Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা
পিচ ঢালাইয়ের কাজ শেষ

সব ধরনের যান চলাচলের জন্য প্রস্তুত পদ্মা সেতু

প্রকাশিত:Monday ২৩ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১১৩জন দেখেছেন
Image

সোহরাওয়ার্দীঃ

সকল জল্পনা কল্পনা শেষে সব ধরনের যান চলাচলের জন্য প্রস্তুত হয়ে উঠেছে পদ্মা সেতু।পদ্মা সেতুর মূল অংশের পিচ ঢালাই শেষে বাকি ছিল দুই পাড়ের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই। কর্মযজ্ঞের ধারাবাহিকতায় শেষ হয়েছে দুই পাড়ের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই।


সোমবার (২৩ মে) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে সর্বশেষ জাজিরা অংশের সংযোগ সড়কের (সাউথ ভায়াডাক্ট) পিচ ঢালাইয়ের কাজ শেষ করেন সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলী ও নির্মাণশ্রমিকরা।


পুরো সেতুর পিচ ঢালাই শেষ হওয়ায় এখন যানচলাচলের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত স্বপ্নের পদ্মা সেতুর সড়কপথ।পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী (মূল সেতু) দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, যান চলাচল উপযোগী করে তুলতে সেতুতে পিচ ঢালাইয়ের কাজ শুরু হয়েছিল গত বছরের ১০ নভেম্বর। পাঁচ মাস ১৯ দিনের মাথায় গত ২৯ এপ্রিল মূল সেতুর ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার অংশে সে কাজ শেষ হয়। এরপরই সমানতালে শুরু হয় দুই পাড়ের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই।



বৃহস্পতিবার (১৯ মে) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাইয়ের কাজ শেষ হয়। সর্বশেষ জাজিরা প্রান্তের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই শেষ হলো আজ।


এদিকে সেতুর অবশিষ্ট কাজের মধ্যে রোড মার্কিং ও সেতুকে আলোকিত করতে বসানো ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টে বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ চলছে পুরোদমে। শুরু হয়েছে রেলিং বসানোর কাজ।



সূত্র জানায়, চলতি মাসের মধ্যেই শেষ হবে রোড মার্কিংয়ের কাজ। বিদ্যুৎ সংযোগের কাজও চলছে। পরিকল্পনা মতো কাজ এগুলোই নির্ধারিত সময় ১ জুনে জ্বলে উঠবে বাতিগুলো।



আরও খবর



নদীর পানি বেড়ে কিশোরগঞ্জের ৪০ গ্রাম প্লাবিত

প্রকাশিত:Saturday ১৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ২৪ June ২০২২ | ২৫জন দেখেছেন
Image

কিশোরগঞ্জের সব নদ-নদীতে বন্যার পানি বাড়ছে। এরই মধ্যে হাওর অধ্যুষিত ছয় উপজেলার ২৫ ইউনিয়নের ৪০ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে পানিবন্দি হয়েছে হাজারো পরিবার। বাড়িঘরে ঢুকে পড়েছে পানি। ডুবে গেছে শিক্ষা ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান। বিভিন্ন সড়ক তলিয়ে বন্ধ যানবাহন চলাচল।

কিশোরগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মতিউর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, হাওরের বিভিন্ন নদ-নদীর পানি গত ২৪ ঘণ্টায় তিন ফুট বেড়েছে। পানি বাড়া অব্যাহত থাকলে রোববার থেকে অবস্থার আরও অবনতি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

নদীর পানি বেড়ে কিশোরগঞ্জের ৪০ গ্রাম প্লাবিত

জেলা প্রশাসনের সূত্র জানায়, ইটনা উপজেলার পাঁচটি, মিঠামইনের সাতটি, অষ্টগ্রামের একটি, নিকলীর তিনটি, করিমগঞ্জের পাঁচটি এবং তাড়াইল উপজেলার চারটি ইউনিয়নের ৪০ গ্রাম ও হাটবাজার তলিয়ে গেছে।

কিশোরগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম বলেন, এ পর্যন্ত হাওরের অন্তত ২৫টি ইউনিয়নের ৪০ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে হাজারো মানুষ। দ্রুত বাড়ছে পানি। এ অবস্থায় বিভিন্ন এলাকা থেকে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়কেন্দ্রে নেওয়া হচ্ছে।

নদীর পানি বেড়ে কিশোরগঞ্জের ৪০ গ্রাম প্লাবিত

তিনি আরও বলেন, বন্যা মোকাবিলায় সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। হাওর উপজেলাগুলো পরিদর্শন করে ইউএনওসহ জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে জরুরি সভা করে কর্মপরিকল্পনা নির্ধারণ করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য ১৪০ টন চাল, ২ হাজার শুকনো খাবারের প্যাকেট ও আড়াই লাখ টাকার জিআর চাল মজুত রয়েছে।


আরও খবর



শৃঙ্খলা ফেরাতে সাংবাদিকদের ডাটাবেজ হচ্ছে: তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:Monday ২৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১৭জন দেখেছেন
Image

সাংবাদিকতায় শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে সাংবাদিকদের ডাটাবেজ তৈরির উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

মন্ত্রী বলেন, আমরা এরই মধ্যে উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। প্রেস কাউন্সিল, প্রেস ইনিস্টিউটের মাধ্যমে এবং সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আলোচনা করে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এটি হলে কারা সাংবাদিক তা সবাই জানবে। জিজ্ঞাসা করা যাবে, আপনি যে সাংবাদিক, আপনার রেজিস্ট্রেশন নাম্বার কত?

সোমবার (২৭ জুন) জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘সাংবাদিক জহুর হোসেন চৌধুরী জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন ও দরবার-ই-জহর কলাম গ্রন্থের প্রকাশনা উৎসব’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, এখন কত হাজার সাংবাদিক তা সাংবাদিকরাও বলতে পারেন না, আমি তো নই-ই। এই পরিস্থিতির উত্তরণ প্রয়োজন। অপসাংবাদিকতা সমাজের ওপর একট বিরূপ প্রভাব সৃষ্টি করছে।

সাংবাদিকতা শুধু একটা পেশাই নয়, অনেকের কাছে এটা একটা ব্রত উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, একটি দেশ গঠনে, রাষ্ট্র গঠনে, জাতি গঠনে সাংবাদিকদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। জহুর হোসেনের মতো সাংবাদিকরা যেভাবে জাতি ও সমাজের কল্যাণে কাজ করেছেন, আপনারাও সেভাবে কাজ করে যাবেন।

মন্ত্রী আরও বলেন, দেশ গঠনে পাশ্চাত্যের অন্ধ অনুকরণ নয়। আমরা একটা উন্নত রাষ্ট্র যেমন গঠন করতে চাই, পাশাপাশি একটা মানবিক কল্যাণ রাষ্ট্রও গঠন করতে চাই। সেজন্য মানুষের মানবিকতার বিকাশ প্রয়োজন। যেটা এখন কমে যাচ্ছে।

জাতীয় অধ্যাপক ডা. এ কে আজাদ খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসিন, সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খান, এরশাদ মজুমদার প্রমুখ।


আরও খবর



ডেসটিনির হারুনসহ ৪৫ জনের সাজা বাড়াতে দুদকের আপিল শুনানি আজ

প্রকাশিত:Monday ১৩ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৪৩জন দেখেছেন
Image

অর্থ আত্মসাৎ ও পাচারের মামলায় চার বছরের সাজাপ্রাপ্ত ডেসটিনি গ্রুপের চেয়ারম্যান সাবেক সেনাপ্রধান হারুন-অর-রশিদসহ ৪৫ জনকে বিচারিক আদালতের দেওয়া সাজা বাড়াতে আপিল করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এই আবেদনের বিষয়ে হাইকোর্টে শুনানি আজ সোমবার।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এ বিষয়ে সোমবার (১২ জুন) হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় শুনানি হবে।

দুদকের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান আপিল করার বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করে বলেন, কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক রফিকুল আমীনকে দেওয়া হয়েছে ১২ বছরের দণ্ড। বাকিদের বিভিন্ন মেয়াদে কম দণ্ড দেওয়া হয়েছে। অথচ এটা হলো অর্গানাইজড ক্রাইম। এখানে কম বেশি দেওয়ার সুযোগ নেই। তাই রফিকুল আমীন ছাড়া বাকিদের দণ্ড বাড়াতে আপিল আবেদন করা হয়েছে হাইকোর্টে।

এ বিষয়ে হাইকোর্টের বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চে শুনানির জন্যে উপস্থাপন করা হবে।

এর আগে, বৃহস্পতিবার (৯ জুন) হারুন-অর-রশীদের আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করে আদেশ দেন হাইকোর্ট। তবে তার জামিন চেয়ে করা আবেদন খারিজ করেছেন উচ্চ আদালত।

গত ১২ মে বিচারিক আদালতে এ মামলার রায় হয়। তাতে ব্যবস্থাপনা পরিচালক রফিকুল আমীনসহ ৪৬ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও তাদের মোট ২ হাজার ৩০০ কোটি টাকা জরিমানা করা হয়। এর মধ্যে হারুন-অর-রশীদকে দেওয়া হয় চার বছরের কারাদণ্ড ও সাড়ে ৩ কোটি টাকা জরিমানা করা হয়। অনাদায়ে ছয় মাস কারাদণ্ড। এ রায়ের বিরুদ্ধে ও জামিন চেয়ে হাইকোর্টে আপিল করেছেন তিনি (হারুন-অর-রশীদ)। বাকিদের আপিলের খবর পাওয়া যায়নি।

২০১২ সালের ৩১ জুলাই দুদকের উপ-পরিচালক মো. মোজাহার আলী সরদার ও সহকারী পরিচালক মো. তৌফিকুল ইসলাম রাজধানীর কলাবাগান থানায় ডেসিটিনির কর্তব্যরত অন্যদের বিরুদ্ধে ডেসটিনি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি এবং ডেসটিনি ট্রি প্লান্টেশন প্রজেক্টের অর্থ আত্মসাতের দুটি মামলা করেন।

তদন্ত শেষে ২০১৪ সালের ৫ মে দুদক আদালতে উভয় মামলার অভিযোগপত্র দেওয়া হয়। এর মধ্যে ডেসটিনি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটির মামলায় ৪৬ জন এবং ডেসটিনি ট্রি প্ল্যানটেশন লিমিটেডে দুর্নীতির মামলার ১৯ জনকে আসামি করা হয়। হারুন-অর-রশিদ ও রফিকুল আমিন দুই মামলাতেই আসামি।

বিচারিক আদালতের দেওয়া রায়ে রফিকুল আমিনকে ১২ বছর কারাদণ্ড এবং ২০০ কোটি টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ৩ বছরের সাজা দেওয়া হয়েছে। বাকিদের বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেওয়া হয়। ৪৬ আসামির মধ্যে ৩৯ জন আসামি পলাতক। পলাতকদের বিষয়ে গত ৯ জুন গ্রেফতারি পরোয়ানা ও রেড অ্যালার্ট জারির নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।


আরও খবর



চবিতে বর্ষা ও ঈদের ছুটি শুরু ৩ জুলাই

প্রকাশিত:Thursday ২৩ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৩৭জন দেখেছেন
Image

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) বর্ষাকালীন ও ঈদুল আজহার ছুটি শুরু হচ্ছে আগামী ৩ জুলাই থেকে। চলবে ১৪ জুলাই পর্যন্ত। এসময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ থাকবে।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক শাখার ডেপুটি রেজিস্ট্রার এস এম আকবর হোছাইন স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

এতে বলা হয়, বর্ষাকালীন ছুটিসহ পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে আগামী ৩ জুলাই (রোববার) থেকে ১৪ জুলাই (বৃহস্পতিবার) পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ক্লাস বন্ধ থাকবে।

এদিকে, রোববার (৩ জুলাই) ছুটি শুরুর আগের দুইদিন অর্থাৎ শুক্র ও শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সাপ্তাহিক ছুটি। অর্থাৎ ছুটির আগে সর্বশেষ ক্লাস চলবে ৩০ জুন পর্যন্ত। একই কারণে বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় ছুটি থাকলেও ক্লাস শুরু হবে পরবর্তী রোববার (১৭ জুলাই) থেকে।


আরও খবর



সর্বদা পাটের বাজার দর পর্যবেক্ষণ করা হবে

প্রকাশিত:Tuesday ১৪ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৩৫জন দেখেছেন
Image

দেশে প্রয়োজনীয় কাঁচাপাট সরবরাহ নিশ্চিতকরণ, পাট ও পাটজাত পণ্য রপ্তানির ধারা বেগবান করার লক্ষ্যে সর্বদা পাটের বাজার দর পর্যবেক্ষণে রাখা হবে বলে মন্তব্য করেছেন, বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী।

মঙ্গলবার (১৪ জুন) দুপুরে সচিবালয়ে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বাংলাদেশ জুট অ্যাসোসিয়েশনের (বিজেএ) একটি প্রতিনিধিদলের সাথে সাক্ষাৎকালে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

এ সময় বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আব্দুর রউফ, যুগ্মসচিব তসলিম কানিজ নাহিদা, বাংলাদেশ জুট অ্যাসোসিয়েশন (বিজেএ) সভাপতি শেখ সৈয়দ আলী, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান আরজু মিয়াসহ অ্যাসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ ও মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

পাটমন্ত্রী বলেন, পাট চাষ নিশ্চিতকরণে বীজ সরবরাহ সঠিক রাখার পাশাপাশি কৃষককে অন্যান্য উপকরণ সহায়তার কারণে সম্প্রতিক বছরগুলোতে পাটের উৎপাদন বহুগুণে বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলশ্রুতিতে পাটকলসমূহ নিরবচ্ছিন্নভাবে পাট সংগ্রহ করতে পারছে যা রপ্তানি আয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে ।

মন্ত্রী আরও বলেন, পাট ও পাটজাত পণ্যের রপ্তানি আয়ের ধারা অব্যাহত রাখার জন্য কাঁচাপাটের সরবরাহ নিশ্চিত করতে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। এজন্য লাইসেন্স বিহীন অসাধু ব্যবসায়ীগণকে কাঁচাপাট ক্রয়-বিক্রয় ও মজুদ হতে বিরত রাখা, ভিজাপাট ক্রয়-বিক্রয় রোধ করা, বাজারে কাঁচাপাটের সরবরাহ নিশ্চিত করার জন্য কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পাট অধিদপ্তরকে নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

এসময়, রপ্তানি নীতি ২০২১-২০২৪ এ শর্ত সাপেক্ষে রপ্তানি পণ্য তালিকায় কাঁচাপাট অন্তর্ভূক্তির বিষয়ে আলোচনা হয়। এবিষয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সাথে আলোচনা করে পরবর্তি করণীয় নির্ধারণের সিদ্ধান্ত হয়।


আরও খবর