Logo
আজঃ Wednesday ২৫ May ২০২২
শিরোনাম

পুলিশে ও প্রাইমারী স্কুলে চাকুরী দেওয়ার কথা বলে সাড়ে ১১লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করেছে প্রতারক লিটন

প্রকাশিত:Tuesday ২৫ January ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ২০৫জন দেখেছেন
Image

পর্ব-৬

মোঃ আব্দুল হান্নান,নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া),

প্রতারনার মামলায় এক বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামী র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার হওয়া নাসিরনগর সদরের মৃত আব্দুল গাফ্ফারের ছেলে প্রতারক লিটন (৩৫), পুলিশে  চাকুরী দেওয়ার নাম করে ৫ লক্ষ লক্ষ টাকা ও প্রাইমারী স্কুলে চাকুরী দেওয়ার কথা বলে ৩ লক্ষ টাকা  দুইজনের নিকট থেকে  ৮ লক্ষ টাকা । তাছাড়াও দাঁতমন্ডল গ্রামের চাঁন মিয়ার নিকট থেকে ২ লক্ষ টাকা ও প্রতারক লিটনের আপন চাচা নাছির মিয়ার কাছ থেকে দেড় লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করেছে প্রতারক লিটন।


জানা গেছে দাঁতমন্ডল গ্রামের আব্দুল্লাহর মেয়ে রুনা বেগমকে প্রাইমারী স্কুলে সহকারী শিক্ষক পদে চাকুরী দেওয়ার কথা বলে রুনার কাছ থেকে নগদ ৩ লক্ষ টাকা, বুড়িশ্বরগ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলেআমিনুল  ইসলামকে পুলিশে চাকুরী দেওয়ার কথা বলে ৫ লক্ষ টাকা নেয় প্রতারক লিটন। তাদেরকে চাকুরী দিতে না পারায় টাকা ফেরত চাইতে গেলে উল্টো হুমকি দেয় প্রতারক লিটন।


তাছাড়াও দাঁতমন্ডল গ্রামের চাঁন মিয়ার লিটন থেকে ব্যবসায়িক কাজে ব্যবহারের জন্য ননজুডিসিয়াল ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর প্রদান করে ২ লক্ষ টাকা ও লিটনের আপন চাচা  পান সিগারেট ব্যবসায়ী নাছির মিয়ার নিকট দেড় লক্ষ টাকা নিয়ে আত্মসাৎ তরে প্রতারক লিটন। প্রতারক লিটনের প্রতারনার স্বীকার হয়ে এই পরিবারগুলো আজ রাস্তায় বসার উপক্রম হয়েছে বলে জানায় ভূক্তভোগীরা। 



আরও খবর



নাসিরনগরের ১৩ ইউনিয়নে অসহায় ও বৃদ্ধদের মাঝে নাজির মিয়ার ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ

প্রকাশিত:Wednesday ১১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ১৪৪জন দেখেছেন
Image


নাসিরনগর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া,সংবাদদাতাঃ- ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার

নাসিরনগর উপজেলার ১৩ ইউনিয়নের বিভিন্ন অসহায় বয়স্ক ও গরিব-দুঃখী মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করেন বাংলাদেশ কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ নাজির মিয়া ও তার স্ত্রী রোমা আক্তার।


নাজির দম্পত্তি পবিত্র ওমরাহ পালন শেষে দেশে ফিরেই পবিত্র ঈদুল ফিতরের দ্বিতীয় দিন থেকে উপজেলার ১৩ টি ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রাম ও বাজারে গিয়ে ঘুরে ঘুরে" ঈদের খুশীতে ঈদ উপহার বিতরণ করেন করেন এ সব মানুষের মাঝে।এ সময় শুধু নাজির মিয়া নয় তার স্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা,সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান,ও সাবেক উপজলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মরহুম লেঃ অবঃ গোলাম নূরের কন্যা রুমা আক্তার ও গোলামনুরের ছেলে উপজেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ আরমান নূর ও সাথে ছিলেন।


