Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

সৌদিতে বাস দুর্ঘটনায় নিহত বাংলাদেশির সংখ্যা বেড়ে ১৩

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৩৪০জন দেখেছেন

Image

কূটনৈতিক প্রতিবেদক ;সৌদি আরবের আসির প্রদেশে বাস দুর্ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৩ বাংলাদেশি ওমরাহ যাত্রী নিহত হওয়ার খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে। এ ঘটনায় আহত আরও ১৭ বাংলাদেশিকে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আজ বুধবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

নিহত ১৩ বাংলাদেশি হলেন- নোয়াখালীর সেনবাগের মো. শরিয়ত উল্লাহর ছেলে শহিদুল ইসলাম, কুমিল্লার মুরাদনগরের আব্দুল আওয়ালের ছেলে মামুন মিয়া, নোয়াখালীর মোহাম্মদ হেলাল, লক্ষ্মীপুরের সবুজ হোসাইন, কুমিল্লার মুরাদনগরের রাসেল মোল্লা, কক্সবাজারের মহেশখালীর মো. আসিফ, গাজীপুরের টঙ্গীর আব্দুল লতিফের ছেলে মো. ইমাম হোসাইন রনি, চাঁদপুরের কালু মিয়ার ছেলে রুক মিয়া, কক্সবাজারের মহেশখালীর সিফাত উল্লাহ, কুমিল্লার দেবীদ্বারের গিয়াস হামিদ, যশোরের কাওসার মিয়ার ছেলে মোহাম্মদ নাজমুল, যশোর ইস্কান্দারের ছেলে রনি ও কক্সবাজারের মোহাম্মদ হোসেন।

আহত ১৭ বাংলাদেশির মধ্যে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন- চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের আবুল বাশারের ছেলে সালাহউদ্দিন, ভোলার বুরহান উদ্দিন উপজেলার আল আমিন, লক্ষ্মীপুরের রায়পুরের সিরাজুল্লাহর ছেলে মিনহাজ, চাঁদপুরের কচুয়ার মো. জয়নালের ছেলে জুয়েল, মাগুরার শালিকার জাকির মোল্লার ছেলে আফ্রিদি মোল্লা (পাসপোর্ট নং: EA0231718), লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জের আবু সাইদের ছেলে মো. রিয়াজ, মো. সেলিম (পাসপোর্ট নং: A03459571), কুমিল্লার লাকসামের আইয়ুবি আলীর ছেলে দেলোয়ার হোসাইন, মুরাদনগর উপজেলার আব্দুল মালেকের ছেলে ইয়ার হোসাইন, মো. জজ মিয়ার ছেলে মো. জাহিদুল ইসলাম, নোয়াখালীর সেনবাগের আব্দুল লতিফের ছেলে মোহাম্মদ শাহাবুদ্দিন, মাগুরার মোহাম্মদপুরের ফজলুর রহমানের ছেলে মিজানুর রহমান ও যশোর সদরের কাজী আনোয়ার হোসাইনের ছেলে মো. মোশাররফ হোসাইন।

এ ছাড়া প্রয়োজনীয় চিকিৎসা নিয়ে হাসপাতাল ত্যাগ করেছেন আব্দুল হাই, রানা, হোসাইন আলী ও কুদ্দুস।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সেহেলী সাবরীন জানিয়েছেন, সৌদি আরবে যে বাস দুর্ঘটনা ঘটেছে, সেই বাসে ৪৭ জন যাত্রী ছিলেন। এর মধ্যে বাংলাদেশি নাগরিক ছিলেন ৩৫ জন। বাস দুর্ঘটনায় ১৮ বাংলাদেশি আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ১৭ জনকে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নিহত হয়েছেন ১৩ বাংলাদেশি।

এ ছাড়া বাসে ভিন্ন দেশি ১২ জন যাত্রীর মধ্যে পাঁচজনকে মৃত এবং সাতজনকে আহত অবস্থায় বিভিন্ন হাসপাতালে শনাক্ত করা সম্ভব হয়েছে।

সূত্র জানায়, সৌদি আরবের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় আসির প্রদেশে যাত্রীবাহী বাস দুর্ঘটনায় ওমরাহ যাত্রীরা নিহত হয়েছেন। গত ২৭ মার্চ ওমরাহ যাত্রী বহনকারী বাসটি একটি সেতুতে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। একপর্যায়ে বাসটি উল্টে আগুন ধরে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ব্রেক কাজ না করায় একটি সেতুর সঙ্গে সংঘর্ষে উল্টে গিয়ে বাসটিতে আগুন ধরে যায়। আসির প্রদেশের আকাবা শার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। হতাহতরা ওমরাহ পালন করতে মক্কায় যাচ্ছিলেন।


আরও খবর



রৌমারীতে প্রতিবন্ধি নারীর লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৯২জন দেখেছেন

Image

মাজহারুল ইসলাম,রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি:কুড়িগ্রমের রৌমারীতে নিখোজের চারদিন পর আকরুমা খাতুন (২৪) নামের এক শারিরীক প্রতিবন্ধির লাশ উদ্ধার করেছে রৌমারী থানার পুলিশ। রবিবার সকাল ১১ টার দিকে রৌমারী সদর ইউনিয়নের নতুনবন্দর হাজীপাড়া গ্রামর একটি পরিত্যক্ত ডোবা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয় ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, আকরুমা থাতুন গত বৃহস্পতিবার সকালের দিকে পান কেনার কথা বলে বেড়িয়ে গেলেও সে বাড়িতে ফিরে আসেনি। পরে আত্মীয় ন্বজনের বাড়িতে খোজেও তার সন্ধান মিলেনি। নিখোজের চারদিন পর রবিবার সকালে নিহতের মামি সমনি খাতুন বাড়ির পিছনে গেলে পরিত্যক্ত ডোবায় তার লাশ ভেসে থাকতে দেখেন এবং পরিবারের লোকজন লাশটি সনাক্ত করেন। পরে স্থানীয়রা থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আকরুমার অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেন। আকরুমা খাতুন উপজেলার সদর ইউনিয়রে নতুনবন্দর হাজীপাড়া গ্রামের মৃত্যু আনছার আলীর মেয়ে বলে জানা যায়।

নিহতের ভাই আজাদ মিয়া বলেন, আমার বোনটি শাররীক প্রতিবন্ধি এবং সে প্রতিবন্ধি ভাতাও পায়। চার দিন আগে সে নিখোজ হয়। অনেক খোজাখুজির পরেও তার কোন সন্ধান পাইনি। আজ বাড়ির পাশে ডোবা থেকে বোনের লাশটি দেথতে পাই।  

রৌমারী সদর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, মেয়েটি শারিরীক প্রতিবন্ধি ও মিরকি রোগে আক্রান্ত ছিল। গত ৪-৫ দিন আগে বন্যার পানি ছিলো। সম্ভবত পানি ভেঙ্গে রান্তা পাড় হওয়ার সময়ে পানিতে ডুবে গিয়ে মারা যায়।   

রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহিল জামান বলেন, পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষের পরামর্শক্রমে ও জনপ্রতিনিধিদের সুপারিশে লাশ দাফনের জন্য পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.

আরও খবর



শিক্ষার্থীদের দক্ষ মানবসম্পদ হিসেবে গড়ে তোলাই আমাদের মূল লক্ষ্য: চেয়ারম্যান ফাউন্ডেশন

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি:নওগাঁর আত্রাইয়ে চেয়ারম্যান ফাউন্ডেশনের আয়োজনে ১ ঘন্টাব্যাপী প্রাথমিক ও জুনিয়র মেধা যাচাই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (১৭ জুলাই) সকাল ৯ টায় আত্রাই পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ১ঘন্টাব্যাপী লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষা শেষে ফলাফল প্রদান ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

পরীক্ষায় পঞ্চম শ্রেণী থেকে ৮ম শ্রেণির ২’শ ৫০ জন ছাত্র-ছাত্রী অংশ নেয়।

উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়াম হল রুমে অনুষ্ঠিত ফলাফল প্রকাশ ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সঞ্চিতা বিশ্বাস।

চেয়ারম্যান ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা পাঁচুপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান খবিরুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপজেলা সিনিয়র মৎস্য অফিসার পলাশ চন্দ্র দেবনাথ, অবসরপ্রাপ্ত সহকারী অধ্যাপক দ্বীন মোহাম্মদ, ইসলামী ব্যাংক আত্রাই শাখার ইনচার্জ আসাদুল্লাহ আল গালীব, ক্রিয়েটিভ মডেল একাডেমির অধ্যক্ষ আরিফুল ইসলাম, উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার এসএম নাসির উদ্দিন, প্রধান শিক্ষক মালেকা খাতুন, নূর জাহান বানু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন খন্দকার মমতাজ উদ্দিন।

উপহার হিসাবে পরীক্ষায় অংশ নেওয়া বিদ্যালয়কে ক্রেষ্ট, অংশ গ্রহনকারী সকল ছাত্র-ছাত্রীদের শান্তনা পুরস্কার, অংশগ্রহনকৃত বিদ্যালয়ের শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থীকে ক্রেষ্ট এবং ৫ম ও ৮ম উভয় শ্রেণিতে আলাদা আলাদা করে সেরা ১০ জনকে ক্রেষ্ট, সাটিফিকেট ও নগদ অর্থ দেওয়া হয়। উভয় শ্রেণির সেরা ১০ জনের মধ্যে ১ম স্থান অধিকারীর জন্য ১টি বাইসাইকেল, ২য় স্থান অধিকারীর জন্য ৩ হাজার টাকা এবং ৩য় স্থান অধিকারীর জন্য ২ হাজার টাকা। এছাড়া ৪-১০ম স্থান অধিকারী পায় ৫’শ টাকা করে।

অনুষ্ঠানে চেয়ারম্যান ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান খবিরুল ইসলাম বলেন, শিক্ষার্থীদের আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত করে তাদের প্রকৃত মেধাসম্পন্ন হিসাবে গড়ে তোলাই আমাদের মূল লক্ষ্য। কেনোনা আজকের এই কোমলমতি শিক্ষার্থীরা আগামীর ভবিষ্যত রচনা করবে। আগামীতে এ কার্যক্রমের পরিধি বৃদ্ধির আশা ব্যক্ত করে সকলের গঠনমূলক সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



ফেসবুকে প্রেম করে ভারতীয় তরুণী বাংলাদেশে এসে প্রতারনার শিকার

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪ | ১২২জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:ফেসবুকে বাংলাদেশি যুবক সমর সরকারের সঙ্গে ভারতের উত্তর ২৪ পরগনার বাসিন্দা পিংকি সরকার পরিচয় থেকে প্রেম হয়। প্রেমের দু'বছর পর।গত ২৯ জুন অবৈধভাবে চুয়াডাঙ্গা সীমান্ত দিয়ে প্রেমিক সমর সরকারের কাছে ছুটে আসেন পিংকি সরকার। প্রমিক-প্রেমিকা তিনদিন একসঙ্গেও থাকেন।

বুধবার (৩ জুলাই) বিকেলে ওই তরুণীকে সমর সরকার এক বন্ধুর মাধ্যমে বেনাপোল বর্ডারে পাঠিয়ে দেন সমর। এরপরই তাদের দুজনের মধ্যে বন্ধ হয়ে যায় যোগাযোগ। এতে প্রমিক নামের প্রতারকের প্রতারনায় বিপাকে পড়েন ঐ তরুণী।

বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) সকাল ৮টায় বেনাপোল-পেট্রাপোল নো-ম্যান্সল্যান্ডে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে বেনাপোল চেকপোস্ট আইসিপি ক্যাম্পের বিজিবি সদস্যরা বিএসএফের কাছে তরুণীকে হস্তান্তর করেন।

বেনাপোল আইসিপি ক্যাম্পের কমান্ডার সুবেদার মিজানুর রহমান জানান, ২৯ জুন ভারত থেকে চুয়াডাঙ্গা সীমান্ত দিয়ে পালিয়ে বাংলাদেশে আসেন পিংকি। তিনদিন ধরে চুয়াডাঙ্গায় সমরের সঙ্গে অবস্থান করছিলেন তিনি। একপর্যায়ে সমর তার বন্ধুকে দিয়ে বুধবার বিকেলে পিংকিকে বেনাপোল বর্ডারে পাঠানে। সেখানে তাকে ফেলে পালিয়ে যান সমরের বন্ধু।

এসময় মেয়েটির কান্নাকাটি দেখে স্থানীয় ও বিজিবি সদস্যরা রাতে একটি বাড়িতে রাখেন তাকে। এরপর বিজিবি সব ঘটনা জানালে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে ওই মেয়েকে ফেরত নিতে রাজি হয় বিএসএফ।


আরও খবর



তানোরে প্রভাষক পরিবারের বিরুদ্ধে রাস্তার গাছ কাটার অভিযোগ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১১৮জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:রাজশাহীর তানোরে প্রভাবশালী প্রভাষক ও ক্ষমতা সীন দলের নেতার বিরুদ্ধে সরকারি রাস্তার তালগাছ সহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কাটার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনায় বুধবার জিওল দাখিল মাদ্রাসার সুপার ও বরুজ গ্রামের বাসিন্দা আসলাম উদ্দিন বাদী হয়ে একই গ্রামের আলহাজ্ব সৈয়দ আলী মিয়ার পুত্র প্রভাষক সোহরাব আলী মিয়া, সাবেক যুবলীগ সভাপতি আব্দুল ওহাব মিয়া, বুলবুল মিয়া, মাহাবুর রহমান মুকুল মিয়া, শামসুল আলম জুয়েল মিয়া, আমিনুল ইসলাম আপেল মিয়া ও বুলবুলের পুত্র শাকিল, মৃত জাবেদ আলীর পুত্র কোরবান আলী ( কুড়্যানু) এবং রায়তান বাজে আকচা (বানিয়াপাড়া) গ্রামের মৃত নুরুল ইসলামের পুত্র নাসির উদ্দীন (ভাদু)কে বিবাদী করে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। তানোর পৌর এলাকার বুরুজ গ্রামে ঘটে রয়েছে এমন ঘটনা। এঘটনায় উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।অভিযোগে উল্লেখ, তানোর পৌর এলাকার ১৩১ নম্বর বুরুজ মৌজার অন্তর্গত ৩৮০ নম্বর আরএস দাগে সরকারি রাস্তার নকশার প্রকৃত স্থান পরিবর্তন করে নিজের স্বার্থে অন্যপাশ দিয়ে ২০ ফিট বিশিষ্ট রাস্তা নির্মাণ করেছে। রাস্তার দুপাশে মেহগনি, ইউকালেক্টর ও তাল গাছ ছিল। যার মূল্য প্রায় ২ লাখ টাকা হবে। গাছগুলো প্রভাষক সোহরাব আলী মিয়ার নির্দেশে কাটা হয়।সরেজমিনে দেখা যায়, কাশেম বাজার টু মোহনপুর রাস্তার বুরুজ ঘাট বেলি ব্রীজের পূর্ব দিকে মুল রাস্তার দক্ষিণ পশ্চিম দিকে  বিবাদী সোহরাব ও ওহাব মিয়াদের বাড়ি। বাড়ির পূর্ব ও দক্ষিণ দিকে পাকা রাস্তা। রাস্তার এক কর্নারে বাঁশ দিয়ে ঘিরা আছে। সেখানেই দুটি তালগাছ কাটা হয়েছে। ওই জায়গার দক্ষিণে অভিযোগ কারী আসলাম উদ্দিনের নিজস্ব জমি রয়েছে। 

প্রভাষক সোহরাব আলী মিয়া, ওহাব হোসেন লালু মিয়া ও জুয়েল মিয়া জানান, রাস্তার কোন গাছ কাটা হয়নি। আসলাম উদ্দিন জায়গা জমি মাপার জন্য আমিন এনেছিল। মাপার পর তার জমির সামনের পজিশন টি আমাদের পড়ে। মুলুত একারনে সে আমাদের নামে মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছে। সে একজন প্রতারক। আমাদের নিজস্ব জায়গার উপরে গাছ ছিল সেগুলো কাটা হয়েছে। 
অভিযোগ কারী সুপার আসলাম উদ্দিন বলেন, গত প্রায় ৩/৪ মাস আগে গাছগুলো কাটে। ওই সময় নির্বাহী অফিসারের নিকট লিখিত অভিযোগ দিয়েছিলাম। নির্বাহী অফিসার পৌর মেয়রকে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বলেছিলেন। কিন্তু পৌর মেয়র ৮ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র আরব আলীর জন্য কোন ব্যবস্থা নেয়নি। বাধ্য হয়ে বুধবার থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র আরব আলী জানান, রাস্তা টি সোহরাব ও ওহাব হোসেন লালু মিয়াদের নিজস্ব জায়গা। তারা রাস্তা করার জন্য জায়গা ছেড়ে দিয়েছে এটাই তো অনেক। রাস্তার গাছ কেটেছে সে জায়গা নাকি খাস জানতে চাইলে তিনি জানান এটা আমার জানা নেয়, তবে শুনেছি কিছু খাস থাকতে পারে। 

মেয়র ইমরুল হক জানান, বৃহস্পতিবার অফিসে গিয়ে ফাইল দেখে বলতে পারব।
থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি আব্দুর রহিম বলেন, অভিযোগ পাওয়া গেছে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরও খবর



আর্জেন্টিনা টিমের জয় উদযাপনে মেহজাবীন

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৭৪জন দেখেছেন

Image

বিনোদন প্রতিবেদক:ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী মেহজাবীন চৌধুরী। ক্যারিয়ারের অসংখ্য নাটকের মাধ্যমে ভক্তদের মন কেড়েছেন। নাটকের পাশাপাশি ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেও সুনাম কুড়িয়েছেন এ অভিনেত্রী।

বাংলাদেশে আর্জেন্টিনার ভক্ত-অনুরাগীদের সংখ্যা নেহাতই কম নয়। সাধারণ দর্শকদের পাশাপাশি অভিনেতা-অভিনেত্রীরা রয়েছেন। এ তালিকায় বাদ যায়নি মেহজাবিন চৌধুরীও।

এদিকে কোপা আমেরিকার ফাইনালে লাউতারো মার্টিনেজের ১১২ মিনিটের গোলে ১-০ গোলের জয়ে নিজেদের ইতিহাসের ১৬তম কোপা আমেরিকার শিরোপা নিশ্চিত করল আর্জেন্টিনা।

মেহজাবিন চৌধুরীকে আর্জেন্টিনা ভক্তদের সঙ্গে জয় উদযাপন করতে দেখা গেল। এ অভিনেত্রী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রিল শেয়ার করেছে। যেখানে ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘আর্জেন্টিনা টিমের জয় উদযাপন।’

এ সময় যুক্তরাষ্ট্রের খোলা আকাশের নিচে ধূসর কালারের টি-শার্ট গায়ে মিষ্টি হাসিতে অনুরাগীদের মাঝে ধরা দেন। আর্জেন্টিনার জয়ে বেশ খুশিতে হয়েছে এ অভিনেত্রী।

ভক্ত-অনুরাগীদের অনেকেই কমেন্ট বক্সে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। মিনহাজ নামে এক ভক্ত লিখেছেন, ‘জীবনে বহুকিছু আমাকে হতাশ করেছে। কিন্তু, এই টিমটা কখনো আমাকে হতাশ করেনি। অভিনন্দন অভিনন্দন অভিনন্দন।’

উল্লেখ্য, মেহজাবীন চৌধুরী তিনি ২০০৯ সালে লাক্স চ্যানেল আই সুপারস্টার থেকে বিজয়ী হয়ে মিডিয়া জগতে আসেন। বর্তমানে তিনি বিভিন্ন টিভি বিজ্ঞাপন ও নাটকে নিয়মিত অভিনয় করছেন। মোবাইল ফোন অপারেটর বাংলালিংকের একটি টিভি বিজ্ঞাপনে অভিনয়ের মাধ্যমে মেহজাবীন পরিচিতি অর্জন করেন। এটিএন বাংলায় প্রচারিত টেলিভিশন নাটক 'তুমি থাকো সিন্ধু পাড়ে'র মাধ্যমে তার ছোট পর্দায় আত্মপ্রকাশ ঘটে।


আরও খবর