Logo
আজঃ শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

রাশমিকার বিকৃত ভিডিও প্রকাশের অভিযোগে কিশোর গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ | ৩১০জন দেখেছেন

Image

বিনোদন ডেস্ক:দিল্লি পুলিশ রাশমিকা মান্দানার বিকৃত ভিডিওর উৎস খুঁজতে মাঠে নেমেছে। চিরুনি তল্লাশি চালিয়ে শেষমেশ তাদের জালে বিহারের এক কিশোর। পুলিশের ধারণা, ১৯ বছর বয়সি ওই কিশোরই প্রথম অভিনেত্রীর ভিডিও নেটপাড়ায় ছড়িয়ে দিয়েছে।

দিন কয়েক ধরেই রাশমিকা মান্দানার বিকৃত ভিডিও নিয়ে তুলকালাম সোশাল মিডিয়া। দিল্লি মহিলা কমিশনের নোটিশ পাঠানোর পরই ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪৬৫ ও ৪৬৯ ধারায় এবং তথ্যপ্রযুক্তি সংক্রান্ত আইনের ৬৬সি ও ৬৬ই ধারায় দায়ের করা হয় এফআইআর। সেই সূত্র ধরেই এগোতে থাকে দিল্লি পুলিশ। তারপরই বিহারের এক কিশোরের কথা উঠে আসে। 

জিজ্ঞাসাবাদে দিল্লি পুলিশের কাছে ওই কিশোর স্বীকার করে যে, আমি শুধু ইনস্টাগ্রাম থেকে ভিডিও ডাউনলোড করেছিলাম মাত্র। তবে বিহারের কিশোরের এমন উত্তরে সন্তুষ্ট নয় পুলিশ। তাই সংশ্লিষ্ট বিষয়ে জানতে তাকে কড়া জেরা করার পরিকল্পনা রয়েছে।

নেটদুনিয়ায় দাবানল গতিতে ছড়িয়ে পড়া ওই বিকৃত ভিডিও নিয়ে রাশমিকা নিজে তো বিরক্তি প্রকাশ করেইছেন। পাশাপাশি এমন কাজের বিরুদ্ধে কড়া আইনি পদক্ষেপের দাবি জানিয়েছেন খোদ অমিতাভ বচ্চনও। এ ছাড়া সামাজিক মাধ্যমে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন রাশমিকার চর্চিত প্রেমিক বিজয় দেবেরাকোন্ডা এবং বন্ধু ম্রুণাল ঠাকুরও।


আরও খবর



সেতু ভেঙ্গে নয়জন নিহতের ঘটনায় দুইটি তদন্ত কমিটি গঠন, মাইক্রোবাস উদ্ধার

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ | ১২২জন দেখেছেন

Image

আব্দুল্লাহ আল নোমান,আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি:সেতু ভেঙ্গে নয়জন নিহতের ঘটনায় দুইটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। বরগুনা জেলা প্রশাসক মোহাঃ রফিকুল ইসলাম অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট অনিমেষ বিশ্বাসকে প্রধান করে এ কমিটি গঠন করা হয়। শনিবার রাতে এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটিকে সাত দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন বরগুনা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে জমা দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়। অপর দিকে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর আরেকটি তিন সদস্য কমিটি গঠন করেছে। পটুয়াখালী তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মহির উদ্দিন শেখকে প্রধান করে এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এদিকে চাওড়া নদীতে তলিয়ে যাওয়া মাইক্রোবাস উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার গভীর রাতে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষ চেইন কপ্পা দিয়ে এ মাইক্রোবাসটি উদ্ধার করেছেন। রবিবার তদন্ত কমিটি তদন্ত কাজ শুরু করেছেন।

