Logo
আজঃ বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩
শিরোনাম

নির্বাচন আসলেই একটি দল দেশটিকে অস্থিতিশীল করে তুলতে চায়: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ৭৯জন দেখেছেন

Image

খবর প্রতদিনি টোয়ন্টেফিোর.কম,ভোলা প্রতিনিধি:গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, নির্বাচন আসলেই একটি দল দেশটিকে অস্থিতিশীল করে তুলতে চায়। তারা গান পাউডার দিয়ে অগ্নি সন্ত্রাসী কার্মকান্ড চালিয়ে মানুষ হত্যায় মেতে উঠে। কিন্ত শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এদেশের জনগণন তাদেরকে প্রতিহত করবে। তিনি বলেন, আমি বঙ্গবন্ধুকে খুব কাছ থেকে দেখেছি। বঙ্গবন্ধুর মধ্যে যে গুনগুলো ছিলো, আজকের প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনার মধ্যেও তদ্রুপ গুনাবলী বিদ্যমান। রবিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ভোলার চরফ্যাশন দুলারহাট নবনির্মিত থানা ভবন উদ্ভোধন শেষে এক সূধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।আসাদুজ্জামান বলেন, শেখ হাসিনার সরকার চিকিৎসা সেবা মানুষের দোড় গোড়ায় পৌছে দিতে প্রতিটি গ্রামে কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন করেছে। বিএনপি ক্ষমতায় আসলেই আমাদের উন্নয়নগুলো স্তব্ধ করে দেয়। দেশের সকল গ্রামেই শেখ হাসিনা জনপ্রিয় নেত্রী। জনগণ এখন আলোকীত বাংলাদেশ দেখতে চায়। তাই ২০৪১ সালের মধ্যে ডিজিটাল বাংলাদেশ থেকে স্মার্ট বাংলাদেশে এগিয়ে নিয়ে যেতে হলে শেখ হাসিনা সরকারকে পুনরায় নির্বাচিত করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, পুলিশের প্রশংসা শুনলে আমার খুব ভালো লাগে। পুলিশ প্রশাসনকে অত্যন্ত দক্ষতার সাথে গড়ে তোলা হয়েছে। তাই তারা জনগণের পাশে থেকে বন্ধু হয়ে কাজ যাচ্ছে। পুলিশই দেশের নিরাপত্তার দায়িত্ব পালনে অঙ্গীকারবদ্ধ। এ সময় তিনি চরফ্যাশনের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে ভোলা-৪ আসানে আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকবকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করার আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ভোলা-৪ আসনের সংসদ সদস্য যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব বলেন, এ অঞ্চলের মাটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আয়ামী লীগের ঘাঁটি। আমি চরফ্যাশনকে রাজধানী বানাতে পারবো না, কিন্ত চরফ্যাশনকে একটি আধুনিক উপজেলায় রুপান্তরিত করবো। তিনি বলেন, দেশের কোনো উপজেলায় ৪টি থানা নেই। কিন্ত এখানের মানুষকে সেবা দিতে ৪টি আধুনিক থানা স্থাপন করেছি। ভোলা জেলা পুলিশ সুপার মোঃ মাহিদুজ্জামান (বিপিএম) এর সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি মোঃ জামিল হাসান (বিপিএম, পিপিএম), স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জন নিরাপত্তা বিভাগের যুগ্ম সচিব (পুলিশ-২) মোহাম্মদ হোসেন, ভোলা জেলা প্রশাসক আরিফুজ্জামান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন চরফ্যাশন উপজেলা চেয়ারম্যান জয়নাল আবদিন আকন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, কোস্ট গার্ড দক্ষিণ জোনের কমান্ডার মোঃ আল ফারুক প্রমূখ। এর পূর্বে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান ভোলা-৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মরহুম অধ্যক্ষ নজরুল ইসলামের ৩১ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মিলাদ মাহফিল ও দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করেন। পরে তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পন করেন। পরে স্মারক বৃক্ষরোপন, শেখ রাসেল ও বিনোদন পার্ক, জ্যাকব টাওয়ার, ফ্যাশন স্কয়ার, আধুনিক বাস টার্মিনালসহ উপজেলার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক স্থাপনা পরিদর্শন করেন।


