Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

পরকীয়া লুকাতে নারী নাকি পুরুষ এগিয়ে? জানালো গবেষণা

প্রকাশিত:Friday ১৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৬১জন দেখেছেন
Image

কে বেশি প্রতারণা করে, নারী নাকি পুরুষ? এই প্রশ্ন অনেকেই একে অন্য জিজ্ঞাসা করেন! এর উত্তরে অনেকেই জানান, পুরুষদের প্রতারণার প্রবণতা নারীদের চেয়ে বেশি।

২০১৮ সালের এক সামাজিক জরিপ দ্বারা সংগৃহীত তথ্য অনুসারে, প্রায় ২০ শতাংশ বিবাহিত পুরুষ ও ১৩ শতাংশ বিবাহিত নারী সঙ্গীকে ছেড়ে অন্য কারও সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়েছেন।

এই সমীক্ষার তথ্য অনুসারে, পরকীয়ায় জড়ানো পুরুষের সংখ্যা নারীর চেয়ে বেশি হলেও বিষয়টি লুকাতে কারা বেশি পারদর্শী তা কি জানেন?

রয়্যাল সোসাইটি ওপেন সায়েন্স জার্নালের এক নতুন গবেষণা জানাচ্ছে, পুরুষের চেয়ে পরকীয়া লুকাতে নারীরা বেশি পারদর্শী। ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা ১০১ ককেশীয় পুরুষ ও ৪৪ জন নারীর ছবি সংগ্রহ করেছেন।

যারা গবেষকদের কাছে প্রকাশ করেছেন যে, অতীতে তারা সঙ্গীর সঙ্গীর সঙ্গে প্রতারণা করেছেন ও পরকীয়ায় লিপ্ত হয়েছেন। তবে প্রতারণা করেছেন এমন পুরুষ সঙ্গীর কাছে ধরা পড়লেও নারীদের ক্ষেত্রে ঘটেছে উল্টোটি। তারা কোনো না কোনাভাবে ঠিকই পরকীয়ার বিষয়টি লুকিয়ে গিয়েছেন।

গবেষকরা প্রতিটি ছবিকে বিশ্লেষণ করতে ১৫০০ শ্বেতাঙ্গ প্রাপ্তবয়স্কদের উপর আরও এক সমীক্ষা চালান। যেখানে পরকিয়ায় লিপ্ত ওইসব নারী-পুরুষের ছবি দেখিয়ে তাদের সম্পর্কে ভবিষ্যৎবাণী করতে বলেন।

বিশেষজ্ঞরা দেখেন, যে পুরুষ ও নারী উভয়ই একজন পুরুষের চরিত্র কতটা ভালো বা খারাপ কিংবা তিনি পরকীয়ায় লিপ্ত কি না তা মুখ দেখে অনুমান করা গেলেও কেউই একজন নারীর পরকিয়া ধরতে পারেননি।

ম্যানহাটন-ভিত্তিক মনোচিকিৎসক ডা. কেনেথ রোজেনবার্গ এ বিষয়ে জানান, ২০ শতাংশ পুরুষই প্রতারণা করেন। তবে এই সংখ্যা গত ২০ বা তার বেশি বছর ধরে স্থিতিশীল আছে।

অন্যদিকে নারীদের ক্ষেত্রে এটি ১৫ শতাংশ হলেও এই সংখ্যা গত ২০ বছরে ৫০ শতাংশ বেড়েছে। তিনি আরও সতর্ক করেছেন যে, ৩৫ বছরের কম বয়সী নারীদের মধ্যে সম্পর্কে লুকোচুরির প্রবণতা বেশি থাকে।

এ ধরনের গবেষণার উপর ভিত্তি করে বাস্তব খুঁজে বের করা বা কাউকে দায়ী করা মোটেও ঠিক নয়। কারণ এসব গবেষণা সব সময় যে সমাজের সব স্তরের উপর নির্ভর করবে তা কিন্তু নয়!

