Logo
আজঃ শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪
শিরোনাম
কক্সবাজারে পাহাড় ধসে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু বন্ধ শিল্প প্রতিষ্ঠান চালুর পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে: শিল্পমন্ত্রী বাংলাদেশের হার দিয়ে সুপার এইট শুরু গোদাগাড়ীতে রাসেল ভাইপারের চিকিৎসার দাবিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রীর কাছে চিঠি দিয়েছে নাগরিক স্বার্থ-সংরক্ষণ কমিটি রূপগঞ্জে জমে উঠেছে কাঞ্চন পৌরসভা নির্বাচন যাত্রাবাড়ীতে পুলিশ কর্মকর্তার বাবা মাকে কুপিয়ে হত্যা যানজট নিরসনে সংসদ সদস্যগণের সাথে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের সমন্বয়সভা ভোলায় ফের দেখা মিলল রাসেল ভাইপার, জনমনে আতঙ্ক বাজেট পাস হয়নি,অনেক কিছু পুনর্বিবেচনা করা সম্ভব: অর্থমন্ত্রী দেশের সব মহৎ অর্জন আ. লীগের মাধ্যমেই হয়েছে: ওবায়দুল কাদের
আলোচনা সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রাইভেট প্র্যাকটিস চালু হচ্ছে আরও ১০০ সরকারি হাসপাতালে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ মে 2০২3 | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ৩০০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের আরও ১০০ সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসকদের প্রাইভেট প্র্যাকটিস চালু হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।   

আজ মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আয়োজিত সভায় এ কথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। ‘জাতীয় স্বাস্থ্য ও কল্যাণ দিবস-২০২৩’ উদযাপন উপলক্ষে এ সভার আয়োজন করা হয়।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমানে দেশের ৫১টি সরকারি হাসপাতালে রোগীরা বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের কাছ থেকে বৈকালিক স্বাস্থ্যসেবা পাচ্ছেন। এই সেবায় আমরা লক্ষ্য করেছি, দেশের মানুষ খুশি হয়েছে। চিকিৎসকরাও খুশি মনে চিকিৎসাসেবা দিচ্ছেন। এ জন্য এই সেবার আরও পরিধি বাড়ানো হচ্ছে। আগামী সপ্তাহের মধ্যেই আরও ১০০ হাসপাতালে এ সেবা চালু করা হবে।

জাহিদ মালেক বলেন, ‘করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের পাশাপাশি ওমিক্রম ও ডেল্টা ভাইবাস মোকাবিলার জন্য সম্প্রতি নতুন করে আরও ১১ লাখ বাইভেলেন্ট ভ্যাকসিন হাতে এসেছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এই ১১ লাখ ভ্যাক্সিন বাংলাদেশ সরকারকে দিয়েছে। খুব শিগগির আরও ২০ লাখ বাইভেলেন্ট ভ্যাকসিন দেবে বলেও জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। শিগগিরেই এই ভ্যাক্সিনগুলো বুস্টার ডোজ হিসেবে দেওয়া শুরু করা হবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রতিষ্ঠালগ্নের কথা বলতে গিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘২ মে ১৯৭১ সালের তৎকালীন কলকাতার থিয়েটার রোডে প্রথম যাত্রা শুরু হয় আজকের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের। এ কারণেই ২ মের সেই ঐতিহাসিক স্মৃতিকে মনে রেখেই আজকের এই জাতীয় স্বাস্থ্য ও কল্যাণ দিবস-২০২৩ পালন করা হচ্ছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কর্মকাণ্ড তুলে ধরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের জন্মলগ্ন থেকে ৫২ বছর হয়ে গেছে। এর মধ্যে সরকারি হাসপাতালে ৬০ হাজার বেড হয়েছে। ৪৫ হাজার নার্স, ৩৩ হাজার চিকিৎসক, ১৮ হাজার ক্লিনিক, যার মধ্যে ১৪ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক করা হয়েছে। সব ওষুধ বর্তমান দেশেই উৎপাদন হচ্ছে। সরকারি ৩৭টি ও বেসরকারি ৭২টি মেডিকেল কলেজ হয়েছে। স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট করা হয়েছে ১৫টি। সব মিলিয়ে গত ৫২ বছরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অর্জন বলে শেষ করা যাবে না।