আরও খবর



কুয়েত যুবলীগ এর জাতীয় শোক দিবস পালন

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ৯৫জন দেখেছেন

Image

আজিজুল হক, কুয়েত থেকে:কুয়েতে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কুয়েত শাখা জাতীয় শোক দিবস ও ২১শে আগস্ট আওয়ামী লীগের জনসভায় ভয়াবহ গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল এর আয়োজন করেছে।

কুয়েতের রাজধানী প্যালেস হোটেলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কুয়েত যুবলীগের আহ্বায়ক ইমাম উদ্দিন বাদল।

যুগ্ম আহ্বায়ক তৌহিদুল আলম ও সদস্য মনির হায়দার এর যৌথ সঞ্চালনায় এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কুয়েতের সভাপতি  সেকেন্দার আলী।

বিশেষ অতিথি ছিলেন,আওয়ামী লীগ নেতা যথাক্রমে, আব্দুল হাই মামুন,মুরাদুল হক চৌধুরী,মোরশেদ আলম ভূঁইয়া,শামসুল হক,সুরুক  মিয়া,আব্দুর রাজ্জাক ভূঁইয়া, কামরুজ্জামান টিটু,বেলাল হোসেন,ফাহাহিল মহানগর আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন বিক্রমপুরী,

ফাহাহিল যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সংরক্ষিত সদস্য শফিক টিটু,জিলিব আল শুয়েখ শাখা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বাবুল ভূইয়া,ফরওয়ানিয়া যুবলীগের সাবেক আহবায়ক ও সংরক্ষিত সদস্য মোঃ ফারুক জাহার, সংরক্ষিত সদস্য মানিক কুমার কুন্ড ও সংরক্ষিত সদস্য নাজমুল আহসান জাহিদ।

বক্তব্য রাখেন,মোহাম্মদ বেলাল উদ্দিন,মোহাম্মদ নুর উদ্দিন,জিলিব শাখার ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ মিয়াজী,সংরক্ষিত সদস্য যথাক্রমে,ফারুক আনন্দ,কামাল পাশা,শেখ নাসের,তাজুল ইসলাম,যুব নেতা মীন হোসেন, মোহাম্মদ শহীদ সহ অনেকে।

নিজেদের মধ্যকার সকল ভেদাভেদ ও দ্বিধাদ্বন্দ্ব ভুলে গিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামীগ ও আওয়ামী লীগ সভাপতি  শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান করেন কুয়েত যুবলীগ এর আহ্বায়ক ইমাম উদ্দিন বাদল।

তিনি বলেন, দেশের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে হলে সামনের নির্বাচনে আওয়ামীলীগকে ক্ষমতায় আনতেই হবে, এজন্য স্বস্ব অবস্থান থেকে প্রত্যেক মুজিব আদর্শের সৈনিকদের দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখতে হবে।


আরও খবর



মেট্রোরেল ও এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে চালু কবে, জানালেন কাদের

প্রকাশিত:শুক্রবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১০২জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানিয়েছেন, আগামী ১৬ অক্টোবর মতিঝিল পর্যন্ত মেট্রোরেলের উদ্বোধন করা হবে। আর ২০২৪ সালের মধ্যে পুরো এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে চালু করা হবে।

আজ শুক্রবার ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের কাওলা থেকে ফার্মগেট অংশের উদ্বোধন উপলক্ষে পুরাতন বাণিজ্য মেলার মাঠ পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ তথ্য জানান।

ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের কাওলা থেকে ফার্মগেট অংশের উদ্বোধন উপলক্ষে আগামীকাল শনিবার পুরাতন বাণিজ্য মেলার মাঠে সুধী সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে। সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ওবায়দুল কাদের বলেন, যানজট নিরসনে তৈরি করা হয়েছে 'ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে'। প্রকল্পের কাজ পুরোপুরি শেষ না হলেও এখন পর্যন্ত ৬৫ শতাংশ কাজ শেষ করা হয়েছে। আগামীকাল শনিবার প্রকল্পের প্রথম ফেজ উদ্বোধন করা হবে।