এ সময় তারা স্থানীয় সাংবাদিকদের জানায় আগামী নাসিরনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রথম নারী সভাপতি পদপ্রার্থী রোমা আক্তার। তারা আরো জানন,এ পর্যন্ত নাসিরনগর সদর সহ চাতলপাড় ভলাকুট,গোয়ালনগর, কুন্ডা,গোকর্ণ,বুড়িশ্বর,ফান্দাউক,ধরমন্ডল,চাপরতলা,পূর্বভাগ,গুনিয়াউক হরিপুর ইউনিয়ন সহ বিভিন্ন স্থানে ঈদ উপহার হিসেবে শাড়ি ও লুঙ্গি বিতরন করা হয়েছে।


এই সময় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ নাজির মিয়া গোয়ালনগর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মোঃ কিরণ মিয়া,সদর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান শেখ মোঃ আব্দুল আহাদ, কৃষক লীগ নাসিরনগর উপজেলা শাখার সদস্য  সচিব এস এম নূরে আলম,গোকর্ন ইউনিয়ন ছাত্র লীগের সাবেক সভাপতি এডঃ মিজানুল হক, দৈনিক সময়ের কাগজ প্রতিনিধি নিহারেন্দু চক্রবর্তী, কৃষকলীগ নেতা বাচ্চু তালুকদার,এনায়েত হোসেন, গোলাম মোহাম্মদ তারেক, পারভেজ মোশাররফ,মনির হোসেন,আনোয়ার হোসাইন,সাদ্দাম হোসেন,এস কে সুমন,শেখ সাদী সহ আরো অনেকে।  এ সময় আলহাজ্ব মোঃ নাজির মিয়া ও রোমা আক্তার নাসিরনগরের সর্বস্তরের জনগণের সাথে গণসংযোগ ও ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।



আরও খবর



বাংলাদেশ সরকারি কর্মচারী দাবি বাস্তবায়ন ঐক্য ফোরাম

সরকারি কর্মচারীদের অন্তর্বর্তীকালীন ৫০ শতাংশ মহার্ঘ্য ভাতা দাবি

প্রকাশিত:Sunday ২২ May 20২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ৩৭জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

২০ গ্রেডের পরিবর্তে ১০ গ্রেড (ধাপ) চালু ও অন্তর্বর্তীকালীন ৫০ শতাংশ মহার্ঘ্য ভাতাসহ ৭ দফা দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ সরকারি কর্মচারী দাবি বাস্তবায়ন ঐক্য ফোরাম।  


রোববার (২২ মে) জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি জানানো হয়।


 সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন আহ্বায়ক হেদায়েত হোসেন। তিনি বলেন, পে-স্কেল বাস্তবায়নের আগে অন্তর্বর্তীকালীন কর্মচারীদের জন্য ৫০ শতাংশ মহার্ঘ্য ভাতা দিতে হবে। ১৯৭৩ সালে বঙ্গবন্ধুর ঘোষণা অনুযায়ী ১০ ধাপে বেতন স্কেল নির্ধারণসহ পে-কমিশনে কর্মচারী প্রতিনিধি রাখতে হবে। সচিবালয়ের মতো সব দফতর, অধিদফতরের পদ-পদবি পরিবর্তনসহ এক ও অভিন্ন নিয়োগবিধি প্রণয়ন করতে হবে।  


লিখিত বক্তব্য আরও বলা হয়, আনুতোষিকের হার এক টাকার সমান ৩০০ টাকা নির্ধারণ করতে হবে। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের আপিল বিভাগের রায় বাস্তবায়নসহ সহকারী শিক্ষকদের বেতন নিয়োগ বিধি-২০১৯ এর ভিত্তিতে ১০ম গ্রেডে উন্নীত করতে হবে। চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ বছর ও অবসরের বয়সসীমা ৬২ বছর নির্ধারণ করতে হবে। ৩০ লাখ টাকা গৃহঋণ, ৩০ শতাংশ পোষ্যকোটা চালু ও কর্মচারী কমপ্লেক্স নির্মাণ করতে হবে।


