Logo
আজঃ বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪
শিরোনাম

রোজার আগেই বাড়ছে বিদ্যুতের দাম

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ১৫০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:মার্চে বাড়ছে বিদ্যুতের দাম। তা কার্যকর করা হবে রমজান মাস আসার আগেই। এক্ষেত্রে বিদ্যুতের দাম প্রতি ইউনিট ৩৪ থেকে ৭০ পয়সা বাড়ছে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা জানান তিনি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিদ্যুতের নতুন দাম কার্যকর হবে মার্চের প্রথম সপ্তাহ থেকেই। বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর গেজেট মঙ্গলবার জারি হতে পারে। এছাড়া, আন্তর্জাতিক বাজার বিবেচনা করে মার্চ থেকে তেলের দামও সমন্বয় করা হবে বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, ৫০ ইউনিট ব্যবহারকারীদের জন্য প্রতি ইউনিট ৩৪ পয়সা দাম বাড়বে। এর উপরে প্রতি ইউনিট ধাপ ভেদে ৭০ পয়সা পর্যন্ত দাম বাড়ানো হবে। আর যেসব ক্ষেত্রে গ্যাস ব্যবহার করে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হয়, সেখানে প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের দাম বাড়ছে ৭৫ পয়সা। তবে আবাসিক খাতে গ্রাহক পর্যায়ে গ্যাসের দাম আপাতত বাড়ছে না বলে জানিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী।

ডলারের বিনিময় হার বেড়ে যাওয়ায় দাম সমন্বয় করা হচ্ছে উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিদ্যুত খাতে ৪৩ হাজার কোটি টাকা ও গ্যাসে ৬ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দেয়া। তাই আগামী কয়েক বছর এভাবে বাড়িয়ে দাম সমন্বয় করা হবে। এই খাতে ভর্তুকি থেকে সরকার বেরিয়ে আসতে চায়।

এর আগে, ইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক ট্রেড ফাইন্যান্স করপোরেশনের (আইটিএফসি) প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী। বৈঠকের পর তিনি জানান, আইটিএফসি বাংলাদেশকে ২.১ বিলিয়ন ডলার সহায়তা করবে। এর মধ্যে ৫শ’ মিলিয়ন ডলার তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) কেনার জন্য, বাকি টাকা তেল কেনায় সহায়তা করবে। ভবিষ্যতে সহায়তার পরিমাণ আরও বাড়বে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।


আরও খবর



নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ ড্যানিয়েল কাহনেম্যান মারা গেলেন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ এপ্রিল ২০২৪ | ৯৫জন দেখেছেন

Image

খবর প্রতিদিন ২৪ডেস্ক :মারা গেছেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী মনোবিজ্ঞানী ড্যানিয়েল কাহনেম্যান ।বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) এ তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি

শেষ জীবনে ৯০ বছর বয়সী ড্যানিয়েল যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সির অবস্থিত প্রিন্সটন ইউনিভার্সিটির মনোবিদ্যা এবং পাবলিক অ্যাফেয়ার্স বিভাগের প্রফেসার এমেরিটাস হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

বিবিসি বলছে, বিহেভেরিয়াল ইকোনমিক্স বা আচরণগত অর্থনীতির সমার্থক হয়ে উঠেছিলেন ড্যানিয়েল কাহনেম্যান। যদিও কখনও অর্থনীতির কোর্স করেননি এই নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ। ইউনিভার্সিটি ড্যানিয়েল কাহনেম্যানের মৃত্যুর কথা ঘোষণা করেছে।

মূলত মানুষের অভ্যাস, সিদ্ধান্ত নেওয়ার ধরন কী ভাবে ব্যয় এবং তার হাত ধরে অর্থনীতিকে প্রভাবিত করে (বিহেভেরিয়াল ইকনমিক্স) তা নিয়ে গবেষণা করেছেন কাহনেম্যান। বিশেষত অনেক কিছুই না জেনে কীভাবে একজন সিদ্ধান্ত নেন বা নেন না, কেমন আয়ের মানুষ বেশি খুশি থাকেন— এই সব ঘিরেই আবর্তিত তার কাজ। আর এটিই পাল্টে দিয়েছে অর্থনীতি সম্পর্কে বহু চিরাচরিত ধ্যান-ধারণাকে। ‘প্রসপেক্ট থিয়োরি’ (অনিশ্চয়তার মধ্যে সিদ্ধান্ত গ্রহণের প্রক্রিয়া) নিয়ে গবেষণার জন্য ২০০২ সালে নোবেল পান তিনি।


আরও খবর



মাগুরায় ১০ দিনব্যাপী প্রশিক্ষন শেষে টেবিল টেনিস প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ৭৯জন দেখেছেন