দ্বিতীয় ফেজের কাজও পুরোদমে চলছে জানিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘যেদিকে উদ্বোধন হচ্ছে না, সেখানেও অনেক কাজ শেষ হয়ে গেছে। আশা করছি, ২০২৪ সালে পুরো এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে চালু করতে পারব।’

তিনি আরও বলেন, পদ্মা সেতু হওয়ার পর দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ সুবিধা পাচ্ছে। এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের পুরো কাজ শেষ হলে ঢাকার মানুষও একইরকম সুবিধা পাবে। এখন এই ১১ দশমিক ৫ কিলোমিটার উদ্বোধন হলে দুই ঘণ্টার পথ মাত্র ১০ মিনিটে যাওয়া যাবে।

এ সময় মেট্রোরেল প্রকল্প নিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত মেট্রোরেল চালু হয়েছে। এতে আমরা যথেষ্ট সুফল পাচ্ছি। ১৬ অক্টোবর মেট্রোরেলের মতিঝিল পর্যন্ত উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তখন উত্তরা, মিরপুর, মতিঝিল রুটে চলাচলকারী সব নাগরিক এর সুফল ভোগ করতে পারবেন।’


আরও খবর



রোনালদোর ৮৫০ গোলের মাইলফলকে আল নাসরের বড় জয়

প্রকাশিত:রবিবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০23 | ১১৪জন দেখেছেন

Image

স্পোর্টস ডেস্ক:ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর ৮৫০ গোলের মাইলফলকে ওঠার ম্যাচে বড় জয় পেয়েছে আল নাসর। সৌদি প্রো লিগে আল হাজমকে ৫-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে দলটি।

গতকাল রাতের এ ম্যাচে আল নাসরের হয়ে চতুর্থ গোলটি এসেছে রোনালদোর কাছ থেকে। এই গোলটিই তাকে চূড়ায় নিয়ে গেছে। বর্তমানে যারা খেলছেন, তাদের মধ্যে রোনালদোর কাছাকাছি আছেন কেবল লিওনেল মেসি। আর্জেন্টাইন অধিনায়কের গোলসংখ্যা ৮১৮।

রোনালদো এদিন গোল করার পাশাপাশি দুটি গোলে সহায়তাও করেছেন। প্রথম গোলে প্রতিপক্ষের দুই ডিফেন্ডারকে বোকা বানিয়ে বল বাড়িয়ে দেন রোনালদো। আর তার কাছ থেকে বল পেয়ে গোল করেন আবদুলরহমান ঘারিব।

দলের দ্বিতীয় গোলটি আসে আবদুল্লাহ আল খাইবারির কাছ থেকে। এরপর তৃতীয় গোলটিতে রোনালদো চাইলে নিজেই শট নিতে পারতেন এবং যে জায়গায় ছিলেন, গোল হওয়ার সম্ভাবনাই ছিল বেশি। কিন্তু রোনালদো তা না করে বল বাড়িয়ে দেন ফাঁকায় থাকা ওতাবিওকে। এরপর গোলের জন্য পর্তুগিজ সতীর্থের আলতো ছোঁয়ারই শুধু প্রয়োজন ছিল।

ম্যাচের চতুর্থ গোলটি করেন রোনালদো নিজেই। বক্সের ভেতর বল পেয়ে জোরালো শটে লক্ষ্যভেদ করে দলকে গোল এনে দেন এই উইঙ্গার। আল নাসরের হয়ে এ নিয়ে ৩০ ম্যাচে এটি রোনালদোর ২৬তম গোল। এরপর ম্যাচের শেষ গোলটি করেন সাদিও মানে। এ জয়ে ৫ ম্যাচ শেষে ৯ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার ৬ নম্বরে উঠে এল রোনালদোর আল নাসর। এখন শীর্ষে থাকা আল হিলালের সঙ্গে ব্যবধানটা চারে নামিয়ে এনেছে আল নাসর।

এদিকে রোনালদো-মানেদের জয়ের রাতে রীতিমতো বিধ্বস্ত হয়েছে ফিরমিনো-মাহরেজদের আল আহলি। আল ফাতেহর বিপক্ষে তাদের মাঠে আল আহলি উড়ে গেছে ৫-১ গোলের বড় ব্যবধানে। একই রাতে ৩-১ গোলে জিতেছে স্টিভেন জেরার্ডের আল ইত্তিফাক। এ জয়ে ইত্তিফাকের হয়ে জোড়া গোল করেছেন মুসা দেম্বেলে।


আরও খবর

বাংলাদেশের একাদশ আজ যেমন হতে পারে

বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩




শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠক আজ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১১৮জন দেখেছেন

Image

কূটনৈতিক প্রতিবেদক:ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে আজ শুক্রবার বিকেলে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বসছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বাংলাদেশের আসন্ন নির্বাচনের ঠিক আগ মুহূর্তে বন্ধু প্রতিম প্রতিবেশী দুই দেশের শীর্ষ নেতার বৈঠককে তাৎপর্যপূর্ণ বলছেন বিশ্লেষকরা। এজন্য সবার দৃষ্টি এখন দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের আলোচ্যসূচিকে ঘিরে।

জি-২০ সম্মেলনে যোগ দিতে আজই নয়াদিল্লী যাচ্ছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আগামীকাল শনিবার সকাল থেকে শুরু হবে জি-২০ দেশগুলির শীর্ষ সম্মেলন। যদিও বাংলাদেশ এই জোটের সদস্য নয়, কিন্তু আয়োজক ভারতের আমন্ত্রণে সম্মেলনে যোগ দিচ্ছেন শেখ হাসিনা। দক্ষিণ এশিয়া থেকে শুধু বাংলাদেশকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে ভারত। অপর দিকে নিজের বাসভবনে শেখ হাসিনাকে আতিথেয়তা দিয়ে নরেন্দ্র মোদি সম্পর্কের আন্তরিকতার বার্তা দিতে চাইছেন বলে দিল্লীর কূটনৈতিক সূত্রের খবর।

এদিকে হাসিনা-মোদির দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে গুরুত্বপূর্ণ স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট ও আঞ্চলিক ইস্যুতে আলোচনা হবে। তবে সূত্রের খবর, জি-২০ সম্মেলন ঘিরে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির চরম ব্যস্ত শিডিউলের কারণে সময়ের সীমাবদ্ধতা রয়েছে। দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের আলোচ্যসূচি সময়ে বিবেচনায় ঠিক করা হচ্ছে। অধিকতর গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুগুলো যেন আলোচনায় থাকে তা ঠিক করতে কাজ করছে দুদেশের সংশ্লিষ্টরা। পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন এ বিষয়ে বলেন, দুই পক্ষ গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা করবে। তবে সময়ের সীমাবদ্ধতার কারণে বৃহত্তর সম্পর্কের পুরো ধারাটি আলোচনায় নাও আসতে পারে।

বৈঠকে কানেক্টিভিটি, তিস্তার পানি বণ্টন, জ্বালানি নিরাপত্তা এবং খাদ্য নিরাপত্তা সম্পর্কিত বিষয়গুলো আলোচনায় অগ্রাধিকার বিষয় হতে পারে। পররাষ্ট্র সচিব বলেন, দুই দেশ একসঙ্গে অনেক প্রকল্পের সঙ্গে জড়িত এবং তাদের বাস্তবায়নের সমস্যা আসতে পারে। এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিল্লি সফরকালে তিনটি সমঝোতা স্মারক সই হবে। এরমধ্যে অন্যতম হচ্ছে, টাকা ও রুপির লেনদেন সহজ করার জন্য বাংলাদেশ ব্যাংক ও ভারতের এনপিসিআই’র মধ্যে সমঝোতা। পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন জানান, যে তিনটি সমঝোতা স্মারক হবে, তা হলো কৃষি গবেষণা ও শিক্ষা সহযোগিতা, সাংস্কৃতিক চুক্তির মেয়াদ ২০২৩ থেকে ২৫ পর্যন্ত বাড়ানো এবং বাংলাদেশ ব্যাংক ও এনপিসিআইর মধ্যে সমঝোতা স্মারক। তিনি বলেন, ভারতের এনপিসিআই ও বাংলাদেশ ব্যাংকের মধ্যে সমঝোতা স্মারক সই হলে দুই পক্ষের মধ্যে নেটওয়ার্ক-টু-নেটওয়ার্ক সংযোগের মাধ্যমে রুপি-টাকায় পারস্পরিক লেনদেনের কাজ সহজ হবে।


আরও খবর



সেলফি গলায় বেঁধে ঘুরে বেড়ান: মির্জা ফখরুল

প্রকাশিত:রবিবার ১০ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১৫৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের তোলা সেলফি গলায় বেঁধে ঘুরে বেড়াতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে পরামর্শ দিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ রোববার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক স্মরণসভায় মির্জা ফখরুল ইসলাম এ কথা বলেন। প্রয়াত অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের ১৪তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এ স্মরণসভার আয়োজন করে ‘এম সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদ’।

স্মরণসভায় মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এই জাতির দুর্ভাগ্য কোথায় জানেন? বেসিক জায়গায় আমরা কেউ যাই না। আমরা সেলফির মতো ইস্যুতে যাই। ওবায়দুল কাদের সাহেব নাকি বলেছেন ফখরুল এখন কী বলবেন। আমি বলি আমার পরামর্শটা নেবেন। এই ছবিটা বাঁধিয়ে গলায় দিয়ে ঘুরে বেড়ান। ওটা আপনাদের যথেষ্ট সাহায্য করবে। এটা দিয়ে জনগণকে বোঝানোর চেষ্টা করেন যে বাইডেন এখন আমার সঙ্গে আছে।

বিএনপি মহাসচিব আরও বলেন, ‘এই প্রধানমন্ত্রী কয়েক দিন আগে বলেছিলেন, আমেরিকা এখন বলছে সেন্ট মার্টিন দ্বীপ নাকি তাদের দিয়ে দেওয়ার জন্য। যেহেতু সেন্ট মার্টিন দ্বীপ দিচ্ছে না, সে জন্য আমেরিকা তাকে (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) ক্ষমতা থেকে সরাতে চায়। তাহলে এখন আমরা কি বুঝব, আপনি সেন্ট মার্টিন দ্বীপটা দিয়ে দিয়েছেন।’

প্রধানমন্ত্রীকে ইঙ্গিত করে তিনি আরও বলেন, ‘কয়দিন আগে আবার উনি আরেকটা কথা বলেছেন, এই এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলে আমেরিকা চায় সেখানে বেস করবে এবং গোটা এই এলাকায় সেই প্রভুত্ব করবে। দেশগুলো দখল করবে, আক্রমণ করবে, এভাবে কথা বলেছেন। এটা আমেরিকা, আমাদের মতো তৃতীয় বিশ্বের দেশ নয়।

ফখরুল আরও বলেন, ‘সেলফির জন্য র‌্যাবের ওপর থেকে স্যাংশনস (নিষেধাজ্ঞা) উঠে যায়নি। ভিসানীতির পরিবর্তন হয়নি। তার জন্য নতুন ডেমোক্রেসি কনভেনশন ডেকে বাংলাদেশকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। সুতরাং ভেবে চিন্তে কথা বলবেন। যে কথাগুলো আপনারা বলেন সেগুলো ভেবে চিন্তে বলেন না।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, ‘আওয়ামী লীগ এত দেউলিয়া হয়ে গেছে যে বাইডেনের সঙ্গে একটা সেলফি তুলে এখন আপনি ঢোল পেটাচ্ছেন হ্যাঁ আমরা জিতে গেছি। জেতাবে তো বাংলাদেশের মানুষ। ভোটের মাধ্যমে, সেই ভোটটা ঠিকমতো হওয়ার ব্যবস্থা করেন। তা না হলে কোনো বাইডেন সরকার আপনাদের রক্ষা করতে পারবে না। সেলফিও রক্ষা করতে পারবে না।


আরও খবর