Logo
আজঃ Monday ০৮ August ২০২২
শিরোনাম
রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড নিখোঁজ সংবাদ প্রধানমন্ত্রীর এপিএসের আত্মীয় পরিচয়ে বদলীর নামে ঘুষ বানিজ্য

শেষের ধাক্কায় পতনেই শেয়ারবাজার

প্রকাশিত:Thursday ২১ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ৮৬জন দেখেছেন
Image

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার লেনদেনের শেরুতে শেয়ারবাজারে বড় ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা দেখা দিলেও শেষ পর্যন্ত সবকটি মূল্যসূচকের পতন ঘটেছে। মূল্যসূচকের পতনের পাশাপাশি প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) দরপতন হয়েছে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের। এর মাধ্যমে ঈদের পর লেনদেন হওয়া আট কার্যদিবসেই শেয়ারবাজারে দরপতন হলো।

ঈদের পর থেকেই শেয়ারবাজারে টানা দরপতন ঘটলেও সরকার বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে এলাকাভিত্তিক লোডশেডিংয়ের সিদ্ধান্ত জানানোর পর পতনের মাত্রা বেড়ে যায়। জ্বালানি তেল ও গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে জ্বালানি সাশ্রয়ের লক্ষ্যে গত সোমবার সারাদেশে এলাকাভিত্তিক বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রাখার ঘোষণা দেয় সরকার।

সরকারের এমন ঘোষণা আসার পর সোমবার শেয়ারবাজারে বড় দরপতন হয়। সেই সঙ্গে চরম ক্রেতা সংকটে পড়ে অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট। মঙ্গলবারও এ ধারা অব্যাহত থাকে। ফলে অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমার মাধ্যমে মূল্যসূচকের বড় পতন হয়। পরের কার্যদিবস বুধবারও দরপতন হয় শেয়ারবাজারে।

এ পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার শেয়ারবাজারে লেনদেন শুরু হয় বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার মাধ্যমে। ফলে লেনদেন শুরুর ১৫ মিনিটের মধ্যে ডিএসইর প্রধান সূচক ৫১ পয়েন্ট বেড়ে যায়। আর দাম বাড়ার তালিকায় নাম লেখায় ৭০ শতাংশের বেশি প্রতিষ্ঠান।

লেনদেনের শুরুতে শেয়ারবাজারে এমন ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা দেখা দিলেও তা শেষ পর্যন্ত অব্যাহত থাকেনি। বিনিয়োগকারীদের একটি অংশের বিক্রির চাপে প্রথম আধা ঘণ্টার লেনদেন শেষ হতেই একের পর এক প্রতিষ্ঠানের দরপতন ঘটতে থাকে। ফলে ছোট হতে থাকে দাম বাড়ার তালিকা। বিপরীতে দাম কমার তালিকা বড় হতে থাকে।

লেনদেনের শেষ সময় পর্যন্ত অব্যাহত থাকে এ প্রবণতা। ফলে দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইতে ১১৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ২১৯টির এবং ৪৭টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

এতে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ১২ পয়েন্ট কমে ৬ হাজার ১২৬ পয়েন্টে নেমে গেছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে বাছাই করা ভালো কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএসই-৩০ সূচক ৫ পয়েন্ট কমে ২ হাজার ২০০ পয়েন্টে অবস্থান করছে। আর ডিএসই শরিয়াহ্ আগের দিনের তুলনায় ১ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৩৪৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

মূল্যসূচক কমলেও বাজারটিতে লেনদেনের পরিমাণ কিছুটা বেড়েছে। দিনভর ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৬৭৬ কোটি ৯৩ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ৬৬৫ কোটি ৫৮ লাখ টাকা। সে হিসেবে লেনদেন বেড়েছে ১১ কোটি ৩৫ লাখ টাকা।

ডিএসইতে টাকার অঙ্কে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে সোনালী পেপারের শেয়ার। কোম্পানিটির ৪০ কোটি ১৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছ। দ্বিতীয় স্থানে থাকা রবির ২৩ কোটি ৭২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ২৩ কোটি ৬৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে বেক্সিমকো।

