Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়নি মঙ্গলবার পবিত্র ঈদুল ফিতর

প্রকাশিত:Sunday ০১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১৯৭জন দেখেছেন
Image

নাজমুল হাসানঃ

সারা দেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে আগামী মঙ্গলবার (৩ মে)।রোববার (২ মে) সন্ধ্যায় রাজধানীর বায়তুল মোকাররমে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের দীনি দাওয়াত ও সংস্কৃতি বিভাগে ফোন করে ৬৪ জেলা থেকে ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালকরা চাঁদ দেখা যায়নি বলে জানিয়েছেন।


এ দিন বাদ মাগরিক বায়তুল মোকাররমে বৈঠকে বসে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি। এতে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি ও ধর্মবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান।


সভায় বলা হয়, রোববার সন্ধ্যায় বাংলাদেশের আকাশে কোথাও পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যাওয়ার সংবাদ পাওয়া যায়নি। আগামীকাল সোমবার পবিত্র রমজান মাস ৩০ দিন পূর্ণ হবে। আগামী মঙ্গলবার (৩ মে) থেকে ১৪৪৩ হিজরি সনের পবিত্র শাওয়াল মাস গণনা শুরু হবে। এ প্রেক্ষিতে আগামী মঙ্গলবার সারাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে।


সভায় ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব কাজী এনামুল হাসান এনডিসি, প্রধান তথ্য কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মো. শাহেনুর মিয়া, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) ড. মো. মুশফিকুর রহমান, ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. মুনিম হাসান,  মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্ম-সচিব মো. ছাইফুল ইসলাম, বাংলাদেশ মহাকাশ গবেষণা ও দূর অনুধাবন প্রতিষ্ঠানের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মুহাম্মদ শহীদুল ইসলাম, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক মো. আজিজুর রহমান, বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের খতিব হাফেজ মাওলানা মুফতি রুহুল আমিন, বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ মিজানুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



বাচ্চা হওয়ার তথ্যটি ভুয়া, কেউ এডিট করে ছেড়েছে: ওমর সানি

প্রকাশিত:Tuesday ১৪ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৫৫জন দেখেছেন
Image

জায়েদ খান ও ওমর সানির ঘটনায় কয়েকদিন ধরে উত্তাল চলচ্চিত্রপাড়া। বাংলাদেশ শিল্পী সমিতিতে লিখিত অভিযোগ করেছেন ওমর সানি। সেখানে তিনি জায়েদের বিরুদ্ধে সংসার ভাঙা ও তাকে হত্যার হুমকির অভিযোগ আনেন।

আবার এক অডিও বার্তায় মৌসুমী দাবি করেন, জায়েদ খান ভালো ছেলে। তার ছোট ভাইয়ের মতো। ওমর সানি যেসব অভিযোগ করেছেন তা সত্যি নয়।

এসব নিয়ে চলচ্চিত্রপাড়ায় ঝামেলা-উত্তেজনা চলছেই। এর মাঝখানে ছড়িয়েছে একটি ভুল তথ্য। সেটি হলো আবারও নাকি বাবা-মা হতে যাচ্ছেন সানি-মৌসুমী।

কোনো এক সাংবাদিকের সঙ্গে অভিনেতা ওমর সানির একটি কল রেকর্ড ফাঁস হয়েছে। সেখানে ওমর সানিকে বলতে শোনা যায়, ‘আমাদের ফুটফুটে দুটি সন্তান আছে। আরও একটি সন্তান আসছে ইনশাল্লাহ। আমাদের সুখের সংসার। আমি আল্লাহকে হাজির-নাজির সাক্ষি রেখে কথাগুলো বলছি...।’

মৌসুমী-ওমর সানি ও জায়েদ ইস্যুতে সোমবার (১৩ জুন) কল রেকর্ডটি ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ওই কল রেকর্ডের সূত্র ধরে বলা হচ্ছে, ওমর সানি-মৌসুমীর সংসারে আসছে নতুন অতিথি। তবে ওমর সানি এই তথ্যকে ভুয়া বলে দাবি করেছেন।

তিনি বলেন, ‘বিষয়টি পুরোই গুজব। আমার কথাকে এডিট করা হয়েছে। মাঝের কিছু কথা ফেলে দিয়ে এডিট করে কথাটা ওভাবে ছড়ানো হচ্ছে। এগুলো তো ঠিক না। যারা এটা করছেন তারা কেনো করছেন তারাই ভালো বলতে পারবেন। অনেক গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে কাল কথা হয়েছে। কে বা কারা এটা এভাবে এডিট করে ছড়িয়েছে সেটা জানিনা।’

এদিকে জায়েদ খানের বিরুদ্ধে ওমর সানীর আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন চিত্রনায়কা মৌসুমী। তবে জায়েদ খানের বিরুদ্ধে শিল্পী সমিতিতে যে অভিযোগ ওমর সানি করেছেন তাতে অটল থাকার কথা জানিয়েছেন তিনি।


আরও খবর



‘অপরাজিত’র বিরুদ্ধে প্লট ছিনতাইয়ের অভিযোগ, ক্ষতিপূরণ চেয়ে নোটিশ

প্রকাশিত:Monday ০৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৫৭জন দেখেছেন
Image

প্লট ছিনতাইয়ের অভিযোগে এরই মধ্যেই কাঠগড়ায় অনীক দত্তর ‘অপরাজিত’। এবার শুরু আইনি যুদ্ধ। ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে পরিচালক অনীক দত্ত ও তার প্রযোজকদের আইনি নোটিশ পাঠিয়েছে প্রযোজনা সংস্থা ‘সাধু ব্রাদার্স এন্টারটেনমেন্ট প্রোডাকশন হাউস’।

প্রযোজনা সংস্থাটির দাবি, সত্যজিৎ রায় ও তার ‘পথের পাঁচালী’ বানানোর জার্নি নিয়ে ২০১২ সাল থেকেই ছবি বানাতে শুরু করেছিলেন তারা। টাকার অভাবে ছবিটি শেষ করে উঠতে পারেননি। কিন্তু ওই ভাবনা ছিনতাই করে ‘অপরাজিত’ ছবিটি বানিয়ে ফেলেছেন অনীক দত্ত। যা এরই মধ্যে মুক্তিও পেয়েছে। ফলে সবদিক থেকেই বিপুল ক্ষতির মুখে ‘সাধু ব্রাদার্স এন্টারটেনমেন্ট প্রোডাকশন হাউস’।

প্রযোজনা সংস্থার পক্ষের আইনজীবী অয়ন চক্রবর্তী বলেন, শনিবার সন্ধ্যায় অনীক দত্ত ও তার প্রযোজনা সংস্থাকে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। এতে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণের দাবিও করা হয়েছে। উত্তরের জন্য সাতদিন অপেক্ষা করা হবে। তারপর ঠিক করা হবে পরবর্তী পদক্ষেপ।

এদিকে, রোববার রাতে প্লট ছিনতাইয়ের অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে অনীক দত্ত বলেন, আগে তাদের থেকে অভিযোগের প্রমাণ চান। আমি যদি অভিযোগ করি গতকাল আপনি কোনো দোকান থেকে চুরি করেছেন, তা হলে আপনি কী বক্তব‌্য রাখবেন? সেটাই আমার বক্তব‌্য। এই মূর্খতায় আমি অংশগ্রহণ করবো না।

২০১২ সালে মেকিং অব পথের পাঁচালী নিয়ে ‘বিষয় পথের পাঁচালি’ নামে একটি ছবি ইম্পাতে নথিভুক্ত করেছিল আরও একটি গ্রুপ। যাদের প্রায় সবাই রাজ্যের সংস্কৃতিমনস্ক পুলিশকর্মী। ইম্পার নথিতে সিরিয়াল নম্বর ৯০৩৭, তারিখ ১৯.১২.২০১২। লেখক প্রসেনজিৎ ঘোষ।

এই পুলিশকর্মীদেরই প্রশ্ন, ২০১২ সালে যে বিষয়টি সিনেমা বানানোর জন্য নথিভুক্ত করা হয়েছে, সেটা কী করে আরেকজন ব্যবহার করতে পারেন? নিরপেক্ষ তদন্তের দাবিতে সোচ্চার হয়েছেন তারা। তাদের দাবি যে বায়বীয় নয়, তা আইনি নোটিশ পাঠানোর পদক্ষেপেই স্পষ্ট। নোটিশ পাঠানো হয়েছে দুই প্রযোজক ফিরদৌসল হাসান, প্রবাল হালদার ও পরিচালক অনীক দত্তকে। যেখানে স্পষ্ট বলা হয়েছে, ‘অপরাজিত’ নির্মাণে কপিরাইট আইন লঙ্ঘন হয়েছে। চুরি করা হয়েছে চিত্রনাট্যের একাংশ। যা আদতে প্রসেনজিৎ ঘোষের লেখা।

নোটিশে আরও বলা হয়েছে, অনীক দত্ত বা ‘অপরাজিত’র প্রযোজনা সংস্থার তরফে কোথাও ‘সাধু ব্রাদার্স এন্টারটেনমেন্ট প্রোডাকশন হাউস’ এর কাছে কৃতজ্ঞতা বা ঋণ স্বীকার করা হয়নি। অথচ এই বিষয় ভাবনাকে ঘিরে প্রথম সিনেমা তৈরির পরিকল্পনা তাদেরই, অনীক দত্তর নয়।


আরও খবর



বেনারসি শাড়ি গায়ে নারীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:Saturday ০৪ June ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৫৫জন দেখেছেন
Image

বাগেরহাটের চিতলমারীতে বেনারসি শাড়ি গায়ে আফরোজা আক্তার (২২) নামের এক অন্তঃসত্ত্বা নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার (৪ জুন) সকালে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। আফরোজা চিতলমারী উপজেলার শান্তিখালী গ্রামের মোস্তফা শেখের ছোট মেয়ে।

মোস্তফা শেখ অভিযোগ করে বলেন, ‘এক বছর আগে উপজেলার হিজলা নতুন চর এলাকার সিরাজ শেখের ছেলে আমিনুর শেখের সঙ্গে আফরোজার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন নির্যাতনের মাধ্যমে জামাই আমীনুর শেখ প্রায় ১৫ লাখ টাকা যৌতুক নেয়। আমার মেয়ে অনার্সে পড়তো। শুক্রবার রাত ১১টার দিকে মেয়েকে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন ওড়না পেঁচিয়ে হত্যা করে আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করছে। আমার মেয়ে দুই মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিল। তার হত্যাকারীদের বিচার দাবি জানাচ্ছি।’

আফরোজার স্বামী আমীনুর শেখ ও তার পরিবারের সদস্যরা গা ঢাকা দেওয়ায় তাদের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

চিতলমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএইচএম কামরুজ্জামন খান জাগো নিউজকে বলেন, শনিবার গভীর রাতে স্বামীর ঘর থেকে বেনারসি শাড়ি গায়ে আফরোজা আক্তারের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। এ ঘটনায় ৩০৬ ধারায় একটি মামলা হয়েছে। তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর



চট্টগ্রামে মহাবিপন্ন দুটি বনরুই উদ্ধার, গ্রেফতার ৪

প্রকাশিত:Friday ২৪ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৯১জন দেখেছেন
Image

চট্টগ্রামে দুটি বনরুই উদ্ধার করেছে পুলিশ। এসময় বনরুই বিক্রি চক্রের চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) সন্ধ্যায় মহানগরীর শাহ আমানত সেতু সংলগ্ন হামিদ মিয়ার বাড়ি থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

শুক্রবার (২৪ জুন) সকালে গ্রেফতারদের কর্ণফুলী থানায় হস্তান্তর করা হয়। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (ডিবি-বন্দর) সামীম কবীর জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেফতাররা হলেন—মো. ইদ্রিস (৬০), এম এ রায়হান (৪৭), নূর হোসেন (২৭) ও বিপুল শীল (২৮)।

jagonews24

মহানগর ডিবি (বন্দর) বিভাগের পরিদর্শক মনির হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রাতে নতুন ব্রিজের (শাহ আমানত ব্রিজ) টোলবক্স এলাকায় অভিযান চালিয়ে দুটি বনরুই উদ্ধার করা হয়। এগুলো মহাবিপন্ন প্রজাতির বন্যপ্রাণী হিসেবে চিহ্নিত। এসময় চোরাচালান চক্রের চার সদস্যকে আটক করা হয়। পরে বনরুই দুটি চট্টগ্রাম বিভাগীয় বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। আটক চারজনের বিরুদ্ধে কর্ণফুলী থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ চট্টগ্রামের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম চৌধুরী জাগো নিউজকে বলেন, ‘বনরুই মহাবিপন্ন তালিকাভুক্ত প্রাণী। এগুলো মাটির নিচে থাকে। পুলিশ বনরুই দুটি উদ্ধার করে আমাদের হেফাজতে দিয়েছে। এদের পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।’


আরও খবর



ঝিনাইদহ পৌর নির্বাচন: প্রার্থিতা ফিরে পেলেন আ’লীগের খালেক

প্রকাশিত:Wednesday ০৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৪৪জন দেখেছেন
Image

ঝিনাইদহ পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আব্দুল খালেকের প্রার্থিতা বাতিলের প্রজ্ঞাপন এক মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। এর ফলে তিনি প্রার্থীতা ফিরে পেলেন এবং নির্বাচনে অংশ নিতে তার আর বাধা নেই বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

এ বিষয়ে শুনানি নিয়ে বুধবার (৮ জুন) হাইকোর্টের বিচারপতি জাফর আহমেদ ও বিচারপতি কাজি জিনাত হকের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ।

এর আগে মঙ্গলবার (৭ জুন) হাইকোর্টের একই বেঞ্চে ঝিনাইদহ পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আব্দুল খালেকের প্রার্থিতা বাতিল কেন অবৈধ ও বেআইনি ঘোষণা করা হবে না সেটি জানতে চেয়ে রুল জারি করেন। নির্বাচন কমিশনসহ সংশ্লিষ্টদের এই রুলের জবাব দিতে বলা হয়।

আর এ বিষয়ে পরবর্তী শুনানি ও আদেশের জন্য বুধবার দিন ঠিক করেন আদালত। তারই পরিপ্রেক্ষিতে আদালত এ আদেশ দেন।

আদালতে এদিন রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতিরি সভাপতি ও সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. মোমতাজ উদ্দিন ফকির, অ্যাডভোকেট শাহ মঞ্জুরুল হক ও এমএস সাঈদ আহমেদ রাজা। তাদের সঙ্গে ছিলেন ব্যারিস্টার হারুনুর রশিদ খান।

ইসির পক্ষে শুনানিতে ছিলেন অ্যাডভোকেট তৌহিদুল ইসলাম। অন্যদিকে আরেক প্রার্থীর পক্ষে শুনানি করেন সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট ফিদা এম কামাল, সাবেক অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মুরাদ রেজা ও অ্যাডভোকেট এবিএম ইলিয়াস কচি। এসময় নির্বাচন কমিশনের ও সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিস্টার ড. মোহাম্মদ ইয়াসিন খান উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে গত ২ জুন ঝিনাইদহ পৌরসভা নির্বাচনে একাধিকবার নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আব্দুল খালেকের প্রার্থিতা বাতিল করেছিল নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

নির্বাচন কমিশনের আদেশক্রমে নির্বাচন কমিশন সচিবালয় উপসচিব (নির্বাচন প্রশাসন) মো. মিজানুর রহমান গত ২ জুন তার প্রার্থীতা বাতিল করেন। প্রার্থিতা বাতিল করার বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের চিঠিতে বলা হয়, যেহেতু প্রতিদ্বন্দ্বী প্রাণী হিসেবে পৌরসভা (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা, ২০১৫ এর বিধান লঙ্ঘন করেছেন। সেহেতু, এ ক্ষণে পৌরসভা (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা, ২০১৫ এর বিধি ৩২ অনুসারে নির্বাচন কমিশন ঝিনাইদহ পৌরসভার নির্বাচনের মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মো. আব্দুল খালেকের প্রার্থিতা বাতিল করলেন।

এতে বলা হয়েছে, নির্বাচন কমিশনঘোষিত সময়সূচি অনুসারে আগামী ১৫ জুন অনুষ্ঠিতব্য ঝিনাইদহ পৌরসভার নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মেয়র প্রার্থী মো. আবুল খালেক ও তার সমর্থকরা মিছিল-শোভাযাত্রা করে গত ১৮ মে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মো. কাইয়ুম শাহরিয়ার জাহেদীর ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে ভাঙচুর চালিয়েছেন, যা ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়া এবং বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে।

চিঠিতে আরও বলা হয়, আব্দুল খালেক তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী কাইয়ুম শাহরিয়ার জাহেদীর প্রচারে বাধা দিয়েছেন। আব্দুল খালেকের বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের ব্যাখ্যা চাওয়ার পর তিনি ক্ষমা চান। ভবিষ্যতে নিৰ্বাচন আচরণবিধি মেনে চলবেন বলেও অঙ্গীকার করেন। এরপরও আব্দুল খালেকের সমর্থকরা বুধবার (১ জুন) কাইয়ুম শাহরিয়ার জাহেদী ও তার সমর্থকদের আক্রমণ করে আহত করেন, যা বিভিন্ন পত্রিকা ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভিডিওতে প্রকাশ পায়।

এসব কারণে পৌরসভা (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা-২০১৫ একাধিকবার লঙ্ঘন হওয়ায় আব্দুল খালেকের মেয়র পদে প্রার্থিতা ওই বিধিমালার ৩২ অনুচ্ছেদ অনুসারে বাতিল করা হয়েছে।

আগামী ১৫ জুন ঝিনাইদহ পৌরসভার নির্বাচন। এ নির্বাচনে আব্দুল খালেক বাদে মেয়র প্রার্থী তিনজন। তারা হলেন—স্বতন্ত্রপ্রার্থী কাইয়ুম শাহরিয়ার জাহেদী হিজল, মিজানুর রহমান মাসুম এবং ইসলামী অন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী মো. সিরাজুল ইসলাম।


আরও খবর