Logo
আজঃ Wednesday ২৫ May ২০২২
শিরোনাম

পাকিস্তানে নতুন মন্ত্রিসভার শপথ গ্রহন

প্রকাশিত:Tuesday ১৯ April ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ১৯৮জন দেখেছেন
Image

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

ইমরান খানের পদত্যাগ পরবর্তী পাকিস্তানের ২৩তম প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন মুসলিম লিগ (নওয়াজ) নেতা শাহবাজ শরীফ। অবশেষে শপথ নিয়েছে পাকিস্তানের সেই নতুন মন্ত্রিপরিষদ।


প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরীফ সোমবার মন্ত্রীদের নাম ঘোষণা করলেও প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভির অসুস্থতার কারণে একদিন পিছিয়ে যায় শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান।

মঙ্গলবার পাকিস্তান সিনেটের চেয়ারম্যান সাদিক সানজ্রানি প্রেসিডেন্টের বদলে শাহবাজের মন্ত্রিসভাকে শপথ পড়িয়েছেন।  


আগের প্রতিবেদনে ৩৪ জন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী শপথ নেবেন জানানো হলেও ডন তাদের সবশেষ প্রতিবেদনে জানিয়েছে ৩১ জনের মন্ত্রিসভা সিনেট চেয়ারম্যানের কাছে শপথ নিয়েছে।


এর আগে পাকিস্তানে শনিবার (৯ এপ্রিল) দিনগত রাতে অনাস্থা ভোটে হেরে যাওয়ায় প্রধানমন্ত্রীর পদ হারান ইমরান খান। সোমবার ১১ এপ্রিল পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন।


আরও খবর



নাহিয়ান আয়ান

মডেলিং অভিনয় সব ক্ষেত্রেই সাফল্যের স্বাক্ষর রেখে চলেছে নাহিয়ান আয়ান

প্রকাশিত:Tuesday ১৭ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৪৪জন দেখেছেন
Image

নাজমুল হাসানঃ

নাহিয়ান আয়ান একজন বিস্ময়কর অভিনেতা এবং মডেল, শুধুমাত্র তার দীপ্তিময় শিশুসুলভ সৌন্দর্য দিয়েই নয়, তার দুর্দান্ত প্রতিভা দিয়েও দর্শকদের আকর্ষণ করে। তার দিকে তাকালে মনে হয় একজন সত্যিকারের অভিনয় শিল্পীর ঠিক এইরকমই হওয়া উচিত - নীল পর্দার ওপারে বসবাসকারী একটি শিশু।সংস্কৃতির বিভিন্ন অঙ্গনে ‘সাফল্যের স্বাক্ষর’ রেখেই চলেছে নাহিয়ান আয়ান।


৭ বছর বয়সী নাহিয়ান আয়ান স্বল্প সময়ে নিজেকে বেশ প্রতিষ্ঠিত করেছে।সম্প্রতি পবিত্র ঈদুল ফিতরে নাহিয়ান আয়ান নাটক ও ওয়েব ফিকশনে অভিনয় করেছে। আসাদ জামানের পরিচালনায় রবিনহুড নামক নাটকে দেখা গেছে নাহিয়ানকে। যেখানে নাহিয়ান আয়ান ছাড়াও আরো অভিনয় শিল্পীরা হলেন তানজিম হাসান অনিক, সেরতাজ জেবিন। ঈদে সিনেমাওয়ালা চ্যানেলে অবমুক্ত হয়েছে নাটকটি। এছাড়াও ওয়েব ফিকশন মায়া ঘরে অভিনয় করেছে নাহিয়ান। রুবেল আনুশ পরিচালিত এই ওয়েব ফিকশনে অভিনয় করেছেন ফজলুর রহমান বাবু, মনিরা মিঠু, ইভান সাইর প্রমুখ। এছাড়াও নাহিয়ান আয়ান অনন্য মামুনের পরিচালনায় আর জি লাইফস্টাইলের টিভিসিতে অভিনয় করেছে। আসছে ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে জনপ্রিয় পোষাক ব্রান্ড বিশ্বরঙ, শৈশব, দুরন্ত কিডস, ইয়েস পয়েন্টের মডেল ফটোশ্যুট ও করেছে।


শুধু পোষাকের মডেল হিসেবে নয় এভার কেয়ার হসপিটালের পেডিয়াট্রিক বিভাগের সুস্থ শিশুর চরিত্রে ও মডেল হয়েছে। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালক তানিম রহমান অংশুর পরিচালনায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উপর নির্মিত মিউজিক্যাল ভিডিওতে ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান চরিত্রেও অভিনয় করেছে এই শিশুশিল্পী।তাছাড়া ফ্যাশন মডেলিং শো “বাংলাদেশ এক্সিলেন্স এ্যাওয়ার্ড” এবং ঈদ লাইফস্টাইল ফ্যাশন শো-তে পারফর্ম করেছেন সে। এক কথায় অল্প বয়সে মেধা ও বিচক্ষণতাকে কাজে লাগিয়ে নিজেকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে নাহিয়ান আয়ান।



 

নাহিয়ান আয়ান ২০১৫ সালের হেমন্তের প্রথম দিনে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। তার পুর্ব পুলুষের জন্ম বাংলাদেশের খুলনার সবুজ শ্যামল শান্ত একটি গ্রামে।তিনি রাজধানী ঢাকা শহরে জন্মগ্রহন করেন। আমাদের আজকের সফল শিশুশিল্পী নাহিয়ান আয়ান খানের জন্ম পুলিশ পরিবারে।খুব অল্প বয়স থেকেই, নাহিয়ান আয়ান নিজের জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন যে ভবিষ্যতে তিনি অবশ্যই একজন বিখ্যাত অভিনয় শিল্পী এবং জনপ্রিয় মডেল হয়ে উঠবেন। এবং তাই সে আত্মবিশ্বাসের সাথে এবং পদ্ধতিগতভাবে অভিপ্রেত লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন।


প্রথমে, শিশুটি নিকেতনের Little Star Grooming Institute  থেকে গ্রুমিং শিখে হাটা চলা বসা শিখে বিজ্ঞাপনে অভিনয় করতে শুরু করে এবং তারপরে ফ্যাশন মডেল হিসাবে ফ্যাশন শোতেও অংশ নেয়। আমাদের আজকের নাহিয়ান আয়ানের ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বিখ্যাত কৃতিত্বের মধ্যে রয়েছে  বিজ্ঞাপন প্রচারে অংশগ্রহণ, আর.জি ষ্টাইল নামক সুপরিচিত ব্র্যান্ডের মডেল হওয়া। 


তাকে নিয়ে সরব হয়ে উঠেছে দেশের মিডিয়া পাড়া ।বিভিন্ন সংবাদ পত্র বিনোদন ম্যাগাজিনগুলো নাহিয়ান আয়ান কে নিয়ে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।দৈনিক জনকন্ঠ পত্রিকার ফটোশুট করেছেন দেনিক দেশের পত্র পত্রিকা নাহিয়ান আয়ান কে নিয়ে প্রতিবেবদ প্রকাশ করেছে,টাইমট্রেন্ড ম্যাাজিনে তাকে নিয়ে লেখালেখি হয়েছে।


ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি জনপ্রিয় ফ্যাশন হাউজের সাথে নাহিয়ান কাজ করেছে। নাটকেও অভিনয় করেছে গুনী অভিনেতাদের সাথে। নাহিয়ানের স্বল্পদিনের ক্যারিয়ারে ভাল ভাল কাজ করেছে। এভাবে এগিয়ে যেতে পারলে খুব অল্প সময়ে নাহিয়ান সকলের ভালবাসায় জনপ্রিয় হয়ে উঠবে এটাই আশা করি।


আরও খবর



বাকেরগঞ্জে শাশুড়িকে খুন

বরিশালের বাকেরগঞ্জে সন্তানের দুধ কিনতে টাকা না দেওয়ায় শাশুড়িকে খুন

প্রকাশিত:Friday ১৩ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ২১৪জন দেখেছেন
Image

বরিশাল প্রতিনিধিঃ


সন্তানের দুধ কেনার জন্য গচ্ছিত দুই হাজার টাকা রাখা ছিল আলমারিতে। চাবি না দেওয়ায় পুত্রবধূ শাশুড়ির সঙ্গে বাগবিতণ্ডা ও ধস্তাধস্তির শুরু করেন। এ সময় শাশুড়ি নাজনীন বেগম পুত্রবধূকে হত্যার জন্য ছুরি বের করেন। পরে পুত্রবধূ সুমাইয়া আক্তার লাবণ্য ছুরি কেড়ে নিয়ে শাশুড়িকে উপর্যুপরি কুপিয়ে ফেলে রেখে যান।


বৃহস্পতিবার (১২ মে) বরিশালের বাকেরগঞ্জ আমলি আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দীতে এসব কথা বলেন অভিযুক্ত পুত্রবধূ সুমাইয়া আক্তার লাবণ্য।


বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাকেরগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সত্যরঞ্জন খাসকেল। তিনি জানান, অভিযুক্তর দুগ্ধপোষ্য ছয় মাস বয়সী এক ছেলে রয়েছে। আদালতের নির্দেশে তাকেও মায়ের সঙ্গে থাকার অনুমতি দিয়েছে।


হত্যাকাণ্ডটি পরিকল্পিতভাবে করেছেন বলে ধারণা করে পরিদর্শক বলেন, এ ঘটনার সঙ্গে প্রাথমিকভাবে আর কারও সম্পৃক্ততা না পাওয়া গেলেও স্বামীর অব্যাহত অবহেলা ও শাশুড়ির অত্যাচারে এমন ঘটনা ঘটেছে বলেও দাবি করেছেন লাবণ্য।


 অভিযানিক দল যখন লাবণ্যকে গ্রেফতারে যায়, তখন তিনি জায়নামাজে বসা ছিলেন। তিনি প্রথমে অস্বীকার করলেও পরে জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার কথা স্বীকার করেন। আদালতেও স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেন।


আদালতের বরাত দিয়ে এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, নিহত শাশুড়ি নাজনীন বেগমের স্বামী হানিফ হাওলাদার গত বছরের শেষ দিকে মারা যান। তার আগে থেকেই লাবণ্যর বাবা খলিল হাওলাদারের সঙ্গে পরকীয়া সম্পর্ক ছিল তার শাশুড়ির। 



আবার লাবণ্যর স্বামী উজ্জল হাওলাদার ঢাকায় একটি চশমার দোকানে কারিগর হিসেবে কাজ করেন। তিনিও সেখানে পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। দুটি বিষয় নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝামেলা শুরু হয়। গত ঈদুল ফিতরের ছুটিতে উজ্জল বাড়িতে আসেন। তখন এসব বিষয় নিয়ে কথা উঠলে ৮ মে লাবণ্যকে বাড়ি থেকে বের করে দেন স্বামী ও শাশুড়ি। ১০ মে আবার ঢাকায় চলে যান উজ্জল।


এরপর প্রতিদিন উজ্জলকে ফোন করতেন লাবণ্য। শাশুড়ির কাছেও জানাতেন তার ছয় মাস বয়সী সন্তান মুজাহিদুল ইসলামের দুধ কেনার টাকা নেই। কিন্তু স্বামী ও শাশুড়ি এতে কোনো গুরুত্ব দেননি।



 বুধবার (১১ মে) সন্ধ্যায় শাশুড়ির কাছে আসেন লাবণ্য। আলমারির চাবি চান। শাশুড়িকে জানান, আলমারিতে দুই হাজার টাকা আছে তা নিয়ে ছেলের জন্য দুধ কিনবেন। কিন্তু শাশুড়ি চাবি দিতে রাজি হননি। এ নিয়ে দুজনের মধ্যে ধস্তাধস্তি হলে শাশুড়ি পুত্রবধূকে হত্যার জন্য ছুরি নেন। সেই ছুরি কেড়ে নিয়ে শাশুড়িকে উপর্যুপরি কুপিয়ে চলে যান লাবণ্য।


শাশুড়ির গলায় দুটি ও বুকে তিনটি ছুরির কোপ ছিল। ছুরির আঘাতে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে মৃত্যু হয় বলে মনে করেন এই পুলিশ পরিদর্শক।


