Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ: শেষ ধাপের ফল প্রকাশ

প্রকাশিত:Thursday ১৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৬৬জন দেখেছেন
Image

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষার শেষ ধাপের (তৃতীয়) ফল প্রকাশ করা হয়েছে। এতে ৩২টি জেলায় মোট ৫৭ হাজার ৩৬৮ জনকে মৌখিক পরীক্ষার জন্য বাছাই করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) বিকেলে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে এ ফল প্রকাশ করা হয়।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগে তৃতীয় ও শেষ ধাপের লিখিত পরীক্ষা গত ৩ জুন অনুষ্ঠিত হয়। এ ধাপে জয়পুরহাট, বগুড়া, পাবনা, চুয়াডাঙ্গা, নড়াইল, মেহেরপুর, নারায়ণগঞ্জ, গোপালগঞ্জ, শরীয়তপুর, কক্সবাজার, ঝালকাঠি, সিলেট, ভোলা, বরগুনা, ঠাকুরগাঁও, দিনাজপুর, নীলফামারী, পঞ্চগড় ও সিলেটের সব উপজেলায় পরীক্ষার আয়োজন করা হয়।

এছাড়া আংশিক পরীক্ষা হয়, নওগাঁর আত্রাই, বদলগাছী, ধামুইরহাট, মহাদেবপুর ও মান্দা উপজেলা, নাটোরের নলডাঙ্গা, সদর ও সিংড়া উপজেলা, কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা, দৌলতপুর ও কুমারখালী উপজেলা, ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর, মহেশপুর ও শৈলকূপা উপজেলা, সাতক্ষীরার আশাশুনি, শ্যামনগর ও তালা উপজেলা, বাগেরহাটের সদর, চিতলমারী, ফকিরহাট ও রামপাল উপজেলা, জামালপুরের বকশীগঞ্জ, দেওয়ানগঞ্জ, ইসলামপুর ও সরিষাবাড়ি উপজেলা, রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি ও সদর উপজেলা, পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া, ইন্দুরকানী ও মঠবাড়িয়া উপজেলা, পটুয়াখালীর বাউফল, দশমিনা ও গলাচিপা উপজেলা, সুনামগঞ্জের ছাতক, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ, দিরাই ও ধর্মপাশা উপজেলা, হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জ, বানিয়াচং, বাহুবল ও চুনারুঘাট উপজেলা, কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী, চিলমারী, সদর ও নাগেশ্বরী উপজেলা এবং গাইবান্ধার সদর, গোবিন্দগঞ্জ ও পলাশবাড়ী উপজেলায়।


আরও খবর



শেরপুর সীমান্তে বন্য হাতির মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:Thursday ০২ June 2০২2 | হালনাগাদ:Wednesday ২২ June 20২২ | ৩৯জন দেখেছেন
Image

শেরপুরের ঝিনাইগাতী সীমান্তে একটি বন্য হাতির মরদেহ উদ্ধার করেছে বনবিভাগ। বৃহস্পতিবার (২ জুন) বিকেলে বনবিভাগের লোকজন খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে হাতিটির মরদেহ উদ্ধার করে।

এর আগে বুধবার রাতে হাতিটির মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করছে বনবিভাগ। তবে হাতির মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

স্থানীয়রা জানান, প্রায় ২০ দিন ধরে বন্য হাতির দল ঝিনাইগাতী সীমান্তবর্তী বিভিন্ন পাহাড়ে অবস্থান করছে। পাহাড়ে খাদ্য সংকট থাকায় হাতির দল সন্ধ্যা হলে লোকালয়ে এসে কৃষকদের পাকা ধান, সবজি বাগানসহ নানা ফসল নষ্ট করছিল। তবে কী কারণে এই হাতিটির মৃত্যু হতে পারে সে বিষয়ে তারা কোনো তথ্য দিতে পারেননি।

বনবিভাগের রাংটিয়া রেঞ্জ কর্মকর্তা মকরুল আহমেদ বলেন, শেরপুরের পর্যটনকেন্দ্র গজনী অবকাশের উত্তর-পশ্চিমে বেরবেরী এলাকার ১১০১নং পিলারের কাছে হাতিটির মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে খবর দেয় স্থানীয়রা। ধারণা করা হচ্ছে, হাতিটি গত রাতে মারা গেছে। তবে ময়নাতদন্তের পর বিস্তারিত জানা যাবে।