Image
স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:মাগুরা জেলা প্রশাসনের আয়োজনে শেখ কামাল ইনডোর স্টেডিয়ামে ক্রীড়া পরিদপ্তরের বার্ষিক ক্রীড়া কর্মসূচির  আওতায় টেবিল টেনিস প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। রবিবার ২৪ মার্চ বিকেলে   উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক  মোহাম্মদ আবু নাসের বেগ। এ সময় জেলা ক্রীড়া অফিসার  অনামিকা দাস, জেলা শিক্ষা অফিসের সহকারী পরিদর্শক  এ এস এম মাজেদু-উর-রহমান, ক্রীড়া সংগঠক  বারিক আনজাম বারকি, ফুটবল কোচ  ইফনুস আলী ও জেলা টেবিল টেনিস কোচ  আসিফ নেওয়াজ সাজিদ উপস্থিত ছিলেন।

টেবিল টেনিস প্রতিযোগিতায় মাগুরা জেলার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ৪০ জন শিক্ষার্থী ৩টি গ্রুপে অংশ নেয়। ১০ দিনব্যাপী টেবিল টেনিস প্রশিক্ষণ শেষে  এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হলো। প্রতিযোগিতা শেষে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স আপ দলের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক। এ সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন যে, আউটডোর গেমসের পাশাপাশি ইনডোর গেমসেও সকলের আগ্রহ দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। আজকের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীরা ভবিষ্যতে জাতীয় পর্যায়ে টেবিল টেনিস খেলায় নেতৃত্ব দিবে বলেও তিনি  আশা প্রকাশ করেন। 

আরও খবর



ইউসিবি'র ফ্যালকন মার্ট উপশাখার উদ্বোধন

প্রকাশিত:শনিবার ৩০ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | ৯৯জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:সর্বোত্তম ব্যাংকিং সেবার প্রতিশ্রুতি নিয়ে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক পিএলসি (ইউসিবি)-র ফ্যালকন মার্ট উপশাখার উদ্বোধন করা হয়েছে। গত ২৮ মার্চ ২০২৪ সকাল ১০টায় এই উপশাখা উদ্বোধন করা হয়। 

ইউসিবির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও জনাব আরিফ কাদরীর সভাপতিত্বে ফ্যালকন মার্ট চত্বরে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিমান বাহিনী ঘাঁটি বাশার এর এয়ার অফিসার কমান্ডিং, এয়ার ভাইস মার্শাল শরিফ উদ্দীন সরকার ওএসপি, জিইউপি, বিপিপি, এনডিসি. পিএসসি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিচালক অর্থ এয়ার কমোডর জামিল উদ্দিন আহমেদ, বিইউপি। স্বাগত বক্তব্য দেন ইউসিবির অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক এটিএম তাহমিদুজ্জামান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর ঘাঁটি এর এয়ার অফিসার কমান্ডিং এয়ার ভাইস মার্শাল শরিফ উদ্দীন সরকার বলেন, বিমান বাহিনীর স্লোগান হচ্ছে, “বাংলার আকাশ রাখিব মুক্ত”। ইউসিবি বিমান বাহিনীর সদস্যদের ব্যাংকিং সেবা প্রদানের মাধ্যমে আর্থিক লেনদেন ও হিসাব নিরাপদ রাখবে বলে আমি আশা করি।

তিনি আরো বলেন, ব্যক্তির আর্থিক হিসাব অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ব্যাংক এই কাজটিতে সহায়তা করে। ইউসিবি প্রথম বেসরকারি ব্যাংক যারা সেনানিবাস এলাকায় তাদের কার্যক্রম পরিচালনার সুযোগ পেয়েছে। তারা এই সুযোগের সদ্ব্যবহার করে সেনানিবাসের সকলের ব্যাংকে পরিণত হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

সভাপতির বক্তব্যে ইউসিবির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও জনাব আরিফ কাদরী বলেন, ইউসিবি দীর্ঘ চার দশক ধরে সারাদেশে সুনামের সঙ্গে ব্যাংকিং সেবা প্রদান করছে। সময়ের পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে গ্রাহক চাহিদাকে বিবেচনায় নিয়ে ব্যাংকিং সেবাকে আধুনিক, নিরাপদ, সহজ ও গ্রাহকবান্ধব করতে ইউসিবি সর্বোচ্চ উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। তারই ধারাবাহিকতায় ফ্যালকন মার্টে বিমান বাহিনীর সদস্যদের আর্থিক সেবা প্রদানের দায়িত্ব গ্রহণ করেছে। বিমান বাহিনীর সদস্যদের চাহিদা বিবেচনায় নিয়ে সব ধরনের ব্যাংকিং সেবা প্রদানের ব্যাপারে ইউসিবি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। ইউসিবি ও বিমান বাহিনী একসাথে এক পথে এগিয়ে যেতে চায়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে নতুন উপশাখা অফিস ও এটিএম বুথ ঘুরে দেখেন বিমান বাহিনী ও ইউসি