তবে তদন্ত-সংশ্লিষ্ট এক পুলিশ কর্মকর্তা জানান, পুরো ঘটনা অনুসন্ধানে মনে হয়েছে হত্যাকাণ্ডটি পরিকল্পিত। কারণ, অভিযুক্ত নারী যখন শাশুড়ির কাছে আসেন, তখন তার সন্তানকে সঙ্গে নিয়ে আসেননি। এমনকি সঙ্গে মোবাইলও আনেননি। সঙ্গে ছুরি নিয়ে এসেছিলেন। বোরকা পরে এসে শাশুড়িকে কুপিয়ে বাসায় গিয়ে সন্তানকে দুধ খাইয়ে জায়নামাজ বিছিয়ে নামাজ পড়তে বসেন। লাবণ্য ভারতীয় সিরিয়াল সিআইডি দেখে হত্যার পরিকল্পনা করেন এবং সে অনুসারে হত্যাকাণ্ড ঘটান।


প্রসঙ্গত, বুধবার (১১ মে) রাত সাড়ে ৯টার দিকে বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের কাঁঠালিয়া গ্রামে রক্তাক্ত নারীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে উজ্জল বাদী হয়ে তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন|


আরও খবর



একটি শোক সংবাদ

একটি শোক সংবাদ

প্রকাশিত:Thursday ১৯ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ৯৮জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী গোকর্ণ ইউনিয়নের ব্রাহ্মণশাসন গ্রামের কৃতি  সন্তান,বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র  আইনজীবী এডভোকেট মোঃ মাহফুজ মিয়া আজ ১৯ মে ২০২২ রোজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ঘটিকার সময় রাজধানী ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন।

ইন্নালিল্লাহে,,,রাজিউন)।


তিনি ছিলেন বৃহত্তর কুমিল্লা আইনজিবী সমিতির সিনিয়র সভাপতি ও  ঢাকাস্থ নাসিরনগর উপজেলা সমিতির আজীবন সদস্য। ব্যাক্তি জীবনে তিনি খুবই সজ্জন,সদালাপি,আমোদপ্রিয় মানুষ ছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি দুই পুত্র, স্ত্রীআত্মীয় স্বজন বন্ধু বান্ধ সহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।


তার বড় ছেলে চাকুরীজীবি,ছোট ছেলে ব্যারিষ্টার আর স্ত্রী অবসর প্রাপ্ত স্কুল শিক্ষিকা।তার মৃত্যুতে গভীর শোক ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম( বি,এম,এস,এফ) নাসিরনগর উপজেলা শাখার সভাপতি দৈনিক দেশ রূপান্তর ও এশিয়ান টেলিভিশনের নাসিরনগর উপজেলা প্রতিনিধি মোঃ আব্দুল হান্নান


আরও খবর



তৃতীয় ধাপে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পেল ৩৩ হাজার পরিবার

প্রকাশিত:Tuesday ২৬ April ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ১১৮জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

দেশের ৩২ হাজার ৯০৪ গৃহ ও ভূমিহীন পরিবার আসন্ন ঈদের আগে তৃতীয় ধাপে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে ঘর পেয়েছেন।গণভবন থেকে মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) ভিডিও কনফারেন্সে এসব ঘর হস্তান্তর করেন শেখ হাসিনা।


প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দাদের হাতে ঘরের চাবি তুলে দেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তারা।


তৃতীয় ধাপের এসব ঘর হস্তান্তর কার্যক্রমের উদ্বোধন করে শেখ হাসিনা বলেন, আমার সবচেয়ে ভালো লাগে যখন দেখি একটা মানুষ ঘর পাওয়ার পর তার মুখের হাসি। জাতির পিতা দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে চেয়েছিলেন।


সবার জন্য আবাসন নিশ্চিত করতে সরকারের কার্যক্রমের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাকি যে ঘরগুলো আছে সেগুলো আস্তে আস্তে তৈরি করে সব মানুষ যেন মানুষের মতো বাঁচতে পারে, সুন্দর জীবন পেতে পারে। সেটাই আমাদের লক্ষ্য। বাংলাদেশের একটি মানুষও গৃহহীন থাকবে না, ভূমিহীন থাকবে না। এটাই আমাদের লক্ষ্য। সেই লক্ষ্য নিয়েই কাজ করে যাচ্ছি।



শেখ হাসিনা মুজিববর্ষ উপলক্ষে ঘোষণা দিয়েছেন যে, বাংলাদেশের কোনো মানুষ যাতে ভূমি ও গৃহহীন না থাকে। সেজন্য তিনি দুই শতক জমির উপর দুই রুম বিশিষ্ট একটি ঘর উপহার দিচ্ছেন। এসব ঘরের ডিজাইন প্রধানমন্ত্রী নিজেই প্রণয়ন করেছেন।


তৃতীয় ধাপে এসব ঘর দেওয়ার আগে প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় ঘর পেয়েছে ১ লাখ ১৭ হাজার ৩২৯টি পরিবার। তৃতীয় ধাপের আরও ৩২ হাজার ৭৭০টি ঘর নির্মাণাধীন রয়েছে।


আশ্রয়ণের প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপের চেয়ে তৃতীয় ধাপের ঘরগুলো অনেক বেশি টেকসই। তৃতীয় ধাপে একেকটি ঘর নির্মাণে ব্যয় হচ্ছে ২ লাখ ৫৯ হাজার ৫০০ টাকা। তৃতীয় ধাপের ঘরগুলোতে আরসিসি পিলার, গ্রেড ভিম, টানা লিংকটারসহ বেশ কিছু বিষয় সংযোজন করা হয়।  



এসব ঘর হস্তান্তর অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার কাইচাইল ইউনিয়নের পোড়াদিয়া বালিয়া, বরগুনা সদর উপজেলার গৌরিচন্না ইউনিয়নের খাজুরতলা, সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার খোকশাবাড়ী ইউনিয়নের খোকশাবাড়ী ও চট্টগ্রামের আনোয়ারার বারখাইন ইউনিয়নের হাজিগাঁওয়ে ভিডিও কনফারেন্সে সংযুক্ত হয়ে উপকারভোগীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।


আরও খবর



কর্তৃপক্ষের দাবি লাফিয়ে আত্মহত্যা

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাদ থেকে পড়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

প্রকাশিত:Thursday ১৯ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ৭৯জন দেখেছেন
Image

নাজমুল হাসানঃ

রাজধানীর গ্রিনরোডে এশিয়া প্যাসিফিক ইউনিভার্সিটির সাততলা থেকে পড়ে ইমাম হোসেন (২৩) নামে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। 


সে লাফিয়ে পড়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে দাবি কর্তৃপক্ষের।


বৃহস্পতিবার (১৯ মে) সকাল আটটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।  


মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ইমাম হোসেনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে চিকিৎসক সকাল দশটায় তাকে মৃত ঘোষণা করেন।


নিহত শিক্ষার্থীর বাড়ি ভোলা লালমোহন উপজেলায়। নিহতের বাবার নাম আক্তার হোসেন।


কয়েকজন শিক্ষার্থীর সঙ্গে ৯৮নং পূর্ব রাজাবাজারে একটি মেসে থাকতেন। ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন তিনি।


 বৃহস্পতিবার সকালে তার তৃতীয় বর্ষের ফাইনাল পরীক্ষা ছিল।


বিশ্ববিদ্যালয়টির এ্যাসিস্টেন্ট অ্যাডমিন অফিসার ফয়সেলুজ্জামান জানান, সকালে তিনি যখন ভার্সিটিতে ঢুকছিলেন তখন শুনতে পান ভবন থেকে এক শিক্ষার্থী নিচে পড়ে গেছেন। সঙ্গে সঙ্গে তিনি তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতাল, পরে দ্রুত ঢাকা মেডিক্যাল নিয়ে যান। সেখানেই তার মৃত্যু হয়।


তিনি দাবি করেন, ভার্সিটির সিসিটিভি ক্যামেরায় দেখা গেছে ওই শিক্ষার্থী নয়তলা ভবনটির সাত তলা থেকে লাফিয়ে পড়ে আত্মহত্যা করেছেন।


 ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (ইন্সপেক্টর) মো. বাচ্চু মিয়ার মৃত্যু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।



আরও খবর