Logo
আজঃ Monday ০৮ August ২০২২
শিরোনাম
রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড নিখোঁজ সংবাদ প্রধানমন্ত্রীর এপিএসের আত্মীয় পরিচয়ে বদলীর নামে ঘুষ বানিজ্য

নাসিরসগরে বাথরুমের জায়গা নিয়ে সংঘর্ষে নিহত-১ আহত ২৫

প্রকাশিত:Monday ১৮ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ২৬১জন দেখেছেন
Image

মোঃ আব্দুল হান্নানঃ নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) সংবাদদাতাঃ-


ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার  নাসিরনগরে জোরপূর্বক জায়গা দখল করে বাথরুম নির্মাণকে কেন্দ্র করে দুই পরিবারের মধ্যে সংঘর্ষে আক্তার মিয়া(৩৯) নামে ১ যুবকের  মৃত্যু হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় নারীসহ উভয়পক্ষের আরো প্রায় ২৫ জন আহত হয়েছে বলে স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে।


১৭ জুলাই ২০২২ রোজ রবিবার দিবাগত রাত অনুমান সাড়ে ১১ ঘটিকার সময়  উপজেলার গুনিয়াউক ইউনিয়নের গুনিয়াউক গ্রামে এ সংর্ঘষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নিহত আক্তার মিয়া (৩৯) গুনিয়াউক গ্রামের খুরশেদ আলীর ছেলে।


আহতরা হলেন- একই গ্রামের দুলাল মিয়া, সরাজ মিয়া, মিলন মিয়া, বিল্লাল মিয়া, লায়েছ মিয়া, আলফাজ মিয়া, সবুজ মিয়া, ফারহান মিয়া, লিটন মিয়া, আরমান মিয়া, ফয়সাল মিয়া, শাহীন মিয়া, কামরুল মিয়া, রাজনাহার বেগম, মোছা রংমালা, লিয়াকত আলী, রত্না বেগম, নেকজাহান বেগম, মো. মাহবুব সরকার ও সুফিয়া বেগম।


স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, গুনিয়াউক গ্রামের মো. আক্তার মিয়া ও দুলাল মিয়া ২জন চাচাতো ভাই। এক মাস পূর্বে দুলাল মিয়ার জায়গা দখল করে আক্তার মিয়া ও তার লোকজন। দুলাল বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য মালেক সহ মুরব্বিদের অবগত করেন। এক সপ্তাহের মধ্যে জায়গা দখলমুক্ত করে দেওয়ার আশ্বাস দেয় ইউপি সদস্য মালেক ও স্থানীয় গণ্যমান্যরা ব্যাক্তিবর্গরা। কিন্তু সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও জায়গা দখলমুক্ত হয়নি। বরং দখলকরা জায়গার উপর দুটি বাথরুম নির্মাণ করে আক্তার মিয়া ও তার লোজনজন।



এ নিয়ে দুইপক্ষের মধ্যে আবারো বিরোধ দেখা দেয়।পরে আবারও স্থানীয়রা দুইপক্ষকে নিয়ে ১৯ জুলাই সকালে সালিশ করে বিষয়টি নিষ্পত্তি করার কথা বলে। কিন্তু আক্তার মিয়ার পক্ষের লোকজন সালিশের বিষয়টি অমান্য করে দখল বজায় রাখতে দুলাল মিয়ার পক্ষের লোকদের উপর অতর্কিত হামলা করে। পরে উভয়পক্ষের লোকজন সংর্ঘষে লিপ্ত হলে নারীসহ ২৫ জন আহত হয়। এই সংঘর্ষে গুরুতর আহত আক্তার মিয়াকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর  হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।


 এ বিষয়ে জানতে চাইলে নাসিরনগর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মো. হাবিবুল্লাহ সরকার বলেন জায়গার বিরোধ নিয়ে আপন চাচাতো ভাইদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে আক্তার মিয়া নিহত হয়েছেন বলে শুনেছি, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন।