স্বাস্থ্য অধিপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলমের সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন বিশেষ অতিথি হিসেবে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব মো. আজিজুর রহমান, পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সাহান আরা বানু, স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. মো. টিটো মিঞাসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।


আরও খবর



গলাচিপায় উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এসচএসসি ও আলিম প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ৯৩জন দেখেছেন

Image

গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি:পটুয়াখালীর গলাচিপায় উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এইচএসসি ও আলিম ২০২৪ এর  প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এইচএসসি ও আলিম ২০২৪ সালের পরীক্ষা কেমন হবে এবং পাবলিক পরীক্ষার ভীতি দুর করতে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এক সাথে ৫টি কেন্দ্রে প্রায় দেড় হাজার এইচএসসি ও আলিম পরীক্ষার্থীদের প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষা নেয়া হয়েছে। উপজেলার প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এই পরীক্ষার প্রশ্নপত্র তৈরি করেছেন। ব্যতিক্রমি এমন আয়োজনে খুশি শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। পরীক্ষা ভীতি কাটাতে শহরের শিক্ষার্থীরা নিয়মিত মডেল টেস্ট দেন। কিন্তু মফস্বল ও গ্রামের শিক্ষার্থীদের তেমন কোন পরীক্ষা সাধারনত নেয়া হয় না। গত দুই বছর এসএসসি ও দাখিল পরীক্ষার্থীদের প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষার ন্যায় পটুয়াখালী জেলার গলাচিপা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এইচএসসি ও আলিম পরীক্ষা কেমন হবে, পরীক্ষা হলের পরিবেশ কেমন থাকবে, সে সম্পর্কে ধারণা দিতে উপজেলাব্যাপী প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষার আয়োজন করা হয় । 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মহিউদ্দিন আল হেলাল জানান, আমরা ২০২২ সাল থেকে এসএসসি ও দাখিল প্রস্তুতি পরীক্ষা নিয়ে আসছি যাতে ব্যাপক সাড়া পাওয়া যায়। এরই ধারাবাহিকতায় এইচএসসি ও আলিম পরীক্ষা নেওয়ার প্রস্তাব আসতে থাকে।  এক মাসের প্রস্তুতির মাধ্যমে আবশ্যিক বাংলা ও ইংরেজি বিষয় ১০০ নম্বরে পরীক্ষা নেয়া হয়েছে। এই পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের ভীতি দূর হবে এবং নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে প্রশ্নের উত্তর দেয়ার অভ্যাস তৈরি হবে। যারা ভাল করবে তাদেরকে সংবর্ধনা দেয়া হবে এবং অধ্যক্ষদের নিয়ে তাদের বাড়ি পরিদর্শন করে অস্বচ্ছলদের জন্য বিশেষ প্রণোদনার ব্যবস্থা করা হবে। পাশাপাশি আমাদের শিক্ষাবৃত্তি চলমান থাকবে। আর যারা খারাপ করবে তাদের জন্য বিশেষ ক্লাসের ব্যবস্থা করা হবে। আমি আশা করছি গলাচিপা উপজেলা থেকে আগামী ২০২৫ সাল বা পরবর্তী সময়ে অন্তত ১০০জন বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়ন করবে আমি যার নাম দিয়েছি' শত স্বপ্নের সোপান,। "

গলাচিপা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মু. ফোরকান কবির বলেন " উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মহিউদ্দিন আল হেলাল এর এই উদ্যোগ শিক্ষার্থীদের ভীতি যেমন দূর হবে তেমনি তারা পড়াশুনার প্রতি আরো বেশি আগ্রহী হবেন। ভবিষ্যতে এই ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে এ প্রত্যাশা করছি। পাশাপাশি পড়াশুনায় আগ্রহী মেধাবী শিক্ষার্থীদের আমি আর্থিকভাবে সহায়তা করবো।" আর শিক্ষার্থীরা বলেছে, ইউএনও গলাচিপার চমৎকার উদ্যোগগুলো আমাদেরকে যেমন বিস্মিত করছে, তেমনি আমাদের মেধা বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। তাঁর এই আয়োজন তাদের পাবলিক পরীক্ষার ভীতি অনেক কমিয়ে দিয়েছে। 

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস আবুল কালাম সাঈদ জানান, এইচএসসি ও আলিম পর্যায়ে এ রকম প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষা তাঁরা এই প্রথম নিলেন। উপজেলা প্রশাসনের এমন আয়োজনে শিক্ষার্থীরা উপকৃত হবে। 

এছাড়া অভিভাবক, শিক্ষকসহ বিভিন্ন পেশার মানুষ  জানান,” উপজেলা প্রশাসন, গলাচিপার আয়োজনে ও গলাচিপা স্কিল ল্যাব. এর বাস্তবায়নে এমন আয়োজন হওয়ায় আমরা  সকলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মহোদয়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। “

আরও খবর



সিলেটের বন্যা পরিস্থিতি আরও অবনতি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ৬৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রতিনিয়ত বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। ভারতের চেরাপুঞ্জিতে অধিক বৃষ্টিপাত হওয়ায় জেলার সীমান্ত উপজেলাগুলোর অবস্থা আশঙ্কাজনক।

মঙ্গলবার ১৮ জুন সকাল থেকে সুরমা নদীর পানি সুনামগঞ্জ প‌য়েন্টের বিপৎসীমার ৬৭ সেন্টিমিটার ও ছাতক পয়েন্ট ১৩৭ সেন্টিমিটার ওপ‌র দিয়ে প্রবাহিত হ‌চ্ছে।

সুরমা নদীর পানি বিপদসীমা অতিক্রম করে সুনামগঞ্জের পৌরশহরের পশ্চিম তেঘিরয়া, সাহেববাড়ি ঘাট, পশ্চিম বাজার, মাছবাজার, কাজির পয়েন্ট, ষোলঘর পয়েন্ট, নবীনগরসহ বিভিন্ন আবাসিক এলাকায় প্রবেশ করেছে।

এছাড়াও জেলার ছাতক, দোয়ারাবাজার, সুনামগঞ্জ সদর ও তা‌হিরপুর উপ‌জেলার অন্তত শতাধিক গ্রামের মানুষ পানিবন্দি হয়ে আছে। জেলার শতা‌ধিক অভ্যন্তরীণ সড়ক তলিয়ে যাওয়ায় চরম দুর্ভোগ প‌ড়েছেন বা‌সিন্দারা।

সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) নির্বাহী প্রকৌশলী মামুন হাওলাদার বলেন, বৃ‌ষ্টিপাত আরও ৪৮ ঘণ্টা অব‌্যাহত থাক‌বে এবং নিম্নাঞ্চলেও বন‌্যা প‌রি‌স্থি‌তি সৃ‌ষ্টি হ‌য়ে‌ছে।

এদিকে, বৃষ্টিপাত ও উজানের ঢলে সিলেটের সীমান্তবর্তী উপজেলাসহ বেশ কয়েকটি উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। গোয়াইনঘাট, কোম্পানীগঞ্জ, ওসমানীনগর, বালাগঞ্জ ও বিয়ানীবাজার উপজেলার বেশকিছু পরিবার এরই মধ্যে আশ্রয়কেন্দ্রে অবস্থান নিয়েছে। এছাড়াও পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন জেলার বিভিন্ন উপজেলার অসংখ্য মানুষ। তবে সোমবার বিকেল থেকে বৃষ্টিপাত কিছুটা কমায় সিলেট নগরীর জলাবদ্ধতাও কমতে শুরু করেছে।

পাউবো সিলেটের তথ্যমতে, কুশিয়ারা নদীর পানি মঙ্গলবার সকাল ৯টায় আমলশীদ পয়েন্টে বিপৎসীমার ১৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এর আগে সকাল ৬টায় বিপৎসীমার ১ সেন্টিমিটার ওপরে ছিল। এই নদীর পানি ফেঞ্চুগঞ্জ পয়েন্টে সকাল ৬টায় বিপৎসীমার ৭৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। সকাল ৯টায় তা আরও বেড়ে ৭৯ সেন্টিমিটারে পৌঁছায়। সারি নদীর পানি সারিঘাট পয়েন্টে সকাল ৯টায় বিপৎসীমার ৩৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এর আগে সকাল ৬টায় বিপৎসীমার ৪০ সেন্টিমিটার উপরে ছিল। সারিগোয়াইন নদীর পানি মঙ্গলবার সকাল ৬টায় বিপৎসীমার ১১ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। সকাল ৯টায় তা আরও বেড়ে বিপৎসীমার ১৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এছাড়াও সারি, সারিগোয়াইন, লোভাছড়া ও ধলাইসহ সবকটি নদীর পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, ২৪ ঘণ্টায় সিলেটে বৃষ্টি হয়েছে ১৫৩ মিলিমিটার। মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে সকাল ৯টা পর্যন্ত তিন ঘণ্টায় বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ছিল ৪৪ মিলিমিটার। অন্যদিকে, ভারতের চেরাপুঞ্জিতে গত ২৪ ঘন্টায় ৩৯৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে দেশটির আবহাওয়া অফিস।


আরও খবর



মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলায় আব্দুল মান্নান ও শালিখা উপজেলায় শ্যামল কুমার দে বেসরকারি ফলাফলে চেয়ারম্যান নির্বাচিত

প্রকাশিত:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | ৯৩জন দেখেছেন

Image

স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:উপজেলা পরিষদের দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনে   মাগুরার মহম্মদপুরে আব্দুল মান্নান আনারস এবং শালিখা উপজেলায় শ্যামল কুমার দে আনারস প্রতীক নিয়ে  বেসরকারি ফলাফলে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছে। আব্দুল মান্নান ৪৩ হাজার ৯৭৭  ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়। তার নিকটতম প্রতিদন্দি শালিক পাঁখী কবিরুজ্জামান পান ৩৩ হাজার ৯৬২ ভোট। শালিখায় শ্যামল কুমার দে ৩১ হাজার ১৮৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। তার নিকটতম প্রতিদন্দি রেজাউল ইসলাম মোটর সাইকেল প্রতীক নিয়ে ভোট পান ২৬ হাজার৭৮৪ ভোট। ভাইস চেয়ারম্যান পদে সজিব আহমেদ ৩৫ হাজার ৬৭৮ ভোট এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে জেসমিন আক্তার শাবানা ১৩ হাজার ৭৪৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচন   শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়।

মহম্মদপুর উপজেলায়  চেয়ারম্যান পদে ৭ জন এবং শালিখা উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রতিদন্দিতা করেন। মহম্মদপুর উপজেলার আটটি ইউনিয়নের ৬৪ টি ভোট কেন্দ্রে  এক লাখ ৮১ হাজার ৩৬২ জন ভোটার এবং শালিখা উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের ৫৪ টি ভোট কেন্দ্রে ১ লাখ ৪৪ হাজার ২৫৫ জন ভোটারের জন্য ভোট প্রদানের ব্যবস্থা করা হয়। 

আরও খবর



কালিয়াকৈরে ঘরে কাটুন বন্ধী শিশুর লাশ, সৎ মাকে আটক

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ১৮৫জন দেখেছেন

Image

সাগর আহম্মেদ,কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:গাজীপুরের কালিয়াকৈরে নিখোঁজের সাত ঘন্টা পর সৎ মায়ের ভাড়া ঘরের সানসেটের ওপর থেকে কাটুন বন্ধী অবস্থায় শিশুর লাশ করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ তার সৎ মাকে আটক করেছে। বুধবার বিকেলে উপজেলার হরিণহাটি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শিশু হলো, সিরাজগঞ্জের বেলকুচি থানার গ্রামাশি এলাকার সবুজ মিয়ার মেয়ে মিম আক্তার (৫)।  

এলাকাবাসী, নিহতের পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সবুজ মিয়া গত প্রায় ১০ বছর আগে কালিয়াকৈর উপজেলার রাখালিয়াচালা এলাকার আব্বাস আলীর মেয়ে নাসিমা আক্তারকে বিয়ে করে। এরপর আগে তারা উপজেলার হরিণহাটি এলাকার সুজাবত আলীর মোজাদ্দেদিয়া মঞ্জিল নামে ভবনের ২য় তলায় ভাড়া নিয়ে বসবাস করে আসছে। তারা স্বামী-স্ত্রী দুজনই স্থানীয় পোশাক কারখানায় কাজ করে। এরই মধ্যে তাদের স্বামী-স্ত্রী কুল জোড়ে মেয়ে মিমের আসে। কিন্তু চাকরি সুবাধে আয়না আক্তারের সঙ্গে পরিচয় পরে প্রেমের সম্পর্কের জেরে ৪ বছর আগে তাকে দ্বিতীয় বিয়ে করেন সবুজ মিয়া। ওই স্ত্রীও একই ভবনের ৫ম তলায় ভাড়া থাকেন। তাদের সংসার জীবনে মায়শা আক্তার নামে ৮ মাসের এক কন্যা সন্তান রয়েছে। কিন্তু  বুধবার সকাল ১০টার দিকে মিম হঠাৎ করে নিখোঁজ হয়। অনেক খোজাখুজি করেও তাকে আর পাওয়া যাচ্ছিল না। বিকেল ৫টার দিকে সন্দেহ হলে মিমের দাদা কুদ্দুস মিয়াসহ কয়েকজন মিলে ওই শিশুর সৎ মা আয়নার ভাড়া ঘরে খোজাখুজি করতে থাকেন। এক পর্যায় ওই ঘরের সানসেটের ওপর একটি কাটুন দেখে সন্দেহ হলে তারা সেটা নিচে নামায়। ওই কাটুন খুলতেই শিশু মিমের নিথর দেহ বেড়িয়ে এলে পুলিশে খবর দেয় এলাকাবাসী। খবর পেয়ে পুলিশ সন্ধ্যা সাড়ে টার দিকে ওই সৎ মায়ের ভাড়া ঘর থেকে শিশু মিমের লাশ উদ্ধার করে। পরে কালিয়াকৈর থানার ওসি এএফএম নাসিম ও ওসি অপারেশন যোবায়ের আহম্মেদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এরপর ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের লাশ গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। এছাড়া ওই হত্যাকান্ডের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ওই সৎ মা আয়নাকে আটক করে পুলিশ। আটককৃত আয়না গাইবান্ধার গবিন্দগঞ্জের পুনতাই এলাকার ইব্রাহিমের মেয়ে। প্রাথমিকভাবে পুলিশের ধারণা, তাকে হত্যার পর ওই কাটুন বন্ধী করা হয়েছে।

কালিয়াকৈর থানার ওসি অপারেশন যোবায়ের আহম্মেদ জানান, এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সৎ মাকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া ময়নাতদন্তের পর হত্যার সঠিক কারণ জানা যাবে। তবে এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আরও খবর



ভূমিকম্পে কাঁপল রাঙামাটি

প্রকাশিত:রবিবার ০২ জুন 2০২4 | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ১১৮জন দেখেছেন

Image

একটি ভূমিকম্প হয়েছে মিয়ানমারে মাঝারি মাত্রার । যা অনুভূত হয়েছে বাংলাদেশের রাঙামাটি জেলায়। রিখটার স্কেলে এর মাত্রা ৫ বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ভূমিকম্প পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র।

রোববার (২ জুন) দুপুর ২টা ৪৪ মিনিট ৫৯ সেকেন্ডে এ ভূমিকম্প অনুভূত হয়।

এ তথ্য নিশ্চিত করে ভূমিকম্প পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের সহকারী আবহাওয়াবিদ ফারজানা সুলতানা বলেন, মিয়ানমারে ৫ মাত্রার একটি ভূমিকম্প আঘাত করেছে, যা অনুভূত হয়েছে বাংলাদেশের রাঙামাটি জেলাতেও। ঢাকা থেকে ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ৪৪২ কিলোমিটার দূরে।

এর আগে গত ২৯ মে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ভূমিকম্প অনুভূত হয়। রিখটার স্কেলে এর মাত্রা ছিল ৫.৪।


আরও খবর