সংগঠনের মূখ্য সমন্বয়ক ওয়ারেছ আলী বলেন, বাজারমূল্যের ঊর্ধ্বগতি ও জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধির সঙ্গে সমন্বয়ের মাধ্যমে সব ভাতা পুনর্নির্ধারণ করতে হবে।  


সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির সমন্বয়ক লুৎফর রহমান বলেন, বৈষম্য নিরসন না করে পুনরায় বৈষম্যের বেড়াজাল তৈরি করা হচ্ছে। যা কোনোভাবে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশে প্রত্যাশিত নয়।  


তিনি আরও বলেন, সচিবালয়ের বাইরে সকল দফতর ও অধিদফতরের কর্মচারীদের পদনাম পরিবর্তন ও ১০ম গ্রেডে উন্নীত করা না হলে চরম বৈষম্য সৃষ্টি করা হবে। যা সাধারণ কর্মচারীরা কখনো মেনে নেবেন না। ১১ থেকে ২০ গ্রেডের এই বঞ্চিত লাখ লাখ কর্মচারীদের বাদ দিয়ে দেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করা সম্ভব নয়। বিষয়টির বিভিন্নভাবে সরকারের উচ্চ মহলের জানানো হয়েছে।  


সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি (তোতা-গাজী), বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি (কাশেম-শাহীন), ১১-২০ সরকারি চাকরিজীবীদের সম্মিলিত অধিকার আদায় ফোরাম, বাংলাদেশ ১৬-২০ গ্রেড সরকারি কর্মচারী সমিতি, বাংলাদেশ সরকারি কর্মচারী উন্নয়ন পরিষদ, বাংলাদেশ প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক সমাজ, বাংলাদেশ তৃতীয় শ্রেণি সরকারি কর্মচারী সমিতি, বাংলাদেশ বিচার বিভাগীয় কর্মচারী অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী কল্যাণ পরিষদ, বাংলাদেশ জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতর কর্মচারী কল্যাণ সমিতি, বাংলাদেশ সরকারি কর্মচারী কল্যাণ ফেডারেশনসহ বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



টাঙ্গাইলে জমিজমা বিরোধকে কেন্দ্র করে ভাইয়ের হাতে ভাই খুন

প্রকাশিত:Monday ০৯ May ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২২ May 20২২ | ৮১জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে জমিজমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে সৎ ভাই সুমন মিয়াকে (২৫) হত্যা করেছেন আতোয়ার মিয়া (৫৫) নামে এক ব্যক্তি।


সোমবার (৯ মে) নাগরপুর উপজেলার মোকনা ইউনিয়নের ডাকাতিপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।


নিহত সুমন ও অভিযুক্ত আতোয়ার ওই গ্রামের কলিম উদ্দিনের সন্তান।  


নাগরপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মাসুদ ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে সকালে ছোট ভাই সুমনকে ফলা দিয়ে আঘাত করেন বড় ভাই আতোয়ার মিয়া।


এতে গুরুতর আহত হন সুমন। এ অবস্থায় তাকে মির্জাপুর কুমুদিনী হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।


আরও খবর



বিদ্যুতায়িত হয়ে দুজনের মৃত্যু

চলন্ত ভ্যানে বিদ্যুতের তার ছিড়ে চালকসহ দুইজনের মৃত্যু

প্রকাশিত:Saturday ২১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৬২জন দেখেছেন
Image

ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ


ময়মনসিংহে চলন্ত ভ্যানগাড়িতে বিদ্যুতের তার ছিড়ে পড়ে চালকসহ দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।শনিবার (২১ মে) সকাল ৭টার দিকে মহানগরীর ৩২ নম্বর ওয়ার্ডের চাইনামোড় এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।