আরও খবর



ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ন্ত্রণ ও হাঁটার পরিবেশ নিশ্চিতের দাবি

প্রকাশিত:Saturday ৩০ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ১৭জন দেখেছেন
Image

ব্যক্তিগত গাড়ির ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ এবং হেঁটে ও সাইকেলে যাতায়াতের সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করার মাধ্যমে জ্বালানি সংকট মোকাবিলায় উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন সম্ভব বলে মনে করছেন পরিবেশবাদীরা।

শনিবার (৩০ জুলাই) রাজধানীর শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন (পবা), প্রত্যাশা মাদকবিরোধী সংগঠন, মানবাধিকার উন্নয়ন কেন্দ্র, রায়ের বাজার উচ্চ বিদ্যালয়, ঢাকা আইডিয়াল ক্যাডেট স্কুল, ধানমন্ডি কচিকণ্ঠ হাইস্কুল, ছায়াতল বাংলাদেশ, দি ইনস্টিটিউট অব ওয়েলবিইং বাংলাদেশ, কারফ্রি সিটিস এলায়েন্স বাংলাদেশ, বাংলাদেশ ইউথ ক্লাইমেট নেটওয়ার্ক এবং ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্টের সম্মিলিত উদ্যোগে আয়োজিত ‘জ্বালানি সংকট মোকাবিলায় ব্যক্তিগত গাড়ির ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ করা হোক’ শীর্ষক অবস্থান কর্মসূচিতে তারা এ কথা বলেন।

এসময় বক্তারা আরও বলেন, শুধুমাত্র জ্বালানি অপচয় নয়, ব্যক্তিগত গাড়ির অধিক ব্যবহারের ফলে যানজট, শব্দ ও বায়ুদূষণ, দুর্ঘটনাসহ বিভিন্ন সমস্যা বৃদ্ধি পায়। অধিক জ্বালানি খরচের মাধ্যমে নগরের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং জলবায়ু বিপর্যয়ের আশঙ্কাও বেড়ে চলেছে। ব্যক্তিগত গাড়ির পার্কিং সুবিধা দিতে গিয়ে হেঁটে যাতায়াত, সামাজিকীকরণের সুযোগ থেকে জনগণ বঞ্চিত হচ্ছেন। জনগণের জীবনমান উন্নয়নের লক্ষ্যে সামগ্রিকভাবে নগর যাতায়াতে ব্যক্তিগত গাড়ির ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ করা প্রয়োজন। ঢাকা শহরে অধিকাংশ মানুষ হেঁটে যাতায়াত করে থাকেন। তাদের সুবিধার কথা বিবেচনায় হাঁটা, সাইকেল ও গণপরিবহনে যাতায়াতের নিরাপদ ও সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করা আবশ্যক।

তারা ব্যক্তিগত গাড়ির ব্যবহার নিয়ন্ত্রণে পদক্ষেপ গ্রহণ; শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যাতায়াতে ব্যক্তিগত গাড়ির ব্যবহার নিষিদ্ধ করা; স্বল্প দূরত্বে হেঁটে, সাইকেলে ও রিকশায় যাতায়াতের উপযোগী অবকাঠামো তৈরি করা; যাতায়াতের ক্ষেত্রে গণপরিবহনকে প্রাধান্য দিয়ে পরিকল্পনা গ্রহণ; পথচারীর উপযোগী করে ফুটপাত নির্মাণ ও রক্ষণাবেক্ষণ; সপ্তাহে একদিন ব্যক্তিগত গাড়ি চলাচল বন্ধ রাখার পদক্ষেপ গ্রহণ; ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ন্ত্রণে আমদানিকর বৃদ্ধি; ব্যক্তিগত গাড়িবান্ধব অবকাঠামো (এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে, ফ্লাইওভার) নির্মাণ থেকে বিরত থাকা- ইত্যাদি সুপারিশ তুলে ধরেন।

প্রত্যাশা মাদকবিরোধী সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হেলাল আহমেদের সভাপতিত্বে এবং ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্টের সহকারী প্রকল্প কর্মকর্তা মো. মিঠুনের সঞ্চালনায় কর্মসূচিতে মানবাধিকার উন্নয়ন কেন্দ্রের সভাপতি ও সিইও মাহবুবুল হক, ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্টের পরিচালক গাউস পিয়ারী, প্রজেক্ট ম্যানেজার নাঈমা আকতার, রায়ের বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক তাহাজ্জোত হোসেন, ঢাকা আইডিয়াল ক্যাডেট স্কুলের প্রধান শিক্ষক এমএ মান্নান মনির, ধানমন্ডি কচিকণ্ঠ হাইস্কুলের প্রতিষ্ঠাতা এইচ এম নুরুল ইসলাম, দি ইনস্টিটিউট অব ওয়েলবিইং বাংলাদেশের পলিসি অফিসার আনম মাছুম বিল্লাহ ভুঁঞা, কারফ্রি সিটিস এলায়েন্স বাংলাদেশের সুমাইয়া তাবাছ্ছুম সুহী, বাংলাদেশ ইউথ ক্লাইমেট নেটওয়ার্কের মাহমুদুল হাসানসহ আরও অনেকে বক্তব্য রাখেন।

এছাড়াও ছায়াতল বাংলাদেশসহ পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলনের (পবা) কর্মকর্তাবৃন্দ কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



জমকালো আয়োজনে পর্দা উঠলো কমওয়েলথ গেমসের

প্রকাশিত:Friday ২৯ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ২৩জন দেখেছেন
Image

বার্মিংহামের আলেক্সান্ডার স্টেডিয়ামে জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পর্দা উঠলো ২২তম কমনওয়েলথ গেমসের। অলিম্পিকের পর বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়াযজ্ঞে ৭২টি দেশের পাঁচ হাজারের বেশি ক্রীড়াবিদ অংশ নেবেন নিজেদের ক্রীড়ানৈপুণ্য প্রদর্শনের এই আয়োজনে।

এবারের কমনওয়েলথেও থাকছে বাংলাদেশের উপস্থিতি। গেমসে বাংলাদেশ অংশ নেবে ৭ ডিসিপ্লিনে। এর মধ্যে ৫ ডিসিপ্লিনের খেলোয়াড়-কর্মকর্তারা গেমসে অংশ নিতে বার্মিংহামে পৌঁছেছেন। শুক্রবার মাঠের লড়াইয়ের প্রথম দিনে বাংলাদেশ নামছে চার ডিসিপ্লিনে।

বৃহস্পতিবার রাতে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের অন্যতম বড় চমক ছিলেন শান্তিতে নোবেল বিজয়ী মালালা ইউসুফজাই। যিনি নিজের বক্তব্যে খেলাধুলার মাধ্যমে বিশ্ববাসীর মধ্যে বন্ধুত্ব স্থাপনের বিষয়টিকে স্বাগত জানিয়েছেন এবং শিক্ষার প্রতি গুরুত্ব আরোপ করেন।

jagonews24

এছাড়া ইংল্যান্ডের অলিম্পিকজয়ী ডাইভার টম ড্যালে সমকামিতার প্রতি সমর্থন প্রদর্শন করে একটি পারফর্ম করে দেখান। যার মাধ্যমে শেষ হয় কমনওয়েলথ গেমসের ব্যাটন রিলে। যদিও কমনওয়েলথের ৫৬টি দেশে রয়েছে সমকামিতা নিয়ে কড়াকড়ি ব্যবস্থা।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের অন্যতম চমক ছিলো প্রায় ১০ মিটার লম্বা ষাঁড়ের আগমন। তবে সরাসরি জীবন্ত বড় ষাঁড় স্টেডিয়ামে চলে আসেনি। অনুষ্ঠানের মাঝে কৃত্রিম এই ষাঁড়ের আগমন ঘটিয়ে বার্মিংহাম ও কমনওয়েলথের বাহারি সংস্কৃতির দিকটি তুলে ধরা হয়।

পরে অ্যাথলেটদের প্যারেডে নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড, স্কটল্যান্ড ওয়েলসকে স্বাদরে স্বাগত জানানো হয়। স্বাগতিক ইংল্যান্ড দল কনফেত্তির ভেলায় চড়ে প্যারেডে অংশ নেয়। এসময় ব্যাকগ্রাউন্ডে দর্শকরা গলা মেলান 'উই উইল রক ইউ' গানে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সাংস্কৃতিক আয়োজনের প্রায় পুরোটার দায়িত্বে ছিলেন পিকি ব্লাইডার্সের প্রতিষ্ঠাতা স্টিভেন নাইট। যিনি বিশ্বব্যাপী কোটি দর্শককে আগামী ১১ দিনের জন্য মনোমুগ্ধকর এক আয়োজনের আগাম বার্তাই দিয়ে রেখেছেন।

এবারের বার্মিংহাম কমনওয়েলথ গেমসের অন্যতম উল্লেখযোগ্য বিষয় হলো, সামাজিক পরিবর্তন। মালালা কিংবা ড্যালে ছাড়াও, যেকোনো ক্রীড়াবিদকে নিজ নিজ জায়গা থেকে ইতিবাচকভাবে সামাজিক পরিবর্তনের দিকটি বিবেচনার ব্যাপারে উৎসাহিত করা হচ্ছে।

jagonews24

প্রায় ৩০ হাজার দর্শকের সামনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের শুরুতেই বলা হয়, অন্ধকারের সময়ে আমরাই স্বপ্ন দেখার আলো বহন করবো। যা আমাদের সবাইকে একত্রিত করবে। গেমসের সর্বশেষ আসরের চেয়ে ১৮৯ মিলিয়ন পাউন্ড কম খরচ হচ্ছে বার্মিংহামে। এই আসরের বাজেট ৭৭৮ মিলিয়ন পাউন্ড।

মনোমুগ্ধকর আয়োজনের অন্যতম আকর্ষণ ছিল অসংখ্য গাড়ির নাচ। সবাইকে চমকে দিয়ে স্টেডিয়ামে প্রবেশ করে উইলিয়াম শেকসপিয়ারের প্রায় ৪ মিটার লম্বা পুতুল। এছাড়া আরও তিনটি বিশাল আকৃতির পুতুল নেওয়া হয় স্টেডিয়ামে। যেগুলো আলো-আধারের অদ্ভুত সংমিশ্রণ ঘটানো হয়।

উল্লেখ্য, শুক্রবার মাঠের লড়াইয়ের প্রথম দিনে বাংলাদেশ নামছে চার ডিসিপ্লিনে। সকাল ৯টায় জিমন্যাস্টিকসে পুরুষদের দলীয় এবং একক বাছাই পর্বের খেলা শুরু হবে বার্মিংহাম অ্যারেনায়। জিমন্যাস্টিকসে বাংলাদেশের খেলবেন শিশির আহমেদ, আবু সাইদ রাফি ও নিউজিল্যান্ড প্রবাসী আলি কাদের হক।

একই সময়ে পুরুষ টেবিল টেনিস দলের বাছাই পর্বও শুরু হবে। একই দিনে হবে বাছাই পর্বের প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় ধাপ। বাংলাদেশ টেবিল টেনিস দলে খেলোয়াড়রা হলেন- রামহিম লিয়ন বুম, মুহতাসিন আহমেদ হৃদয়, রিফাত মাহমুদ সাব্বির ও মুফরাদুল খায়ের হামজা।

jagonews24

স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টা থেকে স্যান্ডওয়েল অ্যাকুয়াটিকস সেন্টারে শুরু হয়ে যাবে সাঁতারের বাছাইপর্ব। বাংলাদেশের পুরুষ সাঁতারু মাহমুদ-উন নবী নাহিদ অংশ নিচ্ছেন ৫০ মিটার বাটারফ্লাই ইভেন্টে। নারী সাঁতারু মরিয়ম আক্তার অংশ নিচ্ছেন ৫০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে। দুজনেরই হিট সাড়ে ১০টা থেকে সাড়ে ১২টার মধ্যে।

