Logo
আজঃ বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

তানোরে অটোগাড়ীতে চাঁদাবাজি, র‌্যাব-পুলিশের যৌথ অভিযানে গ্রেফতার ৪

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৬৬জন দেখেছেন

Image

ইমরান হোসাইন,তানোর (রাজশাহী) প্রতিনিধি :রাজশাহীর তানোরে অটোগাড়ীতে বেপরোয়া চাঁদাবাজির দায়ে র‌্যাব-পুলিশের যৌথ অভিযানে ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- চাঁদাবাজ চক্রের মূলহোতা অসিম আলী (২৮), শহিদুল ইসলাম (৪৮), শাহআলম (২৫) ও মমিনুল ইসলাম মুকুল (৪৫)। এদের মধ্যে অসিম, শাহআলম ও মুকুলের বাড়ি তানোর সদরের গুবিরপাড়া মহল্লায়। আর শহিদুল ইসলামের বাড়ি রায়তান আকচা গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের মৃত লাহার প্রামানিকের পুত্র।

গোপন তথ্যের ভিত্তিতে রোববার (১১ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে তানোর মডেল পাইলট হাইস্কুলের সামনে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। পরে আইনি প্রক্রিয়া শেষে সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সংশ্লিষ্ট বিজ্ঞ আদালতে গ্রেফতারকৃতদের পাঠানো হয়েছে। অভিযানকালে চাঁদা আদায়ের টালীখাতা, বলপেন ও রশিদ বুকসহ নগদ ৯৯০ টাকা জব্দ করে র‌্যাব।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, তানোর উপজেলার কলমা উত্তরপাড়া গ্রামের বাসিন্দা নওশাদ আলীর পুত্র মো. নাসির উদ্দিন (৪২) দশ বছর ধরে পেশায় অটো ড্রাইভার। ফলে প্রতিদিনের ন্যায় ১১ ফেব্রুয়ারী ভাড়া মারার উদ্দেশ্যে তার অটোগাড়ীটি নিয়ে বাড়ি হতে বের হন। পরে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে থানামোড়ে সিরিয়ালের নামে চাঁদাবাজ অসিম ও শাহআলম বেশি টাকা চাঁদা দাবি করে। তখন এতো টাকা চাঁদা দিতে না চাইলে নাসিরকে মারপিটের হুমকি দিয়ে সিরিয়াল থেকে তাড়িয়ে দেয়। এসময় র‌্যাবের টহল গাড়ি থানামোড়ে অবস্থান দেখে র‌্যাব সদস্যদেরকে বিস্তারিত জানাই। পরে র‌্যাবের টহল দল ছদ্দবেশে ঘটনাস্থলে অবস্থান করে। পরে বিষয়টি সত্যতা পেয়ে থানা পুলিশ ও র‌্যাবের যৌথ অভিযানে ঘটনাস্থলে তাদের হাতে নাতে আটক করা হয়। এসময় বাসমাস্টার মুকুল আটক অসিম ও শাহআলমকে ছেড়ে দিতে বলে র‌্যাবের টহল ইনচার্জের সাথে তর্ক- বিতর্ক করে। পরে তার হাতে টালীখাতা দেখে কি করেন বলে তাকেও আটক করে র‌্যাব।

এবিষয়ে অটোচালক নাসির উদ্দিন বলেন, তানোরে অটোগাড়িতে বেপরোয়া চাঁদাবাজির ঘটনা টহল র‌্যাব ইনচার্জকে জানান তিনি। পরে তার অভিযোগের সত্যতার ভিত্তিতে বাসমাস্টার মুকুলসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। এনিয়ে তার অভিযোগের প্রেক্ষিতে ৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় চাঁদাবাজির মামলা রুজু করেন ওসি স্যার বলে জানার নাসির।

তিনি আরও বলেন, তানোরে শুধু অটোচালক থেকে চাহিদা মতো চাঁদা নেয়া শেষ নয়। এভাবে ট্রাক, সিএনজি, ভুটভুটি ও পিকআপ চালকদের জিম্মি করে তানোর সদর, মুন্ডুমালা, কাশিম বাজার, কালিগঞ্জহাট, কলমা ও চৌবাড়িয়া বাজারে বেশ কয়েকজন নেশাখোঁর সিরিয়ালের নামে চাঁদার টাকা আদায় করছে। তিনি প্রশাসনকে এসব চাঁদাবাজ ও নেশাখোঁরদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য অনুরোধ জানান।

এব্যাপারে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুর রহিম বলেন, অটোগাড়িতে চাঁদাবাজির অভিযোগ র‌্যাবের টহল দল অনুসন্ধান চালায়। এসময় ঘটনা সত্যতায় র‌্যাব-পুলিশের যৌথ অভিযানে ৪ জন চাঁদাবাজকে গ্রেফতার করা হয়। পরে আইনি প্রক্রিয়া শেষে সংশ্লিষ্ট বিজ্ঞ আদালতে গ্রেফতাকৃতদের পাঠানো হয়েছে বলে জানান ওসি।


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




গাংনীতে ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৯জন দেখেছেন

Image

মজনুর রহমান আকাশ, মেহেরপুরঃঢাকা থেকে প্রকাশিত দৈনিক বণিক বার্তার সাবেক সহকারী বিজ্ঞাপণ ম্যানেজার ও মেহেরপুরের গাংনীর মালসাদহ গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম কাউসার হত্যা মামলার মৃত্যুদ-প্রাপ্ত আসামী আবু সাদাত মোঃ ফয়সাল ওরফে প্যাডিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সোমবার দিবাগত রাতে গাংনী থানা পুলিশের একটি টীম র‌্যাব-২ শেরেবাংলানগর ক্যাম্পের সহায়তায় তাকে তুরাগ থানাধিন বাউনিয়া এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে।আবু সাদাত মোঃ ফয়সাল ওরফে প্যাডি গাংনী উপজেলার মালসাদহ গ্রামের মৃত মাহাতাব উদ্দীনের ছেলে। তাকে মঙ্গলবার দুপুরে মেহেরপুর জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

প্যাডির নামে খাগড়াছড়ি জেলায় একটি হত্যা মামলা ও অস্ত্র গুলি ও বিষ্ফোরক দ্রব্য আইনে গাংনী থানাসহ অন্যান্য থানায় আরো ৬ টি মামলায় গ্রেপ্তারী পরওয়ানা রয়েছে। জানা গেছে, জাহাঙ্গীর আলম কাউসার ২০১৫ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর বাসা থেকে অফিসের উদ্দেশ্যে বের হয়ে নিখোঁজ হন। তিন দিন পর খিলক্ষেত এলাকার নামাপাড়া বোর্ডঘাট

এলাকার একটি বাসায় স্যুটকেস ভর্তি অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এঘটনায় প্যাডি ও তার সহযোগি রাইহান, নাজমুল হাসান রাকিব ও ফয়সাল ফাহিম নামের ৪ জনকে আসামী করে খিলক্ষেত থানায় মামলা করেন জাহাঙ্গীর হোসেন কাউসারের স্ত্রী রোক্সানা। যার মামলা নং- ১৬, তাং ১৮-৯-১৫ ইং। টাকা লেন দেনকে কেন্দ্র করে পরিকল্পিতভাবে তাকে হত্যা করা হয়েছে মর্মে এজাহারে উল্লেখ করা হয়। পুলিশ তাদেরকে গ্রেপ্তার করে। পরে ঢাকা মেট্রোপলিন স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিজ্ঞ বিচারক ২০১৮ সালে প্রধান আসামী আবু সাদাত মোঃ ফয়সাল ওরফে প্যাডিকে মৃত্যুদন্ড ও অন্যান্য আসামীদেরকে যাবজ্জীবন কারাদ- প্রদান করেন।

গাংনী থানার ওসি (তদন্ত) মনোজিৎ কুমার নন্দী জানান, রায় ঘোষণার সময় থেকে প্যাডি পলাতক ছিল। সে ঢাকার বাউনিয়া এলাকায় রুবেল নামে পরিচিত হয়ে বসবাস করছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তার অবস্থান নিশ্চিত হয়ে এসআই জহির রায়হান ও সঙ্গীয় ফোর্স তাকে গ্রেপ্তার করে।


আরও খবর

ঢাকায় মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ২৬

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




পুলিশ জনগণের বন্ধু এটি প্রতিষ্ঠা করা দরকার: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৪২জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:যারা আগুন সন্ত্রাস করে তারা বারবার পুলিশের উপর আক্রমণ করেছে। পুলিশ সদস্যরা জীবনের বিনিময়ে এসব সন্ত্রাস থেকে দেশের মানুষকে রক্ষা করেছে এমনটিই বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে পুলিশ সপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপি-জামায়াত রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে ঢুকে ধ্বংসাত্মক হামলা চালিয়েছে। তবে এক্ষেত্রে অত্যন্ত ধৈর্য দেখিয়ে তাদের মোকাবেলা করেছে পুলিশ। তিনি বলেন, দেশের মানুষ যখনই কোনো বিপদে পড়ে সকলের আগে পুলিশের কাছে আশ্রয় খোঁজে। কাজেই পুলিশ জনগণের বন্ধু, এটি সবসময় চলেই আসছে। পুলিশ জনগণের বন্ধু এটি প্রতিষ্ঠা করা একান্ত দরকার।

সরকারপ্রধান জানান, দেশের প্রতি জেলায় সাইবার অপরাধ দমনে পূর্ণাঙ্গ পুলিশ ইউনিট গঠন করা হবে। একইসাথে জেলা পর্যায়ে ডিএনএ ল্যাব স্থাপন করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজকের বাংলাদেশ এক বদলে যাওয়া বাংলাদেশ। এই দেশে কেউ ভূমিহীন থাকবে না। সকলের জীবনমান উন্নয়নে সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুলিশ সপ্তাহ-২০২৪ উদ্বোধন করেন। প্রধানমন্ত্রী খোলা জিপে চড়ে বাংলাদেশ পুলিশের কুচকাওয়াজ পরিদর্শন এবং সালাম গ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে সাহসী কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ ৩৫ পুলিশ সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ মেডেল (বিপিএম-বীরত্ব) এবং ৬০ জনকে রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক (পিপিএম-বীরত্ব) প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া ৯৫ জন পুলিশ সদস্য বিপিএম সেবা পদক এবং ২১০ জন পিপিএম সেবা পদক পেয়েছেন।


আরও খবর

রোজার আগেই বাড়ছে বিদ্যুতের দাম

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




তিন পদে লোক নিচ্ছে হুয়াওয়ে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৫৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ইঞ্জিনিয়ারিং ও ফিন্যান্স বিভাগের তিনটি পদে লোক নিচ্ছে দিয়েছে হুয়াওয়ে টেকনোলজিস বাংলাদেশ (লিমিটেড)। অভিজ্ঞ প্রার্থীরা আগামী ১১ই মার্চ ২০২৪-এর মধ্যে পদগুলির জন্য আবেদন করতে পারবেন। পদগুলি হলো সিনিয়র ওয়্যারলেস ইঞ্জিনিয়ার, বিজনেস অ্যান্ড প্রজেক্ট ফাইন্যান্স কন্ট্রোলার (বিপিএচফসি) ও কালেকশন ম্যানেজার (ফাইন্যান্স)।

ট্রাবেলশুটিং, কনফিগারেশন পরিবর্তন, ফিচার ডেপলয়মেন্ট এবং এলটিই (লং টার্ম ইভোলিউশন) টিডিডি (টাইম-ডিভিশন ডুপ্লেক্স)-এর মতো টেকনিক্যাল প্রজেক্ট পরিচালনা হবে সিনিয়র ওয়্যারলেস ইঞ্জিনিয়ার পদের দায়িত্ব। এই পদের জন্য সিএসই/ইইই/ইসিই/ইটিই-তে ন্যূনতম স্নাতক ডিগ্রি ও মাল্টি-ভেন্ডর ওয়্যারলেস প্রোডাক্ট মেইনটেন্যান্সসহ টেলিকম খাতে পাঁচ বছরের বেশি অভিজ্ঞতার প্রয়োজন হবে।

