Logo
আজঃ Monday ০৮ August ২০২২
শিরোনাম
রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড নিখোঁজ সংবাদ প্রধানমন্ত্রীর এপিএসের আত্মীয় পরিচয়ে বদলীর নামে ঘুষ বানিজ্য

সোনার বাংলা বি‌নির্মা‌ণে অগ্রণী ভূ‌মিকা পালন কর‌তে হবে: ভোক্তার

প্রকাশিত:Saturday ০৬ August ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ২২জন দেখেছেন
Image

শোক‌কে শক্তি‌তে প‌রিণত ক‌রে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ ধারণ ক‌রে সোনার বাংলা বি‌নির্মা‌ণে জনস্বার্থ তথা ভোক্তাস্বার্থ সংরক্ষ‌ণে অগ্রণী ভূ‌মিকা পালন কর‌তে হবে ব‌লে মন্তব্য ক‌রেছেন জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ এইচ এম সফিকুজ্জামান।

শুক্রবার (৫ আগস্ট) জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের নবনির্বাচিত কমিটির পক্ষ থেকে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে তিনি এ কথা বলেন।

বাঙালির শোকের মাস আগস্ট ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন ও পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আফরোজা রহমান ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালামের নেতৃত্বে ধানমণ্ডি ৩২ নম্বরে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন ও পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এ সময় অধিদপ্তরের ডিজি এএইচএম সফিকুজ্জামান ও পরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে গত ২১ জুলাই ২০২২-২৫ মেয়াদের জন্য জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

কমিটিতে সভাপতি নির্বাচিত হন প্রধান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক আফরোজা রহমান, সহসভাপতি দিনাজপুর জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মমতাজ বেগম ও ফরিদপুর জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. সোহেল শেখ। সাধারণ সম্পাদক হন নরসিংদী জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. আব্দুস সালাম।

এছাড়াও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হন প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. শরীফুল ইসলাম, মানিকগঞ্জ জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আসাদুজ্জামান রুমেল ও চুয়াডাঙ্গা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোহা. সজল আহম্মেদ, কোষাধ্যক্ষ মাগুরা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ মামুনুল হাসান।

সাংগঠনিক সম্পাদক কক্সবাজার জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. ইমরান হোসাইন এবং দপ্তর সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হন শরীয়তপুর জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক সুজন কাজী।


আরও খবর



ম্যানেজার পদে চাকরি দিচ্ছে ব্র্যাক ব্যাংক

প্রকাশিত:Sunday ২৪ July ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০২ August 2০২2 | ১৭জন দেখেছেন
Image

ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেডে ‘অ্যাসোসিয়েট রিলেশনশিপ ম্যানেজার/রিলেশনশিপ ম্যানেজার/সিনিয়র রিলেশনশিপ ম্যানেজার’ পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।

প্রতিষ্ঠানের নাম: ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড
বিভাগের নাম: প্রিমিয়াম ব্যাংকিং

পদের নাম: অ্যাসোসিয়েট রিলেশনশিপ ম্যানেজার/রিলেশনশিপ ম্যানেজার/সিনিয়র রিলেশনশিপ ম্যানেজার
পদসংখ্যা: নির্ধারিত নয়
শিক্ষাগত যোগ্যতা: স্নাতক
অভিজ্ঞতা: ০২-০৭ বছর
বেতন: আলোচনা সাপেক্ষে

চাকরির ধরন: ফুল টাইম
প্রার্থীর ধরন: নারী-পুরুষ
বয়স: নির্ধারিত নয়
কর্মস্থল: যে কোনো স্থান

আবেদনের নিয়ম: আগ্রহীরা bracbank.taleo.net এর মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের শেষ সময়: ৩১ জুলাই ২০২২

সূত্র: বিডিজবস ডটকম


আরও খবর



তিন বিভাগে বেড়েছে বৃষ্টি, অব্যাহত থাকতে পারে ৩ দিন

প্রকাশিত:Monday ০১ August ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ২১জন দেখেছেন
Image

দেশের তিন বিভাগে বৃষ্টি বেড়েছে। এসব বিভাগের কোথাও কোথাও অতিভারি (৮৯ মিলিমিটারের চেয়ে বেশি) বৃষ্টিও হচ্ছে। বৃষ্টির এ প্রবণতা আগামী তিনদিন অব্যাহত থাকতে পারে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর। একই সঙ্গে দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে বলেও পূর্বাভাস দিয়েছে সংস্থাটি।

রোববার (৩১ জুলাই) সকাল ৬টা থেকে সোমবার (১ আগস্ট) সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি ৯৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়। এছাড়া রংপুরে ৮২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। ময়মনসিংহে ১৮ ও নেত্রকোণায় ৬৯ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। সিলেটে ৪৬ ও ঢাকায় ১০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর।

ঢাকা বিভাগেও কিছুটা বৃষ্টি ছিল। চট্টগ্রাম ও খুলনা বিভাগে সামান্য বৃষ্টি হয়েছে। তবে বৃষ্টিহীন ছিল বরিশাল।

আবহাওয়াবিদ মো. বজলুর রশীদ জানান, সোমবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টায় রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় (৭৬ থেকে শতভাগ অঞ্চল), ঢাকা বিভাগের অনেক জায়গায় (৫১ থেকে ৭৫ শতাংশ অঞ্চল) এবং খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় (২৬ থেকে ৫০ শতাংশ অঞ্চল) অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। একই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলে জানান তিনি।

আগামী তিনদিনের বৃষ্টিপাতের প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে বলেও জানান আবহাওয়াবিদ বজলুর রশীদ।

রোববার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল মোংলায় ৩৬ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সোমবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, রংপুর, রাজশাহী, পাবনা, বগুড়া, টাংগাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, কুমিল্লা, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম এবং সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে দক্ষিণ বা দক্ষিণ-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে এক নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

কানাডার সাসকাচুয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের আবহাওয়া ও জলবায়ু বিষয়ক গবেষক মোস্তফা কামাল পলাশ বলেন, মঙ্গলবার পর্যন্ত দেশব্যাপী মাঝারি থেকে ভারি বৃষ্টিপাতের প্রবল সম্ভাবনার কথা নির্দেশ করতেছে আবহাওয়া পূর্বাভাস মডেলগুলো। আগামী তিনদিনে সবচেয়ে বেশি বজ্রপাত ও বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ, সিলেট ও ঢাকা বিভাগের জেলাগুলোতে।

তিনি বলেন, আগামী তিনদিন পশ্চিমবঙ্গের দার্জিলিং, শিলিগুড়ি, জলপাইগুড়ি ও কুচবিহার জেলায় ভারি বৃষ্টির সম্ভাবনা নির্দেশ করছে আবহাওয়া পূর্বাভাস মডেলগুলো, যে বৃষ্টিপাতের পুরোটাই প্রায় তিস্তা নদীর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করবে। ফলে আগামী মঙ্গল ও বুধবার তিস্তা নদীর পানি বিপৎসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী বুধবারের পরে বৃষ্টির পরিমাণ কমার সম্ভাবনা নির্দেশ করছে আবহাওয়া পূর্বাভাস মডেলগুলো। আগামী সাতদিনে দেশের কোনো স্থানেই বড় মাপের কোনো বন্যার সম্ভাবনা আপাতত দেখা যাচ্ছে না।


আরও খবর



প্রযুক্তির ছোঁয়ায় ২৯ দিনেই জনশুমারির ফল

প্রকাশিত:Friday ২৯ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ৫৮জন দেখেছেন
Image

স্বাধীন বাংলাদেশে প্রথমবার জনসংখ্যা গণনা হয় ১৯৭৪ সালে। ১৯৮১ সালে হয় দ্বিতীয়বার জনসংখ্যা গণনা। এরপর ১০ বছর পরপর ১৯৯১, ২০০১ ও ২০১১ সালে জনসংখ্যা গোনা হয়। এসব শুমারির ফল পেতে লেগেছে ছয় থেকে সাত মাস। সবচেয়ে কম, চার মাস সময় লেগেছিল ২০১১ সালে। তবে এবার সব চিত্র বদলে গেছে। প্রযুক্তির কল্যাণে মাত্র ২৯ দিনেই মিলেছে জনসংখ্যার হিসাব। একে ডিজিটাল বাংলাদেশের অন্যতম সুফল হিসেবে দেখছেন সংশ্লিষ্টরা।

তারা বলছেন, আগে প্রতিটি ঘরে ঘরে গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করার পর হাতে কলমে সেগুলো হিসাব করা হতো। ফলে দীর্ঘসময় ধরে শুমারির ফলের জন্য অপেক্ষা করতে হতো। অন্যদিকে এবার জনসংখ্যা গণনার সঙ্গে সঙ্গেই তার ফল কেন্দ্রীয় সার্ভারে চলে এসেছে। এরপর তা বিশুদ্ধ করে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করা হয়েছে।

দেশে এবার শুমারির কাজ শুরু হয় ১৫ জুন। ২১ জুন মধ্যরাতে তথ্য সংগ্রহের কাজ শেষ হওয়ার কথা ছিল। তবে হঠাৎ বন্যায় বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে সিলেট, সুনামগঞ্জসহ কয়েকটি জেলা। এ কারণে বন্যাকবলিত সিলেট, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার ও নেত্রকোনায় তথ্য সংগ্রহের কাজ চলে ২৮ জুন পর্যন্ত। এরপর শুমারির প্রাথমিক প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয় গত বুধবার (২৭ জুলাই)।

বিবিএস জানায়, ১৯৭৪ থেকে ২০০১ পর্যন্ত মোট চারটি শুমারি অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেসময় জনশুমারির নাম ছিল আদমশুমারি। পরিসংখ্যান আইন-২০১৩ অনুযায়ী ‘আদমশুমারি’ নাম বদলে ‘জনশুমারি’ করা হয়।

tab3

ডিজিটাল জনশুমারি হয় দেশজুড়ে

শুমারির বিশুদ্ধতা নিশ্চিত করতে এলাকাভিত্তিক জিওগ্রাফিক ইনফরমেশন সিস্টেম ও জিও কোড সমন্বয় করে ডিজিটাল ম্যাপ প্রস্তুত ও শুমারিতে ব্যবহার করা হয়েছে। ডিজিটাল ম্যাপ ব্যবহার করে প্রায় ৩ লাখ ৭০ হাজার কর্মী নির্ধারিত এলাকার তথ্য সংগ্রহ করেছেন। ডিজিটাল এ শুমারি বাস্তবায়নে ব্যবহার হয়েছে ৩ লাখ ৯৫ হাজার ট্যাব।

মাঠ পর্যায়ে তথ্য সংগ্রহে ব্যবহৃত ট্যাবসমূহ মোবাইল ডিভাইস ম্যানেজমেন্ট ফটওয়্যার ব্যবহার করে কেন্দ্রীয়ভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে। এছাড়া সংগৃহীত তথ্য সংরক্ষণ এবং নিরাপত্তা নিশ্চিতে কালিয়াকৈরে স্থাপিত বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্কের টায়ার-আইভি (iV) সিকিউরিটি সমৃদ্ধ ডেটা-সেন্টার ব্যবহার করা হয়েছে।

প্রকল্প পরিচালক দিলদার হোসেন বলেন, আগে শুমারির তথ্য পেতে দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হতো। এবার সবার সহযোগিতায় আমরা মাত্র ২৯ দিনেই ফল প্রকাশ করেতে পেরেছি। বর্তমান সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণ করেছে। তারই ছোঁয়া লেগেছে জনশুমারিতে। যে কারণে এত দ্রুত ফল প্রকাশ করতে পেরেছি। প্রথম ডিজিটাল জনশুমারিতে ডিজিটাল ডিভাইস ‘ট্যাব’ ব্যবহার করে কম্পিউটার অ্যাসিসটেড পারসোনাল ইন্টারভিউইং (ক্যাপি) পদ্ধতিতে তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে।

বিবিএস জানায়, মাঠ সার্ভারে আসার আগ পর্যন্ত সংগৃহীত সব তথ্য-উপাত্ত গোপন ছিল। এর মাধ্যমে ব্যক্তিগত তথ্যের নিরাপত্তা শতভাগ নিশ্চিত করা গেছে। এছাড়া একটি ওয়েবভিত্তিক ইন্টিগ্রেটেড সেনসাস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম প্রস্তুত করা হয়েছে। এর মাধ্যমে শুমারির যাবতীয় কার্যক্রম ব্যবস্থাপনা করা হয়েছে। তাছাড়া এর মাধ্যমে মাঠ পর্যায়ের তথ্য সংগ্রহ কার্যক্রম সব সময় মনিটর করা হয়েছে। মাঠের তথ্য সংগ্রহ কার্যক্রম রিয়েল টাইম মনিটরিংয়ের পাশাপাশি তথ্যের গতিবিধি সরাসরি পর্যবেক্ষণের লক্ষ্যে নেটওয়ার্ক অপারেশন সেন্টার স্থাপন করা হয়েছিল।

tab3

প্রকল্পে ৩ লাখ ৯৫ হাজার ট্যাব দেয় ওয়ালটন

এসব নিয়ে পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব ড. শাহনাজ আরেফিন জাগো নিউজকে বলেন, শুমারির নামই ডিজিটাল শুমারি। ক্যাপি সিস্টেমের মাধ্যমে তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। আমাদের বিবিএস নকরুমে সরাসরি তথ্য চলে এসেছে। আগে এটা হাতে করা হতো। প্রতিদিনের তথ্য প্রতিদিন পেয়েছি। এই প্রক্রিয়ায় শুমারি করার কারণে দ্রুত রেজাল্ট পেয়েছি।

পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় জানায়, ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে পরবর্তী সময়ে ১০ বছরের আগেই দেশের জনসংখ্যার তথ্য দেওয়ার কথা চিন্তা করা হচ্ছে। কারণ এবারই প্রথম ডিজিটাল পদ্ধতিতে জনশুমারি কার্যক্রম পরিচালিত হয়। একটি ওয়েবভিত্তিক ইনটিগ্রেটেড সেনসাস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (আইসিএমএস) প্রস্তুতসহ জিওগ্রাফিক্যাল ইনফরমেশন সিস্টেমে (জিআইএস) গণনা এলাকার বিভিন্ন পর্যায়ের কন্ট্রোল ম্যাপ প্রস্তুত করা হয়।

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান জাগো নিউজকে বলেন, প্রযুক্তির কল্যাণে দ্রুত জনশুমারির ফলাফল দিতে পেরেছি। আগে বাড়ি বাড়ি কাগজে কলমে তথ্য সংগ্রহ করা হতো। এতে অনেক বানান ভুল থাকতো। এবার লেখার কিছু ছিল না। জনশুমারি বিশুদ্ধ ছিল। আগে তথ্য আসতে সময় লাগতো, অনেক সময় বৃষ্টির পানিতে তথ্য মুছে যেত।

‘বিবিএস সচিব প্রকল্প পরিচালককে সঙ্গে নিয়ে চমৎকার একটা টিম তৈরি করেছেন। ডিজিটাল শুমারির ফলাফল কিন্তু অনেক আগেই জানতাম। কারণ একজন গণনাকারী কাউকে গণনা করার সঙ্গে সঙ্গে রেজাল্ট আমাদের হাতে এসেছে। কিছু সময় নিয়েছি এটাকে আরও বিশুদ্ধ করতে। সচিব ও আমরা সব সময় মনিটর করেছি প্রতিটি বিষয়। কয়টা জেলায়, কারা কাজ করছে সব দেখেছি, সব সময়। সবাই দক্ষ ছিল প্রযুক্তির ব্যবহারও দারুণ ছিল। মাঠের সহায়তা ভালো পেয়েছি। সবাই মনোযোগ সহকারে কাজটি করেছে।’

তিনি আরও বলেন, ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম গড়েছি। এটাকে ব্যবহার করে সামনে যাতে দ্রুত শুমারির রেজাল্ট দিতে পারি সে বিষয়ে কাজ করা হবে। যাতে করে এত টাকা ব্যয় না করে প্রতি সপ্তাহে দেশের মানুষের তথ্য পেতে পারি। আমরা দেশীয় ট্যাবে শুমারি করেছি। এটা আমাদের বড় অর্জন। সামনে জনশুমারির তথ্য আরও দ্রুত পাবো। প্রতি মুহূর্তের খবর জানতে খোঁচা মারলে যন্ত্র বলে দেবে দেশের মানুষ কত? মানুষের সঠিক তথ্য না পেলে কোনো পরিকল্পনাই বিশুদ্ধভাবে করা সম্ভব নয়।


আরও খবর



‘বিশ্বের বহু দেশ আকাশচুম্বী মূল্যস্ফীতি মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছে’

প্রকাশিত:Monday ০১ August ২০২২ | হালনাগাদ:Saturday ০৬ August ২০২২ | ২১জন দেখেছেন
Image

যারা বাংলাদেশকে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ হিসেবে দেখতে চায়, উন্নয়নবিরোধী ও সাম্প্রদায়িক শক্তির প্রতিভূ তাদের উদ্দেশ্যমূলক অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হয়ে জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার (১ আগস্ট) ওবায়দুল কাদের সচিবালয়ে তার দপ্তরে প্রেস ব্রিফিংকালে জনগণের প্রতি এ আহ্বান জানান।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ, অর্থনৈতিক অবরোধ, আন্তর্জাতিক বাজারে তেল, গ্যাস, সারের মূল্যবৃদ্ধির নেতিবাচক প্রভাব মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকার নানামুখী সতর্কতামূলক পদক্ষেপ নিয়েছে উল্লেখ করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, বিশ্বের অনেক দেশ অসহনীয় ও আকাশচুম্বী মূল্যস্ফীতি মোকাবিলা করতে হিমশিম খাচ্ছে। উন্নত বিশ্বের মূল্যস্ফীতির হারের দিকে তাকালে বিশ্ব অর্থনৈতিক সংকটের তীব্রতা টের পাওয়া যায়।