খেলা শুরুর দিনেই রিং-এ নামবেন বাংলাদেশের তিন বক্সার। হোসেন আলী অংশ নেবেন ওয়েল্টারওয়েইট ওজন শ্রেণিতে, সুরো কৃষ্ণ চাকমা অংশ নেবেন লাইট ওয়েল্টারওয়েইট ওজন শ্রেণিতে, সেলিম হোসেন অংশ নেবেন ফেদারওয়েইট ওজন শ্রেণিতে। তিনজনেরই খেলা শুরু হবে 'রাউন্ড অব থার্টি টু' দিয়ে।


আরও খবর



বিয়ের দাবিতে ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে তরুণী, ধর্ষণ মামলা

প্রকাশিত:Sunday ৩১ July ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ০৭ August ২০২২ | ২৮জন দেখেছেন
Image

রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার হারাগাছে বিয়ের দাবিতে শারাফাত হোসেন সোহাগ নামের এক ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে অবস্থান নিয়েছেন এক তরুণী (২২)। শনিবার (৩০ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৪টা থেকে হারাগাছ পৌর এলাকার মিয়াপাড়ায় শারাফাতের বাসায় অবস্থান নেন ওই তরুণী। পরে রাত সাড়ে ৮টার দিকে তাকে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

ওই তরুণী রংপুর সরকারি কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। পাশাপাশি রংপুর আইন কলেজে প্রথম বর্ষে অধ্যয়নরত। প্রেমিক শারাফাত হোসেন সোহাগ মোশাররফ হোসেনের ছেলে এবং হারাগাছ সরকারি কলেজের অনার্স শেষ বর্ষের ছাত্র। এছাড়া তিনি ওই কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি।

বিয়ের দাবিতে অবস্থান নেওয়া তরুণী জানান, প্রায় দেড় বছর ধরে তাদের প্রেমের সম্পর্ক। বিভিন্ন সময় তারা শারীরিক সম্পর্কেও লিপ্ত হন। একপর্যায়ে বিয়ের জন্য চাপ দিলে প্রেমিক সোহাগ টালবাহানা করতে থাকেন। এ অবস্থায় তিনি জানতে পারেন সোহাগ অন্য জায়গায় বিয়ে করেছেন। উপায় না পেয়ে শনিবার বিকেলে সোহাগের বাড়িতে গিয়ে বিয়ের দাবিতে অবস্থান নেন তিনি।

এ সময় সোহাগের পরিবারের সদস্যরা তাকে মারধর করেন বলেও অভিযোগ করেন তরুণী। এদিকে ঘটনার পর থেকে গা ঢাকা দিয়েছেন সোহাগ। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তরুণীকে থানায় নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের হারাগাছ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম জাগো নিউজকে বলেন, ওই তরুণীকে নিরাপত্তার স্বার্থে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে রাখা হয়েছে। তিনি বাদী হয়ে ধর্ষণ মামলা করেছেন। আজ তার মেডিকেল পরীক্ষা সম্পন্ন করা হবে।


আরও খবর



বিয়েতে খুশি নন, স্বামীসহ মেয়েকে হত্যা করলেন বাবা

প্রকাশিত:Tuesday ২৬ July ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ০৭ August ২০২২ | ১৩৬জন দেখেছেন
Image

বাবার হাতে নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন মেয়ে এবং তার স্বামী। মাত্র কয়েকদিন আগেই তাদের বিয়ে হয়েছে। কিন্তু এই বিয়েতে ওই তরুণীর বাবা খুশি ছিলেন না। তার মতের বিরুদ্ধে বিয়ে করায় নিজের মেয়ে এবং জামাইকে হত্যা করেছেন তিনি। এই ঘটনা ঘটেছে ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যে। এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, পরিবারের অমতে বিয়ে করায় এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। থোথুকুদি জেলার বন্দর নগরী তুতিকোরিনে এই বর্বর হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

ওই তরুণী পালিয়ে বিয়ে করার পর তার পরিবার তাকে নিখোঁজ দেখিয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করে। পরবর্তীতে মাদুরাই থানায় ওই দম্পতি হাজির হয়ে জানান যে, তারা প্রাপ্তবয়স্ক এবং নিজেদের ইচ্ছায় বিয়ে করেছেন।

থানায় উপস্থিত থাকা অবস্থায় ওই তরুণী তার বাবা-মাকে ভিডিও কল দিয়ে কথা বলেন। কিন্তু তার বাবা-মায়ের এ নিয়ে ক্ষোভ ছিল। গ্রামের বয়স্করাও তার পরিবারকে অনেক বুঝিয়েছে যেন তারা ওই দম্পতির কোনো সমস্যা না করে।

ওই দম্পতি একটি বাসা ভাড়া করে থাকতে শুরু করেছিলেন। সেখানেই তাদের হত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়। মেয়ে এবং জামাইকে হত্যার পর নিজেই পুলিশের কাছে আত্মসমর্পন করেন ওই তরুণীর বাবা।

আত্মীয়র মধ্যেই বিয়ে করেছিলেন ওই তরুণী। সে কলেজ শিক্ষার্থী ছিল। কিন্তু তার স্বামী স্কুলের পাঠ শেষ করার পর আর পড়াশোনা করেনি। এটাই ওই তরুণীর পরিবার মেনে নিতে পারেনি। পুলিশ জানিয়েছে, এই ঘটনার তদন্ত চলছে।


আরও খবর



আজও আদালতে তোলা হবে পার্থ-অর্পিতাকে

প্রকাশিত:Friday ০৫ August ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ০৭ August ২০২২ | ২৮জন দেখেছেন
Image

পশ্চিমবঙ্গে নিয়োগ কেলেঙ্কারির ঘটনায় সাবেক মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ইডি হেফাজতের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আজ। তাই কোনও সময় নষ্ট না করে আজ সকাল থেকেই তাকে জেরা করা শুরু করেছে ইডি।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) আড়াই ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে জেরা করা হয় পার্থ-অর্পিতাকে। কিন্তু মুখে কুলুপ এঁটে আছেন প্রাক্তন মন্ত্রী, তদন্তে কোন সহযোগিতা করছেন না।

ইডি সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার আড়াই ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে জেরা করা হয় পার্থ-অর্পিতাকে। মুখোমুখি জেরা করার পরে তাদের পৃথকভাবেও জেরা করা হয়েছে। এ দিনের জেরায় উঠে এসেছে অপা ইউটিলিটিজ সার্ভিসেস কোম্পানির কথাও। তবে জেরাতে কোন রকম সহযোগিতা করছে না পার্থ। তবে জেরায় সহযোগিতা করেছেন অর্পিতা মুখোপাধ্যায়।

সূত্রের খবর, আজ কিছু সিডি আদালতে জমা দেবেন ইডি কর্মকর্তারা। আর সেখানে থাকা নতুন তথ্যের ভিত্তিতে আবারও তাদের হেফাজতে চাইতে পারে ইডি।

আজ আদালতে পেশের আগে আবারও মেডিকেল টেস্ট হবে পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের। ফলে কিছুক্ষণের মধ্যেই তাদের সিজিও কমপ্লেক্স থেকে বের করে জোকা ইএসআই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হবে মেডিকেল টেস্টের জন্য। তারপর সেখান থেকে তাদের কলকাতা নগর দায়রা আদালতে পেশ করা হবে।

সূত্র: আনন্দবাজার, নিউজ ১৮ বাংলা।


আরও খবর