Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

অটোরিকশার চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে কলেজ ছাত্রীর মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৩৬জন দেখেছেন

Image

আতিকুজ্জামান দিপু,পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধি:পটুয়াখালীতে প্রাইভেট পড়ে নাস্তা খেতে যাওয়ার পথে অটোরিকশার চাকায় ওড়না পে‌চিয়ে অধরা ইসলাম মোহনা নামের এক কলেজ শিক্ষার্থীর মর্মা‌ন্তিক মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (১২ জুন) বেলা ১১টার দিকে শহরের ডি‌সিকোর্টের সামনের ফোর‌ লেনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

মৃত অধরা ইসলাম শহরের মুস‌লিমপাড়া এলাকার ব্যবসায়ী মোঃ রাসেল মু‌ন্সির মেয়ে। তিনি পটুয়াখালী সরকারী মহিলা কলেজের মানবিক শাখার এইচএসসি পরীক্ষার্থী ছিলেন।‌ বিষয়‌টি নি‌শ্চিত করে সদর থানার ও‌সি মোঃ জ‌সিম জানান, প‌রিবারের পক্ষ থেকে কোনো আপ‌ত্তি না থাকায় মরদেহ পোষ্টমর্টেম ছাড়াই অভিভাবকের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।‌

ঘটনার সময় অধরার সাথে থাকা বান্ধবী চাঁদনী ও অটোরিকশার যাত্রী মারুফার বরাত দিয়ে বাবা মোঃ রাসেল মু‌ন্সি জানান, শিক্ষকের কাছে প্রাইভেট শেষ করে নাস্তা করার উদ্দে‌শে অটোরিকশায় চড়ে রওয়ানা দেন তিনি। প‌থিম‌ধ্যে গলায় থাকা ওড়না‌টি চাকায় জ‌ড়িয়ে যায়। মুহুর্তের ম‌ধ্যে অধরার গলায় ফাঁস পড়ে এবং তৎক্ষণাৎ সিট থেকে নিচে পড়ে যায় সে। 

এসময় অধরার বান্ধবীসহ অটোরিকশায় থাকা যাত্রীরা অধরাকে অটো থে‌কে না‌মিয়ে অন্য একটি যানে হাসপাতা‌লে নেয়ার পর দা‌য়িত্বরত চি‌কিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।


আরও খবর



নাসিরনগর থেকে চারটি সীসা কার্তুজ উদ্ধার,একজন গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ২৩২জন দেখেছেন

Image

আব্দুল হান্নানঃ- ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর থানায় কর্মরত এসআই(নিরস্ত্র)/মোঃ নূরে আলমের নেতৃত্বে এ এস আই (নিরস্ত্র)/মোঃ মোশারফ হোসেন, কং/৭৭৮ রিয়াদ মোল্লা,কং/৬৭৯মোঃ লুৎফর রহমান, কং/৭৮৩মোঃ মাহবুবুর রহমান  ৭ জুলাই ২০২৪  রাত ১.৪০ ঘটিকার সময় নাসরিনগর থানা এলাকায় ওয়ারেন্ট তামিল, মাদক উদ্ধার অভিযান করাকালীন সময়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে  ভলাকুট ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের কান্দি গ্রামের মোঃ সাইজ উদ্দিন কবিরের  বসত ঘরে অভিযান পরিচালনা করে  মোঃ সাইজ উদ্দিন কবির (৩৯), পিতা- মৃত এরশাদ উদ্দিন, মাতা- খাদিজা বেগম, স্থায়ী ঠিকানাঃ- গ্রাম- বাহের বালি, ডাকঘর- হুমায়ুনপুর, থানা- বাজিতপুর, জেলা- কিশোরগঞ্জ, বর্তমান ঠিকানাঃ সাং- ভলাকুট কান্দি, ৬নং ওয়ার্ড, ভলাকুট ইউপি, থানা- নাসিরনগর, জেলা- ব্রাহ্মণবাড়িয়ার হেফাজত থেকে ৪ টি সীসা কার্তুজ(লীডবল) উদ্ধার করা হয়।পরে আসামীর বিরুদ্ধে নাসিরনগর থানার মামলা নং-৯ ৭ জুলাই ২০২৪।ধারা- THE ARMS ACT, 1878 SEC.19(f)   রুজু করা হয়েছে।জানা গেছে আসামীর বিরুদ্ধে হত্যা সহ আরো ৩ টি মামলা চলমান রয়েছে।

     -খবর প্রতিদিন/ সি.ব

আরও খবর



অবরোধ প্রত্যাহার করে শিক্ষার্থীদের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১১৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:চতুর্থদিনের মতো কোটা বাতিলের দাবিতে শাহবাগ অবরোধ করে কর্মসূচি পালন করে শিক্ষার্থীরা। অবরোধ শেষে বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন কর্মসূচি ঘোষণা দিয়েছেন কোটা সংস্কার আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। এছাড়া গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে অবরোধ কর্মসূচিরও ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

শনিবার (৬ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৫টায় শাহবাগ মোড়ে,রোববার (৭ জুলাই) বিকেল ৩টায় সারাদেশের সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ‘ব্লকেড’ কর্মসূচি শুরু হবে বলে অবরোধ শেষে এই ঘোষণা দেন কোটা আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক নাহিদ ইসলাম।

শনিবার (৬ জুলাই) বিকেল ৩টায় শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি হল থেকে আলাদা ব্যানারে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্ট্রাল লাইব্রেরির সামনে জড়ো হন। পরে সেখান থেকে বিশাল মিছিল নিয়ে হলপাড়া-ভিসি চত্বর-টিএসসি-বকশিবাজার-বুয়েট-ইডেন কলেজ-হোম ইকোনমিকস-নীলক্ষেত-টিএসসি হয়ে বিকেল ৫টায় শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নেন শিক্ষার্থীরা।


আরও খবর



জয়পুরহাটে বিপুল পরিমান মাদকদ্রব্যসহ ৪ মাদক পাচারকারীকে আটক

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১১৪জন দেখেছেন

Image

এস এম শফিকুল ইসলাম,জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃজয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার ছোট মানিক এলাকায় একটি বাড়ীতে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান মাদকদ্রব, নগদ টাকা, ভারতীয় পাসপোর্টসহ ৪ মাদক পাচারকারীকে আটক করেছে বিজিবি।।

আটককৃতরা হলেন, জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার ছোট মানিক গ্রামের মিজানুর রহমারের ছেলে  মনির মোল্লা (৩৪),  মুন্না মোল্লা (২৮), মনিরের স্ত্রী শবনম মুস্তাারী (২৮) ও মুন্নার স্ত্রী শারমিন (২৩)।

পত্নীতলা-১৪ বিজিবি ব্যাটালিয়নের উপ অধিনায়ক মেজর মোঃ শাফায়াত জামিল অনব জানান, বুধবার (৩ জুলাই) বিকেলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার সীমান্তবর্তী ছোট মানিক গ্রামের মাদক পাচারকারী ছোট মনিরের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ১৬৫ বোতল ফেন্সিডিল, মাদক বিক্রয়কৃত বাংলাদেশী নগদ তিন লক্ষ ত্রিশ হাজার ছয়শত পঁয়ষট্টি টাকা, ০১টি আইফোন সহ ৭টি মোবাইল,কিছু স্বর্ণ অলংকার, ইসলামী ব্যাংকের ১টি চেক বই, ১টি ভারতীয় পাসপোর্ট এবং দেশীয় অস্ত্র সহ তাদের আটক করা হয়।

তিনি আরো জানান, আটককৃতরা দীর্ঘ দিন যাবৎ সীমান্ত হতে মাদক সংগ্রহ করে এলাকায় অবাধে বিক্রয় করছে এবং সীমান্ত এলাকায় মাদকের গডফাদার হিসেবে কাজ করছে। আটককৃত চোরাকারবারী এলাকার কুখ্যাত শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী। দীর্ঘ দিন ধরে মাদক ব্যবসা করে আসছে। প্রচলিত নিয়মানুযায়ী মাদকদ্রব্য ও মাদক পাচারকারীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।


আরও খবর



চারাগাঁও সীমান্তে রাতে কয়লা,দিনে বালি পাচাঁর: দেখার কেউ নাই

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৩৪জন দেখেছেন

Image

মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া-সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:সুনামগঞ্জের চারাগাঁও সীমান্তে সোর্স পরিচয়ধারী একাধিক মামলার আসামীরা সরকারের লাখলাখ টাকা রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে রাতে কয়লা এবং দিনের আলোতে প্রকাশে বালি-পাথর পাচাঁর করছে। শুধু তাই নয়, সোর্সরা পাচাঁরকৃত অবৈধ মালামাল থেকে বিজিবি, পুলিশ ও সাংবাদিকদের নাম ভাংগিয়ে করছে চাঁদাবাজি। তারা দীর্ঘদিন চোরাচালান ও চাঁদাবাজি করে হয়েগেছে কোটিপতি। তারপরও সোর্সদের বিরুদ্ধে নেয়া হয়না আইনগত কোন পদক্ষেপ। উদ্ধার করা হয়না তাদের অর্জিত অবৈধ অর্থ-সম্পদ। তাই এব্যাপারে প্রশাসনের উপরস্থ কর্মকর্তাদের সহযোগীতা জরুরী প্রয়োজন।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে- প্রতিদিনে মতো আজ বুধবার (৩রা জুলাই) সকাল ৬টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত জেলার তাহিরপুর উপজেলার চারাগাঁও সীমান্তের কলাগাঁও নদী থেকে রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে অবৈধ ভাবে অর্ধশতাধিক স্টিলবডি ইঞ্জিনের নৌকা দিয়ে বালি বোঝাই করে কিশোরগঞ্জ জেলা ভৈরব ও নেত্রকোনা জেলার কলমাকান্দা নিয়ে যায় থানার সোর্স পরিচয়ধারী রফ মিয়া ও বিজিবির সোর্স পরিচয়ধারী আইনাল মিয়া, সাইফুল মিয়া, রিপন মিয়া ও লেংড়া জামাল। শুধু তাই নয়- সীমান্ত চোরাকারবারীদের গডফাদার তোতলা আজাদের নেতৃত্বে ওই সোর্সরা ভোর ৫টায় বীরেন্দ্রনগর সীমান্তের সুন্দরবন, লামাকাটা ও চারাগাঁও সীমান্তে জঙ্গলবাড়ি, মাইজহাটি এলাকা দিয়ে ৭টি স্টিলবডি ইঞ্জিনের নৌকা বোঝাই করে প্রায় ২৭০ মেঃটন কয়লা, পেয়াজ ও চিনিসহ মাদকদ্রব্য পাচাঁর করে ওই দুই স্থানে নিয়ে যায় সোর্সরা। এরআগে গতকাল মঙ্গলবার (২রা জুলাই) রাত ১টায় গডফাদার তোতলা আজাদের নেতৃত্বে ওই সীমান্তের বাঁশতলা ও লালঘাট এলাকা দিয়ে ৬টি স্টিলবডি ইঞ্জিনের নৌকা বোঝাই করে প্রায় ২শ মেঃটন কয়লা ও বিপুল পরিমান মদ,গাঁজা ও ইয়াবা পাচাঁর করে নিয়ে যায় সোর্স পরিচয়ধারী চোরাকারবারী রুবেল মিয়া, আমির আলী, হারুন মিয়া, বাবুল মিয়া, সোহেল মিয়া, আনোয়ার হোসেন বাবলু ও রফ মিয়া। কিন্তু অবৈধ মালামালসহ সোর্সদের গ্রেফতারের জন্য বিজিবি ও পুলিশের পক্ষ থেকে কোন পদক্ষেপ নেওয়া খবর পাওয়া যায়নি।  

চারাগাঁও শুল্কস্টেশনের বৈধ ব্যবসায়ী সূত্রে জানা গেছে- বিজিবি ক্যাম্পের সামনে ও আশেপাশে অবস্থিত একাধিক ডিপুসহ সীমান্তের প্রতিটি বসতবাড়ির ভিতরের হাজার হাজার মেঃটন অবৈধ কয়লা ও মাদকদ্রব্য মজুত করে রাখা হয়। রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে পাচাঁরকৃত অবৈধ কয়লা কম দামে প্রকাশে বিক্রি হওয়ার কারণে শুল্কস্টেশনের কয়েক হাজার ব্যবসায়ী সরকারকে লাখলাখ টাকা রাজস্ব দিয়ে ভারত থেকে এলসির মাধ্যমে আমদানী করা বৈধ কয়লা ও চুনাপাথর বিক্রি করতে গিয়ে বিরাট সমস্যায় পড়তে হয়। সোর্সরা প্রতিটন চোরাই কয়লা থেকে বিজিবির নামে ৮শত টাকা, থানার নামে ১হাজার টাকাসহ মোট ২৩শ টাকা চাঁদা নেয়। এছাড়া বালির নৌকা থেকে ৭শ টাকা, ১ বস্তা পেয়াজ থেকে ২শ টাকা, ১বস্তা চিনি থেকে ৩শ টাকা করে চাঁদা উত্তোলন করে। কিন্তু চোরাচালান ও চাঁদাবাজি বন্ধের জন্য আজ পর্যন্ত নেওয়া হয়নি কার্যকর কোন আইনগত পদক্ষেপ। যার ফলে গডফাদার তোতলা আজাদ ও সোর্সরা এখন কোটিপতি।

এব্যাপারে চারাগাঁও বিজিবি ক্যাম্পের ভিআইপির দায়িত্বে থাকা সৈনিক শামীম বলেন- আমার উপরস্থ কর্মকর্তাদের নির্দেশ মতো আমি দায়িত্ব পালন করছি। তারা যে ভাবে নির্দেশ দেয় আমি সেই ভাবে কাজ করি। আপনি ক্যাম্প কমান্ডারের সাথে যোগাযোগ করুন। ক্যাম্প কমান্ডার নায়েক সুবেদার শফিকুল বলেন- আমার জানা মতে সীমান্ত এলাকা দিয়ে চোরাচালান হয়না। আপনি তথ্য দিয়েন আমি ব্যবস্থা নেওয়ার চেষ্টা করব। তাহিরপুর থানার ওসি কাজী নাজিম উদ্দিন বলেন- থানা পুলিশের কোন সোর্স নাই। সীমান্ত চোরাচালান বন্ধের দায়িত্ব বিজিবির আমাদের না। এব্যাপারে বিজিবির সাথে কথা বলুন।


আরও খবর



ফুলবাড়ীতে সরকারি কৃষি প্রনোদনার বীজ ও সার বিতরন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৩৩জন দেখেছেন

Image

ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি:দিনাজপুরের ফুলবাড়ি উপজেলা কৃষি অফিস কতৃক সরকারি কৃষি প্রনোদনা সরুপ উপশী আমন চাষের জন্য বীজ ও সার বিতরন করা হয়। গতকাল সোমবার দুপুর ১টায় ফুলবাড়ী উপজেলা  চত্তরে কৃষি অফিসের আয়োজনে কৃষকদের মাঝে প্রনোদনার বীজ ও সার বিতরণ করেন। ৭টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার মোট ১৯০০ কৃষকের মাঝে এই সরকারি প্রনোদনার বীজ ও সার বিতরন করা হয়। ১৯০০ কৃষকের মাঝে জন প্রতি ১০ কেজি পটাশ ১০ কেজি ড্যাপ ও ৫ কেজি উফশী জাতের আমোন ধানের বীজ বিতরন করা হয়। 

উক্ত বীজ ও সার বিতরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বীজ ও সার বিতরনের উদ্বোধন করেন, ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর মোঃ আল কামাহ্ তমাল, ফুলবাড়ী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোছাঃ রুম্মান আকতার ও সহকারী কৃষি কর্মকর্তা শাহিনুর ইসলাম সহ ফুলবাড়ী কৃষি অফিসের অন্যান্য কর্মচারীগন উপস্থিত থেকে বিতরন কার্যক্রম পরিচালনা করেন। এসময় ফুলবাড়ী উপজেলার প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় সাংবাদিক গন উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর