Logo
আজঃ Monday ০৮ August ২০২২
শিরোনাম
রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড নিখোঁজ সংবাদ প্রধানমন্ত্রীর এপিএসের আত্মীয় পরিচয়ে বদলীর নামে ঘুষ বানিজ্য

‘শিক্ষা ক্যাডারের কর্মকর্তারা ফেসবুকে সংক্ষুব্ধ হলেই ব্যবস্থা’

প্রকাশিত:Friday ০৫ August ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ২৭জন দেখেছেন
Image

বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের কর্মকর্তাদের ফেসবুকে সহকর্মী, অধ্যক্ষ ও ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের গৃহীত সিদ্ধান্তের বিষয়ে অশোভন, অনৈতিক, সংক্ষুব্ধ, শিষ্টাচারবহির্ভূত ও উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়া থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)। অন্যথায় সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও হুঁশিয়ার করেছে মাউশি।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) এক জরুরি নোটিশে মাউশি নির্দেশনা দেয়।

নোটিশে বলা হয়, দেখা যাচ্ছে বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের কিছু সদস্য ফেসবুকে তাদের ব্যক্তিগত ওয়াল ও বিভিন্ন গ্রুপে সহকর্মী, অধ্যক্ষ ও ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের গৃহীত সিদ্ধান্তের বিষয়ে অশোভন, অনৈতিক, শিষ্টাচারবহির্ভূত ও উসকানিমূলক বক্তব্য দিচ্ছেন। এতে শিক্ষা ক্যাডার, মাউশি ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হচ্ছে। এ ধরনের কর্মকাণ্ড সরকারি কর্মচারী আচরণ বিধিমালা, সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ প্রকাশিত ‘সরকারি প্রতিষ্ঠানে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারসংক্রান্ত নির্দেশিকা, ২০১৮’ এর পরিপন্থী।

নোটিশে আরও বলা হয়, কর্মকর্তারা যেসব প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছেন, সেসব প্রতিষ্ঠানের প্রধান বিষয়টি মনিটরিং করবেন। আর কোনো কর্মকর্তা বা কোনো ব্যক্তি কারও কনটেন্ট বা পোস্টে সংক্ষুব্ধ হলে কনটেন্ট বা পোস্ট প্রদানকারীর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রমাণসহ মাউশিতে আবেদন করতে বলা হয়েছে নোটিশের মাধ্যমে।


আরও খবর



মহেশপুর সীমান্তে নারী-শিশুসহ ৩০ জন আটক

প্রকাশিত:Monday ১৮ July ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ০৭ August ২০২২ | ৪৭জন দেখেছেন
Image

ঝিনাইদহের মহেশপুর সীমান্ত থেকে দালালসহ ৩০ নারী-পুরুষ ও শিশুকে আটক করেছে মহেশপুর ব্যাটালিয়ন (৫৮ বিজিবি)।

সোমবার (১৮ জুলাই) সকালে মহেশপুর ব্যাটালিয়নের অধীন যাদবপুর বিওপির টহলদল মহেশপুর উপজেলার গোপালপুর গ্রাম থেকে তাদের আটক করে।

আটক ব্যক্তিদের মধ্যে ৯ জন পুরুষ, ১০ নারী ও ১১ শিশু রয়েছে। তাদের বাড়ি যশোর, নড়াইল, ঢাকা, বাগেরহাট ও সাতক্ষীরা জেলার বিভিন্ন এলাকায়।

তাদের যাতায়াতে সহায়তাকারী দালাল তৌফিক মহেশপুর উপজেলার পাথরা গ্রামের মোশারফ তরফদারের ছেলে বলে জানিয়েছে বিজিবি।

মহেশপুর ব্যাটালিয়নের (৫৮ বিজিবি) অতিরিক্ত পরিচালক তসলিম মো. তারেক জানান, আটক বাংলাদেশি নাগরিকদের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে সীমান্ত পারাপারের অপরাধে মহেশপুর থানায় মামলা ও পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে।


আরও খবর



তিন বন্দরের সুবিধা নিতে পারে নেপাল: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:Friday ০৫ August ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ১৩জন দেখেছেন
Image

বাংলাদেশের মোংলা ও চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর এবং সৈয়দপুর বিমানবন্দর ব্যবহারের সুবিধা নিতে পারে নেপাল। দেশটির সফররত প্রতিনিধি দলকে এ কথা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা৷

শুক্রবার (৫ আগস্ট) নেপালের সফররত সংসদীয় প্রতিনিধি দল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে গণভবনে সাক্ষাৎ করলে তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে ছিলেন নেপালের ফেডারেল পার্লামেন্টে হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক কমিটির চেয়ারপারসন ড. পবিত্র নিরুওলা খারেল ।

অন্যান্যের মধ্যে দেশটির সংসদ সদস্য ড. চাঁদতারা কুমারী, ড. দীপক প্রকাশ ভট্ট, দেব প্রসাদ তিমলসেনা, লীলা দেবী সিতৌলা, নারদ মুনি রানা এবং সরলা কুমারী যাদব সাক্ষাতে অংশ নেন।

কুশল বিনিময়ের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিনিধি দলকে বাংলাদেশে স্বাগত জানান।

শুরুতেই নেপালের প্রতিনিধি দল দুই দেশের বিদ্যুৎ, জলবিদ্যুৎ, পর্যটন, শিক্ষা, আইসিটি, কানেক্টিভিটি এবং জনগণের মধ্যে যোগাযোগের মতো খাতে তাদের সহযোগিতা আরও সুসংহত করতে জোর দেন। তারা বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক জোরদার করতে নিয়মিত উচ্চ পর্যায়ের সফরের ওপর জোর দেন।

তারা প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শী নেতৃত্ব এবং সাম্প্রতিক আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের জন্য প্রশংসা করেন, যা তারা অত্যন্ত চিত্তাকর্ষক বলে অভিমত ব্যক্ত করেন।

প্রধানমন্ত্রী ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশকে সমর্থন করার জন্য নেপালের নেতৃত্ব ও জনগণের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি উল্লেখ করেন যে তার সরকার নেপালসহ প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখাকে অত্যন্ত গুরুত্ব দেয়।

তিনি বলেন, নেপাল আমাদের মোংলা ও চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহার করে সুবিধা নিতে পারে। বাংলাদেশ সৈয়দপুর বিমানবন্দরকে আঞ্চলিক বিমানবন্দর হিসেবে গড়ে তুলছে, যা প্রতিবেশী দেশগুলো ব্যবহার করতে পারবে।

প্রতিনিধি দলটি ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর ও বাংলাদেশ সংসদ পরিদর্শন করায় প্রধানমন্ত্রী সন্তোষ প্রকাশ করেন। তারা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সঙ্গেও বৈঠক করেন। আজ প্রতিনিধি দলটি পদ্মা সেতু হয়ে টুঙ্গিপাড়ায় যাচ্ছে।


আরও খবর



ভৈরবে চার হাসপাতালকে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা

প্রকাশিত:Sunday ২৪ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ৩২জন দেখেছেন
Image

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ, রিঅ্যাজেন্ট, প্যাথলজিক্যাল পরীক্ষার সরঞ্জাম ব্যবহারের দায়ে চার হাসপাতালকে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

শনিবার (২৪ জুলাই) সন্ধ্যায় পৌর শহরের নিউ টাউন এলাকায় এ অভিযান পরিচালনা করেন ভোক্তা অধিদপ্তরের কিশোরগঞ্জ জেলার সহকারী পরিচালক হৃদয় রঞ্জন বণিক ।

এ সময় ট্রমা মেডিসিন কর্নারকে ১০ হাজার টাকা, সাঈদ-ইউসুফ মেমোরিয়াল হসপিটালকে ২০ হাজার টাকা, আল মাহিন ফার্মেসিকে ১০ হাজার টাকা, পদ্মা জেনারেল হাসপাতালকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

ভোক্তা অধিদপ্তরের কিশোরগঞ্জ জেলার সহকারী পরিচালক হৃদয় রঞ্জন বণিক বলেন, ট্রমা মেডিসিন কর্নারে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ, মেয়াদোত্তীর্ণ অগ্নি নির্বাপক যন্ত্র পাওয়া যায়। সাঈদ-ইউসুফ মেমোরিয়াল হসপিটালে কয়েকটি টেস্টের মূল্য বাবদ বাড়তি টাকা নেওয়া হচ্ছে। যা ওই প্রতিষ্ঠানের মূল্য তালিকার সঙ্গে মিল নেই। আল মাহিন ফার্মেসিতে ফিজিসিয়ান স্যাম্পল ও মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ পাওয়া যায়। পদ্মা জেনারেল হসপিটালে মেয়াদোত্তীর্ণ বিভিন্ন প্যাথলজিক্যাল পরীক্ষার রিঅ্যাজেন্ট ও মেয়াদোত্তীর্ণ ইনসুলিন পাওয়া যায়। ফলে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ অনুযায়ী চার প্রতিষ্ঠানকে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া প্রতিষ্ঠানগুলির মালিকদের সর্তক করা হয়েছে।


আরও খবর



জিম্বাবুয়ের কাছে প্রথম টি-টোয়েন্টি সিরিজ পরাজয় বাংলাদেশের

প্রকাশিত:Tuesday ০২ August 2০২2 | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ২১জন দেখেছেন
Image

ঘরে-বাইরে এবার নিয়ে টি-টোয়েন্টি সপ্তম সিরিজে মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ। আগের ৬ বার একচ্ছত্র শাসন ছিল টাইগারদেরই। কিন্তু সপ্তমবার এসে আর সিরিজটা নিজেদের কাছে রেখে দিতে পারলো না বাংলাদেশ।

সিরিজের শেষ ম্যাচেও হারতে হলো ১০ রানের ব্যবধানে। সে সঙ্গে টি-টোয়েন্টিতে প্রথমবারেরমত জিম্বাবুয়ের কাছে সিরিজে হারলো বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। এই সিরিজ জয়ে জিম্বাবুয়ের অর্জন হলো আরো একটি। যে কোনো টেস্ট খেলুড়ে দেশের বিপক্ষে এই প্রথম কোনো সিরিজ জয়ের কৃতিত্ব অর্জন করলো তারা।

১৫৭ রানের লক্ষ্য। খুব বড় কিছু ছিল না। কিন্তু এই লক্ষ্যও তাড়া করতে পারেনি বাংলাদেশের ব্যাটাররা। থেমে যেতে হলো ৮ উইকেটে ১৪৬ রানে। প্রথম ম্যাচে ১৭ রানে পরাজয়ের পর দ্বিতীয় ম্যাচে ৭ উইকেটে জিতে সিরিজ জয়ের সম্ভাবনা ধরে রেখেছিল টাইগাররা।

কিন্তু শেষ ম্যাচের আগে অধিনায়ক পরিবর্তন করতে হলো। ইনজুরির কারণে নুরুল হাসান সোহান ছিটকে যান। পরিবর্তে মোসাদ্দেক হোসেনকে দায়িত্ব দেয়া হয় অধিনাকত্বের। প্রথমবার জাতীয় দলের নেতৃত্ব দিতে এসে পরাজয়ের স্বাদই নিতে হলো মোসাদ্দেক হোসেনকে।

১৫৭ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নামার পর একটা বড় জুটি অন্তত প্রয়োজন ছিল বাংলাদেশের। কিন্তু কোনো একটি বড় জুটি গড়ে উঠেনি। প্রতিষ্ঠিত ব্যাটারদের কেউই দাঁড়াতে পারলেন না জিম্বাবুয়ে বোলারদের সামনে। বরং নিয়মিত বিরতিতে একের পর এক উইকেট হারিয়েছে তারা।

বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং লাইনটা বেশ বড়। লিটন দাস, পারভেজ হোসেন ইমন, এনামুল হক বিজয় এবং নাজমুল হোসেন শান্ত, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মোসাদ্দেক হোসেন, মাহদি হাসান- কত বড় বড় ব্যাটার! কিন্তু আফিফ ছাড়া এদের কেউই জিম্বাবুয়ে বোলারদের চ্যালেঞ্জ জানাতে পারলো না।

১৩ রানে লিটন দাসের বিদায়ে শুরু, এরপর ২৪, ৩৪, ৬০, ৯৯, ৯৯, ১৩৩ এবং ১৩৯ রানের মাথায় পড়েছে ৮টি উইকেট। এমন নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারালে জয়ের আশা করাটাই বোকামি।

বিস্তারিত আসছে


আরও খবর



বীরশ্রেষ্ঠ মুন্সী আব্দুর রউফ পাবলিক কলেজে বইমেলা

প্রকাশিত:Saturday ৩০ July ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ০৫ August ২০২২ | ১৫জন দেখেছেন
Image

বাংলাদেশ পুুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতির সহযোগিতায় বীরশ্রেষ্ঠ মুন্সী আব্দুর রউফ পাবলিক কলেজের উদ্যোগে শেষ হয়েছে ৭ দিনব্যাপী ‘ক্লাসের ফাঁকে বইমেলা ২০২২’।

বিজিবি সদরদপ্তরে অবস্থিত কলেজটির মুক্তমঞ্চে ২৪ জুলাই থেকে ২৯ জুলাই পর্যন্ত অনুষ্ঠিত বইমেলায় ৫২টিরও বেশি প্রকাশনী অংশগ্রহণ করে।

উদ্বোধনী দিনে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা। সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর সাবেক মুখ্যসচিব কবি কামাল চৌধুরী।

jagonews24

কবি কামাল চৌধুরী বলেন, ‘ক্লাসের ফাঁকে বইমেলা’র এ আয়োজন আমাকে ভীষণ মুগ্ধ করেছে। আমি মনে করি, বীরশ্রেষ্ঠ মুন্সী আব্দুর রউফ পাবলিক কলেজের মতো এ ধরনের আয়োজন দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছড়িয়ে দিতে হবে। এমন শিক্ষাবান্ধব উদ্যোগের জন্য প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ এবং বিজিবি কর্তৃপক্ষকে অভিনন্দন জানাই।’

বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ পুুস্তক প্রকাশ ও বিক্রেতা সমিতির উপদেষ্টা ওসমান গণি ও সহসভাপতি শ্যামল পাল। বিশেষ অতিথিরা বলেন, ‘কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা পেলে আবারো মেলার আয়োজন করার ইচ্ছা পোষণ করি।’

jagonews24

সভাপতি অধ্যক্ষ লে. কর্নেল হাফেজ মো. জোনায়েদ আহাম্মদ বলেন, ‘মূলত শিল্প, সাহিত্য ও সংস্কৃতি নির্ভর সমাজ নির্মাণের লক্ষ্যে এ আয়োজন। নতুন প্রজন্মের শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞানমনস্ক ও তথ্যপ্রযুক্তির সাথে তাল মিলিয়ে যুগোপযোগী নাগরিক তৈরি করাই এ মেলার উদ্দেশ্য। এখান থেকেই শিক্ষার্থীরা মেধা ও মননের চর্চায় নিজেদের নিয়োজিত রেখে সচেতন মানুষ হিসেবে ভবিষ্যতে দেশের হাল ধরবে।’

jagonews24

বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতির একটি স্বপ্নের নাম ‘ক্লাসের ফাঁকে বইমেলা’। সংগঠনটি ২০১৭ সাল থেকে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আয়োজন করে চলেছে ‘বইমেলা’। ক্লাসের বাইরে এসে শিক্ষার্থীরা মনের মতো বই, পত্রপত্রিকা দেখতে পারে, কিনতে পারে।

শিক্ষার্থীরা এখান থেকে কিনতে পারে বেশি কমিশনে এবং অনেক কম দামে। বইমেলায় ‘রউফিয়ান রচনাবলি’ নামে একটি স্টলে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের বইপত্র প্রদর্শনী ও বিক্রির ব্যবস্থা করা হয়।


আরও খবর