Logo
আজঃ বুধবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩
শিরোনাম

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৩৮

প্রকাশিত:শনিবার ০২ সেপ্টেম্বর 2০২3 | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ২৪৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে মাদক বিক্রি ও সেবনের অভিযোগে ৩৮ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)।শনিবার (২ সেপ্টেম্বর) সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীর বিভিন্ন থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

ডিএমপি সূত্রে জানা যায়, গ্রেপ্তারের পাশাপাশি ১২ হাজার ৩ পিস ইয়াবা, ২২ কেজি ৫৪৫ গ্রাম গাঁজা ও ৬২ গ্রাম ৪২০ পুরিয়া হেরোইন জব্দ করা হয়েছে।গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৩২টি মামলা করা হয়েছে।


আরও খবর



তানোরে বিএনপির দোয়া মাহফিল

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ সেপ্টেম্বর 20২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ৭৩জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর:বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার আশু রোগমুক্তি কামনায় রাজশাহীর তানোরে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বিকেলের দিকে পৌর সদর গোল্লাপাড়া বাজারস্থ বরেন্দ্র ভবন সংলগ্ন দলীয় কার্যালয়ে উপজেলা ও পৌর বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয় দোয়া মাহফিল। উপজেলা বিএনপির আহবায়ক আখেরুজ্জামান হান্নানের সভাপতিত্বে  এতে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির অন্যতম সদস্য সাবেক মেয়র মিজানুর রহমান মিজান, পৌর বিএনপির সভাপতি একরাম আলী মোল্লা, উপজেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, পৌর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক তোফাজ্জুল হক তোফা,যুবদল নেতা মাহফুজ প্রমুখ। প্রধান বক্তা মিজানুর রহমান বলেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় আপামর জনতার নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া মারাত্মক অসুস্থ। মেডিকেল বোর্ড বারবার বলছেন বিদেশে নিয়ে চিকিৎসা দিতে হবে। কিন্তু অবৈধ ফ্যাসিষ্ট সরকার প্রতিহিংসা বশত চিকিৎসার জন্য বিদেশ যেতে দিচ্ছেন না। হাসপাতালে ধুঁকে ধুকে মেরে ফেলার নীল নকশা তৈরি করেছেন। বেগম জিয়ার এঅবস্থায় কিছু হলে সরকারকে সব দায়ভার নিতে হবে। দেশের মানুষ যখন সরকার পতনের একদফা আন্দোলন করছেন তখন থেকেই বিএনপিসহ আন্দোলন রত দলের নেতাকর্মীদের নামে গায়েবি মিথ্যা মামলা দিয়ে ধরপাকড় শুরু করেছেন। সবচেয়ে অবাক লাগে ঢাকায় নাকি দলের মহা সচিব মির্জা ফকরুল ইসলাম আলমগীরকে প্রবেশ করতে দিবেন না বলে ভোটার বিহীন মেয়র তাপস ঘোষনা দিয়েছেন। আসলে সরকারের পায়ের তলায় মাটি নেই। তারাও ভালভাবেই জানেন নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিলে তাদের মারাত্মক ভরাডুবি হবে। একারনে তারা বলছে বিএনপি ক্ষমতায় এলে নাকি সবাই কে কেটে ফেলবে। সরকারকে পরিস্কার ভাবে বলতে চায় দ্রুত পদত্যাগ করুন বাংলার মানুষ আপনাদেরকে আর ক্ষমতার মসনদে দেখতে চায় না। যদি এক তরফা বা ২০১৪ ও ২০১৮ সালের মত রাতে ভোট করতে চান সেটা হতে দিবেনা। আর এমন স্বপ্ন যদি দেখে থাকেন তাহলে বোকার সর্গে বাস করছেন। এত উন্নয়ন করেছেন তাহলে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে ভোট দিতে এত ভয় কেন। বিএনপি প্রতিহিংসার রাজনীতি করেনা। বিএনপি এদেশের আপামর জনতার দল। আর কত পুলিশ প্রশাসনের উপর ভর করে থাকবেন, দ্রুত পদত্যাগ করে জনগণকে রেহায় দিন।বিএনপি এখন নির্বাচনের কথা ভাবছেনা, বিএনপি চায় এই অবৈধ সরকারের পতন। কারন উন্নয়নের কথা বলে যে ভাবে লুটপাট করে দেশকে পঙ্গু করেছেন তার হিসাব এই জনগণকে দিতে হবে এবং আদায় করে নিবে। এই সরকার জনগণের না, এই সরকার আমলাদের।এজন্যই তো আমলারাও বিদেশের মাটিতে বাড়ি গাড়ি কিনে রেখেছেন। দ্রুত দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে বিদেশে  চিকিৎসার  ব্যবস্থা করুন। শেষে অসুস্থ বেগম জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। এসময় উপজেলা ও পৌরসভার বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আরও খবর

তানোরে যানজটে নাকাল জনজীবন

বুধবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩

পত্নীতলায় অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত

বুধবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩




নির্বাচন কমিশন অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে বদ্ধপরিকর: সিইসি

প্রকাশিত:বুধবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১২৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:নির্বাচন কমিশনান (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন আসন্ন। এতে রাজনৈতিক দল, ভোটার, গণমাধ্যম, প্রবাসী বাংলাদেশিরা সবাই তাকিয়ে আছেন। কূটনৈতিক মহলেও ব্যাপক আগ্রহী। নির্বাচন কমিশন অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে বদ্ধপরিকর।

নির্বাচন কমিশনের (ইসি) ‘দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন: প্রত্যাশা ও বাস্তবতা’ শীর্ষক আলোচনা ও পর্যালোচনা অনুষ্ঠান শুরু হয়েছে। বুধবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সকালে নির্বাচন ভবনের সম্মেলন কক্ষে এ আলোচনা শুরু হলে তিনি এ কথা বলেন।

এ আলোচনায় সভাপতিত্ব করছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করছেন নির্বাচন কমিশনার আহসান হাবিব খান।

শুরুতে সিইসি বলেন, বর্তমানে রাজনৈতিক দলগুলো বিভক্ত। তারা একে অপরকে দেখতে পারে না। তবে আমরা এ আলোচনায় না গিয়ে আমরা সামনের দিকে তাকাতে চাচ্ছি। আপনাদের মাধ্যমে জনগণের প্রত্যাশা জানতে পারলে ঋদ্ধ হব। আলোচনা কাজে আসুক, এ প্রত্যাশা আমাদের। আজকের আলোচনার মধ্য দিয়ে আমরা উপকৃত হব বলে প্রত্যাশা করি।


আরও খবর



স্বাধীনতার ৫২ বছরেও নির্মাণ হয়নি ফুলবাড়ী বাইপাস সড়ক

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৯ আগস্ট ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১২৭জন দেখেছেন

Image

আফজাল হোসেন, ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি:দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে স্বাধীনতার ৫২ বছর পেরিয়ে গেলেও নিমার্ণ হয়নি ফুলবাড়ী শহরে বাইপাস সড়ক। গত ৫ বছরে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত প্রায় শতাধিক ও আহত প্রায় দুই শতাধিক। ফুলবাড়ী শহরের ভিতর দিয়ে একই রাস্তায় আন্তজেলা ও দূরপাল্লার যানবাহন চলাচল করায় বাড়ছে যানযট ও সড়ক দূর্ঘটনা। এদিকে ফুলবাড়ী শহরের মাঝ দিয়ে দিনাজপুর গোবিন্দগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়ক হওয়ায় একই রাস্তা দিয়ে চলাচল করে ভারি যানযাহন। এই সেই সাথে ছোট যানবাহনগুলি বেপরোয়া ভাবে চলাচল করছে। স্কুল কলেজে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীরা রাস্তা পারাপার হতে গিয়ে অনেকে দূর্ঘটনায় আহত ও নিহত হচ্ছে। এত উৎকষ্ঠায় দিন কাটে অভিভাবকদের। ফুলবাড়ী পৌর শহরের বাহিরে বাইপাস না থাকায় দিনাজপুর গোবিন্দগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কটি ফুলবাড়ী পৌর শহরের মাঝ দিয়ে রয়েছে। এই রাস্তা দিয়ে দিনাজপুর, ঠাকুরগাও ও পঞ্চগড় জেলা থেকে এবং নীলফামারী সৈয়দপুর ও পার্বতীপুর হয়ে ফুলবাড়ী হয়ে ঢাকা মূখী চলাচল করছে। এছাড়া ঢাকা, রাজশাহী, বগুড়া ও গাইবান্ধ থেকে ছেড়ে আসা যানবাহনগুলি ও চলছে এ সড়ক দিয়ে। সেই সাথে পৌর শহরে রিকশা- ভ্যান, অটোরিক্সা, সিএনজি, ছোট বড় শত শত যানবাহন চলাচলা করে এই রাস্তা দিয়ে। এই আঞ্চলিক মহাসড়টির কোন বাইপাস সড়ক নেই। এর পাশ দিয়ে ফুলবাড়ী সরকারী কলেজ, ফুলবাড়ী মহিলা ডিগ্রী কলেজ, ফুলবাড়ী শহীদ স্মৃতি আদর্শ কলেজ, দারুসুন্নাহ ফাজিল মাদ্ধসঢ়;রাসা, ফুলবাড়ী জিএম পাইল উচ্চ বিদ্যালয়, ফুলবাড়ী বালিকা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় সহ একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এছাড়াও রয়েছে ফুলবাড়ী উপজেলা

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তার কার্যালয় ফুলবাড়ী সাব রেজিষ্ট্রার অফিস, ফুলবাড়ী পৌরসভা, ফুলবাড়ী থানা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের কার্যালয় ফুলবাড়ী, ফুলবাড়ী ফায়ার সার্ভিস স্টেশন, মাইকোয়েভ স্টেশন (টিএনটি) সহ বেশ কিছু সরকারি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। যার ফলে প্রতিদিন এ রাস্তা দিয়ে হাজার হাজার যানবাহনের পাশাপাশি শত শত পথচারী ও শিক্ষার্থীরা এ রাস্তা দিয়ে চলাচল করতে থাকে। এ রাস্তাটি সর্বদায় ব্যস্ত থাকলেও রাস্তার উভয় পাশ্বে রাস্তার জায়গা দখল করে গড়ে উঠেছে দোকান পাট, হোটেল রেস্তোরা সহ ছোট বড় একাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। এই কারণে প্রতিদিনে ফুলবাড়ী পৌর শহরের ঢাকামোড়, নিমতলামোড়, উর্বসী সিনেমাহল মোড়, ছোট যমুনা ব্রীজের বড়তলী মোড়, হাসপাতাল মোড় সহ বিভিন্ন এলাকায় যানযট লেগে থাকে। এতে প্রতিদিন ঘটছে ছোট বড় সহ সড়ক দূর্ঘটনা। এক সময় ফুলবাড়ীতে ট্রাফিক পুলিশ থাকলেও গত ২০ বছরে কোন ট্রাফিক পুলিশ নেই। ঢাক মোড়ে , নিমতলা মোড়ে ও ফুলবাড়ী সরকারি কলেজ মোড়ে তিনটি ওভার ব্রীজ নির্মাণ করা অতি প্রয়োজন। কিন্তু কে করবে? যাদেরকে দিয়ে ফুলবাড়ীর উন্নয়ন হওয়ার কথা তারা সুধু নিজের আখের গোছানো ছাড়া তাদের আর কোন চিন্তা নাই। শ্বশান ঘাটিতে কোটি টাকা ব্যয়ে এলজিইডি থেকে নির্মাণ করা হয়েছে ব্রীজ। সেই ব্রীজটি দিয়ে স্থানীয় লোকজন ছাড়া অন্য কেউ পারাপার হয় না। ফুলবাড়ী উপজেলা একটি মডেল উপজেলা। এই উপজেলাকে সাব-ডিভিশন জেলা হিসাবে বাস্তবায়ন করার প্রস্তুতি চলছিল কালের আবর্তনে রাজনৈতক পট পরিবর্তনের কারণে আর ফুলবাড়ীকে জেলা রুপান্তিরিক করা হয় নি। বর্তমান সরকারের আমলে ফুলবাড়ীতে তেমন কোন উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। ফুলবাড়ী ২৫০ বছরের ঐহিত্যবাহী উপজেলা। এই উপজেলায় তেভাগা আন্দোলন থেকে এবং বর্তমান রাজনৈতিক মাঠ থেকে অনেক নেতার জন্ম হলেও সবাই ফুলবাড়ীর উন্নয়নের কথা বললেও তেমন কোন উন্নয়ন ঘটেনি এই উত্তর অঞ্চলের জনপথ ফুলবাড়ী উপজেলার। ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধের ৭নং সেক্টরের জুনিয়ার কমান্ডিং অফিসার ও সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব মনছুর আলী সরকার ফুলবাড়ীর উন্নয়নে বেশ কিছু অবদান রেখেছেন। তিনি যা করেছেন তাই বর্তমানেও রয়েছে। এ ছাড়া নতুন করে তেমন কোন উন্নয়নে ভূমিকা রাখেনি কেউ।