এছাড়া ডিএসইতে লেনদেনের দিক থেকে শীর্ষ দশ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় রয়েছে- কেডিএস এক্সেসরিজ, তিতাস গ্যাস, আইপিডিসি ফাইন্যান্স, প্রাইম ইন্স্যুরেন্স, প্রাইম টেক্সটাইল, ওরিয়ন ইনফিউশন ও লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ।

এদিকে, সিএসইর সার্বিক মূল্যসূচক সিএএসপিআই কমেছে ৬২ পয়েন্ট। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ১৭ কোটি ১১ টাকা। লেনদেন অংশ নেওয়া ২৭৬টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৭৫টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১৫৯টির এবং ৪২টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।


আরও খবর



শেরপুরে ‘হাতির আক্রমণে’ কৃষকের মৃত্যু

প্রকাশিত:Wednesday ০৩ August ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ২৩জন দেখেছেন
Image

শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে বন্য হাতির আক্রমণে ছমেদ আলী নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেছে পরিবার। মঙ্গলবার (২ আগস্ট) রাতে উপজেলার সীমান্তবর্তী মায়াঘাসি পাহাড় থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ছমেদ আলী মায়াঘাসি এলাকার মৃত অসীম উদ্দিনের ছেলে।

নিহতের পরিবার জানায়, ছমেদ আলী বেলা ১১টার দিকে সীমান্তবর্তী মায়াঘাসি পাহাড়ে গবাদি পশুর জন্য ঘাস কাটতে যান। সন্ধ্যায় বাড়ি না ফিরলে তাকে খুঁজতে গিয়ে রাত সাড়ে ১০টার দিকে সীমান্তের পাহাড়ের চূড়া থেকে ছমেদ আলীর বিভৎস মরদেহ উদ্ধার করে স্থানীয়রা।

স্থানীয়দের দাবি, ওই পাহাড়ে ঘাস কাটার সময় খাদ্যের সন্ধানে আসা হাতির দল তার ওপর আক্রমণ করে তাকে পিষ্ট করে, এতে তার মৃত্যু হয়।

ময়মনসিংহ সদর রেঞ্জ বন বিভাগের গোপালপুর বিটের বিট কর্মকর্তা মো. মাজহারুল হক জানান, নিহতের পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে বিনা ময়নাতদন্তে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে ক্ষতিপূরণের জন্য আবেদন করলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর



ঠাকুরগাঁওয়ে হবে খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্পনগরী

প্রকাশিত:Tuesday ১৯ July ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ০৫ August ২০২২ | ৩৫জন দেখেছেন
Image

খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্পনগরীর জন্য ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার আকচা মৌজায় ৫০ একর জায়গা নির্ধারণ করা হয়েছে। সেখানে খাদ্য প্রক্রিয়ায় সংশ্লিষ্ট বেসরকারি শিল্প উদ্যোক্তার মাঝে ২৪৯টি প্লট বরাদ্দ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুঠির শিল্প করপোরেশন (বিসিক)।

বিসিক জানায়, খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্পনগরীর জমি অধিগ্রহণের জন্য মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক কনফারেন্স রুমে বৈঠক হয়।

সেখানে বিসিক খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্পনগরীর ঠাকুরগাঁওয়ের প্রকল্প পরিচালক হাফিজুর রহমানসহ কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মাহবুবুর রহমান।

তিনি বলেন, আকচা মৌজায় প্রকল্পের জায়গা নির্ধারণ করা হয়েছে। যোগাযোগ ব্যবস্থা ও অন্যান্য দিক বিবেচনায় শিল্পনগরীর জন্য জায়গাটি উপযুক্ত।

প্রকল্প পরিচালক জানান, কৃষি খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ শিল্প উন্নয়ন নীতিমালা-২০২১ এ শিল্পের বিকাশে অবকাঠামো উন্নয়নে বাস্তবায়নকারী সংস্থা হিসেবে বিসিকের কথা উল্লেখ রয়েছে। এর ভিত্তিতে আধুনিক কমপ্ল্যায়ান্স সমৃদ্ধ পরিবেশবান্ধব এই শিল্পনগরী বাস্তবায়নে কাজ করছে বিসিক।

জমি অধিগ্রহণ করে, রাস্তা, ড্রেন-কালভার্ট, পানি-বিদ্যুৎ লাইন স্থাপন, ডাম্পিং ইয়ার্ডসহ অন্যান্য কাজ করে একটি পরিবেশবান্ধব শিল্পনগরী স্থাপন করা হবে বলে জানান তিনি।


আরও খবর



দুই সন্তানের জন্য বাঁচতে চান ক্যানসার আক্রান্ত শুকুর আলী

প্রকাশিত:Tuesday ২৬ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০১ August ২০২২ | ৭২জন দেখেছেন
Image

পান খেতেন শুকুর আলী (৩৫)। পানের চুন থেকে জিহবার নিচে ঘায়ের মতো হয়। এজন্য টুকটাক ওষুধ খেয়েছেন। কিন্তু সেটা বাড়তেই থাকে। পরে স্থানীয় লায়ন্স হাসপাতালে দেখালে তারা দিনাজপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতলে যাওয়ার পরামর্শ দেন।

দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক মো. আলমগীর চিকিৎসা দেওয়ার পাশাপাশি বায়োপসি পরীক্ষা দেন। বায়োপসি পরীক্ষায় ক্যানসারের উপস্থিতি ধরা পড়ে। গ্রেড-৩ পর্যায়ে রয়েছে।

চিকিৎসকরা অস্ত্রোপচারের পরামর্শ দিয়েছেন। এজন্য খরচ হবে ৪-৫ লাখ টাকা। তবে এত টাকা জোগাড় করা মুড়ির মিলে কাজ করা এ শ্রমিকের পক্ষে অত্যন্ত কষ্টকর। এজন্য বিত্তবানদের সহযোগিতা কামনা করেছেন শুকুর আলী।

শুকুর আলীর বাড়ি দিনাজপুরের পার্বতীপুর পৌরসভা এলাকার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের রোস্তম নগর এলাকায়।

বাঁচার আকুতি জানিয়ে তিনি বলেন, ‘চিকিৎসক বলেছেন অপারেশন করলে ভালো হতে পারে। এজন্য ৪-৫ লাখ টাকা লাগবে। এত টাকা আমি কই পাবো? আমি একটা মুড়ির মিলে কাজ করি, সঞ্চয় নেই। তাই আমরা ঢাকায় এসেছি। আমি বাঁচতে চাই। আমার দুই সন্তান ছোট। আমি না বাঁচলে তাদের মানুষ করবে কে? তাদের কে দেখবে?’

শুকুর আলীর দুই সন্তান। বড় ছেলে নিশাত পঞ্চম ও ছোট ছেলে তানজিদ চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ে।

স্ত্রী মনোয়ারা বেগম তিথি জানান, স্বামীকে নিয়ে তিনি ঢাকায় এসেছেন। ঢাকা ডেন্টাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছেন। আসার সময় ৩০ হাজার টাকা নিয়ে এসেছিলেন। পরীক্ষা করতে করতেই সব টাকা প্রায় শেষ।

তিনি বলেন, ‘অপারেশন করাতে হলে ৪-৫ লাখ টাকা লাগবে। কিন্তু আমরা এত টাকা পাবো কোথায়? স্বামীর এ অসুস্থতায় দুই অবুঝ সন্তানকে নিয়ে খুব দুশ্চিন্তায় রয়েছি।’

পার্বতীপুর পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কমিশনার রোস্তম আলী বলেন, এলাকার মানুষজনের কাছে সহায়তা চেয়ে কিছু টাকা দিয়ে আপাতত ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। সেটা খুবই সামান্য। এখন শুকুরের চিকিৎসার জন্য অনেক টাকা দরকার। মানুষের সহায়তা ছাড়া এটা সম্ভব না।

শুকুর আলী বর্তমানে ঢাকা ডেন্টাল কলেজ হাসপাতালের ওরাল অ্যান্ড ম্যাক্সিলোফেসিয়াল বিভাগে ডা. নুসরাত নুইরীর তত্ত্বাবধানে ষষ্ঠ তলার ১৪ নম্বর বেডে ভর্তি আছেন।


আরও খবর



‘ভাইকে না নিয়ে আল্লাহ আমাকে কেন নিলো না’

প্রকাশিত:Friday ২৯ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ২৭জন দেখেছেন
Image

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে ট্রেনের ধাক্কায় মাইক্রোবাসের ১১ আরোহী নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে রয়েছেন এমইএস কলেজের শিক্ষার্থী জিয়াউল হক সজীব। বড় ছেলেকে হারিয়ে পাগলপ্রায় সজীবের বাবা। মরদেহ নিতে এসে হাসপাতালে বিলাপ করছেন সজীবের ছোটভাই মুজিবুল হক তৌসিফ।

আহাজারি করে তিনি বলেন, আমার ভাইকে না নিয়ে আল্লাহ আমাকে কেন নিলো না?