নিহতদের একজনের নাম মিন্টু মিয়া (৩৫)। তিনি নগরের পিতাচর ঈশ্বরদিয়া এলাকার হারুন-অর-রশিদের ছেলে। অপরজনের পরিচয় এখনো জানা যায়নি।


ময়মনসিংহ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আতিকুর রহমান জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


তিনি বলেন, ভ্যানগাড়ির চালক একজন যাত্রী নিয়ে চাইনামোড় এলাকা দিয়ে যাচ্ছিলেন। ওই সময় বিদ্যুতের তার ছিড়ে গাড়িটি উল্টে মিন্টু মিয়া তারে জড়িয়ে ছটফট করতে থাকেন। এসময় ভ্যানচালক মিন্টুকে বাঁচাতে গিয়ে তিনিও বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে যান। এতে ঘটনাস্থলেই তারা মারা যান।


ফায়ার সার্ভিসের এ কর্মকর্তা আরও বলেন, পরে স্থানীয়রা ফায়ার স্টেশনে খবর দিলে ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ঘটনাস্থলে পুলিশ কাজ করছে বলেও জানান তিনি।


আরও খবর



অটোরিকশায় করে বাড়ি ফেরার পথে

বউ ছিনতাইয়ের চেষ্টায় আটক ২

প্রকাশিত:Sunday ২২ May 20২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ৫৪জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

জামালপুর জেলার বকশীগঞ্জ উপজেলায় সাবেক বউকে ছিনতাইয়ের চেষ্টার অভিযোগে দুই ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করেছে এলাকাবাসী। এ ঘটনায় ওই সাবেক স্বামীসহ আরও দুইজন পালিয়ে যায়।



 শনিবার (২১ মে) বিকেলে কামালপুর ইউনিয়নের মাঝগেদরা বটতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে একটি সাদা প্রাইভেটকার ও দুইজনকে আটক করে স্থানীয়রা। পরে তাদের স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদে আটকে রাখা হয়।


স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার বগারচর ইউনিয়নের গলাকাটি গ্রামের হামেজ উদ্দিনের ছেলে আব্দুল মান্নানের সঙ্গে প্রায় ৩ বছর আগে ধানুয়া কামালপুর ইউনিয়নের নয়াপাড়া এলাকার বাসিন্দা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসান জুবায়ের হিটলারের মেয়ে আয়শা জুবাইদা শশীর বিয়ে হয়৷


 বিয়ের পর থেকেই স্ত্রী শশীকে নানাভাবে নির্যাতন করে আসছিলেন মান্নান। দিনদিন নির্যাতনের মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় গত ৬/৭ মাস আগে স্ত্রী আয়শা জুবাইদা শশী স্বেচ্ছায় মান্নানকে তালাক দেন।


শনিবার সকাল থেকেই মাঝগেদরা এলাকায় সহযোগীদের নিয়ে ওত পেতে থাকেন মান্নান। সাবেক স্ত্রী শশী বকশীগঞ্জ খা‌তেমুন মঈন মহিলা ডিগ্রি কলেজ থেকে অটোরিকশায় করে বাড়ি ফেরার পথে মাঝগেদরা এলাকায় তার গতিরোধ করেন মান্নান। 


একপর্যায়ে মান্নান তার সহযোগী পৌর শহরের মাঝপাড়া গ্রামের আকতার হোসেনের ছেলে মজনু মিয়া ও মাঝগেদরা এলাকার জহুরুল হকের ছেলে মোস্তাইন তাকে জোরপূর্বক মাইক্রোবাসে তোলে।  স্থানীয়রা ‌বিষয়‌টি বুঝ‌তে পে‌রে তা‌দের আটক ক‌রেন। এ সময় সাবেক স্বামী মান্নান পালিয়ে গেলেও তার দুই সহযোগী মজনু ও মোস্তাইনকে আটক করা হয়। পরে খবর পেয়ে বকশীগঞ্জ থানা পুলিশ তাদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়৷


বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তরিকুল ইসলাম তালুকদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আরও খবর