আরও খবর



সিলেটে ব্যবসায়ী হত্যায় ৪ আসামি গ্রেফতার, একজনের স্বীকারোক্তি

প্রকাশিত:Saturday ১১ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৫৩জন দেখেছেন
Image

সিলেটের মালনীছড়া চা-বাগানে ব্যবসায়ী মনিরুল ইসলাম (৪২) হত্যার ঘটনায় চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারদের একজন শনিবার (১১ জুন) বিকেলে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

গ্রেফতাররা হলেন- সিলেটের গোলাপগঞ্জ থানার গাগুয়া গ্রামের মৃত শফিক মিয়ার ছেলে সোহেল আহমদ ওরফে বাটার সোহেল (৪৫), সিলেট মহানগর পুলিশের এয়ারপোর্ট থানার সাহেবেরবাজার এলাকার বদনছড়া গ্রামের মো. রফিক মিয়ার ছেলে মো. লিমন মিয়া (২০), এয়ারপোর্ট থানার বন্ধন-এফ-১০ এর মৃত হেলাল আহমদের ছেলে সাহেল আহমদ নয়ন (৩৫) ও তার ভাই রিপন আহমদ সেলিম (৩৩)।

৪ জুন দিনগত রাত সাড়ে ৯টার দিকে সিলেট-এয়ারপোর্ট সড়কের মালনীছড়া চা-বাগানের বাংলোর পার্শ্ববর্তী পাকা সড়কের পাশে চা-বাগানের ভেতর থেকে ব্যবসায়ী মনিরুল ইসলামের (৪২) রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মোটরসাইকেলে বাসায় ফেরার পথে মনিরুলকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

এ ঘটনায় ৬ জুন রাতে মনিরুল ইসলামের স্ত্রী হেনা বেগম বাদী হয়ে এয়ারপোর্ট থানায় হত্যা মামলা করেন। হত্যাকাণ্ডের পাঁচ দিনের মাথায় এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে চারজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এর মধ্যে লিমন নামের এক যুবক হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন।

সিলেট মহানগর পুলিশের (এসএমপি) অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া) বিএম আশরাফ উল্যাহ তাহের জাগো নিউজকে বলেন, গ্রেফতার চারজনের মধ্যে একজন লিমন স্বীকারোক্তি দেওয়ায় তাকে আদালত জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দেন। এ ছাড়া বাকি তিনজনকে রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেছে পুলিশ।

তিনি আরও বলেন, তদন্তের স্বার্থে অনেক কিছুই বলা যাচ্ছে না। পূর্ব বিরোধের জের ধরেই এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে।


আরও খবর



দেশ এখন মুক্তিযুদ্ধের ধারায় নেই: সেলিম

প্রকাশিত:Monday ০৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৬২জন দেখেছেন
Image

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সাবেক সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেছেন, দেশ এখন মুক্তিযুদ্ধের ধারায় নেই। বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন দেশ চলবে সমাজতন্ত্রের ধারায়। খন্দকার মোশতাক মুক্তিযুদ্ধের চার মূলনীতি নষ্ট করে দিয়ে গেছেন। জিয়াউর রহমানের সময় এ পথ একেবারে বন্ধ করে যায়। মুক্তিযুদ্ধের ধারায় দেশকে ফিরিয়ে আনতে হবে।

তিনি বলেন, এটা বিএনপি তো পারবেই না, আওয়ামী লীগ দিয়েও হবে না। এজন্য মানুষকে জাগাতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের ধারায় দেশকে ফেরাতে না পারলে দেশ এগোবে না।

সোমবার (৬ জুন) সুনামগঞ্জ সদরে এক সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম।

পৌর শহরের শহীদ মুক্তিযোদ্ধা জগৎজ্যোতি পাবলিক লাইব্রেরি মিলনায়তনে সকালে এ সমাবেশের আয়োজন করে জেলা কমিউনিস্ট পার্টি। এতে বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার লোকজন অংশ নেন।

ডাকসুর সাবেক এ ভিপি বলেন, ‘দেশে এখন বাজার অর্থনীতি চলছে। আটার দাম, চালের দাম, সয়াবিনের দাম বাড়ছে। মানুষের প্রকৃত আয় কমছে। মানুষ দরিদ্র হচ্ছে। সবই নাকি বাজার নিয়ন্ত্রণ করছে। বাজারই যদি সব নিয়ন্ত্রণ করে তাহলে সরকার থেকে কী লাভ? সরকারে চলে গেলেই হয়।’

আওয়ামী লীগ নির্বাচন ব্যবস্থাকে ধ্বংস করেছে উল্লেখ করে বীর মুক্তিযোদ্ধা মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, ‘২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচন ছিল একদলীয়। ১৫৪ জন এমপি বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। সরকার গঠন করতে দরকার ১৫১ জন এমপি। সে অনুযায়ী আর ভোট না হলেও সরকার গঠন করতে পারতো আওয়ামী লীগ। তাহলে এটা হলো বিনাভোটের সরকার। এখন দলীয় কর্মীদের ওপর আর আওয়ামী লীগের ভরসা নেই। মধ্যরাতে রাষ্ট্রযন্ত্র ব্যবহার করে ভোট হয়ে যায়।’

সুনামগঞ্জের প্রবীণ রাজনীতিক রমেন্দ্র কুমার দের সভাপতিত্বে ও জেলা সিপিবির সভাপতি এনাম আহমেদের সঞ্চালনায় সমাবেশে প্রবীণ শিক্ষক ধূর্জটি কুমার বসু, সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ পরিমল কান্তি দে, জেলা উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর সভাপতি শীলা রায়, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি রবিউল লেইস, জেলা খেলাঘর আসরের সভাপতি বিজন সেন রায়, সুনামগঞ্জ মুক্তিসংগ্রাম স্মৃতি ট্রাস্টের সাধারণ সম্পাদক সালেহ আহমদ, জেলা গণতান্ত্রিক আইনজীবী সমিতির আহবায়ক রুহুল তুহিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



অসহায় মালয়েশিয়া প্রবাসীদের সেবায় একজন জহির

প্রকাশিত:Tuesday ১৪ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৮৮জন দেখেছেন
Image

প্রবাসে মানুষের ডাকে সাড়া দিয়ে মানবতার পাশে দাঁড়ান জহির। অসহায় প্রবাসীদের সেবাই যেন তার ধ্যানজ্ঞান। সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে ছুটে যাচ্ছেন প্রবাসীদের কাছে। ‘মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য’ এই বিখ্যাত উক্তিটি যেন মিলে যায় জহিরুল ইসলাম জহিরের সঙ্গে।

বৈশ্বিক করোনা মহামারি সময় সৃষ্ট সমস্যা মোকাবিলায় প্রবাসী জনহিতৈষীদের পাশাপশি অসহায় মানুষের পাশে থেকে রাত-বিরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন জহির। দিয়েছেন খাদ্য সহায়তা। করোনা মহামারি সময়ে কেউ ঘর থেকে বের হতে পারেনি। কিন্তু জহির যেখানেই শুনেছেন প্রবাসী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, (হাসপাতালে) সেখানেই ছুটে গেছেন।

jagonews24একজন অসুস্থ প্রবাসীকে হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছেন জহিরুল

যারা মৃত্যুবরণ করেছেন, তাদের আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে সেবক হয়ে হাসপাতাল ,দূতাবাস ও বিভিন্ন কবরস্থান পর্যন্ত ছোটাছুটি করেছেন। অসুস্থ রোগী, মরদেহ দাফন ও দেশে পাঠানোসহ প্রায় ৩০০ এর বেশি প্রবাসীকে সহযোগিতা করেছেন। এ মানবিক কাজে কুয়ালালামপুর হাসপাতালসহ একাধিক হাসপাতালের স্বেচ্ছাসেবিরা জহিরকে এক নামে চেনেন।

শরীয়তপুরের সখিপুর থানার চরভাগা ঢালী কান্দির মৃত হারুন অর রশিদ বেপারীর ছেলে মো. জহিরুল ইসলাম জহির (৪২), ২০০৫ সালে স্টুডেন্ট ভিসায় পাড়ি জমান মালয়েশিয়ায়। লেখাপড়ার পাশাপাশি তখন ব্যবসায়ও জড়িয়ে পড়েন। ব্যস্ততার মধ্যেও ২০০৭ সাল থেকেই অসহায় প্রবাসীদের সহায়তায় এগিয়ে আসেন।

jagonews24একজন অসুস্থ প্রবাসীর সঙ্গে কথা বলছেন জহিরুল ইসলাম জহির

শনিবার (১১ জুন) কথা হলে জহির বলেন, ঢাকাতে থাকাকালীন যখন কলেজে ভর্তি হলাম তখন থেকেই বিভিন্নভাবে সামাজিক কাজে এগিয়ে যেতাম। ২০০৫ সালে যখন মালয়েশিয়া আসি তখন থেকে প্রবাসে সাধারণ লোকজনের অসহায়ত্ব দেখে যেভাবেই হোক তাদের পাশে দাঁড়াতাম।

তবে ২০০৭ সালের কলিং ভিসায় হাজার হাজার বাংলাদেশি কর্মী অনাহারে, অর্ধাহারে রাস্তায় শুয়ে থাকতো তখন থেকেই আরো বেশি মানবসেবায় এগিয়ে যাই। তখন আমি ছাত্রলীগ করতাম। বর্তমানে মালয়েশিয়া যুবলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য।

জহির বলেন, বর্তমান সময়ে বেশিরভাগ মানুষ রাজনৈতিক নেতাদের বিভিন্নভাবে খারাপ মন্তব্য করে থাকেন। তার মতে রাজনীতি করতে হলে সত্যিকারের জনসেবা করতে হয়।

jagonews24এক অসুস্থ প্রবাসীকে দেশে পাঠাতে সহযোগিতা করছেন জহিরুল

তবে রাজনৈতিক নেতাদের উচিত সাধারণ মানুষের ভালোবাসা পেতে হলে সততার দিক থেকে মানবতার কাজে এগিয়ে যাওয়ার কথা ব্যক্ত করে জহিরুল ইসলাম জহির বলেন, সত্যি কথা বলতে গেলে সামাজিক কাজগুলো এখন আমার নেশায় পরিণত হয়ে গেছে।

একজন অসহায় মানুষের উপকার করতে পারলে নিজের আত্মায় শান্তি লাগে। মানবিক কাজে নেমে অনেক ধরনের অভিজ্ঞতা হয়েছে। মালয়েশিয়াতে থাকেন প্রবাসী বাংলাদেশের এমন কোনো জেলায় নেই একজন লোকের পাশে আমি দাঁড়াইনি।

jagonews24করোনায় মুত্যুবরণকারী একজন প্রবাসীর দাফন সম্পন্ন করতে হাইকমিশনের ছাড়পত্র হাতে জহিরুল ইসলাম জহির

শত শত পরিবারের লোকজন বাংলাদেশ থেকে ফোন করে এক নজর আমাকে দেখতে চায় তখন মনে মনের আত্মতৃপ্তি পাই, এটাই আমার জীবনের স্বার্থকতা। যখন ফোন করে লোকজন বলেন, বাবা, ভাই আমি তাহাজ্জুদ ও ফজর নামাজ পড়ে তোমার ও তোমার পরিবারের জন্য দোয়া করেছেন তখন মনে হয় আল্লাহকে রাজি খুশি করার জন্য ভালো একটা কিছু করতে পেরেছি।

জহির বলেন, যেখানেই থাকি মৃত্যুর আগ পর্যন্ত মানবতার কাজে যেন নিয়োজিত থাকতে পারি।


আরও খবর



রাজধানীতে খেলা দেখার সময় বজ্রপাতে কিশোরের মৃত্যু

প্রকাশিত:Friday ০৩ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৭৪জন দেখেছেন
Image

রাজধানীর দক্ষিণখান এলাকায় মাঠে খেলা দেখার সময় বজ্রপাতে মো. রাহাত আহমেদ বাঁধন (১৮) নামের এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২ জুন) বিকেল সাড়ে ৫ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত সোয়া ৮টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত রাহাতের ভাই রাকিব হাসান বলেন, বাঁধন উত্তরা কমার্স কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। বিকেলের দিকে বিমানবন্দরের কাওলা দক্ষিণখান মধ্যপাড়া এলাকার একটি মাঠে বসে খেলা দেখছিল। এসময় হঠাৎ বজ্রপাত হয়। এতে অচেতন হয়ে মাঠের পাশে পড়ে যায় বাঁধন। পরে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়। রাত সোয়া ৮টার দিকে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও জানান, তারা কুমিল্লা জেলার নাঙ্গলকোট থানার বামন ভুঁইয়া গ্রামের বাসিন্দা। তাদের বাবার নাম নুরুন্নবী। কাওলা দক্ষিণখান মধ্যপাড়া এলাকায় সপরিবার থাকতেন তারা।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানায় জানানো হয়েছে।


আরও খবর