Logo
আজঃ বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

সর্ব সাধারণের মাছ ধরার উন্মোক্ত খালটি এখন প্রভাবশালীদের দখলে

প্রকাশিত:শুক্রবার ১০ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ২৪৯জন দেখেছেন

Image

আব্দুল হান্নান,নাসিরনগর,ব্রাহ্মণবাড়িয়াঃজেলার নাসিরনগর উপজেলার গোর্কণ ইউনিয়নের সিদ্ধেশ্বরী থেকে শরৎ বাবুর বটগাছ পর্যন্ত সর্ব সাধারণের জন্য উন্মোক্ত খালটি এখন প্রভাবশালীদের দখলে ।ক্ষুদ্র জেলেগোষ্টি আর গ্রামবাসী সাধারণ মানুষকে খালে নামতে ও মাছ ধরতে দিচ্ছে না প্রভাবশালীরা।খালে মাছ ধরতে না পেরে মানবেতর জীবণ যাপন করছে কয়েকটি ক্ষুদ্র জেলেগোষ্টি পরিবার।এ বিষয়ে তারা স্থানীয় সংসদ সদস্য,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানায় লিখিত অভিযোগ করেও পাচ্ছে না কোন প্রতিকার।

কর্তৃপক্ষ খালটিকে জনসাধারণের  জন্য উন্মোক্ত ঘোষনা করে দিলেও সেখানে যেতে পারছেনা কোন সাধারণ মানুষ। বিষয়টি দ্রুত সমাধান না হলে যে কোন সময় ঘটতে পারে কোন বড় ধরনের অঘটন।এমন আশংকা এলাকাবাসীর। এলাকাবাসীরা জানায়,গ্রামের প্রভাবশালী মুইদর আলীর ছেলে আকবর মিয়া (৫৫), সফিকুর রহমানের ছেলে সাচ্চু মিয়া( ৪৫), ছালেক মিয়ার ছেলে নোমান মিয়া (৪৫),ইব্রাহিম মিয়া( ৪০), সরজ উদ্দিনের ছেলে মাঞ্জু মিয়া( ৪৮), শিশু মিয়ার ছেলে নাসিরর মিয়া (৪৫), গাবরু মিয়ার ছেলে কদু মিয়া( ৪৫)।

তারু মিয়ার ছেলে বরজু মীর (৬০), গোলাম হোসেন (৬৫), মনু মিয়ার ছেলে আলী রহমান (৪৮),খালেক মিয়ার ছেলে মাহফুজ মিয়া (৪৮)খালটি বাঁশ কাটা ও গাছের ঢালপালা ফেলে দখল করে রেখেছে আর গ্রামবাসী যে কেউ ওই খালে গেলে তাদের প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে।স্থানীয় সংসদ সদস্য,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খালটিকে জননাধারণের জন্য উন্মোক্ত ঘোষনা করলেও প্রভাবশালীরা বলছে তারা অনেক উপর থেকে খালটি লীজ নিয়ে এসেছে।

অথচ লীজের বিষয়ে কিছুই জানেন না স্থানীয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা,সহকারী কমিশনার ভূমি ও ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা।অভিযুক্তদের খোঁজতে গেলে তাদের কাউকেই পাওয়া যায়নি।সরেজমিন এলাকায় গিয়ে সাধারণ মানুষের সাথে কথা বলে,স্থানীয় ইউনিয়ন ভুমি সহকারী কর্মকর্তার সাথে কথা বলতে তার অফিসে গেলে অফিসটি বন্ধ পাওয়া যায়।তার ব্যবহৃত মোবাইল নাম্ভারে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি রিসিভ করেননি।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




আখেরি মোনাজাত/যেসব সড়কে চলবে না যানবাহন

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১১৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:শনিবার মধ্যরাত থেকে বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে কয়েকটি সড়কে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ থাকবে।

শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপকমিশনার ইব্রাহিম ইজতেমা ময়দানে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ইজতেমার আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে ডিএমপির ট্রাফিক বিভাগকে ঢেলে সাজানো হয়েছে। যেহেতু দূর-দূরান্ত থেকে মোনাজাতে অংশগ্রহণের জন্য মুসল্লিরা আসবেন, সেহেতু শনিবার (৩ জানুয়ারি) রাত ১২টার পর থেকে কয়েকটি সড়ক বন্ধ রাখা হবে।

উপকমিশনার ইব্রাহিম জানান, আখেরি মোনাজাতে দেশ-বিদেশের লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসল্লি অংশ নেবেন। এ কারণে তাদের সুবিধার জন্য শনিবার রাত ১২টা থেকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের রাজধানীর আবদুল্লাহপুর থেকে গাজীপুর মহানগরীর ভোগড়া বাইপাস, আবদুল্লাহপুর থেকে কামারপাড়া রোড হয়ে গাজীপুর মহানগরীর টঙ্গী স্টেশন রোড পর্যন্ত সড়ক, আবদুল্লাহপুর থেকে আশুলিয়ার বাইপাইল পর্যন্ত এবং মিরের বাজার থেকে টঙ্গী পর্যন্ত সড়কে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে।

ঢাকাগামী লোকজন ও যানবাহনগুলোকে ভোগড়া বাইপাস দিয়ে তিনশ’ ফিট রাস্তা ব্যবহার করে চলাচল করতে বলা হয়েছে। যেসব লোকজন ময়মনসিংহ বা গাজীপুর যাবেন, তারা বাইপাইল থেকে জয়দেবপুর চৌরাস্তা হয়ে চলে যাবেন।


আরও খবর



প্রাথমিকে ১০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে চার মাসে

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আগামী চার মাসের মধ্যে প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব ফরিদ আহমদ। তিনি বলেন, সারাদেশে নিয়োগ প্রক্রিয়া চলমান। ২০৩০ সালের মধ্যে শিক্ষক শিক্ষার্থীর অনুপাত ১:৩০ হওয়ার লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে। বর্তমানে শিক্ষক শিক্ষার্থীর অনুপাত ১:৩১ তে দাঁড়িয়েছে। আমরা আশাবাদী ২০২৪ সালের মধ্যেই এ অনুপাত ১:৩০ হবে।

রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা একাডেমি (নেপ), ময়মনসিংহের মিলনায়তনে বিভাগীয় প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয় আয়োজিত কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সচিব এসব কথা বলেন।

গণশিক্ষা সচিব বলেন, আগামী ১৬ মাসের মধ্যে শিক্ষার চলমান উন্নয়নকাজে ১৩ হাজার কোটি টাকা খরচ করার টার্গেট রয়েছে। এছাড়া আরও ৭ হাজার কোটি টাকার চাহিদা দেওয়া হয়েছে। ময়মনসিংহ বিভাগে প্রাথমিক শিক্ষার অবকাঠামোগত উন্নয়নমূলক কাজগুলোকে সময়মতো শেষ করার জন্য একটু নজরদারি বাড়ানো উচিত। সমন্বয় ও কাজের তদারকির জায়গায় সমাধান আনতে পারলে যথাসময়ে সম্পন্ন করা সম্ভব। বর্তমানে চলমান গুণাগুণের সাথে সংগতি রেখে আগামীতে শিক্ষায় আরও মানসম্মত উন্নয়নে কাজ করব।

সচিব আরও বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে স্মার্ট সিটিজেন অন্যতম উপাদান। আর এই স্মার্ট সিটিজেন তৈরির আঁতুড় ঘর প্রাথমিক বিদ্যালয়। শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। তিনি শিক্ষকদের উদারচিত্তে শিক্ষাদানের আহ্বান জানান। এছাড়াও কর্মশালায় মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশনা দেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব।


আরও খবর



কলারোয়া সীমান্তে চান্দুড়িয়া বিজিবি ক্যাম্পের সম্মুখে অরক্ষিত অবস্থায় মল্লিক শাহ পীরের মাজার

প্রকাশিত:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯৫জন দেখেছেন

Image
কলারোয়া(সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি:সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার পশ্চিমে শেষ ভারত সীমান্তবর্তী চন্দনপুর ইউনিয়নের চান্দুড়িয়া বিজিবি ক্যাম্পের সম্মুখে ইছামতী নদীর পাড়ে অরক্ষিত অবস্থায় আছে মল্লিক শাহ পীরের মাজার ও পীরের দরগা। স্থানীয়রা এটাকে মল্লিক পীরের মাজার বা দরগা বলেই জানে। তবে ঠিক কত দিন পূর্বে মল্লিক শাহ এপার বাংলায় এসে ছিলেন বা তার বংশ পরিচয় সম্পর্কে সঠিক করে কেউ বলতে পারে না। তবে এই পীর কে নিয়ে অনেক অলৌকিক কাহিনি বা গল্প এখনো লোক মুখে প্রচলিত আছে। কলারোয়া উপজেলার ইতিহাস রচয়িতা আলহাজ্ব অধ্যক্ষ আবু নসর তার ” কলারোয়া উপজেলার ইতিহাস ” বইতে এই মল্লিক শাহ পীরের কথা উল্লেখ করেছেন। স্থানীয় মনোবাসনা পূরণের উদ্দেশ্যে এই পীরের মাজারে মানত নিয়ে আসে। মাজারের আশ পাশে ঘণ বসতি গড়ে ওঠা বা গরু ছাগল বেঁধে রাখায় মাজারের পবিত্রতা ক্ষুন্ন হচ্ছে বলে অনেকেই মনে করেন। স্থানীয়রা মনে করেন, ইতিহাস খ্যাত মল্লিক শাহ পীরের মাজার সংস্কার ও সুরক্ষিত করতে পারলে অনেক পর্যটকের আগমন ঘটতে পারে এই চন্দনপুরে পর্যটক আসতে পারে প্রতিবেশী দেশ ভারত থেকে। এটি সংরক্ষনের জন্য স্থানীয় প্রশাসন সহ সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ কাছে ইউনিয়নবাসীর দাবি করেছেন।

আরও খবর



নবীনগর কাইতলা যঞ্জেশ্বর উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন শান্তিপূর্ণ ভাবে সম্পন্ন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০৮জন দেখেছেন

Image

মোহাম্মাদ হেদায়েতুল্লাহ্ নবীনগর ব্রাহ্মণবাড়ীয়া প্রতিনিধিঃ- ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর উপজেলার কাইতলা যঞ্জেশ্বর উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন উৎসবমুখর পরিবেশে শান্তিপূর্ণ ভাবে  এলাকার মান্যবর ব্যাক্তিবর্গগণের উপস্থিতিতে সম্পূর্ণ হয়েছে ।


সোমবার সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত একটানা বিরতিহীনভাবে চলে অত্র বিদ্যালয়ে শান্তিপূর্ণ ভাবে , উৎসবমুখর পরিবেশে  ভোটগ্রহণ ।


উক্ত নির্বাচনে ম্যানেজিং কমিটির প্রতিনিধি সদস্য পদে  ৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করে নির্বাচিত হয়েছেন ৪ জন ।

উক্ত বিদ্যালয়ের অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচনে ৮৭১ জন ভোটারের মধ্যে ৭৪৬ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন, এর মধ্যে ২০ টি ভোট বাতিল বলে গণ্য হয়েছে ।

এর মাঝে ৩৯১ ভোট পেয়ে প্রথম হয়েছেন ইকরাম হোসেন , ৩৪৩ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় হয়েছেন আবু সায়েদ মিয়া রনি , ৩০৫ ভোট পেয়ে তৃতীয় হয়েছেন মোঃ জসিম , ২৫৯ ভোট পেয়ে চতুর্থ হয়েছেন মোঃ সোহরাব উদ্দিন ।

ও সংরক্ষিত মহিলা আসনটি বিনা প্রতিদিতায় বিজয় হয়েছেন হাছিবা হোসেন হাসি ।

অপরদিকে ২৫৬ ভোট পেয়ে পঞ্চম হয়েছেন মোঃ মজিবুর রহমান , ২৪৫  ভোট পেয়ে ছষ্ঠ হয়েছেন, মোঃ শফিকুল ইসলাম , ২৩০ ভোট পেয়ে সপ্তম হয়েছেন লতিফ ,২১৬  ভোট পেয়ে অষ্টম হয়েছেন মোঃ আলাউদ্দিন সরকার।


উক্ত নির্বাচনে প্রিজাইডিং এর দায়িত্বে ছিলেন উপজেলা কৃষি আফিসার মোঃ জাহাঙ্গীর আলম ।

কাইতলা যঞ্জেশ্বর উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত  প্রধান শিক্ষক মোঃ হুমায়ুন কবির বলেন, শান্তিপূর্ণভাবে উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহনের জন্য যারা সহযোগীতা করেছে সকল কে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

উচ্চ বিদ‍্যালয়ের সভাপতি সৈয়দ সহসিন বলেন উৎসবমুখর পরিবেশে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভাবে নির্বাচন সম্পূর্ণ করার এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তি ও ইলেক্ট্রনিক প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিক সহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানায়।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২৪ আলট্রার ডেলিভারি শুরু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০৮জন দেখেছেন

Image

প্রযুক্তি ডেস্ক:[ঢাকা, ০৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪] দীর্ঘ অপেক্ষার প্রহর অবশেষে শেষ হলো! প্রি-অর্ডার নেয়া গ্যালাক্সি এস২৪ আলট্রার ডেলিভারি শুরু হয়েছে । যার মাধ্যমে আপনার দোরগোড়াতেই পৌঁছে যাবে হালের সবচেয়ে আধুনিক স্মার্টফোনটি। গ্যালাক্সি এআইয়ের সম্ভাবনায় ভরপুর এই ডিভাইসটি স্মার্টফোনের প্রতিদিনকার ব্যবহারে যুগান্তকারী পরিবর্তন নিয়ে আসবে।

প্রি-অর্ডারে স্যামসাং ফ্যানদের অভূতপূর্ব সাড়া পায় ডিভাইসটি; ফলে প্রি-অর্ডার ইউনিটের পরিমাণ লক্ষমাত্রার ১.২ গুণ! আর এখন গ্যালাক্সি এস২৪ আলট্রা ক্রেতাদের হাতে পৌঁছে দিতে সম্পূর্ণ প্রস্তুত স্যামসাং। নিরবচ্ছিন্ন যোগাযোগ থেকে শুরু করে অনবদ্য সৃজনশীলতা, প্রতিদিনের অভিজ্ঞতাকে আরও সমৃদ্ধ করতে ডিভাইসটিতে সুপার ইন্টারঅ্যাকটিভ গ্যালাক্সি এআই ব্যবহার করা হয়েছে। আগামীর সম্ভাবনা উন্মোচন করবে ফোনটির অনন্য সব ফিচার; ডিভাইসটিতে ১৫ ভাষায় পারদর্শী লাইভ কল ট্রান্সলেশন ও ৩৫টি ভাষায় সহায়তা করবে এমন লাইভ চ্যাট ট্রান্সলেশন সুবিধা রয়েছে। এছাড়াও, গ্যালাক্সি এআই-নির্ভর স্মার্ট ভয়েস রেকর্ডার রেকর্ডিংয়ের নোট নিতে পারবে, সেগুলো অনুবাদ করা বা সংক্ষেপ করে গুছিয়েও দিতে পারবে। পাশাপাশি, ব্যবহারকারীর স্বাচ্ছন্দ্যকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যেতে ডিভাইসটিতে ওয়েব অ্যাসিস্ট, সার্কেল টু সার্চ ও ইনটেলিজেন্ট ডিসপ্লের মতো ফিচার রয়েছে।

গ্যালাক্সি এস২৪ আলট্রা ডিভাইসটির আধুনিক ও নান্দনিক ফ্ল্যাট ডিসপ্লেতে স্মার্টফোনে কখনই দেখা যায়নি এমন সরু বেজেল ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়াও, ডিভাইসটিতে ডব্লিউকিউএইচডি+ রেজ্যুলুশন সমৃদ্ধ ৬.৮ ইঞ্চি এলটিপিও অ্যামোলেড ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। গ্যালাক্সি নোটের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে এতে একটি বিল্ট-ইন এস পেন দেয়া হয়েছে। এতে কোয়াড রেয়ার ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে, যেখানে ২০০ মেগাপিক্সেল (এফ/১.৭) ওয়াইড, ৫X অপটিক্যাল জুম সহ ৫০ মেগাপিক্সেল পেরিস্কোপ টেলিফটো, ৩X অপটিক্যাল জুম সহ ১০ মেগাপিক্সেল (এফ/২.৪) টেলিফটো ও ১২ মেগাপিক্সেল (এফ/২.২) আলট্রাওয়াইড লেন্স ব্যবহার করা হয়েছে। ডিভাইসটিতে ৫X জুম সহ ৮কে ভিডিও ধারণ করার সুযোগ রয়েছে। এছাড়া, এতে ৪কে ভিডিও রেকর্ডিং ফিচার সহ ১২ মেগাপিক্সেল (এফ/২.২) ওয়াইড লেন্স সেলফি ক্যামেরা রয়েছে।

এ বিষয়ে স্যামসাং ইন্ডিয়া ইলেকট্রনিকস প্রাইভেট লিমিটেড - বাংলাদেশ শাখা অফিসের হেড অব এমএক্স বিজনেস মো. মূয়ীদুর রহমান বলেন, “আমাদের প্রতিদিনকার স্মার্টফোন ব্যবহারে যুগান্তকারী পরিবর্তন নিয়ে আসতে যাচ্ছে স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২৪ আলট্রা। লাইভ ট্রান্সলেট, ট্রান্সক্রিপ্ট অ্যাসিস্টের মতো উদ্ভাবনী ফিচার, অনবদ্য স্পেসিফিকেশন আর দুর্দান্ত ক্যামেরা সেটআপের মধ্য দিয়ে ডিভাইসটি আপনার দৈনন্দিন সহযোগীতে পরিণত হবে। সব ধরনের কাজকে আগের চেয়ে আরও সহজ করার মাধ্যমে অমিত সম্ভাবনাময় আগামী নিশ্চিত করবে স্মার্টফোনটি।”

ডিভাইসটিতে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ৩ প্রসেসর এবং ওয়্যারড বা ওয়্যারলেস দুইভাবেই চার্জ হতে সক্ষম শক্তিশালী ৫,০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। টাইটানিয়াম ব্ল্যাক ও টাইটানিয়াম গ্রে, এই দুইটি রঙে ১২/২৫৬ জিবির এই স্মার্টফোনটির দাম এখন মাত্র ২,৪৩,৯৯৯ টাকা।  


আরও খবর