সূত্র: নিউইয়র্ক পোস্ট


আরও খবর



বাজেটে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের সুযোগ চায় রিহ্যাব

প্রকাশিত:Saturday ১৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৩৮জন দেখেছেন
Image

২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে অপ্রদর্শিত আয় বিনিয়োগের সুযোগ অব্যাহত রাখার দাবি জানিয়েছে রিয়েল এস্টেট অ্যান্ড হাউজিং অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (রিহ্যাব)। একইসঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক ‘হাউজিং লোন’ নামে ২০ হাজার কোটি টাকার রিফাইন্যান্সিং তহবিল গঠনসহ নির্মাণসামগ্রীর মূল্য কমানোর দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।

শনিবার (১৮ জুন) রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে ‘ঘোষিত জাতীয় বাজেট ২০২২-২৩ সম্পর্কিত রিহ্যাবের প্রতিক্রিয়া’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি জানান সংগঠনটির সভাপতি আলমগীর শামসুল আলামিন কাজল।

সংবাদ সম্মেলনে রিহ্যাব সভাপতি বলেন, আমাদের দাবিসমূহ সম্পৃক্ত করা হলে এই খাত সরকারের রাজস্ব আয়ে ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে এবং সাড়ে ৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন ঝুঁকি মুক্ত হবে। কারণ নতুন সম্পদ সৃষ্টি প্রবৃদ্ধিকে সরাসরি ধনাত্মক করে। অন্যথায় এ খাতের সঙ্গে যুক্ত সব ব্যবসায়ী মারাত্মক সমস্যার মুখোমুখি হবেন। সর্বোপরি দেশ অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। এরআগে আবাসন শিল্পের সব সমস্যা সমাধানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পাশে থেকেছেন, নির্দেশনা ও পরামর্শ দিয়েছেন। এই শিল্পের বর্তমান সংকটেও সঙ্গে থাকবেন এমনটাই প্রত্যাশা এই খাতের বিনিয়োগকারীদের।

শামসুল আলামিন বলেন, রিহ্যাবের বাজেট প্রস্তাবনায় আমরা সবচেয়ে গুরুত্ব দিয়েছিলাম স্পষ্টভাবে ব্যাখ্যা দিয়ে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনাপ্রশ্নে বিনিয়োগের সুযোগ অব্যাহত রাখা। ২০২০-২১ অর্থবছরে বিনাপ্রশ্নে বিনিয়োগের সুযোগ থাকায় ২০ হাজার ৬০০ কোটি টাকা অর্থনীতির মূল ধারায় এসেছে। সরকার দুই হাজার কোটি টাকার ওপরে রাজস্ব পেয়েছে। এই টাকা দেশে বিনিয়োগ না হলে তার গন্তব্য কোথায় তা আপনারা নিশ্চয়ই জানেন।

তিনি বলেন, বর্তমানে ডলারের সংকট কেন তৈরি হয়েছে সেটাও আপনারা জানেন। গত বাজেট অনুমোদনের পর অপ্রদর্শিত অর্থের বিনিয়োগ সম্পর্কে স্পষ্টভাবে ব্যাখ্যার অভাবে বিনিয়োগ কম হয়েছে। স্পষ্টভাবে ব্যাখ্যা দিয়ে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনাপ্রশ্নে বিনিয়োগের সুযোগ অব্যাহত থাকলে অর্থনীতিতে একটা ভালো সুফল আসবে।

‘নানা কারণে বর্তমান বৈশ্বিক অর্থনীতি টালমাটাল। আগামীতে বৈশ্বিক অর্থনীতিতে আরও বড় ধাক্কা লাগতে পারে বলে অনেকে আশঙ্কা করছেন। সেটির প্রভাব বাংলাদেশেও পড়বে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ মানি ট্রাফিকিং রোধ করার চেষ্টা করছে। স্ব-স্ব দেশ বৈদেশিক মুদ্রা কীভাবে দেশের ভেতরে রাখা যায় তার ব্যবস্থা করছে। কাজেই আমরা এই অবস্থায় যদি অপ্রদর্শিত অর্থ পাচারের সুযোগ না রেখে মূল ধারার অর্থনীতিতে নিয়ে আসতে পারি তবে সরকারের রাজস্ব আদায়ের পাশাপাশি নতুন কর্মসংস্থান তৈরি হবে এবং আসন্ন সঙ্কট মোকাকিলা করা সহজ হবে।’

রিহ্যাব সভাপতি বলেন, অর্থমন্ত্রী গত ১৫ জুন সরকারি অর্থনৈতিক ক্রয়-সংক্রান্ত মন্ত্রীসভার বৈঠক শেষে বলেছেন, ‘অপ্রদর্শিত অর্থ উৎপাদনের জন্য বিদ্যমান ব্যবস্থাটাই দায়ী’। হঠাৎ করে বা রাতারাতি সিস্টেম পরিবর্তন করা সম্ভব না। আমাদের বক্তব্য হচ্ছে নিবন্ধন ব্যয় ১২ দশমিক ৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ২ থেকে ৩ শতাংশে নিয়ে এসে ধীরে ধীরে সিস্টেম পরিবর্তন করলে তবেই সঠিক মূল্যে রেজিস্ট্রেশন হবে এবং সার্বিক অর্থনীতিতে অপ্রদর্শিত অর্থ বৈধ বলে গণ্য করা যাবে।

ঘোষিত বাজেটে পাচারকৃত টাকা দেশে আনার বিষয়ে আইন করা হয়েছে, এটি সাহসী পদক্ষেপ। কিন্তু দেশ থেকে যাতে টাকা পাচার না হয়, সেদিকেই আমাদের বিশেষ নজর দেওয়া উচিত। বিনা প্রশ্নে উত্তম বিনিয়োগের সুযোগ ২০২০-২১ অর্থ বছরের বাজেটে নির্দেশিত নির্দেশনার আদলে এখন বাস্তব সম্মত ও সময় উপযোগী বলে মন্তব্য করেন শামসুল আলামিন।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন- রিহ্যাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি ইন্তেখাবুল হামিদ, সহ-সভাপতি (প্রথম) কামাল মাহমুদ, সহ-সভাপতি নজরুল ইসলাম দুলাল, লায়ন শরীফ আলী খান, প্রকৌশলী মোহাম্মদ সোহেল রানা প্রমুখ।


আরও খবর



স্কটল্যান্ডকে হারিয়ে বিশ্বকাপের দ্বারপ্রান্তে ইউক্রেন

প্রকাশিত:Thursday ০২ June 2০২2 | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৪১জন দেখেছেন
Image

একে একে মাঠে প্রবেশ করছেন ইউক্রেনের ফুটবলাররা। প্রত্যেকের গায়ে জড়ানো দেশের নীল-হলুদ জাতীয় পতাকা। তাদের দেখে গ্লাসগো হ্যাম্পডেন পার্ক স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে উঠে দাঁড়ালেন স্কটল্যান্ডের সমর্থকেরা। হাততালি দিয়ে স্বাগত জানালেন।

ম্যাচটা বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের প্রি-প্লে অফের। বলা হচ্ছে প্লে-অফ সেমিফাইনালের। কাতার বিশ্বকাপে জায়গা পেতে প্রথমে এই ম্যাচটি জিততে হবে। ইউক্রেনের ফুটবলাররা মাঠে নেমেছিলেন অনেক বড় এক আবেগকে সঙ্গে করে। দেশের মানুষ যখন রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধে ব্যস্ত, তখন তারা হৃদয় জিততে নেমেছেন মাঠে।

ইউক্রেনীয় আবেগের কাছে পরাজিত হলো স্কটল্যান্ড। ৩-১ গোলে স্কটিশদের হারিয়ে বিশ্বকাপের দোরগোড়ায় পৌঁছে গেলো ইউক্রেন। শেষ বাধা হিসেবে তাদের সামনে রয়েছে ওয়েলস। আগামী রোববার কার্ডিফে ওই ম্যাচটি জিততে পারলেই কাতার বিশ্বকাপে নাম লিখে ফেলবে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ ইউক্রেন। যারা বিশ্বকাপে খেলবে গ্রুপ ‘বি’তে ইংল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র এবং ইরানের সঙ্গে।

Ukrain

একই সঙ্গে ইউক্রেনের কাছে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হলো স্কটল্যান্ডের। ২৪ বছর ধরে বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি তারা। যে কারণে হতাশ স্বাগতিক সমর্থকরা। তবুও আবেগে হৃদয় জেতা ইউক্রেন ফুটবলাররা যখন মাঠ ছেড়ে যাচ্ছিল, তখন তাদের উদ্দেশ্যে উঠে দাঁড়িয়ে হাততালি দিলেন তারা।