আরও খবর



ঈদে নানা বাড়ীতে এসে নদীতে নেমে আর ফেরা হলো ইব্রাহীমের

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ১৬জন দেখেছেন

Image

লিয়াকত হোসাইন লায়ন,ইসলামপুর(জামালপুর)প্রতিনিধি:জামালপুরের ইসলামপুরে ঈদে নানা বাড়ীতে এসে ব্রহ্মপুত্র নদে গোছল করতে নেমে আর ফেরা হলো ইব্রাহীমের(১৬)। পানিতে ডুবে মারা যায় কিশোর ইব্রাহীম । বুধবার বিকালে পৌর এলাকার উত্তর দরিয়াবাদ গ্রামের ফকির পাড়া ঘাটে এই ঘটনা ঘটে।

জানাগেছে, নারায়নগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ উপজেলার এনায়েত নগর গ্রামের সেলিম মিয়ার পুত্র ইব্রাহীম ঈদে নানা বাড়িতে বেড়াতে আসে। সহপাঠির সাথে ব্রহ্মপুত্র নদের ঘাটে গোছল করতে যায়। গোছল করার এক পর্যায়ে সকলে উঠে এলেও পিছন থেকে এক সহপাঠিকে নিয়ে আবারো আরেকটি ডুৃব দিতে যায় ইব্রাহীম। এসময় গভীর পানিতে তলিয়ে গেলে সহপাঠি বাড়িতে খবর দেয়। পরে খোঁজাখুজির প্রায় দুঘন্টা পর লাশ ভেসে উঠে।

উদ্ধার করে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে বাবার অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। কাউন্সিলর জুলহাস মন্ডল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এ ব্যাপারে অফিসার ইনচার্জ সুমন তালুকদার বলেন- নিহতের বাবার মৌখিক অভিযোগের প্রেক্ষিতে লাশ থানায় আনা হয়েছিল। বাবা এসে কোন অভিযোগ না করায় রাতে তার নিকট লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।


আরও খবর



শক্তিশালী ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল জাপান

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ১১৩জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:শক্তিশালী ভূমিকম্পে তাইওয়ানের পর এবার কেঁপে উঠল জাপান। রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৬। জাপানের ফুকুশিমা অঞ্চলের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ভূমিকম্পটি আঘাত হানে।

জাপানের আবহাওয়া সংস্থা জানিয়েছে, স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) ভূমিকম্পটি আঘাত হানে। তবে এ থেকে সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়নি।

এখনো পর্যন্ত ওই ভূমিকম্প থেকে কোনো ক্ষয়ক্ষতি বা হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। ভূমিকম্পটির গভীরতা ছিল ৪০ কিলোমিটার (২৫ মাইল)। রাজধানী টোকিওতেও ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে।

বিশ্বের সবচেয়ে টেকটোনিক সক্রিয় দেশগুলোর মধ্যে একটি জাপান। সে কারণে দেশটিতে শক্তিশালী ভূমিকম্প সহ্য করতে পারে এমনটা নিশ্চিত করতে তারা ভবনের কাঠামো তৈরির ক্ষেত্রে কঠোর নিয়ম মেনে চলে।

১২৫ মিলিয়ন মানুষের আবাসস্থল এই দ্বীপপুঞ্জ। প্রতি বছর সেখানে প্রায় ১৫০০ ছোট-বড় ভূমিকম্প আঘাত হানে। এদিকে মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার আঘাত হানা ভূমিকম্পটির মাত্রা ছিল ৬ দশমিক ১ এবং এর গভীরতা ছিল ৪০ দশমিক ১ কিলোমিটার।

এর মাত্র একদিন আগেই প্রতিবেশী তাইওয়ানে একটি শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হানে। রিখটার স্কেলে ওই ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৪। এতে এখন পর্যন্ত ৯ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে এবং আরও এক হাজারের বেশি মানুষ আহত হয়েছে।

বুধবার তাইওয়ানের পূর্বাঞ্চলীয় উপকূল এবং রাজধানী তাইপেই ছাড়াও জাপানের দক্ষিণাঞ্চল, চীনের পূর্বাঞ্চল এবং ফিলিপাইনে ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা (ইউএসজিএস) জানিয়েছে, ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থল ছিল তাইওয়ানের হুয়ালিয়েন শহরের ১৮ কিলোমিটার দক্ষিণে। এর গভীরতা ছিল ৩৪ দশমিক ৮ কিলোমিটার।

ওই ভূমিকম্পের পর পরই তাইওয়ান ও এর প্রতিবেশী দেশ জাপান, ফিলিপাইনে সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়। তবে পরবর্তীতে ওই সতর্কতা তুলে নেওয়া হয়।

জাপানে এর আগে ২০১১ সালে ৯ মাত্রার অতি শক্তিশালী একটি ভূমিকম্প আঘাত হেনেছিল। দেশটির উত্তর-পূর্বাঞ্চলে আঘাত হানা ওই ভূমিকম্পের প্রভাবে সুনামির আঘাতে ১৮ হাজার ৫০০ মানুষ নিহত বা নিখোঁজ হয়।


আরও খবর