শুক্রবার (২৯ জুলাই) চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে নিহতদের পরিবারের সদস্যদের এভাবেই বিলাপ করতে দেখা যায়।

সজীবের বাবা আবদুল হামিদ জানান, ২০১৮ সালে এমইএস কলেজে গণিতে স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তি হন সজীব। এরপর করোনার কারণে পরিবারে অর্থাভাব শুরু হয়। এ কারণে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারেননি তিনি। দুই ভাই ও তিন বোনের মধ্যে সজীব বড় বলেও জানান তার বাবা।

এর আগে শুক্রবার দুপুর দেড়টার দিকে মিরসরাইয়ের খৈয়াছড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। হতাহতদের সবার বাড়ি চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার আমান বাজারে। তারা সবাই মাইক্রোবাসের যাত্রী ছিলেন।

মিরসরাইয়ের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মিনহাজুর রহমান জানান, হাটহাজারী থেকে আসা ওই মাইক্রোবাসে মোট ১৪-১৫ জন ছিলেন। তাদের মধ্যে ১১ জন ঘটনাস্থলেই মারা যান। কেবল একজন অক্ষত আছেন। বাকিদের চট্টগ্রাম মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে।


আরও খবর



শেষ বিকেলের বৃষ্টিতে ভোগান্তিতে অফিসফেরত মানুষ

প্রকাশিত:Thursday ২৮ July ২০২২ | হালনাগাদ:Saturday ০৬ August ২০২২ | ২৬জন দেখেছেন
Image

রাজধানীতে সকালে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হয়েছে। বেলা বাড়তে মেঘ অনেকটাই কেটে উঁকি দেয় সূর্য। শ্রাবণের দুপুরে দেখা যায় কড়া রোদ। বেলা গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে স্বস্তি ভাবটা কেটে গিয়ে ভ্যাপসা গরমে নাভিশ্বাস ওঠে নগরবাসীর।

তবে বিকেলের দিকে আবারো ঢাকার আকাশে মেঘের ঘনঘটা দেখা যায়। শেষ বিকেলের রোদ মুছে যায় মেঘের আধিপত্যে। বিকেল ৫টার দিকে অফিসফেরত মানুষ যখন ঘরমুখী, ঠিক তখনই শুরু হয় বৃষ্টি। তুমুল বৃষ্টি চলে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত।

টানা প্রায় দেড় ঘণ্টার বৃষ্টি গরমে স্বস্তি আনলেও বিপাকে পড়েন অফিসফেরত মানুষরা। অনেকেই বৃষ্টিতে ভেজা থেকে বাঁচতে সড়কের পাশের মার্কেট, দোকানসহ বিভিন্ন স্থাপনার নিচে আশ্রয় নেন। কেউ কেউ কাকভেজা হয়েই ঘরে ফিরেছেন।

বৃষ্টিতে কোনো কোনো সড়কে সৃষ্টি হয়েছে যানজটের। আবার কোথাও কোথাও দেখা দিয়েছে যানবাহন সংকট। গুলিস্তানসহ বিভিন্ন স্থানে বিপুলসংখ্যক মানুষকে রাস্তায় গাড়ির জন্য অপেক্ষা করতে দেখা গেছে।

শ্রাবণ মাস চললেও দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ুর (বর্ষা) নিষ্ক্রিয়তায় এখন বৃষ্টি অনেকটাই কম। আবহাওয়া অধিদপ্তর শুক্রবার ৯টা পর্যন্ত আবহাওয়ার পূর্বাভাসে জানিয়েছে, রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও বিচ্ছিন্নভাবে মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

বৃহস্পতিবার রাত ১টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, রংপুর, পাবনা, বগুড়া, দিনাজপুর, রাজশাহী, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, ফরিদপুর, যশোর, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে দক্ষিণ বা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ অস্থায়ীভাবে বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নৌবন্দরগুলোকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।


আরও খবর