গত ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়ার হামলার পর থেকে এই প্রথম কোনো অফিসিয়াল ম্যাচ খেলতে নেমেছিল ইউক্রেন। গ্লাসগোর হ্যাম্পডেন পার্ক মাঠের ৫১ হাজার দর্শকের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাত্র তিন হাজার ইউক্রেনীয়। গ্যালারির এক কোনে জায়গা নিয়েছিল তারা। জাতীয় সঙ্গীতের সময় বুকে হাত, চোখে পানি। জাতীয় সঙ্গীত শেষ হওয়ার পরে হাততালি দিল বাকি ৪৮ হাজার দর্শকও। খেলা শেষেও সেই ছবি। তিন হাজার দর্শক যখন মাঠ ছেড়ে বেরোচ্ছেন তখন প্রায় ১০ হাজার তাদের হাততালি দিয়ে শুভেচ্ছা জানাচ্ছিলেন।

এমনই বেশ কিছু টুকরো টুকরো ছবি। এই টুকরো টুকরো ছবিতেই বুধবার রাতে এক অন্য ফুটবল দেখল বিশ্ব। যেখানে একদিকে যুদ্ববিধ্বস্ত ইউক্রেন, তারা খেলেছে, জয় করেছে, সেখানে অন্যদিকে জয়ীকে বরণ করে নেওয়া রয়েছে। গ্লাসগো থেকে বার্তা ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে, মানবতার, বন্ধুত্বের, সহমর্মিতার।

Ukrain

ম্যাচের ৩৩তম মিনিটে আন্দ্রে ইয়ারমোলেঙ্কোর বাম পায়ের গোলে প্রথমে এগিয়ে যায় ইউক্রেন। ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধ শেষ করে ইউক্রেন। দ্বিতীয়ার্ধ শুরু হওয়ার পরপরই দ্বিতীয় গোল করে ইউক্রেন। ৪৯তম মিনিটে গোলটি আসে রোমান ইয়ারেমচুকের হেড থেকে। ওলেক্সান্ডার কারাভায়েভের ক্রস থেকে ভেসে আসে বলটি।

৭৯ মিনিটে স্কটল্যান্ডের হয়ে একটি গোল শোধ করেন কলাম ম্যাকগ্রেগার। বাম পায়ের দুর্দান্ত এক শটে গোলটি করেন তিনি। ম্যাচ শেষ হওয়ার খানিক আগে, ইনজুরি সময়ে বাম পায়ের শটে গোল করে স্কটল্যান্ডের পরাজয়ের কফিনে শেষ পেরেক ঠুকে দেন আর্তেম ডভোবায়েক।


আরও খবর



বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮২, সিলেটেই ৫১

প্রকাশিত:Saturday ২৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৩০জন দেখেছেন
Image

সারাদেশে বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮২ জনে দাঁড়িয়েছে। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন নয়জন। বন্যাকবলিত এলাকায় বন্যাসৃষ্ট দুর্ঘটনা ও বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে এদের মৃত্যু হয়েছে। সবচেয়ে বেশি ৫১ জনের মৃত্যু হয়েছে সিলেট বিভাগে।

শনিবার (২৫ জুন) বিকেলে সারাদেশে বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শুক্রবার পর্যন্ত বন্যাজনিত বিভিন্ন রোগে ৪ হাজার ৬১৬ জন আক্রান্ত থাকলেও শনিবার তা বেড়ে ৫ হাজার ২০২ জনে দাঁড়িয়েছে।

এতে আরও বলা হয়, ১৭ মে থেকে ২৫ জুন দুপুর পর্যন্ত দেশে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৬৬৪ জন। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে একজনের। আরটিআই (চোখের রোগ) রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ১৬৬ জন। এক্ষেত্রে কারও মৃত্যুর খবর নেই।

বন্যার শুরু থেকে এ পর্যন্ত বজ্রপাতে আক্রান্ত হয়েছে ১৫ জন, যাদের মধ্যে ১৪ জনেরই মৃত্যু হয়েছে। সাপের দংশনের শিকার হয়েছেন ছয়জন। তাদের মধ্যে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া পানিতে ডুবে মৃত্যু হয়েছে ৫৬ জনের।

বন্যায় সিলেট বিভাগে ৫১, ময়মনসিংহ বিভাগে ২৭ ও রংপুর বিভাগে চারজনসহ মোট ৮২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

জেলাভিত্তিক মৃত্যুর সংখ্যায় শীর্ষে রয়েছে সুনামগঞ্জ। ১৭ মে থেকে ২৫ জুনের মধ্যে এখানে ২৬ জনের মৃত্যু হয়। সিলেট জেলায় মৃত্যু হয়েছে ১৮ জনের।

অন্যদিকে, নেত্রকোনা ও জামালপুরে মৃত্যু হয়েছে নয়জনের। ময়মনসিংহে প্রাণ হারিয়েছেন পাঁচজন। এছাড়াও শেরপুরে চারজন, কুড়িগ্রামে তিনজন ও লালমনিরহাটে একজন মারা গেছেন।


আরও খবর



যুক্তরাষ্ট্রে তিন শহরে বন্দুক হামলা, নিহত ৯

প্রকাশিত:Monday ০৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৭৩জন দেখেছেন
Image

যুক্তরাষ্ট্রের তিন শহরে বন্দুক হামলায় কমপক্ষে ৯ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও দুই ডজন মানুষ। আল জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

স্থানীয় সময় শনিবার রাতে এবং রোববার সকালের এসব বন্দুক হামলায় উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়েছে। দেশটিতে কোনভাবেই বন্দুক হামলার ঘটনা নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না। সাম্প্রতিক সময়ে এসব হামলার সংখ্যা অনেক বেড়ে গেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, ফিলাডেলফিয়ায় শনিবার রাতে দুই ব্যক্তির মধ্যে বাকবিতণ্ডা থেকে বন্দুক হামলার সূত্রপাত হয়। ওই হামলায় তিনজন নিহত এবং আরও ১২ জন আহত হয়েছে। হামলা থেকে বাঁচতে লোকজন পালানোর চেষ্টা করলে চারদিকে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, টেনেসি অঙ্গরাজ্যের চাট্টানোগার একটি বারের কাছে মধ্যরাতে একই ধরনের আরও একটি হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে তিনজন নিহত এবং আরও ১৪ জন আহত হয়েছে।

অপরদিকে স্থানীয় সময় রোববার সকালে মিশিগানের সাগিনাওয়ে অপর একটি হামলার ঘটনায় তিনজন নিহত এবং আরও দুজন আহত হয়েছে। চলতি বছর যুক্তরাষ্ট্রে কমপক্ষে ২৪০টি বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটেছে।

দেশটিতে উল্লেখযোগ্য হারে বেড়েছে বন্দুক হামলা। প্রায়ই দেশটির কোনো না কোনো অঙ্গরাজ্যে নৃশংস বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটছে। যা থেকে রেহাই পাচ্ছে না শিশুরাও। ২০২১ সালে যুক্তরাষ্ট্রে ৬১টি বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটে। যা আগের বছর অর্থাৎ ২০২০ সালের তুলনায় ৫২ শতাংশ বেশি। এফবিআইয়ের প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ তথ্য পাওয়া গেছে। ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই) জানায়, গত বছর ৩০টি অঙ্গরাজ্যে হামলার ঘটনা ঘটে। এতে প্রাণ হারান ১০৩ জন ও আহত হন ১৪০ জন।

২০২০ সালে ১৯ অঙ্গরাজ্যে ৪০টি বন্দুক হামলা হয়। এতে নিহত হয় ৩৮ জন ও আহত হয় ১২৬ জন। যদিও এসময় করোনার মহামারির কারণে লকডাউনের মতো কঠোর করোনা বিধিনিষেধ জারি ছিল।


আরও খবর



গোপালগঞ্জে ব্যাংক কর্মকর্তা হত্যায় একজনের ফাঁসি, দুজনের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত:Thursday ০৯ June ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৩২জন দেখেছেন
Image

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে ব্যাংক কর্মকর্তা হত্যায় একজনের ফাঁসি ও দুজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিকে এক লাখ টাকা ও যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্তদের ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামির নাম সমিরন দাস।

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) দুপুর ১২টার দিকে জেলার অতিরিক্ত দায়রা জজ মো. আব্বাস উদ্দিন এ রায় দেন। মামলায় ২৫ আসামিকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

মামলার রাষ্ট্রপক্ষের এপিপি মো. শহিদুজ্জামান খান মামলার বরাত দিয়ে বলেন, ২০০৫ সালের ১০ এপ্রিল গভীর রাতে ব্যাংকে প্রবেশ করে আয়ুব হোসেন মোল্লাকে (৫৫) কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করে। এ ঘটনায় ব্যাংকের ব্যবস্থাপক শচীন্দ্র নাথ বালা বাদী হয়ে ২৮ জনকে আসামি করে মামলা করেন।

দীর্ঘ শুনানির পর আজ (বৃহস্পতিবার) আদালত রায় ঘোষণা করেন। সমিরন দাস ছাড়া অপর আসামিরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর