেনি। তারা হ্যাঁ/না ভোট ও ভোটারবিহীন প্রহসনমূলক নির্বাচন আয়োজন, রউফ, সাদেক ও আজিজ মার্কা নির্বাচন কমিশন গঠন, ১ কোটি ২৩ লাখ ভুয়া ভোটার সৃষ্টি করে ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে পিছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতা দখলের পথে হাঁটছে।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, এদেশে যাদের হাত ধরে গণতান্ত্রিক পরিবেশ বিনষ্ট হয়েছে, হত্যা-ক্যু ষড়যন্ত্রের রাজনীতি সূচনা হয়েছে আজ তারা গণতন্ত্রের কথা বলে। হাওয়া ভবনের দুর্নীতি, লুটপাট ও দুঃশাসনের গডফাদার এবং সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষকদের মুখে গণতন্ত্রের কথা মানায় না।

কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ সর্বদা গণতান্ত্রিক নীতি, আদর্শ ও মূল্যবোধকে ধারণ করে রাজনীতি করে আসছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবিসংবাদিত নেতৃত্বে দীর্ঘ গণতান্ত্রিক আন্দোলন, স্বাধীনতা সংগ্রাম এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই দীর্ঘ স্বৈরশাসন থেকে মুক্তি পেয়েছে বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধু কন্যার নেতৃত্বেই বাঙালির ভাত ও ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠিত ও সুসংহত হয়েছে। আওয়ামী লীগ এদেশের গণতন্ত্র, উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির মজবুত ভীত রচনায় বদ্ধপরিকর।


আরও খবর

হরতাল-অবরোধের জন্য প্রস্তুত হতে বললেন গয়েশ্বর

বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩




হরতাল-অবরোধের জন্য প্রস্তুত হতে বললেন গয়েশ্বর

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ৫২জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:হরতাল ও অবরোধের মতো কর্মসূচির জন্য নেতাকর্মীদের প্রস্তুত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। তিনি বলেন, আগামীতে কঠোর থেকে কঠোর কর্মসূচি দিয়ে এই সরকারকে মাটিতে শোয়ায়ে দেওয়া হবে।

বৃহস্পতিবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকালে ভৈরব বাসস্ট্যান্ডের দূর্জয় মোড়ে রোডমার্চ শুরুর আগে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন। সরকার পতনের এক দফা দাবি আদায়ের লক্ষে ভৈরব থেকে সিলেটের উদ্দেশে ১৫৯ কিলোমিটার রোডমার্চ করবে বিএনপি।

সমাবেশে গয়েশ্বর বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবার যাবে। যখন যাবে তখন কেউ জানবেন না। এখন তার সিদ্ধান্ত নিতে হবে সে কোথায় যাবে। কোন দেশ তাকে ভিসা দেবে? কোনো দেশ তাকে ভিসা দেবে না। যখন তার যাওয়ার সময় আসবে তখন শেখ হাসিনা পালাবার পথ পাবে না।

তিনি বলেন, এখনও সময় আছে সরে যান। নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন দেন। তাহলে হয়তো দেশে থাকতে পারবেন।

আওয়ামী লীগ বলছে আমরা (বিএনপি) ক্ষমতায় আসলে এক লাখ লোক মারা যাবে। অথচ আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে তো দেশের ১৮ কোটি মানুষই মারা যাবে।

দিনের ভোট দিনে দেবেন মন্তব্য করে তিনি বলেন, রাতের বেলায় কোনো ভোট হবে না। দিনের ভোট দিনে দিতে হবে। রাতের বেলায় আর কোনো ভোট নয়।

গয়েশ্বর বলেন, দেশে একটা জিনিসের দামই কমেছে তা হলো শেখ হাসিনা ও তার সরকার। বাংলাদেশের মানুষ আর শেখ হাসিনার সরকারকে চায় না। এ আন্দোলন বিএনপির নয়, এ আন্দোলন জনগণের মন্তব্য করে তিনি বলেন, বাংলাদেশের মানুষ আজ অন্যায়, অবিচার, অত্যাচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছে। তারা রাস্তায় নেমেছে। এ আন্দোলন বিএনপির নয়, এ আন্দোলন জনগণের।


আরও খবর

আ.লীগ নেতাকে আবারও রাজাকার বললেন এমপি নিক্সন

বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩




তৃতীয় সন্তানের বাবা হলেন তাসকিন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৪ আগস্ট ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১৬১জন দেখেছেন

Image

স্পোর্টস ডেস্ক:তৃতীয়বার সন্তানের বাবা হলেন তাসকিন আহমেদ। কন্যা সন্তান জন্ম দিয়েছেন বাংলাদেশ পেসারের স্ত্রী সৈয়দ রাবেয়া নাঈমা। সবার কাছে দোয়াও চেয়েছেন এই ডানহাতি।

বাবা হওয়ার খবর তাসকিন নিজেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এক পোস্টের মাধ্যমে  জানিয়েছেন।

তাসকিন তার পোস্টে লিখেন, ‘আসসালামু আলাইকুম, আজ রাত আনুমানিক ১ টা ৩০ মিনিটে আমি তৃতীয় সন্তানের (কন্যা) বাবা হয়েছি, আলহামদুলিল্লাহ, আল্লাহ তায়ালার অশেষ রহমতে মা ও মেয়ে দুজনেই সুস্থ আছেন। সবাই দোয়া করবেন।

এর আগে ২০১৭ সালের ৩১ অক্টোবর দীর্ঘদিনের বান্ধবী নাঈমাকে বিয়ে করেন তাসকিন। পরে ২০১৮ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর প্রথমবার পিতৃত্বের স্বাদ পান এই তারকা। তার প্রথম সন্তানের নাম তাশফিন আহমেদ রিহান।

আর গত বছরের এপ্রিলে দ্বিতীয় সন্তানের বাবা হন তাসকিন। এবার তৃতীয় সন্তানের বাবা হলেন।


আরও খবর

আরও ৬ কোটি ডিম আমদানির অনুমোদন

বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩




ঘোড়াঘাট উপজেলায় লাউ গাছের সাথে এ কেমন শত্রুতা?

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১২৩জন দেখেছেন

Image

ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি:প্রতিদিন সপ্ন বুনছিলো এবার লাউ বিক্রি করে কিছুটা হলেও লাভের মুখ দেখবে। পরিশোধ করে দেবে সকলের ঋণ। কিন্তু সে সপ্ন অধরাই থেকে গেল কৃষক ইব্রাহীমের। দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে রাতের আঁধারে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ১ একরের মধ্যে ৯০ শতক জমির প্রায় ১৫০টি লাউগাছ কেটে ফেলেছে প্রতিপক্ষরা। এ বিষয়ে ভুক্তভোগী কৃষক গতকাল বুধবার সকালে ঘোড়াঘাট থানায় প্রতিপক্ষদের নাম উল্লেখ করে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। ঘোড়াঘাট থানার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, কৃষক ইব্রাহিম ও প্রতিপক্ষ একই গ্রামের শাহাদত এবং তার দুই ছেলে আমিনুল ও কামরুলের সাথে জমি জমা নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছিলো। এরই ধারাবাহিকতায় পূর্বশত্রুতার জেরে বুধবার রাত আনুমানিক সাড়ে ৩টায় উপজেলার ৩নং সিংড়া ইউনিয়ন হাটপাড়া দূর্গাপুর এলাকার ইব্রাহীম নামের এক কৃষকের লাউগাছ কেটে দেয় প্রতিপক্ষরা। এ সময় প্রতিপক্ষরা গাছগুলো কেটে চলে যাওয়ার সময় একই গ্রামের তাজ উদ্দিন দেখে ফেলে। পরে ইব্রাহিম সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর ঘটনার বিস্তারিত জানতে পেরে জমিতে গিয়ে দেখতে পায় বেশিরভাগ লাউ গাছের গোড়া রাতের আঁধারে কেটে ফেলেছে প্রতিপক্ষরা। কৃষক ইব্রাহিম জানান, বছরে প্রতি বিঘায় ১২ হাজার টাকা করে আবাদ করার জন্য ১একর জমি লিজ হিসেবে নিয়েছিলাম। এনিজও থেকে কিস্তিতে ৫০ হাজার টাকা এবং পরিচিতজনদের থেকে ধার দেনা করে ৪০ হাজার টাকা নিয়েছেন। অপরদিকে কিটনাশক ও অন্যান্য দোকানে বাকি প্রায় ৩৬ হাজার টাকা। স্বপ্ন ছিলো লাউ বিক্রি করে অল্প অল্প করে কিস্তি ও ধারদেনা পরিশোধ করবো কিন্তু বাঁধ সাধলো লাউ গাছের মৃত্যু। কেটে ফেলা হয়েছে প্রায় বেশিরভাগ গাছ গুলো। পূর্ব শত্রুতা থেকে এমনটা করেছে প্রতিপক্ষরা। দোষীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেছেন তিনি, পাশাপাশি সরকারি সহায়তা চেয়েছেন যেন কিস্তি পরিশোধ করে পুনরায় পরিবারের সকলের মুখে হাসি ফোটাতে পারেন। এ ঘটনায় প্রায় ৩ লক্ষ টাকা ক্ষতিসাধন হয়েছে বলেও জানান তিনি। এ বিষয়ে ঘোড়াঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, লাউ গাছ কাটার বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরও খবর