ওবায়দুল কাদের জানান, যেখানে জুনে যুক্তরাষ্ট্রে ৯.১ শতাংশ, যুক্তরাজ্যে ৯.৪ শতাংশ, জার্মানি ৮.৯ শতাংশ, রাশিয়া ১৫.৯ শতাংশ, তুরস্ক ৭৮.৬ শতাংশ, নেদারল্যান্ডে ৯.৪ শতাংশ, শ্রীলঙ্কায় ৩৯.৯ শতাংশ এবং পাকিস্তানে মুল্যস্ফীতি ২১.৩ শতাংশ সেখানে বাংলাদেশে জুনে মুদ্রাস্ফীতি ছিলো ৭.৫৬ শতাংশ।

দেশের ভেতরে অনেকে শুধু মূল্যস্ফীতির কথা বলে মানুষকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা করছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, শেখ হাসিনা সরকারের সতর্কতামূলক উদ্যোগ গ্রহণের ফলে বাংলাদেশের অবস্থাই তুলনামূলক সহনীয় রয়েছে।

দেশে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সংকট চলছে বলে একটি মহল উদ্দেশ্যমূলক অপপ্রচার করছে, বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। প্রকৃতপক্ষে বৈশ্বিক করোনা মহামারি বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারের এ সময়ে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে পৃথিবীর জ্বালানি সাপ্লাই চেইন অস্থিতিশীল হয়ে পড়ে বলে মনে করেন ওবায়দুল কাদের।

পৃথিবীর প্রায় নব্বই শতাংশের বেশি দেশ প্রাথমিক জ্বালানির জন্য আমদানির ওপর নির্ভরশীল এমনটা জানিয়ে সড়ক পরিবহনমন্ত্রী বলেন, আমদানিকারক দেশ হিসেবে এ পরিস্থিতির নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশেও। এর ফলে আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানির মূল্যের অস্বাভাবিক ঊর্ধ্বগতি দেখা দেয়।

মন্ত্রী বলেন, এই মুহূর্তে পশ্চিমা দেশগুলোসহ পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই চলছে জ্বালানি সংকট। পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্য তারা ব্যাপকভাবে কমিয়েছে বিদ্যুৎ ও জ্বালানির ব্যবহার।

বিশ্বব্যাপী জ্বালানি সংকটের কারণে বিদ্যুৎ উৎপাদনে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, অনেক উন্নত দেশেও বিদ্যুৎ উৎপাদন হ্রাস পেয়েছে, এর অনিবার্য প্রভাব পড়েছে অর্থনীতি, উৎপাদন ব্যবস্থায়।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক উল্লেখ করেন, সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের ইভিনিং স্ট্যান্ডার্ড পত্রিকা শিরোনাম করেছে, ‘‘London narrowly avoided blackout as electricity prices surged last week’’ শিরোনামে বলা হয়েছে, ‘‘The UK was forced to pay 5,000% higher than the typical price for electricity to prevent a power blackout in south-east London.’’

ওবায়দুল কাদের এ বিষয়ে বলেন, নিউইয়র্ক শহরের মেয়র এরিক এডার্মস জানিয়েছেন ‘‘we are in a financial crisis like you can never imagine... Wall Street is Collapssing; we are in recession.’’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের শোকাবহ আগস্টে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৫ আগস্টের শহীদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।


আরও খবর



দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে শাবিপ্রবি ছাত্র নিহত

প্রকাশিত:Monday ২৫ July ২০২২ | হালনাগাদ:Saturday ০৬ August ২০২২ | ১৯জন দেখেছেন
Image

দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে বুলবুল আহমেদ নামের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্র নিহত হয়েছেন।

সোমবার (২৫ জুলাই) সন্ধ্যা ৭টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের গাজীকালুর টিলায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত বুলবুলের বাড়ি নরসিংদী জেলায়। তিনি শাবিপ্রবির লোকপ্রশাসন বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী ফজলুল করিম বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের গাজীকালুর টিলায় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ছুরিকাঘাতে আহত হন বুলবুল। তাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।’

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর আবু হেনা পহিল জাগো নিউজকে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের টিলায় এক ছাত্রকে ছুরি দিয়ে আঘাত করা হয়। প্রথমে তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেলে অজ্ঞান অবস্থায় নেওয়া হয়। পরে সিলেটের এমএজি ওসমানী মেডিকেলে নেওয়া হলে সেখানে সে মারা যায়। কে বা কারা মেরেছে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।


আরও খবর