আরও খবর



বাংলাদেশে বিদেশি হস্তক্ষেপ নিয়ে যে জবাব দিলো চীন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১০০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বাংলাদেশের সার্বভৌমত্ব, স্বাধীনতা, আঞ্চলিক অখণ্ডতা রক্ষা ও এখানকার অভ্যন্তরীণ বিষয়ে বিদেশি হস্তক্ষেপের বিরোধিতার ক্ষেত্রে চীন সমর্থন দেবে।

সোমবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাতে গণপ্রজাতন্ত্রী চীনের ৭৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকায় একটি হোটেলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ঢাকায় নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন এ কথা বলেন। 

রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘বাংলাদেশে অভ্যন্তরীণ ঐক্য ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখা ও উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার ক্ষেত্রে সহযোগিতা হিসেবে চীন এমন সমর্থন দেবে।

সকল দেশকে অন্যকে পুরোপুরি বঞ্চিত করে একপক্ষ সব নিয়ে নেওয়ার মানসিকতা ত্যাগ করা করতে হবে বলে জানান তিনি।

একটি উন্মুক্ত, অন্তর্ভুক্তিমূলক ও পরিচ্ছন্ন বিশ্ব গড়ে তুলতে ঐক্যবদ্ধ হওয়া ও একে অপরকে সহযোগিতার ওপর জোর দেন রাষ্ট্রদূত। এতে স্থায়ী শান্তি, সর্বজনীন নিরাপত্তা ও অভিন্ন সমৃদ্ধি বজায় থাকবে বলে ইয়াও মনে করেন।

২০১৬ সালে ঢাকায় প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ও ২০১৯ সালে বেইজিংয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফর এবং গত আগস্টে দক্ষিণ আফ্রিকায় দুই নেতার বৈঠকের উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘সর্বোচ্চ পর্যায়ের এমন সফর ও বৈঠকের ফলে দুই রাষ্ট্রের মধ্যে সম্পর্ক আগের চেয়ে গভীর হয়েছে।’

দুই দেশই দীর্ঘদিন ধরে নিজ নিজ মূল স্বার্থ ও উদ্বেগের বিষয়ে একে অপরকে সমর্থন দিয়ে আসছে বলে রাষ্ট্রদূত উল্লেখ করেন।


আরও খবর



ব্রাউন ইউনিভার্সিটির বিশেষ সম্মাননা পেলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০23 | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ৮০জন দেখেছেন

Image

খবর প্রতিদিন ২৪ডেস্ক :প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বিশেষ সম্মাননা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ব্রাউন ইউনিভার্সিটি মেডিকেল স্কুল। জনগণের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে কমিউনিটি ক্লিনিক মডেল তৈরির জন্য জাতিসংঘ স্বীকৃতির পরিপ্রেক্ষিতে তাকে এই বিশেষ সম্মাননা দেওয়া হয়।

ব্রাউন ইউনিভার্সিটির স্বাস্থ্যবিষয়ক সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং ওয়ারেন অ্যালপার্ট মেডিকেল স্কুলের মেডিসিন অ্যান্ড বায়োলজিক্যাল সায়েন্সের ডিন ডা. মুকেশ কে জৈন এখানে প্রধানমন্ত্রীর কাছে তার অবস্থানস্থল দি লোটে নিউইয়র্ক হোটেলে প্রশংসাপত্রটি হস্তান্তর করেন।

প্রধানমন্ত্রীর ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি মো. নূরে এলাহি মিনা এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে বলেন, ব্রাউনের ওয়ারেন অ্যালপার্ট মেডিকেল স্কুল কমিউনিটি ক্লিনিক মডেলের উদ্যোগ নেওয়ার জন্য জাতিসংঘ কর্তৃক প্রধানমন্ত্রীকে তার স্বীকৃতির জন্য বিশেষ সম্মাননা দিয়েছে।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে প্রদত্ত প্রশংসাপত্রে বলা হয়েছে, জাতিসংঘ কর্তৃক ‘শেখ হাসিনা উদ্যোগ’-এর সাম্প্রতিক স্বীকৃতির জন্য গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন।

এতে আরও বলা হয়, কমিউনিটিভিত্তিক প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরিচর্যার একটি সফল মডেল: প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা, নারীর ক্ষমতায়ন, এবং কমিউনিটি সম্পৃক্ততা উন্নয়নের মাধ্যমে সর্বজনীন স্বাস্থ্য পরিধির জন্য একটি অংশগ্রহণমূলক এবং অন্তর্ভুক্তিমূলক পদ্ধতি।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের সময়, ড. জৈন জনস্বাস্থ্য ও গবেষণার ক্ষেত্রে জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা বিনিময়ের একটি সম্ভাব্য প্লাটফর্ম হিসেবে বাংলাদেশ-ব্রাউন বায়োমেডিকেল রিসার্চ অ্যান্ড এডুকেশন ইনিশিয়েটিভ সম্পর্কে আলোচনা করেন।

প্রধানমন্ত্রী এই উদ্যোগের প্রশংসা করেন এবং এর প্রতি তার সমর্থন ব্যক্ত করেন। প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে চিকিৎসা ও ক্লিনিক্যাল গবেষণার উন্নয়নের ওপর জোর দেন।

তিনি বলেন, আমরা সবসময় গবেষণাকে গুরুত্ব দিচ্ছি। এটি চিকিৎসা বিজ্ঞানের গবেষণায় দারুণ ভূমিকা রাখতে পারে।

ব্রাউন ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায় সার্ভিক্যাল ক্যান্সারের পরীক্ষা করছে।ড. জৈন আরও বলেন, তারা ক্লিনিক থেকে স্বাস্থ্যসেবা গ্রহণকারী রোগীদের রেকর্ড রাখার জন্য বিভিন্ন কমিউনিটি ক্লিনিককে ইলেকট্রনিক ডেটা ম্যানেজমেন্ট চালু করতে বাংলাদেশকে সাহায্য করতে পারে। ব্রাউন ইউনিভার্সিটি গবেষণা ও শিক্ষা ক্ষেত্রে বাংলাদেশের সঙ্গে একটি অংশীদারিত্ব গড়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে।

এ লক্ষ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষরের ইচ্ছাও প্রকাশ করেছে প্রতিষ্ঠানটি।


আরও খবর