বিজনেস অ্যান্ড প্রজেক্ট ফাইন্যান্স কন্ট্রোলার (বিপিএফসি) পদটিতে নির্বাচিত হতে হলে বিডিং, ঝুঁকি মূল্যায়ন, বাজেট, পূর্বাভাস নির্ণয় ও কর্মদক্ষতা বিশ্লেষণে আর্থিক দক্ষতা থাকতে হবে। পদটির দায়িত্বগুলির মধ্যে রয়েছে ক্লায়েন্টের সাথে সম্পর্ক বজায় রাখা, আর্থিক নির্ভুলতা নিশ্চিত করা এবং কমপ্লায়েন্সে সহযোগিতা করা। প্রার্থীদের ন্যূনতম পাঁচ বছরের প্রাসঙ্গিক অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

কালেকশন ম্যানেজার (ফাইন্যান্স) পদটির জন্য পেমেন্ট ফলো-আপ, ট্যাক্স কমপ্লায়েন্স ও অ্যাকাউন্ট রিসিভেবল (এআর) ক্লিয়ারেন্সসহ অন্যান্য দক্ষতার প্রয়োজন হবে। পদটির দায়িত্বগুলির মধ্যে রয়েছে অ্যাকাউন্টিং এবং ট্রেজারি টিমের সাথে সমন্বয়, কালেকশন গ্যাপ বিশ্লেষণ এবং এলসি কমপ্লায়েন্স নিশ্চিত করা। এই পদের জন্যও আবেদনকারীদেরও কমপক্ষে পাঁচ বছরের প্রাসঙ্গিক অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

আগ্রহী প্রার্থীরা নীচের লিঙ্কগুলোর মাধ্যমে পদগুলোর জন্য আবেদন করতে পারবেন:

https://hotjobs.bdjobs.com/jobs/huawei/huawei116.htm

https://hotjobs.bdjobs.com/jobs/huawei/huawei118.htm

https://hotjobs.bdjobs.com/jobs/huawei/huawei117.htm 

টেলিকম এবং আইএসপি শিল্পের পরিবর্তনশীল প্রেক্ষাপটে হুয়াওয়ে পেশাজীবীদেরকে অসাধারণ এক যাত্রার অনন্য সুযোগ দিচ্ছে। উদ্ভাবন এবং উৎকর্ষের প্রতি অঙ্গীকারবদ্ধ প্রতিষ্ঠানটি উৎসাহব্যঞ্জক কাজের পরিবেশের পাশাপাশি ক্যারিয়ার গড়ার আকর্ষণীয় সুযোগ দিয়ে থাকে।


আরও খবর

ঢাকায় মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ২৬

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




রাণীশংকৈলে ৭০ পর হাটখোলা মন্দিরে গণশৌচাগার উদ্বোধন করলেন মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ২০জন দেখেছেন

Image

রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও)প্রতিনিধি:ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল পৌরশহরের প্রাচীন ও ঔতিহ্যবাহি হাটখোলা মন্দির প্রাঙ্গণে ৭০ বছর পর অতি প্রয়োজনীয় একটি গণশৌচাগার উদ্বোধন করা হয়েছে। গত সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় পৌরসভার পাঁচ লক্ষ টাকা ব্যায়ে নির্মিত গণশৌচাগারটি উদ্বোধন করেন মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান।প্রায় ৬ যুগ পর এটি নির্মিত হওয়ায় মন্দির কমিটি ও সনাতন ধর্মাবলম্বীরা চরম উচ্ছ্বসিত হয়েছেন। 

এ সময় হাটখোলা মন্দির কমিটির সভাপতি সুমন মল্লিক,সাধারণ সম্পাদক শুব্রত কারক, কোষাধ্যক্ষ চয়ন বসাক,সদস্য কৃষ্ণ কারক,ওই মন্দিরের হরিবাসর কমিটির সভাপতি নারায়ণ বসাক, সাধারণ সম্পাদক দানেশ বসাক, সহ সভাপতি উদয় শর্মা, প্রেসক্লাব সভাপতি মোবারক আলী, সাধারণ সম্পাদক মো.বিপ্লব, প্রগতি ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এসকে সোহেল রানা মাসুম, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা বাদশাসহ মন্দির ও হরিবাসর কমিটির বিভিন্ন সদস্য এবং ভক্তবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 

সত্তর বছর পর গণশৌচাগারটি নির্মাণ হওয়ায় ওই মন্দিরে বিভিন্ন ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠানে আগত ভক্তবৃন্দের দীর্ঘদিনের পয়ঃনিষ্কাশন সমস্যার সমাধান হয়েছে। এজন্য কমিটি ও এলাকাবাসী পৌর মেয়রের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। 

এ ব্যাপারে পৌর মেয়র বলেন, এটি একটি প্রাচীন ও ঔতিহ্যবাহী মন্দির এখানে প্রতি বছর দুর্গাপূজা, হরিবাসরসহ সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিভিন্ন ধর্মানুষ্ঠানে হাজার হজার মানুষ আসে। গণশৌচাগার না থাকায় আগতদের পয়ঃনিষ্কাশনের প্রচন্ড সমস্যা হচ্ছিল। এ কথা ভেবেই দুটি ইউনিটে  পুরুষ ও মহিলাদের জন্য  এই গণশৌচাগারটি নির্মাণ করা হয়েছে। পর্যাক্রমে পৌরশহরের প্রতিটি মন্দিরে গণশৌচাগার নির্মাণ করা হবে বলেও মেয়র জানান। 

আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

নন্দীগ্রামে কিশোরের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




তিন ফরম্যাটেই নতুন অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১২৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:তিন ফরম্যাটেই অধিনায়ক করা হয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের নাজমুল হোসেন শান্তকে। সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) বিসিবির বোর্ড মিটিংয়ে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, ২০১৭ সালের এপ্রিলে সাকিব আল হাসানকে টি-টোয়েন্টির দায়িত্ব দিয়ে তিন ফরম্যাটে তিন অধিনায়কের যুগে প্রবেশ করেছিল বাংলাদেশ। এর প্রায় ৬ বছর পর গত আগস্টে সেই সাকিবের হাত ধরেই তিন ফরম্যাটে এক অধিনায়ক তত্ত্বে ফিরে যায় বাংলাদেশ। এবার এক সঙ্গে তিন ফরম্যাট থেকে দায়িত্ব ছাড়ায় সাকিবের নেতৃত্ব অধ্যায়ের ইতি ঘটল।

বিসিবির অন্য সব সভা থেকে এই সভার গুরুত্ব একটু বেশিই ছিল। কারণ, বিসিবির এই সভায় আলোচনার বিষয় ছিল নির্বাচক প্যানেল, বিশ্বকাপ তদন্ত রিপোর্ট, সাকিব আল হাসানের অধিনায়কত্ব এবং নতুন কোচ নিয়োগ।

সাকিব আল হাসান গত বছর ওয়ানডে বিশ্বকাপে দল যাওয়ার আগেই বলেছিলেন, বিশ্বকাপের পর আর অধিনায়কের দায়িত্বে থাকতে চান না তিনি। বিশ্বকাপের পর ইনজুরির কারণে খেলতে পারেননি সাকিব। তার অনুপস্থিতিতে বাংলাদেশ দলের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল শান্তকে। এছাড়া সাকিব এবার আওয়ামী লীগ থেকে দলীয় মনোনয়ন পেয়ে এমপি হন।

উল্লেখ্য, এখন পর্যন্ত সব সংস্করণ মিলিয়ে বাংলাদেশকে ১১ ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন শান্ত। ওয়ানডেতে শান্তর নেতৃত্বে ৬ ম্যাচ খেলে ৫ ম্যাচেই হারের মুখ দেখেছে বাংলাদেশ। বিপরীতে একটি ম্যাচে জয় পেয়েছে টাইগাররা। আর টি-টোয়েন্টিতে ৩ ম্যাচে ১ জয় ও ১ হার অধিনায়ক শান্তর।


আরও খবর