Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

স্বামীর কাছে যে ৫ জিনিস আশা করেন স্ত্রী

প্রকাশিত:Saturday ১৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৬২জন দেখেছেন
Image

বিয়ে সবার জীবনেরই একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। বিয়ের পরের জীবন সুখী করতে নারী-পুরুষ দুজনেরই সমান অবদান রাখতে হয়। এক্ষেত্রে সঙ্গীর ভালো-মন্দ, তার ইচ্ছা-অনিচ্ছা কিংবা সুবিধা-অসুবিধা সব দিকেই অন্যজনের খেয়াল রাখতে হয়। তবেই দাম্পত্য সুখী হবে।

যদিও নারীরা সাধারণত একটু চাপা স্বভাবের হন। ফলে স্বামীর বিষয়ে বিভিন্ন কথা, আশা কিংবা ইচ্ছা মনেই পুষে রাখেন তারা। বিয়ের পর অনেক স্বামীই মনে করেন তারা স্ত্রীর মনের সব খবরই রাখেন। তবে এই ধারণা ভুল। কারণ নারীর মনের খোঁজ রাখা বেশ কঠিন।

jagonews24

সব নারীই তার স্বামীর কাছ থেকে কিছু জিনিস আশা করেন। যা অনেকে মুখ ফুটে বলতে চান না। তবে বুদ্ধিমান স্বামীরা ঠিকই স্ত্রীর মনের আশা বুঝে নেন। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক স্বামীর কাছে কোন আশা কোন আশা করেন স্ত্রী-

>> ঘরের কাজ দুজনেরই ভাগাভাগি করে নেওয়া উচিত। তবে অনেক স্বামীই ঘরের কাজে স্ত্রীকে সাহায্য করেন না। আর স্ত্রী হয়তো তাদেরকে মুখে বলতেও পারেন না ওই কথা। তাই অবসরে থাকলে স্ত্রীকে ঘরের কাজে সাহায্য করা উচিত সব স্বামীর।

jagonews24

>> অনেক পুরুষই নিজের মতো করে সিদ্ধান্ত নেন কিংবা স্ত্রীর মতামতকে প্রাধান্য দেন না। এতে কিন্তু স্ত্রীর মনে ক্ষোভের সৃষ্টি হতে পারে। তবে বুদ্ধিমান পুরুষরা কখনো স্ত্রীর মতামতকে এড়িয়ে চলেন না। সব স্ত্রীই চান তার স্বামী মনোযোগ দিয়ে কথা শুনবেন।

>> স্ত্রীকে হঠাৎ করে সারপ্রাইজ দেওয়ার মাধ্যমে সম্পর্ক আরও মজবুত হয়। স্বামীর কাছ থেকে সারপ্রাইজ প্রত্যাশা করেন কমবেশি সব স্ত্রীই। তাই স্বামীর উচিত এই বিষয়টি মাথায় রাখা।

jagonews24

>> ঘুরতে যেতে কে না পছন্দ করেন। আপনিও হয়তো পছন্দ করেন, তবে সময়ের অভাবে স্ত্রীকে নিয়ে ঘুরতে যেতে পারেন না! এই বিষয়টি কিন্তু খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

সময় পেলেই স্ত্রীকে নিয়ে ঘুরে বেড়ানো উচিত স্বামীর। এতে মনও ভালো থাকে আবার মানসিক চাপও কমে। স্বামীকে নিয়ে ঘুরতে যাওয়ার আশায় থাকেন অনেক স্ত্রী।

jagonews24

>> প্রতিটি মানুষের মধ্যেই প্রাধান্য পাওয়ার বাসনা থাকে। আপনার সঙ্গীর মধ্যেও এই আশা আছে নিশ্চয়ই। তাই সব বিষয়েই সঙ্গীকে প্রাধান্য দিন। অনেকেই স্ত্রীকে ছোট করে দেখেন। এমন মনোভাব সম্পর্ক নষ্ট করার জন্য দায়ী হতে পারে।


আরও খবর



৮৩ বছরের বৃদ্ধা একাই পার হলে প্রশান্ত মহাসাগর

প্রকাশিত:Monday ০৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৬৬জন দেখেছেন
Image

বয়স একটি সংখ্যা মাত্র। বয়সকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে প্রশান্ত মহাসার পার হয়ে রীতিমতো হইচই ফেলে দিয়েছেন ৮৩ বছরের এক বৃদ্ধা। পৃথিবীর প্রবীণতম ব্যক্তি হিসেবে একা প্রশান্ত মহাসাগর পার করে নজির গড়লেন তিনি।

জাপানের এই বৃদ্ধের নাম কেনিচি। তার মতে, বয়স শুধু একটি সংখ্যা। এখনো তিনি মধ্যযৌবনা। অদেখা সবকিছু দেখছেন মাত্র, আরও বাকি অনেক জীবন! ভবিষ্যতে আরও অভিযানে যেতে চান তিনি।

৮৩ বছরের বৃদ্ধা একাই পার হলে প্রশান্ত মহাসাগর

চলতি বছরের মার্চ মাসে আমেরিকার সান ফ্রান্সিসকো শহর থেকে মাত্র ১৯ ফুট লম্বা সান্তরি মারমেড ৩ নামক ইয়টে চেপে জাপানের উদ্দেশ্যে রওনা দেন কেনিচি।

jagonews24

প্রশান্ত মহাসাগর পার করে দেশে পৌঁছাতে তার সময় লেগেছে ৬৯ দিন। দীর্ঘ এই ২ মাস ৯ দিন তিনি বিস্তৃত জলরাশির মধ্যে সময় কাটিয়েছেন। মোটেও সহজ ছিল না তার যাত্রাপথ।

যাত্রার শুরুতে প্রবল ঝড় থেকে জাপান উপকূলের কাছে বিপ্রতীপ স্রোত, সবই নিজ দক্ষতার সামলেছেন এই প্রবীণ অভিযাত্রী।

৮৩ বছরের বৃদ্ধা একাই পার হলে প্রশান্ত মহাসাগর

সঙ্গে ওষুধপত্র থাকলেও পুরো যাত্রায় চোখের ড্রপ আর ব্যান্ডেড ছাড়া আর কোনো ওষুধের দরকার হয়নি বলেও জানান কেনিচি।

জাপানের শিন নিশিনোমিয়া বন্দরে তার জন্য অপেক্ষারত ছিলেন অসংখ্য মানুষ। কেনিচি বন্দরে পৌঁছতেই উল্লাসে ফেটে পড়েন তার শুভাকাঙ্খীরা।

৮৩ বছরের বৃদ্ধা একাই পার হলে প্রশান্ত মহাসাগর

তবে এই প্রথম নন ১৯৬২ সালে তিনিই পৃথিবীর প্রথম অভিযাত্রী হিসাবে একা প্রশান্ত মহাসাগর পার করার রেকর্ড গড়েন।

৬০ বছর পর পৃথিবীর প্রবীণতম মানুষ হিসাবে একই কাজ করে কার্যত জীবনের একটি বৃত্ত সম্পূর্ণ করলেন কেনিচি। ১৯৭৪ সালে একটি ইয়াটে করে বিশ্বপরিক্রমাও করেন তিনি।

সূত্র: ইউএসএটুডে/দ্য গার্ডিয়ান


আরও খবর



আগামী নির্বাচন কেমন হবে, দেখার আগ্রহ অস্ট্রেলিয়ান হাইকমিশনারের

প্রকাশিত:Sunday ২৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৩০জন দেখেছেন
Image

বাংলাদেশের আগামী নির্বাচন কেমন হবে তা দেখার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন অস্ট্রেলিয়ার হাইকমিশনার জেরেমি ব্রুআর। এ ছাড়া তিনি সদ্যসমাপ্ত কুসিক নির্বাচনের বিভিন্ন বিষয় জানতে চেয়েছেন।

রোববার (২৬ জুন) দুপুরে আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়ালের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেন জেরেমি ব্রুআর। সাক্ষাত শেষে গণমাধ্যমকর্মীদের এসব তথ্য জানান সিইসি।

সিইসি বলেন, আলোচনা তেমন কিছুই না, তিনি সৌজন্য সাক্ষাতে এসেছিলেন। এ সময় তিনি তাদের দেশের নির্বাচন পদ্ধতি সম্পর্কে বলেন। আমি সব শুনেছি; আমাদের নির্বাচন সম্পর্কেও তার স্পষ্ট ধারণা রয়েছে। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন যে, আমাদের জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুন্দর হবে।

CEC.jpg

জেরিমি ব্রুআর কোনো পরামর্শ দিয়েছেন কিনা জানতে চাইলে সিইসি বলেন, না, কোনো পরমর্শ দেননি। তারা কুসিক নির্বাচন সম্পর্কে জানতে চেয়েছিলেন। নির্বাচনটি ভালোভাবেই শেষ হয়েছে, তবে শেষ পর্যন্ত অনাকাঙ্ক্ষিত কিছু ঘটেছিল কি না? আমরা তাদের কাছে পুরো বিষয়টি বিস্তারিত তুলে ধরেছি।

‘আগামী নির্বাচন কেমন হবে জানতে চাইলে আমরা বলেছি, নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ করতে আমরা আমাদের মতো করে চেষ্টা করবো।’


আরও খবর



গুরুকে জয় ও গোল উৎসর্গ করলেন সাবিনা

প্রকাশিত:Thursday ২৩ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৬২জন দেখেছেন
Image

এইতো কিছুদিন আগে বাংলাদেশ স্পোর্টস প্রেস অ্যাসোসিয়েশনের (বিএসপিএ) পুরস্কার নিতে সাতক্ষীরা থেকে ঢাকায় আসার পথে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন সাবিনা খাতুনকে ফুটবলার বানানো কোচ আকবর আলী। সাতক্ষীরা থেকে কেবল নারী ফুটবলারই নয়, অন্যান্য ডিসিপ্লিনের খেলোয়াড় তৈরির কারিগরও ছিলেন আকবর আলী।

নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে যখনই কথা বলেন সাবিনা খাতুন তার মুখে গুরু আকবর আলীর কথাই বেশি শোনা যায়। প্রিয় কোচ মারা যাওয়ার পর বৃহস্পতিবার প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেলেন সাবিনা খাতুন। কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ ৬-০ গোলে হারিয়েছে মালয়েশিয়াকে।

ওই ৬ গোলের একটি করেছেন অধিনায়ক সাবিনা খাতুন। ম্যাচের পর সাবিনা খাতুন নিজের গোল এবং মালয়েশিয়ার বিপক্ষে বড় জয় উৎসর্গ করেছেন তার প্রিয় কোচ সদ্য প্রয়াত আকবর আলীকে।

নিজের ফেসবুক পেজে সাবিনা খাতুন আকবর আলীর ছবি এবং নিজের খেলার দৃশ্য পোস্ট করে লিখেছেন, ‘আজকের এই জয়, আমার এ গোল আপনাকে উৎসর্গ করলাম। ওপারে ভালো থাকবেন সেই দোয়া করি। আমিন।

দুটি ফিফা ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খেলতে মালয়েশিয়া জাতীয় নারী ফুটবল দল এখন ঢাকায়। বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) প্রথম ম্যাচে সফরকারী দলটি স্বাগতিকদের কাছে হেরেছে ৬-০ গোলে। দ্বিতীয় ম্যাচ রোববার সন্ধ্যা ৬টায়।

বাংলাদেশ পাঁচ বছর আগে মালয়েশিয়ার বিপক্ষে সর্বশেষ ম্যাচ খেলেছিল। ওই ম্যাচে মালয়েশিয়া জিতেছিল ২-১ গোলে। সেই বাংলাদেশ এবার দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে মালয়েশিয়ার মেয়েদের বিরুদ্ধে চরম প্রতিশোধ নিলো।


আরও খবর



হাজী সেলিমের জামিন বিষয়ে আপিল শুনানি ১ আগস্ট

প্রকাশিত:Monday ০৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৫৩জন দেখেছেন
Image

জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুদকের মামলায় ১০ বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিমের জামিনের বিষয়ে কোনো আদেশ দেননি আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালত। এ বিষয়ে শুনানির জন্য সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের নিয়মিত পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে পাঠান আদালত। আগামী ১ আগস্ট এ শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

সোমবার (৬ জুন) আপিল বিভাগের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের চেম্বার জজ আদালত এই আদেশ দেন।

আদালতে আজ হাজী সেলিমের পক্ষে শুনানি করেন সিনিয়র আইনজীবী সাঈদ আহমেদ রাজা। আর দুদকের পক্ষে শুনানি করেন সিনিয়র আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান।

এর আগে গত ২২ মে দুর্নীতির মামলায় হাইকোর্টের রায়ে ১০ বছরের কারাদণ্ড বহাল থাকায় উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অনুসরণ করে আত্মসমর্পণ করেন হাজী সেলিম। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত। আদালতে আত্মসমর্পণ করে যে কোনো শর্তে জামিনের আবেদন করেন হাজী মোহাম্মদ সেলিম।

ওইদিন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৭ এর বিচারক শহিদুল ইসলাম এ আদেশ দেন।

এরপর ২৩ মে হাজী সেলিমকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) ভর্তি করা হয়। সেখানেই চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি

ওইদিন সকাল ৯টার দিকে অ্যাম্বুলেন্সে কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে বিএসএমএমইউতে আনা হয় আলোচিত এই সংসদ সদস্যকে।


আরও খবর



রাঙ্গামাটিতে আম্রপালির ফলনে হতাশ চাষিরা

প্রকাশিত:Thursday ১৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৪৪জন দেখেছেন
Image

রাঙ্গামাটির কাপ্তাই উপজেলার আম্রপালি সারাদেশে বেশ সমাদৃত। নিজ জেলার চাহিদা মিটিয়ে পাঠানো হয় অন্যান্য জেলায়। অত্যন্ত সুস্বাদু হওয়ায় ক্রেতাদের কাছে আম্রপালির চাহিদা রয়েছে। ফলনও হয় অনেক। কিন্তু চলতি বছর কাপ্তাইয়ে আম্রপালির ফলন আশানুরূপ হয়নি। এজন্য হতাশ প্রান্তিক কৃষক ও মৌসুমি ফলবিক্রেতারা।

আম্রপালি বাগানের মালিক ও মৌসুমি ফল ব্যবসায়ী উদয় শংকর চাকমা জাগো নিউজকে বলেন, ‘এ বছর আম্রপালি আমের ফলন ভালো হবে বলে আশা করেছিলাম কিন্তু ফলন আশানুরূপ হয়নি। দামও কম। সবমিলিয়ে আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হচ্ছে।’

jagonews24

তিনি বলেন, গতবছর যেখানে প্রতি কেজি আম্রপালি ১০০ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে, এবার দাম কমে হয়েছে ৬০-৭০ টাকা। যেগুলোর দাম ৫০ টাকা ছিল এবার তা ৩৫-৪০ টাকায় বিক্রি করতে হচ্ছে।

কাপ্তাইয়ের মৌসুমি ফলবিক্রেতা মো. দুলাল মিয়াও জানান, এ বছর কাপ্তাইয়ে আম্রপালির ফলন অনেক কম হয়েছে। তবে রুপালি, রাংগু এবং মল্লিকা জাতের আমের ফলন মোটামুটি ভালো হয়েছে।

jagonews24

কাপ্তাইয়ের তালুকদার সবুজ খামারের স্বত্বাধিকারী ওয়াগ্গা মৌজার হেডম্যান অরুন তালুকদার জানান, প্রতি বছরের মতো এবারও তার বাগানে প্রায় ২০ একর জমিতে আম্রপালি এবং রাংগু জাতের আমের চাষ করা হয়েছে। আম্রপালি জাতের আমের ফলন কম হলেও রাংগু জাতের আমের ফলন মোটামুটি ভালো হয়েছে বলে তিনি জানান।

কাপ্তাই উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা সামসুল আলম চৌধুরী বলেন, আবহাওয়াজনিত কারণে বিশেষ করে অত্যধিক গরম পড়ায় এ বছর কাপ্তাইয়ে আম্রপালির ফলন কম হয়েছে।


আরও খবর