জানাগেছে, আমতলী উপজেলা কাউনিয়া ই্ব্রাহিম একাডেমি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক দক্ষিণ তক্তাবুনিয়া গ্রামের মাসুম বিল্লাহ মনিরের মেয়ে মরিয়ম বিল্লাহ হুমায়রার সঙ্গে একই বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আমতলী পৌর শহরের খোন্তাকাটা এলাকার বাসিন্দা সেলিম মাহমুদের ছেলে ডাঃ সোহাগের বিয়ে হয়। গত শুক্রবার ওই কনেকে বরের বাড়ী তুলে নেন। শনিবার মেয়ের পক্ষের লোকজন বরের বাড়ীতে মাইক্রোবাস এবং অটো গাড়ীতে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে হলদিয়া হাট সেতু পাড় হওয়ার সময় সেতুর মাঝের অংশ ভেঙ্গে মাইক্রোবাস ও অটো গাড়ী নদীতে তলিয়ে যায়। অটোতে থাকা যাত্রীরা সকলে সাতরে কিনারে উঠতে পারলেও মাইক্রোবাসের যাত্রীরা নদীতে তলিয়ে যায়। তাৎক্ষনিক স্থানীয়রা ওই মাইক্রোবাসে থাকা লোকজনকে উদ্ধারের চেষ্টা চালায় বলে জানান প্রত্যক্ষদর্শী নাশির উদ্দিন। ততক্ষণে মাইক্রোবাসে থাকা কনে পক্ষের ৯ যাত্রী নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় বরগুনা জেলা প্রশাসক মোহাঃ রফিকুল ইসলাম ছয় সদস্য তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন। অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট অনিমেশ বিশ্বাসকে প্রধান এবং আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আশরাফুল আলমকে সদস্য সচিব করা হয়েছে। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন সহকারী পুলিশ সুপার আমতলী সার্কেল রুহুল আমিন, এলজিইডির বরগুনার নির্বাহী প্রকৌশলী মেহেদী হাসান খাঁন,  বিআরটিএ সহকারী পরিচালক মাহফুজ আহমেদ, ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স উপ-সহকারী পরিচালক জাহাঙ্গির আলম। সাত কার্যদিবসের মধ্যে অনুসন্ধানপুর্বক তদন্ত কমিটিকে প্রতিবেদন জমা দিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। অপর দিকে স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তর তিন সদস্য তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। পটুয়াখালী তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মহির উদ্দিন শেখকে প্রধান করে এ কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন নির্বাহী প্রকৌশলী এসি অফিস বরিশাল নুরুস সাম ও এলজিইডি বরগুনা সিনিয়র সহকারী প্রকৌশলী মোঃ মনিরুজ্জামান। রবিবার তদন্ত কমিটি তাদের তদন্ত কাজ শুরু করেছেন। এদিকে শনিবার গভীর রাতে আমতলী থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা চেইন কপ্পা দিয়ে নদীতে ডুবে যাওয়া মাইক্রোবাসটি উদ্ধার করেছে। 

আমতলী থানার ওসি কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন, চেইন কপ্পা দিয়ে মাইক্রোবাসটি উদ্ধার করা হয়েছে। ওই মাইক্রোবাসের মধ্যে আর কোন মরদেহ পাওয়া যায়নি।  

আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) তারেক হাসান বলেন, বরগুনা জেলা প্রশাসক ছয় সদস্য তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন। 

তদন্ত কমিটির প্রধান বরগুনা অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট অনিমেশ বিশ্বাস বলেন, তদন্ত কাজ শুরু করেছি। আজ (রবিবার) আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে সভা শেষে সরেজমিনে ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করা হবে। 

বরগুনা জেলা প্রশাসক মোহাঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে প্রধান করে ছয় সদস্য তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। সাত কার্যদিবসের মধ্যে তাদের অনুসন্ধানপুর্বক প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছি। প্রতিবেদনের আলোকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরও খবর



কালুপাড়া গ্রামে গভীর নলকূপ প্রকল্পের এলাকায় অবৈধ্যভাবে ড্রেন ভাঙ্গন ও পুকুর খনন এর বিরুদ্ধে অভিযোগ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ | ১৩৪জন দেখেছেন

Image

ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি:দিনাজপুর জেলার বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি এলাকার কালুপাড়া গ্রামে প্রতিপক্ষরা গভীর নলকূপ প্রকল্পের এলাকায় অবৈধ্যভাবে ড্রেন ভাঙ্গন ও পুকুর খনন এর বিরুদ্ধে পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর গত ২৬/০৬/২০২৪ইং তারিখে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন মোঃ রাজু আহম্মেদ। পার্বতীপুর উপজেলার কালুপাড়া গ্রামে মৃত্যু মোজাফ্ফর মন্ডল এর পুত্র মোঃ রাজু আহম্মেদ এর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর দায়েরকৃত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, কালুপাড়া কৃষক সমবায় সমিতি নামে একটি সরকারি রেজিষ্টার সমবায় সমিতি রয়েছে। যাহার রেজি নং-৫৬/৮৭। উক্ত সমবায় সমিতির আওতায় মোঃ রাজু আহম্মেদ ঐ কমিটির সহ সভাপতি হিসাবে গভীর নলকূপ পরিচালনা করে আসছেন। গত ২৫/০৬/২০২৪ইং তারিখে পার্বতীপুর উপজেলার হামিদপুর ইউপির কালুপাড়া গ্রামের মৃত্যু মবার উদ্দীন  এর পুত্র মোঃ মিজানুর রহমান ও মৃত্যু পওয়াতুল মোল্লার পুত্র মোঃ আফসার আলী, মোঃ ্আফসার আলীর পুত্র মোঃ মিলন, মৃত্যু নজির উদ্দিন তেলির পুত্র মোঃ আইয়ুব আলীগংরা গভীর নলকূপটির পাশের্^ পুকুর খনন এর কারণে গভীর নলকূপ এর ঘরটি ভেঙ্গে পড়ে যাচ্ছে এবং ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। বিষয়টি আফসার আলীকে অবগত করলে তিনি ব্যবস্থা না নিয়ে গভীর নলকূপ এর ঘরটি সরিয়ে নেওয়ার কথা বলেন। মোঃ মিজানুর রহমান এর নির্দেশে এবং মিলন এর নির্দেশে গভীর নলকূপ এর সেচ ড্রেন তুলে ফেললে এতে সাধারণ কৃষকদের চলতি বছর আমন মৌসুমে সেচ নিতে ব্যহত হবে। কালুপাড়া গ্রামে গভীর নলকূপ সাময়িক কমিটির সভাপতি মোঃ আইয়ুব আলীকে বিষয়টি জানালে গভীর নলকূপ এর ঘরটি যেহেতু তাদের জায়গায় সে ক্ষেত্রে তারা ঘরটি ভেঙ্গে দিতে পারে। রাজু আহম্মেদ অভিযোগে উল্লেখ করেন, গভীর নলকূপটি স্থাপনের আওতার মধ্যে প্রতিপক্ষদের একটি নিজেস্ব স্যালোমেশিন অগভীর নলকূপ থাকায় তারা চানা গভীর নলকূপটি অকেজ হয়ে থাক। এবং স্যালোমেশিন এর মাধ্যমে কৃষদেরকে সেচ সুবিধা দিতে পারেন। এতে প্রায় ৪০ জন কৃষক সেচ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবে। কালুপাড়া কৃষক সমবায় সমিতির সাময়িক পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোঃ আইয়ুব আলীর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, গভীর নলকূপ তারাই পরিচালনা করছিলেন। হিসাব চাইলে তারা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করেন। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে উপজেলা সেচ কমিটির সভাপতির আশুহস্তক্ষেপ কামনা করেছেন অভিযোগকারী রাজু আহম্মেদ। 


আরও খবর



ফ্রান্সকে হারিয়ে ফাইনালে স্পেন

প্রকাশিত:বুধবার ১০ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | ১১০জন দেখেছেন

Image

স্পোর্টস ডেস্ক:স্পেনের সেমিফাইনালে ফ্রান্সকে হারাতে বেশি কষ্ট হয়নি। মিউনিখে কিলিয়ান এমবাপেদের ২-১ গোলে হারিয়ে ইউরোর গত আসরের সেমিফাইলিস্টরা ফাইনালে চলে গেছে।

এমবাপের ফ্রান্সের জার্সিতে বিশ্বকাপ জিতলেও এখনো ইউরো কাপ জেতা হয়নি । এবার মহাদেশীয় শিরোপা জয়ের দারুণ স্বপ্ন নিয়ে এসেছিলেন রিয়াল মাদ্রিদমুখী এই তারকা। আসরের প্রথম ম্যাচে নাক ভেঙে গেলে পরের ম্যাচগুলোতে মাস্ক পরে খেলতে নেমে বিরক্ত হয়েছিলেন এমবাপে। তবে আজ মাস্ক ছাড়া নামলেও গোলের সঙ্গে দেখা হয়নি তার। কাতার বিশ্বকাপের ফাইনালে আর্জেন্টিনার কাছে হারের পর এবার আরও ব্যর্থ মিশন শেষ করল ফ্রান্স।

সর্বশেষ ২০০০ সালে ইউরো কাপ জিতেছিল ফ্রান্স। এরপর ২৪ বছর পেরিয়ে গেলেও শিরোপার সঙ্গে দেখা হয়নি ফরাসিদের। ২০১৬ সালে ফাইনালে গেলেও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর পর্তুগালের কাছে ১-০ গোলে হেরে শিরোপাবঞ্চিত হয়েছিল ফ্রান্স। মিউনিখে আজ দারুণ শুরু করেছিল ফ্রান্স। মাত্র ৮ মিনিটের মাথায় গোল পেয়ে গিয়েছিলো তারা। এমবাপের ক্রস থেকে দুর্দান্ত হেডে গোল করেন রান্ডাল কুলো মুয়ানি। এতে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় ফ্রান্স। চলতি ইউরোতে এই প্রথম প্রথমার্ধে গোলের দেখা পেল ফরাসিরা।

স্পেন যে এবারের ইউরোতে দুর্দান্ত, সেটি প্রমাণ করতে সময় নেয়নি বেশি। ২১ মিনিটে লামিন ইয়ামালের চোখ ধাঁধানো গোলে সমতায় ফেরে স্পেন। আলভারো মোরাতার অ্যাসিস্ট থেকে বাঁপায়ের দারুণ শটে ফরাসিদের জালে কম্পন ধরিয়ে দেন ১৬ বছর বয়সী এই কিশোর। অল্প সময়ের মধ্যে সমতায় ফিরেও গোলক্ষুধা একটুও কমেনি স্পেনের। ৪ মিনিট পরই আবার গোল করে স্প্যানিশরা। দানি ওলমোর গোলে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে যায় লুইস ডি লা ফুয়েন্তের দল। ডি-বক্সের মাঝখান থেকে দুই ফরাসি ডিফেন্ডারের মাঝখান দিয়ে শট নিয়ে লক্ষ্যভেদ করেন স্প্যানিশ এই অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার ও উইঙ্গার। এর আরও কিছু গোলের সুযোগ তৈরি করে দুই দল। গোল পায়নি কেউ। অবশেষে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় স্পেন।

দ্বিতীয়ার্ধে প্রতিযোগিতা আরও কঠিন হতে শুরু করে। দুই দলই তাদের আক্রমণের ধার বাড়ায়। তবে আক্রমণ বেশি এসেছে ফরাসিদের পা থেকেই। ৫৩ মিনিটে ওসুমানে ডেম্বেলের ক্রস থেকে দারুণ হেড নিয়েছিলেন অরেলিয়েন চুয়োমেনি। তবে স্পেনের গোলরক্ষক উনাই সিমন তার শট সেভ দেন। এর ৩ মিনিট পর আক্রমণে আসেন এমবাপে। এবার আন্দ্রিয়েন রাবিয়তের অ্যাসিস্ট থেকে এমবাপের করা শটটি ব্যর্থ করেন স্প্যানিশ গোলরক্ষক। ৬৩ মিনিটে আবার গোলের সুযোগ তৈরি করে ফ্রান্স। এবার ৬ গজের বক্সের ভেতর থেকে দায়ত উপামেকানোর করা হেড গোলবারের বাইরে দিয়ে চলে যায়। তাকে কর্নার আসা বল নিয়ে ক্রস দিয়েছিলেন ডেম্বেলে।

৮৫ মিনিটে বল নিয়ে দুরন্ত গতিতে এমবাপে এগিয়ে এসে বল মেরে গোলবারের অনেকটা উপর দিয়ে। ৮৯ মিনিটে একটি আক্রমণ করে স্পেন। তবে ফরাসি ডিফেন্ডাররা সেটি ব্লক করে দিতে সমর্থ হন।

এরপর স্পেনের লক্ষ্য ছিল রক্ষনাত্মক ভঙ্গিতে খেলে ম্যাচটি শেষ করা। কোনোভাবেই গোল হজম করা যাবে না। স্পেন নিচে নেমে খেলার কারণে আক্রমণের সুযোগ পেয়েছিল ফ্রান্স। শেষ মুহূর্তে আন্টোনিও গ্রিজম্যানের একটি হেড গোলবারের বাইরে দিয়ে চলে যায়। তবে কিছুক্ষণ পরই শেষবারের মতো বাঁশি বাজান রেফারি। এতে ফাইনালে যাওয়ার আনন্দ উদযাপন করতে শুরু করে স্প্যানিশরা।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



মিরসরাইয়ে লোকালয়ে অজগর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ জুলাই 2০২4 | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৯৮জন দেখেছেন

Image

মিরসরাই প্রতিনিধি:মিরসরাইয়ে লোকালয় থেকে অজগর সাপ উদ্ধার করা হয়েছে। রোববার (৩০ জুন) রাত ৯ টার দিকে উপজেলার ৮নং দুর্গাপুর ইউনিয়নের প‚ব দুর্গাপুর গ্রাম থেকে অজগরটি উদ্ধার করা হয়। ওই রাতেই মহামায়া ইকোপার্কে অজগরটি অবমুক্ত করেন বনবিভাগ। প‚র্ব দুর্গাপুর এলাকার একটি বাড়ির আঙ্গিনায় জালি তারের সাথে আটকে যায় অজগরটি। স্থানীয় লোকজন দেখতে পেয়ে বন বিভাগের মিরসরাই রেঞ্জের কর্মকর্তাদের খবর দিলে রাত ৯ টার দিকে তারা সাপটি উদ্ধার করে।


বন বিভাগের মিরসরাই রেঞ্জের রেঞ্জার শাহান শাহ নওশাদ জানান, আমরা খবর পেয়ে দ্রæত ঘটনাস্থলে ছুটে যাই। এরপর অক্ষত অবস্থায় অজগরটি উদ্ধার করে নিয়ে আসি। পরবর্তীতে চট্টগ্রাম উত্তর বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তার নির্দেশনানুযায়ী এই নির্বিষ অজগরটি রাতেই মহামায়া ইকোপার্কের বনে অবমুক্ত করা হয়।
তিনি আরো বলেন, কোথাও সাপ দেখলে না মেরে বন বিভাগকে খবর দেওয়ার অনুরোধ করছি।


আরও খবর



ব্যবসা-বাণিজ্য সহজ করতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ | ৮৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার। ব্যবসা-বাণিজ্য যাতে সহজ হয়, উদ্যোক্তারা যাতে উৎসাহ পায়, আমরা সর্বদা সেই কাজই করছি,বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা । আমাদের সরকার ব্যবসায় নানা প্রণোদনা প্রদান করে আসছে।

‘জাতীয় রপ্তানি ট্রফি’ প্রদান উপলক্ষে দেওয়া এক বাণীতে তিনি এসব কথা বলেন। আজ (১৪ জুলাই) এই রপ্তানি ট্রফি প্রদান করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, রপ্তানি বাণিজ্যের মাধ্যমে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করে দেশের অর্থনীতিতে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ২০২১-২২ অর্থবছরের জাতীয় রপ্তানি ট্রফি প্রদান করা হচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত। এ উপলক্ষে সফল রপ্তানিকারকদের আমি আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই।

শেখ হাসিনা বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণে আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব পরিবেশ বজায় রাখতে বদ্ধপরিকর। ২০০৯ সাল থেকে ধারাবাহিকভাবে সরকার পরিচালনা করে আমরা বাংলাদেশকে অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী রাষ্ট্র হিসেবে পরিণত করতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করে যাচ্ছি। একটি দেশের সামগ্রিক অর্থনৈতিক অগ্রগতি ও উন্নয়নে রপ্তানি বাণিজ্যের অবদান অনস্বীকার্য। বাংলাদেশের রপ্তানিকারকরা বিশ্ববাজারে দেশীয় উৎপাদিত মানসম্পন্ন পণ্য রপ্তানি করে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখছেন। বিশ্ব অর্থনীতির এ কঠিন সময়েও পণ্য ও সেবাখাতে ২০২২-২৩ অর্থবছরে ৩ দশমিক ৪২ শতাংশ প্রবৃদ্ধিতে ৬৩ দশমিক ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার রপ্তানি আয় অর্জিত হয়েছে।

২০২৭ সালে রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা ১১০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার নির্ধারণ করা হয়েছে জানিয়ে তিনি আরও বলেন, এ লক্ষ্য অর্জনে সরকার এবং রপ্তানিকারকসহ সংশ্লিষ্ট অংশীজনদের সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে। পণ্য রপ্তানির পাশাপাশি সেবা খাতের সম্প্রসারণ ও রপ্তানিতে বাংলাদেশের সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে আমাদের সরকার ব্যবসায়ীদের সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি দৃঢ়ভাবে আস্থা প্রকাশ করেন, পণ্য খাতের মতো সেবা খাতেও আমরা সফলতা অর্জন করতে সক্ষম হবো।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতীয় রপ্তানি ট্রফি প্রদান কার্যক্রম দেশের রপ্তানিকারকদের উৎসাহ প্রদানসহ রপ্তানি বাণিজ্য সম্প্রসারণে বিশেষ ভূমিকা রাখছে। রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে প্রদত্ত এ ধরনের স্বীকৃতি দেশের শিল্পায়ন ত্বরান্বিত করার মাধ্যমে রপ্তানির চলমান প্রবৃদ্ধির ধারা অব্যাহত রাখার পাশাপাশি দেশের সামগ্রিক অর্থনীতিতে গতি সঞ্চার করবে বলে তিনি দৃঢ় আস্থা প্রকাশ করেন।

প্রধানমন্ত্রী জাতীয় রপ্তানি ট্রফি ২০২১-২২ প্রদান অনুষ্ঠানের সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর